Bartaman Patrika
হ য ব র ল
 

স্বাধীনতা দিবস 

আমাদের স্বাধীনতা দিবস
‘স্বাধীনতা হীনতায় কে বাঁচিয়ে চায় হে, কে বাঁচিতে চায়’— কবির এই বাণী সর্বাংশে সত্য। আকাশের নক্ষত্র থেকে মাটির ক্ষুদ্রতম প্রাণটি পর্যন্ত স্বাধীনতা চায়।
অজস্র রক্তপাতের মূল্যে ছিনিয়ে আনে স্বাধীনতা। পৃথিবীর অনেক দেশ এইভাবে পরাধীনতার নাগপাশ থেকে মুক্ত হয়েছে। আমাদের দেশ ভারতবর্ষ ২০০ বছরের পরাধীনতা থেকে মুক্ত হয়েছে। ১৯৪৭ খ্রিস্টাব্দের ১৫ আগস্ট এই দিনটি ভারতের স্বাধীনতা দিবস।
বাড়ি, স্কুল-কলেজ, অফিস, আদালতে এই দিন সকালে উত্তোলিত হয় দেশের জাতীয় পতাকা। দেশাত্মবোধক গান, কবিতা, আবৃত্তি, নাটক, অভিনয়ের মধ্য দিয়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করা হয় দেশের বীর সৈনিকদের উদ্দেশে।
সম্প্রতি মুক্ত হয়েছে সন্ত্রাসবাদী আন্দোলন, যা স্বাধীনতার এই চেহারা স্বাধীনতা সংগ্রামীদের কোনও সময় প্রার্থনীয় ছিল না। তবে দুঃসময় কেটে যাবে। আবার সুদিন আসবে। আমিও কবির কণ্ঠে কণ্ঠ মিলিয়ে বলতে চাই— ‘ভারত আবার জগৎ সভায় শ্রেষ্ঠ আসন লবে।’
সৌপর্ণ চক্রবর্তী, শ্রেণী ষষ্ঠ, হিন্দু স্কুল
আমার দেশ ভারতবর্ষ
স্বাধীনতা বলতে প্রত্যেকের স্বাধীনভাবে সমর্যাদায় বেঁচে থাকার অধিকারকে বোঝায়। স্বাধীনতার অর্থ কখনওই আদর্শের বিচ্যুতি বা উচ্ছৃঙ্খলতাকে বোঝায় না। আমার দেশ ভারতবর্ষ, যেখানে তার প্রতিটি নদী, অরণ্য, পশুপাখি এত স্বাধীন, যেখানে তার প্রতিটি পর্বতশৃঙ্গ সকল বাধা-নিষেধ অগ্রাহ্য করে আকাশকে ছুঁতে বদ্ধপরিকর, সেই দেশ কিনা অন্যের অধীন হয়ে হাতে পরেছিল শৃঙ্খলের অলঙ্কার? এই অন্যায় কিছুতেই মেনে নিতে পারেনি ভারতের তরুণ সন্তানরা। তাই তারা এই বিশাল দেশের আদর্শের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে দেশমাতৃকার মুক্তিকল্পে ব্রতী হয়েছিল। ব্রিটিশের অধীন ভারত-ভূমিতে জ্বালিয়েছিল বিপ্লবের আগুন। আর সেই অগ্নিপ্রবাহে দগ্ধ হয়ে একদিন ভারত ছাড়তে বাধ্য হয়েছিল ব্রিটিশ। সেই দিন থেকে আজ পর্যন্ত ভারতের আকাশে অান্দোলিত হচ্ছে এক ত্রিবর্ণরঞ্জিত পতাকা— ক্রম উন্নয়নশীল স্বাধীন ভারতের স্বাধীন পতাকা!
উস্রি পোড়িয়া, দশম শ্রেণী
রামকৃষ্ণ সারদা মিশন সিস্টার
নিবেদিতা গার্লস স্কুল
স্বাধীনতার স্বপ্ন
২০০ বছরের অধীনতা কাটিয়ে আমরা পেয়েছিলাম স্বাধীনতার স্বাদ। যা ছিল আমাদের গর্বের ও আনন্দের। কিন্তু সেই উপলব্ধি আজ উপভোগ করতে পারছি না। আজও মানুষ স্বনির্ভর নয়। দেশে আছে লক্ষ লক্ষ বেকার যুবক-যুবতী। ৭২ বছর পরও বহু নরনারীর অন্নবস্ত্রের সংস্থান নেই। কত মানুষ গৃহহীন। শিশুমৃত্যু, কন্যাপণ, জাতপাতের সমস্যায় আজও আমরা মগ্ন। মূল্যবোধ, নীতিবোধ, নিয়ম-শৃঙ্খলা, সম্মান, ঐক্যবোধ যেন এ সমাজ থেকে বিতাড়িত। সংবাদপত্রের পাতায় দেখি শুধু হিংসার রাজনীতি। অন্যায় করলেও বহু ক্ষেত্রে মেলে না কঠিন শাস্তি। মাঝে মাঝে ভাবি আমরা কোন সমাজে বড় হচ্ছি? বর্তমান ছাত্রসমাজ সত্যিই হতাশাগ্রস্ত। কী শিখছি আমরা? এই হানাহানির স্বাধীনতা তো বিপ্লবীরা চাননি! তাঁরা যে স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখেছিলেন আমরাও চাই সেই স্বপ্নের সওদাগর হতে।
তন্দ্রা নস্কর, নবম শ্রেণী
থানা মাখুয়া মডেল হাইস্কুল
জাতীয় পতাকা উত্তোলন করি
ইতিহাস। বরাবরই প্রিয়। বাবার মুখে শোনা স্বাধীনতা আন্দোলনের ইতিহাস শোনার জন্য মুখিয়ে থাকি। যখন বিপ্লবীদের রক্তাক্ত সংগ্রামের কাহিনী শুনি গা যেন কাঁটা দেয়। আমাদের পড়াশুনা হয়ে যাবার পর বাবা নিবু নিবু আলোতে বসে গল্প বলেন। আর সেই অশরীরী চরিত্রগুলো কখন যেন জীবন্ত হয়ে ওঠে। বিনয়, বাদল, দীনেশের রাইটার্স অভিযান। চট্টগ্রাম অস্ত্রাগার লুণ্ঠন, আজাদ-হিন্দ-ফৌজের মণিপুরের মৈরাং-এ ভারতের জাতীয় পতাকা উত্তোলনের ঘটনা আমায় নাড়া দেয়। তাই ভারত মাতার কথা মাথায় রেখে ১৫ আগস্ট আমরা জাতীয় পতাকা তুলি। আমাদের দীপায়ন সংস্থায় ১০০ জন ভাইবোনের সঙ্গে জড়ো হয় গ্রামের মানুষ। গান, নাচ, অঙ্কন ও ফুটবল প্রতিযোগিতার মাধ্যমে পালিত হয় স্বাধীনতা দিবস।
আকাশ সামন্ত, নবম শ্রেণী
উত্তরপাড়া অমরেন্দ্র বিদ্যাপীঠ
প্রথম মহিলা স্বাধীনতা সংগ্রামী
নারী ও শিশু ছিল সেই সময় অবহেলিত। তাই সমাজের অগ্রভাগে এসে নারীর কথা বলার অধিকার ছিল না। সেই সময় দাঁড়িয়ে তাদের মুখে কথা বলার শক্তি জুগিয়েছিলেন প্রীতিলতা। পেশায় শিক্ষিকা। ২১ বছরে নিজের জীবন বলিদান দিয়েছেন দেশের জন্য। বহু সহযোদ্ধাদের প্রাণ বাঁচিয়ে একা লড়াই চালিয়ে গেছেন। বন্দুকের গুলি শেষ হলেও পুলিসের হাতে ধরা দেননি। নিজে বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছি঩লেন। ব্রিটিশ শাসকের কাছে মাথা নোয়াননি। তাই স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্‌কালে সেই বীর সেনানীর জীবন আমায় নাড়া দেয়। তাঁদের আদর্শ ও মূল্যবোধ আমার আগামী দিনের পাথেয়। ভারতের প্রথম স্বাধীনতা সংগ্রামী প্রীতিলতা আমাদের প্রেরণার উৎস।
মৌসুমী মণ্ডল, অষ্টম শ্রেণী
উত্তরপাড়া উচ্চ-বালিকা বিদ্যালয়
নদীয়ার অবদান অনস্বীকার্য
ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে নদীয়া জেলার শান্তিপুরের অবদান অনস্বীকার্য। ব্রিটিশ সরকারের বিরুদ্ধাচরণের বিরুদ্ধে সাহস দেখিয়েছিলেন শান্তিপুরের তাঁতিরা। এমনকী ১৮৫৭ সালে বিদ্যাসাগরের বিধবা বিবাহের সমর্থনে গান গেয়ে শাড়ির পাড়ে নকশা এঁকেছিলেন। বিপিনচন্দ্র পালের উপস্থিতিতে শান্তিপুরে পালিত হয় ‘শিবাজী উৎসব’। এরই মধ্যে মুরারীপুকুর ষড়যন্ত্র মামলায় যাবজ্জীবন
কারাদণ্ড হয় নিরাপদ রায় ও
বিভূতি সরকারের।
১৯১৫ সালে শান্তিপুরের নবীন যুবকদের শিক্ষা দেওয়ার জন্য গড়ে ওঠে ‘সাহিত্য পরিষদ’। এছাড়া অসহযোগ খিলাফৎ ও রাওলাট
আইন বিরোধী আন্দোলনে যুক্ত হয়ে পড়ে শান্তিপুর। চট্টগ্রাম অস্ত্রাগার লুণ্ঠনে কারাবন্দি হন নীরদ খাঁ,
শশী খাঁ ও নারায়ণ গোস্বামী।
নেতাজি সুভাষ বোসের ফরোয়ার্ড ব্লকের শাখা সংগঠন নিয়ন্ত্রণ করতেন জয়ন্ত দাস ও বারীন সান্যাল। বিয়াল্লিশের আন্দোলনেও ঝাঁপিয়ে পড়েছিল শান্তিপুর। স্বাধীনতা আন্দোলনে শান্তিপুরের অবদান অনেক।
স্নিগ্ধা দাস, দশম শ্রেণী
রাধারানি নারী শিক্ষা মন্দির
স্বাধীনতার ইতিহাসে শান্তিপুর
ভারতের স্বাধীনতার ইতিহাসে অগ্রগণ্য ভূমিকা নিয়েছিল শান্তিপুর। কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় এইরকম একটি প্রাচীন শহর ও হিন্দুদের তীর্থক্ষেত্র দেশভাগের সময় চলে গিয়েছিল পাকিস্তানে। আমরা সবাই জানি ব্রিটিশরা
যাওয়ার সময় আমাদের দেশটাকে দু’ভাগে ভাগ করে দিয়েছিল। মানচিত্রের উপর পেন্সিলের দাগে একটি হঠকারী সিদ্ধান্তের শিকার হয় শান্তিপুর। তখন লক্ষ্মীকান্ত মৈত্রের তৎপরতায় ও জওহরলাল নেহরুর সহযোগিতায় ১৭ আগস্ট মধ্যরাতে শান্তিপুরকে ভারতবর্ষের সঙ্গে যুক্ত করা হয়। ১৮ আগস্ট শান্তিপুরের ডাকঘর মোড়ে জাতীয় পতাকা তোলা হয়। পতাকা উত্তোলন করেন কবি করুণানিধান বন্দ্যোপাধ্যায়। আজও শান্তিপুরে আঞ্চলিক লাইব্রেরি’তে পতাকাটি রাখা আছে। তাই একজন শান্তিপুরবাসী হিসেবে আমি গর্বিত।
অভিজিৎ দত্ত, নবম শ্রেণী
শান্তিপুর মিউনিসিপ্যাল হাইস্কুল
ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র
১৫ আগস্ট আমাদের জীবনের সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ দিন। পরাধীনতার শৃঙ্খল কাটিয়ে আমরা পেয়েছিলাম স্বাধীনতা। দুশো বছরের সংগ্রামের
পর একটু মুক্তির নিঃশ্বাস। কত মানুষের রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের পর সুজলা সুফলা এক ভারতবর্ষের স্বপ্ন দেখেছিল সবাই। ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্রে সাম্প্রদায়িকতার বীজ উপড়ে ফেলতে চেয়েছিল সবাই। আমাদের সেই স্বপ্নের ভারত স্বাধীনতার ৭২ বছর পরও দেখতে পাইনি। আজও দেশের অন্দরে রয়েছে হিংসা, হানাহানি, অশিক্ষা, কুসংস্কার ইত্যাদি। বিপ্লবীদের বলিদান ভুলে রাজনৈতিক নেতারা নিজের আখের গোছাতে ব্যস্ত। দেশ ও দেশের মানুষকে শোষণ করে নিজের সম্পত্তি বাড়াতে মগ্ন। তাই দেশভক্তি ও দেশমাতাকে নিয়ে যুব সমাজের চিন্তা-ভাবনা সীমিত। তাই শুধু ১৫ আগস্ট নয়, দেশের এই স্বাধীনতাকে টিকিয়ে রাখতে নতুনভাবে চিন্তাভাবনা করা উচিত। যাতে যুবসমাজ উদ্বুদ্ধ হয়। আমরা যেন স্বাধীনতার প্রকৃত অর্থ খুঁজে পাই।
অনির্বাণ গুপ্ত, দশম শ্রেণী
মিত্র ইনস্টিটিউশন (মেন)
স্বাধীনতার অপব্যবহার নয়
সেই ১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট থেকে রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে শুরু করে স্কুল, কলেজ, বিভিন্ন সরকারি বেসকারি প্রতিষ্ঠানে সাড়ম্বরে পালিত হয়ে আসছে স্বাধীনতা দিবস।
কিন্তু স্বাধীনতা দিবস পালন মানে কি শুধুই জাতীয় পতাকা উত্তোলন, শহিদ বেদিতে মাল্যদান করা, জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া বা স্বাধীনতা সংগ্রামীদের জয়ধ্বনি দিয়ে প্রভাতফেরি করা। আমার মনে হয় এখন স্বাধীনতা দিবস পালন একটা গতানুগতিক নিয়মে দাঁড়িয়ে গিয়েছে। তাই দিনটি পালনের সঙ্গে সঙ্গে কেন আমরা এই বিশেষ দিনটি পালন করি, তার মূল উদ্দেশ্য কী— তার একটা সুন্দর বার্তা সব স্তরের মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া দরকার। অবক্ষয় রুখতে স্বাধীনতা দিবসে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সংগ্রামীদের জীবনের বিভিন্ন ঘটনা বর্তমান প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে হবে। আর তাঁদেরই তৈরি করে দেওয়া পথ ধরে চলার জন্য আমাদের শপথ নিতে হবে। মনে রাখতে হবে ‘স্বাধীনতা’ মানে স্বেচ্ছাচারিতা নয়, তার অপব্যবহারও নয়। আমাদের মূল উদ্দেশ্য হওয়া উচিত, দেশকে রক্ষা করা। দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য, ভৌগোলিক সীমা, সংস্কৃতি, সাহিত্য, শিল্প প্রভৃতি মানুষকে স্বদেশ সম্পর্কে চেতনাসম্পন্ন করে তোলে।
দেশাত্মবোধের সঙ্গে সঙ্গে জাতীয় অগ্রগতি গভীর ভাবে সম্পর্কযুক্ত। এর জন্য চাই দেশের প্রতি ভালোবাসা। মাতৃসমা জন্মভূমিকে নিঃস্বার্থভাবে ভালোবাসা প্রত্যেকের পবিত্র কর্তব্য। সেখানে যেন কোনও জায়গায় কোনওরকম বৈষম্য না থাকে। তাই তো দেশকে ভালোবেসে বিবেকানন্দ বলেছেন— ‘ভারতের মৃত্তিকা আমার স্বর্গ। ভারতের কল্যাণ আমার কল্যাণ’। সমগ্র দেশবাসী যখন এই বাণীর মর্ম উপলব্ধি করবে, তখনই জাতীয় অগ্রগতি সম্ভব হবে। আর তবেই তো ভারত জগৎ সভায় শ্রেষ্ঠ আসন গ্রহণ করবে।
লোকনাথ সাউ, অষ্টম শ্রেণী
এগরা রামকৃষ্ণ শিক্ষা মন্দির
সংকলন  শম্পা সরকার
ছবি: সংশ্লিষ্ট সংস্থার সৌজন্যে 
11th  August, 2019
হিলি গিলি হোকাস ফোকাস 

চলছে নতুন বিভাগ হিলি গিলি হোকাস ফোকাস। এই বিভাগে জনপ্রিয় জাদুকর শ্যামল কুমার তোমাদের কিছু চোখ ধাঁধানো আকর্ষণীয় ম্যাজিক সহজ সরলভাবে শেখাবেন। আজকের বিষয় থট-রিডিং।   বিশদ

20th  October, 2019
মামরাজ আগরওয়াল রাষ্ট্রীয় পুরস্কার 

প্রতিবারের মতো এবারও ‘মামরাজ আগরওয়াল রাষ্ট্রীয় পুরস্কার’ প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল মামরাজ আগরওয়াল ফাউন্ডেশন। গত ২১ সেপ্টেম্বর রাজভবনে অনুষ্ঠানটি হয়েছিল। এবার মোট ৯৯ জন ছাত্রছাত্রীকে পুরস্কৃত করা হয়।   বিশদ

20th  October, 2019
মহাপ্রলয় আসছে 

পরিবেশ বিজ্ঞানীরা বলছেন, ষষ্ঠ মহাপ্রলয় ঘটতে আর দেরি নেই। জঙ্গল কেটে সাফ হয়ে যাচ্ছে। বাড়ছে গাড়ি, কলকারখানার সংখ্যা। দূষিত হয়ে উঠছে পরিবেশ। গলতে শুরু করেছে কুমেরু ও সুমেরুর বরফ। মহাপ্রলয় আটকাতে এখনই ব্যবস্থা নেওয়া দরকার। পৃথিবীর ধ্বংস আটকানোর উপায় কী? লিখেছেন সুপ্রিয় নায়েক। 
বিশদ

20th  October, 2019
হোয়াইট হাউসে ভূতের ভয়! 

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার ঘটনা। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিল এসেছেন হোয়াইট হাউসে। সারা দিনের কর্মব্যস্ততায় ক্লান্ত শরীর। স্নান সেরে সোজা নিজের ঘরে। পরনে কোনও পোশাক নেই। নিজের মতো করে পাওয়া সময়টাকে আরও একটু উপভোগ করতে ধরালেন একটা চুরুট।  
বিশদ

13th  October, 2019
কাটিয়ে উঠে ভীতি, প্রথম দিনের স্মৃতি 

স্কুলের প্রথম দিনটি সবার কাছে একই অনুভূতি নিয়ে আসে না। কেউ ভয় পায়, কেউ বা উদ্বেগে ভোগে। কিছুদিন বাদে সব ভুলে স্কুলই হয়ে ওঠে ঘরবাড়ি। সেইরকমই কিছু অনুভূতি তোমাদের সঙ্গে ভাগ করে নিল মিশ্র অ্যাকাডেমির বন্ধুরা। 
বিশদ

13th  October, 2019
হুলো ও স্কুটি
জয়ন্ত দে

হুলোর কোনওদিন মন খারাপ হয় না। ভালোই থাকে। হাসিতে, খুশিতে থাকে। কিন্তু ইদানীং মনটা বড্ড খারাপ হয়ে যাচ্ছে। চারদিকে এই অনাচার, অত্যাচার দেখে দেখে সে খুবই বিষণ্ণ হয়ে পড়ছে। হয়তো এমন হতে পারে, এটা তার বয়েসের রোগ! বয়স যত বাড়ছে, মন মেজাজ তত খারাপ হচ্ছে।  বিশদ

29th  September, 2019
স্মৃতির পুজো
পার্থজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় 

পুজো এলেই হাজার স্মৃতি দেয় মনেতে হানা,
কাশের বনে হারিয়ে যেতে করত কে আর মানা!  বিশদ

29th  September, 2019
প্যান্ডেল ঘুরে ঠাকুর দেখার মজাই আলাদা 

‘প্যান্ডেল ঘুরে ঠাকুর দেখা’ এই ছিল এবারের লেখার বিষয়বস্তু। তোমাদের এত লেখা পেয়ে আমরা আপ্লুত। সেইসব মজাদার লেখার মধ্যে থেকে বেছে নিতে হয়েছে কয়েকটা। বাছাই করা লেখাগুলিই প্রকাশিত হল আজ, শিউলিস্নাত শারদ সকালে। দুর্গাপুজোর প্রাক্কালে। 
বিশদ

29th  September, 2019
বিদ্যাসাগরের জন্মের দ্বিশতবর্ষ 

এই মহান মানুষটি তাদের বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা। সেই বিদ্যাসাগরের জন্মের দুশো বছর উপলক্ষে তাঁকে নিয়ে লিখল মেট্রোপলিটন ইনস্টিটিউশন (মেন)-এর ছাত্ররা। 
বিশদ

22nd  September, 2019
বিদ্যাসাগরের ছেলেবেলা 

আমাদের এই দেশকে গড়ে তোলার জন্য অনেকে অনেকভাবে স্বার্থত্যাগ করে এগিয়ে এসেছিলেন। এই কলমে জানতে পারবে সেরকমই মহান মানুষদের ছেলেবেলার কথা। এবার ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর। লিখেছেন চকিতা চট্টোপাধ্যায়। 
বিশদ

22nd  September, 2019
শ্যুটিং ফ্লোর ছেড়ে পুজোর প্যান্ডেলে 

অ্যাকশন, কাট শব্দগুলো এখন শুনতে একঘেয়ে লাগছে ছোট্ট অভিনেতা-অভিনেত্রীদের। মন তাদের উড়ুউড়ু। আকাশ নীল, কাশের বনে দোলা লেগেছে। সব্বার প্ল্যানিং সারা। কে কী করবে জানাল হ য ব র ল’র বন্ধুদের। 
বিশদ

15th  September, 2019
শিউলি কুঁড়ির সকাল 
কার্তিক ঘোষ

দাপুটে কানা নদীর গা ঘেঁষে তখন বোসেদের একটাই বাড়ি। তবু সবাই বলত বোসপাড়া!
আসলে, যত রাজ্যের পড়াশোনা করা ছেলে-মেয়েরা তখন সব ওই বাড়িতেই বেশি।
কেউ কলকাতায় নামী বিজ্ঞানী, তো, কেউ ডাক্তার!
পাশের বাড়িটা বড্ড গরিব! 
বিশদ

15th  September, 2019
 ড.‌ মারিয়া মন্টেসরির জন্মদিনে জে আই এস গোষ্ঠীর অনুষ্ঠান

ড.‌ মারিয়া মন্টেসরির ১৪৯তম জন্মদিনে জেআইএস গোষ্ঠীর প্রি-স্কুল ‘‌লিটল ব্রাইট স্টারস প্লে স্কুল’‌ পথ চলা শুরু করল। গত ৩১ আগস্ট সংস্থাটি এ নিয়ে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল। প্রিস্কুলের পঠনপাঠনের পরিবর্তন নিয়ে একটি আলোচনাচক্রের আয়োজন করা হয়।   বিশদ

08th  September, 2019
একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধার্থশঙ্কর রায়ের শততম জন্মদিবসে তাঁর স্মরণ অনুষ্ঠানে বিধানসভার অধ্যক্ষ ও কংগ্রেসের প্রতিনিধি ছাড়া সবাই গরহাজির। রবিবার ছুটির দিনে বিধানসভার অলিন্দে ...

লন্ডন ২০ অক্টোবর (এএফপি): ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বোরিস জনসনের আর্জি মেনে ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া বিলম্বের বিষয়টি বিবেচনা করবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। আগামী ৩১ অক্টোবর ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া চূড়ান্ত সম্পাদন করার শেষ সময়সীমা। গতকাল ব্রিটিশ পার্লামেন্টে বিরোধীরা প্রক্রিয়াটি বিলম্বিত করার প্রস্তাব রাখেন। ...

তুরিন, ২০ অক্টোবর: ইউরো কাপের যোগ্যতা বাছাই পর্বে টানা দুই ম্যাচে গোল পাওয়া ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো ক্লাবের হয়েও বজায় রাখলেন দুরন্ত ফর্ম। সিরি-এ’তে শনিবার রাতে তাঁর ...

বিড, ২০ অক্টোবর (পিটিআই): নির্বাচনী প্রচারে বেরিয়ে তুতো বোন তথা মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী পঙ্কজা মুণ্ডের বিরুদ্ধে আপত্তিকর মন্তব্য করে ইতিমধ্যে বিতর্কে জড়িয়েছেন এনসিপি নেতা ধনঞ্জয় মুণ্ডে। এবার ধনঞ্জয়ের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করল পুলিস। যদিও এনসিপি নেতা দাবি করেন, তাঁর মন্তব্য ‘বিকৃত’ ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীরা শুভ ফল লাভ করবে। মাঝে মাঝে হঠকারী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করায় ক্ষতি হতে পারে। নতুন ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮০৫: ত্রাফালগারের যুদ্ধে ভাইস অ্যাডমিরাল লর্ড নেলসনের নেতৃত্বে ব্রিটিশ নৌবাহিনীর কাছে পরাজিত হয় নেপোলিয়ানের বাহিনী
১৮৩৩: ডিনামাইট ও নোবেল পুরস্কারের প্রবর্তক সুইডিশ আলফ্রেড নোবেলের জন্ম
১৮৫৪: ক্রিমিয়ার যুদ্ধে পাঠানো হয় ফ্লোরেন্স নাইটেঙ্গলের নেতৃত্বে ৩৮ জন নার্সের একটি দল
১৯৩১: অভিনেতা শাম্মি কাপুরের জন্ম
১৯৪০: আর্নেস্ট হেমিংওয়ের প্রথম উপন্যাস ফর হুম দ্য বেল টোলস-এর প্রথম সংস্করণ প্রকাশিত হয়
১৯৪৩: সিঙ্গাপুরে আজাদ হিন্দ ফৌজ গঠন করলেন নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু
১৯৬৭: ভিয়েতনামের যুদ্ধের প্রতিবাদে আমেরিকার ওয়াশিংটনে এক লক্ষ মানুষের বিক্ষোভ হয়
২০১২: পরিচালক ও প্রযোজক যশ চোপড়ার মৃত্যু





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৩৪ টাকা ৭২.০৪ টাকা
পাউন্ড ৮৯.৮৬ টাকা ৯৩.১৫ টাকা
ইউরো ৭৭.৭৩ টাকা ৮০.৬৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
19th  October, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,৯২৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,৯৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭,৪৮৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৫,৬৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৫,৭৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
20th  October, 2019

দিন পঞ্জিকা

২ কার্তিক ১৪২৬, ২০ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, ষষ্ঠী ৪/৩৯ দিবা ৭/৩০। আর্দ্রা ৩০/৩৪ সন্ধ্যা ৫/৫২। সূ উ ৫/৩৮/৩৫, অ ৫/৪/৩৯, অমৃতযোগ দিবা ৬/২৫ গতে ৮/৪২ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৪ গতে ২/৪৫ মধ্যে। রাত্রি ৭/৩৫ গতে ৯/১৬ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৭ গতে ১/২৮ মধ্যে পুনঃ ২/১৮ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৯/৫৬ গতে ১২/৪৭ মধ্যে, কালরাত্রি ১২/৫৬ গতে ২/৩০ মধ্যে।
২ কার্তিক ১৪২৬, ২০ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, সপ্তমী ৫৩/৪/১৩ রাত্রি ২/৫২/৫২। আর্দ্রা ২৪/৪১/৫৯ দিবা ৩/৩১/৫৯, সূ উ ৫/৩৯/১১, অ ৫/৫/৫১, অমৃতযোগ দিবা ৬/৩২ গতে ৮/৪৫ মধ্যে ও ১১/৪২ গতে ২/৪০ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/২৮ গতে ৯/১১ মধ্যে ও ১১/৪৬ গতে ১/২৯ মধ্যে ও ২/২১ গতে ৫/৪০ মধ্যে, বারবেলা ৯/৫৬/৪১ গতে ১১/২২/৩১ মধ্যে, কালবেলা ১১/২২/৩১ গতে ১২/৪৮/২১ মধ্যে, কালরাত্রি ১২/৫৬/৪১ গতে ২/৩০/৫১ মধ্যে।
২০ শফর

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
নানুরে বিজেপি সমর্থকের মাকে গুলি করে খুন 
বীরভূমের নানুরে বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে প্রাণ গেল বিজেপি সমর্থকের মায়ের। গুলিবিদ্ধ ...বিশদ

04:55:03 PM

মোবাইল ফোন হারিয়ে ফেলায় বকুনি, নদীয়ার ভীমপুরে আত্মঘাতী কিশোরী 

04:39:00 PM

কোচবিহারে পাতলাখাওয়ায় মৃত তৃণমূল কর্মীর পরিজনদের সঙ্গে দেখা করলেন সুব্রত বক্সি 

04:34:00 PM

শান্তিপুরে বাড়িতে ভূতের অপবাদ দিয়ে মারধর 
বাড়িতে ভূত রয়েছে এমন অপবাদ দিয়ে বেশ কয়েকটি পরিবারের উপর ...বিশদ

04:29:00 PM

সম্পাদক শুভা দত্ত প্রয়াত 
প্রয়াত বর্তমান সংবাদপত্রের সম্পাদক শুভা দত্ত। সোমবার, ২১ অক্টোবর সকাল ...বিশদ

01:39:53 PM

বিধানসভা নির্বাচন: মুম্বইতে স্ত্রী ও পুত্রকে সঙ্গে নিয়ে ভোট দিলেন শচীন তেন্ডুলকর 

12:26:00 PM