Bartaman Patrika
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

অজানা টাইফাস দুশ্চিন্তার টাইফাস 

গোড়ার কথা
ওরিয়েনশিয়া সুসুগামুশি নামক ব্যাকটেরিয়ার কারণে মানুষ স্ক্র্যাব টাইফাস রোগটিতে আক্রান্ত হন। এই অসুখটি সম্পূর্ণভাবে একটি অ্যাকিউট ইনফেকশন। ট্রম্বিকিউলিড নামক এক লার্ভার (চিগার) কামড় থেকে এই ব্যাকটেরিয়াটি শরীরে প্রবেশ করে। এই লার্ভাটিই এই রোগটির বাহক।
জাপানি শব্দ ‘সুসুগা’ এবং ‘মুশি’-কে যুক্ত করে এই ব্যাকটেরিয়ার নাম রাখা হয়েছে। ‘সুসুগা’ শব্দের অর্থ হল অসুখ এবং ‘মুশি’ শব্দের অর্থ হল কীট বা পরজীবী।
ছোট থেকে বড় যে কোনও বয়সের মানুষ এই রোগে আক্রান্ত হতে পারেন। ভারত ছাড়াও ইন্দোনেশিয়া, চীন, জাপান, অস্ট্রেলিয়ার উত্তরভাগ সহ দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার বিস্তৃত অঞ্চলে এই রোগের প্রকোপ দেখা যায়। প্রতিবছর এই বিশাল অঞ্চলের লক্ষ লক্ষ মানুষ স্ক্র্যাব টাইফাসে আক্রান্ত হন। তবে শহরের তুলনায় মূলত গ্রামের দিকেই এই রোগের প্রকোপ থাকে বেশি।
১৮৯৯ সালে জাপানের তরফ থেকে প্রথমবারের জন্য এই রোগটির সম্বন্ধে জানানো হয়। প্রাক অ্যান্টিবায়োটিক যুগে এই রোগ ছিল মানব সভ্যতার মাথাব্যথার অন্যতম কারণ। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় এই রোগ প্রায় মহামারীর আকার ধারণ করে। যুদ্ধের আবহে পূর্বের দেশগুলিতে হাজার হাজার সেনা স্ক্র্যাব টাইফাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। সেই সময় সংক্রামক রোগগুলির মধ্যে ম্যালেরিয়ার পরে স্ক্রার্ব টাইফাসে আক্রান্ত হয়েই সবথেকে বেশি সংখ্যক সৈন্য প্রাণ হারিয়েছিল। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালীন সময়ে মায়ানমার এবং শ্রীলঙ্কায় থাকা সৈন্যদের মধ্যেও এই রোগ মহামারীর আকার নেয়। এই নির্দিষ্ট সময়েই ভারতের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে এবং আসামে স্ক্র্যাব টাইফাস ভয়ঙ্কর রূপ নিয়েছিল। এখন অবশ্য গোটা দেশেই এই রোগে আক্রান্ত রোগীর দেখা মেলে।
জীবাণু
ওরিয়েনশিয়া সুসুগামুশি হল একধরনের গ্রাম নেগেটিভ ব্যাকটেরিয়া। এই ব্যাকটেরিয়ার বিভিন্ন ভাগ রয়েছে। গ্রাম নেগেটিভ এই ব্যাকটেরিয়ার মূল পাঁচটি ভাগ হল— বরিয়ন, গিলিয়াম, কার্প, কাটো, কাওয়াসাকি। সবথেকে বড় কথা, প্রতিটি ভৌগলিক অঞ্চল ভেদে এই ব্যাকটেরিয়ার জিনগত প্রভেদ দেখা যায়। সেরোটাইপের এই বিভেদগুলি ল্যাবরেটরিতে রোগ নির্ণয়ের সময় অত্যন্ত জরুরি।
রোগ ছড়ায় কীভাবে?
প্রথমেই বলা হয়েছে, ট্রম্বিকিউলিড নামক এক লার্ভা (চিগার) কামড়ালে এই ব্যাকটেরিয়াটি শরীরে প্রবেশ করে। তবে যে কোনও চিগার কামড়ালেই এই রোগ হয় না। বরং কোনও ইনফেকটেড চিগার কামড়ালেই মানুষ স্ক্র্যাব টাইফাস রোগটিতে আক্রান্ত হন। এটি শরীরের যেই অংশে কামড়ায়, সেই জায়গাটা কালো বড় ফুসকুড়ির মতো দেখায়।
মোটের উপর এর জীবনের চারটি পর্যায় রয়েছে— ডিম, লার্ভা, নিম্ফ এবং অ্যাডাল্ট বা প্রাপ্তবয়স্ক। এই চারটি পর্যায়ের মধ্যে একমাত্র লার্ভা অবস্থাতেই (চিগার) স্ক্র্যাব টাইফাসের জীবাণু মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে পারে।
চিগার হল এই রোগের প্রাথমিক রিসার্ভর। সাধারণত ছোট স্তন্যপায়ীদের শরীর থেকে খাদ্য সংগ্রহ করার সময়ই চিগারের মধ্যে সংক্রমণ হয়। এবার এই ইনফেকটেড চিগার গোটা জীবন সংক্রমণটিকে বয়ে বেড়ায়। প্রাপ্তবয়স্ক অবস্থায় ট্রান্সওভারিয়াল ট্রান্সমিশনের মাধ্যমে নিজের ডিমের মধ্যেও সংক্রমণ ছড়িয়ে দেয়। এবার ট্রান্সস্টেডিয়াল ট্রান্সমিশনের প্রক্রিয়াতে ডিম থেকে লার্ভার মধ্যে সংক্রমণ দেখা দেয়। এই প্রক্রিয়াতে চিগার সাম্রাজ্যের মধ্যে ইনফেকশন ঘুরতেই থাকে। এরপর এই সাম্রাজ্যের কোনও ইনফেকড চিগার কোনও মানুষকে কামড়ালে তিনিও স্ক্র্যাব টাইফাসে আক্রান্ত হন।
স্ক্র্যাব টাইফাসের ভূগোল
স্ক্র্যাব টাইফাসের প্রকোপে পড়া দেশগুলিকে ‘সুসুগামুশি ট্রায়াঙ্গেল’ বলা হয়। অর্থাৎ পৃথিবীর মানচিত্রে ত্রিভূজের মতো একটি অংশে এই রোগের প্রকোপ রয়েছে। ত্রিভূজটি উত্তরে রাশিয়ার সুদূর পূর্ব ভাগ এবং জাপানের উত্তরভাগ, দক্ষিণে অস্ট্রেলিয়ার উত্তরভাগ এবং পশ্চিমে পাকিস্তান পর্যন্ত বিস্তৃত।
ভারতের বিভিন্ন জায়গায় স্ক্র্যাব টাইফাস থাবা বসিয়েছে। জম্মু থেকে শুরু করে নাগাল্যান্ডের মতো সাব হিমালয়ান বেল্টে ছড়িয়েছে এই রোগ। এছাড়া হিমাচলপ্রদেশ, পণ্ডিচেরি, তামিলনাড়ু, সিকিমেও এই রোগে বহু মানুষ আক্রান্ত হন। এই জায়গাগুলির সঙ্গে অবশ্য পশ্চিমবঙ্গের নামটিও জুড়তে হবে। ইতিমধ্যেই রাজ্যের বেশকিছু মানুষ এই রোগে আক্রান্ত।
দেশকাল ভেদে এই রোগ ছড়িয়ে পড়ার সময়ও হয় আলাদা। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বর্ষাকালেই স্ক্র্যাব টাইফাসের প্রকোপ থাকে বেশি। যদিও দক্ষিণ ভারতে শীতের সময় এই রোগের প্রভাব বাড়ে।
লিখেছেন সায়ন নস্কর 
28th  November, 2019
ফাঙ্গাল ইনফেকশন থেকে
বাঁচবেন কীভাবে?

 কিছুদিন আগে পর্যন্ত আমরা ভাবতাম, ত্বকের ছত্রাক সংক্রমণ গ্রীষ্মকালে ও বর্ষাকালে বেশি হয়। তারপরে শারদীয়া পুজোর সময় নিজের থেকেই অধিকাংশ ত্বকের ছত্রাক সংক্রমণ সেরে যাবে। ওষুধ দেওয়ার একেবারে দরকার হবে না তা নয়, কিন্তু আমাদের ধারণা ছিল ছত্রাক সংক্রমণ সারানো আদৌ কঠিন নয়।
বিশদ

05th  December, 2019
 হোমিওপ্যাথিতে সারান
ফিসার-ফিসচুলা

 ফিসচুলা: ফিসচুলা হল মলদ্বারের বাইরের ত্বক থেকে মলদ্বারের ভিতর পর্যন্ত একটি নালীপথের সৃষ্টি হওয়া। এর পূর্বশর্ত হল মলদ্বারের পাশে ফোঁড়া হওয়ার ইতিহাস।
ফিসার: ফিসারের ক্ষেত্রে শক্ত পায়খানার কারণে মলদ্বার চিরে গিয়ে যন্ত্রণার হয়। মলদ্বারে জ্বালা করে।
বিশদ

05th  December, 2019
 সিনি’র স্বাস্থ্য উদ্যোগ

  ২০১৭ সালে মানুষের মধ্যে কাজ করার জন্য এইচসিএল গ্র্যান্ট পুরস্কার পেয়েছিল চাইল্ড ইন নিড ইনস্টিটিউট (সিনি)। এই গ্র্যান্ট পাওয়ার পর পশ্চিমবঙ্গের তিনটি ব্লক— জলপাইগুড়ির নাগরাকাটা, মুর্শিদাবাদের সুতি ১ এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনার ফলতায় কাজ শুরু করে সংস্থা।
বিশদ

05th  December, 2019
দৃষ্টি শক্তি হ্রাসে কলকাতা পঞ্চম

কয়েকদিন আগেই চলে গেল বিশ্ব দৃষ্টি দিবস। অথচ দৃষ্টিশক্তির হাল নিয়ে দেশের মানুষ কতটা ওয়াকিবহাল? সিগনিফাই নামে সংস্থার করা এক সমীক্ষায় উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য।
বিশদ

05th  December, 2019
বিপদ যখন
স্ক্র্যাব টাইফাস 

রোগ লক্ষণ
 রোগীর প্রবল জ্বর আসবে।
 গাঁটে গাঁটে খুব ব্যথা হবে প্রবল।
 কাশি হতে পারে।  বিশদ

28th  November, 2019
ডায়াবেটিসে হাঁটুন 

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষ্যে জিডি হাসপাতাল এবং ডায়াবেটিস ইনস্টিটিউটের পক্ষ থেকে ‘হাঁটো বাংলা হাঁটো’ কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করা হল। সেই উপলক্ষ্যে সংস্থার থেকে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালের চেয়ারম্যান এবং সিনিয়র কনসালটেন্ট ফিজিশিয়ান ডাঃ সুকুমার মুখোপাধ্যায়, এন্ডোক্রিনোলজির প্রধান ডাঃ শুভঙ্কর চৌধুরী, অর্থোপেডিক সার্জারির প্রধান ডাঃ চন্দ্রচূড় ভট্টাচার্য, অপথ্যালমোলজির প্রধান ডাঃ সিদ্ধার্ত ঘোষ সহ অন্যান্য বিশিষ্ট চিকিৎসকরা।  
বিশদ

28th  November, 2019
সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের মরণোত্তর মুকুট 

সম্প্রতি কলকাতায় আয়োজিত হয়েছিল পশ্চিমবঙ্গ শাখার ইন্ডিয়ান সোসাইটি অব অ্যাসিস্টেড রিপ্রোডাকশন সোসাইটির সম্মেলন। উক্ত সম্মেলনে প্রকশিত হল ডাঃ সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের জীবনী অবলম্বনে লেখা উপর লেখা বই ‘মরণোত্তর মুকুট’। বইটি লিখেছেন ডাঃ সাধনকুমার দে এবং সুনীত মুখোপাধ্যায়।  
বিশদ

28th  November, 2019
পিএমপিএআই-এর সম্মেলন 

নন রেজিস্টার্ড চিকিৎসকদের সংগঠন প্রোগ্রেসিভ প্র্যকটিশনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিয়া (পিএমপিএআই)-এর উদ্যোগে গত ১৮ এবং ১৯ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ষষ্ঠ রাজ্য সম্মেলন এবং কর্মশালা। 
বিশদ

28th  November, 2019
অসুখের নাম গচার 

উত্তরাধিকারসূত্রে পাওয়া ৪০ রকম বা তার বেশি বিপাক প্রক্রিয়ার বিশৃঙ্খলাকে একত্রে বলা হয় লাইসোসামাল স্টোরেজ ডিসঅর্ডার। এই রোগে দেহের লাইসোসোমাল প্রক্রিয়া বাধাপ্রাপ্ত হয় এবং ছোটখাট অঙ্গ বা অর্গানেলের মধ্যে জীবাণু জমতে থাকে। বিপাক প্রক্রিয়ার ত্রুটির জন্যই গচার ডিজিজ হয়। আসলে এটি হল গ্লুকোসেরেব্রোসিডেজ নামে একটি এনজাইমের ঘাটতি। 
বিশদ

28th  November, 2019
স্বাস্থ্যরক্ষায় পদযাত্রা 

সম্প্রতি চলে গেল বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস। ওই দিবস সম্পর্কে জনমানসে সচেতনতা গড়ে তুলতে দুর্গাপুর শ্রী রামকৃষ্ণ সেবা মিশনের অধীনস্থ সুগম ক্লিনিক নামে সংস্থার পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছিল বিশেষ উদ্যোগ।  
বিশদ

28th  November, 2019
 চোখ কতটা শক্তিশালী ক্যামেরা?

 কে বেশি শক্তিশালী? মানব অক্ষি নাকি ক্যামেরার লেন্স? দু’টির মধ্যে মিল কোথায়? কোথায় বা বৈসাদৃশ্য? আলোচনা করলেন বিশিষ্ট চক্ষু রোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক হিমাদ্রী দত্ত। বিশদ

21st  November, 2019
সুগার আছে, জানেনই না পাঁচ কোটি
জানাল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

  দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় ডায়াবেটিসে আক্রান্তর সংখ্যা বেড়েই চলেছে দিনের পরদিন ধরে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার আঞ্চলিক অধিকর্তা ডাঃ পুনম ক্ষেত্রপাল সিং জানিয়েছেন, ওই অংশে প্রায় পাঁচ কোটি মানুষ (চার কোটি ৯০ লক্ষ) জানেনই না যে তাঁরা ডায়াবেটিসে আক্রান্ত! অথচ অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস হার্ট, কিডনি এবং স্নায়ুতন্ত্র এবং চোখের ভয়ানক ক্ষতি করতে পারে।
বিশদ

21st  November, 2019
 টাইপ ১ ডায়াবেটিসের উত্তর খুঁজতে

  ১৪ নভেম্বর ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরুর জন্মদিন। এই দিনটি ভারতে শিশু দিবস হিসেবে পালিত হয়। আবার ওই একই দিনে জন্মেছিলেন ইনসুলিনের আবিষ্কর্তা ডাঃ ব্যান্টিং। তাঁর জন্মদিনে গোটা বিশ্বে ডায়াবেটিস দিবস পালিত হয়। তাই ভারতে শিশু দিবস ও বিশ্ব ডায়াবেটিস ডে একই দিনে পড়ে।
বিশদ

21st  November, 2019
বাচ্চাদের মধ্যে টাইপ টু ডায়াবেটিস বাড়ছে

  বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসের দিনই গোটা দেশে পালিত হল শিশু দিবস। এই নির্দিষ্ট দিনে বাচ্চাদের ডায়াবেটিস নিয়ে সতর্ক করলেন নারায়ণা হেল্‌থ সিটির কনসালটেন্ট এন্ডোক্রিনোলজি ডাঃ শুব্রহ্মনিয়ম কান্নন। তাঁর কথায়, প্রতি বছর বাচ্চাদের মধ্যে টাইপ ওয়ান এবং টাইপ টু ডায়াবেটিসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে।
বিশদ

21st  November, 2019
একনজরে
 উন্নাও ও নয়াদিল্লি, ৭ ডিসেম্বর (পিটিআই): শুক্রবার রাতে দিল্লির হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে উন্নাওয়ের নির্যাতিতার। শনিবার উন্নাওয়ে নির্যাতিতার বাড়িতে গিয়ে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। উত্তরপ্রদেশে একের পর এক বর্বরোচিত ঘটনার প্রেক্ষিতে তোপ দাগলেন রাজ্যের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে। ...

সংবাদদাতা, ইসলামপুর: শনিবার দুপুরে চাকুলিয়া থানার শিকারপুরে পাটবোঝাই একটি চলন্ত ট্রাক্টরে হঠাৎ আগুন লেগে প্রায় তিন লক্ষ টাকার পাট ভস্মীভূত হয়। এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, চাকুলিয়া হাট থেকে এক ব্যবসায়ী পাট কিনে ট্রাক্টরে চাপিয়ে নিয়ে বিহারের কিষাণগঞ্জে ...

সংবাদদাতা, লালবাগ: লালগোলা ব্লকের বিলবোরা কোপরা গ্রাম পঞ্চায়েতের চিন্তামণি এবং বয়রা গ্রামে পদ্মা নদীর পাড় মেরামতির কাজ শুরুর আগে শনিবার সকালে নারকেল ফাটিয়ে পুজো দিলেন রাজ্যের শ্রম দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী তথা জঙ্গিপুরের তৃণমূল বিধায়ক জাকির হোসেন।  ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কেন্দ্রীয় শর্তে পরিবেশবান্ধব ইলেকট্রিক বাস চালানোর জন্য দ্বিতীয়বার টেন্ডার ডেকেও তেমন সাড়া মিলল না। রাজ্যের নানা জায়গায় চালাতে ১৫০টি ইলেকট্রিক বাসের জন্য ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

শরীর-স্বাস্থ্যের প্রতি নজর দেওয়া প্রয়োজন। কর্মক্ষেত্রে উন্নতির সম্ভাবনা। গুপ্ত শত্রুতার মোকাবিলায় সতর্কতা প্রয়োজন। উচ্চশিক্ষায় বিলম্বিত ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৩৫- অভিনেতা ধর্মেন্দ্রর জন্ম
১৯৭১- ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের সময় করাচি বন্দরে হানা দিল ভারতীয় নৌবাহিনী
১৯৭৪- গণভোটের মাধ্যমে গ্রিসে রাজতন্ত্রের অবসান
১৯৮০- নিউইয়র্কে এক মানসিক প্রতিবন্ধী ভক্তের হাতে খুন হলেন বিখ্যাত ব্রিটিশ পপ গায়ক জন লেনন
১৯৯১- রাশিয়া, বেলারুশ এবং ইউক্রেনের রাষ্ট্রনেতারা সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে দেওয়ার জন্য চুক্তিবদ্ধ হলেন এবং স্বাধীন রাষ্ট্রগুলিকে নিয়ে কমনওয়েলথ গঠন করলেন
২০০৯- বাগদাদে বোমা হামলায় নিহত ১২৭ এবং আহত ৪৪৮ জন



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৪৯ টাকা ৭২.১৯ টাকা
পাউন্ড ৯২.২০ টাকা ৯৫.৫৪ টাকা
ইউরো ৭৭.৭৫ টাকা ৮০.৭৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
07th  December, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮, ৩৮৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬, ৪২০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৬, ৯৬৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৩, ৪০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৩, ৫০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, একাদশী ৫/৫৩ দিবা ৮/৩০। অশ্বিনী ৫৩/২৫ রাত্রি ৩/৩০। সূ উ ৬/৮/১৩, অ ৪/৪৮/১৭, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫১ গতে ৮/৫৮ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৯ মধ্যে পুনঃ ২/৪০ গতে ২/৪০ মধ্যে। রাত্রি ৭/২৮ গতে ৯/১৫ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৫ গতে ১/৪২ মধ্যে পুনঃ ২/৩৫ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ১০/৮ গতে ১২/৪৮ মধ্যে, কালরাত্রি ১/৮ গতে ২/৪৮ মধ্যে।
২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, একাদশী ৩/১৫/৫২ দিবা ৭/২৭/৫৯। অশ্বিনী ৫৩/১০/৩০ রাত্রি ৩/২৫/৫০, সূ উ ৬/৯/৩৮, অ ৪/৪৮/৪৮, অমৃতযোগ দিবা ৭/১ গতে ৯/৮ মধ্যে ও ১১/৫৬ গতে ২/৪৫ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৩৩ গতে ৯/২১ মধ্যে ও ১২/২ গতে ১/৫০ মধ্যে ও ২/৪৮ গতে ৬/১০ মধ্যে, কালবেলা ১১/২৯/১৪ গতে ১২/৪৯/৮ মধ্যে, কালরাত্রি ১/৯/২০ গতে ২/৪৯/২৭ মধ্যে।
১০ রবিয়স সানি

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
দ্বিতীয় টি২০: ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভারতের বিরুদ্ধে ৮ উইকেটে জিতল

10:32:44 PM

দ্বিতীয় টি২০: ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৭৩/১ (১০ ওভার) 

09:47:37 PM

দ্বিতীয় টি২০: ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৭১ রানের টার্গেট দিল ভারত 

08:47:23 PM

কোচবিহারে বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষ, জখম ২ 
কোচবিহারে ফের বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষ। বোমার ঘায়ে জখম দুই তৃণমূল সমর্থক। ...বিশদ

08:23:24 PM

দ্বিতীয় টি২০: ভারত ১৩২/৪ (১৫ ওভার) 

08:19:18 PM

দ্বিতীয় টি২০: ভারত ১১২/৩ (১২ ওভার) 

08:06:46 PM