Bartaman Patrika
চাষ আবাদ
 

 অশ্বগন্ধা চাষ করতে হলে মাঠে নামতে হবে চলতি মাসেই

প্রসেনজিৎ সরকার, শিলিগুড়ি: শিলিগুড়ি মহকুমায় অশ্বগন্ধা চাষে আগ্রহীদের সেপ্টেম্বর মাস থেকে জমি তৈরির উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। উর্বর-অনুর্বর উভয় জমিতে অশ্বগন্ধা চাষ করা যায়। বিশেষজ্ঞদের দাবি, ভেষজ জাতীয় এই গাছ বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধের ক্ষেত্রে উপকারী। অক্টোবর ও নভেম্বর মাস এই গাছের চারা লাগানোর উপযুক্ত সময়। চারা লাগানোর আগে জমি তৈরি করা হলে সহজেই উৎপাদন বাড়ানো সম্ভব।
জেলা উদ্যানপালন আধিকারিক সাত্যকি মণ্ডল বলেন, খড়িবাড়ি ব্লকের বিন্নাবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েত ও ফাঁসিদেওয়ার ব্লকের ভামনাগছ, বুমগছ গ্রাম পঞ্চায়েতে অশ্বগন্ধার চাষ হচ্ছে। আগ্রহীরা জমিতে কিংবা চাষবাস সংক্রান্ত বিষয় জানতে চাইলে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন।
কৃষি বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, উত্তরবঙ্গের ডুয়ার্স ও তরাই অঞ্চলের আবহাওয়া অশ্বগন্ধা চাষের পক্ষে উপযোগী। ব্যবসায়িকভাবে চাষের পক্ষে আদর্শ।
ভালো ফলন পেতে হলে চারা রোপণের আগে সেপ্টেম্বর থেকে জমি তৈরি করতে হবে। তৈরি জমিতে বিঘা প্রতি ৪ টনের মতো গোবর সার ও জৈবসার মাটিতে ভালো করে মিশিয়ে দিতে হবে। অথবা প্রতি গর্তে ৫০০ গ্রামের মতো সারের মিশ্রণ দিয়ে গাছ রোপণ করতে হবে। গাছ রোপণের পর ভালো করে সেচের ব্যবস্থা করতে হবে। তাছাড়া সরাসরি বিঘা প্রতি ১ কিলোগ্রাম বীজ ছিটিয়ে চাষ করা যেতে পারে। তবে এই পদ্ধতিতে জমির আগাছা পরিষ্কার ও পরিচর্যার খরচ তুলনামূলকভাবে বেশি। উঁচু কিংবা ডাঙাজমিতে চাষ হলে সেখানে নিকাশির ব্যবস্থা রাখতে হবে। তবে আলো বাতাসযুক্ত বেলে বা দোঁয়াশ মাটিতে অশ্বগন্ধার উৎপাদন‌‌ ভালো হয়।
জমিতে অম্লত্ব ৬.৫ থেকে ৭.৫ হলে অশ্বগন্ধা ভালো জন্মায়। তবে মাটিতে অম্লত্বর পরিমাণ ৬.৫-এর কম হলে বিঘা প্রতি ১২৫ কেজি চুন বা ডলোমাইট ব্যবহার করা যেতে পারে। উষ্ণ ও শুকনো আবহাওয়া অশ্বগন্ধা চাষের পক্ষে আদর্শ। জমিতে বীজতলা থেকে চারা তুলে গাছ থেকে গাছের দূরত্ব ৩০ সেমি ও সারি থেকে সারির দূরত্ব ৪৫ সেমি রাখতে হবে। তবে জমিতে যাতে জল না জমে থাকে সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে। চারা লাগানোর পরে গাছের উচ্চতা ২ থেকে ৪ ইঞ্চি হলে প্রতি সপ্তাহে সেচ দিতে হবে। গাছের বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে সেচের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।
মাটিতে রসের প্রয়োজন অনুযায়ী সেচ দিতে হবে। আগাছা পরিষ্কার করতে হবে। রোগপোকা দমনেও কীটনাশক ব্যবহার করা যাবে না। নিমতেল বা সেই ধরনের জৈব কীটনাশক ব্যবহার করা যেতে পারে। অশ্বগন্ধা ভেষজ জাতীয় উদ্ভিদ হওয়ায় এই চাষের ক্ষেত্রে কোনও ওষুধ প্রয়োগ করা যাবে না। গাছের মধ্যে রাসায়নিক সারও ব্যবহার করা যাবে না। তবে জৈবসার, কেঁচোসার বা সবুজসার ব্যবহার করা যেতে পারে।

11th  September, 2019
পুরুলিয়ায় ৫০ হাজার হেক্টর জমিতে বিকল্প চাষে উদ্যোগী জেলা কৃষিদপ্তর

রুখাশুখা জেলা পুরুলিয়া। জলের অভাবে এই জেলায় সব জমিতে ধান চাষ হয় না। তাই জেলায় ব্যাপক হারে বিকল্প চাষ করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বিশদ

30th  November, 2020
শীতের কামড় থেকে ফসল
বাঁচাতে শেডনেটে পানচাষ 

প্রথাগত পদ্ধতি ছেড়ে এবার শেডনেটে পানচাষে জোর দিচ্ছে উদ্যানপালন দপ্তর। আধুনিক এই প্রযুক্তির ব্যবহারে একদিকে যেমন পানের গুনগত মান ভালো হবে, সংখ্যায় বেশি মিলবে পাতা, তেমনই রোগপোকার হাত থেকে রক্ষা পাবে বরজ। এমনটাই বলছেন উদ্যানপালন আধিকারিকরা। কৃষিভিত্তিক ক্লাস্টারের মাধ্যমে ক্ষুদ্র ব্যবসায় গুরুত্ব দিচ্ছে রাজ্য। 
বিশদ

25th  November, 2020
শীত পড়লেও চাহিদা নেই
মরশুমি ফুলের চারার 

সংবাদদাতা: শীত পড়লেও এখনও পর্যন্ত মরশুমি ফুলের চারার চাহিদা নেই। এতেই কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে পূর্বস্থলীর চাষিদের। এছাড়া ট্রেনের কামরায় ফুল বিক্রেতাদের উঠতে না দেওয়ায় ভিন রাজ্যেও যেতে পারছেন না বিক্রেতারা। ফলে নার্সারি থেকেও তাঁরা চারা কিনছেন না। চাষিদের দাবি, এই মরশুমেও প্রচুর টাকা খরচ করে ফুলের চারা তৈরি হয়েছিল। এখন শীতের শুরুতেই মাঠে ফুলের চারা ভালো বাড়ে। 
বিশদ

25th  November, 2020
এবার বাড়তি সতর্কতার
সঙ্গে গম চাষের পরামর্শ 

শীর্ষেন্দু দেবনাথ, কৃষ্ণনগর: নিষেধাজ্ঞা উঠলেও এবারও বাড়তি সতর্কতার সঙ্গে গম চাষ করার পরামর্শ দিচ্ছে নদীয়া জেলার কৃষিদপ্তর। জেলা কৃষিদপ্তর সূত্রের খবর, নির্দিষ্ট কিছু জাতের বীজ সংগ্রহ করার ব্যাপারে চাষিদের ইতিমধ্যেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বলা হয়েছে, শোধন করেই বীজ বুনতে হবে। 
বিশদ

25th  November, 2020
আমন উঠছে, বিক্রির চিন্তায় চাষিরা 

সংবাদদাতা, লালবাগ: ফলন আশানুরূপ হয়েছে। যেদিকে তাকানো যায় চোখে পড়ে মাঠ ভর্তি সোনালি ধান। তা সত্ত্বেও দুশ্চিন্তায় রয়েছেন নবগ্রাম ব্লকের ধান চাষিরা। করোনা মহামারীর জেরে ব্লকের অধিকাংশ চাষির বোরো ধান এখনও বিক্রি হয়নি। ঘরে বস্তাবন্দি হয়ে পড়ে রয়েছে। 
বিশদ

25th  November, 2020
গ্ল্যাডিওলাস ফুল চাষে আগ্রহ
বাড়ছে দক্ষিণ দিনাজপুরের চাষিদের

শীতকালে রজনীগন্ধা ফুলের চাষ তো দক্ষিণ দিনাজপুরে আগে থেকেই জনপ্রিয়। সেইসঙ্গে এখন পাল্লা দিয়ে জনপ্রিয়তা বাড়ছে গ্ল্যাডিওলাস ফুলের চাষেরও। জেলার অনেক জায়গাতেই অন্যান্য সব্জির সঙ্গেই এই ফুল চাষ করছেন অনেকে। ধান, গম, পাট সহ অন্যান্য অর্থকরী ফসলের মতোই গ্ল্যাডিওলাস ফুল চাষেও লাভের মুখ দেখছেন এখানকার চাষিরা। বিশদ

11th  November, 2020
সারাবছরই চাহিদা থাকে বাজারে,
লাভজনক ফ্রেঞ্চ বিন চাষ 

ফ্রেঞ্চ বিন অত্যন্ত লাভজনক একটি চাষ। এই বিনের চাষ করলে কৃষকরা অন্যান্য ফসলের থেকে অনেকটাই বেশি লাভ পাবেন, এমনটাই জানিয়েছেন কৃষি আধিকারিকরা। তাঁরা বলেছেন, বাজারে বিনের চাহিদা সারা বছর ধরেই থাকে এবং দামও ভালোই পাওয়া যায়। বিশদ

11th  November, 2020
চাষে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারে উৎসাহ পূর্ব মেদিনীপুরে
কীটনাশকের প্রয়োগ বন্ধ করতে 
বিনামূল্যে মিলছে সোলার ট্র্যাপ 

ফসলে শত্রুপোকা দমনে এবং পরিবেশবান্ধব আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারে উৎসাহিত করতে পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় চাষিদের বিনামূল্যে ‘সোলার ট্র্যাপ’ যন্ত্র দিচ্ছে রাজ্য সরকার। ধান, সব্জি ও ফুলচাষে ব্যাপকহারে কীটনাশকের ব্যবহার রুখতে এই প্রথম আতমা প্রকল্পের মাধ্যমে চাষিদের হাতে পোকামাকড় ধরার নয়া যন্ত্র তুলে দিল কৃষিদপ্তর। বিশদ

11th  November, 2020
জীবাণুসার প্রয়োগে বাড়বে ফলন
কৃষকদের ঘরে উঠবে বাড়তি লাভ

ভালো ফলন পেতে জমিতে জীবাণুসার প্রয়োগ জরুরি। বলছেন কৃষি আধিকারিকরা। তাঁরা জানাচ্ছেন, সঠিক সময়ে ও সুপারিশকৃত মাত্রায় জীবাণুসার প্রয়োগে ১০-১৫ শতাংশ ফলন বৃদ্ধি করা সম্ভব।  বিশদ

11th  November, 2020
চাহিদা তুঙ্গে, জোগান বাড়াতে
আরামবাগে বাদাম বীজ চাষ 

সুদেব দাস, আরামবাগ: অতিবৃষ্টির কারণে গত বছর বাদাম চাষে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছিল। বাদামের রঙের উজ্জ্বলতা হারিয়ে কালো হয়ে গিয়েছিল। তাই খোলাবাজারে চাহিদা থাকলেও, ভালো মানের বাদামের জোগান দিতে পারেননি চাষিরা। পুজোর পরে আরামবাগ মহকুমাজুড়ে শুরু হবে বাদাম চাষ। তবে এবার ভালো ফলন পেতে এখন থেকেই বাদাম চাষে বাড়তি জোর দিচ্ছেন চাষিরা।   বিশদ

23rd  September, 2020
টবেই ১৮ মাসে
ড্রাগন ফল 

নিজস্ব প্রতিনিধি: টবেই ফলানো যাবে ড্রাগন ফ্রুট। ১৮ মাসের গাছেই মিলবে ফল। এমনটাই জানাচ্ছেন উদ্যানপালন আধিকারিকরা।
ক্যাকটাস গোত্রের এই ফল চাষে ঝক্কি নেই বললেই চলে।   বিশদ

23rd  September, 2020
নাকাশিপাড়ায় ফ্রেঞ্চ বিন চাষ
করে স্বনির্ভর হচ্ছেন যুবকরা 

শীর্ষেন্দু দেবনাথ, কৃষ্ণনগর: বেকার যুবকদের জীবন বদলে দিচ্ছে ফ্রেঞ্চ বিন চাষ। নদীয়ার নাকাশিপাড়ার পাটিকাবাড়ির তাঞ্জির মণ্ডল, চিচুড়িয়ার সাজিদুর রহমান এখন আত্মবিশ্বাসী। একবছর আগে প্রথম এই চাষ শুরু করেছিলেন তাঁরা। বেশ ভালো লাভ হয়েছিল।   বিশদ

23rd  September, 2020
ইংল্যান্ডের হারানো বাজার ধরতে
সবংয়ে জৈব পদ্ধতিতে পান চাষ 

হরিহর ঘোষাল, মেদিনীপুর: একটা সময় সবং থেকে বিপুল পরিমাণ পান রপ্তানি হতো ইংল্যান্ডে। বছর চারেক আগে তাতে ছেদ পড়ে। সালমোনেলা নামে এক ধরনের ব্যাক্টেরিয়ার প্রকোপ দেখা দেয় পানে। তার জেরে সবংয়ের পান তো বটেই, এ রাজ্যের পান নেওয়া বন্ধ করে দেয় ইংল্যান্ড। সেই হারানো বাজার ফিরে পেতে এবার সবংয়েরই একদল চাষি সম্পূর্ণ জৈব পদ্ধতিতে পান চাষের উদ্যোগ নিয়েছেন।   বিশদ

23rd  September, 2020
ছাদের ট্যাঙ্কে অনায়াসেই পছন্দের মাছ চাষ 

ব্রতীন দাস: মাছ চাষের জন্য এখন আর পুকুরের দরকার নেই। বাড়ির ছাদে ট্যাঙ্কেই পছন্দমতো মাছ চাষ করা সম্ভব। মৎস্য বিজ্ঞানীরা বলছেন, যেভাবে দ্রুত নগরায়ণ হচ্ছে, তাতে কমছে জলাশয়। আবার প্রোটিন সমৃদ্ধ খাদ্য হিসেবে বাড়ছে মাছের চাহিদা।   বিশদ

23rd  September, 2020

Pages: 12345

একনজরে
সংবাদদাতা, দিনহাটা: এক বছর আগে মৃত্যু হয়েছে মায়ের। গরিব, অসহায় ছেলে সরকারি সুবিধার আশায় মায়ের মৃত্যুর সরকারি নথির জন্য হন্যে হয়ে ঘুরছেন বছরভর। এখনও মেলেনি ডেথ সার্টিফিকেট।   ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্ধমান: ভাঙা রাস্তায় মর্নিং ওয়াকে বেরিয়ে হোঁচট খাচ্ছেন বৃদ্ধ-বৃদ্ধারা। বাচ্চাদের নিয়ে অত্যন্ত সাবধানে যাতায়াত করতে হয়। বেহাল রাস্তায় গাড়ির গতি একটু বেশি হলেই রয়েছে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা।  ...

চীন সহ যে কোনও দেশের হুমকি মোকাবিলায় প্রস্তুত ভারতীয় নৌবাহিনী। বৃহস্পতিবার নৌসেনা দিবস উপলক্ষে এক সাংবাদিক বৈঠকে এমনটাই জানিয়েছেন ভারতীয় নৌবাহিনীর প্রধান অ্যাডমিরাল করমবীর সিং। ...

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটে ভালো ফল করাই এখন লক্ষ্য টিম ইন্ডিয়ার। একদিনের সিরিজের ব্যর্থতা থেকে শিক্ষা নিয়ে দলকে আরও শক্তপোক্ত করার চেষ্টা করবেন বলে ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

অতি সত্যকথনের জন্য শত্রু বৃদ্ধি। বিদেশে গবেষণা বা কাজকর্মের সুযোগ হতে পারে। সপরিবারে দূরভ্রমণের যোগ। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

ভারতীয় নৌ দিবস
১১৩১- পারস্যের কবি ও দার্শনিক ওমর খৈয়ামের মৃত্যু
১৮২৯- সতীদাহ প্রথা রদ করলেন লর্ড বেন্টিঙ্ক
১৮৮৪- ঐতিহাসিক রমেশচন্দ্র মজুমদারের জন্ম
১৯১০- ভারতের ষষ্ঠ রাষ্ট্রপতি আর বেঙ্কটরামনের জন্ম
১৯২৪- মুম্বইয়ে গেটওয়ে অব ইন্ডিয়ার উদ্বোধন হল
১৯৭৭- ক্রিকেটার অজিত আগরকরের জন্ম  



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৯৯ টাকা ৭৪.৭০ টাকা
পাউন্ড ৯৭.১৫ টাকা ১০০.৫৫ টাকা
ইউরো ৮৭.৯২ টাকা ৯১.১০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫০, ০৬০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৭, ৫০০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৮, ২১০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৩, ৬০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৩, ৭০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০, চতুর্থী ৩৪/৫৫ রাত্রি ৮/৪। পুনর্বসু নক্ষত্র ১৮/৫২ দিবা ১/৩৯। সূর্যোদয় ৬/৬/৩, সূর্যাস্ত ৪/৪৭/৩৯। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪৮ মধ্যে পুনঃ ৭/৩২ গতে ৯/৪০ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৮ গতে ২/৩৯ মধ্যে পুনঃ ৩/২৩ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৫/৪১ গতে ৯/১৪ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ৩/২৭ মধ্যে পুনঃ ৪/২০ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৮/৪৫ গতে ১১/২৬ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৬ গতে ৯/৪৬ মধ্যে।
১৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০, চতুর্থী রাত্রি ৫/৪৫। পুনর্বসু নক্ষত্র দিবা ১২/২৮। সূর্যোদয় ৬/৭, সূর্যাস্ত ৪/৪৮। অমৃতযোগ দিবা ৭/২ মধ্যে ও ৭/৪৪ গতে ৯/৫০ মধ্যে ও ১১/৫৭ গতে ২/৫১ মধ্যে ও ৩/২৭ গতে ৪/৪৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪৫ গতে ৯/২১ মধ্যে ও ১২/৩ গতে ৩/৩৮ মধ্যে ও ৪/৩২ গতে ৬/৮ মধ্যে। বারবেলা ৮/৪৭ গতে ১১/২৮ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৮ গতে ৯/৪৮ মধ্যে। 
১৮ রবিয়ল সানি।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আইএসএল: চেন্নাইকে ১-০ গোলে হারাল বেঙ্গালুরু 

09:32:56 PM

আইএসএল: চেন্নাই ০ বেঙ্গালুরু ১ (৫৫ মিনিট) 

08:52:01 PM

ফ্রান্সে বিজয় মালিয়ার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত
ফ্রান্সে বিজয় মালিয়ার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল ইডি। যার আনুমানিক মূল্য ...বিশদ

07:31:00 PM

প্রথম টি-২০: অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ১১ রানে জিতল ভারত

05:33:31 PM

পূর্ব মেদিনীপুরের নতুন পুলিস সুপার প্রবীণ প্রকাশ 
মাত্র পাঁচ মাসের ব্যবধানে বদলি হলেন পূর্ব মেদিনীপুরের পুলিস সুপার ...বিশদ

05:30:18 PM

প্রথম টি-২০: অস্ট্রেলিয়া ১১৩/৪ (১৫ ওভার) 

05:08:30 PM