Bartaman Patrika
গল্পের পাতা
 

আজও তারা জ্বলে 

বাংলা ছবির দিকপাল চরিত্রাভিনেতারা একেকটা শৈল্পিক আঁচড়ে বঙ্গজীবনে নিজেদের অমর করে রেখেছেন। অভিনয় ছিল তাঁদের শরীরে, মননে, আত্মায়। তাঁদের জীবনেও ছড়িয়ে ছিটিয়ে অনেক অমূল্য রতন। তারই খোঁজে সন্দীপ রায়চৌধুরী। আজ ছায়া দেবী- দশম কিস্তি।

ছায়া দেবীর খাওয়া দাওয়া ছিল বড় অদ্ভুত রকমের। কেমন সে সব খাবার? হয়তো শুধুই মাংস খেলেন। তার সঙ্গে রুটি, ভাত বা পাউরুটি কিছুই না। কোনও কোনওদিন আবার মাংসের সঙ্গে কমলালেবু খেলেন। ব্যাস খাওয়া কমপ্লিট। ছায়া দেবীর খাদ্যাভ্যাসের এই মজার দিকটিও বললেন মাধবী মুখোপাধ্যায়। ‘বিকেলবেলা কখনও হয়তো ছোলাভাজা খেতেন। সেটা ছায়াদির সঙ্গে আমিও মাঝে মাঝে খেয়েছি,’ বলছিলেন তিনি। তবে ভাগ্যবানরা ছায়া দেবীর রসিক রূপও দেখেছেন। বিকাশ রায়ের সামনে একবার শ্যুটিংয়ে তিনি ক্রেনের উপর উঁচু চেয়ারে উঠে বসে পড়েন। সকলে অবাক হতেই তিনি নাকি বলেছিলেন, ‘বড় ইচ্ছে, উপর থেকে সকলকে কেমন লাগে একবার দেখি। তাই একটু বসেছি এখানে।’
‘সুবর্ণলতা’ ছবিতে মাধবীর শাশুড়ির চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ছায়া দেবী। পর্দায় ওইরকম দজ্জাল রূপ, আর অন্যসময় যেন মাটির মানুষ। লাঞ্চব্রেকে নানা গল্প বলতেন। ছায়া দেবীর মুখে ওইরকম একদিনের লাঞ্চব্রেকেই ‘বিদ্যাপতি’ ছবির সেটের গল্প শুনেছিলেন মাধবী। তখন তো গ্লিসারিন দিয়ে চোখে জল আনার রেওয়াজ ছিল না। কানন দেবী বললেন, আমাকে পাঁচ মিনিট দিন। তারপর চোখে জল নিয়ে এলেন। এই দেখে ছায়া দেবীও কাঁদার জন্য পাঁচ মিনিট চাইলেন। কিন্তু কান্না তো আর আসে না। একসময় ভেবেছিলেন চোখে লঙ্কাবাটা ডলবেন, কিন্তু তাতে চোখে জল আসবে, কান্না নয়। ‘আসলে অভিনয় করতে গেলে চরিত্রটাকে অনুভব করতে হয়। পারিপার্শ্বিকতায় ডুব দিতে হয়। তখন আপনি আসে হাসি, কান্না, রাগ, দুঃখ,’ ছায়া দেবী বলেছিলেন মাধবীকে।
সুচিত্রা সেনের মতো ছায়া দেবীকেও কেউ কেউ ‘গ্রেটা গার্বো’ বলে ডাকতেন। আত্মপ্রচারে সায় নেই, ভিড়ভাট্টায় অনীহা। যেমন ব্যক্তিত্ব, তেমন মারাত্মক স্ক্রিন প্রেজেন্স। সুচিত্রা সেনের মতোই একসময় পাবলিক লাইফে অতিষ্ঠ হয়ে নিজেকে অন্তঃপুরে আটকে ফেলেছিলেন ছায়া দেবীও। শরীরের বয়সকে কোনওদিনই পাত্তা দিতেন না তিনি। কিন্তু শেষের দিকে মনের বয়সটা যেন তাঁকে বেজায় ঘায়েল করেছিল। নিজের চারপাশে একটা অদৃশ্য পাঁচিল তুলে দিয়েছিলেন। সাংবাদিক শুনলেই মুখের উপর দরজা বন্ধ করে দিতেন। বিভিন্ন সময় পাওয়া নানা পুরস্কার, মেডেল একদিন বিক্রি করে দিতে চেয়েছিলেন। কোনওক্রমে ঘনিষ্ঠজনরা তাঁকে নিরস্ত করেন। ছায়া দেবী হতাশা ভরা গলায় নাকি বলেছিলেন, ‘কী হবে ওসব রেখে! পুরস্কার তো আজকাল কিনতে পাওয়া যায়।’ নিজের দুঃখের কথা যে তিনি বলে বেড়াতেন এমন নয়। কেউ বললেই বরং ফুঁসে উঠতেন। বলতেন, ‘যত আদিখ্যেতা! দুঃখ কার না আছে জীবনে।’
আত্মীয়স্বজন ছাড়াও ছায়া দেবীর ছিলেন দুই মানসকন্যা— তনুশ্রী রায় আর তাঁর বোন অভিনেত্রী দেবশ্রী রায়। এই দুই বোন ঝুমকি-চুমকির কাছে ছায়া দেবী ছিলেন আদরের ‘কনক’। ভীষণ ভালোবাসতেন তাঁদের, একদম নিজের মেয়ের মতো। কোলেপিঠে করে দুই বোনকে বড় করেছিলেন তিনি। ছবি ছেড়ে দেওয়ার পরেও এই রায় পরিবারই আগলে রেখেছিল তাঁকে। দুই বোনই তাঁকে মায়ের থেকে আলাদা ভাবেননি। একেবারে ছোট্ট বয়স থেকে দেবশ্রী অভিনয় করেছেন ছায়া দেবীর সঙ্গে। পরিচালক হিরণ্ময় সেনের ‘পাগল ঠাকুর’ ছবিতে দেবশ্রী যখন অভিনয় করেন তখন তাঁর বয়স মাত্র ১১ মাস। দেবশ্রীর মায়ের নাম আরতি। পরবর্তীকালে মায়ের মুখেই সেই শ্যুটিংয়ের গল্প শুনেছিলেন দেবশ্রী। শিশু দেবশ্রীর গাল টিপে ছায়া দেবী নাকি বলেছিলেন, ‘ভারী মিষ্টি মেয়ে তো তোমার আরতি। ওকে মাঝে মাঝে আমার কাছে নিয়ে এসো।’
এরপর দেবশ্রীর যখন বছর তিনেক বয়স, তখন তিনি আবার হিরণ্ময় সেনেরই ‘বালক গদাধর’ ছবিতে ছোট রামকৃষ্ণের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। ওই ছবিতে দেবশ্রীর মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন ছায়া দেবী। তখন থেকেই দেবশ্রীর নিয়মিত যাতায়াত ১০ নম্বর মদন ঘোষ লেনে, ওঁর বাড়িতে। এরপর তরুণ মজুমদারের ‘কুহেলি’ ছবিতে দু’জনে একসঙ্গে কাজ করেন। চুমকির সব থেকে চর্চিত শিশুবেলার ছবি। দেবশ্রী ‘রাণু’, ছায়া দেবী ‘মানদাদি’। বিশ্বজিৎ-সন্ধ্যা রায়ের মেয়ের ভূমিকায় ছোট্ট দেবশ্রীর সেই নাচ আশা ভোঁসলের কণ্ঠে রবীন্দ্রসঙ্গীত ‘মেঘের কোলে রোদ হেসেছে’র সঙ্গে আজও আইকনিক শিশুনৃত্য। ‘কুহেলি’র বেশিরভাগ দৃশ্যেই ছায়া দেবীর কোলে চড়েই কেটেছে দেবশ্রীর। ‘মনে আছে কালিম্পঙে শ্যুটিং হয়েছিল। ওই সময় কনকই আমাকে অভিনয়, নাচ করা সব দেখিয়ে দিত। কী কী করতে হবে শিখিয়ে দিত। আবার শ্যুটিংয়ের ফাঁকে ঘুম পাড়িয়েও দিত,’ বলছিলেন দেবশ্রী।
দেবশ্রীর মা আরতির ফ্রেন্ড-ফিলোজফার-গাইডও ছিলেন ছায়া দেবী। মেয়েকে কীভাবে মানুষ করবেন বা যদি অভিনয়কে কেরিয়ার হিসেবে নেয় ছোট্ট চুমকি, তাহলেই বা কেমন করে এগবেন প্রায়ই সেসব নিয়ে নিজের সুচিন্তিত মতামত দিতেন তিনি। কনকের ইন্ডোর শ্যুটিং থাকলেও মেয়েকে নিয়ে সেই শ্যুটিং ফ্লোরে চলে যেতেন আরতি।
(ক্রমশ)
 ‘কুহেলি’ ছবিতে ছোট্ট দেবশ্রীর সঙ্গে ছায়া দেবী
অলঙ্করণ: চন্দন পাল
15th  November, 2020
বন্ধুত্বের রং 

জীবনের প্রধান ও মুখ্য ঘটনাগুলিই কেবল মনে থাকার কথা। কিন্তু অনেক সময়ই দেখা যায় স্মৃতির অতলে অনেক তুচ্ছ ক্ষুদ্র ঘটনাও কেমন করে বেশ বড় হয়ে জাঁকিয়ে বসে রয়েছে। সাহিত্যিকদের ‘ভবঘুরে’ জীবনের তেমনই নানা ঘটনা উঠে এল কলমের আঁচড়ে। আজ লিখছেন বুবুন চট্টোপাধ্যায়।
বিশদ

22nd  November, 2020
আজও তারা জ্বলে 

বাংলা ছবির দিকপাল চরিত্রাভিনেতারা একেকটা শৈল্পিক আঁচড়ে বঙ্গজীবনে নিজেদের অমর করে রেখেছেন। অভিনয় ছিল তাঁদের শরীরে, মননে, আত্মায়। তাঁদের জীবনেও ছড়িয়ে ছিটিয়ে অনেক অমূল্য রতন। তারই খোঁজে সন্দীপ রায়চৌধুরী। আজ ছায়া দেবী- শেষ কিস্তি। 
বিশদ

22nd  November, 2020
স্বর সন্ধান
বিজলি চক্রবর্তী 

তরতর করে লিফ্ট নীচে নেমে এল। যত তাড়াতাড়ি লিফ্ট ওপরে তোলে তত তাড়াতাড়িই নীচে নামিয়ে আনে। বেসরকারি অফিস। ঠাঁটবাটের অভাব নেই। এই ধরনের সংস্থায় চাকরি পাওয়া সহজ নয়। কিন্তু চাকরি চলে যাওয়া সহজ। চাকরি চলে যাওয়ার কারণটা অনেক সময় খুব স্পষ্ট থাকে না। স্পষ্ট হলেও করবার কিছু থাকে না। সেই কারণে সবাই কিছুটা তটস্থই থাকে। অন্যত্র চাকরি খোঁজার চেষ্টা জারি রাখে। বেটার কোনও অপশন পেলে চলেও যায়। 
বিশদ

22nd  November, 2020
আমরি বাঙাল ভাষা

জীবনের প্রধান ও মুখ্য ঘটনাগুলিই কেবল মনে থাকার কথা। কিন্তু অনেক সময়ই দেখা যায় স্মৃতির অতলে অনেক তুচ্ছ ক্ষুদ্র ঘটনাও কেমন করে বেশ বড় হয়ে জাঁকিয়ে বসে রয়েছে। সাহিত্যিকদের ‘ভবঘুরে’ জীবনের তেমনই নানা ঘটনা উঠে এল কলমের আঁচড়ে। আজ লিখছেন ঋতা বসু।  বিশদ

15th  November, 2020
ভৈরবঘণ্টের ভবলীলা
তরুণ চক্রবর্তী

অমাবস্যার নিশুতি রাত, গভীর জঙ্গলে রাত আরও কালি ঢালা। সকাল থেকেই অসময়ের বৃষ্টি কখনও ঝিরঝিরে, কখনও প্রবল হয়ে ঝরেই চলেছে। ঘন জঙ্গলের মধ্যেও এক এক জায়গায় ক’টা চালাঘর। কঞ্চির ওপর মাটি লেপে দেওয়া ঘরগুলোয় চণ্ডালদের বাস। বুনো জানোয়ার আর মানুষের আশ্চর্য এক সহাবস্থান এখানে। বাগে পেলে অবশ্য কেউই কাউকে ছাড়ে না।
বিশদ

15th  November, 2020
আজও তারা জ্বলে 

বাংলা ছবির দিকপাল চরিত্রাভিনেতারা একেকটা শৈল্পিক আঁচড়ে বঙ্গজীবনে নিজেদের অমর করে রেখেছেন। অভিনয় ছিল তাঁদের শরীরে, মননে, আত্মায়। তাঁদের জীবনেও ছড়িয়ে ছিটিয়ে অনেক অমূল্য রতন। তারই খোঁজে সন্দীপ রায়চৌধুরী। আজ ছায়া দেবী- নবম কিস্তি।  বিশদ

08th  November, 2020
চলার পথে
হ স্তা ক্ষ র 

জীবনের প্রধান ও মুখ্য ঘটনাগুলিই কেবল মনে থাকার কথা। কিন্তু অনেক সময়ই দেখা যায় স্মৃতির অতলে অনেক তুচ্ছ ক্ষুদ্র ঘটনাও কেমন করে বেশ বড় হয়ে জাঁকিয়ে বসে রয়েছে। সাহিত্যিকদের ‘ভবঘুরে’ জীবনের তেমনই নানা ঘটনা উঠে এল কলমের আঁচড়ে। আজ লিখছেন গৌর বৈরাগী।  বিশদ

08th  November, 2020
চাঁদনি
ষষ্ঠীপদ চট্টোপাধ্যায় 

এখন পলাশের মাস। তাই ফাগুনে আগুন। তবে সে আগুন মনে নয়, বনে। রঙের আগুন। দিগন্তজোড়া বনে পাহাড়ে শিমুল ও পলাশ লালে লাল। দু’চোখ ভরে সেদিকে তাকালে মনভ্রমরা গুনগুনিয়ে ওঠে। একেবারে নিশিভোরে জনতা এক্সপ্রেস থেকে জশিডিতে নেমেই তমালও কেমন যেন উদাস হয়ে গেল।  বিশদ

08th  November, 2020
জিলাবি

জীবনের প্রধান ও মুখ্য ঘটনাগুলিই কেবল মনে থাকার কথা। কিন্তু অনেক সময়ই দেখা যায় স্মৃতির অতলে অনেক তুচ্ছ ক্ষুদ্র ঘটনাও কেমন করে বেশ বড় হয়ে জাঁকিয়ে বসে রয়েছে। সাহিত্যিকদের ‘ভবঘুরে’ জীবনের তেমনই নানা ঘটনা উঠে এল কলমের আঁচড়ে। আজ লিখছেন চিরঞ্জয় চক্রবর্তী। বিশদ

01st  November, 2020
আজও তারা জ্বলে

বাংলা ছবির দিকপাল চরিত্রাভিনেতারা একেকটা শৈল্পিক আঁচড়ে বঙ্গজীবনে নিজেদের অমর করে রেখেছেন। অভিনয় ছিল তাঁদের শরীরে, মননে, আত্মায়। তাঁদের জীবনেও ছড়িয়ে ছিটিয়ে অনেক অমূল্য রতন। তারই খোঁজে সন্দীপ রায়চৌধুরী। আজ ছায়া দেবী- অষ্টম কিস্তি। বিশদ

01st  November, 2020
স্মৃতির সরণী বেয়ে
সায়ন্তনী বসু চৌধুরী

সদ্য পাটভাঙা ধবধবে সাদা শাড়ির মতো কুয়াশার আস্তরণটা একটু একটু করে সরছে। ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে আড়মোড়া ভাঙতে ভাঙতে শুভ্র দেখল ব্লু কোরাল ব্লকের একটা বাচ্চা নাইটস্যুট পরে দরজায় দাঁড়িয়ে মুখভর্তি কুয়াশা টেনে নিয়ে হাঁ করে করে ধোঁয়া ছাড়ছে। আর কচি হাত দুটো দু’পাশে ছড়িয়ে ব্যস্ত পাখির ডানা ঝাপটানোর মতো একটা ভঙ্গি করছে। বিশদ

01st  November, 2020
কালাদা 

জীবনের প্রধান ও মুখ্য ঘটনাগুলিই কেবল মনে থাকার কথা। কিন্তু অনেক সময়ই দেখা যায় স্মৃতির অতলে অনেক তুচ্ছ ক্ষুদ্র ঘটনাও কেমন করে বেশ বড় হয়ে জাঁকিয়ে বসে রয়েছে। সাহিত্যিকদের ‘ভবঘুরে’ জীবনের তেমনই নানা ঘটনা উঠে এল কলমের আঁচড়ে। আজ লিখছেন বুদ্ধদেব গুহ। 
বিশদ

18th  October, 2020
আজও তারা জ্বলে 

বাংলা ছবির দিকপাল চরিত্রাভিনেতারা একেকটা শৈল্পিক আঁচড়ে বঙ্গজীবনে নিজেদের অমর করে রেখেছেন। অভিনয় ছিল তাঁদের শরীরে, মননে, আত্মায়। তাঁদের জীবনেও ছড়িয়ে ছিটিয়ে অনেক অমূল্য রতন। তারই খোঁজে সন্দীপ রায়চৌধুরী। আজ ছায়া দেবী- সপ্তম কিস্তি। 
বিশদ

18th  October, 2020
খিদে
তপন বন্দ্যোপাধ্যায় 

ক্লাস ফাইভে পড়াতে ঢুকেই সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়ে মিলিতা। কারও বয়স দশ, কারও এগারো। অধিকাংশই গরিব ঘরের, অনেকেরই সব বই কেনা হয়নি এখনও। কেউ কেউ একটা-দুটো বই হয়তো হাতে পাবেই না, অথচ অ্যানুয়াল পরীক্ষা দিতে বসবে। গার্জেনদের কাকুতি-মিনতি, অনুরোধে তুলে দিতে হয় পরের ক্লাসে। আজ পড়াতে পড়াতে হঠাৎ চোখ পড়ল ইমনের দিকে।  
বিশদ

18th  October, 2020
একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কোচবিহার: কোভিড পরিস্থিতি চলছে। ভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে বাড়ির বাইরে বেরলে পরতে হবে মাস্ক। ঘনঘন সাবান জল দিয়ে হাত ধুতে হবে। ব্যক্তিগতভাবে এসব স্বাস্থ্যবিধি মানলে রেহাই মিলতে পারে। বৃহত্তর স্বার্থে প্রশাসন পড়ায় পাড়ায় গিয়ে স্যানিটাইজ করবে।  ...

মুম্বইয়ের এক ইভেন্ট ম্যানেজার যুবতীকে ধর্ষণ ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে দিল্লির দুই ধাবা মালিককে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। ধৃতদের নাম সন্দীপ মেহতা (৫৭) ও নবীন দাওর (৪৭)। ...

সরকারি উদ্যোগেই হোক কিংবা মানুষের সচেতনতা— উত্তর ২৪ পরগনায় গত বছরের তুলনায় এ বছর ডেঙ্গু কমল প্রায় ৯৭ শতাংশ। ডেঙ্গু কবলিত জেলার তালিকায় প্রতি বছরই ...

রীতিমতো চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্সি (সিএ) ফার্ম খুলে চলত কালো টাকা সাদা করার কারবার। ফার্মের মালিক গোবিন্দ আগরওয়ালকে ইতিমধ্যেই জালে তুলেছে কলকাতা পুলিস। প্রাথমিক অভিযোগ ছিল, একাধিক আয়কর কর্তার কালো টাকা সাদা করেছেন ওই সিএ ফার্মের মালিক। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

পড়শির ঈর্ষায় অযথা হয়রানি। সন্তানের বিদ্যা নিয়ে চিন্তা। মামলা-মোকদ্দমা এড়িয়ে চলা প্রয়োজন। প্রেমে বাধা।প্রতিকার: একটি ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৫৯: চার্লস ডারউইনের লেখা ‘অন দ্য অরিজিন অব স্পিসিস’ প্রকাশিত হল
১৮৮৮: মার্কিন সাহিত্যিক ডেল কার্নেগির জন্ম
১৯৫৫: ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার ইয়ান বথামের জন্ম
১৯৬১: লেখিকা এবং সমাজকর্মী অরুন্ধতী রায়ের জন্ম 



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.৩৫ টাকা ৭৫.০৬ টাকা
পাউন্ড ৯৭.১২ টাকা ১০০.৫১ টাকা
ইউরো ৮৬.৫২ টাকা ৮৯.৭০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫১,১৪০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৮, ৫২০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৯, ২৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬২, ৩৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬২, ৪৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, দশমী ৫১/৪৮ রাত্রি ২/৪৩। পূর্বভাদ্রপদ নক্ষত্র ২৩/৫১ দিবা ৩/৩২। সূর্যোদয় ৫/৫৯/১৪, সূর্যাস্ত ৪/৪৭/২৬। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪১ মধ্যে পুনঃ ৭/২৪ গতে ১১/২ মধ্যে। রাত্রি ৭/২৬ গতে ৮/১৯ মধ্যে পুনঃ ৯/১১ গতে ১১/৪৯ মধ্যে পুনঃ ১/৩৪ গতে ৩/২০ মধ্যে পুনঃ ৫/৬ গতে উদয়াবধি। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ৭/২৬ মধ্যে। বারবেলা ৭/২০ গতে ৮/৪১ মধ্যে পুনঃ ১২/৪৪ গতে ২/৫ মধ্যে। কালরাত্রি ৬/২৭ গতে ৮/৫ মধ্যে।   
৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, দশমী শেষরাত্রি ৪/২৯। পূর্বভাদ্রপদ নক্ষত্র রাত্রি ৬/২২। সূর্যোদয় ৬/১, সূর্যাস্ত ৪/৪৭। অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৫ মধ্যে ও ৭/৩ গতে ১১/১০ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৩০ গতে ৮/২৩ মধ্যে ও ৯/১৭ গতে ১১/৫৮ মধ্যে ও ১/৪৫ গতে ৩/৩২ মধ্যে ও ৫/১৯ গতে ৬/২ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ৭/৩০ মধ্যে। বারবেলা ৭/২২ গতে ৮/৪৩ মধ্যে ও ১২/৪৫ গতে ২/৬ মধ্যে। কালরাত্রি ৬/২৬ গতে ৮/৬ মধ্যে।
৮ রবিয়ল সানি।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আপনার আজকের দিনটি  
মেষ: পড়শির ঈর্ষায় অযথা হয়রানি। বৃষ: শরীর-স্বাস্থ্য সম্পর্কে কোনও চিন্তা নেই। মিথুন: শেয়ারে ...বিশদ

04:29:40 PM

ইতিহাসে আজকের দিনে 
১৮৫৯: চার্লস ডারউইনের লেখা ‘অন দ্য অরিজিন অব স্পিসিস’ প্রকাশিত ...বিশদ

04:28:18 PM

জামশেদপুরকে ২-১ গোলে হারাল চেন্নাইয়ান এফসি 

09:31:04 PM

জামশেদপুর ১ চেন্নাইয়ান এফসি ২ (হাফটাইম) 

08:31:00 PM

দেশের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে ৪৩টি অ্যাপস ব্লক করল কেন্দ্র 
দেশের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে আজ, মঙ্গলবার ৪৩টি অ্যাপস ব্লক ...বিশদ

05:51:24 PM

করোনা: নাগাল্যান্ডে নতুন করে আক্রান্ত ৭৯ 
নাগাল্যান্ডে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হলেন ৭৯ জন। মোট আক্রান্তের ...বিশদ

05:20:31 PM