Bartaman Patrika
চাষ আবাদ
 

 অসময়ে বাজার ধরতে শরতে তরমুজ চাষ, ৬০ দিনেই ফলন

ব্রতীন দাস: তরমুজ মূলত গরমের ফল। কিন্তু, শরতেও তরমুজ ফলিয়ে বাড়তি লাভ পেতে পারেন কৃষকরা। ছটপুজোর কথা মাথায় রেখে আগাম বাজার ধরতে অসময়ে তরমুজের ভালোই চাহিদা থাকে। হাইব্রিড বিভিন্ন প্রজাতির সুবাদে পলি-মালঞ্চিং করে শরৎকালে তরমুজ ফলানো সম্ভব হচ্ছে। উদ্যানপালন আধিকারিকরা জানিয়েছেন, অসময়ের তরমুজ হিসেবে মূলত সুগার কিং, সুগার কুইন, কিরণ, সরস্বতী, বিশালা, ম্যাক্স, কৃষ্ণা, অর্জুন-এর মতো উন্নতমানের প্রজাতি রয়েছে। এসব প্রজাতির ফলন বেশি। নদীয়ার ঝিকরা, হুগলির ধনিয়াখালি, পশ্চিম মেদিনীপুরের গোপীবল্লভপুর এলাকায় প্রচুর জমিতে অসময়ের তরমুজ চাষ হচ্ছে। লাভের পরিমাণ বেশি থাকায় বহু কৃষক শরৎকালে তরমুজ ফলাতে উৎসাহী হচ্ছেন। সরাসরি জমিতে বীজ বোনা যেতে পারে। নতুবা প্লাস্টিক ট্রে, চায়ের প্লাস্টিক কাপে কিংবা পলি টানেলে চারা তৈরি করে নেওয়া যেতে পারে। পরে ওই চারা জমিতে লাগানো যায়। এতে বর্ষায় চারা নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা থাকে না।
উদ্যানপালন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অসময়ের তরমুজে শোষক পোকা, ফলছিদ্রকারী পোকা, ধসা বা পচন দেখা দিতে পারে। প্রতিরোধে আগাম ব্যবস্থা নেওয়া দরকার। ফল ছিদ্রকারী পোকার আক্রমণ দেখা দিলে জমিতে ফেরোমোন ফাঁদ বসানো যেতে পারে। না হলে ঝোলা গুড় কিংবা রসগোল্লার গাদের সঙ্গে কীটনাশক মিশিয়ে বিষটোপ তৈরি করা যেতে পারে। তরমুজের আকার ও গুণমান বাড়াতে অনুখাদ্য প্রয়োগ করতে পারেন কৃষক।
তরমুজ মূলত বালি-পলি মাটিতে চাষ হয়। কিন্তু, পলি মালঞ্চিং পদ্ধতিতে এখন এঁটেল মাটিতেও তরমুজ ফলানো সম্ভব হচ্ছে। বিঘায় অনায়াসেই চার টন ফলন পাওয়া যায়। প্রতি টন তরমুজ বিক্রি করে দাম পাওয়া যায় ২০ হাজার টাকা। ৫০ শতাংশ জৈব ও ৫০ শতাংশ রাসায়নিক সার দিয়ে জমি তৈরি করে নিতে হবে। বীজ লাগানোর ৬৫-৭০ দিনের মাথায় ফল দিতে শুরু করবে। জমিতে বেড তৈরি করে বীজ বুনতে হবে। মাঝে সেচের জল দেওয়ার জন্য নালা কেটে দিতে হবে। মালঞ্চিংয়ের পলিথিন দিয়ে বেড ঢেকে দেওয়ার পর নির্দিষ্ট দূরত্ব অন্তর বীজ বুনতে হবে। প্রতিটি মাদায় দু’টি করে বীজ বোনা যেতে পারে। যেখানে বীজ বোনা হবে, সেখানে পলিথিন ছিদ্র করে দিতে হবে। এক-একটি গাছ থেকে একাধিক শাখা বের হয়। সেখান থেকে তিনটি ভালো শাখা রেখে বাকিগুলি ভেঙে দিতে হবে। তাতে গাছ পুষ্ট হবে। তরমুজের সাইজ বড় হবে। আড়াই থেকে তিন কেজি করে ওজন হবে এক-একটি তরমুজের।
মালঞ্চিংয়ের পলিথিনের উপরের দিকটা স্টিল রঙের, নীচের দিক কালো রঙের হয়। স্টিল রং শোষক পোকাকে বিকর্ষণ করে। ফলে পলি-মালঞ্চিংয়ের মাধ্যমে চাষ করলে জমিতে শোষক পোকার আক্রমণ কম হয়। তাছাড়া সেচের জল, সার কম লাগে। স্বাভাবিকভাবে চাষের খরচ অনেকটাই কমে যায়। ফলনও বাড়ে। চারা যখন ছোট থাকে, তখন ছোট ছোট লাল পোকার আক্রমণ হয়।
ওই পোকা দমনে এক লিটার জলে দুই মিলিলিটার ডাইমিথোয়েট মিশিয়ে প্রয়োগ করা যেতে পারে। তরমুজের জমিতে জল দাঁড়িয়ে গেলে গাছ মরে যাবে। আবার জমিতে জলও থাকতে হবে। সেকারণে জমিতে যাতে জলনিকাশি ব্যবস্থা ঠিক থাকে, সেদিকে নজর রাখতে হবে বলে জানাচ্ছেন উদ্যানপালন বিশেষজ্ঞরা।

11th  September, 2019
খরিফে লাল-কাঁকুরে মাটিতে
চিনাবাদাম চাষে ভালোই লাভ

নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলে লাল-কাঁকুরে মাটিতে চিনাবাদাম চাষ করে লাভের মুখ দেখতে পারেন কৃষকরা। এপ্রিলের শুরুতেই চিনাবাদাম চাষের প্রস্তুতি নিতে হবে। গত বছর পুরুলিয়ার নিতুড়িয়া ব্লকে চিনাবাদাম চাষ করে সাফল্য পেয়েছেন চাষিরা। ফলে এবছরও তাঁরা এই চাষে আগ্রহী। এপ্রিলের প্রথমে চিনাবাদাম বুনলে জুলাইয়ে ফসল উঠে যাবে। 
বিশদ

18th  March, 2020
এপ্রিলে বুনুন বেবিকর্নের বীজ
চাষে বাড়ছে ঝোঁক, মিলবে দাম  

নিজস্ব প্রতিনিধি: সারা বছর ধরেই বেবিকর্ন চাষ করা যায়। তবে চাষিরা জানুয়ারি থেকে অক্টোবর পর্যন্ত এই ফসলটি বুনে থাকেন। এপ্রিল-মে মাসে বেবিকর্ন বুনলে ভালো ফলন পাওয়া যায়। কৃষি বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, জল জমে না এমন জমিতে বেবিকর্ন চাষ করতে হবে। বেলে-দোঁয়াশ মাটি এই ফসলটি চাষের জন্য উপযুক্ত।
বিশদ

18th  March, 2020
কাঁথিতে সূর্যমুখী চাষে উৎসাহ বাড়ছে কৃষকদের 

রঞ্জন পাল, কাঁথি: কাঁথি মহকুমা এলাকায় সূর্যমুখী চাষে চাষিদের মধ্যে উৎসাহ বাড়ছে। মহকুমায় ১৫০ একরের কিছু বেশি জায়গা জুড়ে সূর্যমুখী চাষ হয়। কৃষি দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, মহকুমার কাঁথি-৩, খেজুরি-১ ও ২ ব্লক, রামনগর-১ ও ২ ব্লকে বেশি সূর্যমুখী চাষ হয়। এছাড়া কাঁথির দেশপ্রাণ ব্লক ও কাঁথি-১ ব্লকেও কিছু কিছু জায়গায় সূর্যমুখী চাষ হয়। 
বিশদ

18th  March, 2020
রানাঘাটে গোলাপের পাতা, কুঁড়ি ও ফুল শুকিয়ে যাচ্ছে 

নবজ্যোতি সরকার: রানাঘাট ২ নম্বর ব্লকের নোকাড়ি, কামালপুর, মাঝেরগ্রাম, দেবগ্রাম গ্রাম পঞ্চায়েতের গোলাপ ফুল চাষিরা ব্যাপক সমস্যায় পড়েছেন। গোলাপ চারার পাতা কুঁকড়ে যাচ্ছে। কুঁড়ি ও ফুলের সাইজ ছোট হয়ে যাচ্ছে। ফুলের সুগন্ধও নষ্ট হচ্ছে।  বিশদ

18th  March, 2020
বোরো ধানে জোর দিতে হবে রোগপোকা দমনে 

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: বোরো ধানে ভালো ফলন পেতে সুসংহত উপায়ে ধানের রোগপোকা নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। বোরো মরশুমে ধান গাছ নানা রোগ দ্বারা আক্রান্ত হয়। এতে ফলন খুবই কমে যায়। বোরো ধানের রোগগুলির মধ্যে ঝলসা, খোলাপচা, ধসা, বাদামি চিটে, ব্যাকটেরিয়া জনিত ধসা এবং টুংরো রোগ অত্যন্ত ক্ষতিকারক। 
বিশদ

18th  March, 2020
রাত হলেই নারকেল গাছের পাতায় সাদা দাগ
জেলায় জেলায় সাদা মাছির আক্রমণ, বলছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা

ব্রতীন দাস: করোনা আতঙ্কের মধ্যেই রাতেরবেলা নারকেল গাছের পাতায় সাদা দাগ দেখা যাওয়া নিয়ে গ্রাম-বাংলায় উদ্বেগ ছড়িয়েছে। দেখা যাচ্ছে, গাছের সবুজ পাতা পুরো সাদা হয়ে যাচ্ছে। অনেক জায়গায় আবার নারকেল গাছের গোড়ায় সাদা গুড়ো জমে থাকতেও দেখা যাচ্ছে। 
বিশদ

18th  March, 2020
নয়াগ্রামের ব্রাউন রাইস মিলবে বিশ্ব বাংলার স্টলে 

রঞ্জন পাল, ঝাড়গ্রাম: ঝাড়গ্রাম জেলার প্রত্যন্ত নয়াগ্রাম ব্লকের স্বনির্ভর দলের মহিলাদের উৎপাদন করা ব্রাউন রাইস এবার মিলবে বিশ্ব বাংলার স্টলে। দিল্লি, কলকাতা, দার্জিলিং, বাগডোগরা এয়ারপোর্ট, কলকাতার পার্ক স্ট্রিট, ঢাকুরিয়া, নিউটাউন, রাজারহাটে বিশ্ব বাংলার স্টলে ওই চাল পাওয়া যাবে। সম্পূর্ণ জৈব উপায়ে ওই চাল তৈরি হচ্ছে। রাসায়নিক সারমুক্ত এই ব্রাউন রাইস।  বিশদ

11th  March, 2020
জামালপুরে সরকারি উদ্যোগেই নেদারল্যান্ডের গ্লাডিওলাস চাষ 

মণীন্দ্রনারায়ণ সিংহ, বর্ধমান: পূর্ব বর্ধমান জেলা উদ্যানপালন দপ্তরের সহযোগিতায় জামালপুর ব্লকের জোতশ্রীরাম গ্রাম পঞ্চায়েতের অমরপুর গ্রামে এবার প্রথম বাণিজ্যিক ভিত্তিতে নেদারল্যান্ডের গ্লাডিওলাস ফুলের চাষ হয়েছে।  বিশদ

11th  March, 2020
অজানা রোগে বিঘার পর বিঘা জমির গোলাপ চাষ ক্ষতিগ্রস্ত 

হরিহর ঘোষাল, মেদিনীপুর: অজানা রোগের প্রকোপে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় বিঘার পর বিঘা জমিতে গোলাপ চাষ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। রোগ প্রতিরোধে চাষিদের পক্ষ থেকে গোলাপ গাছে নানা ধরনের ওষুধ দেওয়া হচ্ছে।  বিশদ

11th  March, 2020
বাঁধাকপিতে হীরক পীঠ মথ 

সংবাদদাতা: বাঁধাকপিতে হীরক পীঠ মথের আক্রমণে ফলন কমতে পারে। বাঁধাকপি ছাড়াও ফুলকপি, ব্রোকলি, চিনা বাঁধাকপি, লাল বাঁধাকপিতে এর আক্রমণ হতে পারে।  বিশদ

11th  March, 2020
ফসল রক্ষায় ঠেকাতে
হবে ইঁদুরের আক্রমণ 

সংবাদদাতা: ফসল উৎপাদনের পর চাষিরা উৎপাদিত ফসল বস্তায়, বড় ড্রাম অথবা খড়ের বেড়িতে গুদামজাত করেন। কিন্তু ইঁদুরের আক্রমণে প্রায় ১০-১৫ শতাংশ ফসল নষ্ট হয়ে যায়। ফলে চাষিদের আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হয়।   বিশদ

11th  March, 2020
লিচুতে ভালো ফলন পেতে বিজ্ঞান সম্মত পরিচর্যার প্রয়োজন 

নবজ্যোতি সরকার: এ বছর প্রাকৃতিক কারণেই বারুইপুরের বিভিন্ন লিচু বাগানে প্রচুর ফুল এসেছে। চাষিরা জানিয়েছেন, ফুলের সংখ্যা বাড়াতে এন ট্রায়াকন্টানল ০.৫ মিলি প্রতি লিটার জলে এবং আলফা ন্যাপথাইল অ্যাসেটিক অ্যাসিড ১ মিলি প্রতি লিটার জলে গুলে স্প্রে করেছেন।  বিশদ

11th  March, 2020
রঙিন ফুলকপি ফলিয়ে তাক লাগিয়েছেন
ময়নাগুড়ির কৃষক, দেখতে জমিতে ভিড় 

সোমনাথ চক্রবর্তী: রঙিন ফুলকপি চাষ করে তাক লাগালেন ময়নাগুড়ির ব্যাঙকান্দির কৃষক অজিত সরকার। হলুদ, আভা রং এবং হাল্কা কমলা রঙের ফুলকপি তিনি তাঁর জমিতে চাষ করেছেন।  বিশদ

11th  March, 2020
অকাল বৃষ্টিতে জমিতে জল, সব্জির ক্ষতি 

সংবাদদাতা: ফেব্রুয়ারির শেষ সপ্তাহে আচমকা দু’দিনের অকাল বৃষ্টিতে জমিতে জল জমে যাওয়ায় দক্ষিণ-পূর্ব সুন্দরবন অঞ্চলের গোসাবা, বাসন্তী, ক্যানিং ১ ও ২, কুলতলি, জয়নগর ১ ও ২ অঞ্চলে সব্জি চাষের ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন চাষিরা।   বিশদ

04th  March, 2020

Pages: 12345

একনজরে
 নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ২৮ মার্চ: সামাজিক দূরত্বেই জনসংযোগের উপায় খুঁজছে সিপিএম। করোনা মোকাবিলায় লকডাউনের জেরে ঘরবন্দি দেশের আর্থিকভাবে দুর্বল মানুষদের মধ্যে এবার খাবার বিতরণ করবে দল। ...

বিএনএ, মেদিনীপুর: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপে শালবনীর সিমেন্ট কারখানায় আটকে থাকা ভিনরাজ্যের শ্রমিকদের এক মাসের রেশনের ব্যবস্থা করা হল। লকডাউনের জেরে সিমেন্ট কারখানার সেকেন্ড ইউনিটে ভিনরাজ্যের সাড়ে চারশো শ্রমিক আটকে পড়েছিলেন।  ...

  তেল আভিব, ২৮ মার্চ (পিটিআই): বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের মধ্যেই ৩১৪ জন নাগরিককে দেশে ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য এয়ার ইন্ডিয়াকে ধন্যবাদ জানাল ইজরায়েল। ...

বিএনএ, শিলিগুড়ি: বৃহস্পতিবার উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত তাতে বাধা পড়ে। এই পরিস্থিতিতে সোমবার থেকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চালু হতে চলেছে ভাইরাল রিসার্চ সেন্টার অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার বা ভিআরডিএল ল্যাব। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় সাফল্য আসবে। প্রেম-প্রণয়ে আগ্রহ বাড়বে। তবে তা বাস্তবায়িত হওয়াতে সমস্যা আছে। লোহা ও ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৫৭: বারাকপুরে মঙ্গল পাণ্ডের নেতৃত্বে শুরু হল সিপাহী বিদ্রোহ
১৯২৯: অভিনেতা উৎপল দত্তের জন্ম
১৯৮২: তেলুগু দেশম পার্টির প্রতিষ্ঠা





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.৫৯ টাকা ৭৫.৩১ টাকা
পাউন্ড ৮৯.৬০ টাকা ৯২.৮৬ টাকা
ইউরো ৮০.৮৪ টাকা ৮৩.৮৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
28th  March, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

১৫ চৈত্র ১৪২৬, ২৯ মার্চ ২০২০, রবিবার, (চৈত্র শুক্লপক্ষ) পঞ্চমী ৫১/৫ রাত্রি ২/২। কৃত্তিকা ২৪/১৪ দিবা ৩/১৮। সূ উ ৫/৩৫/৫২, অ ৫/৪৭/৮, অমৃতযোগ দিবা ৬/৩৫ গতে ৯/৪০ মধ্যে। রাত্রি ৭/২১ গতে ৮/৫৬ মধ্যে, বারবেলা ১০/১০ গতে ১/১৩ মধ্যে। কালরাত্রি ১/৯ গতে ২/৩৮ মধ্যে।
১৫ চৈত্র ১৪২৬, ২৯ মার্চ ২০২০, রবিবার, পঞ্চমী ৪১/৩৯/১২ রাত্রি ১০/১৭/২৪। কৃত্তিকা ১৬/৫০/৮ দিবা ১২/২১/৪৬। সূ উ ৫/৩৭/৪৩, অ ৫/৪৭/২২। অমৃতযোগ দিবা ৬/১৫ মধ্যে ও ১২/৫২ গতে ১/৪১ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৩৬ গতে ৭/২২ মধ্যে ও ১২/১ গতে ৩/৬ মধ্যে। কালবেলা ১১/৪২/৩২ গতে ১/১৩/৪৫ মধ্যে।
 ৪ শাবান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
রাজ্যে আরও ২ জনের সংক্রমণের আশঙ্কা
রাজ্যে আরও ২ ব্যক্তির করোনায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। ...বিশদ

08:29:19 AM

 বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ৩০ হাজার ছাড়াল
করোনায় লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। এই মুহূর্তে গোটা বিশ্বে করোনায় ...বিশদ

08:29:12 AM

 দিন তিনেক বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই
আগামী দিন তিনেক আপাতত কলকাতা সহ প্রায় গোটা রাজ্যে তেমন ...বিশদ

08:20:21 AM

করোনার কোপে একাধিক পুজো
আগামী ৩১ মার্চ থেকে ২ এপ্রিলের মধ্যে বঙ্গে রয়েছে একাধিক ...বিশদ

08:20:00 AM

  রাজস্থানে স্যানিটাইজার, মাস্ক তৈরিতে হাত লাগাচ্ছেন জেলবন্দিরা
রাজস্থানে করোনা প্রতিরোধে জরুরি স্যানিটাইজার ও মাস্ক তৈরিতে জেলবন্দিদের কাজে ...বিশদ

08:12:00 AM

দেশে করোনা আক্রান্ত ১০২৯, গোটা বিশ্বে ৬ লক্ষাধিক
ভারতে এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১০২৯ জন। মৃত্যু ...বিশদ

08:11:55 AM