Bartaman Patrika
বিকিকিনি
 

জঙ্গলমহলের ডুয়ার্স

সপ্তাহান্তের ভ্রমণের জন্য দুয়ারসিনির জঙ্গল আদর্শ। বর্ণনায় অমর নন্দী।

সত্যিই খুব দূরে নয়, কলকাতা থেকে মাত্র তিন ঘণ্টা দশ মিনিটে ইস্পাত এক্সপ্রেস যখন ঘাটশিলা নামিয়ে দিয়ে গেল ঘড়িতে তখন পৌনে দশটা। দলমা পাহাড় আর সাতগুরুং নদীর ধারে পুরুলিয়ার দুয়ারসিনি পৌঁছতে লাগল আরও ঘণ্টাখানেক। আগে অনেক এক্সপ্রেস ট্রেনই গালুডিতে থামত। তখন যাওয়াটা আরও সহজ ছিল। গালুডি থেকে অটো করেই দুয়ারসিনি পৌঁছানো যেত। আপাতত ঘাটশিলা থেকেই টাটাসুমো ভাড়া করেছি আমরা।
গালুডি পার হয়েছি অনেকক্ষণ। অরণ্য পাহাড় ভেদ করে পিচ রাস্তায় চড়াই উতরাই পার হয়ে চলেছি। এই সবুজ যাত্রাপথে আমাদের সঙ্গে লাফিয়ে লাফিয়ে সদ্যযৌবনা চঞ্চলা আদিবাসী কন্যার মতো উচ্ছল সাতগুরুং নদী চলেছে পাশে পাশে। আমাদের সারথি অর্থাৎ ড্রাইভার কৃষ্ণদা বললেন ‘এই নদীর নাম সাতগুরুং কেন জানেন? সাতবার পাক খেয়ে নদীটি দুয়ারসিনি এসেছে।’ এখন অবশ্য ছোট কয়েকটা সেতু দুয়ারসিনির দূরত্বকে অনেকটাই কমিয়ে দিয়েছে। চলতে চলতে গালুডি থেকে প্রায় কুড়ি কিলোমিটার যাত্রা শেষে পৌঁছলাম দুয়ারসিনি। সদ্য বর্ষা শেষে শাল, পিয়াল, গামহার, কেন্দুপাতার ঘন সবুজ রং, মনের অন্তরে আনন্দ ভৈরবীর সুর তুলে চলেছে একটানা। অবশেষে দুয়ারসিনির সেই বনবাংলোয়। অরণ্যের ক্যানভাসে আসমানি নীলে বর্ণময় তিনটি গোলাকৃতি কটেজ শিল্পীর আঁকা ছবির মতো। সামনে বিস্তৃত লন। টেবিলে চেয়ার পাতা। পিছন দিকে দলমার পাহাড়। অখণ্ড অবসর কাটানোর নিশ্চিন্ত ঠিকানা।
শনিবার দুয়ারসিনির হাট। হাটে যাওয়ার পথেই মন্দির। তার মধ্যে কালো পাথরের মূর্তিকে পাহাড়ের মা বা মা দুর্গা হিসেবে পুজো করে আদিবাসীরা। মন্দিরে দেখা পূজারি ভবানী সিং লায়ার সঙ্গে। বললেন, বংশপরম্পরায় ভূমিজ আদিবাসী শ্রেণির মানুষই পূজারির দায়িত্ব পান। বাদল সিং ছিলেন প্রথম পূজারি। আশপাশের জেলা লাগোয়া ঝাড়খণ্ড, এমনকী কলকাতার মানুষও এখানে মানত করে যান। মূল মন্দির নানা রঙে রঞ্জিত বর্ণময় চূড়াবিশিষ্ট। মন্দিরের পিছনে জঙ্গলে সুড়িপথ চলে গিয়েছে সাতগুরুং নদীর ধারে। যাওয়ার পথে দুয়ারসিনির থান। বলির কাঠ। বর্ষা সবে শেষ। সাতগুরুং সমস্ত শক্তি নিয়ে নীচের পাথরে ঝরনার মতো আছড়ে বয়ে যাচ্ছে পুবের ঘন জঙ্গলে। মকর সংক্রান্তিতে এখানে বসে বিরাট মেলা। স্থানীয় আদিবাসী মহিলারা সে সময় সাতগুরুংয়ের জলে চান করে দণ্ডি কেটে মন্দিরে পূজা দেন। শনিবারে হাটের পসরা নিয়ে চলে এসেছে হাটুরেরা। পাহাড়ের ঠিক কোলে নদীর ধারে হাট। টাটকা সব্জি, গৃহস্থালির জিনিসপত্র, প্রসাধনী, তেলেভাজা মিষ্টির দোকান বসেছে সার দিয়ে। আঞ্চলিক লোকের ভিড় তো বটেই এমনকী আশপাশের গাঁ গঞ্জ থেকেও প্রতি শনিবার লোকজনের ভিড় লাগে হাটে। ওদের নিস্তরঙ্গ, খেটে খাওয়া জীবনে দুয়ারসিনির হাট খোলা জানালার মতো উৎসবের আলো নিয়ে আসে। যুবতী মেয়েরা সাজে চুলে কৌরঞ্জের তেল আর বনফুলে। একধারে কেন্দুগাছের ছায়ায় কিছু মহিলা বসেছে মহুয়া আর হাঁড়িয়া নিয়ে। কয়েকজন বিক্রি করছে বাখর। জানলাম বিভিন্ন গাছের শিকড়বাকড়ের নির্যাস দিয়ে তৈরি বড়ির মতো দেখতে এই বাখর নাকি মহুয়ায় মিশিয়ে খেলে নেশা বাড়ে কয়েকগুণ। হাটের ঠিক মাঝে বিক্রি হচ্ছে তেজিয়াল কিছু মোরগ। শুনলাম মোরগ লড়াইয়ের জন্য অনেক দামে বিকোয় এই মোরগ। মোরগ লড়াই এই অঞ্চলের এক জনপ্রিয় খেলা। গোধূলির সূর্য দলমা পাহাড়ের আড়ালে অস্ত যাওয়ার সঙ্গেই হাটুরেরা বেচাকেনা চুকিয়ে ধীরে ধীরে বাড়ি ফেরার পথ ধরছে। আমরাও আদিবাসীদের হাতে তৈরি বাঁশের কিছু শৌখিন জিনিসপত্র কিনে আর তেলেভাজা সহযোগে চা খেয়ে ধীরে ধীরে বাংলোর দিকে এগলাম।
জঙ্গলমহলের ডুয়ার্স বলে খ্যাত দুয়ারসিনি প্রকৃতি ভ্রমণকেন্দ্রের দেখভালের দায়িত্বে পুরুলিয়ার আসনপানি যৌথ বন পরিচালন কমিটি। দুয়ারসিনি ঘিরে আগামী দিনে বেশ কিছু পরিকল্পনা রয়েছে বনদপ্তরের। কটেজগুলির পিছনেই আছে একটি পাহাড়। এই পাহাড়ে ট্রেকিং রুট খোলার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এই ক্যাম্পাসে বসানো হবে আরও দুটি টেন্ট। পিয়াল, মহুয়া, বহেড়া, কুসুমের মতো গভীর অরণ্যে এখানে নানান পাখির কলতানে ঘুম ভাঙে। কপাল ভালো হলে দেখা মিলতে পারে বুনো হাতির। এই জঙ্গলে রয়েছে চিতল হরিণ, বুনো শুয়োর। এমনকী নেকড়ের মুখোমুখি হয়ে যাওয়াও অসম্ভব নয়। তাই ট্রেকিং-এর অ্যাডভেঞ্চার ট্যুরিজমের ক্ষেত্রে কিছু সাবধানতা নেওয়া হবে। দুয়ারসিনির প্রায় ২০ কিলোমিটারের মধ্যে ঝাড়খণ্ডের গালুডি ড্যাম আর ঘাটশিলা ঘুরে আসা যায়। নাগরিক কোলাহল আর ক্লান্তি কাটাতে আপনার গন্তব্য হতেই পারে ‘জঙ্গলমহলের ডুয়ার্স’ দুয়ারসিনি।
কীভাবে যাবেন: হাওড়া স্টেশন থেকে বারবিল জনশতাব্দী এক্সপ্রেস, তিতলাগড় ইস্পাত এক্সপ্রেস, রাঁচি ইন্টারসিটি এক্সপ্রেসে ঘাটশিলা নেমে সড়ক পথে গালুডি হয়ে দুয়ারসিনি যাওয়া যায়। কলকাতা থেকে সড়কপথে পুরুলিয়ার বান্দোয়ান হয়ে দুয়ারসিনি পৌঁছানো যায়। থাকার জন্য দলমা পাহাড়ের গায়ে বনদপ্তরের অধীনে তিনটি বন বাংলো রয়েছে।
ছবি: বিমল কর্মকার
 
18th  May, 2024
টুকরো খবর

কলকাতার ‘আলোর দিশা’ ও আগরতলার ‘সান্ধ্যনীড়’। নামেই বৃদ্ধাবাস, আসলে বহু মায়ের শেষ বয়সের ঠাঁই। মাতৃদিবসে ‘শ্রীচরণেষু মা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে এই দুই সংস্থার হাতে মোট ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকার চেক তুলে দিল শ্যামসুন্দর কোং জুয়েলার্স। বিশদ

18th  May, 2024
নিরাময়ের ঠিকানা

পেইন ম্যানেজমেন্ট হোক বা লাইফস্টাইল সংক্রান্ত অন্য রোগ, বৈদিক ভিলেজ-এ আছে উপশমের পথ। লিখছেন অন্বেষা দত্ত।   বিশদ

11th  May, 2024
অপরূপ খারদুংলা

বন্ধুর এই পথে বাইকে করে যাওয়া যেন অনন্য এক অভিজ্ঞতা। এখানে বিপদ আর সৌন্দর্যের কোলাকুলি হয় সারাক্ষণ। রোমাঞ্চকর বর্ণনায় রঞ্জন চৌধুরী। বিশদ

11th  May, 2024
প্রসাধনীর হাত ধরে স্বনির্ভর

কীভাবে সম্ভব নিজে হাতে নেলপালিশ তৈরি করা? প্রস্তুতিই বা কেমন?  বিশদ

11th  May, 2024
 টুকরো  খবর

মাদার্স ডে উপলক্ষ্যে ৫ মে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সখী একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল। মহিলারা ওই দিন হলুদ পোশাকে সজ্জিত হয়ে উপস্থিত হন অনুষ্ঠানে। হলুদ বসন্তের রং। বিশদ

11th  May, 2024
মংপুতে রবীন্দ্রনাথ

রবীন্দ্রতীর্থ বলা যায় মংপু-কে। নির্জনতায় ঘেরা এই পাহাড়ি গ্রামের বর্ণনায় প্রীতম সরকার। বিশদ

04th  May, 2024
সানরাইজ-এর পয়লা বরণ

পয়লা বৈশাখ উদযাপন করল আইটিসি-র সানরাইজ পিওর মশলা। বাঙালির ঘরে একশো বছর ধরে সানরাইজ মশলার সমাদর। গত ৪ এপ্রিল থেকে ‘শাহী নববর্ষের শুভেচ্ছা’ উৎসব শুরু হয়। চলে ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত। এই উপলক্ষ্যে একটি প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। বিশদ

04th  May, 2024
টুকরো  খবর

কিশোর ছেলেটি চেনে না তাঁকে। এমনকী, দীর্ঘকায়, ব্যারিটোন ভয়েসের মানুষটি যে ‘ফেলুদা’ নামের চরিত্রটি তৈরি করেছেন, তা পড়া তো দূর, নামই শোনেনি ছেলেটি। এদিকে সেই ঋজু ব্যক্তিত্বের মানুষটি তাঁকে সিনেমা করতে বলছেন! বিশদ

04th  May, 2024
হাতে তৈরি নোটবুক

পকেট থেকে চিরকুটটা বের করে আলতো ধরল সুমন। নীল কালিতে লেখা চার লাইনের চিঠি। এই এসএমএস, হোয়াটসঅ্যাপের যুগে এমন চিঠি সচরাচর দেখা যায় না।
বিশদ

27th  April, 2024
টুকরো খবর

ম্যানগ্রোভ, রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার, নোনা জল — এই শব্দবন্ধগুলির সঙ্গে সুন্দরবন যেন ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে। চিত্র-ভাস্কর্যেও সুন্দরবনের জুড়ি মেলা ভার। তবে সময়ের নিয়মে হারিয়ে যেতে বসেছে সুন্দরবনের এক অনবদ্য চিত্রশিল্প
বিশদ

27th  April, 2024
প্রকৃতির টানে মুক্তেশ্বর

নৈঃশব্দ্যই এখানে আপনার সঙ্গী। পাহাড় আর প্রকৃতির মাঝে কয়েকটা দিন কাটিয়ে আসতে পারেন। উত্তরাখণ্ডের পাহাড়ি সৌন্দর্যের বর্ণনায় কমলিনী চক্রবর্তী।  
বিশদ

27th  April, 2024
ওড়িশায় একফালি তিব্বত

প্রচারের আলো নেই ওড়িশার এই গ্রামে। আছে শুধু শান্ত স্নিগ্ধ পরিবেশ। জিরাং থেকে ঘুরে এসে লিখলেন নন্দিতা মিত্র। বিশদ

20th  April, 2024
শরবতে শীতল শরীর

লু বইছে চারদিকে। এই সময় সুস্থ থাকার অঙ্ক, মেপে খাওয়া ও শরীরকে ঠান্ডা রাখা। কী কী পানীয় থাকবে রুটিনে? হদিশ দিলেন মনীষা মুখোপাধ্যায়। বিশদ

20th  April, 2024
 টুকরো  খবর

পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হল পাথুরিয়াঘাটা রাজবাড়ি। পুরনো বনেদি এই বাড়িকে বরাবর সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছিল। কলকাতার প্রাচীন ঐতিহ্যকে আজও বহন করে আসছে পাথুরিয়াঘাটার খিলাত ভবন। বিশদ

20th  April, 2024
একনজরে
বছর দশেক আগে মণিপুরে ফুটবল প্রতিযোগিতায় খেলতে গিয়েছিলেন। মারাত্মক চোট পান বাঁ হাঁটুতে। বহু চিকিৎসাতেও কোনও কাজ হয়নি। ...

দুর্ঘটনার কবলে ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির হেলিকপ্টার। রবিবার পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশে এই ঘটনা ঘটে। ইরানের সরকারি সংবাদমাধ্যম এ সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানায়নি। ...

লোকাল ট্রেনে বিনা টিকিটে সফর করার প্রবণতা ক্রমশ বাড়ছে। প্রযুক্তির যুগে কাউন্টারের দীর্ঘ লাইন এড়িয়ে মোবাইল কিংবা বিকল্প উপায়ে ট্রেনের টিকিট কাটার সুযোগ রয়েছে। ...

কাঁটাতার দিয়েও থামানো যাচ্ছে না। পাচার রুখতে হিলি সীমান্তের একাধিক এলাকায় কাঁটাতারের উপর প্রায় ৩০ ফুট উচ্চতার জাল লাগাল বিএসএফ। পাচারকারীরা কৌশল বদলে হিলি সীমান্তে কাঁটাতারের ওপারে পাচার সামগ্রী  ছুড়ে দেয় ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

গুরুজনের স্বাস্থ্য নিয়ে চিন্তা ও মানসিক উদ্বেগ। কাজকর্মে বড় কোনও পরিবর্তন নেই। বয়স্কদের স্বাস্থ্য সমস্যা ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব মেট্রোলজি দিবস
১৪৯৮ - ভাস্কো ডা গামা প্রথম ইউরোপীয়, যিনি আজকের দিনে জলপথে ভারতের কালিকট বন্দরে উপস্থিত হন
১৫০৬- ক্রিস্টোফার কলম্বাসের মৃত্যু
১৬০৯ - শেক্সপিয়ারের সনেট প্রথম প্রকাশিত হয় লন্ডনে। প্রকাশক ছিলেন থমাস থর্প
১৮৫৪ - বিশিষ্ট বাঙালি ব্যবসায়ী,সমাজসেবী ও দানবীর মতিলাল শীলের মৃত্যু
১৮৬৭ - মহারানি ভিক্টোরিয়া আজকের দিনে এক বিশেষ অনুষ্ঠানে রয়াল অ্যালবার্ট হলের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন
১৯৩২- স্বাধীনতা সংগ্রামী বিপিনচন্দ্র পালের মৃত্যু
১৯৩২ - ইয়ারহার্ট প্রথম মহিলা ‍যিনি একক উড্ডয়নে আটলান্টিক পাড়ি দেন
১৯৪৭ - বিশিষ্ট কবি প্রবন্ধকার ও শিশুসাহিত্যিক প্যারীমোহন সেনগুপ্তর মৃত্যু
১৯৫২ – প্রাক্তন ক্যামেরুনিয়ান ফুটবলার রজার মিল্লার জন্ম
১৯৭৪ - চলচ্চিত্র পরিচালক, লেখক ও অভিনেতা শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৮৩ - এইচআইভি ভাইরাস সম্পর্কে প্রথম প্রকাশিত হয় সায়েন্স ম্যাগাজিনে
১৯৮৬ - বাংলা ভাষা নিয়ন্ত্রক সংস্থা পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাদেমি প্রতিষ্ঠিত
২০১৯ - বাঙালি লেখক, ঔপন্যাসিক ও অনুবাদক অদ্রীশ বর্ধনের মৃত্যু
২০১৯ -  লেখক, ঔপন্যাসিক ও অনুবাদক অদ্রীশ বর্ধনের মৃত্যু



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৮২.৫৩ টাকা ৮৪.২৭ টাকা
পাউন্ড ১০৪.২৩ টাকা ১০৭.৭১ টাকা
ইউরো ৮৯.২৯ টাকা ৯২.৪৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
19th  May, 2024
পাকা সোনা (১০ গ্রাম)  
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম)  
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম)  
রূপার বাট (প্রতি কেজি)  
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি)  
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

দৃকসিদ্ধ: ৬ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, সোমবার, ২০ মে, ২০২৪। দ্বাদশী ২২/৩৩ দিবা ৩/৫৯। চিত্রা নক্ষত্র অহোরাত্র। সূর্যোদয় ৪/৫৮/২৩, সূর্যাস্ত ৬/৭/৫৩। অমৃতযোগ দিবা ৮/২৯ গতে ১০/১৪ মধ্যে। রাত্রি ৯/১ গতে ১১/৫৫ মধ্যে পুনঃ ১/২১ গতে ২/৪৯ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ৩/৩২ গতে ৪/১৬ মধ্যে। বারবেলা ৬/৩৭ গতে ৮/১৬ মধ্যে পুনঃ ২/৫১ গতে ৪/৩০ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/১২ গতে ১১/৩৩ মধ্যে।   
৬ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, সোমবার, ২০ মে, ২০২৪। দ্বাদশী দিবা ৩/১৭। চিত্রা নক্ষত্র অহোরাত্র। সূর্যোদয় ৪/৫৮, সূর্যাস্ত ৬/১০। অমৃতযোগ দিবা ৮/৩০ গতে ১০/১৬ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৮ গতে ১১/৫৮ মধ্যে ও ১/২২ গতে ২/৫০ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ৩/৩০ গতে ৪/১২ মধ্যে। কালবেলা ৬/৩৭ গতে ৮/১৬ মধ্যে ও ২/৫২ গতে ৪/৩১ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/১৩ গতে ১১/৩৪ মধ্যে।
১১ জেল্কদ।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
লোকসভা নির্বাচনের পঞ্চম দফায় কোন রাজ্যে কত শতাংশ ভোট পড়ল
লোকসভা নির্বাচনের পঞ্চম দফায় আজ, সোমবার পশ্চিমবঙ্গের ৭টি কেন্দ্র সহ ...বিশদ

08:22:49 PM

শ্রীরামপুরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড
ভরসন্ধ্যায় শ্রীরামপুরের পিয়ারাপুর এলাকার একটি স্টকহাউসে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটল। ...বিশদ

07:56:49 PM

লোকসভা নির্বাচন ২০২৪(পঞ্চম দফা): বিকাল ৫টা পর্যন্ত কোন রাজ্যে কত ভোট পড়ল
লোকসভা নির্বাচনের পঞ্চম দফার ভোটগ্রহণপর্ব চলছে। আজ, সোমবার পশ্চিমবঙ্গের ৭টি ...বিশদ

06:30:00 PM

লোকসভা নির্বাচন ২০২৪(পঞ্চম দফা): বিকাল ৫টা পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে কোথায় কত ভোট
লোকসভা নির্বাচনের পঞ্চম দফার ভোটগ্রহণপর্ব চলছে। গোটা দেশের একাধিক রাজ্যের ...বিশদ

06:20:00 PM

কল্যাণীর গয়েশপুরে তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকদের উপর কেন্দ্রীয়বাহিনীর বিরুদ্ধে লাঠিচার্জ করার অভিযোগ

05:35:00 PM

মোদি আপনাদের উন্নয়নে দিন-রাত কাজ করে: মোদি

04:57:00 PM