Bartaman Patrika
হ য ব র ল
 

বিস্ময়কর প্রাণী 

১৫০ মিলিয়ন বছর আগে যখন ডাইনোসরদের স্বর্ণযুগ ছিল সেই সময় পাখি নামক আর এক প্রজাতির উদ্ভব হয়েছিল। সরীসৃপের নানা বৈশিষ্ট্যের সঙ্গে সঙ্গে তারা পালকের মতো কিছু অসাধারণ বৈশিষ্ট্য অর্জন করেছিল। যার সাহায্যে তারা বিমানের মতো ওড়ার শক্তি পেয়েছিল। পাখিরা অন্য যে কোনও প্রাণীর চেয়ে দ্রুত আকাশে ভ্রমণ করতে পারে। এই আকাশে ওড়ার ক্ষমতাই তাদের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ সমস্যাগুলির মোকাবিলাতে সাহায্য করে। সোনি বিবিসি আর্থ-এর শো লাইফ-এ পাখির এই কৌশলগুলিই তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে।
হামিংবার্ড
অসাধারণ ওড়ার ক্ষমতার জন্য এরা তীব্র গতিতে উড়ে যেতে পারে। একটি স্ত্রী হামিংবার্ড তার ডানা ও লেজের নকশার কারণে যে কোনও দিকে নির্ভুলভাবে উড়ে যেতে পারে। কিন্তু পুরুষ হামিংবার্ডরা তাদের পালকে ঢাকা বেশি ওজনের লম্বা লেজের জন্য বেশি দূর উড়তে পারে না। তবে একটি পুরুষ হামিংবার্ড যতক্ষণ পর্যন্ত না বিশ্রাম নেয়, ততক্ষণ পর্যন্ত টানা আকাশে থাকতে পারে।
ল্যামারমেয়ার
এরা পাহাড়ের ঢালু অঞ্চল থেকে আকাশে উড়ার জন্য বিখ্যাত। ২.৫ মিটার লম্বা দুটি ডানা নিয়ে এরা বহু দূর পর্যন্ত উড়তে পারে। ল্যামারমেয়ার মাংসাশী প্রাণী হলেও এদের খাদ্যাভ্যাস অন্যরকম। অন্য শিকারীরা প্রাণীর মাংস খেয়ে নেওয়ার পর এরা হাঁড়গুলি খাওয়ার সুযোগ পায়। এদের শরীরে এক ধরনের ক্ষারক রস নিঃসৃত হয় যার সাহায্যে এরা প্রাণীর হাড়গুলিকে সহজে হজম করে ফেলে।
রেড বিলড ট্রপিক বার্ড
মূলত ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে রেড বিলড ট্রপিক বার্ডকে দেখতে পাওয়া যায়। এরা বেঁচে থাকার জন্য অনেক উঁচু পর্যন্ত উড়ে যেতে পারে। এদের ডানাদুটি প্রচণ্ড গতিতে উড়তে সাহায্য করে। রেড বিলড ট্রপিক বার্ডের মধ্যে বাবা বা মা যখন তার সন্তানের লালনপালন করে তখন তাদের মধ্যে একজন কেউ দূরে সমুদ্রে মাছ বা স্কুইড শিকারের জন্য যায়। খুব সহজে শিকার খুঁজে পেলেও এরা তাদের ক্ষুধার্ত সন্তানের মুখে খাবার তুলে দেওয়া নিয়ে চিন্তায় থাকে। কারণ, শিকার করে ফেরার সময় একদল খাবার সন্ধানী চোরের মুখোমুখি হতে হয় তাদের। এই খাবার সন্ধানীরা ওদের কাছ থেকে খাবার ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু ট্রপিক পাখির সরু ডানা ও গতির জন্য তারা সব বাধা পেরিয়ে তাদের ক্ষুধার্ত সন্তানদের মুখে খাবার তুলে দিতে সক্ষম হয়।
চীন স্ট্র্যাপ পেঙ্গুইন
এরা প্রতিদিন অ্যান্টার্কটিকায় কমবেশি ৮০ কিমি পর্যন্ত ঘুরে বেড়িয়ে ক্রিল ও মাছ শিকার করে। আর খাবারের শক্ত অংশটি পরিবারের জন্য নিয়ে আসে। ডানাবিহীন এই প্রাণী অ্যান্টার্কটিকার আগ্নেয়গিরির চূড়ায়ও উড়তে পারে। আর গ্ল্যাসিয়ারগুলি যখন আগ্নেয়গিরির ছাইয়ে ঢাকা থাকে তখন এরা নিজেদের জায়গাতেই থাকে। এরা এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজারেরও বেশি পাখির মধ্যে থেকে নিজের পরিবারকে খুঁজে বার করতে পারে! এদের তীব্র শ্রবণশক্তি ও কিছু সাংকেতিক শব্দের মাধ্যমে তাদের ছানার কান্নাকেও শনাক্ত করতে পারে। 
18th  October, 2020
পুজোর আনন্দ 

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে এবার কীভাবে পুজোর আনন্দ উপভোগ করবে জানাল তোমাদের দুই বন্ধু।   বিশদ

18th  October, 2020
মহিষাসুর 
হিমাদ্রিকিশোর দাশগুপ্ত

দুর্গাপুজোর মহাষষ্ঠী। সকালবেলাই পদ্মপুকুর গ্রামের পুজো প্যান্ডেলের ছোট আটচালার প্রতিমা এসে গিয়েছে, তবুও বিকেলবেলা প্যান্ডেলের সামনে দাঁড়িয়ে অধীর আগ্রহে গ্রামে ঢোকার রাস্তার দিকে তাকিয়ে ছিল পুজো কমিটির লোকজন ও গ্রামের নানা বয়সি বাচ্চারা।  বিশদ

18th  October, 2020
কয়েকটি আশ্চর্যজনক প্রাণীর কর্মকাণ্ড

পৃথিবীতে এমন অনেক প্রাণী আছে যাদের কিছুটা হলেও মানুষের মতো আচরণ করতে দেখা যায়। হ্যাঁ, আশ্চর্য মনে হলেও এমন প্রাণীর অস্তিত্ব আমাদের এই ব্রহ্মাণ্ডে আছে। ব্যালেট থেকে ট্যাঙ্গোর মতো প্রাণীরা তো নাচতেও পারে।  বিশদ

11th  October, 2020
কাটবে কেমন পুজোর দিন?

করোনা আবহে ছোট্ট অভিনেতা-অভিনেত্রীরা তাদের এবারের পুজো পরিকল্পনা জানাল হ য ব র ল’র বন্ধুদের।
বিশদ

11th  October, 2020
নয় তো পুজো বিষাদের
পার্থজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়

চারদিকেতে মেরাপ, আলো, দুধ-সাদা মেঘ আসমানে,
ভোরের বাতাস, তুই কি আমায় বলতে কিছু চাস কানে? বিশদ

11th  October, 2020
হুলো ও ছবির
জয়ন্ত দে

জলের ট্যাঙ্কের ওপর দাঁড়িয়ে ছিল হুলো। দৃষ্টি নীচের ছাদে। একটা খবরের কাগজ খুলে তার ওপর গড়াগড়ি খাচ্ছে মেনি। মাঝে মাঝে খবরের কাগজটা তুলে কী যেন দেখছে। এটা অনেকক্ষণ ধরেই চলছে। ব্যাপারটা কী? মেনি কি খেলছে?
বিশদ

11th  October, 2020
আশ্চর্যের হামিংবার্ড 

অনবরত ডানা ঝাপটাচ্ছে এক অপূর্ব সুন্দর পাখি। এক সেকেন্ডের মধ্যেই বহুবার। খালি চোখে আলাদা করে ধরা যাচ্ছে না ডানা ঝাপটানোর দৃশ্য। পাখিটির এত দ্রুত গতিতে ডানা ঝাপটানোর জন্য একধরনের গুঞ্জন হয়। ইংরেজিতে যাকে বলে ‘হাম’। ভাবছ কোন পাখির কথা বলছি? তার নাম হামিংবার্ড। বিশদ

04th  October, 2020
জঙ্গলে জ্যান্ত পাথর 

‘জঙ্গলে জ্যান্ত পাথর’ বইটির মধ্যে রয়েছে দুটি রোমাঞ্চকর গল্প। প্রথমটি, ‘জঙ্গলে ভয় ছিল’ এবং দ্বিতীয়টি, ‘জ্যান্ত পাথর! তারপর...’। লেখক ত্রিদিবকুমার চট্টোপাধ্যায় রচিত চরিত্র, ন্যাশনাল সায়েন্টিস্ট জগবন্ধু মুখার্জি, অর্থাৎ জগুমামা ও তাঁর অ্যাসিস্ট্যান্ট অর্ণব ওরফে টুকলুর দুটি রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতার কথাই রয়েছে বইটিতে। বিশদ

04th  October, 2020
এপাশ ওপাশ
দীপ মুখোপাধ্যায়

মনের আকাশ। চাঁদ উঠেছে। আর ফুটেছে তারা
স্বপ্নে উড়ে যাচ্ছি সবাই ঘুমন্ত বাচ্চারা বিশদ

04th  October, 2020
রূপচাঁদের ভাগ্যোদয়
ষষ্ঠীপদ চট্টোপাধ্যায়

বহুদিন আগে পশ্চিম মেদিনীপুরের ‘গুড়গুড়িপাল’ ছিল ভয়াবহ অরণ্যে ভরা। এ পথে যাতায়াত রীতিমতো ভয়ের ব্যাপার ছিল।  সেবার ইন্দ্রা (ইঁদা) অঞ্চল থেকে বছর তেইশের এক যুবককে এই অঞ্চলে ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে এদিকে আসতে দেখা গেল। এমন বনপ্রদেশে কে এই যুবক?
বিশদ

04th  October, 2020
ছোটদের রান্নাঘর

করোনার দাপটে স্কুল বন্ধ। সুতরাং বাড়ি থেকে বেরিয়ে এটা ওটা খাওয়ারও জো নেই। তাই বলে কি লকডাউনে কোনও ভালো খাবারই চেখে দেখার সুযোগ হবে না? চিন্তা নেই, ছোটদের রান্নাঘর-এ শুধু তোমাদের জন্যই দুটি লোভনীয় রেসিপি দিয়েছেন হায়াত রিজেন্সি কলকাতা হোটেলের শেফ ডি  কুইজিন সঞ্জয় রাউত। এগুলি আগুনের সাহায্য ছাড়াই তৈরি করা যাবে। তোমরাই করে চমকে দাও বড়দের। বিশদ

27th  September, 2020
জা না অ জা না
গাছেরাও কথা বলে

১৯০১ সাল। ওই বছরেই আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু প্রমাণ করে দিয়েছিলেন গাছেরও প্রাণ আছে। তিনি তাঁর আবিষ্কৃত ক্রেসকোগ্রাফ যন্ত্রের মাধ্যমে দেখিয়েছিলেন, আলো, তাপ, শব্দ এবং অন্যান্য উদ্দীপনায় সাড়া দেয় উদ্ভিদও! সেই আবিষ্কারের একশো বছর পরে, এখনও গাছেদের নিয়ে হয়ে চলেছে নতুন অনেক গবেষণা। বিশদ

27th  September, 2020
দখল
শমীন্দ্র ভৌমিক

শরৎ দিল উড়াল
মেঘের ডানায়–
শরৎ দিল দেশ দেশান্তে
রুগ্ন ঘরে হানা। বিশদ

27th  September, 2020
শিউলি ফুলের সকাল
কার্তিক ঘোষ

না, এটা ঠিক গল্প নয়। গল্পের মতো শুনতে।
হিসেব মতো সত্তর বছর আগের পুজোর গন্ধটা ছিল একটু অন্য রকম। মনে পড়লে এখনও যেন মন কেমন করে আমার।
মা ছিলেন এমনিতেই গোটা গ্রামের হাসি-খুশি উমা। বিশদ

27th  September, 2020
একনজরে
ট্যুইটারে লাদাখকে চীনের অংশ হিসেবে দেখানো হচ্ছে। এনিয়ে ভারতের যৌথ সংসদীয় কমিটির প্রশ্নের মুখে ট্যুইটার ইন্ডিয়া। তাদের তরফে বিষয়টি নিয়ে এই মাইক্রোব্লগিং সাইট কর্তৃপক্ষের কাছে কৈফিয়ত তলব করা হয়। যার উত্তরে সংশ্লিষ্ট কমিটিকে ট্যুইটার ইন্ডিয়া জানিয়েছে, এ ব্যাপারে তারা ভারতের ...

করোনা আবহেও লক্ষ্মীর আরাধনার বাজেটে খামতি পড়েনি। এমনকী বাইরে থেকে চাঁদা আদায়ও নয়। গ্রামবাসীরাই বছরভর মাটির ভাঁড়ে যে টাকা জমিয়েছেন, তাতেই হচ্ছে পুজোর আয়োজন। ...

‘দরওয়াজা বন্ধ’ করেই অনুশীলন করাতে পছন্দ করেন এটিকে মোহন বাগানের হেডস্যার আন্তোনিও লোপেজ হাবাস। গতবার সল্টলেক স্টেডিয়ামের সংলগ্ন প্র্যাকটিস মাঠে এরকমই চিত্র দেখা গিয়েছিল। এবার গোয়াতে আইএসএলের প্রস্তুতি নিচ্ছেন প্রণয়-প্রবীররা। ...

সংবাদদাতা, পতিরাম: ১৯৩৩ সালের ২৮ অক্টোবর। অবিভক্ত ভারতের হিলি স্টেশনে দার্জিলিং মেলে লুটপাট চালিয়েছিলেন স্বাধীনতা সংগ্রামীরা। দেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের কাজে লেগেছিল সেই ‘লুটের টাকা’।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চবিদ্যার ক্ষেত্রে মধ্যম ফল আশা করা যায়। প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় সাফল্য আসবে। প্রেম-প্রণয়ে নতুনত্ব আছে। কর্মরতদের ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব স্ট্রোক দিবস
১৯৬৯: ইন্টারনেটের আগের স্তর আরপানেটের আবিষ্কার
১৯৭১: অস্ট্রেলিয় ক্রিকেটার ম্যাথু হেডের জন্ম
১৯৮১: অভিনেত্রী রীমা সেনের জন্ম
১৯৮৫: বক্সার বিজেন্দর সিংয়ের জন্ম
১৯৮৮: সমাজ সংস্কারক ও স্বাধীনতা সংগ্রামী কমলাদেবী চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যু
১৯৯৯: ওড়িশায় ঘূর্ণিঝড়ে কমপক্ষে ১০ হাজার মানুষের মৃত্যু
২০০৫: দিল্লিতে পরপর তিনটি বিস্ফোরণে অন্তত ৬২জনের মৃত্যু  



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৮৯ টাকা ৭৪.৬০ টাকা
পাউন্ড ৯৪.৪৭ টাকা ৯৭.৮৪ টাকা
ইউরো ৮৫.২৮ টাকা ৮৮.৪৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫১,৮১০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৯,১৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৯,৮৯০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬২,১০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬২,২০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১২ কার্তিক, ১৪২৭, বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ত্রয়োদশী ২৩/৫২ দিবা ৩/১৬। উত্তরভাদ্রপদ নক্ষত্র ১৫/৪১ দিবা ১২/০। সূর্যোদয় ৫/৪৩/১৬, সূর্যাস্ত ৪/৫৭/৩০। অমৃতযোগ দিবা ৭/১৩ মধ্যে পুনঃ ১/১৩ গতে ২/৪২ মধ্যে। রাত্রি ৫/৪৮ গতে ৯/১৩ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৬ গতে ৩/১০ মধ্যে পুনঃ ৪/১ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ২/১০ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ১১/২১ গতে ১২/৫৬ মধ্যে।
১২ কার্তিক, ১৪২৭, বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ত্রয়োদশী দিবা ৩/২১। উত্তরভাদ্রপদ নক্ষত্র দিবা ১/১২। সূর্যোদয় ৫/৪৪, সূর্যাস্ত ৪/৫৮। অমৃতযোগ দিবা ৭/১৮ মধ্যে ও ১/১১ গতে ২/৩৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪৩ গতে ৯/১১ মধ্যে ও ১১/৪৬ গতে ৩/১৪ মধ্যে ও ৪/৬ গতে ৫/৪৫ মধ্যে। কালবেলা ২/১০ গতে ৪/৫৮ মধ্যে। কালরাত্রি ১১/২১ গতে ১২/৫৭ মধ্যে।
১১ রবিয়ল আউয়ল।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আজকের দিনটি কেমন যাবে?  
মেষ: কর্মরতদের উপার্জনের ক্ষেত্রে কোনও বাধা নেই। বৃষ: শেয়ার বা ফাটকায় বিনিয়োগ ...বিশদ

04:29:40 PM

ইতিহাসে আজকের দিনে  
বিশ্ব স্ট্রোক দিবস ১৯৬৯: ইন্টারনেটের আগের স্তর আরপানেটের আবিষ্কার ১৯৭১: অস্ট্রেলিয় ক্রিকেটার ...বিশদ

04:28:18 PM

আইপিএল: কেকেআর-কে ৬ উইকেটে হারাল সিএসকে 

11:14:20 PM

আইপিএল: চেন্নাই ১২১/৩ (১৫ ওভার) 

10:43:26 PM

আইপিএল: চেন্নাই ৮৮/১ (১১ ওভার) 

10:19:05 PM

আইপিএল: চেন্নাই ৩৭/০ (৫ ওভার) 

09:51:13 PM