Bartaman Patrika
হ য ব র ল
 

 আলোর উৎসব
কা লী পু জো

 রং-বেরঙের আলো দিয়ে বাড়ি সাজানো, তুবড়ি, হাউই আর রংমশালের আলোর ছটা, মিষ্টিমুখ, রাত জেগে পুজো দেখা... এমনভাবেই কেটে যায় কালীপুজোর দিনটা। জানাল বিভিন্ন স্কুলের ছেলেমেয়েরা।

আমার দেওয়ালি
মাটির প্রদীপ জ্বালিয়ে এবং নানান রঙের টুনি, মোমবাতি দিয়ে সাজাব বাড়ির অঙ্গন। বন্ধুদের আসতে বলব। সবাই মিলে আনন্দে মাতব। জানি, দেওয়ালির অর্থ শুধুমাত্র আলোর রোশনাই নয়। আসল কথাই হল মনের অন্ধকার দূর করে আলোয় ভরে তোলা। যত অজ্ঞানতা কুসংস্কার আছে তা দূর করে জ্ঞানের বাতি জ্বালানোই তো একমাত্র উদ্দেশ্য। উপনিষদে পড়েছি—
‘...তমসো মা জ্যোতির্গময়...’
আর এই সার্থকতাই পূর্ণতা আনে উৎসব পালনে। এও জানি দেওয়ালি মানেই আলোর উৎসব। পাড়ার পূজামণ্ডপে সারারাত জেগে মায়ের পূজা দেখব। মনের আনন্দে ঢাক বাজাব। সন্ধ্যায় বাড়িতে মা-বাবা-ভাইবোনদের— বন্ধুদের নিয়ে সবাই মিলে প্রাণখুলে আনন্দ করব।
প্রার্থনা করব মাগো, অজ্ঞানতা দূর করে জ্ঞানের আলোকে উদ্ভাষিত করো!
কিঞ্জল চক্রবর্তী, দ্বাদশ শ্রেণী
কল্যাণী শিক্ষায়তন, কল্যাণী
শুভ শক্তির আরাধনা
বাঙালির উৎসবের মধ্যে সামাজিক উৎসবই সব থেকে বেশি। এই শ্রেণীর উৎসবে সমাজের মানুষ বেশি করে পরস্পর পরস্পরের সঙ্গে মিলিত হয়। বাঙালির ধর্মীয় চেতনা মজ্জাগত, যে কোনও ধর্মীয় অনুষ্ঠানকে ঘিরে তাদের মধ্যে থাকে উৎসবের মেজাজ। দেওয়ালি ও কালীপূজা অনুষ্ঠিত হয় কার্তিক মাসের অমাবস্যা তিথিতে। সব ধর্মের লোকেরাই এই অনুষ্ঠানে নিজেদেরকে আনন্দে মাতিয়ে রাখে। এই উৎসবে অশুভ শক্তিকে বিদায় জানিয়ে শুভ শক্তির আরাধনা করা হয়। উৎসবমুখর বাঙালিরা মেতে ওঠে শক্তির পূজায়। পুরাণে উল্লেখ আছে মাতৃশক্তির আরাধনায় মানবজাতির শক্তি ও জ্ঞানের উন্মেষ ঘটে। আলোক উজ্জ্বলের মধ্যে দিয়ে ও শব্দহীন বাজি ফাটিয়ে আমরা এই উৎসবে আনন্দে মুখরিত হই।
সৌপর্ণ চক্রবর্তী, ষষ্ঠ শ্রেণী, হিন্দু স্কুল
ফানুসগুলো যে কোথায় চলে যায়...
আমার ভাই নীলাব্জকে তোমাদের চেনার কথা নয়। সে সবে কেজি টু হলে হবে কী, কথায় বেশ পাকা। সারাক্ষণ শব্দের খই ফোটে তার মুখে। এই তো সেদিন, আমাদের স্কুলের কাছে যে কুমোর ঠাকুর বানায় সেখানে দাঁড়িয়ে কোমরে হাত দিয়ে ভাই জিজ্ঞেস করল, ‘বাবা, এগুলি কী ঠাকুর?’ বাবা বলল, ‘কালীঠাকুর’। ভাই জিজ্ঞেস করল, ‘এই ঠাকুরের গলায় ওগুলি কী?’ বাবা বললেন, ‘ওটা তো মুণ্ডমালা’। ভাই সঙ্গে সঙ্গে বলল, ‘ধুস, কোনও মাথামুণ্ডুই বুঝতে পারলাম না’।
আমি অবশ্য জানি, ওই মুণ্ডমালা আসলে সংস্কৃতের পঞ্চাশটি অক্ষরের প্রতীক। বাবা আমাকে গল্প বলেছে কালী ঠাকুরের। কীভাবে শিব মা কালীর পায়ের নীচে এল, কেন মা কালী জিভ কেটে থাকেন, কেন কালীর কোমরে কাটা হাতের মালা— আরও কত কী! সত্যি বলতে, কুমোরের কালীঠাকুর গড়া দেখতে দেখতে আমার সেই গল্পগুলিই বেশি করে মাথায় আসে। তাছাড়া, কালীপুজো এলে আমাদের বাড়ির কাছে আগুয়ান সংঘের মাঠে যে বাজির মেলা বসে, সেখান থেকে নানাধরনের বাজি কিনি। সবচেয়ে ভালো লাগে ফানুস ওড়াতে। উড়তে উড়তে ফানুসগুলি যে কোথায় চলে যায়, কে জানে!
নীলার্ক পাহাড়ি, ষষ্ঠ শ্রেণী, ইয়ং হরাইজন স্কুল
রং-বেরঙের আলো
কালীপুজো ও দেওয়ালি এই উৎসবের প্রস্তুতি শুরু হয় অনেক আগে থেকে। আলোর এই উৎসবে আমাদের বাড়ি ভরে ওঠে রং-বেরঙের আলোতে। দুই বোন মিলে আলপনা দিয়ে বিভিন্ন রঙের
আবির দিয়ে তৈরি করি রঙ্গোলি। সন্ধ্যবেলা ১৪ প্রদীপে সেজে ওঠে বাড়ির উঠোন। বাবার সঙ্গে
হাতে হাত মিলিয়ে লাইট লাগাই। সন্ধে নামতেই
বাড়ি ঝলমল করে আলোতে। মা প্রদীপ জ্বালায় উঠোনে। বাড়িতে অনেক আপনজন আসে মিষ্টি খাওয়া চলে। তারপর বাড়ির ছাদে শুরু হয় বাজি ফাটানো। সবাই মিলে আলুবোম, রকেট, সেল, ফুলঝুরি, মশাল, সাপবাজি, চরকা, তারাবাতি, ছুঁচোবাজি, লঙ্কাপটকা, চটপটি ইত্যাদি কতরকম বাজি ফাটানো হয়। আনন্দে মেতে ওঠে সবাই।
জয়শ্রী পাল, ষষ্ঠ শ্রেণী, দেবীশ্বরী বিদ্যায়তন
বাড়িগুলো ঝলমল করে
ছোট থেকেই শব্দবাজি ও আলোবাজিতে আমার বড্ড ভয়। আজও মনে পড়ে দিদি আমাকে
তারাবাতি দিয়ে ভয় দেখাত। আর আমি ভয়
পেয়ে লুকিয়ে পড়তাম মায়ের কোলে। বড় হবার সঙ্গে সঙ্গে দেওয়ালিতে আমি অন্যভাবে কাটাই। অনেকদিন আগে থেকে প্ল্যান করি বাড়িটা কীভাবে সাজাব। আমি নানান ধরনের লাইট তৈরি করি।
সেই লাইটগুলি দু’দিন ধরে লাগাই। দেওয়ালিতে যখন বাড়িগুলি ঝলমল করে খুব আনন্দ হয়।
তবে সবার থেকে আমার আলোগুলি একটু অন্যরকম লাগে। অমাবস্যার রাত যত বাড়ে
আলোর খেলা আরও সুন্দর হয়। বাবা, মা,
দিদি সবাই মিলে সেই আনন্দ উপভোগ করি।
আর মায়ের কাছে প্রার্থনা করি মাগো, তুমি
সমস্ত পৃথিবীকে অন্ধকার থেকে আলোর দিকে
নিয়ে চলো।
আকাশ সামন্ত, নবম শ্রেণী,
উত্তরপাড়া অমরেন্দ্র বিদ্যাপীঠ
সবার মঙ্গল কামনায় প্রদীপ জ্বালাই
এত ভঙ্গ বঙ্গদেশ তবু রঙ্গে ভরা। কবির এই বাণী আজও সমানভাবে প্রযোজ্য বাঙালি জীবন সম্পর্কে, বাঙালি জীবনে আরও একটি বড় উৎসব কালীপুজা ও দেওয়ালি উৎসব। সারা দেশ জুড়ে অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে পালিত হয় এই দেওয়ালি। চারদিকে আলোর রোশনাই ও রকমারী বাজির পশরা দেখা যায়। শক্তিদায়িনী মা কালী অশুভ শক্তিকে বিদায় জানিয়ে শুভশক্তির আগমন ঘটায়। আর উৎসবটি আমি বাজি ফাটিয়ে খুব সুন্দরভাবে উপভোগ করি। ওই দিনটা মা ও বাবার সঙ্গে সকলের মঙ্গল কামনায় প্রদীপ জ্বালাই।
শুভম রায়, সপ্তম শ্রেণী
ড. শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি ইনস্টিটিউশন
মোমবাতির আলোয় সেজে ওঠে
দেওয়ালি। এই শব্দটার মধ্যে লুকিয়ে আছে আনন্দের উৎস। এই উৎসবে আমার মামাবাড়ি যাওয়া হয়। ওখানে দারুণ আনন্দ হয়। সব ভাইবোনরা মিলে খাওয়া-দাওয়া করে বিভিন্ন প্যান্ডেলে ঠাকুর দেখতে যাই। মা-মামিরা কালীপুজোর উপোস করে। বাড়িতে সবাই মিলে নাড়ু, মোয়া, লুচি, পায়েস, তরকারি ইত্যাদি কতকিছু তৈরি করে। সবাই নতুন জামাকাপড় পরে খুব সুন্দর করে সাজে। বাড়িটাও মোমবাতির আলো, ফুল মালায় সেজে ওঠে। সন্ধে থেকে বাড়িতে কত লোক আসে। তারা জলযোগ সারে। আর তারা আশীর্বাদ করতে করতে বাড়ি যায়। আমাদের হাতে দিয়ে যায় নানা রং-বেরঙের বাজি।
নন্দিনী কর, ষষ্ঠ শ্রেণী, বেথুন কলেজিয়েট স্কুল
ঘুম ভাঙে ঢাকের তালে
সময় চলে যায়। কিন্তু থেকে যায় আনন্দের রেশ। ছোটবেলার ফেলে আসা স্মৃতি। আমার মামা-দাদুর বাড়িতে কালীপুজো হয়। দূরদূরান্ত থেকে আত্মীয়রা আসে। পুজোর আগের দিন সেই বাড়িটা ঝলমল করে ওঠে মানুষের কলতানে। দ্বীপান্বিতা অমাবস্যার আগের রাতে সবাই ঢাক বাজিয়ে ঠাকুর আনতে
যায়। পুজোর দিন পুরানো ঠাকুর মাথায় করে
বিসর্জন দিয়ে নতুন ঠাকুর তোলা হয় বেদিতে। অনেকেই উপবাস করে আর তারাই পুজোর
কাজকর্ম করে আর আমরা নানাপদের রান্না
খেয়ে চুটিয়ে আনন্দ করি। ঢাকের তালে নাচ,
গান, চুরি করে পিকনিক ইত্যাদি করে সারারাত জেগে কাটাই। ভোরবেলা পুজো শেষ হয়। তখন আমরা ঢাকিকে নিয়ে সারা পাড়া পরিক্রমা করি। চেনা লোকের ঘুম ভাঙে ঢাকের তালে। পরদিন
থাকে আনন্দ ভ্রমণ। সবাই একসঙ্গে দল বেঁধে
ঘুরতে যায়। তবে আজ তাদের মধ্যে অনেকেই পৃথিবী থেকে চিরবিদায় নিয়েছে। রয়ে গিয়েছে
স্মৃতি। প্রতিবছর এভাবেই কাটে দেওয়ালি।
মালবিকা সরকার, নবম শ্রেণী
উত্তরপাড়া চিলড্রেন্স ওন হোম
27th  October, 2019
নতুন পৃথিবী গড়বো আমরা 

ছোট্ট বন্ধুরা কেমন আছো? দীর্ঘ লকডাউনে বাড়িতে স্কুলের অনলাইন ক্লাসের চাপে ক্লান্ত হয়ে পড়ছো? অবসর সময় ভালো মতো কাটছে না? তবে শোনো, আজ তোমাদের একটা ভালো খবর দিই।   বিশদ

31st  May, 2020
ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ জয় 

লাতিন শব্দ ‘ভাইরাস’-এর অর্থ হল ‘বিষ’। এই বিষ যুগে যুগে মানুষের জীবনকে বিষিয়ে তুলেছে। তেমনই যুগে যুগে মানুষ পরাস্ত করেছে এমন ভয়াবহ শত্রুকেও। আজ গোটা দুনিয়া অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে, কবে নভেল করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক টিকা হাতের মুঠোয় আসবে। বিজ্ঞানীরা বসে নেই, দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন এই মহা মূল্যবান ধন্বন্তরি হাতের মুঠোয় আনার জন্য। সেইরকম ভয়ঙ্কর সব ভাইরাসের বিরুদ্ধে মানুষের যুদ্ধের বহু ইতিহাস রয়েছে বিশ্বজুড়ে। 
বিশদ

31st  May, 2020
মার্কশিট
এই সময়টাকে কাজে লাগিয়ে
খুঁটিয়ে পড়ো প্রতিটি অধ্যায়

আজ আমরা সৈয়দ মুজতবা আলী রচিত 'চতুরঙ্গ' প্রবন্ধসংগ্রহের অন্তর্গত 'মামদোর পুনর্জন্ম' প্রবন্ধের অংশবিশেষ 'নব নব সৃষ্টি' পাঠ্যাংশটি থেকে প্রাবন্ধিকের কয়েকটি বিশেষ মত সম্পর্কে জানব এবং সে বিষয়টি নবমশ্রেণীরই অন্যান্য পাঠের সঙ্গে মিলিয়ে দেখব।
বিশদ

31st  May, 2020
বাঘ পড়েছিল শান্তিনিকেতনে 

পার্থজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়: রবীন্দ্রনাথ গান বেঁধেছিলেন, ‘আমাদের শান্তিনিকেতন/ সে যে সব হতে আপন/ তার আকাশ ভরা কোলে / মোদের দোলে হৃদয় দোলে, / মোরা বারে বারে দেখি তারে নিত্যই নূতন।’ সত্যিই ছিল সার্থকনামা, যথার্থ অর্থেই ‘শান্তিনিকেতন’।  বিশদ

31st  May, 2020
চিরবিদ্রোহী রণক্লান্ত 

আমাদের এই দেশকে গড়ে তুলতে অনেকে অনেক স্বার্থত্যাগ করে এগিয়ে এসেছিলেন। এই কলমে জানতে পারবে সেরকমই মহান মানুষদের ছেলেবেলার কথা। এবার বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম। আগামী ২৫ মে তাঁর জন্মদিন। লিখেছেন চকিতা চট্টোপাধ্যায়।
বিশদ

24th  May, 2020
চোখের যত্ন নাও 

রোজ অনলাইন ক্লাসের জেরে তোমাদের চোখে নানান সমস্যা দেখা দিতে পারে। একটু সতর্ক হলেই কিন্তু এসব সমস্যা এড়ানো যায়। সেরকম ১০টি জরুরি পরামর্শ দিয়েছেন দিশা আই হাসপাতালের সিনিয়র কনসালট্যান্ট চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাঃ ভাস্কর ভট্টাচার্য। লিখেছেন স্নেহাশিস সাউ।
বিশদ

24th  May, 2020
স্কুলে অনলাইন পড়াশোনাই
এখন একমাত্র উপায় 

লকডাউনের মধ্যেও পড়াশোনা এগিয়ে নিয়ে যেতে স্কুলে চলছে অনলাইন ক্লাস। এর ভালো মন্দ নিয়ে আলোচনা করলেন বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্রছাত্রীরা। তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন কমলিনী চক্রবর্তী। 
বিশদ

24th  May, 2020
ছোটদের রান্নাঘর 

করোনার দাপটে স্কুল বন্ধ। সুতরাং বাড়ি থেকে বেরিয়ে এটা ওটা খাওয়ারও জো নেই। তাই বলে কি লকডাউনে কোনও ভালো খাবারই চেখে দেখার সুযোগ হবে না? চিন্তা নেই, ছোটদের রান্নাঘর - এ শুধু তোমাদের জন্যই চারটি লোভনীয় রেসিপি দিয়েছেন ৬ বালিগঞ্জ প্লেসের কর্ণধার ও শেফ সুশান্ত সেনগুপ্ত এবং হলিডে ইন হোটেলের কর্পোরেট শেফ জয়ন্ত বন্দ্যোপাধ্যায়। 
বিশদ

17th  May, 2020
খেলাচ্ছলে যোগাভ্যাস 

বাইরে বেরনো বন্ধ! তাতে কী, এই সুযোগে বাড়িতে বড়দের সঙ্গী হয়ে খেলতে খেলতে কয়েকটি যোগাসন ও প্রাণায়াম শিখে নিতে পারো। এতে শরীর ও মন থাকবে চনমনে, বাড়বে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা। পরামর্শ দিয়েছেন যোগাচার্য প্রেমসুন্দর দাস। লিখেছেন স্নেহাশিস সাউ। 
বিশদ

17th  May, 2020
পুনুর বন্ধু ডাকু 

কার্তিক ঘোষ: পুনু তখন সবে একটু মুখধরা হয়ে উঠেছে বাবা-মা’র।
বাবা তখন বাড়ি ফিরে এসেছেন কলকাতা থেকে।
দোকানের চাকরিটা গেছে!
বিশদ

17th  May, 2020
বইয়ের নেশায় বুঁদ 

লক ডাউনের সুযোগে ভালো বই পড়ার নেশায় মেতে ওঠো তোমরা। কোন বয়সে কেমন বই পড়বে তার একটা ধারণা দিলেন কমলিনী চক্রবর্তী।  
বিশদ

10th  May, 2020
ইন্দ্রজা, ফুড হ্যাবিটটা
এবার পালটে ফেলো 

ডাঃ অমিতাভ ভট্টাচার্য: ইন্দ্রজার কথা দিয়েই শুরু করি। এই এক মাসে কেমন যেন পাল্টে গিয়েছে মেয়েটা। ভাবসাব দেখে তো রমা আর ইন্দ্রজিতের চোখ কপালে ওঠার জোগাড়। তাদের একমাত্র মেয়ে যে এমন লক্ষ্মীমন্ত হয়ে উঠবে, এ যে তারা স্বপ্নেও ভাবেনি।  
বিশদ

10th  May, 2020
সত্যজিতের ছেলেবেলা, ছেলেবেলার

সত্যজিৎ রায়ের শততম জন্মবর্ষে ছোট্ট সত্যজিতের মধ্য দিয়ে ভবিষ্যতের সত্যজিৎকে দেখার চেষ্টা করলেন অতনু বিশ্বাস। 
বিশদ

10th  May, 2020
বন্দি জীবনে সঙ্গী সিনেমা

 লকডাউনে বাড়িতে বসে পড়াশুনো আর গল্পের বই পড়ার পাশাপাশি দেখে নাও দশটি দুর্দান্ত সিনেমা। তোমাদের জন্য বেছে দিলেন স্বস্তিনাথ শাস্ত্রী। বিশদ

03rd  May, 2020
একনজরে
  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনার দাপটে বিভিন্ন দেশ থেকে ফেরা পেশাদার ব্যক্তিদের জীবিকার সংস্থান করে দিতে উদ্যোগ নিল কেন্দ্রীয় সরকার। এঁদের জন্য তথ্যভাণ্ডার তৈরি করে নিয়োগকারী সংস্থা, রাজ্য সরকার এবং বণিকসভাগুলিকে পাঠানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে। ...

সংবাদদাতা, হরিশ্চন্দ্রপুর: বৃহস্পতিবার মালদহে তিনজনের মৃত্যু হল বজ্রপাতে। তাঁরা হরিশ্চন্দ্রপুর-১ ব্লকের বাসিন্দা। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতরা হলেন বিনু ওঁরাও (৫৫), সুলতান আহমেদ (২৩) ও মিঠু কর্মকার (৩৩)। বিনুর বাড়ি বাইশা গ্রামে। সুলতানের বাড়ি নারায়ণপুর গ্রামে ও মিঠুর বাড়ি দক্ষিণ ...

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মাসখানেক হল চালু হয়েছে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ কোভিড হাসপাতাল। চালু হয়েছে করোনা রোগীদের সুপার স্পেশালিটি ব্লক বা এসএসবি বাড়ি। কিন্তু, এরই মধ্যে কোভিডে মৃত ব্যক্তির মোবাইল উধাও হয়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ জমা পড়েছে মেডিক্যালের সিকিউরিটি অফিসারের ...

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী ১ আগস্ট ভারতে খুলছে ফিফার ট্রান্সফার উইন্ডো। আন্তঃরাজ্য ছাড়পত্রও শুরু হবে একই দিনে। বৃহস্পতিবার অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনের সচিব কুশল দাস এই কথা জানিয়ে বলেছেন, ‘৯ জুন ভারতে ফিফার আন্তর্জাতিক উইন্ডো খোলার কথা ছিল। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

সঠিক বন্ধু নির্বাচন আবশ্যক, কর্মরতদের ক্ষেত্রে শুভ। বদলির কোনও সম্ভাবনা এই মুহূর্তে নেই। শেয়ার বা ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৩২: শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃতের রচনাকার মহেন্দ্রনাথ গুপ্তের (শ্রীম) মৃত্যু
১৯৩৬: অভিনেত্রী নূতনের জন্ম
১৯৫৯: শিল্পপতি অনিল আম্বানির জন্ম
১৯৭৪: অভিনেতা অহীন্দ্র চৌধুরির মৃত্যু
১৯৭৫ - মার্কিন অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলির জন্ম
১৯৮৫: জার্মান ফুটবলার লুকাস পোডোলোস্কির জন্ম

04th  June, 2020


ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৭৪ টাকা ৭৬.৪৫ টাকা
পাউন্ড ৯৩.১৩ টাকা ৯৬.৪৪ টাকা
ইউরো ৮৩.২২ টাকা ৮৬.৩১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

দৃকসিদ্ধ: ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৫ জুন ২০২০, শুক্রবার, পূর্ণিমা ৪৯/২৮ রাত্রি ১২/৪২। অনুরাধা নক্ষত্র ২৯/৩১ অপঃ ৪/৪৪। সূর্যোদয় ৪/৫৫/১২, সূর্যাস্ত ৬/১৪/৩২। অমৃতযোগ দিবা ১২/১ গতে ২/১৪ মধ্যে। রাত্রি ৮/২২ মধ্যে পুনক্ষ ১২/৩৮ গতে ২/৪৭ মধ্যে পুনঃ ৩/২৯ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৮/১৫ গতে ১১/৩৫ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৫৫ গতে ১০/১৫ মধ্যে।
২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৫ জুন ২০২০, শুক্রবার, পূর্ণিমা ১/১। অনুরাধা নক্ষত্র অপরাহ্ন ৫/১২। সূর্যোদয় ৪/৫৬, সূর্যাস্ত ৬/১৬। অমৃতযোগ দিবা ১২/৬ গতে ২/৪৭ মধ্যে এবং রাত্রি ৮/২৯ মধ্যে ও ১২/৪২ গতে ২/৪৮ মধ্যে ও ৩/৩০ গতে ৪/৫৬ মধ্যে। বারবেলা ৮/১৬ গতে ১১/৩৬ মধ্যে কালরাত্রি ৮/৫৬ গতে ১০/১৬ মধ্যে।
১২ শওয়াল

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
মহরাষ্ট্রে ফের ৪ জন পুলিস করোনা আক্রান্ত, মৃত ১ 
মহারাষ্ট্র ফের ৪ জন পুলিস কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যু ...বিশদ

11:54:04 AM

মালদহে শাশুড়িকে কুমন্তব্য করায় ভাড়াটিয়া ও জামাইয়ের সংঘর্ষ 
শাশুড়ির বিরুদ্ধে কু মন্তব্য করায় ভাড়াটিয়া ও মালিকের জামাইয়ের মধ্যে ...বিশদ

11:45:10 AM

দিল্লি মেট্রো রেলের ২০ জন কর্মী করোনা আক্রান্ত 
দিল্লি মেট্রোর ২০ জন কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। সেখানকার মেট্রো ...বিশদ

11:27:17 AM

করোনা: কোন কোন দেশ বেশি আক্রান্ত? 
করোনায় আক্রান্তের বিচারে তালিকায় শীর্ষে রয়েছে আমেরিকা। এদেশে করোনায় আক্রান্ত ...বিশদ

11:13:14 AM

বিশ্ব পরিবেশ দিবসের শুভেচ্ছা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী 
আজ বিশ্ব পরিবেশ দিবস। সেই উপলক্ষে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ট্যুইটারে ...বিশদ

10:46:00 AM

কলেজ স্ট্রিটে ভেঙে পড়ল দোতলা বাড়ি 
কলেজ স্ট্রিটে ভেঙে পড়ল একটি দোতলা বাড়ি। ঘটনাটি ঘটেছে আজ ...বিশদ

10:37:19 AM