Bartaman Patrika
আমরা মেয়েরা
 

ছক ভাঙার আহ্বান 

আজ আন্তর্জাতিক নারী দিবস। সত্যিই কি নারীদের জন্য আলাদা করে এমন একটি দিনের প্রয়োজন আছে? সমাজের বিভিন্নস্তরের কৃতী নারীদের সঙ্গে কথা বলেছেন কৌশানী মিত্র।

‘এখনও মেয়েদের অনেকটা পথ পেরতে হবে’
অনন্যা চৌধুরী
(ডিরেক্টর, অঞ্জলি জুয়েলার্স)
 আমার কথাগুলো পড়তে হয়তো খারাপ লাগবে। কিন্তু আমি সত্যি মনে করি না যে, একদিন নারীদিবস পালন করলেই সব দায়-দায়িত্ব শেষ হয়ে যায়। আজ নারী দিবস পালন করেই কাল হয়তো সংবাদমাধ্যমে দেখব কোনও এক স্ত্রীকে তার স্বামী গলা টিপে ধরছে বা মারধর করছে আর সেই নারী মুখ বুজে তা সহ্য করতে বাধ্য হচ্ছে। আমার মনে হয় নারীদিবস পালনের থেকে অনেক বেশি জরুরি গ্রামে গ্রামে গিয়ে নারীর ক্ষমতায়নের বিষয়ে কথা বলা। গ্রামে কিন্তু মেয়েদের অবস্থা শহরের মেয়েদের তুলনায় আরও শোচনীয়। কাজেই একদিন উদযাপন না করে বছরের বেশ কয়েকটা দিন নিয়মিতভাবে সেখানে গিয়ে প্রচার চালালে আমার ধারণা মেয়েরা অনেক বেশি উপকৃত হবে।
মহিলাদের সকলের আগে সাপোর্ট দেওয়াটা দরকার। মহিলারা কিন্তু কোনও অংশে কম নন। গ্রামে অনেকক্ষেত্রেই নাবালিকাদের বিয়ে দেওয়া হয়। সেটা রোখার জন্য প্রচার চালাতে হবে। পুরাণের যুগ থেকেই মহিলারা কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। রাজ্যশাসন থেকে কোনওকিছুই বাদ দেননি। চিত্রাঙ্গদার কথাই ভাবুন না। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বিবর্তন হয়। একসময় সতীদাহ প্রথার প্রচলন ছিল। আমরা সেই অবস্থা থেকে বেরিয়ে এসেছি। কিন্তু এখনও মেয়েদের অনেকটা পথ পেরতে হবে।

‘এখনও বিস্তর ফারাক’
গুরু সঞ্চিতা বন্দ্যোপাধ্যায়
(ওড়িশি নৃত্যশিল্পী)
 আমার কাছে ‘নারীদিবস’ অবশ্যই খুব স্পেশাল। কারণ এখনও আমাদের দেশে ছেলে এবং মেয়েদের সমানভাবে দেখা হয় না। কিন্তু প্রাচীন ভারতের দিকে তাকালে দেখব সেখানে কিন্তু নারীদের সম্মান ছিল অনেক বেশি। যেমন এখন স্যানিটারি ন্যাপকিন নিয়ে অনেক আন্দোলন, প্রতিবাদ হওয়ার পরও একটি মেয়ে সবার সামনে দোকানে গিয়ে সেটি কিনতে পারে না, তার অস্বস্তি হয়। অথচ মহাভারতে দ্রৌপদীর সময়কালে তারা রজঃস্বলা অবস্থায় কোনও দ্বিধায় ভুগছে না। কারণ তারা জানে এটি স্বাভাবিক বিষয়। এতে মেয়েদের কোনও হাত নেই। আমি নৃত্য জগতের সঙ্গে ওঠাবসা করি। দেখেছি ছেলেদের নৃত্যজগতে আসা অনেক পরিবার মেনে নিতে পারে না। কিন্তু সেটা কেন হবে? নাচ হলেই বিষয়টাকে অনেকক্ষেত্রে ‘ওটা তো মেয়েদের’ বলে দাগিয়ে দেওয়া হয়। অথচ ওড়িশি সহ নানা শাস্ত্রীয় নৃত্যে কিংবদন্তী গুরুরা ছিলেন পুরুষ। তাহলে কেন আমাদের বাড়ির ছেলেটিকেও আমরা সাহায্য করব না? দীর্ঘদিন ধরেই আমি এর বিরুদ্ধে লড়ছি। নারী-পুরুষ-ট্রান্সজেন্ডার সকলকে নিয়েই আমার ডান্স ট্রুপ। সবকিছুতেই সকলের অধিকার রয়েছে।

‘গ্রামের মেয়েদের অধিকার নিয়ে সচেতন করে তুলতে হবে’
রচিতা দে
(ডিরেক্টর, শ্রীলেদার্স )
 এই বছরের আন্তর্জাতিক নারীদিবসের থিম ‘ইচ ফর ইক্যুয়াল’ অর্থাৎ সকলের জন্য সমানাধিকার। আমার মতে, অবশ্যই এরকম একটি দিনের প্রয়োজনীয়তা আছে বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলে। শহুরে মেয়েরা ইতিমধ্যেই নিজেদের ক্ষমতা প্রতিষ্ঠা করতে শুরু করেছে। এখানে নারীর ক্ষমতায়নের যতটা না দরকার তার থেকে গ্রামে অনেক বেশি জরুরি। কারণ শহরাঞ্চলে দিনবদল শুরু হয়েছে। মহিলা আর পুরষের মধ্যে এখানে অতটা প্রতিদ্বন্দ্বিতা নেই। তারা হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করছে। বাড়িতেও সেটা দেখেছি। আমার বাবা যেমন খুব গাম্ভীর্যপূর্ণ একজন মানুষ, তেমনই মা ঘর সামলানোর পাশাপাশি কর্মক্ষেত্রে নিজের একটা জায়গা তৈরি করে নিয়েছেন। মানে আমি বলতে চাইছি অন্তত এখানে একটা ব্যালান্স আছে। ফলে এবারের থিমকে বাস্তবায়িত করতে গেলে গ্রামাঞ্চলের মহিলাদের আরও বেশি সাহায্য করতে হবে, নিজের অধিকার সম্বন্ধে আরও সচেতন করে তুলতে হবে।

‘পরিবার থেকেই শুরু হোক নারী দিবস’
ইন্দ্রাণী রায়
(জয়েন্ট ম্যানেজিং ডিরেক্টর, মিত্র ও ঘোষ পাবলিশার্স প্রাইভেট লিমিটেড)
 একজন মহিলা হিসাবে আমার ব্যক্তিগতভাবে মনে হয়, এ সমাজে নারীরা ‘সংখ্যালঘু’। এ পৃথিবীতে সবচেয়ে নিপীড়িত-বঞ্চিত এই নারীই। প্রত্যেক বছরই ৮ মার্চ আমরা খুব ঘটা করে নারীদিবস পালন করি। কিন্তু যেই ৮ থেকে ৯-এ পা দিই, অমনি সব আলোচনা, সব শপথ নিমেষে ভুলে যাই। কর্মক্ষেত্রে আমার এক সিনিয়র একবার আমাকে প্রশ্ন করেছিলেন, কী দেখে বোঝা যায় একটা দেশ উন্নত না অবনত? কোন কোন পয়েন্টগুলো বলব ভাবছি। উনি বললেন, ‘মেয়েদের দেখে। যে দেশে মেয়েরা উন্নত, সেই দেশ ততটা উন্নত।’ আমাদের দেশে তো ভ্রণ অবস্থা থেকেই নারীরা অত্যাচারিত। তাই নারী দিবস সাড়ম্বরে পালন না করে প্রতিটি ঘরে ঘরে যে নারীরা রয়েছেন, তাঁদের প্রতি সম্মান এবং সম্ভ্রম প্রদর্শন করতে হবে এবং তা ব্যক্তিগতস্তরেই করতে হবে। আর সেটাই হবে নারী দিবসের প্রকৃত সার্থকতা। কোনও গ্রুপ বা ফোরাম দিনবদল ঘটাতে পারবে না, যতক্ষণ না পর্যন্ত ব্যক্তি সচেতনতা বাড়ছে। তাই বলব, পরিবার থেকেই শুরু হোক নারী দিবস।

‘সাম্যের সূচনা ঘটছে’
প্রিয়াঙ্কা এম
( মাস্টারশেফ)
 আমি এই দিনটা নিয়ে খুব আনন্দিত। কারণ এটা এমন একটা দিন যেদিন আমরা ভাবতে পারি – হ্যাঁ, কোথাও না কোথাও সাম্যের সূচনা হচ্ছে। এটা অবশ্যই ঠিক যে, সব দিন এই একই সমানাধিকার কাম্য। কিন্তু তার মধ্যেও এই দিনটা যেন পিছন ফিরে তাকাতে সাহায্য করে। ভাবতে সাহায্য করে সারা বছরে এই সাম্য আমরা ধরে রাখতে পারছি তো? এইজন্যই এই দিনটা আমাদের নারীদের কাছে বিশেষ দিন এবং খুব দরকারি দিনও বটে। আমি একজন মাস্টার শেফ এবং আমি হলফ করে বলতে পারি রান্নার দিক দিয়ে মেয়েরা এগিয়ে আছে এবং এগিয়ে থাকবেও। ওই জায়গাটি আমাদের থেকে কেউ কেড়ে নিতে পারবে না। সঙ্গে আমরা অন্যান্য বিভাগেও পুরুষদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাব।

‘পুরুষকে পাশে নিয়েই এগতে হবে’
পরমা বন্দ্যোপাধ্যায়
(সঙ্গীতশিল্পী এবং অভিনেত্রী)
 পশ্চিমের দেশগুলিতে প্রথম এই দিনটি সেলিব্রেট করা শুরু হয়। কিন্তু সেখানে এখন সাম্য অনেকটাই, তাই আলাদা করে হয়তো সেই সব দেশে নারীদিবস পালনের প্রয়োজন নেই। কিন্তু প্রাচ্যের দেশগুলিতে মানে আমাদের ভারতের মতো দেশগুলিতে নারীদিবস পালনের দরকার আছে। দিনটা কোথাও গিয়ে একটা চেতনা জাগিয়ে তোলে মানুষের মধ্যে এবং ব্যাক্তিগত ভাবে আমি মনে করি, প্রতিটা পরিবারে এই চেতনা জেগে ওঠা খুবই দরকারি। পরিবার আমাদের সমাজের ‘স্মল ইউনিট’, সেখান থেকেই মানুষের শিক্ষার শুরু। তাই সেই পরিবারেই নারী পুরুষের সাম্যের চেতনা জাগিয়ে তুলতে হবে। শুধু মেয়েরা নয়, মেয়েদের জেগে উঠতে গেলে পাশে পুরুষদের স্তম্ভের মতো দাঁড়াতে হবে। পুরুষকে পাশে নিয়েই এগতে হবে। কারণ একা কোনও গোষ্ঠীর পক্ষে এগিয়ে চলা সম্ভব নয়, মিলিত ভাবেই সেটা করতে হবে। সিনেমার জগতে ‘থাপ্পড়’-এর মতো ছবিগুলি কিছু ক্ষেত্রে চেতনা জাগাতে সাহায্য করছে।

‘রোজকার দিনে লুকিয়ে থাকা লড়াই’
ঈলীনা
(চিত্রশিল্পী)
 একজন চিত্রশিল্পী আমার একমাত্র পরিচয় নয়। আমি একজন সিঙ্গল মাদারও। তাই নানা কাজের মাঝে আমার সন্তানের বড় হয়ে ওঠায় আমি প্রধান সঙ্গী। সন্তান জন্মানোর পর প্রাক্তন স্বামীর সঙ্গে আমার মিউচ্যুয়াল ডিভোর্স হয়। আমি সেই বন্ধন থেকে বেরিয়ে আসি এবং একা সবটা সামলাতে শুরু করি। আমার মা বাড়িতে ভীষণ অসুস্থ। আমি আজ জানি না কাল ওঁর কী হবে। প্রতিটা দিন কাটে অনিশ্চয়তায়। মা খুব অসুস্থ হয়ে পড়লে মেয়ের স্কুলে যাওয়া হয় না, আমি কাজ করতে পারি না। অন্য দিনগুলিতে মেয়েকে আমি স্কুলে ছেড়ে দিয়ে আসি। তারপর ফেরার সময় স্কুলের কাছের পলাশ গাছটির দিকে তাকাই। সেখানে লাল পলাশের ঝাঁক আমায় মনে করায় বিশ্বভারতীর দিনগুলির কথা। মনে করায় আমার পরিবার চায়নি আমাকে আর্ট কলেজে পাঠাতে। কিন্তু সাফল্যের পরে সেই পরিবারকেই আমি পাশে পেয়েছি। আমার কাছে নারীদিবস আমার রোজকার দিনে লুকিয়ে থাকা লড়াই। মেয়েকে মানুষ করে তোলা, মাকে সুস্থ রাখা আর সারাদিনের মাঝে আমার আঁকার জন্য একটু সময় বার করে নেওয়া।

‘আমার গানে রাধা ফেরে না আয়ান ঘোষের কাছে’
দীপান্বিতা আচার্য
(লোকসঙ্গীত শিল্পী)
 আলাদা করে একটা দিন সেলিব্রেট করা যেতেই পারে। কিন্তু আমার সেলিব্রেশনটা প্রতি মূহূর্তে। ছোটবেলায় আমার লড়াই ছিল বাড়ির সঙ্গে। আমার বাবা চায়নি আমি সঙ্গীতজগতে থাকি। কিন্তু আজ খুব ভালো লাগে যখন বাবাকে পাশে পাই। লোকসঙ্গীতের জন্য নানা গ্রামে যেতে হয়, সেখানে গিয়ে অবাক হয়ে দেখি মেয়েরা গানের জগতে এগিয়ে আসছে। পুরুষদের পাশে বা পুরুষদের থেকেও এগিয়ে থাকছে। মনে হয় নারী ক্ষমতায়নকে এর থেকে অন্য আর কী দিয়ে ব্যাখ্যা করা যায়! এটাই তো কাম্য। আমার গানেও তাই রাধা ফিরে যায় না আয়ান ঘোষের কাছে। রাধা তার চার দেওয়ালের বাইরে গিয়ে স্বপ্ন দেখতে শুরু করে। রাধার হাত ধরে গোটা নারী সমাজ মাথা তুলে দাঁড়ায়।
ছবি: দীপেশ মুখোপাধ্যায় 
08th  March, 2020
শতাধিক পুত্র কন্যার মা
নৃত্যশিল্পী অলকানন্দা 

মাতৃরূপী একজন প্রখ্যাত নৃত্যশিল্পী, যিনি ছয় দশকের বেশি সময় ধরে নৃত্য পরিবেশন করে চলেছেন। যাঁর বহু সন্তান পথভ্রষ্ট হওয়ার পরেও তঁার সাহচর্যে এসে নতুন জীবন পেয়েছে। বিভিন্ন বয়সের এই সন্তানদের ‘মা’ অলকানন্দা রায়ের ক্ষেত্রে সমাজসেবিকা খুবই ছোট একটা খেতাব।   বিশদ

28th  March, 2020
এগারো রেস্তোরাঁর মালিক জয়ন্তী 

বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা জয়ন্তী কাঠালে পেশায় একজন সফট্ওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার। ৪০ বছর বয়সি এই মহিলা চাকরি করে নিজের সন্তানকে সময় দিতে পারতেন না। তাই মানসিকভাবে খুবই ভেঙে পড়ছিলেন। তারপরই একদিন সিদ্ধান্ত নেন, খাবার হোম ডেলিভারি শুরু করবেন। 
বিশদ

28th  March, 2020
রাতে নারীদের নিরাপত্তায় বেশি
আলোকিত রাস্তা চেনাবে গুগল ম্যাপ 

এবার গুগল ম্যাপে যুক্ত হতে চলেছে নতুন ফিচার। গুগলের তরফে জানানো হয়েছে, রাতে অন্ধকার রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করতে গিয়ে অনেক মহিলাই সমস্যায় পড়েন। তাদের সাহায্য করতে নতুন ফিচার আনছে গুগল ম্যাপ। 
বিশদ

28th  March, 2020
নারীর স্বভাব 

একটা প্রচলিত ধারণা আছে যে, মেয়েদের মনে নাকি জিলিপির প্যাঁচ। মেয়ে মানেই কূট-কচালিতে সিদ্ধহস্ত। সুযোগ পেলেই কমবয়েসি বিবাহিত মেয়েরা স্বামী-শ্বশুরবাড়ির নিেন্দ করে। আর বয়স্ক শাশুড়িরা সময় পেলেই বাড়ির বউয়ের নিন্দে-মন্দ করে।  
বিশদ

28th  March, 2020
একটি স্কুলে সারা বছরের খাবার পাঠালেন লোপেজ 

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডধারী পপ গায়িকা জেনিফার লোপেজের দরদি মানুষ হিসেবে পরিচিতি রয়েছে। সুযোগ পেলেই মানুষের সেবায় এগিয়ে আসেন তিনি। এবার আমেরিকার টেনেসির একটি স্কুলে এক বছরের খাবার অনুদান দিয়েছেন ৫০ বছর বয়সি এই তারকা। এই উদ্যোগে তাঁকে সহায়তা করেছেন তাঁর বন্ধু অ্যালেক্স রড্রিগেজ।  
বিশদ

21st  March, 2020
‘সুপার মম’-এর প্রেরণায় দিকে দিকে খুলছে মাতৃদুগ্ধের ব্যাঙ্ক 

মাতৃদুগ্ধ প্রয়োজন। অথচ শিশুর আসল মা শরীর অসুস্থ থাকায় শিশুকে দুগ্ধ পান করাতে অপারগ। অথবা অন্য কোনও কারণেই হোক, কোনও শিশুর মাতৃদুগ্ধ প্রয়োজন অথচ তা জোগাড় করা সম্ভব হচ্ছে না। তাহলে উপায়? 
বিশদ

21st  March, 2020
ছয় নারী নভোচারীকে মঙ্গলগ্রহে পাঠাচ্ছে নাসা 

মঙ্গলগ্রহে যাচ্ছে মানুষ। আর সেই যাত্রার জন্য মোট ১৩ নভোচারীকে বাছাই করেছে মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ‘নাসা’। প্রতিষ্ঠানটি সম্প্রতি টেক্সাসে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই নভোচারীদের নাম ঘোষণা করে। ‘নাসা’ জানিয়েছে, ২০৩০ সালে ১৩ নভোচারীকে নিয়ে মঙ্গলগ্রহের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করবে নাসা’র মহাকাশযান। 
বিশদ

21st  March, 2020
নারী জাগরণে আদিবাসী মেয়েদের অংশগ্রহণ 

শান্তিনিকেতনে সুব্রত বসু ও সুনীপা বসুর তত্ত্বাবধানে প্রতিষ্ঠিত প্রকৃতি ভবনের নাম সত্যিই উল্লেখযোগ্য। তবু তাঁদের গড়া প্রকৃতি ভবনের এই জাদুঘরের বর্ণনা ও ব্যাখ্যা এই প্রতিবেদনের মূল উদ্দেশ্য নয়। এই পুণ্যভূমিতে লোকচক্ষুর অন্তরালে যে কাজ প্রায়শই হয় তাই নিয়ে কথা বলাই এই প্রতিবেদনের আলোচ্য বিষয়। 
বিশদ

21st  March, 2020
বয়ঃসন্ধির প্রতি বয়ঃসন্ধির জন্য 

সম্প্রতি গোলপার্ক রামকৃষ্ণ মিশন ইনস্টিটিউট অব কালচার-এর ব্রহ্মানন্দ হলে অনুষ্ঠিত হল বয়ঃসন্ধির যৌনতা ও আইন (Adolescent sexuality and the law) শীর্ষক এক আলোচনা সভা। 
বিশদ

21st  March, 2020
দেশের উন্নয়নে লিঙ্গসাম্য জরুরি 

‘লিঙ্গসাম্য প্রতিষ্ঠা করা আমাদের মানবাধিকার। কন্যাসন্তানকে শিক্ষিত করা হলে সমাজের সামগ্রিক শিক্ষার মানকেই উন্নত করা হয়। বিচার বিভাগ, আইনসভা, প্রশাসন সহ জীবনের প্রতিটি ধাপে মহিলাদের অংশগ্রহণ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে। দেশের আর্থিক বিকাশে নারী পুরুষের সম্মিলিত নেতৃত্ব প্রদান তাই অত্যন্ত জরুরি। 
বিশদ

21st  March, 2020
নারী আত্মশক্তিতে জেগে উঠুক 

নারীবাদ একটা মানসিক সচেতনতা। সেই সচেতনতার মাধ্যমে মেয়েদের স্বনির্ভর হওয়া উচিত। সেই স্বনির্ভরতাকে কাজে লাগিয়ে সমাজকে উন্নত করাই নারীর কর্তব্য।   বিশদ

14th  March, 2020
কাপড়ে নকশার কাজে গ্রামের বধূরা

বসতবাড়ি আর এক চিলতে জমি। জমিতে চাষাবাদ ঠিকমতো হয়ে ওঠে না। রোজগার বলতে স্বামী কাপড়ের দোকানে অস্থায়ী কর্মচারী। দুঃখের সংসারে অভাব দরজায় কড়া নাড়ে। ‘যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে’— এই প্রবাদবাক্যকে সামনে রেখে তারকেশ্বর থানার চাঁদুর গ্রামের এক সহায় সম্বলহীন গৃহবধূ কাজল অদম্য সাহসে জীবনযুদ্ধে শামিল হন।  
বিশদ

14th  March, 2020
শিশু নির্যাতনের আইনি কথা 

শিশুদের প্রতি যাতে কোনও ধরনের যৌন অপরাধ না হয় তার জন্য তাদের নিরাপত্তা দেওয়ার ক্ষেত্রে যে আইন তাকেই ‘পকসো’ বলা হয়। যার পুরো কথা দ্য প্রোটেকশন অব চিলড্রেন ফ্রম সেক্সুয়াল অফেন্সেস অ্যাক্ট ২০১২। 
বিশদ

14th  March, 2020
মহিলাদের ক্ষমতায়নের জন্য মেলা

আমেরিকান কনস্যুলেটের কলকাতার সেন্টারে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হল ‘উইমেন্স এমপাওয়ারমেন্ট ফেয়ার’। সমাজের বুকে ছড়িয়ে থাকা বিভিন্নভাবে নির্যাতিতা নারীদের নির্যাতন বা আক্রমণের বিরুদ্ধে আমেরিকান কনস্যুলেট নানা সমাজসেবী সংগঠনকে নিয়ে এক ছাদের তলায় (কলকাতাস্থিত আমেরিকান সেন্টারে) আয়োজন করেছিল এই মেলার।   বিশদ

14th  March, 2020
একনজরে
 দিব্যেন্দু বিশ্বাস, নয়াদিল্লি, ২৯ মার্চ: করোনার জেরে রেলের প্রায় দেড় কোটি পরীক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ নিয়েই বড়সড় প্রশ্নচিহ্ন উঠে গেল। এনটিপিসির (নন-টেকনিক্যাল পপুলার ক্যাটিগরিস) প্রায় ৩৫ হাজার শূন্যপদে নিয়োগ পরীক্ষা কবে হবে, সেই ব্যাপারে সঠিক উত্তর দিতে পারছে না রেলওয়ে রিক্রুটমেন্ট বোর্ডও ...

সংবাদদাতা, ময়নাগুড়ি: আজ, সোমবার থেকে ময়নাগুড়ি পুরাতন বাজারের মুদিখানা এবং ওষুধের দোকানগুলি অন্যান্য সময়ের মতোই খোলা থাকবে। কিছু দিন আগে ব্যবসায়ী সমিতি বৈঠক করে স্থির করেছিল মুদিখানা দোকান সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টে পর্যন্ত খোলা রাখা হবে।   ...

 রূপাঞ্জনা দত্ত, লন্ডন, ২৯ মার্চ: করোনা ভাইরাস মহামারীর মধ্যে ভারতে আটকে পড়া কয়েক হাজার ব্রিটিশ নাগরিকদের দেশে ফেরাতে বিদেশমন্ত্রী ডমিনিক রাবের কাছে আর্জি জানালেন লন্ডন অ্যাসেম্বলির সদস্য নবীন শাহ। ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনা সংক্রমণজনিত কারণে শিয়ালদহ, আলিপুর ও নগর দায়রা আদালতে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ মামলা শেষ পর্যায়ে এসে শুনানি থমকে গিয়েছে। আইনজীবীদের একাংশের কথায়, ওই সব মামলার কবে নিষ্পত্তি হবে, সেটাই এখন বড় প্রশ্ন। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

ব্যবসায়ে যুক্ত হলে এই মুহূর্তে খুব একটা ভালো যাবে না। প্রেম প্রণয়ে বাধা। কারও সাথে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব চিকিৎসক দিবস
১৮৯৯ - বাঙালি লেখক ও চিত্রনাট্যকার শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯১৯: রাওলাট আইনের বিরুদ্ধে প্রতিরোধের ডাক গান্ধীজির
১৯৪৫: অস্ট্রিয়াকে আক্রমণ করল সোভিয়েত ইউনিয়ন
১৯৫৬- বাংলা ভাষার রূপকথার বিশিষ্ট রচয়িতা ও সংগ্রাহক দক্ষিণারঞ্জন মিত্রমজুমদারের মৃত্যু
১৯৫৬: পরমাণু পরীক্ষা করল সোভিয়েত ইউনিয়ন
১৯৬৫- বাঙালি সাহিত্যিক সতীনাথ ভাদুড়ীর মৃত্যু
১৯৭৯ - মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিশিষ্ট জ্যাজ্ সঙ্গীত শিল্পী, পিয়ানো বাদক এবং অভিনেত্রী নোরা জোন্সের জন্ম
১৯৮১: ওয়াশিংটন ডিসি’র এক হোটেলের বাইরে জন হিঙ্কলে নামে এক ব্যক্তি প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রেগনকে গুলি করেন
১৯৮৬ - স্প্যানিশ ফুটবল খেলোয়াড় সার্জিও র্যামোসের জন্ম
২০০২- বিশিষ্ট কবি ও গীতিকার আনন্দ বক্সীর মৃত্যু
২০১৩ - মার্কিন কবি ও শিক্ষাবিদ ড্যানিয়েল হফম্যানের মৃত্যু





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.৫৯ টাকা ৭৫.৩১ টাকা
পাউন্ড ৮৯.৬০ টাকা ৯২.৮৬ টাকা
ইউরো ৮০.৮৪ টাকা ৮৩.৮৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
28th  March, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

১৬ চৈত্র ১৪২৬, ৩০ মার্চ ২০২০, সোমবার, (চৈত্র শুক্লপক্ষ) ষষ্ঠী ৫৪/১১ রাত্রি ৩/১৫। রোহিণী ২৯/১৭ অপঃ ৫/১৮। সূ উ ৫/৩৪/৫৩, অ ৫/৪৭/৩১, অমৃতযোগ দিবা ৭/১২ মধ্যে পুনঃ ১০/২৭ গতে ১/৫৪ মধ্যে। রাত্রি ৬/৩৫ গতে ৮/৫৬ মধ্যে পুনঃ ১১/১৭ গতে ২/২৫ মধ্যে, বারবেলা ৭/৭ গতে ৮/৩৮ মধ্যে পুনঃ ২/৪৪ গতে ৪/১৬ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/১২ গতে ১১/৪০ মধ্যে।
১৬ চৈত্র ১৪২৬, ৩০ মার্চ ২০২০, সোমবার, ষষ্ঠী ৪২/৪৭/৫১ রাত্রি ১০/৪৩/৫১। রোহিণী ১৯/৫৮/২৮ দিবা ১/৩৬/৬। সূ উ ৫/৩৬/৪৩, অ ৫/৪৭/৪৪। অমৃতযোগ দিবা ৭/৫ মধ্যে ও ১০/২৪ গতে ১২/৫৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৩৭ গতে ৮/৫৬ মধ্যে ও ১১/১৫ গতে ২/২০ মধ্যে। কালবেলা ৭/৮/৬ গতে ৮/৩৯/২৮ মধ্যে।
৫ শাবান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ভূটানে কোয়ারেন্টাইনের সময়সীমা বাড়ল
ভূটানে কোয়ারেন্টাইনের সময়সীমা আগামীকাল থেকে আরও ২১ দিন বাড়ানোর সিদ্ধন্ত ...বিশদ

02:32:45 PM

করোনা: মহরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯ 
আজ মহারাষ্ট্রের পুনেতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৫২ বছরের এক প্রৌঢ়ের ...বিশদ

02:15:42 PM

করোনা: আমেরিকায় নতুন করে আক্রান্ত ২৭৫ জন  

02:08:21 PM

গত কয়েক ঘণ্টায় কোন দেশে নতুন করে কত আক্রান্ত
গত কয়েক ঘণ্টায় নতুন করে ডেনমার্কে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬০ জন, ...বিশদ

02:04:00 PM

১০৯৫ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স 

01:59:09 PM

 মুর্শিদাবাদে ৯টি বাড়িতে আগুন
মুর্শিদাবাদে ৯ টি বাড়িতে আগুন। এই বাড়িগুলি ওই জেলার দৌলতাবাদের ...বিশদ

01:57:45 PM