Bartaman Patrika
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 

রাজনীতির ভাগ্যপরীক্ষা
আকাশদীপ কর্মকার

এই মুহূর্তে দেশের রাজনীতিতে মুখ্য আলোচিত বিষয় লোকসভা নির্বাচন। রাজনীতিকদের ভাগ্যপরীক্ষা। এই নির্বাচনে দেশের প্রধান প্রধান রাজনৈতিক দলের শক্তি পরীক্ষার পাশাপাশি ভাগ্য পরীক্ষা দেশের হাইপ্রোফাইল ব্যক্তিদেরও।
ভারতের স্বাধীনতার মুহূর্তটিকে জন্ম সময় ধরলে জন্ম বিবরণটি হল– 15.08.1947, 00.01 A.M, New Delhi. অর্থাৎ উক্ত বিবরণটি থেকে যে জন্ম কুণ্ডলীটি পাওয়া যায়, সেটি হল— লগ্ন–বৃষ (৭°), রাহু– বৃষ (৫°), মঙ্গল-মিথুন (৭°), চন্দ্র–কর্কট (৩°), বুধ-কর্কট (১৩°), শনি-কর্কট (২০°), শুক্র-কর্কট (২২°), রবি-কর্কট (২৭°), বৃহস্পতি–তুলা (২৫°), কেতু –বৃশ্চিক (৫°)। ভারতের লগ্নে তুঙ্গ রাহুর অবস্থান কালসর্পদোষ সৃষ্টি করেছে। রাহু রবির নক্ষত্রে। তাই ভারতবর্ষের রাজনৈতিক পরিবেশ দ্রুত পরিবর্তনশীল ও বিপরীতপক্ষ তথা কেন্দ্র সরকারে প্রতিপক্ষ যথেষ্ট শক্তিশালী। চতুর্থ পতি রবি-শনি যুক্ত। রবি স্বৈরতন্ত্র ও শনি গণতন্ত্রের কারক। তাই এই দুটি গ্রহযোগ মোটেই শুভ নয়। গণতন্ত্র বারবার স্বৈরতন্ত্রের রূপ নেয়। দশমপতি শনি রাজযোগকারক। কে পি মতে দশমভাবস্ফুটটি মকরে। মকর রাশিতে ৬টি গ্রহের দৃষ্টি রয়েছে। যা বিশিষ্ট প্রতিভাবান রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের জন্ম দিতে সক্ষম। দশমপতি শনি যোগী তথা অবিবাহিত বা বিধবা। তাই অধিকাংশ যাঁরা ভারতকে সফলভাবে পরিচালনা করতে সক্ষম হয়েছেন তাঁরা প্রত্যেকেই বিধবা বা বিপত্নীক বা অবিবাহিত। অটলবিহারী বাজপেয়ি, জওহরলাল নেহরু, ইন্দিরা গান্ধী। এমনকী নরেন্দ্র মোদি, জয়ললিতাও এর প্রকৃষ্ট উদাহরণ।
ভারতে বর্তমানে চন্দ্রের দশায় বৃহস্পতির অন্তর্দশা চলছে। এটি চলবে ডিসেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত। এরপর শুরু হবে শনির অন্তর্দশা। চন্দ্র নক্ষত্রও যাবে ৩, ৪, ৯, ১০, ১১-এর নির্দেশক। বৃহস্পতি এইভাবে ৬, ৮, ৯, ১২-এর নির্দেশক। অন্তর্দশায় ৬, ৮, ১২ নির্দেশ রাজনৈতিক ইস্যুতে মোটেই শুভ নয়। এর অর্থ, ঝামেলা, গণ্ডগোল ও ব্যাপক পরিবর্তন। বিশিষ্ট রাজনৈতিক নেতার মৃত্যু, শীর্ষ নেতার অবসর তথা একাধিক রাজনৈতিক নেতার আইনি সমস্যাদির যোগ নির্দেশ করছে। বৃহস্পতির ষষ্ঠে অবস্থান রাজনৈতিক নীতির অবনমনকেই নির্দেশ করছে। গোচরে বৃহস্পতি বৃশ্চিকে, কিন্তু ভোটের সময় বক্রী হয়ে ধনুতে প্রবেশ করছে। তাই পুরনো কোনও রাজনৈতিক বা রাষ্ট্রীয় ইস্যু উঠবে যা জাতীয় রাজনীতিকে প্রভাবিত করবে। বক্রগ্রহ জনগণের মনেও দ্বৈত মানসিকতা আনবে। কোন দলকে সমর্থন করা যায়, তা সিদ্ধান্ত নিতে অসুবিধা হবে। শনির গোচর অষ্টমে ধনুতে এবং রাহু-কেতু-শনি-মঙ্গল পরস্পর সমসপ্তমে আসছে ভোটের দিনগুলিতে ও পরবর্তী দিনগুলিতে। যা নির্দেশ করছে যে যেকোনও দাঙ্গা, বোমাবাজি, প্রতিহিংসা, কোনও ব্যক্তির রাষ্ট্রীয় দণ্ড, রাজনৈতিক অস্থিরতা। কেন্দ্রে সরকার গঠনে যথেষ্ট কঠিন পরিস্থিতি অপেক্ষা করছে।
এখন আমরা দেখে নেব যে, দেশের চতুর্দিকের কোন দিকটি অস্থির, আর কোন দিকটি সুস্থির থাকবে।
বর্তমানে শনির গোচর পূর্বাষাঢ়া নক্ষত্রের উপর যা বরাহমিহিরের কূর্মা চক্রে পশ্চিম দিক নির্দেশিত। তাই ভারতের পশ্চিম প্রদেশগুলিতে, যেমন—পশ্চিম মহারাষ্ট্র, গুজরাত, রাজস্থান ইত্যাদি রাজ্যে ব্যাপক উত্তেজনা ও ক্ষয়ক্ষতির যোগ। রাহুর গোচর পুনর্বসু নক্ষত্রের উপর যা কূর্মা চক্রে পূর্বদিক নির্দেশ করছে। তাই বিহার, পশ্চিমবঙ্গ, গোয়া, আসাম, ত্রিপুরা ইত্যাদি রাজ্যে ঝামেলা আসার প্রবল সম্ভাবনা।
 এবার আমরা প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যগুলির রাজনৈতিক ভাগ্যফল বিচার করব।
উত্তরপ্রদেশ: উত্তরপ্রদেশের জন্মলগ্ন তুলা ও রাশি মেষ। বর্তমানে বৃহস্পতির মহাদশায় বুধের অন্তর্দশা চলছে। বৃহস্পতি নক্ষত্রও যাবে ৩, ৪, ৬, ৭, ৯, ১০, ১২ এবং বুধ নক্ষত্রও যাবে ১, ৩, ৪, ৮, ৯, ১২ এর নির্দেশক। তাই এখানে যথেষ্ট হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে (৭, ১২)। প্রতিপক্ষ জোট ব্যাপক প্রভাব বিস্তার করবে। যোগাযোগ (৩, ৯), ধর্মীয় ভাবাবেগ (৮, ৯, ১২) লোকসভায় ইস্যু হয়ে দাঁড়াবে।
মহারাষ্ট্র: মহারাষ্ট্রের লগ্ন ধনু ও রাশি মিথুন। বর্তমানে বুধের মহাদশায় বৃহস্পতির অন্তর্দশা চলছে। বুধ নক্ষত্র যাবে ২, ৩, ৬, ৭, ৯, ১২ ও বৃহস্পতি ১, ২, ৩, ১২ নির্দেশক। তাই এখানে বর্তমান শাসকের প্রভুত্ব (১, ৩, ৬, ৯) থাকলেও পরিবর্তনশীল পরিবেশ ও কেন্দ্রবিরোধী মানসিকতা জন্ম নেবে (১, ৩, ১২)।
পশ্চিমবঙ্গ: পশ্চিমবঙ্গের লগ্ন তুলা ও রাশি মেষ। বর্তমানে বৃহস্পতির মহাদশায় বুধের অন্তর্দশা চলছে। দশান্তর্দশা ১, ৬, ৩ ১০ এর নির্দেশক। তাই শাসকের সার্বিক ভালো ফল আশা করা গেলেও পরিবর্তন ও ভালোরকম ক্ষয়ক্ষতির যোগ অর্থাৎ বিরোধীদের ভালো ফলও (১, ৩, ৮, ১২) আশা করা যাচ্ছে।
তামিলনাড়ু: তামিলনাড়ুর লগ্ন বৃষ ও রাশি কর্কট। বর্তমানে চন্দ্র-শনির দশান্তর্দশা চলছে। চন্দ্র ৩, ৪, ১০, ১১ ও শনি ১, ২, ৩, ৬ নির্দেশ করছে। তাই বর্তমানে এখানে শাসকের ব্যাপক উন্নতি ও প্রতিযোগিতার সাফল্য নির্দেশ করছে (১, ৩, ৬)। তবে গোচরে শনি-বৃহস্পতির অবস্থান হঠাৎ বাধা ও পুরনো কোনও রাজনৈতিক ইস্যু উঠে আসতে পারে। কোনও বড় রাজনীতিবিদের রাষ্ট্রীয় শাস্তি বা সমালোচনাও হতে পারে।
বিহার: বিহারের রাশি মেষ, লগ্ন তুলা। দশান্তর্দশা (১, ৩, ১২) নির্দেশক। তাই বর্তমানে শাসকের ব্যাপক জয়লাভ (৩, ৬, ৯, ১০) হলেও ধীরে ধীরে শাসক কেন্দ্র-বিরোধী মন্তব্য ও বিশৃঙ্খলতা আসবে। জনস্বাস্থ্য (১, ৬), শিক্ষা (৪, ৬, ৯) ইত্যাদি ক্ষেত্রে উন্নতি নির্বাচনের মূল বাজি থাকবে।
মধ্যপ্রদেশ: মধ্যপ্রদেশের রাশি কন্যা, লগ্ন মকর। বর্তমানে বুধ শুক্রের দশান্তর্দশা ৪, ৫, ৬, ৮, ৯, ১০, ১১ নির্দেশ করছে। তাই সুস্থ ও সুস্থির ভোট আশা করা যায়। প্রতিপক্ষের উন্নতি (৪, ৬), বর্তমান শাসকের কিছুটা অবনতি (৪, ৫), আশানুরূপ ফলাফল (৯, ১১) হবে।
কর্ণাটক: কর্ণাটকের লগ্ন কর্কট, রাশি ধনু। বর্তমানে রাহু বুধের দশান্তর্দশা চলছে। দশান্তর্দশা ৩, ৪, ৫, ৬, ৯, ১১, ১২ নির্দেশ করছে। তাই এখানেও রাজ্য সরকার বিরোধিতা সাফল্য আনবে (৪, ৫)। উত্তেজনার পরিবেশ থাকবে (৬, ১২)।
গুজরাত: গুজরাতের রাশি মিথুন। লগ্ন ধনু। বর্তমানে বুধ-বৃহস্পতির দশান্তর্দশা চলছে। দশান্তর্দশা ১, ২, ৩, ৭, ৯, ১২ নির্দেশক হওয়ায় জাতীয় সুরক্ষা, ইনভেস্টমেন্ট, লেবার ক্লাস তথা দলিত ইস্যু ভোটের বাজি হবে। গণ্ডগোলের পরিস্থিতিও আসতে পারে।
রাজস্থান: রাজস্থানের লগ্ন ধনু, রাশি মিথুন। দশান্তর্দশা ১, ৩, ৭, ১২ নির্দেশক হওয়ায় পরিবর্তনশীল তথা রাজ্য সরকারের বিরোধী শক্তিশালী হবে। জনগণের মধ্যেও পরিবর্তন ও ধর্মীয় ভাবাবেগ, জাতীয়তাবাদী মানসিকতা ভোট ব্যাঙ্কে থাবা দেবেই (৯, ১২)।
অন্ধ্রপ্রদেশ: অন্ধ্রপ্রদেশের লগ্ন কর্কট, রাশি কুম্ভ। বর্তমানে বুধ-বুধের দশান্তর্দশা চলছে। বুধ ৩, ৪, ৫, ১০, ১২ নির্দেশক হওয়ায় রাজ্য সরকারের দুর্নাম (১২), প্রতিপক্ষ শক্তিশালী (৪, ৫), পরিবর্তনকামী চিন্তাধারা প্রকাশ (৩, ১২) ইত্যাদি নির্দেশ করছে।
 এবার আমরা বিচার করে নেব বেশ কিছু তাবড় তাবড় নেতা-নেত্রীর ভাগ্য, যাদের কৃতকার্যতা, ব্যর্থতা জাতীয় রাজনীতিতে ব্যাপক প্রভাব ফেলতে পারে।
নরেন্দ্র মোদি: রাশি বৃশ্চিক, লগ্ন বৃশ্চিক। লগ্নে চন্দ্র নীচভঙ্গ রাজযোগ করেছে। রুচকযোগ বিদ্যমান। কারকাংশ লগ্ন, লগ্ন, রাশি লগ্ন তিনটিই বলবান। বর্তমানে ওনার চন্দ্রের মহাদশায় শুক্রের অন্তর্দশা চলছে। শুক্র বৃহস্পতি দৃষ্ট ও ৭, ৯, ১০, ১২ এর নির্দেশক। তাই যুদ্ধ পরিস্থিতি, সমালোচনা, দুর্ঘটনা ইত্যাদি হওয়ার প্রবল যোগ। সংঘর্ষপূর্ণ ও প্রতিপক্ষের কাছে বাধাপ্রাপ্ত হওয়ার যোগ। যদিও লোকসভার সময় বৃহস্পতির গোচর হঠাৎ সুনাম ও এককভাবে সাফল্য নির্দেশ করছে।
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়: রাশি বৃষ, লগ্ন মেষ। বর্তমানে শনি-চন্দ্রের দশান্তর্দশা ২, ৩, ৬, ৯ এর কারকতা দেওয়ায় উক্ত সময়ে ওনার ব্যাপক সাফল্যযোগ নির্দেশ করছে। ভারতের জাতীয় রাজনীতিতে যথেষ্ট প্রভাব ফেলবেন। তবে গোচরে শনির অবস্থান মানহানির কারক ও ব্যাপক শত্রুতাকারক।
রাহুল গান্ধী: রাহুল গান্ধীর রাশি বৃশ্চিক, লগ্ন মকর। নীচস্থ শনি দশমে দৃষ্টি দিচ্ছে। তাই রাজনীতিতে সাফল্যযোগ শেষ বয়সে। সহজে ব্যাপক সাফল্য আসবে না। বর্তমানে ওনার চন্দ্র-বুধের দশান্তর্দশা চলছে। বুধ ৩, ৪, ৬, ৭, ৯, ১১, ১২ নির্দেশ দেওয়ায় হতাশা (৬, ৭, ১২), আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি (৬, ১২), পরিবর্তনশীল মানসিকতা হেতু ক্ষয়ক্ষতি (৩, ৬, ১২) ইত্যাদি আসলেও পূর্ব নির্বাচন ২০১৪-এর তুলনায় সাফল্য আসবে (৩, ৬, ৯, ১১)। যথেষ্ট সম্মানিত হবেন (৬, ৯, ১১)।
প্রিয়াঙ্কা গান্ধী: রাশি বৃশ্চিক। লগ্ন মিথুন। সপ্তমে বৃহস্পতি, রবি, বুধের রাজযোগ। বর্তমানে শুক্র-শনির দশান্তর্দশা চলছে। দশান্তর্দশা ১, ২, ৭, ৪, ১০ নির্দেশক। তাই ওনার এই মুহূর্তে জাতীয় রাজনীতিতে প্রবেশ যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ। উনি এই সময় যথেষ্ট প্রভাব বিস্তার করবেন। কিন্তু চূড়ান্ত সাফল্য পাবেন না। কারণ শুক্র-শনির দশান্তর্দশা একটি ব্যতিক্রমী দশান্তর্দশা।
সোনিয়া গান্ধী: রাশি মিথুন। লগ্ন কর্কট। দশমে বৃহস্পতি-শুক্রের প্রভাব শুভ ফলদায়ক। বর্তমানে ওনার কেতুর দশা চলছে। কেতু ৩, ৫, ১২ নির্দেশক। তাই এই সময় সমালোচনা বেশি হবে। সাফল্যযোগের সম্ভাবনা কম।
অরবিন্দ কেজরিওয়াল: রাশি মেষ, লগ্ন বৃষ। বর্তমানে অন্তর্দশা পতি শুক্র ১, ৪, ৬ নির্দেশক। তাই শত্রুতা ও প্রতিপক্ষের জয় নির্দেশ করছে। শনির গোচরও শুভ নয়।
অখিলেশ যাদব: রাশি মিথুন, লগ্ন কন্যা। বর্তমানে কেতু-চন্দ্র দশান্তর্দশা চলছে। যা বিভ্রান্তিকারক। পারিবারিক বিবাদ কর্মক্ষেত্রে প্রভাব ফেলবে। মহাজোটে দ্বৈত মানসিকতা পোষণ করবেন। প্রবল উদ্যমহেতু কিছু সাফল্য আসবে। ভোট শেয়ার দ্বারা লাভবান হতে পারেন।
চন্দ্রশেখর রাও: রাশি কর্কট, লগ্ন বৃষ। বর্তমানে রাহু-শুক্র দশান্তর্দশা চলছে। যা রাজযোগ কারক। থার্ড ফ্রন্টের প্রধান নেতাদের একজন উনি। শুক্র একাদশে, তাই শত্রুতা ও শত্রুজয় নির্দেশ করছে। যদিও শুক্রের ১, ৬, ৮, ১০ নির্দেশ কর্মক্ষেত্রে ব্যর্থ পরিকল্পনা তথা শাস্তিমূলক অভিজ্ঞতা আনতে পারে।
নীতীশ কুমার: রাশি বৃশ্চিক, লগ্ন মিথুন। বিহারের মুখ্যমন্ত্রী উনি। বর্তমানে ওনার রাহু-শনির দশান্তর্দশা চলছে। শনি ৩, ৫, ৮, ৯, ১০, ১২ নির্দেশক। জয়লাভ (৩, ৯, ১০), পরিবর্তন (৩, ৮, ১২) নির্দেশ করছে। নির্বাচনের পর ওনার সঙ্গে এনডিএ জোটের মতান্তর হতে পারে।
চন্দ্রবাবু নাইডু: রাশি ধনু, লগ্ন মেষ। টিডিপি দলের প্রধান তথা অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী উনি। বর্তমানে শনি-কেতুর দশান্তর্দশা চলছে। শনি-কেতুতে যে কোনও ফৌজদারি তথা মানহানি মামলায় জড়াতে পারেন। এক্ষেত্রে দশা শুভ নয়।
কুমারস্বামী: রাশি মিথুন, লগ্ন মিথুন। উনি কর্ণাটকের নব নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী। ওনার এখন কেতু শুক্র দশান্তর্দশা চলছে। যা ১, ৪, ৫, ১২ নির্দেশক। উক্ত দশা শুভ যাবে না। ক্ষয়ক্ষতি ও পরিবর্তন আসতে পারে।
মায়াবতী: রাশি মকর, লগ্ন কর্কট। বর্তমানে বুধ-শুক্রের দশান্তর্দশা চলছে। যা ৪, ৫, ৭, ১০, ১১ নির্দেশক। সময় শুভ। পরিকল্পনার সাফল্য এলেও গোচরে বক্র বৃহস্পতি। হঠাৎ বাধা ও হঠাৎ প্রতিপক্ষ শক্তিশালী (৪, ৫) হতে পারে।
রাজনাথ সিং: রাশি-বৃশ্চিক, লগ্ন-বৃশ্চিক। একাধিক রাজযোগ বিদ্যমান। বর্তমানে ওনার রাহু-শুক্রের দশান্তর্দশা ১, ২, ৬, ৭, ৯, ১০, ১২ নির্দেশ করায়, ব্যাপক প্রতিযোগিতার সম্মুখীন হতে হবে। ১, ৬, ৯, ১০ এর নির্দেশ ব্যাপক সাফল্য দেবে।
অমিত শাহ: লগ্ন কন্যা, রাশি মেষ। বর্তমানে রাহু-রবির দশান্তর্দশা ১, ৩, ৮, ১২ নির্দেশ করছে। তাই বদনাম ও রাষ্ট্রীয় ক্ষেত্রে যে কোনও ব্যর্থ পরিকল্পনা আনতে পারে। মে মাসের পর চন্দ্রের অন্তর্দশা প্রবল প্রচেষ্টায় মনস্কামনা পূরণ করাতে পারে। দশমস্থ রাহুর উপস্থিতি যে কোনও পরিস্থিতির মোকাবিলায় সাফল্য এনে দেবে।
সর্বশেষে দেখে নেব যে প্রধানমন্ত্রিত্বের দাবিদার তিনটি দলের অর্থাৎ (১) বিজেপি (২) কংগ্রেস (৩) ফেডারেল ফ্রন্টের ভাগ্যফল
বিজেপি: বিজেপির প্রতিষ্ঠা দিনটিকে জন্মদিন ধরে নিলে রাশি বৃশ্চিক, লগ্ন মিথুন। কুণ্ডলীতে তৃতীয়ে চারটি গ্রহ। তৃতীয়ে বুধের দৃষ্টি। তাই দলটিতে সাহসী ও সংগ্রামী ও জনসংযোগকারী ব্যক্তিরা স্থান পায় এবং দলটি প্রচার, গণমাধ্যম তথা মিডিয়ার দ্বারা ব্যাপক সাফল্য পায়। তৃতীয় ভাব পরাক্রমস্থান, তাই দলটি বহু প্রচেষ্টার পর সাফল্য পায়। হঠাৎ উত্থান-পতনের মধ্যে যায়। বিরূপ ও প্রতিকূল পরিবেশে জয়লাভের সামর্থ্য রাখে। বর্তমানে বিজেপির চন্দ্র-মঙ্গলের দশান্তর্দশা চলছে। দশাপতি নীচস্থ ও ষষ্ঠস্থ। তাই এইসময় যে কোনও নারী চরিত্র কর্তৃক ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়ার প্রবল যোগ। মঙ্গল ৩, ৬, ৯, ১১ এর নির্দেশক হওয়ায় বহু সংগ্রামের পর জয়লাভ নির্দেশ করছে। চন্দ্রের উপর বৃহস্পতির গোচর অনেকখানি স্বস্তি এনে দিতে পারে। কোনও বয়োজ্যেষ্ঠ নেতা-নেত্রীর অসুস্থতা নির্দেশ করছে।
কংগ্রেস: কংগ্রেসের রাশি কন্যা, লগ্ন মীন। দশমে রবি-বৃহস্পতির উপস্থিতি ব্যাপক সম্মান ও দীর্ঘমেয়াদি সাফল্য এনে দিয়েছে। বর্তমানে কংগ্রেসের বৃহস্পতি-শুক্রের দশান্তর্দশা চলছে। শুক্র তৃতীয়-অষ্টমপতি হয়ে ৩, ৪, ৭, ৮, ৯, ১০ এর নির্দেশক। তাই দলে হঠাৎ পরিবর্তন, পুরাতন সমস্যার পুনরাবৃত্তি, মহিলা কর্তৃক সাহায্য লাভ, সংগ্রাম ইত্যাদি আসবে। এ কথা উল্লেখ করতেই হয় যে দলে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর উপস্থিতি কংগ্রেসকে অনেক সুবিধা এনে দেবে।
ফেডারেল ফ্রন্ট: ১৯ মার্চ, ২০১৮, দুপুর ১২.৩০ কে ফেডারেল ফ্রন্টের জন্ম ধরে নিলে যে কুণ্ডলীটি হয় তার রাশি মীন ও লগ্ন মিথুন। লগ্নের সপ্তমে শনি-মঙ্গলের উপস্থিতি মান-অভিমান, ঝামেলা ও আইনি বড়সড় জটিলতার কারক। দ্বিতীয়ে রাহুর উপস্থিতি কলহকারক। লগ্নপতি বুধ নীচস্থ। যা অশুভ। বর্তমানে বুধ-বৃহস্পতির দশান্তর্দশা চলছে। বৃহস্পতি বক্রী ও বুধ নীচস্থ। বৃহস্পতি ৩, ৫, ৭, ৯, ১০-এর নির্দেশ দেওয়ায় উন্নত পরিকল্পনা ও ব্যাপক সাড়া মিললেও গ্রহ বক্রী তাই বহু প্রচেষ্টার পর সাফল্য আসবে। বলা বাহুল্য মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ফেডারেল ফ্রন্টের প্রধান মুখ।
সুদীর্ঘ আলোচনার পর এখন আমাদের সিদ্ধান্ত বা ফলাফলের দিকে আসতেই হয়। সার্বিক মূল্যায়নের প্রথমেই ১১ এপ্রিল থেকে ১৯ মে অবধি গোচর দেখে নেওয়া কর্তব্য। ৭ দফায় ভোট হবে। তাই ৭ দিনের গোচরটি হল—
১১ এপ্রিল: রবি মীনে, মঙ্গল বৃষে, বক্রী বৃহস্পতি ধনুতে, শনি ধনুতে।
১৮ এপ্রিল: রবি মেষে প্রবেশ করছে। বাকি অপরিবর্তিত।
২৩ এপ্রিল: বৃহস্পতি পুনরায় বৃশ্চিকে। বাকি অপরিবর্তিত।
২৯ এপ্রিল: কোনও পরিবর্তন নেই।
৬ মে: শনি বক্রী। মঙ্গল মিথুনে প্রবেশ করার মুখে।
১২ মে: মঙ্গল মিথুনে। বাকি অপরিবর্তিত।
১৯ মে: রবি বৃষে। বাকি অপরিবর্তিত।
এটা স্পষ্ট যে ১১ এপ্রিল থেকে ১৯ মে গোচরে ব্যাপক পরিবর্তন হচ্ছে যা মানুষের মনে দ্বন্দ্ব বা দ্বৈত মানসিকতা আসতে পারে। এর ফলে কোনও দফায় বিজেপি, কোনও দফায় কংগ্রেস আবার কোনও দফায় আঞ্চলিক দলগুলি সুবিধা পাবে। বিশেষত শনি-বৃহস্পতির বক্রতা ব্যাপক তাৎপর্যপূর্ণ। রাহু-কেতু মঙ্গলের গোচর হানাহানি ও ঝামেলার কারক। ফলাফল ঘোষণার মুহূর্তে অর্থাৎ ২৩ মে বিকেলে চন্দ্রের অবস্থান কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন সরকার বিজেপির তৃতীয়ে, শনি-কেতু দ্বিতীয়ে, বৃহস্পতি লগ্নে। তাই সংগ্রাম ও বাধার মধ্যে দিয়ে যেতে হবে।
ভারতের লগ্নের অষ্টমে শনির উপস্থিতি রাজনৈতিক বিশৃঙ্খলতা নির্দেশ করছে। সরকার গঠনে ঝামেলা ও বাধা হবেই। হঠাৎ অপ্রত্যাশিত ফলাফল হবে। কোনও পক্ষই ব্যাপক অর্থে সাফল্য না পাওয়ার যোগ। বলা বাহুল্য— শনি-বৃহস্পতির অষ্টমে গোচর কোনও বয়স্ক-অভিজ্ঞ নেতা/নেত্রীকেই বেছে নেবে।
তবে এটাও ঠিক, জ্যোতিষশাস্ত্রে গ্রহ-নক্ষত্রের অবস্থান আর সংখ্যাতত্বের পর্যালোচনায় রাশিচক্র অনুযায়ী আগাম ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়ে থাকে। এটা মনে রাখতে হবে রাশি কখনও ভাগ্যের নিয়ন্ত্রক হতে পারে না। মানুষের কর্মই নিয়ন্ত্রণ করে তার ভাগ্যকে। জ্যোতিষশাস্ত্র কেবল কিছু সূত্র ধরে সম্ভাবনার পথ বাতলে দেয় মাত্র।
21st  April, 2019
লকডাউনের দিনগুলি
ডাঃ শ্যামল চক্রবর্তী

মুখ্যমন্ত্রী দাঁড়িয়ে আছেন গাইনি বাড়ির উল্টোদিকে কার্ডিওলজি বিল্ডিংয়ের সামনে। পাশে পুলিস কমিশনার। খবর পেয়ে দ্রুত ওখানে চলে এলেন হাসপাতালের মেডিক্যাল সুপারিন্টেন্ডেন্ট ও ডেপুটি সুপার। মিটার দেড়েক দূরত্ব, করজোড়ে মুখ্যমন্ত্রী... ‘খুব ভালো কাজ করছেন আপনারা।
বিশদ

24th  May, 2020
করোনা কক্ষের ডায়েরি
ডাঃ চন্দ্রাশিস চক্রবর্তী

 গত ১০০ বছরে পৃথিবী এরকম মহামারী দেখেনি। শহরের প্রায় সমস্ত বড় হাসপাতালে এখন করোনা আক্রান্ত রোগী ভর্তি। ফলে আউটডোর চলছে গুটিকয়েক রোগী নিয়ে, হাসপাতালের ক্যান্টিন বন্ধ, ভিতরের রাস্তাগুলো ফাঁকা, বাইরে গাড়ির লাইন নেই…।
বিশদ

24th  May, 2020
এয়ারলিফট 
সমৃদ্ধ দত্ত

একটা স্তব্ধতা তৈরি হল ঘরে। সন্ধ্যা হয়েছে অনেকক্ষণ। এখন আর বেশি কর্মী নেই। অনেকেই বাড়ি চলে গিয়েছেন। তবু কিছু লাস্ট মিনিট আপডেট করার থাকে। তাই কয়েকজন এখনও রয়েছেন অফিসে। তাঁদেরও ফিরতে হবে।  
বিশদ

17th  May, 2020
রবির মানিক 

শ্রীকান্ত আচার্য: অতীতে কলকাতায় বরাবরই ঠাকুর পরিবার এবং রায়চৌধুরী পরিবার, সব দিক থেকে অত্যন্ত সমৃদ্ধ ছিল। তা সে জ্ঞানের পরিধি বলুন বা সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডল—সব ক্ষেত্রেই এই দুই পরিবার উন্নত করেছে বাংলাকে। উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরীর জন্ম ১৮৬৩ সালে।  
বিশদ

10th  May, 2020
অনুরাগের রবি ঠাকুর 

সন্দীপ রায়: বাবার কলাভবনে ভর্তি হওয়া থেকেই রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সঙ্গে সংযোগটা একরকম তৈরি হয়ে গিয়েছিল। যদিও আপনারা জানবেন, শৈশবে ওঁর মোটেই শান্তিনিকেতন যাওয়ার ইচ্ছে ছিল না। তবে হ্যাঁ, সেখানে গিয়ে কিন্তু তাঁর অবশ্যই মন পরিবর্তন হয়েছিল। 
বিশদ

10th  May, 2020
‘ছবিটা ভাই ভালো হয়েছে। তবে
চলবে কি না, বলতে পারছি না!’ 

প্রশ্ন: ‘চারুলতা’-র জন্য নিজেকে কীভাবে তৈরি করেছিলেন?
মাধবী: ছ’বছর বয়স থেকে কাজ করা শুরু করেছিলাম। তারপর নানা পথ পেরিয়ে প্রেমেন্দ্র মিত্রের সঙ্গে কাজ। ‘সাহসিকা’ বলে একটি ছবিতে হিরোইনের ছেলেবেলার চরিত্রে অভিনয় করেছিলাম। 
বিশদ

10th  May, 2020
বন্ধু আমার...
দীপ্তি নাভাল

আমি হতবাক: আমি বাকরুদ্ধ। চিন্টুর চলে যাওয়া কিছুতেই মেনে নিতে পারছি না। তবে অসুস্থতার খবর আগেই পেয়েছিলাম। চিন্টুর মৃত্যুর আগের দিন ইরফানের খবরটা পাই। তখনই মানসিকভাবে বেশ দুর্বল হয়ে পড়েছিলাম। এর পরপরই খবর আসে যে চিন্টু অসুস্থ। বিশদ

03rd  May, 2020
তোমার স্মৃতিতে...
অমিতাভ বচ্চন

দেওনার কটেজে প্রথম দেখেছিলাম চিন্টুকে। প্রচণ্ড হাসিখুশি, প্রাণবন্ত এক তরুণ। দু’চোখ ভরা দুষ্টুমি। দিনটা আমার কাছে সত্যি বিরল। কারণ, রাজ জি’র বাড়িতে আমন্ত্রণ পাওয়ার মতো সৌভাগ্য আমার তখন খুব একটা হতো না। তারপর থেকে আরও বেশি করে দেখতাম ওকে... আর কে স্টুডিওয়। 
বিশদ

03rd  May, 2020
বিদায়
তিগমাংশু ধুলিয়া

দীর্ঘ ৩৪ বছরের বন্ধুত্ব তাঁদের। ইরফান খানের সঙ্গে জাতীয় পুরস্কারজয়ী পরিচালক-অভিনেতা তিগমাংশু ধুলিয়ার পথ চলা শুরু ‘ন্যাশনাল স্কুল অব ড্রামা’ র আঙিনা থেকে। এরপর তিগমাংশুর পরিচালনায় হাসিল, চরস, পান সিং তোমার, সাহেব বিবি অউর গ্যাংস্টার রিটার্নস ছাড়া একাধিক টেলিভিশন অনুষ্ঠানে কাজ করেছেন ইরফান।
বিশদ

03rd  May, 2020
প রি বা র...
সুতপা, বাবিল, অয়ন
সুতপা শিকদার

 পরিবারের পক্ষ থেকে লিখতে বসে একটাই প্রশ্ন বারবার মনে আসছে... কী করে লিখব? এটা কি শুধু আমার পরিবারের ক্ষতি? গোটা দুনিয়াকে দেখছি... সবাই যেন পাথর হয়ে গিয়েছে ও চলে যাওয়ার পর। বিশদ

03rd  May, 2020
অক্ষয় হোক এই তৃতীয়া!
সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

 ভারতবর্ষ সেই দেশ, যে দেশের মানুষ সৃষ্টির আদিতে শুনেছিল স্রষ্টার কণ্ঠস্বর—তোমরা সবাই অমৃতের পুত্র। গড়ে উঠেছিল অপূর্ব এক শান্ত সভ্যতা। পেয়েছিল একটি ধর্ম, যার মূল কথা ছিল জীবনের চারটি স্তম্ভ— ধর্ম, অর্থ, কাম, মোক্ষ।
বিশদ

26th  April, 2020
কেমন যাবে ১৪২৭
শ্রীশাণ্ডিল্য

  ১৪২৭ সালের সূচনাকালে রাশিচক্রে নবগ্রহের অবস্থান— রবি মেষে, শুক্র বৃষে, রাহু মিথুনে, চন্দ্র ও কেতু ধনুতে, মকরে বৃহস্পতি, শনি, মঙ্গল ও মীনে বুধ। তিথি— কৃষ্ণ সপ্তমী, শিবযোগ,ববকরণ পূর্বাষাঢ়া নক্ষত্র। মেষ থেকে লগ্ন আরম্ভ। বারোটি রাশির নতুন বছরের ভাগ্যবিচার। তাই ‘অন্নগতপ্রাণ’ মানুষের আর্থ-সামাজিক, পারিবারিক ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্বকেই প্রাধান্য দেওয়া হল।
বিশদ

19th  April, 2020
 টি ২০ নয়,
এটা টেস্ট ম্যাচ

পিজি হাসপাতালের লিভার সংক্রান্ত বিদ্যা হেপাটোলজি’র অধ্যাপক। পূর্ব ভারতের সরকারিভাবে লিভার ট্রান্সপ্লান্টেশনের অন্যতম উদ্যোগী মানুষ। পাশাপাশি করোনা মোকাবিলায় তৈরি রাজ্যের একাধিক শীর্ষ কমিটির সদস্য, কো-অর্ডিনেটর। একইসঙ্গে অনেকগুলি দায়িত্ব পালন করছেন বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ অভিজিৎ চৌধুরী। সাক্ষাৎকারে বিশ্বজিৎ দাস।
বিশদ

12th  April, 2020
সামাজিক দূরত্বই ওষুধ
ডাঃ দেবী শেঠি
বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ

 ১৯১৮ সালে আমেরিকায় আঘাত হানল ভয়ঙ্কর স্প্যানিশ ফ্লু। ফিলাডেলফিয়া প্রদেশে প্রাণহানি হল হাজার হাজার মানুষের। অথচ, ওই একই মহামারীর প্রকোপে সেন্ট লুইস শহরে প্রাণহানি ঘটল ফিলাডেলফিয়ার তুলনায় অর্ধেক! কারণ ভয়ঙ্কর মহামারীর ওই আতঙ্কের আবহেও, ফিলাডেলফিয়ায় প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সমর্থনে আয়োজিত হয়েছিল বিরাট জন সমাবেশের। বিশদ

12th  April, 2020
একনজরে
  নিজস্ব প্রতিনিধি, চুঁচুড়া: হুগলিতে পাট চাষের বিকল্প হিসেবে গত কয়েক বছর ধরেই তিল চাষ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল। উম-পুনের জেরে সেই তিল ও বাদাম চাষ ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়ায় চাষিদের মাথায় হাত পড়েছে। সরকারি হিসেবেই জেলার তিল চাষের সবটুকু নষ্ট ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, শিলিগুড়ি ও সংবাদদাতা, দার্জিলিং: দিল্লি থেকে রওনা দেওয়া শ্রমিক ট্রেনে মৃত মহিলার নিথর দেহ এল কালিম্পংয়ে। মৃতের নাম কিপা শেরপা(৫১)। শুক্রবার বিকালে সড়ক পথে তাঁর মৃতদেহ কালিম্পংয়ে আনা হয়।  ...

সংবাদদাতা, কালনা: বেঙ্গালুরুতে নার্সিং পড়তে গিয়ে আটকে পড়া কালনার ২০জন পড়ুয়াকে বাসে বাড়ি ফেরানো হল। তাঁদের কালনা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে মেডিক্যাল চেক আপের পর ১৪দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়। এর ফলে স্বস্তিতে পড়ুয়াদের পরিবারের লোকজন।  ...

নয়াদিল্লি, ২৯ মে: আইপিএলে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক হিসেবে চারবার ট্রফি হাতে তুলেছেন। ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে সাফল্যের নিরিখে অনেকেই তাঁকে মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গে তুলনা করেন। কারণ ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চশিক্ষা ও গবেষণায় সাফল্যলাভ। প্রিয়জনের স্বাস্থ্যে অবনতি। কর্মে সাফল্য। ব্যবসায় মন্দাবৃদ্ধি।প্রতিকারঃ আজ হলুদ রঙের পোশাক ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭৪৪: ইংরেজ লেখক আলেক্সজান্ডার পোপের মৃত্যু
১৭৭৮: ফ্রান্সের লেখক এবং দার্শনিক ভলতেয়ারের মৃত্যু
১৯১২: বিমান আবিষ্কারক উইলবার রাইটের মৃত্যু
১৯১৯: জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘নাইট’ উপাধি ত্যাগ
১৯৪০: জগমোহন ডালমিয়ার জন্ম
১৯৪৫: অভিনেতা ধৃতিমান চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৫০: অভিনেতা পরেশ রাওয়ালের জন্ম
১৯৮৭: ভারতের ২৫তম রাজ্যের স্বীকৃতি পেল গোয়া
২০১৩: চিত্র পরিচালক ঋতুপর্ণ ঘোষের মৃত্যু



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৮১.৭৯ টাকা ৮৬.২২ টাকা
পাউন্ড ৯০.৯৩ টাকা ৯৫.৮৩ টাকা
ইউরো ৭৩.৮১ টাকা ৭৭.৫৫ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৩০ মে ২০২০, শনিবার, অষ্টমী ৩৭/৩৫ রাত্রি ৭/৫৮। মঘা নক্ষত্র ২/৪৭ প্রাতঃ ৬/৩ পরে পূর্বফল্গুনী ৫৯/২৭ রাত্রি ৪/৪৩। সূর্যোদয় ৪/৫৫/৫৫, সূর্যাস্ত ৬/১২/৫। অমৃতযোগ দিবা ৩/৩১ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৬/৫৪ গতে ৭/৩৮ মধ্যে পুনঃ ১১/১২ গতে ১/২১ মধ্যে পুনঃ ২/৪৭ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৬/৩৬ মধ্যে পুনঃ ১/১৩ গতে ২/৫৩ মধ্যে পুনঃ ৪/৩৩ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ৭/৩২ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৬ গতে উদয়াবধি।
১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৩০ মে ২০২০, শনিবার, অষ্টমী অপরাহ্ন ৪/৫৮। পূর্ব্বফল্গুনীনক্ষত্র রাত্রি ২/১৩। সূর্যোদয় ৪/৫৬, সূর্যাস্ত ৬/১৩। অমৃতযোগ দিবা ৩/৩৮ গতে ৬/১৪ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪ গতে ৭/৪৬ মধ্যে ও ১১/১৬ গতে ১/২২ মধ্যে ও ২/৪৮ গতে ৪/৫৬ মধ্যে। কালবেলা ৬/৩৬ মধ্যে ও ১/১৫ গতে ২/৫৪ মধ্যে ও ৪/৩৪ গতে ৬/১৪ মধ্যে। কালরাত্রি ৭/৩৪ মধ্যে ও ৩/৫৬ গতে ৪/৫৬ মধ্যে।
৬ শওয়াল

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
বিসিসিআই খেলরত্ন ও অর্জুনের জন্য কার কার নাম মনোনিত করল
খেলরত্নের জন্য রহিত শর্মার নাম এবং শিখর ধাওয়ান, ইশান্ত শর্মা ...বিশদ

07:26:27 PM

৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ল লকডাউন 
পঞ্চম দফার লকডাউনের ঘোষণা করে দিল কেন্দ্রীয় সরকার। শনিবার এই ...বিশদ

07:01:00 PM

রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজার ছাড়াল 
পাঁচ হাজার ছাড়িয়ে গেল রাজ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। শনিবার ...বিশদ

06:34:21 PM

লকডাউন ১৫ জুন পর্যন্ত বাড়াল মধ্যপ্রদেশ সরকার 
চতুর্থ দফার লকডাউন শেষের আগেই রাজ্যে পঞ্চম দফার ঘোষণা করে ...বিশদ

06:18:11 PM

কর্ণাটকে করোনা পজিটিভ আরও ১৪১ জন, রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২,৯২২ 

05:55:20 PM

১ জুন খুলছে না কল্যাণেশ্বরী মন্দির 
রাজ্য সরকার ১ জুন থেকে ধর্মীয় স্থান খোলার বিষয়ে সবুজ ...বিশদ

03:28:20 PM