Bartaman Patrika
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

ঘুমের মধ্যে গলা টিপে
ধরেছে! হাত পা অবশ!

অন্ধকার ঘর। আপনি বিছানায় শুয়ে আছেন চাদর ঢাকা দিয়ে। হঠাৎ একটা ভয়ের শিহরণ খেলে গেল শিরদাঁড়া বেয়ে। আপনি বুঝতে পারলেন ঘরের মধ্যে আপনি একা নেই আর। অশরীরী কোনও কিছুর অস্তিত্ব টের পাচ্ছেন। হঠাৎই দেখলেন শিয়রের কাছে জমে থাকা অন্ধকার ফুঁড়ে এক ভয়ঙ্কর ছায়ামূর্তি এগিয়ে আসছে আপনার দিকে। এমনকী অনুভব করতে পারছেন তার কঙ্কালসার আঙুলগুলো। আর কিছুক্ষণের মধ্যেই ছুঁয়ে ফেলবে আপনার গলা। কী আশ্চর্য! আপনি জানেন পাশের ঘরেই আছে আপনার আত্মীয়-পরিজন। চিৎকার করে ডাকতে চাইলেন ওদের। অথচ গলা দিয়ে গোঁ গোঁ করে অস্ফুট শব্দ ছাড়া কিছুই বেরল না। এমনকী এক ছুটে বেরিয়ে যেতে চাইলেন ঘর থেকে। অথচ হাত-পা নড়াতে পারছেন না! মনে হচ্ছে সারা শরীরটা অবশ হয়ে গিয়েছে। পাশ ফেরাও সম্ভব নয়।
ক্রমশ হাতদুটো আপনার নাকের ওপর চাদর ঢাকা দিয়ে দিল। তারপরেই টের পেলেন গলায় দশটা আঙুলের চাপ বসতে শুরু করেছে। দমবন্ধ অবস্থাতেই বুঝতে পারলেন, বুকের ওপর কে যেন চেপে বসে আছে। বাঁচতে হবে! যে করেই হোক বাঁচতে হবে। নইলে কীভাবে মারা গেলেন সেটাও কেউ জানতে পারবে না! শরীরের শেষ শক্তিটুকু জড়ো করে আপনি চিৎকার করে উঠে বসতে চাইলেন!
ব্যস! ঘুম ভেঙে গেল। কী আশ্চর্য! কোথায় অশরীরী! সবকিছুই তো স্বাভাবিক! কোথাও কিছু নেই। এই তো আপনার চেনা ঘর, চেনা দেওয়াল! চেনা ফ্যান ঝুলছে শিলিং থেকে!
তবে কি আপনি কি স্বপ্ন দেখছিলেন! তা কী করে হবে? স্বপ্ন কি সত্যিই এতো জ্যান্ত হয়? আপনি তো কয়েক মুহূর্ত আগেও স্পষ্ট বুঝতে পারছিলেন কেউ একজন আপনাকে শ্বাসরোধ করে মারতে চাইছিল! হাত পা অসাড় হয়ে গিয়েছিল! তাহলে? কেমন করে ঘটল এমন ঘটনা? ঠিক কী হয়েছিল আপনার সঙ্গে?
এতক্ষণ ধরে যে পরিস্থিতির কথা বলা হল, তা নিশ্চয় খুব চেনা চেনা লাগছে? গত কয়েক শতাব্দী জুড়েই মানুষের এমন ভয়াবহ অভিজ্ঞতা নিয়ে নানা দেশে রয়েছে নানা মতবাদ। চীন, পূর্ব আফ্রিকা, মেক্সিকো, নিউফাউন্ডল্যান্ড এমনকী আমেরিকার বাসিন্দারাও ভাবেন শয়তানের অনুচরেরা সত্যিসত্যিই নেমে আসে পৃথিবীতে। তারাই শ্বাসরোধ করে আত্মাকে টেনে নিয়ে যেতে চায়। এমনকী শারীরিকভাবেও ঘনিষ্ঠ হতে চায়! মাঝেমধ্যে আত্মীয় পরিজন, চেনা বন্ধুর রূপ ধরে আসে তারা! ভারতেও এমন ভূত নেমে আশার তত্ত্বে কেউ কেউ এখনও বিশ্বাস করেন।
কিন্তু ঘুম নিয়ে গবেষণাকারীরা বলছেন, এই ভয়াবহ অনুভূতি, সঙ্গে হাত পা অসাড় হয়ে যাওয়া আসলে ‘স্লিপ প্যারালিসিস’-এর লক্ষণ। ঘুমের মধ্যে পক্ষাঘাতগ্রস্ত হওয়ার মতো অভিজ্ঞতা হওয়ার পিছনে দায়ী থাকতে পারে ঘুমের নানা পর্যায় এবং মনের অসুখ। এছাড়া আরও কিছু কারণ রয়েছে।
তার আগে জেনে নিই কী এই স্লিপ প্যারালিসিস?
স্লিপ প্যারালিসিস হল একইসঙ্গে জড়ভরত ও জাগ্রত থাকার অনুভূতি। আসলে ঘুমের বিভিন্ন পর্যায় থাকে। দেখা গিয়েছে দুটি পরিস্থিতিতে স্লিপ প্যারালিসিস-এর অনুভূতি হয়—
১) জাগ্রত অবস্থা থেকে ঘুমন্ত অবস্থায় যাওয়ার সময়। চিকিৎসা পরিভাষায় এই অবস্থাকে বলে হিপনোগজিক বা প্রিডরমাইটাল স্লিপ প্যারালিসিস। ২) ঘুমন্ত অবস্থা থেকে জাগ্রত অবস্থায় ফেরার সময় যাকে চিকিৎসা পরিভাষায় বলে হিপনোপমপিক বা পোস্টডর্মাইটাল স্লিপ প্যারালিসিস।
পক্ষাঘাতগ্রস্ত হওয়ার মতো অনুভূতি স্থায়ী হতে পারে কয়েক সেকেন্ড থেকে কয়েক মিনিট অবদি! কারও কারও স্লিপ প্যারালিসিস-এর সঙ্গে নার্কোলেপ্সি মতো সমস্যাও থাকতে পারে। প্রশ্ন হল নার্কোলেপ্সি কী? আমাদের ঘুম নিয়ন্ত্রিত হয় ব্রেনের মাধ্যমে। ব্রেনের যখন ঘুম নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দেয়, তখন হয় নার্কোলেপ্সি। এই সমস্যায় আক্রান্ত ব্যক্তি যে কোনও সময় যে কোনও জায়গায় হঠাৎ ঘুমিয়ে পড়তে পারেন।
হিপনোগজিক স্লিপ প্যারালিসিস
ঘুম আসতে শুরু করলেই আপনার জাগ্রত অবস্থা লোপ পেতে থাকে। আপনার শরীর ধীরে ধীরে শিথিল হয়ে পড়ে। এই কারণেই আলাদা করে হাত পায়ের শিথিল অবস্থায় চলে যাওয়ার বিষয়টি আপনার নজরে পড়ে না।
হিপনোপমপিক স্লিপ প্যারালিসিস
ঘুমে দুটি অবস্থা থাকে। ক) র্যা পিড আই মুভমেন্ট (আরইএম) ও খ) নন র্যাপপিড আই মুভমেন্ট (এনইআরএম)। ঘুমের বিভিন্ন সময়ে আমরা এই দুই অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাই। এনইআরএম চক্র প্রথমে আসে ও মোট ঘুমের ৭৫ শতাংশ দখল করে থাকে। এনইআরএম স্লিপ-এর সময় আমাদের শরীর সম্পূর্ণভাবে বিশ্রাম অবস্থায় চলে যায়। এই সময়ে শরীরের নানা অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ, কোষ কলায় মেরামতি চলে। এনইআরএম চক্রের শেষের দিকে ঘুম চলে যায় আরইএম পর্যায়ে। এই সময় চোখ দ্রুত নড়াচড়া করে। এই সময়েই মানুষ স্বপ্ন দেখে। তবে বাকি শরীর শিথিল অবস্থাতেই রয়ে যায়। এককথায় মোবাইলের মতো শরীরের সমস্ত পেশি ‘টার্নড অফ’ হয়ে যায়।
মজার ব্যাপার হল আরইএম পর্যায় শেষ হওয়ার আগেই কেউ জেগে গেলেই হয় চিত্তির। সে দেখে শরীরের সমস্ত অঙ্গ অবশ হয়ে গেছে। এমনকী গলা দিয়ে টুঁ শব্দটিও বেরচ্ছে না!
কাদের স্লিপ প্যারালিসিস হয়?
প্রতি ১০ জনের মধ্যে ৪ জনের স্লিপ প্যারালিসিস হতে পারে। সাধারণত বয়ঃসন্ধিকালেই এই অবস্থার অভিজ্ঞতা প্রথম হয়। জানলে অবাক হবেন, একই পরিবারের সদস্যদের মধ্যে স্লিপ প্যারালিসিস হওয়ার ইতিহাস পাওয়া যায়!
যে কারণে স্লিপ প্যারালিসিস হতে পারে
 পর্যাপ্ত ঘুমের অভাব।
 ঘুমের অভ্যেসের পরিবর্তন বা যে সময়ে ঘুমানোর অভ্যেস, সেই সময়ের পরিবর্তন হলে।
 প্রচণ্ড মানসিক চাপ পোয়াতে হলে।
 বাইপোলার ডিজঅর্ডারের রোগী হলে।
 চিত হয়ে শুয়ে ঘুমোলে।
 নার্কোলেপ্সি থাকলে।
 রাতে ঘুমনোর সময় পায়ে টান ধরার সমস্যা থাকলে।
 অ্যাটেনশন ডেফিসিট হাইপার অ্যাকটিভ ডিজঅর্ডার-(এডিএইচডি) এর ওষুধ খেলেও কারও কারও এমন সমস্যা হতে পারে।
 ড্রাগ, অ্যালকোহল নেওয়ার অভ্যেস থাকলে।
স্লিপ প্যারালিসিস নির্ণয়ক পরীক্ষা
ঘুমিয়ে পড়ার সময় বা ঘুম থেকে জেগে ওঠার সময় বারবার নিজের শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গকে অবশ হতে দেখলে তা নিশ্চিতভাবে স্লিপ প্যারালিসিস। সাধারণত প্যারালিসিস-এর আলাদা করে কোনও চিকিৎসা করার দরকার পড়ে না। তবে স্লিপ প্যারালিসিস-এর লক্ষণগুলির জন্য খুব বেশি দুশ্চিন্তা হলে, একই কারণে সারাদিনভর ক্লান্তি অনুভব করলে ও রাতে ঘুমোতে না পারলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।
চিকিৎসা
 ৬ থেকে ৮ ঘণ্টা ঘুমানো প্রয়োজন।
 চিকিৎসক অ্যান্টি ডিপ্রেস্যান্ট ওষুধ দিতে পারেন।
 মানসিক সমস্যা থেকেও স্লিপ প্যারালিসিস হতে পারে। তাই কোনও মনের অসুখ থাকলে তার চিকিৎসা আগে করতে হবে।
 নার্কোলেপ্সি বা পায়ে টান ধরার সমস্যা থাকলে তার চিকিৎসা করাতে হবে।
ঘরোয়া চিকিৎসা
ঘুমের মধ্যে যে ভূত বা দৈত্যি-দানো আসছে সে ঘুমেই মিলিয়ে যাবে! তাই ভয় পাবেন না। ঠিক সময়ে ঘুমনোর চেষ্টা করুন। মনের মধ্যে দুশ্চিন্তা পুষে ঘুমোতে যাবেন না। স্ট্রেস এড়াবার চেষ্টা করুন। স্ট্রেস কমাতে ধ্যান করতে পারেন। পাশ ফিরে ঘুমোনের চেষ্টা করুন। তবে ঘন ঘন স্লিপ প্যারালিসিস-এর শিকার হলে অতি অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
লিখেছেন: সুপ্রিয় নায়েক
আপনার সঠিক ওজন কত হওয়া
উচিৎ, কীভাবে নির্ধারণ করবেন

 ওজন বেড়েই যাচ্ছে। এই চিন্তায় আজ বিভোর নারী থেকে পুরুষ সকলেই। চিকিৎকদের কাছে গেলেও শুনতে হয় ওই একই উপদেশ। ওজনটা বেড়ে আছে। কমাতে হবে। কিন্তু ওজন যে কমাবেন, তার আগে তো জানতে হবে আপনার জন্য সঠিক ওজনটা কত? বিশদ

সিগারেট, খৈনি, পান মশলার নেশা ছাড়াতে ম্যাজিকের মতো কাজ করে হোমিওপ্যাথি

‘তামাক ক্যান্সারের কারণ’— সিগারেট, খৈনি, পান মশলা সহ যে কোনও তামাকজাত দ্রব্যের প্যাকেটের গায়ে লেখা থাকে এই সতর্কবাণী। তবে সবকিছু জেনে শুনেও অনেকেই এই কথাগুলির কোনও মান দেন না। তাঁদের বাড়ির লোক প্রতিনিয়ত নেশা ছাড়তে বললেও তিনি নেশা ছাড়তে রাজি নন! এছাড়াও অপর একটি দল রয়েছে।
বিশদ

ক্যান্সারের আধুনিক
চিকিৎসা কী কী?

ক্যান্সার ধরা পড়ার পর চিকিৎসার প্রথম পদক্ষেপ হল সার্জারি। সেক্ষেত্রে একটা কথা অবশ্যই স্বীকার করতে হবে, অপারেশন এখন অনেক রোগীমুখী হয়েছে। এখন ‘মিনিম্যাল সার্জারি’র সময়। অর্থাৎ যতটা সম্ভব কম কাটাছেঁড়া করে রোগ সারিয়ে তোলা যায়। উদাহরণ হিসেবে ব্রেস্ট ক্যান্সারের কথা বলা যায়
বিশদ

23rd  January, 2020
কেমোথেরাপি’র নয়া টেকনিক
হাইপেক আর পাইপেক

আমাদের পেটের অন্দরে একটি পর্দার মতো আস্তরণ রয়েছে। এর নাম হল পেরিটোনিয়াম। এর মধ্যেই থাকে যকৃৎ, পাকস্থলী, প্লীহা, অগ্ন্যাশয়, খাদ্যনালী ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। এবার শরীরের অন্যান্য অংশের মতো পেরিটোনিয়ামও ক্যান্সারে আক্রান্ত হতে পারে। এক্ষেত্রে প্রাইমারি ও সেকেন্ডারি, দুই ধরনের পেরিটোনিয়াল ক্যান্সার হয়।
বিশদ

23rd  January, 2020
জীবন-মৃত্যুর মাঝের
তিন মিনিটের প্রহরী

 সে এক অদ্ভুত সময়। সার্জারি বা শল্য চিকিৎসা তখন দুর্লভ। আর ব্যথাহীন শল্য চিকিৎসা— নৈব নৈব চ। প্রভূত পরিমাণ অ্যালকোহল আর প্রচুর আফিম—অ্যানাস্থিয়ার উপকরণ বলতে এইটুকু মাত্র। তারপর এল ১৮৪০ সাল। ম্যাসাচুসেটস হসপিটালে ডব্লু টি জে মোর্টোন প্রথম সারা পৃথিবীকে দেখালেন ইথার দিয়ে সার্জারি। 
বিশদ

23rd  January, 2020
অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি না বাইপাস
কোন পদ্ধতি বেশি নিরাপদ?

  স্টেন্ট কী?
 হার্টের করোনারি ধমনিতে কোলেস্টেরল প্লাক জমে, ধমনির মধ্যে রক্ত সঞ্চালন বাধাপ্রাপ্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। সেখান থেকে হার্ট অ্যাটাক হওয়ার ভয় রয়ে যায়। তাই অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টির মাধ্যমে, ধমনির মধ্যে জমা প্লাক বা বাধা সৃষ্টিকারী পদার্থ অপসারণ করা হয়। এরপর ওই অংশে বসানো হয় স্টেন্ট। ক্ষুদ্র স্টেন্ট ধমনির মধ্যে রক্ত সঞ্চালনে সাহায্য করে। বিশদ

16th  January, 2020
 রাগ তাড়ানোর থেরাপি

সম্প্রতি পানাগড়ের কাছে ‘তেপান্তর’ নামে থিয়েটার ভিলেজ-এ দুইদিনব্যাপী কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছিল ‘ক্রিয়েটিভ স্ফিয়ার কলকাতা’র উদ্যোগে। সংস্থার অন্যতম সদস্য, কর্মশালার উদ্যোক্তা এবং এক্সপ্রেসিভ আর্ট থেরাপিস্ট মালবিকা গুহ জানান, কর্মশালার বিষয় ছিল ‘বিষ থেকে অমৃতে উত্তরণ’।
বিশদ

16th  January, 2020
সুশ্রুতের চক্ষু পরীক্ষা শিবির

  দীর্ঘদিন ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্তের ডায়াবেটিস রেটিনোপ্যাথি হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়। এই সমস্যায় প্রাথমিক পর্যায়ে চোখের রেটিনা অংশে রক্তবাহী সরু ধমনিগুলি দুর্বল হয়ে পড়ে। ফলে ফ্লুইড লিক করে। কমতে থাকে দৃষ্টিশক্তি।
বিশদ

16th  January, 2020
 কোন পাত্রে খাওয়া স্বাস্থ্যকর?

 পরামর্শে বেঙ্গল ইনস্টিটিউট অব ফার্মাসিউটিক্যাল সায়েন্সেস-এর প্রিন্সিপাল ইনচার্জ ডাঃ লোপামুদ্রা ভট্টাচার্য। বিশদ

09th  January, 2020
নিমপাতা ভাতে মেখে
খেলে কী কী রোগ সারে?

 লিখেছেন ভারত সরকারের আয়ুর্বেদ গবেষণা বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত চিকিৎসা বিজ্ঞানী, বনৌষধি গবেষক আয়ুর্বেদ চিকিৎসক অধ্যাপক ডাঃ সুবলকুমার মাইতি বিশদ

09th  January, 2020
 কর্নিয়া দিবস পালন

  সম্প্রতি চলে গেল কর্নিয়া দিবস। ওই দিবস উপলক্ষে অ্যাপেক্স ক্লাব অব বালি বরিষ্ঠ নাগরিক মঞ্চের ব্যবস্থাপনায় পশ্চিমবঙ্গ কর্নিয়া দিবস কমিটির উদ্যোগে অ্যাপেক্স ক্লাবের সুবর্ণ জয়ন্তী সভাগৃহে পালিত হল কর্নিয়া দিবস। ডাঃ জিরমের প্রতিকৃতিতে মাল্যদানের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। বিশদ

09th  January, 2020
 কাজের স্বীকৃতি

  বিশাখাপত্তনমে আয়োজিত ভি ডি গুড টেকনোলজিক্যাল প্রফেশনাল অ্যাসোসিয়েশনের লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন কলকাতা স্কুল অব ট্রপিক্যাল মেডিসিনের প্যাথোলজির প্রফেসর ডাঃ প্রণবকুমার ভট্টাচার্য। বিশদ

09th  January, 2020
  মহিলাদের মনোজগৎ

 সম্প্রতি কলকাতায় অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘উইমেন ইন রোম্যান্স, সেক্স অ্যান্ড ম্যারেজ’ শীর্ষক দু’দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সেমিনার। আলোচনাসভার আহ্বায়ক সাইকোঅ্যানালিস্ট ঝুমা বসাক জানান, সারা দেশ এমনকী বিদেশ থেকেও অসংখ্য মনোরোগ বিশেষজ্ঞ, গবেষক, সাহিত্যিক, সাইকোঅ্যানালিস্ট, মনোবিদ যোগ দিয়েছিলেন আলোচনাসভায়। বিশদ

09th  January, 2020
 সুন্দরবনের মানুষের পাশে

  পাথরপ্রতিমা ব্লকে উদ্বোধন হয়ে গেল ‘বাঁচবো’ নামে এক সংগঠন পরিচালিত অনুষ্ঠানের। অনুষ্ঠানটি ছিল প্রাক প্রাথমিক ও প্রাথমিক বিদ্যালয় ‘বিকশিত’ স্কুলের নবনির্মিত ভবন উদ্বোধনের। পাশাপাশি এলাকার মানুষের জন্য শুদ্ধ পানীয় জল ও স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের জন্য চারটি শৌচাগার প্রকল্পেরও আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়। বিশদ

09th  January, 2020
একনজরে
 ওয়াশিংটন: আরও একবার রেকর্ড ছাড়িয়েছে পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে কার্বন ডাই অক্সাইড ও অন্য গ্রিনহাউস গ্যাসের উপস্থিতি। বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার (ডব্লিউএমও) প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এসব ...

 আগ্রা, ২৫ জানুয়ারি: কথায় বলে প্রেমের কোনও বয়স হয়না। এই প্রবাদবাক্যটি ফের একবার বাস্তবে ধরা পড়ল। আর তার ঘটল খোদ তাজমহলেরই শহর আগ্রায়। যার রূপকার ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মক্ষেত্রে পদোন্নতির সূচনা। ব্যবসায়ীদের উন্নতির আশা রয়েছে। বিদ্যার্থীদের সাফল্যযোগ আছে। আত্মীয়দের সঙ্গে মনোমালিন্য দেখা দেবে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯২৬: জন লগি বেয়ার্ড লন্ডনে প্রথম টেলিভিশন সিস্টেমকে জনসমক্ষে নিয়ে আসেন
১৯৩৬: জনগণের জন্য লন্ডনে শুরু হল বিবিসি-র সম্প্রচার
১৯৩৯: আমেরিকায় নিয়মিতভাবে টেলিভিশন সম্প্রচার শুরু
১৭৮২ – বাঁশের কেল্লা খ্যাত বিপ্লবী তিতুমীর তথা সৈয়দ মীর নিসার আলীর জন্ম
১৮৮০ - টমাস আলভা এডিসন বৈদ্যুতিক বাতির বাণিজ্যিক পেটেন্ট করেন।
১৯৬৯: অভিনেতা ববি দেওলের জন্ম
১৯৬৯: চিত্রপরিচালক বিক্রম ভাটের জন্ম
১৯৮৬: বিশিষ্ট সেতারবাদক নিখিল বন্দ্যোপাধ্যায়ের মৃত্যু
২০০৯: ভারতের অষ্টম রাষ্ট্রপতি আর ভেঙ্কটরামনের মৃত্যু
২০০২ - নাইজেরিয়ার লেগোস শহরে এক বিস্ফোরণে এক হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত এবং প্রায় ২০ হাজারেরও বেশি মানুন গৃহহীন হন।



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৬৪ টাকা ৭২.৩৪ টাকা
পাউন্ড ৯১.৭৩ টাকা ৯৫.০২ টাকা
ইউরো ৭৭.৩৫ টাকা ৮০.৩৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪০,৯৮৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৮,৮৮৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৯,৪৭০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৭,১০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৭,২০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
26th  January, 2020

দিন পঞ্জিকা

১১ মাঘ ১৪২৬, ২৬ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, (মাঘ শুক্লপক্ষ) দ্বিতীয়া ৫৯/৪৫ শেষ রাত্রি ৬/১৬। ধনিষ্ঠা অহোরাত্র। সূ উ ৬/২১/৫৩, অ ৫/১৬/১৩, অমৃতযোগ দিবা ৭/৫ গতে ১০/০ মধ্যে। রাত্রি ৭/১ গতে ৮/৪৬ মধ্যে। বারবেলা ১০/২৭ গতে ১/১০ মধ্যে। কালরাত্রি ১/২৭ গতে ৩/৬ মধ্যে। 
১১ মাঘ ১৪২৬, ২৬ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, দ্বিতীয়া ৫৬/১৭/৫২ শেষরাত্রি ৪/৫৬/৫। ধনিষ্ঠা ৫৮/৫৪/২৯ শেষরাত্রি ৫/৫৮/৪৪। সূ উ ৬/২৪/৫৬, অ ৫/১৪/৫৬, অমৃতযোগ দিবা ৭/১ গতে ৯/৫৯ মধ্যে ও রাত্রি ৭/৮ গতে ৮/৫১ মধ্যে। কালবেলা ১১/৪৯/৫৬ গতে ১/১১/১১ মধ্যে। কালরাত্রি ১/২৮/৪১ গতে ৩/৭/২৬ মধ্যে।
৩০ জমাদিয়ল আউয়ল 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
গিরিশ পার্ক এলাকায় ১১ মাসের শিশুকে অপহরণের অভিযোগ

04:55:03 PM

আনন্দপুরে একটি বাড়িতে ঢুকে মহিলাকে বেঁধে লুটতরাজ দুষ্কৃতীদের, তদন্তে পুলিস 

04:18:31 PM

৮৩ যাত্রী নিয়ে আফগানিস্তানের গজনিতে ভেঙে পড়ল বিমান

04:15:59 PM

৪৫৮ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স 

04:11:36 PM

আলিপুরদুয়ারে খুনের ঘটনায় থানায় আত্মসমর্পণ অভিযুক্তের
আলিপুরদুয়ার শহরের অরবিন্দ নগর এলাকায় বাপি পন্ডিত (২৩) নামের যুবক ...বিশদ

04:11:00 PM

৪৮৩ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স 

03:27:26 PM