Bartaman Patrika
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

জুনোসিস কী? বাঁচবেন কীভাবে?  

জানাচ্ছেন আর জি কর মেডিক্যাল কলেজের মেডিসিন বিভাগের প্রফেসর ডাঃ জ্যোর্তিময় পাল।

মানুষ ছাড়া অন্যান্য যে কোনও প্রাণীর শরীর থেকে মানুষের শরীরে ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস বা ফাঙ্গাস বাসা বাধলে জুনোসিস ডিজিস বলা হয়। এক্ষেত্রে পশু, পাখি, পতঙ্গ বা সরীসৃপের শরীর থেকে বিভিন্ন উপায়ে রোগ জীবাণু মানুষের দেহে সংক্রামিত হয়ে থাকে।
সারা পৃথিবীতে যত ধরনের সংক্রামক রোগ রয়েছে তার ৬০ শতাংশই কোনও না কোনও সময়ে অন্যান্য প্রাণীর শরীর থেকেই মানুষের মধ্যে এসেছিল। তবে প্রাণীটির দেহে এই জীবাণুর বিরুদ্ধে এক প্রকার ইমিউনিটি থাকে। অথচ সেই জীবাণু কোনওক্রমে মানুষের দেহে প্রবেশ করলেই সমস্যা বাধায়। অচেনা জীবাণুর বিরুদ্ধে মানুষের শরীরের রোগ প্রতিরোধী ব্যবস্থা সঠিকভাবে কাজ করতে পারে না। ফলে অসুখ জটিল দিকে মোড় নিতে পারে। নোভেল করোনা ভাইরাসের ক্ষেত্রে এমনই হয়েছে। সদ্য আবিষ্কৃত এই জীবাণুর বিরুদ্ধে রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা ঠিকভাবে কাজ করতে পারছে না। রোগ ছড়িয়ে পড়ছে দ্রুত।
জুনোসিস ছড়ায় কীভাবে?
যে প্রাণীর দেহে জীবাণুটি থাকে তাকে বলে উৎস বা রিজর্ভর। সেই প্রাণী থেকে সরাসরি রোগ জীবাণু মানুষের শরীরে পৌঁছে যেতে পারে। এক্ষেত্রে উদাহরণ হিসেবে র‌্যাবিস ভাইরাসের কথা বলা যায়।
কুকুর, বিড়াল ইত্যাদি প্রাণীর দেহে থাকে র‌্যাবিস ভাইরাস। এবার সেই প্রাণী মানুষকে কামড়ালে মানুষের শরীরে পৌঁছে যায় র‌্যাবিস। এই বিশেষ ভাইরাসটির ক্ষেত্রে প্রতিবার সরাসরি রিজর্ভর-এর শরীর থেকেই মানুষের দেহে জীবাণু পৌঁছয়।
আবার অনেক সময় জীবাণু প্রাথমিক পর্যায়ে রিজর্ভর থেকে সরাসরি মানুষের শরীরে পৌঁছয়। তারপর মানুষ থেকে মানুষে সেই জীবাণু ছড়াতে থাকে। এইচআইভি রোগটি এমনই একটি রোগ। প্রাথমিকভাবে বাঁদর, শিম্পাঞ্জি থেকে মানুষের শরীরে প্রবেশ করেছিল এইচআইভি। এরপর আক্রান্ত মানুষের সঙ্গে শারীরিক ঘনিষ্ঠতার মাধ্যমে ভাইরাসটি অন্য মানুষে ছড়িয়েছে।
এছাড়াও অনেকসময় রিজর্ভর থেকে বাহকের (ভেক্টর) মাধ্যমে জীবাণু মানুষের শরীরে পৌঁছয়। এক্ষেত্রে ডেঙ্গুর উদাহরণ দেওয়া যেতে পারে। উট, ছাগল, খরগোশ ইত্যাদি প্রাণীর শরীরে প্রাথমিকভাবে ডেঙ্গু ভাইরাস ছিল। এডিস ইজিপ্টাই মশা সেই প্রাণীগুলিকে কামড়ানোর ফলে মশার শরীরে এই ভাইরাসটি চলে আসে।
এরপর সংক্রামিত এডিস ইজিপ্টাই মশা কোনও মানুষকে কামড়ালে তাঁর শরীরে ডেঙ্গু জীবাণু ঢোকে। পরবর্তী সময়ে মশার মাধ্যমে সংক্রামিত মানুষ থেকে সুস্থ মানুষে ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়ছে।
জুনোসিস বাড়ছে
শেষ ২০ বছরে আবিষ্কৃত হওয়া সংক্রামক রোগগুলির সিংহভাগই জুনোসিস। তাই গোটা পৃথিবীর চিকিৎসাবিজ্ঞানীদের কাছে জুনোসিস অন্যতম মাথা ব্যথার কারণ। জুনোসিসের এই বাড়বাড়ন্তের অন্যতম কারণগুলি হল— দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে ব্যাপক হারে গাছ কেটে নগরায়ণ, শিল্পায়ন চলেছে। ফলে মানুষের সঙ্গে অন্যান্য প্রাণীর সংস্পর্শে আসার সংখ্যা অনেকটাই বেড়েছে  খুব দ্রুত গোটা পৃথিবীতে আবহাওয়ার পরিবর্তন হয়েছে। ফলে মশা সহ অন্যান্য রোগ বাহকের সংখ্যা ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।
 পৃথিবীর জনসংখ্যা ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী। এই বিপুল সংখ্যক মানুষের পেট ভরাতে প্রাণিজ খাদ্যদ্রব্যের চাহিদা ক্রমশ বাড়ছে। ফলে অসংখ্য মানুষ প্রাণিজ খাদ্যদ্রব্যের পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। এই মানুষগুলি সরাসরি বিভিন্ন প্রাণীর সংস্পর্শে এসে নানান রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন।
 বিশ্বের পরিবহণ ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন এসেছে। এখন বিমানে চেপে মাত্র কয়েক ঘণ্টায় এক দেশ থেকে অন্য দেশে উড়ে যাওয়া সম্ভব।
তাই খুব কম সময়ের মধ্যে নির্দিষ্ট জীবাণুতে আক্রান্ত ব্যক্তি এক দেশ থেকে অন্য দেশে পৌঁছে সেখানকার মানুষকে সংক্রামিত করছে। আবার অনেকসময় বিমানে চেপে অন্য দেশে পাড়ি দিচ্ছে সংক্রামিত মশা, মাছির মতো রোগের বাহকও।
প্রতিরোধ কীভাবে?
১. প্রকৃতির প্রতি মানুষকে আরও যত্নবান হতে হবে। আবহাওয়া পরিবর্তন রোখার চেষ্টা করা দরকার।
২. মশা, মাছির মতো রোগের বাহকগুলির বাড়বাড়ন্ত কমাতে হবে।
৩. প্রত্যেককেই রোগ সম্বন্ধে সতর্ক থাকতে হবে। নিয়মিত হাত ধোওয়া, অকারণে চোখ-নাকে-মুখে হাত না দেওয়া, হাঁচি-কাশি হলে মুখে রুমাল দেওয়া ইত্যাদি সতর্কতা নিতে হবে। সমস্যা বাড়লে চিকিৎসকের কাছে যাওয়া চাই।
৪. আরও গবেষণা চালিয়ে নতুন ওষুধ এবং টিকা আনতে হবে।
লিখেছেন
সায়ন নস্কর 
12th  March, 2020
প্রাণায়াম, ব্রেকফাস্ট, বিছানা গোছানোর
কাজ করুক বাচ্চারা, দিন পুষ্টিকর খাবার
একঘেয়েমি কাটাতে রুটিন কমিশনের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: লকডাউনে বাচ্চা সামলানোর উপায় জানাতে চিকিৎসক ও মনোবিদদের নিয়ে হেল্পলাইন চালু করেছে রাজ্য শিশু কমিশন। একটানা বাড়িতে থাকার একঘেয়েমি কাটাতে এবং শিশুদের সক্রিয় রাখার জন্য এবার বিস্তারিত রুটিন প্রকাশ করল তারা। পাশাপাশি লকডাউনের সময় বাচ্চাদের কী রকমের খাবার দিতে হবে, বিশেষজ্ঞের সাহায্যে তারও একটা তালিকা তৈরি করে দেওয়া হয়েছে।
বিশদ

হাত ধোওয়ার অভ্যাস ছোটদের
করোনা থেকে দূরে রাখতে পারে
জানালেন শিশুরোগ বিশেষজ্ঞরা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দেশে নোভেল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ইতিমধ্যেই দুই হাজার পেরিয়েছে। শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা সরকারিভাবে ৫৩। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, ৫৩ জনের মধ্যে এক কিশোর, কয়েকটি ছোট বাচ্চা, এমনকী ন’মাসের এক শিশুও রয়েছে। এই খবর সামনে আসার পরই গোটা রাজ্যের অভিভাবকদের কপালে চিন্তার ভাঁজ আরও দৃঢ় হয়েছে।
বিশদ

04th  April, 2020
কী কী করলে জব্দ করা
যেতে পারে করোনাকে
জানালেন ডাঃ সুকুমার মুখোপাধ্যায়

সুকুমার মুখোপাধ্যায়। রা‌জ্য সরকারের নোভেল করোনা মোকাবিলায় তৈরি টাস্ক ফোর্সের প্রধান মুখ। নামজাদা অশীতিপর চিকিৎসক ডাঃ সুকুমার মুখোপাধ্যায় জানালেন কী কী পরিকল্পনা করলে তবেই জব্দ হতে পারে করোনা। সাক্ষাৎকার নিলেন বিশ্বজিৎ দাস। বিশদ

04th  April, 2020
গৃহবন্দিত্বে দাম্পত্য বিবাদে না গিয়ে মানসিক
শান্তির খোঁজ করুন বিকল্প উপায়ে 

ডাঃ দেবাঞ্জন পান, বিশিষ্ট মনোরোগ বিশেষজ্ঞ: চীনে লকডাউনের পর বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন জমা পড়ছে আগের তুলনায় অনেক বেশি— এমনটাই দাবি করা হচ্ছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে। আরও দাবি করা হচ্ছে, এই বিচ্ছেদের কারণ হল লকডাউনের সময় স্বামী-স্ত্রীর সঙ্গে বেশি সময় কাটিয়ে ফেলা! বিশদ

02nd  April, 2020
বাড়িতে বসে তৈরি করে
ফেলুন হ্যান্ড স্যানিটাইজার 

করোনা আতঙ্ক ছড়াতেই বাজারে আকাল অ্যালকোহলযুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজারের। তবে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। কয়েকটি সহজলভ্য উপাদান দিয়ে তৈরি করে ফেলা যায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার। মনে রাখবেন, অ্যালকোহলের মাত্রা ৭০ শতাংশ বা তার উপরে থাকতে হবে।   বিশদ

27th  March, 2020
করোনা: ডায়ালিসিস রোগীদের ক্ষেত্রে সতর্কতা জরুরি
ডাঃ পিনাকী মুখোপাধ্যায়
বিভাগীয় প্রধান (নেফ্রোলজি), এনআরএস মেডিক্যাল কলেজিস রোগীদের ক্ষেত্রে সতর্কতা জরুরি

কোভিড ১৯-এ জর্জরিত ভারত সহ গোটা বিশ্ব। নিস্তার নেই বয়স নির্বিশেষে কোনও মানুষের। এই সময়ে বিশেষত ডায়ালিসিস রোগীদের জন্য বিশেষ সতর্কতার প্রয়োজন রয়েছে।
বিশদ

26th  March, 2020
আইসোলেশন কী?
কখন আইসোলেশন?

 করোনা আক্রান্ত দেশ বা এলাকা থেকে আসা মানুষদের ক্ষেত্রে এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে।
 করোনা রোগীদের সংস্পর্শে আসা মানুষদের ক্ষেত্রে এই নিয়ম মানা হবে। বিশদ

25th  March, 2020
 কোয়ারেন্টাইন কী?
কখন কোয়ারেন্টাইন?

গ্রেড ১: প্রধানত আক্রান্ত দেশগুলি থেকে রোগীদের আসা শুরু হওয়া
গ্রেড ২: পজিটিভ কেস থেকে স্থানীয় মানুষদের মধ্যে সংক্রমণ শুরু হওয়া (ভারত এখন এই জায়গায়)।
গ্রেড ৩: জনসাধারণের মধ্যে এবং বড় বড় এলাকায় সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া।
গ্রেড ৪: স্থানীয়ভাবে মহামারী ছড়িয়ে পড়া। কোথায় শেষ বুঝতে না পারা। ইতালি এবং চীনের ক্ষেত্রে যা হয়েছে। বিশদ

25th  March, 2020
প্লাস্টিক ও স্টিলে করোনা বাঁচে ৭২ ঘন্টা,
খবরের কাগজের মাধ্যমে ছড়ায় না  

ডাঃ প্রীতম রায়, কো-অর্ডিনেটর, পশ্চিমবঙ্গ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা: কোভিড ১৯ বা নোভেল করোনা ভাইরাসের প্রভাব এখন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। সাধারণ মানুষের মধ্যেও নানাবিধ প্রশ্ন। কোনও জিনিস স্পর্শ করলে কি করোনা সংক্রামিত হতে পারে? এমনও সব চিন্তা ঘুরপাক খাচ্ছে সাধারণ মানুষের মধ্যে।  
বিশদ

25th  March, 2020
ন্যূনতম এক মিটারের দূরত্ব অপরিহার্য
করোনা আক্রান্তের এক হাঁচিতেই ছড়ায়
৪০ লাখ ভাইরাস, বলছেন বিশেষজ্ঞরা

বিশ্বজিৎ দাস, কলকাতা: করোনা আক্রান্তের এক হাঁচিতে ছড়ায় ৩০ থেকে ৪০ লক্ষ ভাইরাস। তখন তার গতি থাকে প্রতি ঘন্টায় ৫০ মাইল। তাই দরকার সামাজিক দূরত্ব বা ‘সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং’ মেনে চলা। দরকার লকডাউন এবং স্বাস্থ্যবিধি বজায় রাখা। নির্দেশ মেনে বাড়িতে থাকা।  
বিশদ

25th  March, 2020
নোভেল করোনা ভাইরাস কি জীবাণু অস্ত্র?
মহামারীর সঙ্গে লড়াই করতে গবেষণাও জরুরি

 • নোভেল করোনা কি জীবাণু অস্ত্র?
•• বিশ্বজুড়ে কোভিড ১৯ ছড়িয়ে পড়তেই বিভিন্ন মহলে ছড়াতে শুরু করেছে আতঙ্ক। কেউ কেউ হয়তো মনে করছেন সাম্প্রতিক নোভেল করোনা ভাইরাস আসলে একধরনের জীবাণু অস্ত্র এবং তা ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে! বিশদ

19th  March, 2020
কলেরা থেকে করোনা
বহু ভাইরাসকেই ‘অস্ত্র’ বানানোর অভিযোগ রয়েছে

 মহামারীর আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ার সময়ই ষড়যন্ত্রের তত্ত্বটা তুলেছিলেন ইজরায়েলের সামরিক গোয়েন্দা বিভাগের প্রাক্তন কর্তা ও জীবাণু অস্ত্র বিশারদ ড্যানি শোহাম। বলেছিলেন, দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের কারণ উহান ইনস্টিটিউটের ন্যাশনাল বায়োসেফটি ল্যাব।
বিশদ

19th  March, 2020
কোভিড ১৯ প্রতিরোধের টিপ্‌স

঩ বারবার হাত ধুয়ে ফেলাই নোভেল করোনা প্রতিরোধের অন্যতম কার্যকরী উপায়। হাঁচি-কাশির পর, এই রোগে আক্রান্তের পরিচর্যা করার পর, রান্নার আগে-পরে, খাওয়ার আগে, টয়লেট ব্যবহারের পর, পশুর সংস্পর্শে আসলে বা পশুর বর্জ্য পরিষ্কারের পর অবশ্যই হাত জীবাণু মুক্ত করতে হবে।
বিশদ

19th  March, 2020
শিশুদের কখন অপারেশন
প্রয়োজন, আলোচনা সম্মেলনে 

ইন্ডিয়ান সোসাইটি অব পেডিয়াট্রিক নিউরোসার্জারির বার্ষিক সম্মেলন সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হল। পার্ক ক্লিনিক ও সংগঠনটির যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সম্মেলনের চেয়ারম্যান ডাঃ সন্দীপ চট্টোপাধ্যায়, সংগঠনের সর্বভারতীয় সভাপতি ডাঃ সুরেশ শঙ্খলা, বিশিষ্ট পেডিয়াট্রিক নিউরোসার্জেন ডাঃ কৌশিক শীল, বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়, বিশিষ্ট চিত্র পরিচালক অপর্ণা সেন সহ বহু বিশিষ্টজন। 
বিশদ

12th  March, 2020
একনজরে
  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ছড়িয়েছিল। সেটিকে অবশ্য সরকারি মহল থেকেই ‘ভুয়ো’ বলা হয়েছে। ওই ভিডিওতে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব করোনা তাড়ানোর জন্য কয়েকজন সাধুর সঙ্গে নাচ-গান করছেন বলে দেখানো হয়। ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: জলের অপচয় বন্ধে বারবার কলকাতা পুর প্রশাসনের তরফে আবেদন-নিবেদন করা হয়েছে। কিন্তু তারপরেও দেখা যাচ্ছে, শহরের বেশ কিছু অংশে জলের অপচয়ের মাত্রা ...

সংবাদদাতা, রায়গঞ্জ: করোনায় মৃতদের দেহ দাহ করা হবে স্থানীয় শ্মশানে, এই আশঙ্কায় শ্মশানঘাটের চারদিকের রাস্তা আটকে ঘণ্টা দুয়েক বিক্ষোভ দেখালেন স্থানীয় বাসিন্দারা। শনিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জে। পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের হস্তক্ষেপে অবরোধ উঠে যায়।   ...

বার্লিন, ৪ এপ্রিল: কালান্তক করোনা ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে পথ খুঁজছে গোটা বিশ্ব। আর এর উল্টো পথে হেঁটে জার্মানির বার্লিন ডিস্ট্রিক্ট মেয়র স্টিফেন ভন দাসেল ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীরা পড়াশোনার ক্ষেত্রে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা পাবে। নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস বাড়বে। অতিরিক্ত চিন্তার জন্য উচ্চ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯০৮- রাজনীতিক জগজীবন রামের জন্ম
১৯১৬- মার্কিন অভিনেতা গ্রেগরি পেকের জন্ম
১৯৩২ - বিশিষ্ট বাঙালী সাহিত্যিক প্রভাতকুমার মুখাপাধ্যায়ের মত্যু
১৯৫৭- কেরলে প্রথম ক্ষমতায় এলেন কমিউনিস্টরা
১৯৯৩- বলিউডের অভিনেত্রী দিব্যা ভারতীর মৃত্যু
২০০০- রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী কণিকা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মৃত্যু
২০০৭- সাহিত্যিক লীলা মজুমদারের মৃত্যু





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৫.২৪ টাকা ৭৬.৯৬ টাকা
পাউন্ড ৯২.৫১ টাকা ৯৫.৮২ টাকা
ইউরো ৮১.০৩ টাকা ৮৪.০৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
04th  April, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

২২ চৈত্র ১৪২৬, ৫ এপ্রিল ২০২০, রবিবার, (চৈত্র শুক্লপক্ষ) দ্বাদশী ৩৪/৫০ রাত্রি ৭/২৫। মঘা ২৩/৪০ দিবা ২/৫৭। সূ উ ৫/২৯/১৫, অ ৫/৪৯/৩৫, অমৃতযোগ দিবা ৬/১৮ গতে ৯/৩৬ মধ্যে। রাত্রি ৭/২২ গতে ৮/৫৬ মধ্যে। বারবেলা ১০/৭ গতে ১/১২ মধ্যে। কালরাত্রি ১/৬ গতে ২/৩৪ মধ্যে।
২২ চৈত্র ১৪২৬, ৫ এপ্রিল ২০২০, রবিবার, দ্বাদশী ২৫/৩১/০ দিবা ৩/৪৩/১২। মঘা ১৪/৫০/৩৮ দিবা ১১/২৭/৩। সূ উ ৫/৩০/৪৮, অ ৫/৫০/৫। অমৃতযোগ দিবা ৬/১৫ মধ্যে ও ১২/৫২ গতে ১/৪১ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/২২ গতে ৮/৫৬ মধ্যে। বারবেলা ১০/৮/২ গতে ১১/৪০/২৭ মধ্যে, কালবেলা ১১/৪০/২৭ গতে ১/১২/৫১ মধ্যে।
 ১১ শাবান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
১৫ এপ্রিল থেকে উঠে যাচ্ছে লকডাউন, দাবি উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর 
১৫ এপ্রিল থেকে দেশজুড়ে চলা লকডাউন উঠে যাবে বলে দাবি ...বিশদ

01:53:10 PM

করোনা: আরও এক মৃত্যু পুনেতে
পুনেতে মৃত্যু হল আরও এক করোনা আক্রান্তের। ৫২ ...বিশদ

12:48:46 PM

মহারাষ্ট্রে আরও ২৬ জনের শরীরে মিলল করোনা ভাইরাস

12:01:08 PM

 ১৫জি-এইচ ফর্মের বৈধতা বাড়ল
লকডাউনের জের। ক্ষুদ্র করদাতাদের সুবিধা দিল সিবিডিটি। শনিবার এক বিজ্ঞপ্তিতে ...বিশদ

11:27:07 AM

করোনা: এবার আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ল অন্ধ্রে
নতুন করে ৩৪ জনের শরীরে কোভিড-১৯ ভাইরাসের অস্তিত্ব টের পাওয়া ...বিশদ

11:16:41 AM

কানাডায় নতুন করে আক্রান্ত ১০৬
কানাডায় নতুন করে আক্রান্ত হলেন ১০৬ জন। এই নিয়ে এদেশে ...বিশদ

11:13:29 AM