Bartaman Patrika
হ য ব র ল
 

মার্কশিট 

তোমাদের জন্য চলছে নতুন বিভাগ। এই বিভাগে থাকছে পরীক্ষায় নম্বর বাড়ানোর সুলুক সন্ধান। এবারের বিষয় বাংলা।

পরামর্শ দিচ্ছেন হিন্দু স্কুলের বাংলার শিক্ষক স্বাগত বিশ্বাস।

‘জ্ঞানচক্ষু’ গল্পে কৈশোরের আত্মগরিমা, ‘বহুরূপী’ গল্পে শিল্পের জন্য আত্মত্যাগ, ‘পথের দাবী’ উপন্যাসাংশে দেশাত্মবোধ , ‘অদল বদল’ গল্পে বন্ধুত্বের মূল্য ও ‘নদীর বিদ্রোহ’ গল্পে নদীর জন্য মমত্ববোধ কৈশোরের নীতি, আদর্শ ও দৃষ্টিভঙ্গিকে প্রভাবিত করবে। শুধুমাত্র পরীক্ষার পড়া ভেবে বাধ্য হয়ে পড়ো না, ভালোবেসে গল্প পড়ো। MCQ ও অতিসংক্ষিপ্ত উত্তরধর্মী প্রশ্নের (৩+৪ নম্বরের) জন্য সব গল্পগুলো, একমাত্র ব্যাখ্যাভিত্তিক প্রশ্নের (৩ নম্বর) জন্য বহুরূপী, অদল বদল ও পথের দাবী। রচনাধর্মী প্রশ্নের (৫ নম্বর)জন্য জ্ঞানচক্ষু, পথের দাবী ও অদল বদল থেকে তৈরি হও।
‘জ্ঞানচক্ষু’ গল্পে তপনের প্রথম বোধোদয় ঘটে, ‘লেখক মানে কোনো আকাশ থেকে পড়া জীব নয়’। তাই তপনের লেখক হতে বাধা নেই। ‘এমন সময় ঘটল সেই ঘটনা’। ‘পৃথিবীতে এমন অলৌকিক ঘটনাও ঘটে?’ ‘প্রথম দিন’ গল্পটি শ্রী তপন কুমার রায়ের নামে ছাপা হলেও নতুন মেসোর ছাপিয়ে দেওয়ার কৃতিত্ব বেশি গুরুত্ব পায়। নেহাত কাঁচা হাতের লেখাকে সম্পাদনার নামে নতুন মেসো এতটাই পরিবর্তিত করে ফেলেছেন যে ‘এর মধ্যে তপন কোথা?’, ‘মনে হয় আজ যেন তার জীবনের সবচেয়ে দুঃখের দিন’। এই আঘাত তার প্রকৃত বোধোদয় ঘটায়। কৈশোরের অনভিজ্ঞতা থেকে প্রতিষ্ঠা পায় ‘লেখক’ তপনের আত্মসম্মানবোধ। ‘শুধু এই দুঃখের মুহূর্তে গভীরভাবে সংকল্প করে তপন’, কী সংকল্প করে ও কেন? উদ্ধৃত লাইনগুলোর পাশাপাশি তপন চরিত্র ও গল্পের নামকরণ গুরুত্বপূর্ণ।
‘পথের দাবী’তে ‘পলিটিক্যাল সাসপেক্ট’ সব্যসাচী মল্লিককে থানায় জিজ্ঞাসাবাদের সময় যে পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়, তার বর্ণনা এবং তাঁর অদ্ভুত বেশভূষা ও শখ-শৌখিনতার পরিচয় জানতে চায়। দেশপ্রেমিক যুবক অপূর্বর বিনা দোষে ফিরিঙ্গি যুবকদের কাছে অপমানিত হওয়ার ঘটনা ও উপস্থিত ভারতীয়দের প্রতিবাদহীন কাপুরুষের মতো আচরণে ব্যথিত অপূর্বর উপলব্ধি —‘অবিচারের দণ্ডভোগ করার অপমান আমাকে কম বাজে না রামদাস’, ‘এমন তো নিত্য-নিয়তই ঘটচে’, ‘মনে হল দুঃখে লজ্জায় ঘৃণায় নিজেই যেন মাটির সঙ্গে মিশিয়ে যাই।’
অনূদিত ‘অদল বদল’ গল্পটি দুই কিশোরের বন্ধুত্বের মধ্য দিয়ে সমাজে জাতি, ধর্মের ঊর্ধ্বে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত তুলে ধরে। গ্রামের ছেলেরা হোলির দিন দুই বন্ধুর মধ্যে কুস্তি লড়িয়ে দেওয়ার মতলব করে, অমৃতকে জোর করে মাটিতে ফেলে দেয়,তাতে ‘ইসাবের মেজাজ চড়ে গেল’।অমৃতের বিপদে পাশে দাঁড়াতে গিয়ে ইসাবের নতুন জামা ছিঁড়ে যায় । ইসাবকে তাঁর বাবার প্রহারের হাত থেকে বাঁচাতে অমৃত বুদ্ধি করে নতুন জামা অদল-বদলের । এই ঘটনা আড়ালে থেকে ইসাবের বাবা দেখেন এবং বন্ধুত্বের জন্য আত্মত্যাগ দেখে তাঁর বুক ভরে যায় ‘.... ও আমাকে শিখিয়েছে, খাঁটি জিনিস কাকে বলে’।
‘বহুরূপী’ গল্পে হতদরিদ্র বহুরূপী হরিদার দশটা-পাঁচটার বাঁধাধরা কাজ পছন্দ নয়। ‘হরিদার জীবনে সত্যিই একটা নাটকীয় বৈচিত্র্য আছে’। বাহ্যিক সাজপোশাকে ও নিখুঁত অভিনয়ে যে কোন চরিত্রকে জীবন্ত করে তোলেন। একবার বেশি বকশিশ পাওয়ার আশায় অবস্থাপন্ন জগদীশবাবুর বাড়িতে বিরাগী সন্ন্যাসীর বেশে গেলেন ‘এবার মারি তো হাতি, লুঠি তো ভাণ্ডার’। হরিদাকে চিনতে না পেরে ‘চমকে উঠলেন জগদীশবাবু’। বিরাগী বললেন ‘আপনি কি ভগবানের চেয়েও বড়ো?’ জগদীশবাবু তীর্থ ভ্রমণের জন্য একশো এক টাকার প্রণামী দিতে চান, সব উপেক্ষা করে বিরাগী চলে গেলেন ‘আমি যেমন অনায়াসে ধুলো মাড়িয়ে চলে যেতে পারি, তেমনই অনায়াসে সোনাও মাড়িয়ে চলে যেতে পারি’। পরে বিরাগী সন্ন্যাসীরূপী হরিদার পরিচয় শুনে ‘চমকে ওঠে ভবতোষ’। আর জগদীশবাবুর দান গ্রহণ না করা প্রসঙ্গে হরিদা বলেন, ‘তাতে যে আমার ঢং নষ্ট হয়ে যায়’। ‘হরিদার একথার সঙ্গে তর্ক চলে না’।
‘নদীর বিদ্রোহ’ গল্পে ত্রিশ বছর বয়সি স্টেশন মাস্টার নদেরচাঁদের নদীর প্রতি মায়া একটু অস্বাভাবিক। শৈশব, কৈশোর ও প্রথম যৌবন কেটেছে নদীর ধারে। একবার অনাবৃষ্টির বছরে গ্রাম্য নদীটি শুকিয়ে যাওয়ার জোগাড় হলে সে কষ্টে কেঁদে ফেলেছিল। তাই অবিরাম বৃষ্টি হওয়ার জন্য পাঁচ দিন নদীকে দেখা হয়নি বলে স্টেশন থেকে এক মাইল দূরে ব্রিজের কাছে সে চলে আসে। ‘নদেরচাঁদের ভারী আমোদ বোধ হতে লাগল’। ধীরে ধীরে অন্ধকার নেমে এল,‘বড়ো ভয় করিতে লাগিল নদেরচাঁদের’। নদীর এই উন্মত্ততাকে নদেরচাঁদ নদীর বিদ্রোহ বলে মনে করে। যান্ত্রিক সভ্যতায় নিজেদের শৌখিন সুখ স্বাচ্ছন্দ্যের কারণে মানুষ নদীর স্বাভাবিক গতিপথকে রুদ্ধ করেছে। বাঁধ, ব্রিজ, জলাধার যেন নদীর শৃঙ্খল। নদী সেই শৃঙ্খলমোচন করে আপন ছন্দে বয়ে যেতে চায়। কিন্তু মানুষ আবার তাকে বেড়ি পরায়। অন্যমনস্ক নদেরচাঁদের ট্রেন দুর্ঘটনায় মৃত্যু, একটু অস্বাভাবিক মনে হলেও, এ যেন যন্ত্র সভ্যতার প্রতি এক নীরব প্রতিবাদ। 
03rd  November, 2019
গোলাপি বিপ্লবের সন্ধিক্ষণে ইডেন

ছোট্টবন্ধুরা! তোমরা যারা ক্রিকেট খেলা দেখতে ভালোবাসো, বা যারা ক্রিকেটের খোঁজখবর একটু আধটু রাখো, তারা নিশ্চয়ই ইডেনে দিন-রাতের টেস্ট ম্যাচ হওয়ার খবর জানো। ভারত তাদের প্রথম দিন-রাতের টেস্ট ম্যাচটি খেলতে নামছে ২২ নভেম্বর, বাংলাদেশের বিরুদ্ধে। 
বিশদ

17th  November, 2019
অরণ্যে অ্যাডভেঞ্চার

গা ছমছমে গহিন অরণ্য। দূর থেকে শোনা যাচ্ছে জলপ্রপাতের গর্জন। পথে বন্য পশুর ভয়। কোথাও ভয়ঙ্কর নদী পেরতে হবে। এমনই কয়েকটি অরণ্যের কথা তোমাদের শুনিয়েছেন সায়ন নস্কর। 
বিশদ

17th  November, 2019
ছোটদের রান্নাঘর 

তোমাদের জন্য চলছে একটি আকর্ষণীয় বিভাগ ছোটদের রান্নাঘর। এই বিভাগ পড়ে তোমরা নিজেরাই তৈরি করে ফেলতে পারবে লোভনীয় খাবারদাবার। বাবা-মাকেও চিন্তায় পড়তে হবে না। কারণ আগুনের সাহায্য ছাড়া তৈরি করা যায় এমন রেসিপিই থাকবে তোমাদের জন্য। এবার সেরকমই দুটি জিভে জল আনা রেসিপি দিয়েছেন দ্য পার্কিং লট রেস্তোরাঁর এক্সিকিউটিভ শেফ সুমিত রঘুবংশী। 
বিশদ

10th  November, 2019
জওহরলাল নেহরুর ছেলেবেলা 

আমাদের এই দেশকে গড়ে তোলার জন্য অনেকে অনেকভাবে স্বার্থত্যাগ করে এগিয়ে এসেছিলেন। এই কলমে জানতে পারবে সেরকমই মহান মানুষদের ছেলেবেলার কথা। এবার পণ্ডিত জওহরলাল নেহরু। লিখেছেন চকিতা চট্টোপাধ্যায়। 
বিশদ

10th  November, 2019
ছোটদের ভালোবাসতেন চাচা নেহেরু 

স্বাধীন ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরু। শিশুদের কাছে তিনি চাচা নেহরু হিসেবে বেশি জনপ্রিয়। নেহরু ছোটদের খুব ভালোবাসতেন বলে তাঁর জন্মদিনটি অর্থাৎ ১৪ নভেম্বর দেশজুড়ে শিশুদিবস পালিত হয়। প্রিয় চাচা নেহরুকে নিয়ে লিখেছে বিভিন্ন স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা।  
বিশদ

10th  November, 2019
সে কি সত্যি হবে! 
আয়ূষী বন্দ্যোপাধ্যায়

পাইন আর দেওদার গাছের মধ্যে পাখির বাসা থাকে কি না তা ঠিক জানা নেই, তবে এক মিষ্টি পাখির কূজন কানে ভেসে আসে রোজই। গতকাল রাতে অমন ঝড়, বৃষ্টি, দম্ভোলি হয়েছে কে বলবে? ভোরের প্রভাকরের প্রকীর্ণ আভা যেন দুর্যোগকে নিশ্চিহ্ন করেছে। ঈশ্বরের দেশে সবই তো তাঁর লীলাখেলা, সেখানে যে নেই কোনও মোহ, মায়া, মাৎসর্য। শুধুই আছে মনকে দয়ার্দ্র করে তোলার পরিপূর্ণ রসদ। 
বিশদ

03rd  November, 2019
পুজোর ছুটি 

পুজোর ছুটিতে কে কী করবে তার পরিকল্পনা অনেক আগেই সেরে ফেলে ছোটরা। সেই তালিকায় ঠাকুর দেখা, খাওয়া-দাওয়া, বন্ধুদের সঙ্গে গল্পগুজব, মামার বাড়ি যাওয়া, বেড়ানো, গল্পের বই পড়া, খেলাধুলো সবই থাকে। এবারের পুজোর ছুটি কার কেমন কাটাল তোমাদের শোনাচ্ছে বৈঁচি বিহারীলাল মুখার্জি’স ফ্রি ইনস্টিটিউশনের ছাত্র-ছাত্রীরা। 
বিশদ

03rd  November, 2019
 আলোর উৎসব
কা লী পু জো

 রং-বেরঙের আলো দিয়ে বাড়ি সাজানো, তুবড়ি, হাউই আর রংমশালের আলোর ছটা, মিষ্টিমুখ, রাত জেগে পুজো দেখা... এমনভাবেই কেটে যায় কালীপুজোর দিনটা। জানাল বিভিন্ন স্কুলের ছেলেমেয়েরা। বিশদ

27th  October, 2019
 ভগিনী নিবেদিতা

 আমাদের এই দেশকে গড়ে তোলার জন্য অনেকে অনেকভাবে স্বার্থত্যাগ করে এগিয়ে এসেছিলেন। এই কলমে জানতে পারবে সেরকমই মহান মানুষদের ছেলেবেলার কথা। এবার ভগিনী নিবেদিতা। লিখেছেন চকিতা চট্টোপাধ্যায়। বিশদ

27th  October, 2019
হ্যালোইন নাকি ভূত উৎসব

কার কতটা ভূতের ভয় তা আমার জানা নেই, আমার কিন্তু খুবই ভূতের ভয়, তাই রাতে আমি একা একা ঘরে শুতে পারি না, চোখ বুঝলেই ভূশুণ্ডির মাঠ থেকে হাজার হাজার ভূত উড়ে এসে আমাকে ঘিরে ধরে, কেউ আমার পা ধরে টানে কেউ বা আবার কাতুকুতু দিয়ে আমাকে নাজেহাল করে ছাড়ে, সে সব দুঃখের কথা আজ নয় ছেড়েই দিলাম। তাই ভূত নিয়ে কিছু লিখতে গেলে আমার হাত-পা ঠান্ডা হয়ে আসে, গায়ের লোম খাড়া হয়ে যায়। বিশদ

27th  October, 2019
হিলি গিলি হোকাস ফোকাস 

চলছে নতুন বিভাগ হিলি গিলি হোকাস ফোকাস। এই বিভাগে জনপ্রিয় জাদুকর শ্যামল কুমার তোমাদের কিছু চোখ ধাঁধানো আকর্ষণীয় ম্যাজিক সহজ সরলভাবে শেখাবেন। আজকের বিষয় থট-রিডিং।   বিশদ

20th  October, 2019
মামরাজ আগরওয়াল রাষ্ট্রীয় পুরস্কার 

প্রতিবারের মতো এবারও ‘মামরাজ আগরওয়াল রাষ্ট্রীয় পুরস্কার’ প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল মামরাজ আগরওয়াল ফাউন্ডেশন। গত ২১ সেপ্টেম্বর রাজভবনে অনুষ্ঠানটি হয়েছিল। এবার মোট ৯৯ জন ছাত্রছাত্রীকে পুরস্কৃত করা হয়।   বিশদ

20th  October, 2019
মহাপ্রলয় আসছে 

পরিবেশ বিজ্ঞানীরা বলছেন, ষষ্ঠ মহাপ্রলয় ঘটতে আর দেরি নেই। জঙ্গল কেটে সাফ হয়ে যাচ্ছে। বাড়ছে গাড়ি, কলকারখানার সংখ্যা। দূষিত হয়ে উঠছে পরিবেশ। গলতে শুরু করেছে কুমেরু ও সুমেরুর বরফ। মহাপ্রলয় আটকাতে এখনই ব্যবস্থা নেওয়া দরকার। পৃথিবীর ধ্বংস আটকানোর উপায় কী? লিখেছেন সুপ্রিয় নায়েক। 
বিশদ

20th  October, 2019
একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পরিকাঠামোয় নজর দেওয়ার পরেও অতীতের তুলনায় পরিস্থিতির কোনও বদল হয়নি। রাজস্ব আদায়ও তলানিতে। সম্প্রতি সিএজি’র রিপোর্টেও একথা উল্লেখ করা হয়েছে। যা নিয়ে অস্বস্তিতে বিনোদন কর বিভাগ। কলকাতা পুরসভার রাজস্বের অন্যতম স্তম্ভ হিসেবে বিবেচিত হলেও বর্তমানে বিভাগটি গুরুত্ব ...

ঢাকা, ১৭ নভেম্বর (পিটিআই): গ্যাস পাইপে বিস্ফোরণের জেরে মৃত্যু হল সাতজনের। জখম হয়েছেন আরও আটজন। রবিবার বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের একটি বাড়িতে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিরাট কোহলিরা কলকাতায় আসার আগে দিন-রাতের টেস্টটিকে অন্য মাত্রায় নিয়ে যাওয়ার জন্য তৎপর সিএবি। প্রতিদিন বিকেলে সংস্থার পক্ষ থেকে নতুন কিছু আয়োজনের ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: হবু শিক্ষকদের নিয়োগ করার আগে বহু চাকরিদাতা সংস্থাই তাঁদের ডিগ্রি যাচাই করে নেয়। এনসিটিই বা ন্যাশনাল কাউন্সিল ফর টিচার এডুকেশনের মাধ্যমেই তা করা হয়। এতদিন এর জন্য একটি পোর্টাল চালু করেছিল এনসিটিই।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীদের নতুন কর্ম সংস্থানের সুযোগ আছে। সরকারি বা আধাসরকারি ক্ষেত্রে কর্ম পাওয়ার সুযোগ আছে। ব্যর্থ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭২৭: অম্বরের মহারাজা দ্বিতীয় জয়সিং জয়পুর শহর প্রতিষ্ঠা করলেন
১৯০১: পরিচালক ও অভিনেতা ভি শান্তারামের জন্ম
১৯৭৩: ভারতের জাতীয় পশু হল বাঘ
১৯৭৮: পরিচালক ও অভিনেতা ধীরেন্দ্র গঙ্গোপাধ্যায়ের মৃত্যু
 





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.০২ টাকা ৭৩.৫৬ টাকা
পাউন্ড ৯০.০৫ টাকা ৯৪.৯০ টাকা
ইউরো ৭৭.১৩ টাকা ৮১.২৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
16th  November, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,৭৪০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,৭৫৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭,৩০৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৪,৭০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৪,৮০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
17th  November, 2019

দিন পঞ্জিকা

১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার, ষষ্ঠী ২৮/৮ রাত্রি ৫/১০। পুষ্যা ৪১/৫ রাত্রি ১০/২১। সূ উ ৫/৫৪/৪৩, অ ৪/৪৮/৩৯, অমৃতযোগ দিবা ৭/২১ মধ্যে পুনঃ ৮/৪৮ গতে ১১/০ মধ্যে। রাত্রি ৭/২৬ গতে ১০/৫৬ মধ্যে পুনঃ ২/২৪ গতে ৩/১৭ মধ্যে, বারবেলা ৭/১৬ গতে ৮/৩৮ মধ্যে পুনঃ ৩/৫ গতে ৩/২৭ মধ্যে, কালরাত্রি ৯/৪৩ গতে ১১/২১ মধ্যে। 
১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার, ষষ্ঠী ২৪/১৭/৩৬ দিবা ৩/৩৯/২৭। পুষ্যা ৩৯/১৯/৩৪ রাত্রি ৯/৪০/১৫, সূ উ ৫/৫৬/২৫, অ ৪/৪৮/৫১, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩২ মধ্যে ও ৮/৫৮ গতে ১১/৬ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/২৭ গতে ১১/১ মধ্যে ও ২/৩৪ গতে ৩/২৭ মধ্যে, বারবেলা ২/৫/৪৫ গতে ৩/২৭/১৮ মধ্যে, কালবেলা ৭/১৭/৫৮ গতে ৮/৩৯/৩২ মধ্যে, কালরাত্রি ৯/৪৪/১১ গতে ১১/২২/৩৮ মধ্যে।
২০ রবিয়ল আউয়ল 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
হাসপাতালে ভর্তি নুসরত জাহান
অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী তথা সংসদ সদস্য ...বিশদ

04:58:35 PM

কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে অপারেশন করা হয়েছে: মমতা 

04:46:00 PM

মিথ্যে কথা বলা ছাড়া কোনও কাজ করছে না বিজেপি: মমতা 

04:43:00 PM

৩ দলকেই বাংলা থেকে বিদায় নিতে হবে: মমতা 

04:41:00 PM

সিপিএম-কংগ্রেস-বিজেপিকে তোপ মমতার 

04:41:00 PM

কথা বলার অধিকার কেড়ে নেওয়া হচ্ছে: মমতা 

04:40:00 PM