Bartaman Patrika
চাষ আবাদ
 

 হারিয়ে যাওয়া দেশি সুগন্ধী ‘হরিণখুড়ি’ ধান ফিরিয়ে নজর কাড়লেন সাগরের কৃষকরা

ব্রতীন দাস : হারিয়ে যাওয়া দেশি সুগন্ধী ধান ‘হরিণখুড়ি’ ফিরিয়ে নজির গড়লেন সাগরের কৃষকরা। বহু বছর আগে সাগরের বিভিন্ন এলাকায় এই ধানটি চাষ হতো। কিন্তু বারবার প্রাকৃতিক বিপর্যয় ও ঠিকমতো ফলন না মেলায় ধীরে ধীরে এর চাষ কমতে থাকে। দীর্ঘ কয়েক দশক পর বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগিতায় ফের এই ধানটি ফিরিয়ে রীতিমতো সাড়া ফেলে দিয়েছেন সাগরের চাষিরা। এ বছর খরিফ মরশুমে সাগরের বিভিন্ন গ্রামে প্রায় দেড়শো বিঘা জমিতে চাষ হচ্ছে হরিণখুড়ি ধানের। সাগরের সুমতিনগর, খাসরাম, কমলপুর, বিষ্ণুপুর, হরিণবাড়ি, গঙ্গাসাগর, দক্ষিণ হারাধনপুর, উত্তর হারাধনপুর এলাকায় হরিণখুড়ি ধানের চাষ করছেন কৃষকরা। অবন্তী মান্না, অমিয় নাগ, নারায়ণ জানা, শিবশঙ্কর পাণ্ডা, সুব্রত দাসের মতো চাষিরা দেশি সুগন্ধী এই ধানটি চাষে এগিয়ে এসেছেন। তাঁদের পাশে দাঁড়িয়েছে সাগরের স্বামী বিবেকানন্দ ইউথ কালচারাল সোসাইটি। এই সংগঠনের উদ্যোগেই মূলত হারিয়ে যাওয়া হরিণখুড়ি ধানটি ফের সাগরের বুকে চাষ শুরু হয়েছে।
হরিণখুড়ি ধানের বিশেষত্ব হল, লবণাক্ত জমিতেও এই ধানটি চাষ করা যায়। বিঘায় ১২-১৩ মণ ফলন পাওয়া যায়। জমিতে জল জমা সহ্য করতে পারে। এই ধানের চিড়ে দারুণ সুস্বাদু। খই ভালো হয়। ধানের দুই মাথা কালচে। দেখতে অনেকটা হরিণের চোখের মতো। চাল মাঝারি সরু। ছোট দানা। সাগরের প্রবীণ কৃষকরা জানিয়েছেন, অনেক বছর আগে ওই এলাকায় এই ধানটি চাষ হতো। নদীর জল ঢুকে অনেক জমি নষ্ট হয়ে যায়। তারপরও কিছু জমিতে এই ধানটি টিকে ছিল। পরে তা ধীরে ধীরে হারিয়ে যায়। স্বামী বিবেকানন্দ ইউথ কালচারাল সোসাইটির সম্পাদক শুকদেব নাথ জানিয়েছেন, বেশ কয়েক বছর আগে স্থানীয় কমলপুর গ্রামের এক কৃষকের কাছে প্রথম ধানটি পাওয়া যায়। তখন ধানটির পরিচয় জানা যায়নি। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, তিনি মন্দিরতলা এলাকার কৃষক দেবাশিস বেরার কাছ থেকে ওই ধান সংগ্রহ করেছেন। দেবাশিসবাবুর কাছে জানা যায়, পূর্ব মেদিনীপুরেও এই ধান চাষ হয়। এর পর ধানটির নমুনা নিয়ে বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগাযোগ করেন তাঁরা। সেখানে বিজ্ঞানীরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে জানান, ধানটির নাম হরিণখুড়ি। বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় চাষ করে এই দেশি সুগন্ধী ধানটির বীজের পরিমাণ বাড়ায়। তার পর তা সাগরের কৃষকদের হাতে তুলে দেওয়া হয় চাষের জন্য। ২০১২ সাল থেকে সাগরে নতুন করে হরিণখুড়ি ধানটির চাষ শুরু হয়েছে। প্রতি বছর এলাকা বাড়ছে। হরিণখুড়ি জাতটি ছাড়াও বিবেকানন্দ ইউথ কালচারাল সোসাইটির কাছে অনেক প্রজাতির ধানের বীজ রয়েছে। যেগুলির অধিকাংশই একসময় বিভিন্ন এলাকায় চাষ হলেও এখন হারিয়ে গিয়েছে কিংবা অবলুপ্তপ্রায়। শুকদেববাবু জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে তাঁদের কাছে ২১২ ভ্যারাইটির ধানের বীজ রয়েছে। দেশি ধানের বীজ সংরক্ষণের জন্য ২০১৬ সালে ভারত সরকারের বীজ সংরক্ষণ বিভাগ থেকে ১০ লক্ষ টাকা পুরস্কারও পেয়েছে তাঁদের সোসাইটি। ওই টাকায় ধান ভাঙানোর আধুনিক মেশিন বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে তাঁদের।
বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মৃত্যুঞ্জয় ঘোষ জানিয়েছেন, সাগরে চাষের জন্য আমরা হরিণখুড়ি ধানের বীজ দিয়েছি। খরিফে ওই ধানটি চাষের জন্য প্রযুক্তি দেওয়া হবে চাষিদের। চাষের বিভিন্ন খুঁটিনাটি নিয়ে প্রশিক্ষণও দেওয়া হয়েছে। আমরা চাই, হারিয়ে যেতে বসা দেশি সুগন্ধী ধানগুলি এভাবেই বাঁচিয়ে রাখুন কৃষকরা। কৃষকরা জানিয়েছেন, হরিণখুড়ি ধানটি মাঝারি জমিতে ভালো হয়। গাছের উচ্চতা ৫ ফুটের মতো হয়। রোগপোকা সহনশীল। ১৩৫-১৪০ দিনে ফলন পাওয়া যায়। ধৈঞ্চা ও জৈবসার দিয়ে চাষের কথা বলছেন কৃষি আধিকারিকরা। বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে হরিণখুড়ি ধানের ৪০ কেজি বীজ দেওয়া হয়েছে। বাকিটা দিয়েছে বিবেকানন্দ ইউথ কালচারাল সোসাইটি। একেবারে বিনামূল্যে না দিয়ে তারা কেজি প্রতি বীজের জন্য ৫ টাকা করে নিচ্ছে।
ড. মৃত্যুঞ্জয় ঘোষ জানিয়েছেন, আমাদের রাজ্যে প্রায় এক লক্ষ হেক্টর জমিতে দেশি সুগন্ধী ধানের চাষ হয়। মোট ৩ লক্ষ টন ধান উৎপাদন হয়ে থাকে। যার বেশিরভাগটাই এ রাজ্যে বিক্রি হয়ে যায়। কিছুটা দক্ষিণ ভারতে যায়।

03rd  July, 2019
খামখেয়ালি আবহাওয়ায় বীজতলা তৈরিতে দেরি
বোরো চাষে জল দেওয়ার সময় পিছচ্ছে প্রশাসন

বিএনএ, সিউড়ি: বীজতলা তৈরিতে দেরি হয়েছে। তাই বীরভূমে বোরো চাষে জল দেওয়ার সময় পিছচ্ছে প্রশাসন। খামখেয়ালি আবহাওয়ার জন্যই বীজতলা তৈরি হয়নি বলে মত কৃষিদপ্তরের। তাই জেলায় আগামী ২৫ জানুয়ারি বোরো চাষের জন্য জল দেওয়ার কথা থাকলেও তা পিছিয়ে দিচ্ছে প্রশাসন। 
বিশদ

রামপুরহাট মহকুমাজুড়ে বৃষ্টি, আলুচাষে ক্ষতির আশঙ্কা চাষিদের 

সংবাদদাতা, রামপুরহাট: সাম্প্রতিক বৃষ্টি ও কুয়াশার জন্য আলুতে দেখা দিয়েছে নাবিধসা রোগ। মাঝে কয়েকদিন আবহাওয়ার উন্নতি হলেও রবিবার সকালে রামপুরহাট মহকুমায় ফের বৃষ্টি হয়। যার জেরে আলুচাষে ক্ষতির আশঙ্কা করছেন চাষিরা। 
বিশদ

দেশি রুই, কাতলা, মৃগেল মিলবে বাজারে, ময়না মডেলে মাছ চাষের উদ্যোগ হুগলিতে 

অভিজিৎ চৌধুরী, চুঁচুড়া, বিএনএ: ময়না মডেলে মাছ চাষের জন্য উদ্যোগ নিল হুগলি জেলা মৎস্য দপ্তর। ২০১৯-’২০ অর্থবর্ষে এখানে ছ’টি পুকুরে দেশি রুই, কাতলা ও মৃগেল চাষ করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই মাছগুলি বেশে খানিকটা বড় হয়েছে। ফেব্রুয়ারি মাসের শেষের দিকে এই মাছ বাজারে আসতে পারে বলে মৎস্য দপ্তরের কর্তারা মনে করছেন। 
বিশদ

16th  January, 2020
ধান খেতে নাড়া পোড়ানোয় মাটির ক্ষতি 

মোহন গঙ্গোপাধ্যায়: ধান খেতে খড় বা নাড়া না পুড়িয়ে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দিয়ে পরবর্তী ফসল লাভজনক হিসেবে ঘরে তোলা যায়। এমনটাই জানাচ্ছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের বক্তব্য, অনেক চাষি জমিতে ধানের অবশিষ্টাংশ বা নাড়া পুড়িয়ে দিয়ে থাকেন।  বিশদ

15th  January, 2020
বোরো ধানে সেচের জল নিয়ে
চিন্তায় দক্ষিণ ২৪ পরগনার বহু চাষি 

সংবাদদাতা: বোরো ধান চাষে সেচের জল মিলবে কোথা থেকে? সেই চিন্তা শুরু হয়ে গিয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ এলাকার চাষিদের। জেলার ডায়মন্ডহারবার ১ ও ২, মগরাহাট ১ও ২, ফলতা, জয়নগর ১ ও ২, বারুইপুর, মন্দিরবাজার ও কুলপি ব্লকে ভূগর্ভের অনেকটা নীচে রয়েছে জলস্তর।  বিশদ

15th  January, 2020
আর্সেনিক প্রতিরোধী ‘মুক্তশ্রী’ ধান আশা জাগাচ্ছে কৃষকদের 

নবজ্যোতি সরকার: মুক্তশ্রী হল আর্সেনিক সহনশীল, উচ্চ ফলনশীল, সরু, সুগন্ধী ধান। এই ধান খরা, অতি বৃষ্টি সহ্য করতে পারে। যেভাবে রাজ্যজুড়ে ধান চাষে ভূগর্ভস্থ জলের ব্যবহার বেড়েছে তাতে বাংলার যেকোনও ব্লক যেকোনও দিন আর্সেনিক প্রবণ হয়ে উঠতে পারে বলে মনে করছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা।  বিশদ

15th  January, 2020
ভালো ফলন পেতে জমিতে অনুখাদ্য প্রয়োগ জরুরি 

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: অনুখাদ্যের অভাবের কারণে অনেক সময় ঠিকমতো ফলন পাওয়া যায় না। কৃষি আধিকারিকরা বলছেন, ভালো ফলন পেতে হলে জমিতে অনুখাদ্যের ঘাটতি মেটাতে হবে। প্রথমে মাটির পিএইচ মাত্রা ঠিক করতে হবে।  বিশদ

15th  January, 2020
আরামবাগের ৬৩টি পঞ্চায়েতে নার্সারি হচ্ছে 

সুদেব দাস, আরামবাগ: আরামবাগ মহকুমাজুড়ে মহিলাদের স্বনির্ভর করে তুলতে বিভিন্ন গোষ্ঠীকে কাজে লাগিয়ে শুরু হয়েছে নার্সারি তৈরির কাজ। হুগলি জেলাশাসকের নির্দেশ মতো আরামবাগ মহকুমায় ৬৩টি গ্রাম পঞ্চায়েতে জোরকদমে চলছে এই কাজ।  বিশদ

15th  January, 2020
নদীয়ায় ফল আর্মি ওয়ার্ম পোকার দাপটে লোকসানের মুখে ভুট্টা চাষ 

তৌসিফ মণ্ডল, কালীগঞ্জ: নদীয়ার নাকাশিপাড়ায় বিস্তীর্ণ এলাকায় পোকার আক্রমণে ভুট্টা চাষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এলাকায় বিঘার পর বিঘা জমিতে ফল আর্মি ওয়ার্ম নামক এক ধরনের পোকার উপদ্রব বেড়েছে।  বিশদ

15th  January, 2020
কৃষিদপ্তরের কর্তাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ
আবহাওয়ার খামখেয়ালিপনায় আলিপুরদুয়ারে আলুর উৎপাদন কমের আশঙ্কা 

সংবাদদাতা, আলিপুরদুয়ার: কখনও কুয়াশা, কখনও তীব্র ঠান্ডার সঙ্গে শুকনো উত্তুরে হাওয়া আবার কখনও দিনে চড়া রোদ উঠছে। আবহাওয়ার এই খামখেয়ালিপনায় আলুর দানা কমবে। ফলন কম হওয়ার দরুন আলিপুরদুয়ারে এবার আলুর উৎপাদন মার খাওয়ার সম্ভাবনায় জেলার কৃষিদপ্তরের কর্তাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে। 
বিশদ

10th  January, 2020
কুয়াশার জেরে আলুর নাবিধসা ঠেকাতে বিষ্ণুপুরে চাষিদের সতর্ক করতে মাইকিং, লিফলেট বিলি কৃষিদপ্তরের 

সংবাদদাতা, বিষ্ণুপুর: কুয়াশার দাপটে আলুতে নাবিধসা ঠেকাতে সচেতনতামূলক প্রচারে নেমেছে বিষ্ণুপুর মহকুমা কৃষিদপ্তর। তারজন্য এলাকায় এলাকায় মাইকিং ও লিফলেট বিলি করা হচ্ছে। মহকুমা এলাকায় এখনও পর্যন্ত প্রায় ২৫শতাংশ আলু ধসা রোগে আক্রান্ত হয়েছে। তার মধ্যে প্রায় ২০শতাংশ নষ্ট হয়ে গিয়েছে। 
বিশদ

09th  January, 2020
জেলাশাসকের নির্দেশমতো আরামবাগের ৬৩টি পঞ্চায়েতে তৈরি হচ্ছে নার্সারি 

বিএনএ, আরামবাগ: আরামবাগ মহকুমাজুড়ে মহিলাদের স্বনির্ভর করে তুলতে বিভিন্ন গোষ্ঠীকে কাজে লাগিয়ে শুরু হয়েছে নার্সারি তৈরির কাজ। হুগলি জেলাশাসকের নির্দেশ মতো আরামবাগ মহকুমায় ৬৩টি গ্রাম পঞ্চায়েতে জোরকদমে চলছে কাজ।  
বিশদ

09th  January, 2020
নাকাশিপাড়ায় পোকার আক্রমণে ভুট্টা চাষ ক্ষতিগ্রস্ত 

সংবাদদাতা, কালীগঞ্জ: নাকাশিপাড়ায় বিস্তীর্ণ এলাকায় পোকার আক্রমণে ভুট্টা চাষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এলাকায় বিঘার পর বিঘা জমিতে ফল আর্মি ওয়ার্ম নামক এক ধরনের পোকার উপদ্রব বেড়েছে। যা শুঁয়োপোকার মতো দেখতে। জমি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় চিন্তিত এলাকার চাষিরা। তবে কৃষি দপ্তর চাষিদের সবরকম সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে।  
বিশদ

09th  January, 2020
তেহট্ট মহকুমায় কলা চাষের এলাকা বাড়ছে, লাভের মুখ দেখছেন চাষিরা 

সৌরভ ভট্টাচার্য, তেহট্ট, সংবাদদাতা: তেহট্ট মহকুমাজুড়ে কলা চাষের এলাকা বাড়ছে। এখন গতানুগতিক চাষের পরিবর্তে কলা চাষ করে লাভের মুখ দেখছেন চাষিরা। তাই তাঁরা কলা চাষে আগ্রহী হচ্ছেন। পান কিংবা পাট চাষের বদলে করিমপুরের বিভিন্ন এলাকায় কলা চাষ বেড়ে চলেছে।  
বিশদ

09th  January, 2020

Pages: 12345

একনজরে
  বালিয়া (উত্তরপ্রদেশ), ১৯ জানুয়ারি (পিটিআই): নজিরবিহীনভাবে দাদা মুলায়ম সিং যাদবকে নিশানা করে তোপ দাগলেন ভাই শিবপাল। ইদানীং ছেলে অখিলেশের সঙ্গেই বেশি দেখা যাচ্ছে সপার প্রতিষ্ঠাতাকে। ...

সংবাদদাতা, পতিরাম: থানার দাবিতে সরব হয়েছে দক্ষিণ দিনাজপুরের পতিরামের বাসিন্দরা। ওই এলাকায় একটি ফাঁড়ি থাকলেও, তার বদলে একটি স্থায়ী থানা গঠন করার দাবি উঠেছে। এলাকাবাসীর দাবি, দিন দিন পতিরামের জনসংখ্যা বাড়ছে। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে নানা অপরাধমূলক কাজকর্মও বেড়েই চলেছে।  ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী জুনে পথ চলা শুরু হচ্ছে এটিকে-মোহন বাগানের। মোহন বাগান ফুটবল ক্লাব প্রাইভেট লিমিটেডের ৮০ শতাংশ শেয়ার কিনে নিয়েছে আরপি-সঞ্জীব গোয়েঙ্কা গ্রুপ। রবিবার সল্টলেক স্টেডিয়ামে মোহন বাগান কর্তাদের আমন্ত্রণে ডার্বি দেখতে হাজির ছিলেন আইএসএলে এটিকে’র দল মালিক।  ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কোথাও নিত্য যানজট আবার কোথাও ফুটপাত দখল করে সার দিয়ে দোকান আর হকারদের পসরা। সেসব এড়িয়ে শিয়ালদহ স্টেশনে ঢুকতে প্রতিদিন ভোগান্তিতে পড়তে ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
aries

উচ্চতর ও গবেষণামূলক বিদ্যার ক্ষেত্রে সাফল্য আসবে। ব্যবসায় যুক্ত হলে শুভ যোগাযোগ ঘটবে। ভ্রমণযোগ রয়েছে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮১৭: হিন্দু কলেজের (বর্তমান প্রেসিডেন্সি কলেজ) যাত্রা শুরু
১৯৩৪ - আলোকচিত্র এবং ইলেকট্রনিকস্ কোম্পানী হিসেবে ফুজিফিল্ম কোম্পানীর যাত্রা শুরু
১৯৭২: নতুন রাজ্য হল অরুণাচল প্রদেশ ও মেঘালয়
১৯৯৩: মার্কিন অভিনেত্রী অড্রে হেপবার্নের মৃত্যু





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.১৭ টাকা ৭১.৮৭ টাকা
পাউন্ড ৯১.২২ টাকা ৯৪.৫১ টাকা
ইউরো ৭৭.৬১ টাকা ৮০.৫৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
18th  January, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪০,৫৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৮,৫০০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৯,০৮০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৬,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৬,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
19th  January, 2020

দিন পঞ্জিকা

৫ মাঘ ১৪২৬, ২০ জানুয়ারি ২০২০, সোমবার, একাদশী ৪৯/১৮ রাত্রি ২/৬। অনুরাধা ৪২/৪৯ রাত্রি ১১/৩০। সূ উ ৬/২২/৫৪, অ ৫/১২/০, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৯ মধ্যে পুনঃ ১০/৪৩ গতে ১২/৫২ মধ্যে. রাত্রি ৬/৫ গতে ৮/৪৩ মধ্যে পুনঃ ১১/২১ গতে ২/৫২ মধ্যে। বারবেলা ৭/৪৪ গতে ৯/৫ মধ্যে পুনঃ ২/২৯ গতে ৩/৫০ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/৯ গতে ১১/৪৮ মধ্যে। 
৫ মাঘ ১৪২৬, ২০ জানুয়ারি ২০২০, সোমবার, একাদশী ৫৩/২৯/৩৫ রাত্রি ৩/৪৯/৪৭। অনুরাধা ৪৯/৪৭/৫৬ রাত্রি ১/৩৩/৭। সূ উ ৬/২৫/৫৭, অ ৫/১০/৩৬, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৮ মধ্যে ও ১০/৪৪ গতে ১২/৫২ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/১৪ গতে ৮/৫০ মধ্যে ও ১১/২৪ গতে ২/৫১ মধ্যে। কালবেলা ৭/৪৬/৩২ গতে ৯/৭/৭ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/৮/৫১ গতে ১১/৪৮/১৭ মধ্যে। 
২৪ জমাদিয়ল আউয়ল  

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি পদে নির্বাচিত হলেন  জগৎপ্রকাশ নাড্ডা

03:37:00 PM

সততার নজির হোমগার্ডের 
সততার নজির ময়নাগুড়ি থানার এক হোম গার্ডের। কুড়িয়ে পাওয়া একটি ...বিশদ

03:28:49 PM

নির্ভয়া কাণ্ড: পবন গুপ্তের নাবালক তত্ব খারিজ শীর্ষ আদালতে

 সোমবার নির্ভয়া গণধর্ষণ মামলায় অন্যতম সাজাপ্রাপ্ত পবন গুপ্তার আবেদন আজ ...বিশদ

03:21:00 PM

রোগী মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার কোচবিহারে
রোগী মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার কাণ্ড কোচবিহারের চকচকার একটি হাসপাতালে। ...বিশদ

03:16:24 PM

পরীক্ষার নম্বর সাফল্যের মাপকাঠি নয়: প্রধানমন্ত্রী
সাফল্য পেতে গেলে ব্যর্থ হতে হয়। ব্যর্থতা সফল হওয়ারই একটি ...বিশদ

01:06:00 PM

ঘুমের ঘোরে চালক, বাস উল্টে আহত ২০ যাত্রী
ভোররাতের দিকে গাড়ি চালাতে চালেতে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন চালক। আর তার ...বিশদ

12:09:43 PM