Bartaman Patrika
গল্পের পাতা
 

পুণ্য ভূমির পুণ্য ধুলোয়
ষষ্ঠীপদ চট্টোপাধ্যায় 

নগরকোট কাংড়া, পর্ব-৯
চামুণ্ডা নন্দীকেশ্বর থেকে এবারের দর্শন নগরকোট কাংড়ায়। পথের দূরত্ব মাত্র পঁচিশ কিমি। এ পথে আমি বেশ কয়েকবার এসেছি। প্রথম এসেছি ১৯৬৪ সালে। আমার রাত্রিবাসের স্থল আরও পঁচিশ কিমি দূরে জ্বালামুখীতে।
ধৌলাধার পর্বতের কোলে কাংড়ার বজ্রেশ্বরী মন্দির দেখে বারে বারে আপ্লুত হই আমি। আমার জীবনে প্রথম তুষার মুকুট দেখা মন্দিরের বিপরীতে ধৌলাধারেরই অন্য এক শৃঙ্গ মালিজা পর্বতে। শোনা যায় ইনি সমগ্র অঞ্চলেরই রক্ষাকর্তা। এই পাহাড়ের রাজা ইনি এবং পর্বতরূপী দেবতা।
পুরাণের কথায় জলন্ধর দৈত্যের ‘কান’ থেকেই নাকি কাংড়া নামের উৎপত্তি। পর্বতের উপর নগর। তাই কাংড়ার নাম নগরকোট। কোট শব্দের অর্থ পর্বত। নগরকোট কাংড়ার মহাভারতকালীন প্রাচীন নাম অগর্তপ্রদেশ। পরে রাজা সুশর্মার নামানুসারে নাম হয় সুশর্মাপুর। তবুও কান নামেই পরিচিত ছিল এই স্থান। গুপ্তযুগে এখানে যখন দুর্ভেদ্য এক দুর্গ গড়ে ওঠে তখন থেকেই এর নাম হয় নগরকোট কাংড়া। কান নগরীর উপর গড়। তাই কানগড় থেকে কানগড়া বা কাংড়া।
তীর্থযাত্রীদের কাছে কাংড়ার প্রসিদ্ধি কিন্তু অন্য কারণে। একান্ন সতীপীঠের অন্তর্গত এই পীঠের অধিশ্বরী দেবী হলেন বজ্রেশ্বরী। বিষ্ণু চক্রে খণ্ডিত সতী অঙ্গের বক্ষস্থল (স্তন) এখানেই পতিত হয়েছিল।
এখানকার পরিবেশ বনময় নয়। নগর সৌন্দর্যে নয়নাভিরাম। চারদিকে অসংখ্য দোকানপাট। উন্নতমানের ঘরবাড়ি। দারুণ ব্যস্ত জনপদ। অমৃতসর, পাঠানকোট, বৈজনাথ, ধরমশালা, জ্বালামুখী এমনকী জম্মু হয়ে কাটরার বাসও আসছে এখানে। তাই জনসমাগমের আর অন্ত নেই। অভাব নেই হোটেল ও ধর্মশালার। বাসস্ট্যান্ড থেকে একটু এগলেই সামান্য উচ্চস্থানে দেবীর মন্দির। অনেক দূর থেকেই অবশ্য রম্য মন্দিরের সোনার কলস চোখে পড়ে। পূজা সামগ্রীর দোকানগুলোর পাশ দিয়ে যেখানে মন্দিরমার্গ বাঁদিকে বেঁকে গিয়েছে সেই পথে কয়েক ধাপ সিঁড়ি অতিক্রম করলেই মূল মন্দিরের প্রাঙ্গণ।
মন্দিরের পিছনে সুউচ্চ ধৌলাধার। একপাশে উপত্যকা। প্রথমেই দৃষ্ট হয় একটি চারকোণা মন্দিরের। মন্দিরটি গম্বুজাকৃতি। তারপর আরও দুটি গম্বুজওয়ালা মন্দিরের পর মূল মন্দির। মন্দিরের বিশাল প্রাঙ্গণে মহাবীর, ভৈরোঁ ও অন্যান্য দেবতা। দেবীর ভৈরবের মন্দিরও দেখার মতো। এখানেই ধ্যানুভক্তের একটি চমৎকার মূর্তি স্থাপিত আছে। আর আছে মন্দির প্রকোষ্ঠে তারাদেবীর ছোট্ট মন্দির। মন্দিরের রং সাদা। এই নৈসর্গিক সৌন্দর্যের দেশে সাদা রঙের মন্দির বড়ই শোভাময়। ১৯০৫ সালের ভয়াবহ ভূমিকম্পে এখানকার সবকিছুই প্রায় ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল। শুধু ধ্বংস হয়নি তারাদেবীর মন্দিরটি। কাংড়া মন্দির সংরক্ষণ কমিটি আবার নতুন করে মূল মন্দির সহ অন্যান্য মন্দিরের পুনর্নির্মাণ করেছে।
শুধু ভূমিকম্প নয়। এই মন্দিরের উপর বহিরাগতদের অবাধ লুণ্ঠন ও ভাঙচুর চলেছে বারে বারে। তবুও দেবী তাঁর সিদ্ধপীঠে আজও বহাল আছেন। আমি এ পথে এলে শ্রদ্ধালুচিত্তে দেবীকে দর্শন করি। সামান্য পূজাও দিই। আবার প্রস্থানও করি। এতেই আমার আনন্দ।
বজ্রেশ্বরীর মন্দির দর্শনের পর অনেকেই যান কাংড়ার দুর্গ দেখতে। আমি অবশ্য একবার মাত্র গিয়েছি। ভারী মনোরম পরিবেশ এই কাংড়া দুর্গের। দূরত্ব সাত কিমি। বাস অথবা অটোতেও এখানে আসা যায়।
বহু প্রাচীন এই দুর্গটি রাজপুত রাজাদের হাতে গড়া। পাতাল ও বাণগঙ্গার মধ্যবর্তী দোয়াবেই এই কাংড়া দুর্গ। দুর্গের অনেক নীচে খরস্রোতা বাণগঙ্গার প্রবাহ দেখা যায়। একাদশ শতকে গজনির সুলতান মামুদ আনন্দপালকে যুদ্ধে পরাজিত করে দুর্গকে দারুণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেন। একটি মন্দির ও রাজপ্রাসাদকে ধ্বংস করে শূন্য করেন রাজকোষ। মন্দিরেও লুণ্ঠন কার্য চালান অবাধে। এরপর চতুর্দশ শতকে ফিরোজ শাহ তুঘলক দুর্গ আক্রমণ করলে রাজারা তাঁর বশ্যতা স্বীকার করে রাজ্য বাঁচালেন। এরও প্রায় দুশো বছর পরে মুঘল সম্রাট আকবর এসে ঝাঁপিয়ে পড়লেন দুর্গের দখল নিতে। কাংড়া আকবরের অধীনে এল।
শুধু অঞ্চলের কয়েকটি দুর্গম জায়গা রইল কয়েকজন রাজপুত সর্দারের হাতে। খবর পেয়ে জাহাঙ্গির এলেন তাঁদের দমন করতে। এখানে এসে প্রথমেই তিনি একটি মসজিদ নির্মাণ করলেন। সেই মসজিদের ধ্বংসাবশেষ আজও এই দুর্গে অবশিষ্ট আছে। দুর্গ যখন অষ্টাদশ শতাব্দীতে আহমদ শাহ দুরানির হাতে তখন জগৎ সিং নামে এক শিখ সর্দার কৌশলে এই দুর্গের দখল নেন। তিনিই কাংড়ার রাজপুত সংসারচাঁদকে এখানকার রাজ সিংহাসনে বসিয়ে দেন। ইনিই ছিলেন কাংড়ার সবচেয়ে জনপ্রিয় রাজা। তিনি ছিলেন অত্যন্ত শিল্পরসিক। গল্‌গ঩লের বা গুলের শিল্পীদের নিজ রাজ্যে নিয়ে এসে কাংড়া শৈলীর চিত্রকলাকে দারুণ সমৃদ্ধ করেন। তাঁর উৎসাহে এই শিল্পকলা কুলু, মাণ্ডি, চম্বা এমনকী গাড়োয়ালেও ছড়িয়ে পড়ে।
ধৌলাধারের বুকে এই ঐতিহ্যময় শহরে এলে মনপ্রাণ জুড়িয়ে যায়। হিমালয়ের নয় দেবীর অন্যতমা বজ্রেশ্বরীও তীর্থযাত্রীদের ভক্তির অর্ঘ্য গ্রহণ করে অনেক কৃপা বিতরণ করে থাকেন। (ক্রমশ)
অলংকরণ : সোমনাথ পাল 
28th  April, 2019
পর্ব ১৬: অপারেশন ’ ৭১
স্ট্র্যাপিং টাঙ্গাইল
সমৃদ্ধ দত্ত

এখন একমাত্র চিন্তা ঢাকা রক্ষা করা। ঢাকা থেকে প্রাণ নিয়ে ফিরত যাওয়াই মনে হচ্ছে অসম্ভব! যত কাছে এগিয়ে আসবে ভারতীয় সেনা, ততই ঢাকায় ঢুকে পড়ে পাকিস্তান আর্মিকে ছিঁড়েখুঁড়ে মুণ্ডু নিয়ে খেলা করতে নামবে মুক্তিযোদ্ধারা। বিশদ

16th  January, 2022
ছোট গল্প
ডেলিভারি বয়
অঞ্জনা ঘোষ

 

কাঠের নড়বড়ে দরজার ছোট তালাটা খুলে সরমা ঘরে ঢুকল। বস্তির ভেতর থেকে ঝগড়াঝাঁটির শব্দ ভেসে আসছে। এ তো রোজের ব্যাপার, সরমা ভাবল। এখন আর একটুও জিরানোর সময় নেই। স্টোভে রান্না চাপাতে হবে। বেলায় কাজ সেরে শেষ বাজারে মন্টুর কাছ থেকে মৌরলা মাছ নিয়ে এসেছে বেশ সস্তা দরে। বিশদ

09th  January, 2022
পর্ব ১৫: অপারেশন’৭১
জামালপুর গ্যারিসন
সমৃদ্ধ দত্ত

হঠাৎ সে শুনতে পেল বাংলা ভাষা। কর্নেল প্রদীপ সাক্সেনার বাহিনীর এক ল্যান্সনায়েক বাঙালি। তিনি বললেন, তোমার ভয় নেই। এটা ইন্ডিয়া। তুমি  ভারতীয় সেনার হাতে। গরম দুধ দেওয়া হয়েছিল হাতে। বাংলা কথাটা শুনে মেয়েটির হাত থেকে ছিটকে পড়ল সেই গ্লাস। আর কান্নায় ভেঙে পড়ল সে মাটিতে। বিশদ

09th  January, 2022
বৃ দ্ধা শ্র ম
হিমাদ্রিকিশোর দাশগুপ্ত

কিছুটা হাঁটার পরই আজকাল থমকে দাঁড়িয়ে পড়েন মনোময়। হাঁটু কেঁপে ওঠে। না দাঁড়ালে পড়ে যাওয়ার ভয় থাকে। আগামী বৈশাখে সাতষট্টিতে পা দেবেন মনোময়।
বিশদ

02nd  January, 2022
উদ্বাস্তু হাহাকার
সমৃদ্ধ দত্ত

সামনে একঝাঁক পাকিস্তানি। স্কোয়াড্রন লিডার জাফা মাটিতে শুয়ে। তিনি উঠতে পারছেন না। এই পাকিস্তানি লোকগুলো তাঁর গোটা শরীরের বিভিন্ন অংশে হাত দিয়ে দিয়ে খুঁজছে কী কী পাওয়া যায়।
বিশদ

02nd  January, 2022
ছোট গল্প
শ্রেণি
উৎপল মান

এই বাজারে যে-ক’জন বড় মাছ-ব্যবসায়ী আছে, এই লোকটা তাদের অন্যতম। ওর জিজ্ঞাসা করার ভঙ্গিই আলাদা। তপন চমকে উঠল। কিছু না বলে চুপচাপ সরে পড়ছিল। তখনই পিছন থেকে শুনতে পেল, ‘লোকাল, রেডিমেড মালও আছে দাদা। কম দামে পেয়ে যাবেন।’ বিশদ

26th  December, 2021
পর্ব ১৩: অপারেশন’৭১ 
যুদ্ধবন্দি বীর
সমৃদ্ধ দত্ত

প্ল্যানটা ছিল স্পষ্ট। যুদ্ধ শুরুর দু’দিনের মধ্যেই আমেরিকা বুঝে গিয়েছে যে, পাকিস্তান ব্যাকফুটে। ভারত সম্পূর্ণ তৈরি হয়ে নেমেছে। আর যেভাবে পূর্ণ বিক্রমে ইন্ডিয়ান আর্মি আর এয়ারফোর্স অ্যাটাক করছে পাকিস্তানকে, ঢাকার পতন হতে মাত্র কয়েকদিন লাগবে। সেটা বুঝেছেন পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খানও। বিশদ

26th  December, 2021
পর্ব ১২: অপারেশন’৭১ 
হান্টার সাকসেস
সমৃদ্ধ দত্ত

ম্যাডাম...গো টু ট্রেঞ্চ...রাইট টার্ন...। চিৎকার ভেসে আসছে। আশপাশের কেউ  ট্রেঞ্চে যেতে বলছে। না হলে যে কোনও সময় বোমা কিংবা স্প্লিন্টারের আঘাতে ছিন্নভিন্ন হয়ে যাবে গীতাঞ্জলি।  কিন্তু গীতাঞ্জলি দৌড়নো থামাচ্ছেন না। ২ মাসের ছেলেটা রয়েছে পার্কে। গীতা কোথায়? কী করছে ছেলেকে নিয়ে? বিশদ

19th  December, 2021
নোবেল প্রাইজ
প্রদীপ আচার্য

দূর থেকেই সজলের পায়ের শব্দ পেয়ে যায় ওরা। সজল রাতে পার্টি অফিসে গুলতানি সেরে যে পথে বাড়ি ফেরে, সেদিকটা থানার মোড়। কিন্তু সজল সেই মোড়ে বাঁক নেওয়ার আগেই রে রে করে ছুটে যায় রেজিমেন্ট। একেবারে বাঘা বাঘা চারটে। সেই থানার মোড় থেকে বলতে গেলে সজলকে এসকর্ট করে নিয়ে আসে ওর পথপোষ্যরা। বিশদ

12th  December, 2021
পর্ব ১১: অপারেশন’৭১ 
পাঠানকোট সাইরেন
সমৃদ্ধ দত্ত

পাকিস্তান নৌবাহিনীর কমান্ডিং অফিসার সেই কারণেই আবার এয়ারফোর্সকে কন্ট্যাক্ট করছেন। এই তো! অবশেষে কেউ একজন উত্তর দিচ্ছে। কিন্তু সেই কণ্ঠটি নেভি অফিসারের থেকে সব শোনার পর নির্লিপ্তভাবে বলল, আমাদের এখন কিছুই করার নেই। আমাদের এয়ারবেসের অবস্থা খুব খারাপ করে দিয়েছে ইন্ডিয়ান ফাইটার জেট। বিশদ

12th  December, 2021
ছোট গল্প
তাজমহল
মীনাক্ষী সিংহ

অপেক্ষার ক্লান্ত আশাহত প্রহর পেরিয়ে সাত বছরের প্রতীক্ষা শেষে মালশ্রীর বিয়ে হল যোগ্য পাত্র সুতীর্থর সঙ্গে। কী আশ্চর্য সমাপতন। সুতীর্থও ডাক্তার। তবে মালশ্রী আগেই জেনে আশ্বস্ত হয়েছে যে দু’জনের কলেজ ছিল আলাদা। প্রিয়ক কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের উজ্জ্বল ছাত্র আর সুতীর্থ জলপাইগুড়ি কলেজের। বিশদ

05th  December, 2021
পর্ব ১০: অপারেশন’৭১
নিপাট রহস্য
সমৃদ্ধ দত্ত

এনিমি এয়ারক্র্যাফট অ্যাটাকড...পজিশন এফএফ টোয়েন্টি...নম্বর ওয়ান বয়লার হিট...ওভার...। পাকিস্তানের নেভি কন্ট্রোল এই মেসেজ পিএনএস খাইবার থেকে পেয়েই সেটা পাঠিয়েছে পিএনএস মুহাফিজকে। আর একটি যুদ্ধজাহাজ। যাতে তৎক্ষণাৎ রেসকিউ করতে যায় মুহাফিজ! 
বিশদ

05th  December, 2021
অপারেশন’ ৭১: পর্ব ৯
খাইবার খতম
সমৃদ্ধ দত্ত

১৯৬৫ সাল। সেপ্টেম্বর মাস। তখন নৌবাহিনীর প্রধান অ্যাডমিরাল বি এস সোমান। ভারত-পাকিস্তানের যুদ্ধ শুরু। অ্যাডমিরাল বি এস সোমান ভারত সরকারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তিনতলায় একটি ঘরে বসে আছেন। তাঁর সামনে একটি নোট রাখা। সরকারি লেটারহেড। সামরিক বিভাগের। সেখানে লেখা আছে, আন্দামান নিকোবর রক্ষা করাই আপাতত ইন্ডিয়ান নেভির প্রধান কর্তব্য। বিশদ

28th  November, 2021
ছোট গল্প
রসাল কথা
এষা দে

কী করেছে শ্রী? দল বেঁধে রথের মেলায় গিয়েছিল। যাক্‌।  ঩সেখানে বড়দের সব বারণ, সাবধানবাণী অগ্রাহ্য করে আকণ্ঠ নিষিদ্ধ স্ন্যাক্স গরম গরম সামনে তৈরি জিলিপি, পাঁপড় ভাজা, বেগুনি, পেঁয়াজি খাওয়া হয়েছে। কী সর্বনাশ! তার ওপর সন্ধ্যায় ফেরার সময় একটি আম গাছের চারা কিনে নিয়ে এসে লুকিয়ে রেখে পরদিন সাতসকালে চুপচাপ মালি বিশুর কোদাল খুরপি ইত্যাদি হাতসাফাই করে হাউজিংয়ের খোলা সবুজের প্রায় মাঝখানে মাটি খুঁড়ে সেটি পুঁতে ফেলেছে। বিশদ

21st  November, 2021
একনজরে
পূর্ব বর্ধমানে মাত্র দু’মাসে ২ লক্ষ হাজার মেট্রিক টন ধান কিনল খাদ্যদপ্তর। ফড়েদের দৌরাত্ম্য কমাতে চাষিদের মোবাইলে মেসেজ দিয়ে ক্যাম্পে আসার জন্য বলা হচ্ছে। ...

ভয়াবহ বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল পাকিস্তানের অন্যতম প্রধান শহর লাহোর। বৃহস্পতিবার লাহোরের বিখ্যাত আনারকলি বাজারের পান মন্ডিতে বিস্ফোরণ ঘটে। মৃত্যু হয় তিনজনের। আহত আরও ২০। বিস্ফোরণের ...

সার দিয়ে টমেটো গাছ। তাতে লাল বলের মত ঝুলে রয়েছে পাকা টমেটো। উঁকি মারছে বিনস, ওলকপি, ফুলকপি, বাঁধাকপিরা। এই দৃশ্য কোনও সবজি খেতের নয়। কলকাতারই একটি ...

রায়গঞ্জের রূপাহারে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে দুর্ঘটনায় ফের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এর জেরে বাসিন্দাদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ছড়িয়েছে। বাসিন্দাদের অভিযোগ, রূপাহার থেকে রায়গঞ্জ বাইপাস নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মে উন্নতি হবে। অর্থকড়ি উপার্জন হবে। নিজ ব্যবহারে কর্মস্থলে মানহানির আশঙ্কা। স্বাস্থ্য ভালো যাবে না। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯০১ - টেলিফোনের উদ্ভাবক ইলিশা গ্রে-র মৃত্যু
১৯৪৫- স্বাধীনতা সংগ্রামী রাসবিহারী বসুর মৃত্যু
১৯৭২ - মনিপুর, মেঘালয়, ত্রিপুরা ভারতের পূর্ণ রাজ্যে পরিণত হয়।
১৯৮৬- অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের জন্ম
২০০৮ -কালো সোমবার হিসেবে বিশ্বব্যাপী শেয়ার বাজারে প্রতিষ্ঠিত। এফটিএসই ১০০-এর সূচক একদিনে সবচেয়ে বড় পতন ঘটে। ইউরোপীয় স্টক এক্সচেঞ্জগুলো ১১ সেপ্টেম্বর, ২০০১ - এর পর সবচেয়ে খারাপ করে শেষ হয়। এশিয়ার শেয়ার মার্কেটগুলোর সূচক ১৪% কমে যায়।



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৬৯ টাকা ৭৫.৯৯ টাকা
পাউন্ড ৯৮.৯৩ টাকা ১০৩.৭৪ টাকা
ইউরো ৮২.৪১ টাকা ৮৬.৪২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৯,৩০০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৬,৮০০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭,৫০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৪,৬০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৪,৭০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৭ মাঘ, ১৪২৮, শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি ২০২২। তৃতীয়া ৬/১৪ দিবা ৮/৫২। মঘা নক্ষত্র ৮/২০ দিবা ৯/৪৩। সূর্যোদয় ৬/২২/৪৩, সূর্যাস্ত ৫/১৩/৩। অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৯ মধ্যে পুনঃ ৮/৩২ গতে ১০/৪৩ মধ্যে পুনঃ ১২/৫২ গতে ২/১৯ মধ্যে পুনঃ ৩/৪৫ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৬/৫৭ গতে ৮/৪৩ মধ্যে পুনঃ ৩/৪৪ গতে ৪/৩৭ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ১০/২৯ গতে ১১/২১ মধ্যে পুনঃ ৪/৩৭ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৯/৫ গতে ১১/৪৭ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৩০ গতে ১০/৯ মধ্যে। 
৭ মাঘ, ১৪২৮, শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি ২০২২। তৃতীয়া দিবা ৭/৪৪। মঘা নক্ষত্র দিবা ৯/৯। সূর্যোদয় ৬/২৬, সূর্যাস্ত ৫/১১। অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৬ মধ্যে ও ৮/৩১ গতে ১০/৪৪ মধ্যে ও ১২/৫৮ গতে ২/১৭ মধ্যে ও ৩/৫৭ গতে ৫/১১ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৮ গতে ৮/৫১ মধ্যে ও ৩/৪৩ গতে ৪/৩৪ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ১০/৩৪ গতে ১১/২৫ মধ্যে ও ৪/৩৪ গতে ৬/২৬ মধ্যে। বারবেলা ৯/৭ গতে ১১/৪৯ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৩০ গতে ১০/৯ মধ্যে। 
১৭ জমাদিয়স সানি।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ফালাকাটায় মেয়েকে খুন করার অভিযোগ মায়ের বিরুদ্ধে
 

বৃহস্পতিবার সকালে ফালাকাটার জটেশ্বরের কুটিরপাড়ায় নিজের শিশু কন্যাকে ধারালো অস্ত্র ...বিশদ

20-01-2022 - 02:47:45 PM

কোতুলপুরে খুনের অভিযোগে ৭ ব্যক্তিকে সাজা বিষ্ণুপুর মহকুমা আদালতের
কোতুলপুরের খিরী গ্রামে এক ব্যক্তিকে খুনের অভিযোগে ৭ ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন ...বিশদ

20-01-2022 - 02:41:37 PM

ময়নাগুড়ি গ্রামীণ হাসপাতাল ক্যাম্পাসে মহিলাকে পিষে দিল গাড়ি
বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়নাগুড়ি গ্রামীণ হাসপাতাল ক্যাম্পাসে একটি গাড়ি মহিলাকে পিষে ...বিশদ

20-01-2022 - 02:37:50 PM

বাঁকুড়ার ছাতনায় হাতির হানায় মৃত্যু এক বৃদ্ধের, জখম ৩

20-01-2022 - 02:32:53 PM

দিল্লি হিংসায় সাজা ঘোষণা
দিল্লি হিংসার মামলায় প্রথম সাজা ঘোষণা হল। এদিন অভিযুক্ত দীনেশ ...বিশদ

20-01-2022 - 01:42:52 PM

গোরক্ষপুরে যোগীর বিরুদ্ধে লড়বেন চন্দ্রশেখর আজাদ
সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধেই লড়াইয়ে নামছেন উত্তর প্রদেশের দলিত নেতা তথা ...বিশদ

20-01-2022 - 01:37:35 PM