Bartaman Patrika
গল্পের পাতা
 

ছায়া আছে কায়া নেই
অপূর্ব চট্টোপাধ্যায় 

২৫
‘কাদম্বিনী মরিয়া প্রমাণ করিল, সে মরে নাই।’ ‘জীবিত ও মৃত’। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ছোট গল্প। এখানেও এসেছেন কাদম্বরী দেবী, তবে নিজ নামে নয় কাদম্বিনী নামে। এই গল্পের শেষ অর্থাৎ ক্লাইম্যাক্সে কি হল! শোনাব আপনাদের। ‘কাদম্বিনী আর সহিতে পারিল না; তীব্রকণ্ঠে বলিয়া উঠিল, ‘ ওগো, আমি মরি নাই গো, মরি নাই। আমি কেমন করিয়া তোমাদের বুঝাইব, আমি মরি নাই। এই দেখো, আমি বাঁচিয়া আছি।’
বলিয়া কাঁসার বাটিটা ভূমি হইতে তুলিয়া কপালে আঘাত করিতে লাগিল, কপাল ফাটিয়া রক্ত বাহির হইতে লাগিল।
তখন বলিল, ‘ এই দেখো, আমি বাঁচিয়া আছি। ’
শারদাশংকর মূর্তির মতো দাঁড়াইয়া রহিলেন; খোকা ভয়ে বাবাকে ডাকিতে লাগিল; দুই মূর্ছিতা রমণী মাটিতে পড়িয়া রহিল।
তখন কাদম্বিনী ‘ ওগো আমি মরি নাই গো, মরি নাই গো, মরি নাই ’ বলিয়া চিৎকার করিয়া ঘর হইতে বাহির হইয়া, সিঁড়ি বাহিয়া নামিয়া অন্তঃপুরের পুষ্করিণীর জলের মধ্যে গিয়া পড়িল। শারদাশংকর উপরের ঘর হইতে শুনিতে পাইলেন ঝপাস্‌ করিয়া একটা শব্দ হইল।
সমস্ত রাত্রি বৃষ্টি পড়িতে লাগিল; তাহার পরদিন সকালেও বৃষ্টি পড়িতেছে, মধ্যাহ্নেও বৃষ্টির বিরাম নাই। কাদম্বিনী মরিয়া প্রমাণ করিল, সে মরে নাই।’
অভিমানী কাদম্বরী দেবী স্বেচ্ছামৃত্যুর বুকে ঝাঁপ মেরে শাস্তি দিতে চেয়েছিলেন সমগ্র ঠাকুর পরিবারকে। কিন্তু তাঁর মৃত্যুশোক অল্পদিনেই হারিয়ে গিয়েছিল ঠাকুর পরিবারের বেশির ভাগ মানুষের মন থেকে। কিন্তু কাদম্বরীকে আমৃত্যু হৃদয়ে বহন করেছিলেন দুজন মানুষ— জ্যোতিরিন্দ্রনাথ ঠাকুর ও রবীন্দ্রনাথ।
মিডিয়ামের মাধ্যমে রবীন্দ্রনাথ নতুন বৌঠান কাদম্বরী দেবীকে বার বার তো এনেছেনই,শুধু তাই নয় তিনি একবার নতুন বৌঠানকে দর্শন করতেও চেয়েছিলেন। তিনি তাঁর নতুনদাদা জ্যোতিরিন্দ্রনাথ ঠাকুরের আত্মাকে বলেছিলেন, ‘নতুন বৌঠানকে বলেছিলুম দেখা দিতে, চেষ্টা করবেন বলেছিলেন। পারবেন?’ উত্তরে নতুনদাদা বলেছিলেন, ‘তার ইচ্ছাশক্তি যে কত দূর, তা তো জানিনে! তবে খুব একটা ইচ্ছাশক্তি তোমাকেও প্রয়োগ করতে হবে।’
অমিতাভ চৌধুরী তাঁর ‘রবীন্দ্রনাথের পরলোকচর্চা’ গ্রন্থে লিখছেন, ‘উমা দেবীর মাধ্যমে রবীন্দ্রনাথ অনেক আত্মা এনেছেন।...তবে সব অধ্যায়ের লিপিবদ্ধ বিবরণ নেই। সম্ভবত গোড়ায় প্রশ্ন ও উত্তরগুলো একসঙ্গে মিলিয়ে রাখার প্রয়োজন কেউ মনে করেননি কিংবা হয়তো উমা দেবীর হাতের লেখা যত্ন করে তুলে রাখার কথাও কেউ ভাবেননি। তাই পুজোর ছুটিতে অক্টোবর মাসের শেষ দিকে শান্তিনিকেতনে যে সব আলাপ হয়েছিল তার কোন বিবরণ নেই।’
১৯২৯ সালের নভেম্বর মাস। মিডিয়ামের মাধ্যমে এলেন কাদম্বরী দেবী। কথাপ্রসঙ্গে তিনি রবীন্দ্রনাথকে বলেছিলেন, ‘বোকা ছেলে, এখনও তোমার কিছু বুদ্ধি হয়নি।’ অতি পরিণত বয়েসে পৌঁছে ‘বোকা ছেলে’ সম্বোধনটি শুনে খুব খুশি হয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
১৯২৯ সালের ২৯ নভেম্বর, রাত্রি— আবার এলেন নতুন বৌঠান। তবে এবারও প্রকাশ করলেন না নিজ পরিচয়। মিডিয়ামের অস্থিরতা দেখে রবীন্দ্রনাথ জানতে চেয়েছিলেন কে?
‘উত্তরে তিনি বললেন— কুলহারা সমুদ্রে আমার তরী ভাসিয়েছিলুম। আজও দাঁড়িয়ে আছি সেই চেনা ঘাটে।
তুমি নাম বলবে না?
— না।
একটা কবিতা লিখে দেবে?
— আমার বিদ্যে কি অজানা?
আমি তোমার কথা শান্তিনিকেতনে অনেকবার ভেবেছিলুম। আমার শরীর ভালো ছিল না। তখন তোমায় ভেবেছি। তুমি জানতে?
— জানি। আমি আসতে পারিনি। মনে মনে এসেছিলুম। কেমন করে বা বোঝাব!
আমি তোমাদের কিছু বুঝতে পারি না। কি করে আস, কী করে যাও কী করে থাক— কিছুই বুঝতে পারিনে!
— শেষ রাত্রে শিরশিরে হাওয়ায় তুমি যখন গায়ের কাপড়টা টেনে নিলে। আমি এসেছিলুম তখন।
আমি তোমাকে মনে মনে বলেছিলুম একদিন। আমার অসুখ করেছে। তুমি যদি এসে থাক আমায় একটু সেবা করে দাও।
— তুমি চাও। কিন্তু ভালো করে দেবার মতো শক্তি তো আমার নেই। তাই বড় অভাব বোধ হয়। তোমাকে কী মুশকিলে ফেলেছি।
কিছু মুশকিলে ফেলনি। তোমার এখন যে রূপ আছে, সে কি আগের মতো। তোমায় আমরা যেমন দেখেছিলুম?
— শমীর ভাষায় বলা যায়, কারো বা ঝড়ের হাওয়ার মত, কারও বা ফুরফুরে হাওয়া।
তোমরা পরস্পরকে দেখ যে, জানো যে, সেটা কেমন করে হয়?
— হাওয়ার কি রূপ নেই!
আমাদের কাছে তো হাওয়ার রূপ নেই।
— ভাব আছে, গতি আছে, বেগ আছে।
তোমাদের পরস্পরের সঙ্গে কি ওইরকম প্রভেদ— যেমন হাওয়ার সঙ্গে হাওয়ার প্রভেদ?
— না, না অন্যরকম। বোঝানো যায় না। তুমি আমায় দেখলে ঠিক চিনবে। আমার ছায়াটা আজও আছে। প্রাণ আছে, দেহ নেই শুধু।’
কবির সারাটা জীবন কেটেছে অকালে ঝরে যাওয়া নতুন বৌঠানয়ের চিন্তায়। তাঁর বিভিন্ন লেখায় বারেবারে ফিরে এসেছেন নতুন বৌঠান। রবীন্দ্রনাথ তখন এলাহাবাদে। এক আত্মীয়ের বাড়িতে বউঠাকুরানির একখানা আলোকচিত্র দেখেই সেই রাতে তিনি লিখলেন সেই বিখ্যাত কবিতা ‘ছবি’—
‘তুমি কি কেবল ছবি শুধু পটে লিখা।
ওই যে সুদূর নীহারিকা
যারা করে আছে ভিড়
আকাশের নীড়;
ওই যে যারা দিনরাত্রি
আলো-হাতে চলিয়াছে আঁধারের যাত্রী
গ্রহ তারা রবি
তুমি কি তাদেরি মতো সত্য নও।
হায় ছবি, তুমি শুধু ছবি।.....
নয়নসম্মুখে তুমি নাই,
নয়নের মাঝখানে নিয়েছ যে ঠাঁই;
আজি তাই
শ্যামলে শ্যামল তুমি, নীলিমায় নীল।
আমার নিখিল
তোমাতে পেয়েছে তার অন্তরের মিল...’
(রচনাকাল— বঙ্গাব্দ: ৩ কার্তিক, ১৩২১, খ্রিস্টাব্দ: ২১ অক্টোবর, ১৯১৪,রচনাস্থান: এলাহাবাদ
২২.০৬. ১৯১৭ তারিখে অমিয় চক্রবর্তীকে কবি এক পত্রে লিখলেন, ‘আমার যে পরমাত্মীয় আত্মহত্যা করে মরেন, শিশুকাল থেকে আমার জীবনের পূর্ণ নির্ভর ছিলেন তিনি। তাই তাঁর আকস্মিক মৃত্যুতে আমার পায়ের নীচে থেকে যেন পৃথিবী সরে গেল, আমার আকাশ থেকে আলো নিভে গেল।
আমার জগৎ শূন্য হল, আমার জীবনের সাধ চলে গেল। সেই শূন্যতার কুহক কোনদিন ঘুচবে এমন কথা আমি মনে করতে পারিনি।’
(ক্রমশ) 
25th  August, 2019
তর্পণ
ধ্রুব মুখোপাধ্যায়

 এখন আমার বিরানব্বই। সেই ছেলেবেলা থেকেই আমি ভীষণ সেয়ানা। যদিও এই জিনিসটা, আমি সারা জীবন উপভোগই করেছি। সেই যেবার রাতের অন্ধকারে মা, বাবার সঙ্গে পদ্মা পেরিয়ে এপারে এলাম সেবারও, সবাই যখন বহরমপুরে মাথা গোঁজার ঠাঁই খুঁজছে আমি তখন চুপচাপ খবর লাগিয়েছিলাম, শিয়ালদা স্টেশনের।
বিশদ

13th  September, 2020
আজও তারা জ্বলে
পর্ব- ৩৯

 বাংলা ছবির দিকপাল চরিত্রাভিনেতারা একেকটা শৈল্পিক আঁচড়ে বঙ্গজীবনে নিজেদের অমর করে রেখেছেন। অভিনয় ছিল তাঁদের শরীরে, মননে, আত্মায়। তাঁদের জীবনেও ছড়িয়ে ছিটিয়ে অনেক অমূল্য রতন। তাঁরই খোঁজে সন্দীপ রায়চৌধুরী। আজ ছায়া দেবী- দ্বিতীয় কিস্তি।
বিশদ

13th  September, 2020
মুনকুদি

 জীবনের প্রধান ও মুখ্য ঘটনাগুলিই কেবল মনে থাকার কথা। কিন্তু অনেক সময়ই দেখা যায় স্মৃতির অতলে অনেক তুচ্ছ ক্ষুদ্র ঘটনাও কেমন করে বেশ বড় হয়ে জাঁকিয়ে বসে রয়েছে। সাহিত্যিকদের ‘ভবঘুরে’ জীবনের তেমনই নানা ঘটনা উঠে এল কলমের আঁচড়ে। আজ লিখছেন নলিনী বেরা। বিশদ

13th  September, 2020
আজও তারা জ্বলে
পর্ব- ৩৮

বাংলা ছবির দিকপাল চরিত্রাভিনেতারা একেকটা শৈল্পিক আঁচড়ে বঙ্গজীবনে নিজেদের অমর করে রেখেছেন। অভিনয় ছিল তাঁদের শরীরে, মননে, আত্মায়। তাঁদের জীবনেও ছড়িয়ে ছিটিয়ে অনেক অমূল্য রতন। তাঁরই খোঁজে সন্দীপ রায়চৌধুরী। আজ ছায়া দেবী- প্রথম কিস্তি। 
বিশদ

06th  September, 2020
চলার পথে
লেখক অলেখক 

জীবনের প্রধান ও মুখ্য ঘটনাগুলিই কেবল মনে থাকার কথা। কিন্তু অনেক সময়ই দেখা যায় স্মৃতির অতলে অনেক তুচ্ছ ক্ষুদ্র ঘটনাও কেমন করে বেশ বড় হয়ে জাঁকিয়ে বসে রয়েছে। সাহিত্যিকদের ‘ভবঘুরে’ জীবনের তেমনই নানা ঘটনা উঠে এল কলমের আঁচড়ে। আজ লিখছেন পার্থজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।  বিশদ

06th  September, 2020
লাস্ট ট্রেনের বিভীষিকা
পার্থসারথি গুহ  

বহুদিনের ইচ্ছেটা এভাবে ফলতে চলেছে। আনন্দে আত্মহারা পিন্টু। পিন্টুর ভালো নামটা নাই বা বললাম। ডাকনামেই কাফি সে। গোপন থাক ওর এই অভিযানের পুরো রুটটার বৃত্তান্ত। কারণ, রাত-বিরতে ওইসব অঞ্চল দিয়ে ফেরার সময়ে হয়তো আপনারা ভয়ে কাঁটা হয়ে যেতে পারেন।  বিশদ

06th  September, 2020
অশান্তি পূর্ণ সহাবস্থানে 

জীবনের প্রধান ও মুখ্য ঘটনাগুলিই কেবল মনে থাকার কথা। কিন্তু অনেক সময়ই দেখা যায় স্মৃতির অতলে অনেক তুচ্ছ ক্ষুদ্র ঘটনাও কেমন করে বেশ বড় হয়ে জাঁকিয়ে বসে রয়েছে। সাহিত্যিকদের ‘ভবঘুরে’ জীবনের তেমনই নানা ঘটনা উঠে এল কলমের আঁচড়ে। আজ লিখছেন বিনতা রায়চৌধুরী। 
বিশদ

30th  August, 2020
আজও তারা জ্বলে 

বাংলা ছবির দিকপাল চরিত্রাভিনেতারা একেকটা শৈল্পিক আঁচড়ে বঙ্গজীবনে নিজেদের অমর করে রেখেছেন। অভিনয় ছিল তাঁদের শরীরে, মননে, আত্মায়। তাঁদের জীবনেও ছড়িয়ে ছিটিয়ে অনেক অমূল্য রতন। তাঁরই খোঁজে সন্দীপ রায়চৌধুরী। আজ মলিনা দেবী। শেষ কিস্তি। 
বিশদ

30th  August, 2020
মিথ্যে মৌ
প্রচেত গুপ্ত 

মেয়েটি শান্তভাবে বলল, ‘স্যার, আমাকে চিনলেন কী করে?’
আমি বিরক্ত গলায় বললাম, ‘আমি তো বললাম আপনাকে আমি চিনি না। আপনি কি আমার কথা বুঝতে পারেননি?’  বিশদ

30th  August, 2020
সন্ধ্যার শিকার
অভিজিৎ তরফদার

—জানতাম, তুমি আসবে।
—তাই? আপনি কি হাত গুনতে জানেন?
—না। কিন্তু মনে হয়েছিল। বলতে পারো সিক্স সেন্স।  বিশদ

23rd  August, 2020
আজও তারা জ্বলে

বাংলা ছবির দিকপাল চরিত্রাভিনেতারা একেকটা শৈল্পিক আঁচড়ে বঙ্গজীবনে নিজেদের অমর করে রেখেছেন। অভিনয় ছিল তাঁদের শরীরে, মননে, আত্মায়। তাঁদের জীবনেও ছড়িয়ে ছিটিয়ে অনেক অমূল্য রতন। তাঁরই খোঁজে সন্দীপ রায়চৌধুরী। আজ মলিনা দেবী। তৃতীয় কিস্তি। বিশদ

23rd  August, 2020
বাগবাজারের আশালতা

 জীবনের প্রধান ও মুখ্য ঘটনাগুলিই কেবল মনে থাকার কথা। কিন্তু অনেক সময়ই দেখা যায় স্মৃতির অতলে অনেক তুচ্ছ ক্ষুদ্র ঘটনাও কেমন করে বেশ বড় হয়ে জাঁকিয়ে বসে রয়েছে। সাহিত্যিকদের ‘ভবঘুরে’ জীবনের তেমনই নানা ঘটনা উঠে এল কলমের আঁচড়ে। আজ লিখছেন স্বপ্নময় চক্রবর্তী। বিশদ

23rd  August, 2020
ব্লাড
শুদ্ধসত্ত্ব ঘোষ

 হ্যাঁ, ব্লাড ব্যাঙ্কেরও রক্ত লাগে। আর হাজারে হাজারে লোক রক্ত দিয়ে ব্লাড ব্যাঙ্ক ভরিয়ে দেয়, তেমনটাও মোটে নয়। কিন্তু সে তো দেয়। তার পরিবার দেয়। অনেকদিন হল। সারা বছরে খেপে খেপে দেয়। গ্রীষ্মে যখন প্রবল সঙ্কট, তখন সরাসরি ব্যাঙ্কে গিয়েও দিয়ে এসেছে। তাহলে? বিশদ

09th  August, 2020
চলার পথে
তিলের নাড়ু

জীবনের প্রধান ও মুখ্য ঘটনাগুলিই কেবল মনে থাকার কথা। কিন্তু অনেক সময়ই দেখা যায় স্মৃতির অতলে অনেক তুচ্ছ ক্ষুদ্র ঘটনাও কেমন করে বেশ বড় হয়ে জাঁকিয়ে বসে রয়েছে। সাহিত্যিকদের ‘ভবঘুরে’ জীবনের তেমনই নানা ঘটনা উঠে এল কলমের আঁচড়ে। আজ লিখছেন রতনতনু ঘাটী।
বিশদ

09th  August, 2020
একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে রেলে ডাকাতির উদ্দেশ্যে জড়ো হয়ে গ্রেপ্তার হওয়া, গত ২০১৯ সালের এরকম চারটি মামলায় সাক্ষ্য-প্রমাণ সহ একাধিক অসঙ্গতির কারণে ২৩ জন অভিযুক্তকে বেকসুর খালাস দিল আদালত।   ...

ভুবনেশ্বর: জন্মদাত্রী মাকেই খুন করল দুই নাবালক ছেলে। বুধবার রাতের এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ভুবনেশ্বরের সুন্দরপদা এলাকার। পুলিস দু’জনকেই গ্রেপ্তার করেছে। দুই ভাইকে জেরা করে জানা গিয়েছে, তাদের মা প্রায়ই অত্যাচার চালাত।   ...

সংবাদদাতা, তারকেশ্বর: এই বছর আলুর চাষ নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন কৃষকরা। রাজ্যের বাজারে এখন আলুর দাম বেশ বেশি। এতে ব্যবসায়ীদের পৌষমাস হলেও, আগামী দিনে চাষ করতে গিয়ে সমস্যায় পড়তে পারেন বলে আশঙ্কা করছেন আলুচাষিরা।   ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি: সামগ্রিকভাবেই কর আদায় কমে যাওয়ায় কেন্দ্রীয় সরকার আর লোকসানের পথে হাঁটতে রাজি নয়। তাই অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার জন্য বিভিন্ন পণ্যে জিএসটি হার কমানোর সম্ভাবনা কম। আশা করা হয়েছিল, অটোমোবাইল সেক্টরে জিএসটি কমতে চলেছে।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

শরীর ভালো যাবে না। সাংসারিক কলহ বৃদ্ধি। প্রেমে সফলতা। শত্রুর সঙ্গে সন্তোষজনক সমঝোতা। সন্তানের সাফল্যে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

আন্তর্জাতিক সফটওয়্যার স্বাধীনতা দিবস
১৫০২ - কোস্টারিকা আবিষ্কার করেন ক্রিস্টোফার কলম্বাস
১৮৯৯- সাহিত্যিক ও চিন্তাবিদ রাজনারায়ণ বসুর মৃত্যু
১৯৫০- অভিনেত্রী শাবানা আজমির জন্ম
১৯৭৬- ব্রাজিলের ফুটবলার রোনাল্ডোর জন্ম
২০০৬- ফুটবলার সুদীপ চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যু 



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৮৯ টাকা ৭৪.৬০ টাকা
পাউন্ড ৯৩.৫৫ টাকা ৯৬.৯১ টাকা
ইউরো ৮৫.১০ টাকা ৮৮.২১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫২,৫২০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৯,৮৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৫০,৫৮০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৬,৭৪০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৬,৮৪০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
17th  September, 2020

দিন পঞ্জিকা

২ আশ্বিন ১৪২৭, শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, প্রতিপদ ১৮/২৮ দিবা ১২/৫১। উত্তরফাল্গুনী নক্ষত্র ৩/৫০ দিবা ৭/০ পরে হস্তানক্ষত্র ৫৬/৩৮, রাত্রি ৪/৭। সূর্যোদয় ৫/২৭/৪২, সূর্যাস্ত ৫/৩৩/৫৬। অমৃতযোগ দিবা ৬/১৫ মধ্যে পুনঃ ৭/৪ গতে ৯/২৯ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৫ গতে ৩/৯ মধ্যে পুনঃ ৩/৫৮ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৬/২২ গতে ৯/৩২ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ৩/৫ মধ্যে পুনঃ ৩/৫২ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৮/২৯ গতে ১১/৩১ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৩২ গতে ১০/১ মধ্যে। শুক্রযোগ ৩৫/৩৬ রাত্রি ৭/৪২।  
১ আশ্বিন ১৪২৭, শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, প্রতিপদ দিবা ২/৫১। উত্তরফাল্গুনী নক্ষত্র দিবা ৯/৩১। সূর্যোদয় ৫/২৭, সূর্যাস্ত ৫/৩৬। অমৃতযোগ দিবা ৬/২০ মধ্যে ও ৭/৭ গতে ৯/২৭ মধ্যে ও ১১/৪৮ গতে ২/৫৬ মধ্যে ও ৩/৪৩ গতে ৫/৩৬ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৬ গতে ৯/২২ মধ্যে ও ১১/৪৯ গতে ৩/৬ মধ্যে ও ৩/৫৫ গতে ৫/২৭ মধ্যে। বারবেলা ৮/২৯ গতে ১১/৩২ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৩৪ গতে ১০/৩ মধ্যে। শুক্রযোগ রাত্রি ১১/৪৭। 
২৯ মহরম। 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
করোনা: কোন কোন দেশ বেশি আক্রান্ত?  
করোনায় আক্রান্তের বিচারে তালিকায় শীর্ষে রয়েছে আমেরিকা। এদেশে করোনায় আক্রান্ত ...বিশদ

03:45:46 PM

মছলন্দপুরে ধৃত ২ বাংলাদেশি মহিলা 
উত্তর ২৪ পরগনার মছলন্দপুর থেকে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশকারী দুই বাংলাদেশি মহিলাকে ...বিশদ

03:45:00 PM

প্লে স্টোর থেকে পেটিএম অ্যাপ সরাল গুগল 
দেশের অন্যতম জনপ্রিয় ই-ওয়ালেট অ্যাপ পেটিএমকে প্লে স্টোর থেকে সরিয়ে ...বিশদ

03:30:36 PM

বারুইপুরে পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে মানুষের হাড়গোড় উদ্ধার 
পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে মানুষের শরীরের হাড়গোড় উদ্ধার হওয়াকে কেন্দ্র করে ...বিশদ

03:19:26 PM

২৩ সেপ্টেম্বর থেকে রাজ্যে খুলছে পার্ক, চিড়িয়াখানা 
আনলক প্রক্রিয়ায় এবার রাজ্যে খুলতে চলেছে পার্ক, চিড়িয়াখানা, ইকো পার্ক। ...বিশদ

03:11:04 PM

করোনা: আপনার জেলার হাল কী, জানুন...  
রাজ্যে নতুন করে আরও ৩,১৯৭ জনের শরীরে মিলেছে করোনা ভাইরাস। ...বিশদ

03:02:52 PM