Bartaman Patrika
রঙ্গভূমি
 

 ভীষণভাবে রাজনৈতিক ও প্রাসঙ্গিক এক নাটক
সীতায়ন

 দীর্ঘ বনবাস কাটিয়ে, রাবণকে যুদ্ধে পরাজিত ও নিহত করে, অবশেষে অযোধ্যা ফিরলেন রামচন্দ্র। স্বামীর অপেক্ষায় থাকা সীতার দুর্বিষহ জীবনযাপনের অবসান হতে চলল। কিন্তু সত্যি কি শেষ হল?
যে নারী লঙ্কাপুরীর অশোকবনে এতদিন অরক্ষিত ছিলেন, রাবণ যাকে হরণ করে নিয়ে গিয়েছিলেন, সেই জানকীর সতীত্বে কি এতটুকু আঁচ লাগেনি? অয্যোধ্যাবাসীর মনে উঁকি দেওয়া প্রশ্ন, রামচন্দ্রের মনে এসেও ধাক্কা মারে। সীতা তাঁর স্ত্রী, সহধর্মিনী। কিন্তু দশরথ নন্দন একই সঙ্গে একটি দেশের রাজা। তাঁর কাছে রাষ্ট্র বড়, আগে প্রজা। প্রজাদের ইচ্ছে, তাদের সুখই রাজার কাছে মুখ্য। তাদের জন্য সামান্য এক নারীকে ত্যাগ দেওয়াটা বড় কথা নয়, হোক না সীতা তাঁর স্ত্রী।
কিন্তু নারীর সূচিতা, শুদ্ধতার প্রশ্ন তোলা হচ্ছে কোন মানদণ্ডের মাপকাঠিতে? সেই মানদণ্ডে কেন পুরুষের শুদ্ধতা মাপা হবে না? সীতা সরাসরি আঙ্গুল তোলেন পুরুষ দ্বারা নির্মিত সমাজের উদ্দেশ্যে। একজন নারী পুরুষের দ্বারা অপমানিত হচ্ছে, অত্যাচারিত হচ্ছে, ধর্ষিত হচ্ছে, তখন কেন সেই শুধু শুচিতার পরীক্ষা দেবে? তার তো কোনও দোষ নেই। পুরুষ কেন পরীক্ষা দেবে না? যে রাম গর্ভবতী স্ত্রীকে গোপনে পরিত্যাগ করতে পারে, যে স্বামী, স্ত্রীর মর্যাদা দিতে পারে না সেই রামচন্দ্রের কাছে সতীত্বের পরীক্ষা সীতা কেন দেবেন?
না-না প্রশ্নগুলো মহাকাব্যের সীতা করেননি, করেছেন ‘সীতায়ন’-এর সীতা। শুধু রামচন্দ্রের কাছেই নয়, সমগ্র পুরুষজাতির উদ্দেশ্যে। পূর্বরঙ্গের নাটক ‘সীতায়ন’এর মধ্যে দিয়ে এক নতুন সীতাকে দর্শকদের সামনে নিয়ে এলেন নাট্যকার-নির্দেশক মলয় রায়। মল্লিকা সেনগুপ্তের উপন্যাস অবলম্বনে মলয় রায়ের ‘সীতায়ন’ হয়ে উঠেছে ভীষণভাবে রাজনৈতিক এবং প্রাসঙ্গিক।
সীতাকে রাবণ হরণ করে নিয়ে এসেছিলেন অশোকবনে। দোষ রাবণের। তাঁর তো কোনও পাপ নেই। যা কিছু পাপ করেছে একজন পুরুষ। ‘সীতায়ন’এর সীতার প্রশ্ন, রাঘব তো দ্বিগুণ পাপ করেছেন। অমন সুন্দর লঙ্কাকে জ্বালানোর খুব প্রয়োজন ছিল কি? যে কারণে কতশত নিরপরাধ নারী, শিশুর মৃত্যু হল। সূর্পণখা শুধুমাত্র প্রেম নিবেদন করেছিল, তাই বলে তার অত ভয়ঙ্কর শাস্তি। এসব পাপ নয়?
আসলে পুরুসাশিত সমাজে পুরুষ, তার চোখ দিয়েই নারীকে দেখতে ভালোবাসে। তার মতো করেই নারীর বিচার করে। নারীর প্রতি অপমান, অবহেলা, অত্যাচার, অন্যায় করার এই বহমানতা মহাকাব্যের যুগ পেরিয়ে আজও চলছে। আধুনিকতার বেড়াজালে নারী এমন ভাবে বন্দি যে তার যাবতীয় আশা-আকাঙ্খা, ইচ্ছে-অনিচ্ছের শেষ কথা বলে সেই পুরুষ। প্রেম বা বিয়েটাও হয়ে ওঠে পুরুষ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কে যদি বিশ্বাস, ভালোবাসা না থাকে তাহলে তো সম্পর্কটাই মিথ্যা। আর এই মিথ্যার জোরেই দশরথ নন্দন অনায়াসে বৈদেহীকে গর্ভবতী অবস্থায় বাল্মিকী আশ্রমে পাঠিয়ে দিতে পেরেছিলেন। ভয়ঙ্কর এক অন্যায় হচ্ছে জেনেও রামচন্দ্রের পুরুষাকার গর্জে ওঠেনি। আসলে তো তিনি পুরুষ সমাজের প্রতিনিধিত্ব করছেন। সমাজের প্রথম শ্রেণিভুক্ত। নারী যে দ্বিতীয় লিঙ্গ। আজও, এই সময়ে দাঁড়িয়ে। যে কারণে সীতাকে পাতাল প্রবেশ করতে হয়, অহল্যাকে পাথর হয়ে যেতে হয়, দ্রৌপদীকে জুয়া খেলায় বন্ধক রাখা যায় আর পদ্মিনীকে আত্মাহুতি দিতে হয়। নারীর হাহাকার, চিৎকার, ছড়িয়ে পড়ে গুজরাত, রাজস্থান হয়ে এই বাংলায়। যে বেদনা অনুরণিত হয় ‘সীতায়ন’এর সীতার মধ্যে। আজ এই ২০১৯-এ দাঁড়িয়ে মনে প্রশ্ন জাগে, নারীর অবস্থানগত পরির্বতন হয়েছে কি? মেয়েরা কবে নিজের শর্তে, নিজের মতো করে বাঁচতে পারবে? এই প্রশ্নগুলোকেই নতুন করে উসকে দেয় পূর্বরঙ্গের ‘সীতায়ন’।
মাত্র দু’জন শিল্পী। রোকেয়া রায় এবং প্লাবন বসু। রোকেয়া কখনও সীতা, কখনও কৌশল্যা, বা অন্য কোনও সাধারণ নারী। প্রত্যেকটি চরিত্রের বিভিন্নতা, বিচিত্রতা তাঁর অভিনয়ে প্রকাশ পায়। বেদনায় মূর্ত হয়ে ওঠা প্রত্যেকটি চরিত্র ভিন্ন হয়ে ওঠে রোকেয়ার শরীরী অভিনয়ের ওঠানামায়, সংলাপের নির্ভুল প্রক্ষেপণে। অভিনয়ের কোথায়, কতটা গভীরতার দরকার, কোথায় উচ্চকিত হওয়া দরকার, কোথায় বা নরম হতে হবে, কখনই বা গর্জে উঠতে হবে – শিল্পীর অসামান্য পরিমিতি বোধ নাটকটি ধরে রাখে শেষ পর্যন্ত। পাশাপাশি রাম, লক্ষ্মণ, বিভীষণ, বাল্মিকীকে অনায়াস দক্ষতায়, নৈপুন্যে মঞ্চে প্রতিষ্ঠা করেন প্লাবন। তাঁর অভিনয় চমক লাগায়। দুরন্ত নৃত্য বিভঙ্গের মধ্যে দিয়ে রোকেয়া আর প্লাবন কত কত চরিত্র হয়ে ওঠে। সমগ্র মঞ্চ তাঁদের ছন্দময়তার সাক্ষী থাকে। বহমান সময়কাল এবং নাটকের মুডকে চমৎকার ধরেছে রোকেয়ার মঞ্চ ভাবনা, পোশাক পরিকল্পনা। নাটকটিকে পরিপূর্ণতা দান করেছে সঙ্গীতাংশ (রোকেয়া-দিশারী-জয়দীপ)। মলয় রায়ের আলো এবং রোকেয়ার প্রপস-এর ব্যবহার তারিফযোগ্য।
অজয় মুখোপাধ্যায়
03rd  August, 2019
পশুতে মানুষে... 

আমরা প্রায়শই কারও দুর্ব্যবহারে ক্ষুব্ধ হয়ে বলে থাকি — তুই তো জন্তুর মতো ব্যবহার করছিস! প্রশ্ন হল, সত্যি কি এখন এই উপমাটি ব্যবহার করা চলে? কেন না, বর্তমানে এই সমাজবদ্ধ জীবটি, অর্থাৎ মানুষ, সবচেয়ে বেশি হিংস্র, ভয়ঙ্কর, স্বার্থপর এক প্রাণী। যার সঙ্গে কোনও জন্তুরই তুলনা চলে না। 
বিশদ

12th  October, 2019
ধর্মের নামে ব্যবসার এক জ্বলন্ত ঘটনা তুলে ধরে এ নাটক 

ধর্ম ও মানুষের ধর্মীয় আবেগকে পুঁজি করে সারা পৃথিবীজুড়ে এক ব্যবসা চলছে। এক শ্রেণীর অসাধু ব্যক্তি তাদের স্বার্থ চরিতার্থ করতে, নিজেদের প্রভাব-প্রতিপত্তি বৃদ্ধি করতে কাজে লাগাচ্ছে সাধারণ মানুষের এই আবেগকে। 
বিশদ

12th  October, 2019
রংমহল ছাড়েননি 

সামনেই দুর্গাপুজো। ফি বছর মা আসেন পতিগৃহ থেকে পিতৃগৃহে। তেমনই একবার দুর্গা মর্তে আসার প্রাক্কালে পতিদেব মহাদেবের কাছে আর্জি জানালেন যে তিনি মর্তবাসীর দুঃখ-দুর্দশা সইতে পারছেন না। মহাদেব এমন কিছু করুন যাতে মর্তের লোকেদের দুর্গতি দূর হয়।  
বিশদ

12th  October, 2019
রঙরূপের ৫০ পূর্ণ 

পঞ্চাশ বছর পূর্ণ করে একান্নে পা রাখল নাট্যদল রঙরূপ। শারদোৎসবের প্রাক্কালে এই উপলক্ষে তারা আয়জোন করেছিল দুই দিনব্যাপী এক উৎসবের। পয়লা ও দোসরা অক্টোবর, এই দুই দিন বাাংলা অ্যকাডেমি ও অ্যাকাডেমি অব ফাইন আর্টস মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা ও নাটক।  
বিশদ

05th  October, 2019
সমীর সেন-উৎপল রায় যুগলবন্দি সাথীহারা ভালোবাসা 

ফেসবুক-হোয়াটস অ্যাপ-ইনস্টাগ্রামের হড়পা বান যতই আছড়ে পড়ুক না কেন, বঙ্গ জীবনের অঙ্গে পরম্পরা ঐতিহ্যকে মান্যতা দিতে এখনও অভাব হয়নি আন্তরিকতার। তার নমুনা মিলবে বিশ্বভারতী অপেরার ১৪২৬ সনের নয়া পালাগান ‘সাথী হারা ভালোবাসা’য়। নিবেদনে শুভজিৎ সেন। 
বিশদ

05th  October, 2019
বীরত্ব ও আত্মবলিদানের গল্প 

সম্প্রতি গিরিশ মঞ্চে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘বীরপুরুষ’ কবিতাটি নাট্যাঙ্গিকে মঞ্চস্থ করল হাওড়া শিল্পী সংঘ। নাটকে অবশ্য শিশুর বীরত্বর সঙ্গে ভারতীয় সেনাবাহিনীর মেজরের এক মর্মস্পর্শী কাহিনী মিশিয়ে পরিবেশন করা হয়। বিষয়টি অন্যরকম এবং হৃদয়বিদারক সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। 
বিশদ

05th  October, 2019
থিয়েলাভার্সের দুটি নাটক 

থিয়েলার্ভাস প্রযোজিত দুটি ভিন্নধর্মী নাটক ‘অনার্যবারতা ও পশ্চিমবঙ্গ নাট্য আকাদেমির আর্থিক সহায়তায় কর্মশালা ভিত্তিক ‘গাজনাচরের বাজনা’ মঞ্চস্থ হল গিরিশ মঞ্চে। সময়, কাল ও নিয়তি— এই তিনটি বিষয়ের ওপর নির্ভর করে সকলের ভাগ্য। এরাই নির্ধারণ করে প্রত্যেকের গন্তব্য।  
বিশদ

05th  October, 2019
পেশাদারিত্ব না এলে ভালো থিয়েটার হবে না 

...বলতেন প্রয়াত নট ও পরিচালক অজিতেশ বন্দ্যোপাধ্যায়। গত ৩০ সেপ্টেম্বর ছিল তাঁর ৮৬তম জন্মদিন। সেই উপলক্ষে তাঁকে স্মরণ করলেন তাঁর শিষ্য প্রকাশ ভট্টাচার্য। 
বিশদ

05th  October, 2019
দুটি চেয়ার কেন? 

অগ্রজকে কীভাবে সম্মান জানাতে হয় তা শিখেছিলেন বিভাস চক্রবর্তীর থেকেই। তাঁর আসন্ন জন্মদিন উপলক্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করলেন প্রকাশ ভট্টাচার্য।  বিশদ

21st  September, 2019
চণ্ডীতলা প্রম্পটারের কলাকেন্দ্র 

হুগলি জেলার বরিজাহাটি অঞ্চলে নাটকের দল চণ্ডীতলা প্রম্পটারের নিজস্ব উদ্যোগে নির্মিত হয়েছে একটি নাট্যগৃহ ‘কলাকেন্দ্র’-র। আদতে এটি একটি মুক্তমঞ্চ। গত ৮ সেপ্টম্বর নাট্যব্যক্তিত্ব ব্রাত্য বসু এটির উদ্বোধন করেন। 
বিশদ

21st  September, 2019
নট চিন্ময় রায় 

‘চিন্ময় রায় কিন্তু নাটকেরও মানুষ ছিলেন’— মনে করিয়ে দিয়েছেন বিভাস চক্রবর্তী। আসলে ব্যবসায়িক সিনেমায় কমেডিয়ান হিসেবে চিন্ময় রায়ের নামডাকের আড়ালে তাঁর নাটকের সত্তা ঢাকা পড়ে গিয়েছিল। নান্দীকারের সদস্য হিসেবে শুরু করেছিলেন অভিনয় জীবন। পরে ১৯ জন মিলে সে দল ছেড়ে গড়ে তোলেন ‘থিয়েটার ওয়ার্কশপ’। 
বিশদ

21st  September, 2019
বিদ্যাসাগরের দ্বিশত জন্মবর্ষ উপলক্ষে ভ্রান্তিবিলাস 

ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের নাম বাংলার নবজাগরণের একেবারে উপরের সারিতে রয়েছে। বাংলা ভাষা ও সমাজ সংস্কারের কাজ ছাড়াও তিনি বেশকিছু সুখপাঠ্য গল্প, উপন্যাস লিখেছিলেন। তারই একটি ভ্রান্তিবিলাস। শেক্সপিয়রের লেখা ‘কমেডি অব এররস’ অবলম্বনে কাহিনীটি লিখেছিলেন বিদ্যাসাগর। 
বিশদ

21st  September, 2019
নতুন নাটক আজীর 

মহাশ্বেতা দেবীর লেখা গল্প ‘আজীর’ অবলম্বনে ‘নব বারাকপুর কোরাস থিয়েটার’ নির্মাণ করেছে তাদের নতুন নাটক ‘আজীর’। এ গল্প হল সামন্ততান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থার নিষ্ঠুরতার এক জ্বলন্ত দলিল।  
বিশদ

21st  September, 2019
আশুতোষ মুখোপাধ্যায় স্মারক নাট্যোৎসব 

সাহিত্যিক আশুতোষ মুখোপাধ্যায়ের জন্ম শতবর্ষ আগতপ্রায়। সেই উপলক্ষে গত ২০ সেপ্টেম্বর থেকে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তিনদিনব্যাপী এক নাট্যোৎসবের আয়োজন করা হয়েছে কালীঘাটের যোগেশ মাইম অ্যাকাডেমি মঞ্চে। 
বিশদ

21st  September, 2019
একনজরে
সংবাদদাতা, মাথাভাঙা: মাথাভাঙা শহরের রাজ আমলের মদন মোহন বাড়ির দিঘিরপাড় দখল করার অভিযোগ উঠছে পুরসভার বিরুদ্ধে। কোচবিহারের মদন মোহন বাড়ির দেবোত্তর ট্রাস্টের অধীনে থাকা এই দিঘিটি রয়েছে পুরসভার অতিথি নিবাসের পাশেই।  ...

বিএনএ, বাঁকুড়া: ১০০ দিনের কাজের প্রকল্পের সাফল্যের খতিয়ান তুলে ধরতে দিল্লি যাচ্ছে বাঁকুড়া জেলা প্রশাসন। এরজন্য ২৪ অক্টোবর জেলা প্রশাসনের একটি টিম দিল্লির উদ্দেশে রওনা হবে।  ...

মুম্বই, ২২ অক্টোবর (পিটিআই): ডি কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ রাখায় এনসিপি নেতা প্রফুল্ল প্যাটেলকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। এবার সেই মামলায় জড়িত সন্দেহে গ্যাংস্টার ইকবাল মির্চির এক ঘনিষ্ঠ সহযোগীকে গ্রেপ্তার করল তারা। ধৃতের নাম হুমায়ূন মার্চেন্ট। সোমবার রাতে মুম্বই থেকে ...

অভিজিৎ চৌধুরী, চন্দননগর, বিএনএ: শুধু দর্শনীয় প্রতিমা বা মণ্ডপের থিম নয়, জগদ্ধাত্রী পুজোর বিসর্জনের শোভাযাত্রার প্রতিযোগিতায় শ্রেষ্ঠ আসন ছিনিয়ে নিতেও জোর তৎপরতা শুরু হয়েছে চন্দননগরে। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

ব্যবসাসূত্রে উপার্জন বৃদ্ধি। বিদ্যায় মানসিক চঞ্চলতা বাধার কারণ হতে পারে। গুরুজনদের শরীর-স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতন থাকা ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭০৭— ব্রিটেনের প্রথম পার্লামেন্টে অধিবেশন শুরু হল
১৯১৭—অক্টোবর বিপ্লবের ডাক দিলেন লেনিন
১৯২৯—নিউ ইয়র্ক শেয়ার বাজারে মহামন্দার সূচনা
১৯৪৪—দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ: হাঙ্গেরি প্রবেশ করল সোভিয়েতের লাল ফৌজ
২০০২—মস্কোর থিয়েটারে হানা দিয়ে প্রায় ৭০০ দর্শককে পণবন্দি করল চেচেন জঙ্গিরা
২০১২—সাহিত্যিক সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের মৃত্যু  





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.১২ টাকা ৭১.৮২ টাকা
পাউন্ড ৯০.৪৫ টাকা ৯৩.৭৬ টাকা
ইউরো ৭৭.৬৬ টাকা ৮০.৬২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,৮৪৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,৮৫৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭,৪১০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৫,৮৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৫,৯৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৫ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, দশমী ৪৮/৪৩ রাত্রি ১/৯। অশ্লেষা ২৩/৫২ দিবা ৩/১৩। সূ উ ৫/৩৯/৫৭, অ ৫/২/১৯, অমৃতযোগ দিবা ৬/২৫ মধ্যে পুনঃ ৭/১১ গতে ৭/৫৬ মধ্যে পুনঃ ১০/১৩ গতে ১১/২৯ মধ্যে। রাত্রি ৫/৫৪ গতে ৬/৪৪ মধ্যে পুনঃ ৮/২৪ গতে ৩/৯ মধ্যে, বারবেলা ৮/৩০ গতে ৯/৫৬ মধ্যে পুনঃ ১১/২১ গতে ১২/৪৭ মধ্যে, কালরাত্রি ২/৩১ গতে ৪/৬ মধ্যে। 
৫ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, দশমী ৩৮/৩৫/৩১ রাত্রি ৯/৬/৫৪। অশ্লেষা ১৬/২৮/৪০ দিবা ১২/১৬/১০, সূ উ ৫/৪০/৪২, অ ৫/৩/৩২, অমৃতযোগ দিবা ৬/৩৩ মধ্যে ও ৭/১৮ গতে ৮/২ মধ্যে ও ১০/১৪ গতে ১২/২৭ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪৩ গতে ৬/৩৫ মধ্যে ও ৮/১৯ গতে ৩/১৪ মধ্যে, বারবেলা ১১/২২/২ গতে ১২/৪৭/২২ মধ্যে, কালবেলা ৮/৩১/২২ গতে ৯/৫৬/২২ মধ্যে, কালরাত্রি ২/৩১/২২ গতে ৪/৬/২ মধ্যে। 
২৩ শফর 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
৩১ অক্টোবর ভারতে আসছেন জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল 

03:48:10 PM

লালগড়ে পারিবারিক বিবাদের জেরে যুবক খুন 
জমি সংক্রান্ত বিবাদের জেরে গুলি করে ও গলার নলি কেটে ...বিশদ

02:15:39 PM

ডুয়ার্সে বেড়াতে গিয়ে মৃত্যু বারাসতের প্রৌঢ়ের 
ডুয়ার্স বেড়াতে গিয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল এক পর্যটকের। ...বিশদ

02:12:42 PM

কার্শিয়াংয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশাসনিক বৈঠক শুরু 

02:07:00 PM

খিদিরপুরে ৬২০ কেজি শব্দবাজি সহ ধৃত ২ 

01:22:54 PM

কল সেন্টার খুলে প্রতারণার অভিযোগ, ধৃত ৫ 
ভুয়ো কল সেন্টার খুলে বিদেশিদের প্রতারণার অভিযোগে পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করল ...বিশদ

01:03:35 PM