Bartaman Patrika
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

কোন কোন হোমিওপ্যাথিক
ওষুধ বাড়িতে রাখবেন?

মরশুমি রোগের জন্য
শীত কাটিয়ে এখন হাজির হয়েছে বসন্ত। এই সময় একদিকে যেমন মাম্‌স, চিকেন পক্স ও নানা ইনফ্লুয়েঞ্জা বা সংক্রামক রোগ ছড়ায়, অন্যদিকে তেমনই ভাইরাল জ্বর-জারির প্রবণতাও বেড়ে যায়। এই ধরনের রোগে চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে ওষুধ খেতে হবে। তবে, রোগ সারার পর শরীরে যে দুর্বলতা থাকে, তা কাটানোর জন্য ‘ক্যালিফস’ খুব ভালো কাজ দেয়। আবার শিশুদের জ্বর হলে ক্যালিমিউর এবং ফেরাম ফসফেট আলাদা করে খাওয়ানো যেতে পারে। এতে সর্দি বুকে বসে নিউমোনিয়ার মতো কঠিন রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা অনেকটাই কমে যায়। পাশাপাশি, কনজাংটিভাইটিসের মতো চোখের সংক্রমণও এই সময় প্রায় মহামারীর আকার নেয়। এর জন্য বাড়িতে ইউফ্রেশিয়া ড্রপের একটা শিশি রেখে দেওয়া যেতে পারে। নির্দিষ্ট সময় অন্তর দিনে এবং রাতে এই ড্রপ ব্যবহার করলে সংক্রমণ কমে যায়।
বসন্তের আবেশ কাটতে না কাটতেই এসে পড়বে গ্রীষ্ম। প্রখর দাবদাহে নাভিশ্বাস উঠবে সকলের। এই সময়ে আবহাওয়ায় গরমের তারতম্যের সঙ্গে রোগব্যাধির প্রকোপও পাল্লা দিয়ে বাড়বে। গরমকালে অতিরিক্ত তাপে মাথা দপদপ, লু’র হাওয়া লেগে জ্বর, ঠান্ডা জল খেয়ে গলা ব্যথা, গায়ে শীতবোধ হলে ‘ফাইটোলক্কা’ ওষুধটি বিশেষ কাজ দেয়। আধ কাপ ঈষদুষ্ণ জলে মিশিয়ে এই ওষুধ খেলে উপকার হবেই। এছাড়া যাবতীয় জ্বর, মাথা ধরা, গায়ে-হাতে-পায়ে ব্যথার জন্য প্রাথমিক পর্যায়ে ‘বেলেডোনা’ ওষুধটি বাড়িতে রাখা যেতে পারে।
গ্রীষ্ম কাটিয়ে বর্ষা
বর্ষাকালে একটুতেই সর্দি, জোলো হাওয়ায় ঠান্ডা লাগা ইত্যাদির ক্ষেত্রে নেট্রাম সালফ বিশেষ কাজ দেয়। এছাড়া ‘থুজা’ ওষুধটিও এইসমস্ত রোগের ক্ষেত্রে রোগীকে দেওয়া যেতে পারে। পাশাপাশি, বর্ষাকালে পেটের সংক্রমণ একটা বড় সমস্যা হয়ে দেখা দেয়। ডায়ারিয়া, হজমের সমস্যা বা খাদ্যে বিষক্রিয়ার মতো সমস্যা হলে ‘আর্সেনিক অ্যাল্ব’ ওষুধটি বিশেষ কাজে দেয়। কিন্তু, সবক্ষেত্রেই প্রাথমিক পর্যায়ে এই ওষুধ রোগীকে দিতে হবে। উপসর্গগুলি একই থাকলে বা রোগের মাত্রা বাড়লে অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। মনে রাখতে হবে, রোগের নাম নয়, বরং রোগ এবং রোগীর সমস্ত লক্ষণসমূহের উপর ভিত্তি করে ওষুধ নির্বাচন করতে হবে। কারণ, হোমিওপ্যাথিতে রোগের নামে কোনও ওষুধ নেই। একই রোগের জন্য সব রোগীকে একই ওষুধ দিলে কাজ হবে না। যেমন ধরুন, ডায়ারিয়ার কথা। ডায়ারিয়ার সঙ্গে যদি পেটে ব্যথা থাকে তবে এক ওষুধ, আর যদি পেটে ব্যথা না থাকে, তবে অন্য ওষুধ। আবার ডায়ারিয়ার ফলে রোগী দুর্বল হয়ে পড়লে অন্য ওষুধ আর যদি দুর্বল না হয়, তবে অন্য ওষুধ। ডায়ারিয়া শুরু হওয়ার কারণের ওপর ভিত্তি করেও ওষুধ ভিন্ন ভিন্ন হতে পারে।
বর্ষা পেরিয়ে পুজো
বর্ষা পার করেই আসবে পুজোর মরশুম। আর তার ঠিক পিছন-পিছনই এসে হাজির হবে শীত। শীতকালে মানুষের জ্বর-জারি অন্যান্য ঋতুর তুলনায় একটু বেশিই হয়। উত্তুরে হাওয়া লেগে সর্দি-কাশি, গলা ব্যথা হলে ‘অ্যাকোনাইট’ অব্যর্থভাবে কাজ দেয়। আবার শীতকালের বাতাসে ভেসে বেড়ানো ধূলিকণার পরিমাণ বেড়ে যাওয়ার কারণে শ্বাসকষ্ট হলে, রাতে ঘুম না আসলে, ঘন-ঘন জল তেষ্টা পেলে ‘আর্সেনিক অ্যালবাম’ ওষুধটি খাওয়া যেতে পারে। তাতে প্রাথমিক ক্ষেত্রে কিছুটা উপকার পাওয়া যায়। জ্বরের সঙ্গে যদি জিভ শুকিয়ে যাওয়া, হাত-পা অসাড় হয়ে যাওয়ার মতো লক্ষণ দেখা দিলে ‘ব্রায়োনিয়া’ ওষুধটি রোগীকে দেওয়া যেতে পারে। আপনার রোগের লক্ষণগুলি যে ওষুধের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পাওয়া যাবে, সেটিই হবে আপনার উপযুক্ত ওষুধ। মনে করুন আপনার জ্বর হয়েছে; যদি দেখা যায়, আপনার জ্বরের দু’টি লক্ষণ ব্রায়োনিয়া ওষুধটির সঙ্গে মিলে যাচ্ছে, অন্যদিকে তিনটি লক্ষণ বেলেডোনা ওষুধটির সঙ্গে মিলে যাচ্ছে, তাহলে বেলেডোনাই হবে আপনার জন্য উপযুক্ত ওষুধ।
ছোটখাট চোট-আঘাতের জন্য
শরীরের কোনও অংশ পুড়ে গেলে বা গরম কিছুর ছ্যাঁকা লাগলে ক্যান্থারিস ওষুধটি বিশেষ কাজ দেয়। অয়েনমেন্ট এবং ক্রিম—দুই প্রকারেই বাজারে এই ওষুধ পাওয়া যায়। প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময় অন্তর এটি ব্যবহার করলে ক্ষতস্থান খুব তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যায়। শরীরে কোথাও চোট পেলে, কালসিটে পড়ে গেলে যে ব্যথা হয়, তা নিরাময়ে আর্নিকা মন্ট দারুণ কার্যকরী ভূমিকা নেয়। ধারালো কোনও কিছুতে (ছুরি, কাঁচি) শরীরের কোথাও কেটে গেলে স্ট্যাফিসেগ্রিয়া ওষুধটি বিশেষ কাজ দেয়। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হলে আবার অন্য ওষুধ। সেক্ষেত্রে ফেরাম ফসফেট মলম অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে লাগাম পরাতে পারে। এছাড়া বিকট কোনও শব্দে কানে সমস্যা দেখা দিলে হাইপেরিকাম ওষুধটি বিশেষ কাজ দেয়।
ওষুধ খাওয়ার পদ্ধতি ও মাত্রা
হোমিওপ্যাথি একটি উপসর্গভিত্তিক চিকিৎসা বিজ্ঞান। মনে রাখতে হবে, রোগের লক্ষণগুলিই হল রোগের প্রকৃত পরিচয় পাওয়ার একমাত্র রাস্তা। তাই রোগের শারীরিক লক্ষণ, মানসিক লক্ষণ এবং রোগীর ব্যক্তিগত লক্ষণগুলি বুঝতে না পারলে কিংবা গুরুত্বপূর্ণ লক্ষণগুলি সংগ্রহ করতে না পারলে, সঠিক ওষুধ নির্বাচন করা সম্ভব হয় না। সেক্ষেত্রে হাজারবার ওষুধ পাল্টে এবং হাজার ডোজ ওষুধ খেয়েও সামান্য ছোটখাট রোগ সারানো যায় না। আবার মারাত্মক অসুখ-বিসুখ কিংবা অনেক বছরেরও পুরনো রোগ-ব্যাধিও মাত্র এক ডোজ ওষুধেই নির্মূল হয়ে যায়। কিন্তু, তার জন্য লক্ষণের সঙ্গে পুরোপুরি মিলিয়ে ওষুধ দিতে হবে। মিশ্রণের (টিংচার) ক্ষেত্রে ওষুধ রোগের মাত্রা বুঝে এক কাপ জলে গুলে ১ ঘণ্টা বা ২ ঘণ্টা অন্তর খাওয়া যেতে পারে। গ্লোবিউল বা ‘বড়ি’র ওষুধের ক্ষেত্রে ৮ থেকে ১০টি করে দানা ঘণ্টা দু’য়েক অন্তর খাওয়া যায়।
সতর্কীকরণ: দীর্ঘদিন ধরে কোনও ওষুধ খাবেন না। রোগের উপশম না হলে অবশ্যই চিকিৎসকের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করুন।
সাক্ষাৎকার: নীতীশ চক্রবর্তী
07th  March, 2019
কিডনি  ভালো রাখতে কী করবেন?

আজ বিশ্ব কিডনি দিবস। সারা বিশ্বেই অসংখ্য মানুষ কিডনি সংক্রান্ত নানা সংস্যায় ভুগছেন। অথচ সচেতন হয়ে আগে থেকে ব্যবস্থা নিলে ঠেকানো যায় কিডনির সমস্যা। পরামর্শে নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের নেফ্রোলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ডাঃ পিনাকী মুখোপাধ্যায় এবং পিয়ারলেস হাসপাতাল এবং বি কে রায় রিসার্চ সেন্টারের নেফ্রোলজিস্ট ডাঃ শৌভিক সুরাল।
বিশদ

14th  March, 2019
ডায়ালিসিস না কিডনি প্রতিস্থাপন?

 কিডনির অসুখ সাধারণত দু’ধরনের। অ্যাকিউট এবং ক্রনিক। অ্যাকিউট কিডনির অসুখ হয় সাধারণত কোনও সংক্রমণ, ডায়েরিয়া বা কোনও ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থেকে। অ্যাকিউট কিডনির অসুখে দ্রুত চিকিৎসা শুরু করা গেলে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই রোগী সুস্থ হয়ে যান। অন্যদিকে, ক্রনিক কিডনি ডিজিজ একেবারেই সাইলেন্ট কিলার।
বিশদ

14th  March, 2019
নিখরচায় শিশুদের ক্যান্সারের চিকিৎসা করবে ইনস্টিটিউট অব চাইল্ড হেলথ

পার্কসার্কাসের ইনস্টিটিউট অব চাইল্ড হেলথ (আইসিএইচ) এবং রোটারাক্ট ডিস্ট্রিক্ট ৩২৯১ সংস্থার উদ্যোগে আইসিএইচ হাসপাতালে উদ্বোধন হল পেডিয়াট্রিক ক্যান্সার রিহ্যাবিলিটেশন ইউনিট-এর। শিশুদের ক্যান্সারের নিরাময়ে বিভাগটি কাজ করবে।
বিশদ

14th  March, 2019
অ্যাপোলোর নতুন হাসপাতাল

 অ্যাপোলো হাসপাতাল গোষ্ঠীর ৭২তম হাসপাতালের উদ্বোধন করা হল লখনউতে। এই আন্তর্জাতিক মানের হাসপাতালটি উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। বিশদ

14th  March, 2019
তামাকমুক্ত বাংলার দাবি

রাজ্যের ২ কোটি ৩০ লক্ষ মানুষ ধোঁয়াযুক্ত বা ধোঁয়াহীন তামাক ব্যবহার করেন। দুঃখের ব্যাপার হল, বেআইনিভাবে জনবহুল জায়গায় ধূমপানের পরোক্ষ শিকার হন ২২.৫ শতাংশ মানুষ। আর তামাক সংক্রান্ত রোগের কারণে প্রতি বছর অকালে প্রাণ হারান দেড় লক্ষ মানুষ। 
বিশদ

14th  March, 2019
 বিশেষভাবে সক্ষমদের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা

 বিশেষভাবে সক্ষম মানুষদের জন্য সম্প্রতি ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয় মুকুন্দপুরের প্রতিবন্ধী ভিলেজের মাঠে। আয়োজন করে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য প্রতিবন্ধী সম্মিলনী। উদ্বোধন করেন বিশিষ্ট পবর্তারোহী দেবাশিস বিশ্বাস।
বিশদ

14th  March, 2019
 দীপায়নের স্বাস্থ্যপরীক্ষা শিবির

  স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দীপায়ন। সম্প্রতি সংস্থাটির উদ্যোগে, হুগলির রঘুনাথপুর কালীরচকের ‘আমরা সবাই’ সংঘে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শিবিরের আয়োজন করা হয়েছিল। বিশদ

07th  March, 2019
 রুবি হাসপাতালে প্রি ম্যারেজ ক্লিনিক

  সাত জন্ম বিয়ে টিকিয়ে রাখার জন্য আমরা পালন করি নানা আচার। এমনকী বিয়ের আগে কুষ্ঠি মিলিয়েও দেখা হয় পাত্র-পাত্রীর। হ্যাঁ সবই করা হয় দম্পতির ভালো থাকার জন্যই। অথচ আশ্চর্যের ব্যাপার হল, আমরা যেন খানিক উদাসীনভাবেই ভুলে যাই, দুটি মানুষের মনও আছে। আর মনের মিল হলে তবেই একটা সম্পর্কের গিঁট আরও শক্ত হয়।
বিশদ

07th  March, 2019
সোয়াইন ফ্লু’র বিপদ
সামলাবেন কীভাবে?

 কেন নাম সোয়াইন ফ্লু?
সোয়াইন ফ্লু এক ধরনের ভাইরাসজনিত রোগ। এইচ১এন১ নামের ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের আক্রমণে মানুষ এই রোগে আক্রান্ত হন। সাধারণত তিন ধরনের ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাস রয়েছে— ইনফ্লুয়েঞ্জা এ, বি ও সি। 
বিশদ

28th  February, 2019
 সোয়াইন ফ্লু প্রতিরোধে হোমিওপ্যাথি-আয়ুর্বেদ

সোয়াইন ফ্লু নিয়ে সতর্ক থাকুন। রোগ এড়ান। আর অতি অবশ্যই ঘরে মজুত রাখুন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা। পরামর্শে পিসিএম হোমিওপ্যাথিক মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডাঃ আশিস শাসমল এবং বেঙ্গল ইনস্টিটিউট অফ ফার্মাসিউটিক্যাল সায়েন্সেস-এর প্রিন্সিপাল ইনচার্য ডাঃ লোপামুদ্রা ভট্টাচার্য। বিশদ

28th  February, 2019
নারায়ণা উদ্যোগ

  স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে নারী ও শিশুর স্বাস্থ্যের বিষয়ে সচেতনতা বাড়াতে উদ্যোগী হল নারায়ণা মাল্টিস্পেশালিটি হাসপাতাল, হাওড়া। মূলত হুগলি জেলা ও পার্শ্ববর্তী কিছু অঞ্চলে এই সচেতনতামূলক অভিযান চালানো হবে।
বিশদ

28th  February, 2019
 হোমিওপ্যাথিক সেমিনার ২০১৯

  হোমিওপ্যাথির মান, গবেষণা ও চিকিৎসার উৎকর্ষ বাড়াতে নিউটাউনের বিশ্ববাংলা কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘অল ইন্ডিয়া হোমিওপ্যাথিক পোস্ট গ্র্যাজুয়েট সেমিনার ২০১৯’।
বিশদ

28th  February, 2019
 সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভদের সম্মেলন

  সম্প্রতি সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভ ইউনিয়ন-এর রাজ্য শাখার ৪৪তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়ে গেল মহাজতি সদনে। সম্মেলনের কর্মসূচি মেনে সংগঠনের প্রায় ২ হাজার পাঁচশো সদস্যের এক মিছিল বিভিন্ন দাবিদাওয়া নিয়ে পথ পরিক্রমা করে।
বিশদ

28th  February, 2019
চুলে রং করেন? মুখ ফুলে যাওয়া থেকে সাবধান

বাজার থেকে চুলের রং কিনে এনে একটু লাগিয়ে দেখেছিলেন। পুরোটা ব্যবহারও করেননি। কিন্তু তাতেই যা হওয়ার হয়ে গেল। সম্প্রতি কলপের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ায় ফ্রান্সের ১৯ বছরের এক তরুণীর মুখ ফুলে ঢোল হয়ে গিয়েছিল। ওই তরুণীর নাম এস্তেলে। এক সংবাদ সংস্থার প্রতিবেদনে বিষয়টি জানা গিয়েছে।
বিশদ

21st  February, 2019
একনজরে
  সংবাদদাতা, বুদবুদ: বুদবুদে শান্তিনিকেতনের আদলে বসন্ত উৎসব ঘিরে প্রস্তুতি তুঙ্গে। বুদবুদের মহাকালী উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে এই উৎসব এবার দ্বিতীয় বর্ষে পদার্পণ করছে। শান্তিনিকেতনকে বাদ দিয়ে বাঙালির বসন্ত উৎসব কার্যত অসম্পূর্ণ। তাই দোল উৎসবে শান্তিনিকেতন যেতে মুখিয়ে থাকেন অনেকেই। ...

 লন্ডন, ১৪ মার্চ (পিটিআই): বুধবার রাতে চুক্তিহীন ব্রেক্সিটের বিপক্ষে ভোট দিয়ে সরকারকে দ্বিতীয়বার ধাক্কা দিয়েছেন হাউস অব কমন্সের সদস্যরা। কার্যত কোণঠাসা হয়ে পড়া ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে ভেঙে পড়তে নারাজ। আগামী সপ্তাহের কোনও একটি দিনে শেষবারের মতো চেষ্টা করে দেখতে ...

 পাটনা, ১৪ মার্চ (পিটিআই): তাঁর বিজেপি ত্যাগ সম্ভবত সময়ের অপেক্ষা। তার আগে বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে তুলোধোনা করলেন শত্রুঘ্ন সিনহা। পাটনা সাহিব কেন্দ্রের এই এমপির ...

নয়াদিল্লি, ১৪ মার্চ: বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ২-৩ ব্যবধানে ওয়ান ডে সিরিজ হেরেও বিচলিত নন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, ‘বিশ্বকাপের জন্য ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যায় অধিক পরিশ্রম করতে হবে। ব্যবসায় যুক্ত ব্যক্তির পক্ষে দিনটি শুভ। প্রেম-প্রীতিতে আগ্রহ বাড়বে। নতুন ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৫৬৪ – জিজিয়া কর তুলে দেন মুঘল সম্রাট আকবর
১৮৯২ – লিভারপুল ফুটবল ক্লাব প্রতিষ্ঠিত হয়।
১৮৭২ - ভারতীয় সাক্ষ্য আইন প্রবর্তন।
১৯০৪ - স্বনামধন্য বাঙালি কবি ও লেখক অন্নদাশঙ্কর রায়ের জন্ম
১৯৩৪: রাজনীতিক কাঁসিরামের জন্ম
১৯৩৭ - পৃথিবীর প্রথম ব্লাডব্যাংক চালু হয় শিকাগোতে
১৯৩৯ - বাঙালি ভ্রমণ কাহিনী, রম্যরচনা ও উপন্যাস লেখক জলধর সেনের মৃত্যু
১৯৭৬: অভিনেতা অভয় দেওলের জন্ম
১৯৭৭: অভিনেতা যিশু সেনগুপ্তের জন্ম
১৯৮৩: সঙ্গীতশিল্পী হানি সিংয়ের জন্ম
১৯৮৫ – প্রথম ইন্টারনেট ডোমেইন নাম নিবন্ধিত হয়। (symbolics.com)





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৮.৭০ টাকা ৭০.৩৯ টাকা
পাউন্ড ৯০.৬৮ টাকা ৯৩.৯৭ টাকা
ইউরো ৭৭.২৯ টাকা ৮০.২৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৫২০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩০,৮৫৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,৩২০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,২০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৩০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩০ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৫ মার্চ ২০১৯, শুক্রবার, নবমী ৪৯/৪৭ রাত্রি ১/৪৫। আর্দ্রা ৫৪/৪৫ রাত্রি ৩/৪৪। সূ উ ৫/৪৯/৫৫, অ ৫/৪১/৫৩, অমৃতযোগ দিবা ৭/২৩ মধ্যে পুনঃ ৮/১২ গতে ১০/৩৪ মধ্যে পুনঃ ১২/৫৬ গতে ২/৩২ মধ্যে পুনঃ ৪/৭ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৭/১৯ গতে ৮/৫৬ মধ্যে পুনঃ ৩/২২ গতে ৪/১১ মধ্যে, বারবেলা ৮/৪৮ গতে ১১/৪৬ মধ্যে, কালরাত্রি ৮/৪৩ গতে ১০/১৫ মধ্যে।
৩০ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৫ মার্চ ২০১৯, শুক্রবার, নবমী রাত্রি ৯/০/৫০। আর্দ্রানক্ষত্র রাত্রি ১১/৩২/৪৫, সূ উ ৫/৫০/২৮, অ ৫/৪০/৪৯, অমৃতযোগ দিবা ৭/২৫/১১ মধ্যে ও ৮/১২/৩২ থেকে ১০/৩৪/৩৬ মধ্যে ও ১২/৫৬/৫১ থেকে ২/৩১/২৪ মধ্যে ও ৪/৬/৬ থেকে ৫/৪০/৪৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/১৮/৬ থেকে ৮/৫৫/২৩ মধ্যে ও ৩/২৪/৩২ থেকে ৪/১৩/১১ মধ্যে, বারবেলা ৮/৪৩/৩ থেকে ১০/১৬/৫১ মধ্যে, কালবেলা ১০/১৬/৫১ থেকে ১১/৪৫/৩৯ মধ্যে, কালরাত্রি ৮/৪৩/১৪ থেকে ১০/১৪/২৬ মধ্যে।
 ৭ রজব
এই মুহূর্তে
দাসপুরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নয়ানজুলিতে বাস 
টোটোকে বাঁচাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নয়ানজুলিতে পড়ে গেল কনেযাত্রীবোঝাই বাস। ...বিশদ

07:55:31 PM

২৫টি আসনে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল বামেরা 
১৭টি আসন ছেড়ে ২৫টি আসনে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল বামফ্রন্ট। ...বিশদ

06:51:12 PM

আজ সন্ধ্যায় দক্ষিণবঙ্গে ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা 
আজ সন্ধ্যায় দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে ...বিশদ

05:01:43 PM

২৬৯ পয়েন্ট উঠল সেনসেক্স

04:02:07 PM

নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলার ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৯ 

02:22:06 PM

মাদারিহাটে গাড়িতে ধাক্কা মারল ট্রাক, জখম ১০ 

01:36:00 PM