Bartaman Patrika
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

টপাটপ অ্যান্টাসিড খাওয়ার বিপদ

নিমন্ত্রণবাড়ির ভূরিভোজ তো অনেক দূরের ব্যাপার, অনেকেই আছেন যাঁরা আলু সিদ্ধ-ভাত খাওয়ার পরেও অ্যান্টাসিড খান! এমনকী দুপুর ও রাতের খাবারের পরেও গ্যাস-অম্বলের ওষুধ খাওয়া অনেকের অভ্যেস। এভাবে কি সত্যিই মুড়িমুড়কির মতো অ্যান্টাসিড খাওয়া যায়? নাকি চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া নিত্যদিন অ্যান্টাসিড সেবনের তীব্র কুপ্রভাব রয়েছে? জানাচ্ছেন বিশিষ্ট গ্যাস্ট্রোএনটেরোলজিস্ট ডাঃ সত্যপ্রিয় দে সরকার।

তেলে-ঝালে বাঙালি। তার ওপর বারো মাসে তেরো পার্বণ। সেইসঙ্গে বিয়ে, উপনয়ন ও নানারকম অনুষ্ঠান সারা বছর ধরে লেগেই থাকে। ফলে মাসের মধ্যে বেশ কয়েকদিন ভালোরকম ভূরিভোজ হয়েই যায়। তাই আমরা বাঙালিরা অ্যান্টাসিডকে বড়ই আপন করে নিয়েছি। এটি ছাড়া আমাদের এক মুহূর্ত চলে না।
অতিরিক্ত তেল-ঝাল-মশলা যুক্ত খাবার খাওয়ার ফলে ঢেকুর, বুক জ্বালা, গলায় টক জল উঠে আসা কিংবা পেটের ওপরের অংশ প্রধানত ফুলে ওঠে। আর তখনই আমরা চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই টপাটপ অ্যান্টাসিড খেয়ে নিই। শুধু বড়রা নয়, অনেক বাচ্চাকেই তাদের মায়েরা চামচে বা ওষুধের ছিপিতে করে মুখে তরল অ্যান্টাসিড ঢেলে দিয়ে থাকেন। ডাক্তারি মতে ছয় বছরের নীচের বাচ্চাদের অ্যান্টাসিড না দেওয়াই ভালো। 
এবার অ্যান্টাসিড নিয়ে একটু আলোচনায় আসা যাক। এতে মূলত চার ধরনের উপাদান যুক্ত থাকে। ১) সোডিয়াম, ২) অ্যালুমিনাম, ৩) ম্যাগনেশিয়াম, ৪) ক্যালশিয়াম। 
যেসব অ্যান্টাসিডে সোডিয়াম থাকে সেগুলি মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহার করলে নানারকম সমস্যা শুরু হতে পারে। প্রেশারের রোগী, কিডনি ও লিভার ফেলিওরের সমস্যায় যাঁরা ভুগছেন তাঁদের অ্যান্টাসিড থেকে শত হস্ত দূরে থাকা উচিত। 
নিয়ম না মেনে ইচ্ছামতো অ্যান্টাসিড খাওয়া শুরু ও বন্ধ করলে যে সমস্যাটি দেখা দেয় তার নাম রিবাউন্ড হাইপার অ্যাসিডিটি, অর্থাৎ অ্যাসিড ক্ষরণের পরিমাণ তাঁদের বহুগুণ বেড়ে যায়।
যে সব অ্যান্টাসিডে অ্যালুমিনাম থাকে তা বহুদিন ব্যবহারের ফলে কোষ্ঠকাঠিন্য ছাড়াও ক্যালশিয়াম সরে গিয়ে হাড় নরম হয়ে যায়। শরীরে ফসফেটের পরিমাণ কমে যেতে পারে। কিডনির সমস্যায় যাঁরা ভুগছেন তাঁদের শরীরে সোডিয়াম, পটাশিয়ামের মাত্রা কমে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। যদি এরকম হয় তাহলে তা প্রাণসংশয়ের কারণ পর্যন্ত হতে পারে।
ম্যাগনেশিয়াম যুক্ত অ্যান্টাসিড বেশি খেলে ডায়ারিয়া হওয়ার আশঙ্কা থাকে। এছাড়া যাঁরা কিডনির সমস্যায় ভুগছেন তাঁদের রক্তে ম্যাগনেশিয়ামের পরিমাণ বেড়ে যায়। কারণ অসুস্থ কিডনি রক্তে জমে থাকা ম্যাগনেশিয়াম শোষণ করে বের করতে পারে না।
ক্যালশিয়াম সমৃদ্ধ অ্যান্টাসিড বেশি খেলে বমি বমি ভাব বা বমি পর্যন্ত হতে পারে। এছাড়া মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি পায় ও কিডনিতে ক্যালশিয়ামের স্টোন হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। 
ক্যালশিয়াম যুক্ত অ্যান্টাসিডের কারণে মিল্ক অ্যালকালি সিনড্রোমও দেখা দিতে পারে। শরীরে ক্যালশিয়াম বৃদ্ধির ফলে রক্তে ক্ষারের পরিমাণ বেড়ে যায়। এর ফলে কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। 
অ্যান্টাসিড অ্যাসিডিক ওষুধ যেমন ডিগক্সিন (হার্ট ফেলিওরের জন্য ব্যবহৃত হয়), আইএনএইচ (টিবির ‌জন্য), এপটয়েন (এপিলেপসির) প্রভৃতির কার্যক্ষমতা কমিয়ে এইসব ওষুধকে রক্তে মিশতে বাধা দেয়।
দীর্ঘদিন অ্যান্টাসিড খাওয়ার ফলে ঘন ঘন ডায়ারিয়া, সামান্য আঘাতে শরীরের যে কোনও জায়গার হাড় ভেঙে যেতে পারে। কখনও কখনও অ্যান্টাসিড সেবনের পর শরীরে অ্যালার্জিও বের হতে পারে। যেমন গায়ে লাল র‌্যাশ, নিশ্বাসের কষ্ট ও প্রেশার কমে যায়।  শ্বাসের কষ্ট ও প্রেশার কমে যাওয়ার ঘটনা অবশ্য খুব কমই ঘটে। তবে যদি ঘটে তাহলে তা থেকে প্রাণহানি পর্যন্ত হতে পারে। 
যাঁরা অ্যান্টি প্লেটলেট ড্রাগ বা রক্ত তরল করার ওষুধ খান তাঁদের কখনও অ্যান্টাসিড খাওয়া উচিত নয়। এতে রক্তপাতের আশঙ্কা বেড়ে যায়। সবশেষে একটি গুরুত্বপূর্ণ কথা আপনাদের জানাতে চাই— আলসার সারাবার ক্ষমতা অ্যান্টাসিডের প্রায় নেই বললেই চলে, এটি খাবার পর রোগী সাময়িকভাবে কিছুক্ষণের জন্য আরাম পান। অ্যাসিডিটি ও কষ্ট কমাবার ক্ষমতা পূর্ণমাত্রায় রয়েছে পিপিআই বা এইচটুব্লকার জাতীয় ওষুধে। এই ধরনের ওষুধকে আমরা অ্যান্টাসিড বলি না। এগুলি অ্যাসিডের সঙ্গে কোনওরকম বিক্রিয়া করে না, এরা পাকস্থলী থেকে অ্যাসিডের ক্ষরণকে কমিয়ে দেয়। 
তবে একটা কথা সবসময় মাথায় রাখবেন চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কখনওই কোনও ওষুধ  খাবেন না। এর ফল কিন্তু বহুক্ষেত্রেই খুব খারাপ হয়ে থাকে।
অনুলিখন: অপূর্ব চট্টোপাধ্যায় 
26th  November, 2020
ভ্যাকসিন নেওয়ার সুফল কী কী?

চিকিৎসাবিজ্ঞানের কৃপায় অবশেষে দেশব্যাপী টিকাকরণের মহাযজ্ঞ শুরু হয়ে গেল। বর্তমানে প্রথম পর্যায়ের টিকাকরণ চলছে। এখন টিকা পাচ্ছেন চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। আর কয়েকটি ধাপ পেরলেই সাধারণ মানুষও টিকা পাবে। বিশদ

বিবেকানন্দের জন্মবার্ষিকী পালনে
বিভিন্ন হাসপাতাল, সংগঠন

বিবেকানন্দের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ন্যাশনাল মেডিকোস অর্গানাইজেশন (এন.এম.ও) বেঙ্গলের পক্ষ থেকে রাজ্যজুড়ে ‘স্বামী বিবেকানন্দ সেবাযাত্রা’-এর আয়োজন করা হয়েছিল। পাশাপাশি পিছিয়ে পড়া জনজাতির মধ্যে স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধি করতে স্বাস্থ্য সেবা ও স্বাস্থ্য শিবিরের আয়োজন করা হয়েছিল। বিশদ

আমেরিকার প্রধান সহযোগী ভারত,
ঘোষণা মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগের
পাকিস্তান নীতিতেও বদলের ইঙ্গিত নয়া সরকারের

ভারতই হবে আমেরিকার প্রধান সামরিক অংশীদার। জো বাইডেনের শপথ গ্রহণের আগে‌ এ঩ই ঘোষণা করেছে মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগ। ভারতের সঙ্গে সামরিক, স্ট্র্যাটেজিক এবং কূটনৈতিক সম্পর্ক আরও শক্তিশালী করতে চলেছে নবনির্বাচিত মার্কিন সরকার। বিশদ

কী কী পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে? 

পরামর্শে আর জি কর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডাঃ জ্যোতির্ময় পাল। বিশদ

হারানো স্বাস্থ্য ফিরে পেতে কী করবেন?

শরীর অসুস্থ হওয়ার প্রধান কারণ চারটি—১. ভুল খাদ্য গ্রহণ। ২. শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ফ্যাট জমার প্রবণতা। ৩. ফ্যাট ঝরাতে শরীরচর্চায় অনীহা এবং ৪. শরীর নিয়ে সচেতনতার অভাব। বিশদ

14th  January, 2021
করোনার ক্ষতি সারিয়ে
উঠবেন কী করে?

২০২০ বছরটা জুড়ে অসংখ্য মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সেই সংক্রমণের গ্রাফ এখন কিছুটা নিম্নমুখী হলেও নতুন বছরেও মানুষ এই অসুখে আক্রান্ত হয়ে চলেছেন। তবে আপাতদৃষ্টিতে লক্ষ করলে সহজেই বোঝা যাবে যে, বেশিরভাগ মানুষই এই রোগ থেকে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠছেন। বিশদ

14th  January, 2021
ধমনীতে ব্লক থাকলে
অ্যাঞ্জিও না বাইপাস? 

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের হার্ট অ্যাটাকের জন্য এখন প্রায় সকলেই জেনে গিয়েছেন যে আমাদের হৃৎপিণ্ডের রক্ত চলাচল করে প্রধানত তিনটি ধমনী দিয়ে। ওই তিনটি ধমনী হল— ১. এলএডি (লেফ্ট অ্যান্টেরিওর ডিসেন্ডিং)— এই ধমনী হৃৎপিণ্ডের সামনের দিকের হৃদপেশিকে রক্ত পৌঁছে দেয়।  বিশদ

07th  January, 2021
তরুণ বয়সেই
হৃদরোগের কবলে... 

৩৭ বছরে প্রথম হৃদরোগ ধরা পড়ে সইফ আলি খানের। সেবার মৃদু হার্ট অ্যাটাক হয়েছিল তাঁর। পরিবারে হৃদরোগের ইতিহাস থাকায় তারপর থেকে চিকিৎসকদের কড়া নজরদারির মধ্যেই রয়েছেন পতৌদি পুত্র। 
বিশদ

07th  January, 2021
কমবয়সেই হার্ট অ্যাটাক
প্রতিরোধ কীভাবে? 

পরামর্শে বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. অরূপ দাশবিশ্বাস।
বিশদ

07th  January, 2021
চোখ ও দাঁতের কী কী অসুখ
আর ফেলে রাখবেন না?

ন’মাস ধরে ভোগাচ্ছে করোনা। তারই মধ্যে জীবনযুদ্ধ চলছে। কিন্তু করোনার ভয়ে জটিল রোগ সত্ত্বেও অনেকে হাসপাতালমুখো হচ্ছেন না। নিঃশব্দে বাড়ছে পুরনো অসুখ। যে কোনও সময় বড় বিপদ হতে পারে। চোখ ও দাঁতের কী কী অসুখ আর ফেলে রাখা উচিত হবে না, আলোচনা করলেন দিশা আই হসপিটালের ভিট্রিও রেটিনা কনসালটেন্ট ডাঃ শান্তনু মণ্ডল ও বর্ধমান ডেন্টাল কলেজের অধ্যক্ষ ডাঃ জীবন মিশ্র। বিশদ

24th  December, 2020
দাঁতের যত্নে খাবার
পাতে কী কী রাখবেন?

দাঁত থাকতে আজকাল দাঁতের মর্যাদা বোঝেন অনেকেই। তাই দাঁত নিয়ে ভাবনাচিন্তাও অনেক বেশি। তবে ভাবনাচিন্তা থাকলেও যত্নের কিছু ঘাটতি এখনও আছে বলেই মত দন্তবিশেষজ্ঞদের। বাড়ির খুদে সদস্যটিকে নাহয় ‘চকোলেট খেও না, দাঁত নষ্ট হবে’, বলে ভয় দেখাতে পারেন। তাতে তার চকোলেটের বায়না না কমলেও দাঁত খারাপের ভয় গুঁড়ি মেরে ঢুকে পড়ে মনে। কিন্তু নিজের জন্য এই সতর্কতা কতটা মানেন? বিশদ

24th  December, 2020
বেলভিউ-এর নতুন দু’টি হাসপাতাল,
স্বাস্থ্যক্ষেত্রে বিনিয়োগ ৬০০ কোটি

রাজারহাটে আরও দু’টি হাসপাতাল খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বেলভিউ নার্সিংহোম। একটি ১৬৪টি শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল, অন্যটি ৪০০ শয্যাবিশিষ্ট মাল্টিস্পেশালিটি হাসপাতাল। লাউডন স্ট্রিটের হাসপাতাল ও প্রিয়ম্বদা বিড়লা অরবিন্দ আই হাসপাতালের শয্যাসংখ্যাও বাড়ানো হবে। বিশদ

24th  December, 2020
শীতে শ্বাসকষ্টের রোগীরা
ভালো থাকবেন কীভাবে?

এমনিতে অ্যাজমা আর সিওপিডি রোগীকে সারাবছরই সতর্ক থাকতে হয়।  তবে শীতকালে এই ধরনের রোগীর একটু বেশিই সাবধানে থাকা দরকার।  কারণ শীতকালে পরিবেশের তাপমাত্রা কমে যায়। হ্রাস পায় আর্দ্রতাও। বায়ুতে বৃদ্ধি পায় ধুলোবালির মাত্রা। এছাড়া ধোঁয়া আর ধূলিকণাকে আশ্রয় করে গড়ে ওঠা কুয়াশা, ধোঁয়াশা আকছার তৈরি হতে দেখা যায়।  বিশদ

17th  December, 2020
বেলপাহাড়িতে থ্যালাসেমিয়া  সচেতনতা

ঝাড়গ্রাম জেলার বেলপাহাড়ির একেবারে প্রান্তিক শিঁয়ারবিন্দা গ্রামে থ্যালাসেমিয়া ও ব্লাড ক্যান্সার সচেতনতা শিবিরের আয়োজন করেছিল আর্যভ ওয়েলফেয়ার সোসাইটি। সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়, শিবিরে উপস্থিত বিশিষ্ট হেমাটো অঙ্কোলজিস্ট ডাঃ দেবমাল্য ভট্টাচার্য আগত মানুষকে এই দু’টি রোগ সম্বন্ধে সচেতন করেন। বিশদ

17th  December, 2020
একনজরে
৪০টি শ্রম আইনকে একত্রিত করে চারটি লেবার কোডে পরিণত করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। ১ এপ্রিলের আগেই সারা দেশে কার্যকর করা হতে পারে সেই চার লেবার কোড। এমনটাই খবর শ্রমমন্ত্রকের শীর্ষ সূত্রে। ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মঙ্গলবার রাতে হঠাৎই শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটল প্রাক্তন ফুটবলার প্রশান্ত ডোরার। জেনারেল বেড থেকে তাঁকে আইসিইউ’তে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।   ...

নিজেদের দাবি আদায়ে আরও বড় আন্দোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বিক্ষোভরত কৃষকরা। আগামী ২৬ জানুয়ারি, সাধারণতন্ত্র দিবসের আগেই একপ্রকার নজিরবিহীনভাবে দিল্লি-হরিয়ানা সীমানায় আয়োজন করা হতে পারে ‘কিষান সংসদ’। ...

সামনেই নেতাজি জয়ন্তী ও সাধারণতন্ত্র দিবস। হাতে সময় কম, বড়বাজারে জমে উঠেছে জাতীয় পতাকার বিক্রি। ব্যবসায়ীদের বক্তব্য, করোনা আবহ এখন অনেকটাই কেটে গিয়েছে, তাই আমাদের ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

 বিদ্যার্থীরা পড়াশুনার ক্ষেত্রে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা পাবে। নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস বাড়বে। অতিরিক্ত চিন্তার জন্য উচ্চ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯০১ - টেলিফোনের উদ্ভাবক ইলিশা গ্রে-র মৃত্যু
১৯৪৫- স্বাধীনতা সংগ্রামী রাসবিহারী বসুর মৃত্যু
১৯৫০- ইংরেজ সাহিত্যিক জর্জ অরওয়েলের মৃত্যু
১৯৬৮- চারটি হাইড্রোজেন বোমা সহ গ্রিনল্যান্ডে ভেঙে পড়ল আমেরিকার বি-৫২ যুদ্ধবিমান
১৯৭২ - মনিপুর, মেঘালয় ও ত্রিপুরা ভারতের পূর্ণ রাজ্যে পরিণত হয়।
১৯৮৬- অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের জন্ম 
২০০৮ - কালো সোমবার হিসেবে বিশ্বব্যাপী শেয়ার বাজারে প্রতিষ্ঠিত। এফটিএসই ১০০-এর সূচক একদিনে সবচেয়ে বড় পতন ঘটে। ইউরোপীয় স্টক এক্সচেঞ্জগুলো ১১ সেপ্টেম্বর, ২০০১ - এর পর সবচেয়ে খারাপ করে শেষ হয়। এশিয়ার শেয়ার মার্কেটগুলোর সূচক ১৪% কমে যায়।



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.২৯ টাকা ৭৪.০০ টাকা
পাউন্ড ৯৮.১৩ টাকা ১০১.৫৭ টাকা
ইউরো ৮৭.২৫ টাকা ৯০.৪৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫০,০০০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৭,৪৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৮,১৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৬,৫০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৬,৬০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৭ মাঘ ১৪২৭, বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, অষ্টমী ২৩/২০ দিবা ৩/৫১। অশ্বিনী নক্ষত্র ২৩/৪ দিবা ৩/৩৬। সূর্যোদয় ৬/২২/৪২, সূর্যাস্ত ৫/১৩/১০। অমৃতযোগ রাত্রি ১/৭ গতে ৩/৪৪ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৭/৪৯ মধ্যে পুনঃ ১০/৪৩ গতে ১২/৫২ মধ্যে। বারবেলা ২/২৯ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ১১/৪৮ গতে ১/২৭ মধ্যে। 
৭ মাঘ ১৪২৭, বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, অষ্টমী দিবা ৩/৪৪। অশ্বিনী নক্ষত্র অপরাহ্ন ৪/২। সূর্যোদয় ৬/২৬, সূর্যাস্ত ৫/১২। অমৃতযোগ রাত্রি ১/৭ গতে ৩/৪২ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৭/৪৬ মধ্যে ও ১০/৪৩ গতে ১২/৫৬ মধ্যে। কালবেলা ২/৩০ গতে ৫/১২ মধ্যে। কালরাত্রি ১১/৪৯ গতে ১/২৮ মধ্যে।
৭ জমাদিয়স সানি।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
পুনের সিরাম ইনস্টিটিউটে আগুন
অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটল দেশের বৃহত্তম ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক সংস্থা  পুনের সিরাম ...বিশদ

03:20:00 PM

কালিম্পংয়ে আগ্নেয়াস্ত্র, কার্তুজ সহ গ্রেপ্তার ৪ 

01:25:00 PM

কয়লা কাণ্ডে ফের বিকাশ মিশ্রকে জিজ্ঞাসাবাদ সিবিআইয়ের

01:19:45 PM

২৯০ পয়েন্ট উঠল সেনসেক্স

10:40:54 AM

হায়দরাবাদের মীরচকে একটি বাড়িতে সিলিন্ডার বিস্ফোরণ, জখম ১৩ 

10:37:35 AM

বিজেপিতে যোগ অরিন্দম ভট্টাচার্যের, ফ্লেক্স খুলে ফেলল তৃণমূল 
শান্তিপুরের তৃণমূল বিধায়ক অরিন্দম ভট্টাচার্য বিজেপিতে যোগ দিলেন। এরপরই শহরে ...বিশদ

10:34:00 AM