Bartaman Patrika
রঙ্গভূমি
 

 ভীষণভাবে রাজনৈতিক ও প্রাসঙ্গিক এক নাটক
সীতায়ন

 দীর্ঘ বনবাস কাটিয়ে, রাবণকে যুদ্ধে পরাজিত ও নিহত করে, অবশেষে অযোধ্যা ফিরলেন রামচন্দ্র। স্বামীর অপেক্ষায় থাকা সীতার দুর্বিষহ জীবনযাপনের অবসান হতে চলল। কিন্তু সত্যি কি শেষ হল?
যে নারী লঙ্কাপুরীর অশোকবনে এতদিন অরক্ষিত ছিলেন, রাবণ যাকে হরণ করে নিয়ে গিয়েছিলেন, সেই জানকীর সতীত্বে কি এতটুকু আঁচ লাগেনি? অয্যোধ্যাবাসীর মনে উঁকি দেওয়া প্রশ্ন, রামচন্দ্রের মনে এসেও ধাক্কা মারে। সীতা তাঁর স্ত্রী, সহধর্মিনী। কিন্তু দশরথ নন্দন একই সঙ্গে একটি দেশের রাজা। তাঁর কাছে রাষ্ট্র বড়, আগে প্রজা। প্রজাদের ইচ্ছে, তাদের সুখই রাজার কাছে মুখ্য। তাদের জন্য সামান্য এক নারীকে ত্যাগ দেওয়াটা বড় কথা নয়, হোক না সীতা তাঁর স্ত্রী।
কিন্তু নারীর সূচিতা, শুদ্ধতার প্রশ্ন তোলা হচ্ছে কোন মানদণ্ডের মাপকাঠিতে? সেই মানদণ্ডে কেন পুরুষের শুদ্ধতা মাপা হবে না? সীতা সরাসরি আঙ্গুল তোলেন পুরুষ দ্বারা নির্মিত সমাজের উদ্দেশ্যে। একজন নারী পুরুষের দ্বারা অপমানিত হচ্ছে, অত্যাচারিত হচ্ছে, ধর্ষিত হচ্ছে, তখন কেন সেই শুধু শুচিতার পরীক্ষা দেবে? তার তো কোনও দোষ নেই। পুরুষ কেন পরীক্ষা দেবে না? যে রাম গর্ভবতী স্ত্রীকে গোপনে পরিত্যাগ করতে পারে, যে স্বামী, স্ত্রীর মর্যাদা দিতে পারে না সেই রামচন্দ্রের কাছে সতীত্বের পরীক্ষা সীতা কেন দেবেন?
না-না প্রশ্নগুলো মহাকাব্যের সীতা করেননি, করেছেন ‘সীতায়ন’-এর সীতা। শুধু রামচন্দ্রের কাছেই নয়, সমগ্র পুরুষজাতির উদ্দেশ্যে। পূর্বরঙ্গের নাটক ‘সীতায়ন’এর মধ্যে দিয়ে এক নতুন সীতাকে দর্শকদের সামনে নিয়ে এলেন নাট্যকার-নির্দেশক মলয় রায়। মল্লিকা সেনগুপ্তের উপন্যাস অবলম্বনে মলয় রায়ের ‘সীতায়ন’ হয়ে উঠেছে ভীষণভাবে রাজনৈতিক এবং প্রাসঙ্গিক।
সীতাকে রাবণ হরণ করে নিয়ে এসেছিলেন অশোকবনে। দোষ রাবণের। তাঁর তো কোনও পাপ নেই। যা কিছু পাপ করেছে একজন পুরুষ। ‘সীতায়ন’এর সীতার প্রশ্ন, রাঘব তো দ্বিগুণ পাপ করেছেন। অমন সুন্দর লঙ্কাকে জ্বালানোর খুব প্রয়োজন ছিল কি? যে কারণে কতশত নিরপরাধ নারী, শিশুর মৃত্যু হল। সূর্পণখা শুধুমাত্র প্রেম নিবেদন করেছিল, তাই বলে তার অত ভয়ঙ্কর শাস্তি। এসব পাপ নয়?
আসলে পুরুসাশিত সমাজে পুরুষ, তার চোখ দিয়েই নারীকে দেখতে ভালোবাসে। তার মতো করেই নারীর বিচার করে। নারীর প্রতি অপমান, অবহেলা, অত্যাচার, অন্যায় করার এই বহমানতা মহাকাব্যের যুগ পেরিয়ে আজও চলছে। আধুনিকতার বেড়াজালে নারী এমন ভাবে বন্দি যে তার যাবতীয় আশা-আকাঙ্খা, ইচ্ছে-অনিচ্ছের শেষ কথা বলে সেই পুরুষ। প্রেম বা বিয়েটাও হয়ে ওঠে পুরুষ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কে যদি বিশ্বাস, ভালোবাসা না থাকে তাহলে তো সম্পর্কটাই মিথ্যা। আর এই মিথ্যার জোরেই দশরথ নন্দন অনায়াসে বৈদেহীকে গর্ভবতী অবস্থায় বাল্মিকী আশ্রমে পাঠিয়ে দিতে পেরেছিলেন। ভয়ঙ্কর এক অন্যায় হচ্ছে জেনেও রামচন্দ্রের পুরুষাকার গর্জে ওঠেনি। আসলে তো তিনি পুরুষ সমাজের প্রতিনিধিত্ব করছেন। সমাজের প্রথম শ্রেণিভুক্ত। নারী যে দ্বিতীয় লিঙ্গ। আজও, এই সময়ে দাঁড়িয়ে। যে কারণে সীতাকে পাতাল প্রবেশ করতে হয়, অহল্যাকে পাথর হয়ে যেতে হয়, দ্রৌপদীকে জুয়া খেলায় বন্ধক রাখা যায় আর পদ্মিনীকে আত্মাহুতি দিতে হয়। নারীর হাহাকার, চিৎকার, ছড়িয়ে পড়ে গুজরাত, রাজস্থান হয়ে এই বাংলায়। যে বেদনা অনুরণিত হয় ‘সীতায়ন’এর সীতার মধ্যে। আজ এই ২০১৯-এ দাঁড়িয়ে মনে প্রশ্ন জাগে, নারীর অবস্থানগত পরির্বতন হয়েছে কি? মেয়েরা কবে নিজের শর্তে, নিজের মতো করে বাঁচতে পারবে? এই প্রশ্নগুলোকেই নতুন করে উসকে দেয় পূর্বরঙ্গের ‘সীতায়ন’।
মাত্র দু’জন শিল্পী। রোকেয়া রায় এবং প্লাবন বসু। রোকেয়া কখনও সীতা, কখনও কৌশল্যা, বা অন্য কোনও সাধারণ নারী। প্রত্যেকটি চরিত্রের বিভিন্নতা, বিচিত্রতা তাঁর অভিনয়ে প্রকাশ পায়। বেদনায় মূর্ত হয়ে ওঠা প্রত্যেকটি চরিত্র ভিন্ন হয়ে ওঠে রোকেয়ার শরীরী অভিনয়ের ওঠানামায়, সংলাপের নির্ভুল প্রক্ষেপণে। অভিনয়ের কোথায়, কতটা গভীরতার দরকার, কোথায় উচ্চকিত হওয়া দরকার, কোথায় বা নরম হতে হবে, কখনই বা গর্জে উঠতে হবে – শিল্পীর অসামান্য পরিমিতি বোধ নাটকটি ধরে রাখে শেষ পর্যন্ত। পাশাপাশি রাম, লক্ষ্মণ, বিভীষণ, বাল্মিকীকে অনায়াস দক্ষতায়, নৈপুন্যে মঞ্চে প্রতিষ্ঠা করেন প্লাবন। তাঁর অভিনয় চমক লাগায়। দুরন্ত নৃত্য বিভঙ্গের মধ্যে দিয়ে রোকেয়া আর প্লাবন কত কত চরিত্র হয়ে ওঠে। সমগ্র মঞ্চ তাঁদের ছন্দময়তার সাক্ষী থাকে। বহমান সময়কাল এবং নাটকের মুডকে চমৎকার ধরেছে রোকেয়ার মঞ্চ ভাবনা, পোশাক পরিকল্পনা। নাটকটিকে পরিপূর্ণতা দান করেছে সঙ্গীতাংশ (রোকেয়া-দিশারী-জয়দীপ)। মলয় রায়ের আলো এবং রোকেয়ার প্রপস-এর ব্যবহার তারিফযোগ্য।
অজয় মুখোপাধ্যায়
03rd  August, 2019
একই বৃন্তে... 

মুসলমান যুবক আলম ভালোবাসে হিন্দু যুবতী সোনালিকে। সোনালির মা বাবা এ সম্পর্ক কিছুতেই মেনে নিতে পারেন না। বিয়ে করার আগে অগত্যা সোনালীকে নিয়ে আলম বাংলাদেশে তার নিজের বাড়িতে আসে। আলমের মাও কিন্তু ধর্মের কারণেই মেনে নিতে পারেন না এই সম্পর্ক। সোনালি কিন্তু হাল না ছেড়ে জিতে নেয় আলমের মায়ের মন। 
বিশদ

14th  February, 2020
পঞ্চদশ সাউথ এশিয়ান থিয়েটার ফেস্টিভ্যাল 

আমাদের রাজ্যের মানুষদের মনে একটা ধারণা আছে বিদেশে গিয়ে বুঝি বাঙালিরা নিজেদের কৃষ্টি সংস্কৃতি ভুলে যায়। ধারণাটা পুরোপুরি ভুল না হলেও, এই ধারণার একটা বিপ্রতীপ দিকও আছে। যেখানে দেখা যায় বিদেশে বসবাসকারী বাঙালিরা নিজেদের ভাষা, কৃষ্টি, সংস্কৃতি রক্ষা করার জন্য আপ্রাণ লড়াই যাচ্ছেন। 
বিশদ

14th  February, 2020
মিনার্ভা নাট্য সংস্কৃতি চর্চা কেন্দ্র আয়োজিত
৫ম জাতীয় নাট্য উৎসব 

আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে মিনার্ভা নাট্য সংস্কৃতি চর্চা কেন্দ্রের পঞ্চম ‘জাতীয় নাট্য উৎসব’। মিনার্ভা থিয়েটার, রবীন্দ্র সদন ও মধুসূদন মঞ্চ, এই তিনটি প্রেক্ষাগৃহে আটদিন ধরে চলবে এই নাট্য উৎসব। আগামীকাল রবীন্দ্র সদনে বিকেল সাড়ে পাঁচটায় উৎসবের উদ্বোধন।  
বিশদ

14th  February, 2020
প্রেমের ঘেরাটোপে শয়তানের পদচারণা 

আ কনফেশন অব সাইকোফেনিক— আলোচনাটা এভাবে শুরু করা যায়। জালের ঘেরাটোপের মধ্যে শুরু হয় নাটক— বলা ভালো একটি গল্প বলতে থাকা অনাটক এটি। একটি অন্তরঙ্গ ঘরে, কুলকুল জলের শব্দে, জালের মধ্যে গাঢ় বেগুনি আলোয় ভেসে ওঠে কতকগুলি বিমূর্ত হাত।
বিশদ

14th  February, 2020
যুদ্ধের ন্যায় ও ন্যায়ের যুদ্ধ 

ন্যায় কোনটা? আর অন্যায়টাই বা কী? এ নিরূপণ করা খুবই দুরূহ। যুদ্ধের প্রাক্কালে উভয়পক্ষই দাবি করে তাঁরাই ন্যায়ের জন্য যুদ্ধ করছে। কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধের আগে কৃষ্ণ দাবি করেছিলেন তিনি ন্যায়ের পক্ষে লড়াই করছেন, তাই পাণ্ডবদের সহায়তা করছেন। কিন্তু কতটা যুক্তিযুক্ত ছিল সেই দাবি? কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধে কি সত্যিই ন্যায় রক্ষিত হয়েছিল সদাসর্বদা?
বিশদ

14th  February, 2020
এনএসডি-র আদিরঙ মাতিয়ে দিল দ্বারোন্দা 

ইউক্যালিপটাসের সুউচ্চ গাছগুলোর মাথায় মেঘমুক্ত পশ্চিমাকাশে ধ্রুবতারাটা জ্বলজ্বল করছিল। শেষ লগ্নে এসেও শীত তার দাপট জানান দিচ্ছে তীব্র হিমেল হাওয়ায়। তবু বোলপুরের দ্বারোন্দা গ্রামের মুক্ত প্রান্তরে মানুষের ভিড় কম নয়। চলছে দিল্লির ন্যাশনাল স্কুল অব ড্রামা (এনএসডি) আয়োজিত ‘আদিরঙ’ অর্থাৎ আদিবাসী রঙ্গোৎসব। 
বিশদ

14th  February, 2020
কাঁকিনাড়ায় নাট্য উৎসব 

গত ১৪ ও ১৫ ডিসেম্বর কাঁকিনাড়ায় দু’দিনের জন্য নাট্য উৎসবের আয়োজন করেছিল ‘কাঁকিনাড়া স্বস্তি নাট্য শিল্পম’। রথতলা রাজলক্ষ্মী বালিকা বিদ্যালয়ের অডিটোরিয়ামে ওই উৎসবের আয়োজন করা হয়। এবার ছিল চতুর্থ বর্ষ। উৎসবের উদ্বোধন করেন নাট্যকার চন্দন সেন।  
বিশদ

08th  February, 2020
ভারত রঙ্গ মহোৎসবে উপল ভাদুড়ী 

প্রতি বছর ভারত রঙ্গ মহোৎসবের দিকে পাখির চোখ থাকে ভারতবর্ষ সহ কলকাতার নাট্যদলগুলো। কিন্তু বাস্তবে ক’জনেরই বা সেই সৌভাগ্য হয়, এই নাট্যোৎসবে নিজস্ব দলের নাট্য প্রযোজনা মঞ্চস্থ করার! সেই ভাগ্যবানদের মধ্যে অন্যতম ‘দমদম শব্দমুগ্ধ নাট্যকেন্দ্র’। কারণ এবার ২১ তম ভারতরঙ্গ মহোৎসবে স্থান পেয়েছে রাকেশ ঘোষ নির্দেশিত দমদম শব্দমুগ্ধ’র ‘উপল ভাদুড়ী’ নাটকটি। 
বিশদ

08th  February, 2020
মানব মনের গভীরে 

সম্প্রতি ‘দৃষ্টি এখন’ প্রযোজিত পোস্ট মডার্ন অ্যাবসার্ড নাটক ‘দ্য ডার্কনেস ডিগার’ মঞ্চস্থ হল মুক্তাঙ্গন প্রেক্ষাগৃহে অভিষেক দেবরায়ের রচনা ও নির্দেশনায়। নাটকে দুটিমাত্র চরিত্র, সুদীপ (পলাশ হালদার) ও শুভঙ্কর (নাট্যকার-নির্দেশক নিজে)। 
বিশদ

08th  February, 2020
হত্যাকারী কে? 

একটি হত্যা এবং সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঘনিয়ে ওঠা রহস্য নিয়ে সোমনাথ মুখোপাধ্যায়ের নাটক ‘আততায়ী’। ‘নান্দীরঙ্গ’র সাম্প্রতিক প্রযোজনা। অলিভার চেজ এবং স্টিইওয়ার্ট বুরকে-এর নাটকের বঙ্গীয়করণ ঘটিয়েছেন নির্দেশক সোমনাথ মুখোপাধ্যায়।  
বিশদ

08th  February, 2020
এত ভঙ্গ বঙ্গদেশ তবু রঙ্গে ভরা 

গুপ্তকবি কবেই এমন কথা বলে গিয়েছিলেন, কিন্তু আজও, এই একবিংশ শতাব্দীর দ্বিতীয় দশকের শুরুতেও সে কথা অকাট্য হয়েই আছে। এমন এক একটি কাহিনী বাংলা সাহিত্য জুড়ে ছড়িয়ে আছে যেখানে রঙ্গরস উপচে পড়ছে।  
বিশদ

08th  February, 2020
মুকুন্দদাস ও তাঁর স্বদেশি যাত্রা

চারণকবি মুকুন্দদাসের ব্রত ছিল পালাগানের মধ্যে দিয়ে দেশবাসীকে বিদেশি শাসকের বিরুদ্ধে জাগিয়ে তোলা। মুকুন্দদাস ও তাঁর স্বদেশি যাত্রা নিয়ে লিখেছেন সন্দীপন বিশ্বাস। বিশদ

01st  February, 2020
কুলভূষণ একাই টেনেছেন নাটকটি
আত্মকথা

৪২-এর আন্দোলনে কারাবাস করা স্বাধীনতা সংগ্রামী আজকের সফল সাহিত্যিক রাজাধাক্ষ্য। তাঁর জীবনীর ওপর রিসার্চ করতে আসে প্রজ্ঞা। নিত্যদিনের যাওয়া-আসার ফলে বিবাহ বিচ্ছিন্ন প্রৌঢ়ের সঙ্গে প্রজ্ঞার সম্পর্কটা আর কেজো থাকে না।
বিশদ

01st  February, 2020
গল্পই মূল চালিকাশক্তি
প্রস্তর যুগ

মফস্‌সলের স্কুলের ভূগোলের শিক্ষক রবিকান্ত চৌধুরী তাঁর শিক্ষক রথীনবাবুর প্রেরণায় শিক্ষকতাকে নিজের পেশা হিসেবে বেছে নেন। রথীনবাবুর একটি কথা তাঁর মনকে আষ্টেপৃষ্ঠে ঘিরে থাকে, ‘একটি প্রদীপ শত প্রদীপকে প্রজ্বলিত করে।’ সেই বিশ্বাস থেকেই ছাত্র-ছাত্রীদের দেখানোর জন্য দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পাথর সংগ্রহ করেন।
বিশদ

01st  February, 2020
একনজরে
সৌম্যজিৎ সাহা, কলকাতা: শিক্ষাকর্মী নিয়োগ করতে চলেছে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়। তার মধ্যে দীর্ঘ এক দশকেরও বেশি সময় পর ক্লারিকাল পদ এবং প্রায় সাত বছর পর গ্রুপ ডি পদে নিয়োগ হবে। তার লিখিত পরীক্ষার জন্য এই প্রথম একটি বাইরের এজেন্সিকে দায়িত্ব দিল ...

বিএনএ, বহরমপুর: প্রেমিকাকে বাড়িতে ডেকে এনে গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রেমিকের বাড়ির লোকজনদের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার রঘুনাথগঞ্জের কেওড়াপাড়া এলাকার এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। ওই যুবতী জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন।  ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সংগঠনকে স্বীকৃতি দিতে নারাজ উপাচার্য। তাঁর এই ভূমিকার প্রতিবাদ জানিয়েছে অধ্যাপক সংগঠন অ্যাবুটা। এই মর্মে তারা উপাচার্যকে প্রতিবাদপত্রও পাঠিয়েছে। ...

সংবাদদাতা, শিলিগুড়ি: উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে কিরণচন্দ্র মেমোরিয়াল আন্তঃকলেজ টি-২০ ক্রিকেট প্রতিযোগিতায় মঙ্গলবার প্রথম খেলায় বাগডোগরার কালীপদ ঘোষ তরাই মহাবিদ্যালয় ৬ উইকেটে পরাজিত করে বানারহাট কার্তিক ওঁরাও হিন্দি কলেজকে। এদিন টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় কালীপদ ঘোষ তরাই মহাবিদ্যালয়।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

মানসিক অস্থিরতার জন্য পঠন-পাঠনে আগ্রহ কমবে। কর্মপ্রার্থীদের যোগাযোগ থেকে উপকৃত হবেন। ব্যবসায় যুক্ত হলে শুভ। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৪৭৩: জ্যোতির্বিজ্ঞানী কোপারনিকাসের জন্ম
১৬৩০: মারাঠারাজ ছত্রপতি শিবাজির জন্ম
১৮৬১: দক্ষিণেশ্বরে কালীমন্দিরের প্রতিষ্ঠাতা রানি রাসমণির মৃত্যু
১৮৯১: দৈনিক হিসেবে প্রকাশিত হল অমৃতবাজার পত্রিকা
১৯১৫ : ভারতীয় রাজনীতিবিদ গোপালকৃষ্ণ গোখলের মৃত্যু
১৯৭৮: রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী পঙ্কজকুমার মল্লিকের মৃত্যু
১৯৮৬: কম্পিউটার রিজার্ভেশন ব্যবস্থা চালু করল রেল





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৫৯ টাকা ৭২.২৯ টাকা
পাউন্ড ৯১.২৪ টাকা ৯৪.৫৬ টাকা
ইউরো ৭৫.৯২ টাকা ৭৮.৮৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৬৪৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৫১০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,১০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৬,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৬,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৬ ফাল্গুন ১৪২৬, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বুধবার, (মাঘ কৃষ্ণপক্ষ) একাদশী ২২/১১ দিবা ৩/৩। পূর্বাষাঢ়া অহোরাত্র। সূ উ ৬/১০/১৮, অ ৫/৩১/৪, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪০ মধ্যে পুনঃ ৯/৫৭ গতে ১১/২৮ মধ্যে পুনঃ ৩/১৫ গতে ৪/৪৬ মধ্যে। রাত্রি ৬/২২ গতে ৮/৫৪ মধ্যে পুনঃ ১/৫৭ গতে উদায়াবধী। বারবেলা ৯/০ গতে ১০/২৫ মধ্যে পুনঃ ১১/৫০ গতে ১/১৫ মধ্যে। কালরাত্রি ৩/০ গতে ৪/৩৫ মধ্যে।
৬ ফাল্গুন ১৪২৬, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বুধবার, একাদশী ২৭/৪২/৫৮ সন্ধ্যা ৫/১৮/৩৯। মূলা ৬/২৭/৫৬ দিবা ৮/৪৮/৩৮। সূ উ ৬/১৩/২৮, অ ৫/২৯/৫৬। অমৃতযোগ দিবা ৭/৩১ মধ্যে ও ৯/৫১ গতে ১১/২৪ মধ্যে ও ৩/১৮ গতে ৪/৫১ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/২৭ গতে ৮/৫৫ মধ্যে ও ১/৫১ গতে ৬/১৩ মধ্যে। কালবেলা ৯/২/৩৫ গতে ১০/২৭/৮ মধ্যে। কালরাত্রি ৩/২/৩৫ গতে ৪/৩৮/২ মধ্যে।
২৪ জমাদিয়স সানি

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
দেশজুড়ে স্বচ্ছ ভারত অভিযানের দ্বিতীয় ভাগ শুরু করার অনুমোদন দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা 

04:10:17 PM

নিউটাউনে শিশুকন্যাকে নির্যাতনের অভিযোগ
বছর তিনেকের এক শিশুকন্যাকে নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হল এক ...বিশদ

04:01:00 PM

নিউটাউনে বধূকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ স্বামী ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে
নিউটাউনে বধূকে আত্নহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ উঠল স্বামী ও শাশুড়ির ...বিশদ

03:45:00 PM

মাধ্যমিক: চাঁচলে প্রশ্ন ফাঁস করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল পরীক্ষার্থী 
মোবাইলের মাধ্যমে ছবি তুলে প্রশ্ন ফাঁস করতে গিয়ে ধরা পড়ল ...বিশদ

03:14:30 PM

মালদহে টিকটকের মাধ্যমে মাধ্যমিকের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ 
হোয়াটসঅ্যাপের পর এবার টিকটকের মাধ্যমে মাধ্যমিকের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ উঠল। ...বিশদ

03:10:22 PM

মাধ্যমিকের দ্বিতীয় দিনও প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ 
মধ্যশিক্ষা পর্ষদের কড়া ব্যবস্থা। প্রশাসনিক নজরদারি সত্ত্বেও ফের মাধ্যমিকের প্রশ্ন ...বিশদ

01:49:16 PM