Bartaman Patrika
চাষ আবাদ
 
 

মাঠ থেকে কাটার পর বোরো ধান ঝাড়াইয়ের কাজ চলছে। উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়ায় তোলা নিজস্ব চিত্র

কিচেন গার্ডেনে ফল ও সব্জি বাগান গড়ে আয়

অলোক বন্দ্যেপাধ্যায় : গ্রামের যেসব চাষি পরিবারের মধ্যে চাষের কোনও নিজস্ব জমি নেই, অন্যের জমিতে ভাগে চাষ করে তারা দিন গুজরান করে। সেসব পরিবারের সদস্যরা বাড়িতে ফাঁকা জায়গাকে কাজে লাগিয়ে দু-একটি ফলের গাছ যেমন কলা, পেঁপে, পেয়ারা, লেবু, দু-একটি সব্জি যেমন বেগুন, লাউ, চালকুমড়ো, কুমড়ো, কাঁচালঙ্কার গাছ লাগাতে পারেন। এতে পরিবারের ফল ও সব্জির চাহিদা যেমন কিছুটা হলেও মিটবে, তেমনই বাড়তি ফল ও সব্জি বিক্রি করে পরিবারগুলি কিছু টাকা আয়ও করতে পারবে। যদি বাড়ি সংলগ্ন কোনও ছোট ডোবা থাকে তা হলে ওই ডোবার চারদিকে মাটি ফেলে পাড় কিছুটা উঁচু করে সেখানে কলা, নারকেল, সুপারি, পেয়ারা, লেবু, সজনে গাছ লাগানো যেতে পারে। আবার সেখানে বিভিন্ন সব্জিও চাষ করা যেতে পারে। যেমন, বেগুন, লাউ, কুমড়ো, লঙ্কা, বকফুল, বিভিন্ন শাক লাগিয়ে পরিবারের চাহিদা মিটিয়ে অতিরিক্ত শাকসব্জি ও ফল বাজারে বিক্রি করে কিছুটা অর্থ উপার্জনের পথ দেখা সম্ভব। এছাড়া ডোবায় জল ধরে রেখে কিছু মাছ চাষও করা যেতে পারে। যেমন, তেলাপিয়া, কই, শিঙ্গি ও মাগুরের চাষ করা যেতে পারে। সেইসঙ্গে ডোবায় হাঁস পালন করেও অতিরিক্ত অর্থ উপার্জন করা সম্ভব। এর ফলে ক্ষুদ্র ও প্রান্তির চাষিরা তাঁদের পরিবারে ডিম ও মাছের চাহিদা মিটিয়ে বাজারে বিক্রি করে কিছুটা আয় করতে পারেন। ক্ষুদ্র ও প্রান্তির চাষিরা তাঁদের বাড়ি সংলগ্ন জমিতে হাঁসপালন, মাছচাষ, ফল চাষের সঙ্গে সব্জির চাষ করার জন্য স্থানীয় কৃষি ও প্রাণীপালন দপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন। তাতে তাঁরা ভর্তুকিমূল্যে বীজ ও হাঁস-মুরগির বাচ্চা পেতে পাবেন।

দক্ষিণ ২৪ পরগনায় বাড়ছে তেলাপিয়া ও মাগুরের যৌথ চাষ

সংবাদদাতা: দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন ব্লকে যেমন কুলতলি, মগরাহাট ১ ও ২, বারুইপুর, জয়নগর ১ ও২, মথুরাপুর ১ ও ২ এবং মন্দিরবাজার এলাকায় চলছে তেলাপিয়ার সঙ্গে দেশি মাগুরের চাষ। এই যৌথ মাছচাষে অনেক বেশি লাভ মিলছে বলে মৎস্যচাষিরা জানিয়েছেন।
বিশদ

খুদে বোলতাতে জনপ্রিয় হচ্ছে ফেরোমেন ফাঁদ

সংবাদদাতা: নামেই ফলের মাছি। আসলে এটি খুদে বোলতা। এই পোকাটি দমনে গ্যাপ বা গুড এগ্রিকালচারাল প্র্যাকটিস নিয়ে এসেছে নতুন ধরনের এক ফেরোমেন ফাঁদ। যাতে শুধুমাত্র পুরুষ পোকাই আকৃষ্ট হবে এবং ফাঁদে পড়ে মারা যাবে। এভাবে ছোট বোলতা দমনের পদ্ধতির আরএক নাম আকর্ষণ এবং দমন পদ্ধতি।
বিশদ

চাষে বাড়ছে জীবাণুসারের প্রয়োজনীয়তা

 সংবাদদাতা: বর্তমানে যেকোনও ফসল চাষে জীবাণুসার প্রয়োগ অত্যন্ত জরুরি। যেকোনও ফসল চাষ করতে গেলে চাষিরা যদি নিয়ম মেনে জীবাণুসার প্রয়োগ করে থাকেন, তা হলে উৎপাদন ২০ থেকে ৩৫ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা সম্ভব। সমস্ত ফসলে একই ধরনের জীবাণুসার প্রয়োগ করা চলবে না।
বিশদ

প্রচণ্ড গরমের জেরে জমিতেই তিতো হয়ে যাচ্ছে ঝিঙে, শশা

 সংবাদদাতা: দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন ব্লকে অর্থাৎ নামখানা, কাকদ্বীপ, সাগরদ্বীপ, পাথরপ্রতিমা, কুলতলি, কুলপি, জয়নগর ১ ও ২, বারুইপুর, মগরাহাট ১ও ২, ডায়মন্ডহারবার ১ ও ২-এ গ্রীষ্মের দাবদাহে খেতেই বিভিন্ন ফসল যেমন ঝিঙে, শশা ও ধুধুলের স্বাদ তিতো হয়ে যাচ্ছে। এতে চাষিরা যেমন অবাক হচ্ছেন, তেমনই হচ্ছেন দিশাহারা।
বিশদ

রানাঘাটে ত্রিস্তর চাষ

 সংবাদদাতা: নদীয়া জেলার রানাঘাট মহকুমায় চলছে ত্রিস্তর পদ্ধতিতে চাষ। ৪ ফুট বাই ৪ ফুট জায়গায় বসানো হচ্ছে কাঠের ফ্রেম। ফ্রেমের উচ্চতা ৫ ফুট। ফ্রেমের ১ ফুট উঁচুতে বসানো হয়েছে ৪ ফুট বাই ৪ ফুট বাই ১ ফুট কাঠের ট্রে। এই ট্রেতে জল দেওয়া হচ্ছে। ছাড়া হচ্ছে ট্যাংরা মাছের মীন।
বিশদ

বর্ষাকালীন মুগডাল চাষে এখনই প্রস্তুতি নিতে হবে

সংবাদদাতা: মুগ ডাল চাষ করে চাষিরা ভালো আর্থিক লাভ পেতে পারেন। মুগের চাহিদা বাজারে সারাবছর থাকে। এবং দামও ভালো পাওয়া যায়। যেকোনও ডালের থেকে বাজারে মুগ ডালের দাম সবসময় বেশি থাকে।
বিশদ

খরচ নামমাত্র, কম সময়ে বেশি লাভ পেতেই আগ্রহ বাড়ছে মাশরুম চাষে

মাশরুম চাষে মানুষের আগ্রহ বাড়ছে, তার দু’টি নির্দিষ্ট কারণ রয়েছে। এক, মাশরুম চাষে পুঁজি খুবই কম লাগে। সিলিন্ডার প্রতি খরচ হয় ২২-২৪ টাকা। আর আয় হয় কমপক্ষে ১১০-১২০ টাকা। দুই, মাশরুম বাজারজাত করতে সময় লাগে মাত্র এক থেকে দেড় মাস। মাশরুম উৎপাদন পদ্ধতিও অত্যন্ত সহজ। কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র বা ব্লক সহকারি কৃষি অধিকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে মাশরুম উৎপাদন সম্পর্কে জানতে পারবেন আগ্রহীরা। মাশরুমে কিছু ক্ষেত্রে ছত্রাকের আস্তরণ পড়ে। ব্যাকটেরিয়া ঘটিত বাদামি রস ঝরা রোগ হতে পারে। ফটকিরি জল বিশেষ উপকারি। ড. অভিজিৎ ঘোষাল, শস্য সুরক্ষা বিশেষজ্ঞ, দক্ষিণ ২৪ পরগনার শস্য শ্যামলা কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র
বিশদ

 দক্ষিণ ২৪ পরগনায় চাষ বাড়ছে হাইব্রিড ঢেঁড়সের

  সংবাদদাতা: দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন এলাকায় হাইব্রিড ঢেঁড়স চাষ হচ্ছে। এর ফলন বেশি। রোগপোকার আক্রমণ কম। বারুইপুর, মগরাহাট ১ ও ২, ডায়মণ্ডহারবার ১ ও ২, ফলতা, বিষ্ণুপুর ১ ও ২, বজবজ ১ ও ২, জয়নগর ১ ও ২ এবং কুলপিতে চলছে হাইব্রিড ঢেঁড়সের চাষ। প্রচুর চাষি গ্রীষ্মকালীন ঢেঁড়স চাষ করে ভালো ফলন পেয়েছেন।
বিশদ

08th  May, 2019
বারুইপুরে নতুন পেয়ারা বাগানে ব্যবহৃত হচ্ছে বাড়িতে তৈরি জৈবসার

  সংবাদদাতা: দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুরে নতুন পেয়ারা বাগানে অনেক কৃষক ব্যবহার করছেন বাড়িতে তৈরি জৈবসার। তাতে ভালো ফলন মিলছে। বারুইপুর ব্লক পেয়ারা চাষের জন্য বিখ্যাত। বর্ষার আগে বহু চাষি তাঁদের পুরনো বাগান বাগানের সব গাছ তুলে ফেলে নতুন বাগান তৈরি করছেন।
বিশদ

08th  May, 2019
 পাটচাষে সমস্যা বাড়ছে, জেসিআই নিয়েও ক্ষোভ

  সংবাদদাতা: এমনিতেই পাটচাষে সমস্যা লেগে রয়েছে। প্রতি বছর পাট চাষের খরচ বাড়ছে। এছাড়াও চাষের বিভিন্ন সমস্যা রয়েছে। উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতে জেসিআই অফিসে গেলে সেসব সমস্যার অনেকটাই সুরাহা পেতেন চাষিরা। কিন্তু অফিসটি উঠে যাওয়ায় পাটচাষিদের হয়রানি বেড়েছে।
বিশদ

08th  May, 2019
 বছরে মিলবে ৩০০টি ডিম, জল ছাড়াই খাকি ক্যাম্পবেল হাঁস পালন

গরমে খাকি ক্যাম্পবেল হাঁসের ব্যাকটেরিয়াজনিত রোগ দেখা দিতে পারে। এজন্য আগাম ব্যবস্থা নিতে হবে। ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে হাঁসের কলেরা রোগ হতে পারে। এই রোগ প্রতিরোধে বছরে দু’বার একবার শীতকালে এবং গ্রীষ্মকালে টিকা দিতে হবে। ডাক প্লেগ রোগ প্রতিরোধে একবার টিকা দিলেই যথেষ্ট... ড. জয়দেব বেরা, সহ অধিকর্তা, উত্তর ২৪ পরগনার গোবরডাঙা, রাজ্য পোল্ট্রি খামার
বিশদ

08th  May, 2019
বর্ষা শুরুর আগে স্বল্প মেয়াদি সব্জিচাষ 

 সংবাদদাতা: বর্ষা শুরুর আগে স্বল্প মেয়াদি সব্জি চাষ করে লাভ ঘরে তুলতে পারবেন চাষিরা। এই সময় বিভিন্ন ধরনের শাক, ঝিঙে, শশা, পটল, মিষ্টি কুমড়ো, চাল কুমড়ো চাষ করা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন কৃষি আধিকারিকরা। কালবৈশাখীর বৃষ্টি এইসব সব্জি চাষের পক্ষে জলের প্রয়োজন মেটাতে পারে। প্রয়োজনে সেচ দিতে হবে।
বিশদ

08th  May, 2019
 জমির চরিত্র বুঝেই চাষ করতে হবে আমন, জরুরি ভালো জাতের বীজ

ব্রতীন দাস: এখন থেকেই আমন ধান চাষের জন্য ভালো জাতের বীজ সংগ্রহ করতে হবে। সেক্ষেত্রে বিশ্বস্ত সংস্থা বা প্রতিষ্ঠান থেকে বীজ সংগ্রহ করার সুপারিশ করছেন কৃষি আধিকারিকরা।
বিশদ

08th  May, 2019
বাড়ি-ফ্ল্যাটের ছাদ, ব্যালকনি সাজাতে পাতাবাহার ও ফার্ন
কীভাবে বাগান করবেন?

 নিজস্ব প্রতিনিধি: পাতাবাহার, ফার্নের বাগান থেকে বাণিজ্যিকভাবে আয় করা সম্ভব। বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, বাগান করার ক্ষেত্রে এমন গাছ নির্বাচন করতে হবে, যেগুলি সহজেই বেড়ে ওঠে এবং অল্প পরিচর্যার প্রয়োজন হয়। ছায়া কিংবা আংশিক ছায়ায় গাছ বেঁচে থাকবে। আলোক তীব্রতা সহনশীল হবে।
বিশদ

02nd  May, 2019

Pages: 12345

একনজরে
 রোম, ১৪ মে: বয়স ৩৭, ঝুলিতে রয়েছে ২০টি গ্র্যান্ডস্ল্যাম খেতাব। রজার ফেডেরার এখনও টেনিস উপভোগ করছেন। তিনি আরও ম্যাচ খেলতে চান। মে মাসের শেষে ফরাসি ...

বিএনএ, মালদহ: মালদহের হবিবপুর বিধানসভা উপনির্বাচনে প্রার্থী দিয়ে নিজেদের অস্তিত্ব প্রমাণের চেষ্টা করলেও প্রচারে এখনও সেভাবে সাড়া ফেলতে পারল না কংগ্রেস। নির্বাচনী এলাকাজুড়ে দেওয়াল লিখন ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: ভোট শেষ হয়ে গিয়েছে গত ৬ এপ্রিল। কিন্তু, এখনও হাওড়া জেলায় ভোটের চুলচেরা বিশ্লেষণ নিয়ে ব্যস্ত জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। কোন বিধানসভা এলাকা থেকে কত লিড আসবে বা কোন বিধানসভা কেন্দ্রে ফল খারাপ হতে পারে, তা নিয়ে ব্লক ...

ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে শুধু সেগুলির বাজার বন্ধকালীন দরই নীচে দেওয়া হল। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীদের ক্ষেত্রে ভাবনা-চিন্তা করে বিষয় নির্বাচন করলে ভালো হবে। প্রেম-প্রণয়ে বাধাবিঘ্ন থাকবে। কারও সঙ্গে মতবিরোধ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮১৭: ধর্মীয় সংস্কারক ও দার্শনিক দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্ম
১৮৫৯: নোবেলজয়ী ফরাসি পদার্থ বিজ্ঞানী পিয়ের কুরির জন্ম
১৯০৫: কবি ও লেখক অন্নদাশঙ্কর রায়ের জন্ম
১৯৬৭: অভিনেত্রী মাধুরী দীক্ষিতের জন্ম 



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৬৫ টাকা ৭১.৩৪ টাকা
পাউন্ড ৮৯.৭৪ টাকা ৯২.৯৯ টাকা
ইউরো ৭৭.৭৩ টাকা ৮০.৭২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৮১৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩১,১৩৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,৬০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৭,২৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৭,৩৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩১ বৈশাখ ১৪২৬, ১৫ মে ২০১৯, বুধবার, একাদশী ১৩/৫৮ দিবা ১০/৩৬। উত্তরফাল্গুনী ৫/৩৯ দিবা ৭/১৬। সূ উ ৫/০/৩৬, অ ৬/৫/১৮, অমৃতযোগ দিবা ৬/৪৫ মধ্যে পুনঃ ৯/১১ গতে ১১/৭ মধ্যে পুনঃ ৩/২৮ গতে ৫/১৩ মধ্যে। রাত্রি ৬/৪৯ গতে ৯/০ মধ্যে পুনঃ ১/২২ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৮/১৬ গতে ৯/৫৫ মধ্যে পুনঃ ১১/৩৩ গতে ১/১১ মধ্যে, কালরাত্রি ২/১৬ গতে ৩/৩৮ মধ্যে।
৩১ বৈশাখ ১৪২৬, ১৫ মে ২০১৯, বুধবার, একাদশী ১০/৫১/২১ দিবা ৯/২১/২২। উত্তরফাল্গুনীনক্ষত্র ৩/২৩/৩৫ দিবা ৬/২২/১৬ পরে হস্তানক্ষত্র ৫৯/৫৮/৫১, সূ উ ৫/০/৫০, অ ৬/৬/৪২, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৫ গতে ১১/৮ মধ্যে ও ১/৪৭ গতে ৫/২০ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৪৭ মধ্যে ও ১১/৫৬ গতে ১/২২ মধ্যে, বারবেলা ১১/৩৩/৪৬ গতে ১/১২/১ মধ্যে, কালবেলা ৮/১৭/১৮ গতে ৯/৫৫/৩২ মধ্যে, কালরাত্রি ২/২৭/১৮ গতে ৩/৩৯/৪ মধ্যে। 
৯ রমজান
এই মুহূর্তে
বন্ধ হলদিয়া বন্দর 
শ্রমিক বিক্ষোভে স্তব্ধ হয়ে হলদিয়া বন্দর। বন্দর বন্ধ হওয়াতে অচলাবস্থা ...বিশদ

10:17:37 PM

এমন নির্বাচন কমিশন জম্মে দেখিনি: মমতা
বিজেপি যা বলছে নির্বাচন কমিশন তাই করছে। এমন নির্বাচন কমিশন ...বিশদ

09:22:00 PM

 অমিত শাহর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত: মমতা

09:17:27 PM

জরুরী সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী 

09:16:21 PM

গুয়াহাটির শপিং মলের বাইরে বিস্ফোরণ
গুয়াহাটির জু রোডের একটি শপিং মলের বাইরে বিস্ফোরণ ঘটে। ঘটনায় ...বিশদ

08:45:31 PM

রাজ্যে ভোট প্রচারের সময় কমল
শেষ দফার নির্বাচনী প্রচারে সময় কমিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন। এর ...বিশদ

08:07:49 PM