Bartaman Patrika
চাষ আবাদ
 

মৌমাছিকে অ্যান্টিবায়োটিক দাওয়াই
বিপদ ঘনাচ্ছে মধুতে, উদ্বিগ্ন বিজ্ঞানীরা

ব্রতীন দাস: মৌমাছিকে ঢালাও অ্যান্টিবায়োটিক দাওয়াই। আর তাতেই চরম বিপদ ঘনাচ্ছে মধুতে। বিষয়টি নিয়ে রীতিমতো উদ্বিগ্ন বিজ্ঞানীরা। অভিযোগ, প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ও সচেতনতার অভাবে বাংলার মৌপালকদের একাংশ মধুর পরিমাণ বাড়াতে মৌমাছির শরীরে নানারকম হরমোনের প্রয়োগ ঘটাচ্ছে। সঙ্গে দেওয়া হচ্ছে অহেতুক কড়া ডোজের অ্যান্টিবায়োটিক। এতেই প্রমাদ গুণছেন বিশেষজ্ঞরা। এমনিতেই ফসলে পোকামাকড় দমনে ব্যবহার করা হচ্ছে মাত্রাতিরিক্ত কীটনাশক। যার জেরে বিপন্ন হয়ে পড়ছে মৌমাছি। উদ্বেগজনকভাবে সংখ্যা কমছে তাদের। তার উপর মৌমাছিকে যদি লাগাতার হরমোন ও অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া হয়, তা হলে মধুতে বিপদের মাত্রা আরও বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন বিজ্ঞানীরা। তাঁদের বক্তব্য, এ ব্যাপারে মৌপালকদের অবশ্যই সচেতন হতে হবে। নতুবা জনস্বাস্থ্যের উপর খারাপ প্রভাব পড়বে। মৌমাছিকে মাত্রাছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়ার জেরে মধুতে তার প্রভাব পড়ায় এ রাজ্য থেকে বিদেশে মধু রপ্তানি আটকে যাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে ইতিপূর্বে। ফলে বিষয়টিকে মোটেই হাল্কাভাবে নিচ্ছেন না বিজ্ঞানীরা।
মৌমাছি পালনের মাধ্যমে মিষ্টি বিপ্লবের ডাক দেওয়া হয়েছে দেশে। অথচ মৌমাছির সংখ্যা দিন দিন কমতে থাকায় বিষয়টি নিয়ে সরব হয়েছেন পরিবেশবিদরা। এ ব্যাপারে সরকারি পদক্ষেপ ও নজরদারির দাবি তুলেছেন তাঁরা। বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কীটতত্ত্ব বিভাগের প্রধান ড. শান্তনু ঝাঁ বলেছেন, মৌমাছিকে অহেতুক অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া নিয়ে গোটা দেশেই শোরগোল পড়েছে। মৌমাছির শরীরে যদি কড়া মাত্রায় অ্যান্টিবায়োটিক প্রয়োগ করা হয়, তা হলে সেই মৌমাছি যে মধু উৎপাদন করবে, তাতে অ্যান্টিবায়োটিকের প্রভাব থেকে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। সেক্ষেত্রে এমনও হতে পারে ওই মধু টানা খেলে মানবদেহে রোগ নিরাময়ে প্রয়োজনীয় অ্যান্টিবায়োটিক ঠিকমতো কাজ করবে না। এটা ভয়ঙ্কর বিষয়। মৌমাছিকে অ্যান্টিবায়োটিক না দিয়েই উপযুক্ত পরিচর্যার মাধ্যমে যথেষ্ট পরিমাণে মধু পাওয়া সম্ভব বলে দাবি শান্তনুবাবুর।
বাণিজ্যিক চাষের লক্ষ্যে ইউরোপ ও ইতালির মৌমাছি পালন শুরু হয়েছে রাজ্যে। এপিস মেলিফেরা নামে ওই মৌমাছির বাক্স থেকে বছরে অন্তত ৪০ কেজি মধু পাওয়া যাচ্ছে। তুলনায় দেশীয় মৌমাছি এপিস সেরেনা ইন্ডিকা অনেক কম পরিমাণে মধু উৎপাদন করে। তারা বছরে বাক্স প্রতি গড়ে ৫ কেজি মধু উৎপাদন করতে পারে। ফলে দেশীয় মৌমাছি পালন কমছে। বাংলার মৌপালকদের পাশে দাঁড়াতে এবং খাঁটি মধু উৎপাদনে এগিয়ে এসেছে বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়। চলতি বছর তারা সাড়ে ১০ টন মধু উৎপাদন করেছে।
বিজ্ঞানীদের বক্তব্য, ফসলের উৎপাদন বাড়াতে জল, সার, কীটনাশক নিয়ে নানা কথা বলা হয়ে থাকে। কিন্তু মৌমাছি নিয়ে সেভাবে আলোচনা হয় না। হানি মিশন তৈরি হয়েছে। কিন্তু সেভাবে তার কার্যকরী পদক্ষেপ চোখে পড়ছে না বলে অনেকের অভিযোগ। মধু উৎপাদনে গোটা দেশে অগ্রণী রাজ্য বাংলা। কিন্তু বাস্তবে সেই স্বীকৃতি নেই। কাঁচামাল সংগ্রহ করে নিয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন কোম্পানি। মৌপালন নিয়ে প্রশিক্ষণ দিতে আসছে ঝাড়খণ্ড থেকে। বাজারে মধুর যা দাম সেই তুলনায় মৌপালকরা খুবই কম পেয়ে থাকেন। ফড়েরা মধুর বাজার নিয়ন্ত্রণ করে। ব্যাঙ্কঋণ পেতে মৌপালকদের সমস্যা হয়। শুধু মৌমাছির বাক্স দিলেই হবে না। মৌপালকদের বিজ্ঞানভিত্তিক মধু উৎপাদনে প্রশিক্ষণ দিতে হবে। মনিটরিংয়ে ঘাটতি রয়েছে। তা পূরণ করতে হবে।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শুধু মধু উৎপাদনের জন্য নয়, মৌমাছি পালনের মাধ্যমে ফসলে পরাগ সংযোগ বাড়ানো যায়। মৌমাছির সংখ্যা কমে যাওয়ায় কাঙ্খিত পরাগ সংযোগের অভাবে ফলন কমছে। দেশে ফি বছর ৬৫ হাজার মেট্রিক টন মধু উৎপাদন হয়। তার মধ্যে অনেকটাই এ রাজ্যে উৎপাদিত হয়ে থাকে। কিন্তু বাংলায় যা প্রাকৃতিক বৈচিত্র্য রয়েছে, তার অন্তত ২৫ শতাংশকেও কাজে লাগিয়ে মধু উৎপাদন করা সম্ভব হচ্ছে না বলে আক্ষেপ অনেকের। তাঁদের বক্তব্য, উন্নত মৌপালনে সরকারি তরফে প্রশিক্ষণ ও নজরদারি বাড়ানো হোক।

17th  July, 2019
জলপাইগুড়িতে সুধা পদ্ধতিতে
ধান চাষে আগ্রহ বাড়ছে 

নিজস্ব সংবাদদাতা, জলপাইগুড়ি: জলপাইগুড়ি জেলায় ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা বাড়াতে সুনিশ্চিত পদ্ধতিতে ধান উৎপাদনে (সুধা) জোর দিয়েছে কৃষি দপ্তর। জলপাইগুড়ি জেলার বিভিন্ন ব্লকে ৫০০ বিঘা জমিতে সুধা পদ্ধতিতে ধান চাষে জোর দেওয়া হয়েছে।   বিশদ

08th  July, 2020
বেগুনে ভাল ফলন পেতে নজর
দিতে হবে রোগপোকা দমনে 

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: বেগুন চাষে ভালো ফলন পেতে হলে চাষিদের সুসংহত উপায়ে সঠিক নিয়ম মেনে রোগপোকার আক্রমণ রোধ করতে হবে। এমনটাই বলছেন কৃষি আধিকারিকরা। তাঁরা জানিয়েছেন, এখন বছরের তিন মরশুমেই বেগুনের চাষ করা যায়।  বিশদ

08th  July, 2020
সঠিকভাবে পরিচর্যা করলে মিলছে লাভ
বর্ষাকালীন পেঁয়াজ চাষে ঝুঁকছেন নদীয়ার চাষিরা 

শীর্ষেন্দু দেবনাথ, কৃষ্ণনগর: নদীয়ার বিভিন্ন ব্লকের চাষিদের মধ্যে ক্রমেই বর্ষাকালীন পেঁয়াজ চাষ জনপ্রিয় হচ্ছে। মূলত দুর্গাপুজোর সময়ে বা তার ঠিক পরেই বাজারে পেঁয়াজের জোগান কমে যাওয়ায় এই ফসল বাজারজাত করা যায়। সেইসময় ভালো দাম মেলায় ক্রমশ এর দিকে ঝুঁকছেন চাষিরা।   বিশদ

08th  July, 2020
মাটি ছাড়াই জলের
উপর শাক-সব্জি চাষ 

ব্রতীন দাস: করোনা সমগ্র মানব জাতিকে ঘরবন্দি করে ফেলেছে। নিজের ইচ্ছামতো ঘোরাফেরা বা বাজার-হাট করা এখন বিপজ্জনক। এই সময় যাঁদের বাড়ি সংলগ্ন কিছুটা জায়গা বা খোলা ছাদ, বারান্দা রয়েছে, তাঁরা সেই জায়গায় টবে শাক-সব্জি ফলাতে পারেন।  বিশদ

08th  July, 2020
আমনে ভালো ফলন পেতে
নজর দিতে হবে চারা তৈরিতে 

জমি তৈরি ও ভালো বীজ নির্বাচনের পর সঠিকভাবে ভালো মানের চারা তৈরি করতে হবে। তাহলেই আমন ধান চাষে ভালো ফলন পাওয়া যাবে। এমনটাই জানাচ্ছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা। এক বিঘা ধান চাষের জন্য সাধারণভাবে ১০ কেজি পর্যন্ত বীজধান লাগে।   বিশদ

08th  July, 2020
লকডাউনের মধ্যে বাড়ির ছাদে মিনিকিট ধান,
তিল চাষ করে তাক লাগালেন কাটোয়ার যুবক 

অনিমেষ মণ্ডল, কাটোয়া: ছাদজুড়ে সবুজ ধানের ‘খেত’। তিল থেকে সব্জি সবই ফলেছে। লকডাউনের মধ্যে বাড়ির ছাদের মিনিকিট প্রজাতির ধান, তিল চাষ করে তাক লাগালেন কাটোয়ার যুবক। দিনরাত ছাদের মধ্যে চলছে ফসলের পরিচর্যা।   বিশদ

08th  July, 2020
টানা বৃষ্টিতে কান্দিতে তিল চাষে ব্যাপক ক্ষতি
শস্যবিমা না থাকায় সমস্যায় চাষিরা

সংবাদদাতা, কান্দি: লাগাতার বৃষ্টির জেরে এবছর কান্দি মহকুমা এলাকার কয়েক হাজার তিল চাষি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। চাষ করে এক বিঘা জমিতে ৫০ কেজি তিলও পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ। বেশিরভাগ চাষির শস্যবিমা না থাকায় সমস্যা আরও বেড়েছে। ফলে সরকারি ক্ষতিপূরণের দিকে তাকিয়ে রয়েছেন এলাকার চাষিরা।  বিশদ

01st  July, 2020
মাছির আক্রমণে মাথায় হাত
বারুইপুরের পেয়ারা চাষিদের 

নবজ্যোতি সরকার: উম-পুনে এমনিতেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বারুইপুরের পেয়ারা চাষ। তার উপর এখন পেয়ারা বাগানে মাছির আক্রমণে মাথায় হাত চাষিদের। ঝাঁকে ঝাঁকে ফলের মাছি আক্রমণ করছে পেয়ারায়। ফল ছিদ্র করে তার ভিতরেই ডিম পাড়ছে।  বিশদ

01st  July, 2020
সুধা পদ্ধতিতে আমন ধান চাষে
আগ্রহ বাড়ছে চাষিদের 

মোহন গঙ্গোপাধ্যায়: সুনিশ্চিত পদ্ধতিতে ধান চাষে আগ্রহ বাড়ছে চাষিদের। তাঁদের মতে, এই পদ্ধতি সহজ ও সরল। এমনকী খরচও কম। প্রচলিত পদ্ধতির চেয়ে এতে ফলন বেশি পাওয়া যায়। আর সেকারণেই চিরাচরিত পথ ছেড়ে ‘সুধা’ পদ্ধতিতে ধান চাষের প্রসারে রাজ্য সরকারও কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছে।  বিশদ

01st  July, 2020
ভাল ফলন পেতে জমির চরিত্র
বুঝে আমন চাষ করতে হবে 

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: আমন ধান চাষে সঠিক নিয়ম মেনে মাটি প্রস্তুত করার পর ভালো মানের চারা তৈরির দিকে নজর দিতে হবে। পাশাপাশি উঁচু, মাঝারি এবং নিচু জমিতে কী ধরনের ধানের বীজ থেকে চারা তৈরি করলে ভালো ফলন পাওয়া যাবে, সে ব্যাপারে জেনে নিতে হবে কৃষি বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে।   বিশদ

01st  July, 2020
নদীয়া জেলায় কিষাণ ক্রেডিট কার্ডের জন্য
রেকর্ড আবেদন, ছাপিয়ে গেল লক্ষ্যমাত্রাও 

শীর্ষেন্দু দেবনাথ, কৃষ্ণনগর: উম-পুন পরবর্তী সময়ে মাত্র ১৮দিনে নদীয়া জেলায় কিষাণ ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদনের সংখ্যা এক লক্ষ ছাড়িয়ে গেল। জুন মাসের শেষে লক্ষমাত্রা পেরিয়ে গিয়েছে। সবকিছু খতিয়ে দেখে দ্রুত আবেদনকারীরা যাতে কেসিসি পান তা নিশ্চিত করতে ব্যাঙ্কগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন।   বিশদ

01st  July, 2020
স্বাদ বদলে চাহিদা বাড়ছে
‘মণিপুরের পুঁটি’ পেংবা মাছের 

ব্রতীন দাস: বৈচিত্র্যে জোর। মাছে-ভাতে বাঙালির স্বাদ বদলে চাহিদা বাড়ছে পেংবা মাছের। এটি পুঁটি গোত্রীয় মাছ। চাষ হয় মিষ্টি জলে। পেংবা মণিপুরের স্টেট ফিশ। চাষেও ঝামেলা নেই। কারণ, এই মাছ রাক্ষুসে নয়। রুই, কাতলা, মৃগেলের সঙ্গে নিশ্চিন্তে এক পুকুরে চাষ করা যায়।  বিশদ

01st  July, 2020
এবার দু’হাজার হেক্টর বেশি জমিতে বোরো ধান চাষ করে গতবারের রেকর্ড ভাঙল জেলা
কোচবিহার

সংবাদদাতা, দিনহাটা: এ বছর কোচবিহার জেলায় রেকর্ড পরিমাণ জমিতে বোরো ধান চাষ হয়েছে। গতবছর থেকে প্রায় ২০০০ হেক্টর অধিক জমিতে চাষিরা বোরো ধান লাগিয়েছেন। পাশাপাশি এবারে ধান রোপণ যন্ত্রের সাহায্যে ৫০০ হেক্টর জমিতে ধান লাগানোর ক্ষেত্রেও রেকর্ড তৈরি হয়েছে।  বিশদ

29th  June, 2020
বীরভূমে অ্যালোভেরা চাষ করে তৈরি হচ্ছে স্যানিটাইজার, দিশা দেখাচ্ছে স্বনির্ভর গোষ্ঠী 

রামকুমার আচার্য  সিউড়ি: বীরভূমে অ্যালোভেরা চাষ করে তৈরি হচ্ছে স্যানিটাইজার। নতুন আয়ের দিশা দেখাচ্ছেন স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা। রাজনগরের চন্দ্রপুর পঞ্চায়েতের অধীন হরিপুরে অ্যালোভেরা বাগান তৈরি করেছে জেলা প্রশাসন। বর্তমানে অ্যালোভেরার পাতা দিয়ে স্যানিটাইজার তৈরি হচ্ছে।  বিশদ

26th  June, 2020

Pages: 12345

একনজরে
 অকল্যান্ড: শপিং মলে ঘোরার নেশা। আর সেই তারণাতেই অকল্যান্ডের এক কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে পালিয়ে গেলেন করোনা পজিটিভ এক রোগী (৩২)। সম্প্রতি তিনি ভারত থেকে ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কোচবিহার: ভিনরাজ্য থেকে আসা আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারে বড়সড় সাফল্য পেল কোচবিহার জেলা পুলিস। মঙ্গলবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে দেওয়ানহাটের কালাচাঁদ এলাকা থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ...

করাচি: বিশ্বকাপের মত টুর্নামেন্টে ভারতের বিপক্ষে একবারও জয়লাভ করতে পারেনি পাকিস্তান। এর কারণ তুলে ধরলেন পাক দলের প্রাক্তন তারকা বোলার ওয়াকার ইউনিস। কেন আইসিসির বৃহত্তম মঞ্চে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে তাঁর দেশ বারবার ব্যর্থ হয়, তা বিশ্লেষণ করতে গিয়ে প্রাক্তন তারকা পেসারটি ...

সংবাদদাতা, ঝাড়গ্রাম: বুধবার গোপীবল্লভপুরে বিজেপির ছেড়ে বেশকিছু কর্মী সমর্থক তৃণমূলে যোগ দিলেন। শহরের একটি অতিথিশালায় এই দলবদলের অনুষ্ঠানে তৃণমূলে আসা কর্মীদের হাতে পতাকা তুলে দেন ছত্রধর মাহাত।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

মেষ: পঠন-পাঠনে আগ্রহ বাড়লেও মন চঞ্চল থাকবে। কোনও হিতৈষী দ্বারা উপকৃত হবার সম্ভাবনা। ব্যবসায় যুক্ত ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯২৫: অভিনেতা গুরু দত্তের জন্ম
১৯৩৮: অভিনেতা সঞ্জীব কুমারের জন্ম
১৯৫৬: মার্কিন অভিনেতা টম হ্যাংকসের জন্ম
১৯৬৯: ক্রিকেটার বেঙ্কটপতি রাজুর জন্ম
১৯৬৯: ভারতের জাতীয় পশু হল রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার 



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.১৯ টাকা ৭৫.৯১ টাকা
পাউন্ড ৯২.৫৯ টাকা ৯৫.৯১ টাকা
ইউরো ৮৩.১৭ টাকা ৮৬.২৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৯,৭৬০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৭,২১০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭,৯২০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৫০,৩৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৫০,৪৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৫ আষাঢ় ১৪২৭, ৯ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, চতুর্থী ১২/৫৩ দিবা ১০/১২। শতভিষা ৫৫/১৭ রাত্রি ৩/৯৷ সূর্যোদয় ৫/২/১৯, সূর্যাস্ত ৬/২১/৭৷ অমৃতযোগ দিবা ৩/৪১ গতে অস্তাবধি, রাত্রি ৭/৪ গতে ৯/১২ মধ্যে পুনঃ ১২/৩ গতে ২/১১ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৬ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৩/১ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ১১/৪১ গতে ১/১ মধ্যে। 
২৪ আষাঢ় ১৪২৭, ৯ জুলাই ২০২০, বূহস্পতিবার, চতুর্থী দিবা ১০/১৩। শতভিষা নক্ষত্র রাত্রি ৩/৫৩। সূযোদয় ৫/২, সূর্যাস্ত ৬/২৩। অমৃতযোগ দিবা ৩/৪২ গতে ৬/২৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪ গতে ৯/১৩ মধ্যে ও ১২/৪ গতে ২/১২ মধ্যে ও ৩/৩৭ গতে ৫/২ মধ্যে। কালবেলা ৩/৩ গতে ৬/২৩ মধ্যে। কালরাত্রি ১১/৪৩ গতে ১/২ মধ্যে। 
১৭ জেল্কদ 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
কর্ণাটকে করোনা পজিটিভ আরও ২,০৬২, মোট আক্রান্ত ২৮,৮৭৭ 

08-07-2020 - 08:49:35 PM

মহারাষ্ট্রে করোনা পজিটিভ আরও ৬,৬০৩, মোট আক্রান্ত ২,২৩,৭২৪ 

08-07-2020 - 08:31:12 PM

বাতিল এশিয়া কাপ 
করোনা আবহে এখনও ঝুলে রয়েছে টি-২০ বিশ্বকাপের ভাগ্য। তার মধ্যেই ...বিশদ

08-07-2020 - 07:48:40 PM

করোনা:বাংলায় ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৯৮৬

২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ২৩ জন করোনা রোগী প্রাণ হারালেন। তার ...বিশদ

08-07-2020 - 07:40:14 PM

হাওড়ার কন্টেইনমেন্ট জোনের পূর্ণাঙ্গ তালিকা
প্রকাশিত হল হাওড়ার বৃহত্তর কন্টেইনমেন্ট জোনের সম্পূর্ণ তালিকা। আগামীকাল বিকেল ...বিশদ

08-07-2020 - 05:55:45 PM

কন্টেইনমেন্ট জোনের পূর্ণাঙ্গ তালিকা: উত্তর ২৪ পরগনা 
প্রকাশিত হল উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বৃহত্তর কন্টেইনমেন্ট জোনের সম্পূর্ণ ...বিশদ

08-07-2020 - 05:55:00 PM