Bartaman Patrika
সাম্প্রতিক
 

ভলগা নদীর তীরে... 
রাশিয়া থেকে সোমনাথ বসু

উলিৎসা সেমাশকো থেকে হাঁটাপথেই গোর্কি মিউজিয়াম। সেখানে সংরক্ষিত রয়েছে ‘মা’ উপন্যাসের খসড়া। এমনকী প্রথম মুদ্রিত বইও। দুই খণ্ডে লেখা ‘মা’ বিপ্লবের আগমনি বার্তা ছড়িয়ে দিয়েছিল গোটা রাশিয়ায়। সরল মানবিকতা থেকে গোর্কি উত্তীর্ণ হন শ্রেণী-মানবিকতায়। উৎপল দত্ত এ‌ই উপন্যাসের একটি অংশকে নিয়ে লিখেছিলেন ‘মে দিবস’ নাটক...

গোর্কির ভিটেতে


ভলগা ও ওকা নদীর তীর ঘেঁষা এই শহর নয়ের দশকের আগে পরিচিত ছিল তাঁরই নামে। রাশিয়ার অন্যতম বাণিজ্যিক শহর। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় এই শহরই ছিল সোভিয়েতের ত্রাতার ভূমিকায়। সম্মুখ সমরের অধিকাংশ সরঞ্জাম আসত এই নিঝনি নভগোরোদ থেকেই। জার্মানদের ত্রাস টি-৩৮ ট্যাঙ্কের বড় চালান যেত এখান থেকে। সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে যাওয়ার আগে পর্যন্ত এই শহর বিদেশিদের জন্য নিষিদ্ধ ছিল। সাধারণের কাছে এই শহরের ম্যাপ ও বিক্রি করতে দেওয়া হত না। নিঝনিতে চলত নানা ধরনের গবেষণা। রাশিয়ার প্রথম কম্পিউটারের জন্মটাও নাকি এই ভলগা এবং ওকার পাড়ে। ২০০ বছরের ইতিহাসে, সোভিয়েত সময় থেকে বারবার পাল্টে যাওয়া এই শহরের চরিত্রে মিশে রয়েছে অ্যালেক্সেই ম্যাক্সিমোভিচ পেশকভের নাম। দুনিয়া কাঁপানো সেই রুশ সাংবাদিক তথা গল্পকারকে আমরা চিনেছি ম্যাক্সিম গোর্কি নামেই। পোড়খাওয়া জীবন থেকে উঠে আসা বিশ্বসাহিত্যের কালজয়ী রুশ সাহিত্যিক। সোভিয়েত সাহিত্য ধারার অন্যতম পথিকৃৎও বটে। ক্ষমতার অলিন্দের চক্ষুশূল ছিলেন আজীবন। বিপ্লবের আগে, পরেও। এই নিঝনি নভগোরোদেই তাঁর ছেলেবেলা। বড় হয়ে ওঠা। জীবন লড়াইয়ের কত অজানা গল্প। ২৪ বছর বয়সে লেখক-জীবনের শুরুতেই তিক্ত অভিজ্ঞতার স্মরণে ছদ্মনাম গ্রহণ করেছিলেন ম্যাক্সিম গোর্কি। যার অর্থ তেতো। জীবনের তিক্ত অভিজ্ঞতার অন্তরালে যে কী গভীর ভাবব্যঞ্জনা নিহিত থাকতে পারে তা সাহিত্যে লিপিবদ্ধ করে উজ্জ্বল সাক্ষ্য রেখে গিয়েছিলেন তিনি। গোর্কির জাদু স্পর্শে সেই লেখা হয়ে উঠেছিল ঊনবিংশ শতাব্দীর শেষার্ধের অবক্ষয়ী রাশিয়ার জীবনদর্শন।
নিঝনির সিটি সেন্টার হল এই শহরের ক্রেমলিন। যার লাল ইটের দেওয়ালের পরতে পরতে মিশে রয়েছে গোর্কির জীবন। ক্রেমলিনে দাঁড়িয়ে হয়ত আপনিও কিছু সময়ের জন্য হারিয়ে যেতে পারেন সুদূর অতীতে। বলশয় ক্রুপস্কায়াতে দাঁড়িয়ে হয়ত আপনিও শুনতে পারেন লেনিনের কন্ঠস্বর। কাশিরিনস হাউসে হয়ত আপনার কানেও আসতে পারে ম্যাক্সিম গোর্কির শৈশবের কোলাহল। অথবা কোনও এক বসন্তের বিকেলে ভলগা নদীর পানে তাকিয়ে গোর্কির মত আপনিও বলে উঠতে পারেন, ‘আমি জানি, সময় আসবে যখন প্রতিটি মানুষ আর সবার কাছে তারার মতো হয়ে উঠবে। তাদের রূপে নিজেরাই মুগ্ধ হবে।’
ভলগা থেকে ক্রেমলিনকে বাঁ হাতে রেখে গাড়ি নিয়ে একটু এগলেই ‘কাশিরিনস হাউস।’ ১৯৭১ সালে পিতৃহারা হওয়ার পর মায়ের সঙ্গে এসে উঠেছিলেন এখানেই। বর্তমানে সংগ্রহশালায় পরিণত হওয়া এই বাড়িকে ‘ওয়ান নভেলা মিউজিয়াম’ও বলা হয়। তাঁর আত্মজীবনী ‘মাই চাইল্ডহুড’এর প্রেক্ষাপটও এই বাড়ি। কাশিরিনস হাউসেও অবশ্য বেশিদিন থাকা হয়নি গোর্কির। দারিদ্র্যের তাড়নায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঠ অসমাপ্ত রেখে রুজিরোজগারের উদ্দেশে দশ বছর বয়সেই পথে বেরিয়ে পড়তে হয়েছিল তাঁকে। সেই থেকে একটানা দীর্ঘকাল তাঁর ভবঘুরে জীবন। হাড়ভাঙা পরিশ্রম ও শোষণের সঙ্গে প্রত্যক্ষ পরিচয়। কী করে কে জানে এরই ফাঁকে ফাঁকে বই পড়াটাও তাঁর কেমন যেন একটা নেশা হয়ে দাঁড়িয়েছিল। ১৮৯২-এর ১২ সেপ্টেম্বর, শনিবার তিফলিস শহর থেকে প্রকাশিত ‘কাফকাজ’ (ককেশাস) পত্রিকায় প্রকাশিত হয় তাঁর প্রথম লেখা সেই ছোটোগল্প ‘মকর চুদ্রা’। প্রকাশিত হল মাক্সিম গোর্কি ছদ্মনামে। প্রথম লেখাতেই রাতারাতি লেখক খ্যাতি জুটে গেল। এক- দু’বছর পরে ‘চেল্কাল’ গল্প প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বসাহিত্যের ছোটগল্পের ইতিহাসে তাঁর আসন স্থায়ী হয়ে গেল। সেই শুরু।
অ্যালেক্সেই পেশকভের গোর্কি হয়ে ওঠার গল্প উলিৎসা সেমাশকো ১৯-য়ের বাড়িটি ঘিরেই। ১৯০৪ সালে পাকাপাকিভাবে মস্কো চলে যাওয়ার আগে এই বাড়িতেই থাকতেন তিনি। এখানেই তাঁর বিখ্যাত উপন্যাস ‘মা’-এর পটভূমিকা রচনা করেছিলেন তিনি। বিশাল ফ্ল্যাটবাড়ির আড়ালে থাকা এই দোতলা কাঠের বাড়িতেই গোর্কির লেখার টেবিল, পড়ার ঘর থেকে অতিথিদের গান গেয়ে শোনানোর পিয়ানো সংরক্ষিত। আজও। উলিৎসা সেমাশকো থেকে হাঁটাপথেই গোর্কি মিউজিয়াম। সেখানে সংরক্ষিত রয়েছে ‘মা’ উপন্যাসের খসড়া। এমনকি প্রথম মুদ্রিত বইও। এখানেই রয়েছে গোর্কির আমেরিকা সফরে গিয়ে তোলা মার্ক টোয়েনের সঙ্গে ছবি। তাঁর লেখা ছাপানোর যন্ত্র। দুই খণ্ডে লেখা ‘মা’ বিপ্লবের আগমনি বার্তা ছড়িয়ে দিয়েছিল গোটা রাশিয়ায়। সরল মানবিকতা থেকে গোর্কি উত্তীর্ণ হন শ্রেণী-মানবিকতায়। তাঁর ‘মা’ সোচ্চারে বলার ক্ষমতা অর্জন করেন—‘They can’t kill may spirit—my living spirit’। উৎপল দত্ত এ‌ই উপন্যাসের একটি অংশকে নিয়ে লিখেছিলেন ‘মে দিবস’ নাটক। গোর্কি সাক্ষী ছিলেন ১৯০২ সালের মে দিবসে সরমোভো-র শ্রমিকদের  মিছিলের উপর পুলিসের নির্মম আক্রমণ কিংবা ১৯০৫ সালের ৯ জানুয়ারি পিটার্সবার্গের উইন্টার প্যালেসের সামনে শ্রমিক-মিছিলের উপর জার-পুলিসের নির্বিচার গুলিবর্ষণের ঘটনার।
শোনা যায়, ম্যাক্সিম গোর্কিকে কোনও এক পত্রিকা-সম্পাদক অনুরোধ করেছিলেন তাঁর আত্মজীবনী লেখার জন্য। গোর্কি নাকি সেই অনুরোধ রেখেছিলেন এবং মাত্র এই ক’টি লাইন লিখে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন: ‘১৮৬৮– জন্ম, নিঝনি নভগোরোদে। ১৮৭৮– জনৈক মুচির সহকারী। ১৮৭৯– এক শিল্পীর কাছে অ্যাপ্রেন্টিস। সেখানে দেবদেবীর ছবি আঁকা। ১৮৮০– ভলগা নদীর স্টিমারের কেবিন-বয় (স্টিমারের রাঁধুনির কাছে পড়তে শেখা)। ১৮৮৩– একটা বিস্কুট ফ্যাক্টরির কর্মী। ১৮৮৪– মুটের কাজ। ১৮৮৫– আত্মহত্যার চেষ্টা। ১৮৮৯– রেলকর্মী। ১৮৯০– অ্যাডভোকেটের ক্লার্ক (এখানে লিখতে শেখা)। ১৮৯১– লবণ-কলের মেশিন-চালক। শেষের দিকে ভ্যাগাবন্ড। ১৮৯২– প্রথম গল্প রচনা: মকর চুদ্রা এবং খ্যাতি ও বিত্ত।’ লেনিন, স্তালিনদের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক জোয়ার-ভাঁটার মতো। কখনও উষ্ণ, কখনও বা শীতল। পার্টি-সদস্য না হয়েও আজীবন বলশেভিকদের সমর্থন এবং অর্থসাহায্য করে গিয়েছেন। আবার সোভিয়েত কর্তাদের খবরদারি এড়াতে এই গোর্কি স্বেচ্ছা-নির্বাসনে ইতালি চলে গিয়েছিলেন। এর আগে সেই ইতালির কাপ্রি দ্বীপে বসেই লেখা হয়ে গিয়েছিল ‘মা’-এর দ্বিতীয় খণ্ড। সমাজ পরিবর্তনে যথাসময়ে লেখা একটি সাহিত্যসৃষ্টি যে কী বিরাট অবদান রাখতে পারে ‘মা’-এর চেয়ে বড়ো দৃষ্টান্ত বোধহয় পৃথিবীতে আর কোথাও নেই। বিংশ শতাব্দীর নতুন সুরটা একমাত্র গোর্কিই ধরতে পেরেছিলেন। তবুও লেনিনের সঙ্গে প্রচণ্ড মতানৈক্য ছিল তাঁর। তাই সমলোচনা করতেও গোর্কিকে দু’বার ভাবতে হয়নি। যা বলার সোজাসুজি বলেছেন। নেননি ভণিতার আশ্রয়। কয়েক বার নাম উঠলেও নোবেল পুরস্কার পাননি বিভিন্ন অন্তর্বর্তী কারণে। সোভিয়েত রাজত্বে একের পর এক শ্রেষ্ঠ সম্মানে সম্মানিত। স্তালিনের ডাকে স্বদেশে প্রত্যাবর্তন, বছর কয়েক পরেই মৃত্যু। কারণ এখনও রহস্যাবৃত।
ভলগা নদীর পাড় ঘেঁষে পায়ে হেঁটে ভ্রমণ করতেই নাকি বেশি পছন্দ করতেন গোর্কি। এই ভলগার তীরেই পড়ন্ত বিকেলে এক বৃদ্ধ মাছ ধরছেন। চার থেকে পাঁচটা ছিপ নিয়ে এসেছেন। টপাটপ মাছ ধরে চলেছেন। আমি বললাম, কী মাছ পেলে বেশি খুশি হবেন। তিনি চেঁচিয়ে বললেন, ‘স্যামন।’ এই মাছের স্বাদ নাকি চমৎকার। রুশ সাহিত্যে এই ভলগাকেই তো মা আখ্যা দেওয়া হয়েছে। নদী তো মা-ই, দেশ-কাল-পাত্রভেদে কি এর ব্যতিক্রম হয়? হয়তো তাই রুশ দেশে এসেও মনে পড়ছে, ভূপেন হাজারিকার গাওয়া সেই পংক্তি, ‘আমি গঙ্গার থেকে মিসিসিপি হয়ে ভলগার রূপ দেখেছি...’।
রুশরা বলেন, গোর্কি যেমন সাহিত্যের অতীত ও বর্তমান, তেমনই ভবিষ্যতও। এই ভলগার মতোই।
08th  July, 2018
কোলিন্দার ‘সুন্দর’ মুখের আড়ালে! 

কখনও টিমের জন্য গলা ফাটাচ্ছেন, কখনও ফুটবলারদের সঙ্গে মেতে উঠছেন উদ্দাম সেলিব্রেশনে। দেখে কে বলবে তিনিই ছোট্ট দেশটার প্রথম নাগরিক। প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্রাবার কিতারোভিচ। পাপারাৎজিরা কেন তাঁর পিছু ছাড়ে না? তিনি নাকি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গেও খুনসুঁটি করতে ছাড়েন না! র‌্যাকিটিচ, মডরিচদের ফুটবল স্কিলে যখম সম্মোহিত ক্রীড়া দুনিয়া, তখন ক্রোটদের সুন্দরী প্রেসিডেন্টের প্রাণোচ্ছলতায় মজেছে নেট দুনিয়া।
বিশদ

22nd  July, 2018
ভালোবাসার শহর সেন্ট পিটার্সবার্গ
রাশিয়া থেকে ফিরে
সন্দীপন বিশ্বাস

সেন্ট পিটার্সবার্গ যেমন ইতিহাসের শহর, তেমনই ভালোবাসারও শহর। এই শহরের প্রাসাদে, নদীতে, গির্জায়, মেট্রোয়, পথে পথে মিশে আছে এক রোমান্টিসিজম। তাকে দেখা যায়, অনুভব করা যায়। প্রেমের শহর সেন্ট পিটার্সবার্গ। জার শাসকদের সময় ছুঁয়ে আজ পর্যন্ত এই শহর দেখেছে বহু প্রেম। সেই প্রেম কখনও সফল, কখনও রক্তাক্ত, কখনও ব্যর্থ, কখনও বা সেই প্রেম এনে দিয়েছে মৃত্যুর গন্ধ।
বিশদ

22nd  July, 2018
থাই শিশুদের নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণে আগ্রহী হলিউড 

ঘটনা অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি। ১৭ দিন পর থাইল্যান্ডের বিপজ্জনক গুহায় আটকে পড়া কিশোরদের উদ্ধার করেছেন দুঃসাহসী ডুবুরিরা। চিয়াং রাই হাসপাতালের বেডে মুখে মাস্ক ও হাসপাতালের গাউন পরা অবস্থায় রয়েছে তারা।
বিশদ

15th  July, 2018
ইতিহাসের সন্ধানে... 
সেন্ট পিটার্সবার্গে
(রাশিয়া থেকে ফিরে সন্দীপন বিশ্বাস)

জুন, জুলাই মাসের এই সময়টায় সেন্ট পিটার্সবার্গে সূর্যের আলস্য দেখার মতো। অস্ত যেতে যেন মন চায় না তার। সারাদিন মাথার উপর জ্বলছে তো জ্বলছেই। ঘড়িতে তখন সাড়ে এগারোটা বেজে গেল। সেটাকে রাত বলব কিনা বুঝতে পারছি না! তখন পশ্চিমের আকাশে সূয্যিমামার অনিচ্ছার ডুব।
বিশদ

15th  July, 2018
হেরে গিয়েও জিতে যাওয়া বোধহয় একেই বলে 

হেরে গিয়েও জিতে যাওয়া বোধহয় একেই বলে!
বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডের লড়াইয়ে বেলজিয়ামের সঙ্গে মুখোমুখি হয় জাপান। দুর্দান্ত খেলে দু’গোলে এগিয়েও যায় তারা। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। ম্যাচ শেষ হওয়ার আগেই তিনটে গোল দিয়ে জাপানকে হারিয়ে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে যায় বেলজিয়াম।
বিশদ

08th  July, 2018
বিশ্বকাপের ম্যাসকট
জাবিভাকার জন্মকথা
সন্দীপন বিশ্বাস

পশ্চিম সাইবেরিয়ার একটা ছোট্ট শহর কিদরোভি। মস্কো থেকে অনেক দূর। প্রায় সাড়ে তিন হাজার কিলোমিটার। সেখানকার মেয়ে একাতেরিনা বোচারোভা আজ সারা বিশ্বে এক পরিচিত নাম। সে তো ওই জাবিভাকার দৌলতেই। জাবিভাকা একাতেরিনার কল্পনাপ্রসূত সৃষ্টি। সেই জাবিভাকা এবারের বিশ্বকাপের ম্যাসকট। বিশদ

03rd  June, 2018
সিলভিও গাজ্জানিগা
বিশ্বকাপের নকশার কারিগর
অরূপ দে

১৯৭১ সালের ৫ এপ্রিল জুরিখে ফিফা প্রেসিডেন্ট স্যার স্ট্যানলি রিউসের নেতৃত্বে একটি বিশেষ কমিটি তৈরি করা হয় নতুন ট্রফির জন্য নকশা নির্বাচনের উদ্দেশ্যে। সেই কমিটি আহ্ববান করে নকশা প্রতিযোগিতার। খবর পেয়েই সিলভিও গাজ্জানিগা শুরু করলেন কাজ।
বিশদ

03rd  June, 2018
লেডি ডন

হেঁসেলের অন্ধকারে যাঁদের জীবন কাটিয়ে দেওয়ার কথা ছিল। সন্তান পালন, স্বামীর সেবাই ছিল যাঁদের জীবনের আদর্শ। সেই তাঁরাই একদিন ঘোমটা ছেড়ে হাতে তুলে নিয়েছিলেন আগ্নেয়াস্ত্র। তাঁদের অঙ্গুলি হেলনে চলেছে বিরাট অপরাধের সাম্রাজ্য। এক ফোনে মুহূর্তে চলে গিয়েছে কারও প্রাণ।
বিশদ

13th  May, 2018
তারাপীঠ
মহাপীঠের ২০০ বছর 

তারাপীঠের মন্দিরের ইতিহাসকে দুশো বছরের মধ্যে আটকানো যায় না। তার ইতিহাস প্রাচীন, আবছায়া, অস্পষ্ট এক অতীতের মধ্যে মিশে আছে। একদিকে পুরাণ আর একদিকে ইতিহাস। একদিকে লোককথা, অন্যদিকে দলিল। সব মিলেই তারাপীঠের মন্দির এবং তারামায়ের কাহিনী একাকার হয়ে গিয়েছে... 
বিশদ

13th  May, 2018
তারামায়ের ছেলে বামাক্ষ্যাপা 

বহু সিদ্ধ পুরুষের সাধনক্ষেত্র তারাপীঠ। কিন্তু তারাপীঠের কথা উঠলেই যে সাধক পুরুষের নামটি মনে আসে, তিনি হলেন বামাক্ষ্যাপা। তারামায়ের ক্ষ্যাপা ছেলে বামাক্ষ্যাপা। নানা লৌকিক এবং অলৌকিক কাহিনী ছড়িয়ে আছে তাঁকে ঘিরে। তারাপীঠের অদূরে আটলা গ্রামে তাঁর জন্ম।
বিশদ

13th  May, 2018
রহস্যময়ী রিতা কাৎজ 
মৃণালকান্তি দাস

রিতা কাৎজ। বাংলাদেশের দুই বিদেশি নাগরিক খুন হওয়ার পর ৫২ বছরের এই মহিলাই প্রথম ট্যুইটারে দাবি করেছিলেন, এই হত্যাকাণ্ড আইএস (ইসলামিক স্টেট) ঘটিয়েছে। ঢাকার গুলশানের হোলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালিয়ে ২০ জনকে জবাই করে হত্যা করার পর হামলাকারীদের ছবিও প্রথম প্রকাশ করেছিল রিতা কাৎজের ‘সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ’ ওয়েবসাইট।
বিশদ

06th  May, 2018
কলঙ্কিত দেশ 
কল্যাণ বসু

ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরোর পরিসংখ্যান বলছে ২০১২ সালে গোটা দেশে নথিভুক্ত ধর্ষণের সংখ্যা ছিল ২৪,৯২৩ আর ২০১৬ সালে সেটা ৩৮,৯৪৭! অর্থাৎ হ্রাস তো দূরের কথা, পাঁচ বছরে ধর্ষণের ঘটনা ৫৬ শতাংশ বেড়েছে!
বিশদ

06th  May, 2018
জঙ্গিদের থেকেও রাশিয়ার ভয় পঙ্গপালের দলকে 

সন্দীপন বিশ্বাস: ১৯৯৮ সালের ফ্রান্স বিশ্বকাপে যে লোকটা পুলিশের হাড় পর্যন্ত কাঁপিয়ে দিয়েছিল, সে হল ফরিদ মেলুক। একজন আলজিরিয়ান ইসলামিক জঙ্গি। মেলুককে বলা হতো জঙ্গিদের ঠিকানা। সারা বিশ্বের জঙ্গিদের গতিবিধি, যোগাযোগের তথ্য ছিল তার নখের ডগায়।
বিশদ

29th  April, 2018
জোটের পথে... 

২০১৯-এর আগে বেশ কয়েকটি রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন। এর মধ্যে রয়েছে বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান ও ছত্তিশগড়ও। এই সব রাজ্যের ফল ২০১৯-এর সমীকরণ তৈরিতে অনেকটাই সাহায্যকরবে। কারণ বিধানসভায় বিজেপি ভালো ফল করলে, এখনকার মোদি বিরোধী হাওয়া আবার কমে যাবে। আর যদি বিজেপি হারে, তবে জোট রাজনীতির ঝড় উঠবে। লিখেছেন প্রীতম দাশগুপ্ত।
বিশদ

29th  April, 2018
একনজরে
বিএনএ, মালদহ: মালদহের হবিবপুর বিধানসভা উপনির্বাচনে প্রার্থী দিয়ে নিজেদের অস্তিত্ব প্রমাণের চেষ্টা করলেও প্রচারে এখনও সেভাবে সাড়া ফেলতে পারল না কংগ্রেস। নির্বাচনী এলাকাজুড়ে দেওয়াল লিখন ...

সংবাদদাতা, পূর্বস্থলী: তীব্র দাবদাহের মধ্যেই দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় যাচ্ছে পূর্বস্থলীর আম। বাগান থেকে জাগ ভাঙা আম ট্রাকবোঝাই করে বিভিন্ন জেলায় পাঠানো হচ্ছে। অন্যদিকে এবারও পূর্বস্থলীতে তিনদিন ধরে আম উৎসব ও মেলা হবে। পূর্বস্থলী থানার মাঠে আগামী ২ জুন রবিবার আম ...

 রোম, ১৪ মে: বয়স ৩৭, ঝুলিতে রয়েছে ২০টি গ্র্যান্ডস্ল্যাম খেতাব। রজার ফেডেরার এখনও টেনিস উপভোগ করছেন। তিনি আরও ম্যাচ খেলতে চান। মে মাসের শেষে ফরাসি ...

কলম্বো ও রাষ্ট্রসঙ্ঘ, ১৪ মে (পিটিআই): ন্যাশনাল থাওহিত জামাত (এনটিজে) সহ আরও দু’টি মুসলিম চরমপন্থী মৌলবাদী সংস্থাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করল শ্রীলঙ্কার সরকার। প্রেসিডেন্ট মৈত্রীপাল সিরিসেনা সোমবারই এই নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন। এনটিজে ছাড়া বাকি দু’টি সংগঠন হল জামাতে মিলাতে ইব্রাহিম  এবং ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীদের ক্ষেত্রে ভাবনা-চিন্তা করে বিষয় নির্বাচন করলে ভালো হবে। প্রেম-প্রণয়ে বাধাবিঘ্ন থাকবে। কারও সঙ্গে মতবিরোধ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮১৭: ধর্মীয় সংস্কারক ও দার্শনিক দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্ম
১৮৫৯: নোবেলজয়ী ফরাসি পদার্থ বিজ্ঞানী পিয়ের কুরির জন্ম
১৯০৫: কবি ও লেখক অন্নদাশঙ্কর রায়ের জন্ম
১৯৬৭: অভিনেত্রী মাধুরী দীক্ষিতের জন্ম 





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৬৫ টাকা ৭১.৩৪ টাকা
পাউন্ড ৮৯.৭৪ টাকা ৯২.৯৯ টাকা
ইউরো ৭৭.৭৩ টাকা ৮০.৭২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৮১৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩১,১৩৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,৬০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৭,২৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৭,৩৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩১ বৈশাখ ১৪২৬, ১৫ মে ২০১৯, বুধবার, একাদশী ১৩/৫৮ দিবা ১০/৩৬। উত্তরফাল্গুনী ৫/৩৯ দিবা ৭/১৬। সূ উ ৫/০/৩৬, অ ৬/৫/১৮, অমৃতযোগ দিবা ৬/৪৫ মধ্যে পুনঃ ৯/১১ গতে ১১/৭ মধ্যে পুনঃ ৩/২৮ গতে ৫/১৩ মধ্যে। রাত্রি ৬/৪৯ গতে ৯/০ মধ্যে পুনঃ ১/২২ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৮/১৬ গতে ৯/৫৫ মধ্যে পুনঃ ১১/৩৩ গতে ১/১১ মধ্যে, কালরাত্রি ২/১৬ গতে ৩/৩৮ মধ্যে।
৩১ বৈশাখ ১৪২৬, ১৫ মে ২০১৯, বুধবার, একাদশী ১০/৫১/২১ দিবা ৯/২১/২২। উত্তরফাল্গুনীনক্ষত্র ৩/২৩/৩৫ দিবা ৬/২২/১৬ পরে হস্তানক্ষত্র ৫৯/৫৮/৫১, সূ উ ৫/০/৫০, অ ৬/৬/৪২, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৫ গতে ১১/৮ মধ্যে ও ১/৪৭ গতে ৫/২০ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৪৭ মধ্যে ও ১১/৫৬ গতে ১/২২ মধ্যে, বারবেলা ১১/৩৩/৪৬ গতে ১/১২/১ মধ্যে, কালবেলা ৮/১৭/১৮ গতে ৯/৫৫/৩২ মধ্যে, কালরাত্রি ২/২৭/১৮ গতে ৩/৩৯/৪ মধ্যে। 
৯ রমজান
এই মুহূর্তে
বন্ধ হলদিয়া বন্দর 
শ্রমিক বিক্ষোভে স্তব্ধ হয়ে হলদিয়া বন্দর। বন্দর বন্ধ হওয়াতে অচলাবস্থা ...বিশদ

10:17:37 PM

এমন নির্বাচন কমিশন জম্মে দেখিনি: মমতা
বিজেপি যা বলছে নির্বাচন কমিশন তাই করছে। এমন নির্বাচন কমিশন ...বিশদ

09:22:00 PM

 অমিত শাহর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত: মমতা

09:17:27 PM

জরুরী সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী 

09:16:21 PM

গুয়াহাটির শপিং মলের বাইরে বিস্ফোরণ
গুয়াহাটির জু রোডের একটি শপিং মলের বাইরে বিস্ফোরণ ঘটে। ঘটনায় ...বিশদ

08:45:31 PM

রাজ্যে ভোট প্রচারের সময় কমল
শেষ দফার নির্বাচনী প্রচারে সময় কমিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন। এর ...বিশদ

08:07:49 PM