Bartaman Patrika
আমরা মেয়েরা
 

ছক ভাঙার আহ্বান 

আজ আন্তর্জাতিক নারী দিবস। সত্যিই কি নারীদের জন্য আলাদা করে এমন একটি দিনের প্রয়োজন আছে? সমাজের বিভিন্নস্তরের কৃতী নারীদের সঙ্গে কথা বলেছেন কৌশানী মিত্র।

‘এখনও মেয়েদের অনেকটা পথ পেরতে হবে’
অনন্যা চৌধুরী
(ডিরেক্টর, অঞ্জলি জুয়েলার্স)
 আমার কথাগুলো পড়তে হয়তো খারাপ লাগবে। কিন্তু আমি সত্যি মনে করি না যে, একদিন নারীদিবস পালন করলেই সব দায়-দায়িত্ব শেষ হয়ে যায়। আজ নারী দিবস পালন করেই কাল হয়তো সংবাদমাধ্যমে দেখব কোনও এক স্ত্রীকে তার স্বামী গলা টিপে ধরছে বা মারধর করছে আর সেই নারী মুখ বুজে তা সহ্য করতে বাধ্য হচ্ছে। আমার মনে হয় নারীদিবস পালনের থেকে অনেক বেশি জরুরি গ্রামে গ্রামে গিয়ে নারীর ক্ষমতায়নের বিষয়ে কথা বলা। গ্রামে কিন্তু মেয়েদের অবস্থা শহরের মেয়েদের তুলনায় আরও শোচনীয়। কাজেই একদিন উদযাপন না করে বছরের বেশ কয়েকটা দিন নিয়মিতভাবে সেখানে গিয়ে প্রচার চালালে আমার ধারণা মেয়েরা অনেক বেশি উপকৃত হবে।
মহিলাদের সকলের আগে সাপোর্ট দেওয়াটা দরকার। মহিলারা কিন্তু কোনও অংশে কম নন। গ্রামে অনেকক্ষেত্রেই নাবালিকাদের বিয়ে দেওয়া হয়। সেটা রোখার জন্য প্রচার চালাতে হবে। পুরাণের যুগ থেকেই মহিলারা কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। রাজ্যশাসন থেকে কোনওকিছুই বাদ দেননি। চিত্রাঙ্গদার কথাই ভাবুন না। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বিবর্তন হয়। একসময় সতীদাহ প্রথার প্রচলন ছিল। আমরা সেই অবস্থা থেকে বেরিয়ে এসেছি। কিন্তু এখনও মেয়েদের অনেকটা পথ পেরতে হবে।

‘এখনও বিস্তর ফারাক’
গুরু সঞ্চিতা বন্দ্যোপাধ্যায়
(ওড়িশি নৃত্যশিল্পী)
 আমার কাছে ‘নারীদিবস’ অবশ্যই খুব স্পেশাল। কারণ এখনও আমাদের দেশে ছেলে এবং মেয়েদের সমানভাবে দেখা হয় না। কিন্তু প্রাচীন ভারতের দিকে তাকালে দেখব সেখানে কিন্তু নারীদের সম্মান ছিল অনেক বেশি। যেমন এখন স্যানিটারি ন্যাপকিন নিয়ে অনেক আন্দোলন, প্রতিবাদ হওয়ার পরও একটি মেয়ে সবার সামনে দোকানে গিয়ে সেটি কিনতে পারে না, তার অস্বস্তি হয়। অথচ মহাভারতে দ্রৌপদীর সময়কালে তারা রজঃস্বলা অবস্থায় কোনও দ্বিধায় ভুগছে না। কারণ তারা জানে এটি স্বাভাবিক বিষয়। এতে মেয়েদের কোনও হাত নেই। আমি নৃত্য জগতের সঙ্গে ওঠাবসা করি। দেখেছি ছেলেদের নৃত্যজগতে আসা অনেক পরিবার মেনে নিতে পারে না। কিন্তু সেটা কেন হবে? নাচ হলেই বিষয়টাকে অনেকক্ষেত্রে ‘ওটা তো মেয়েদের’ বলে দাগিয়ে দেওয়া হয়। অথচ ওড়িশি সহ নানা শাস্ত্রীয় নৃত্যে কিংবদন্তী গুরুরা ছিলেন পুরুষ। তাহলে কেন আমাদের বাড়ির ছেলেটিকেও আমরা সাহায্য করব না? দীর্ঘদিন ধরেই আমি এর বিরুদ্ধে লড়ছি। নারী-পুরুষ-ট্রান্সজেন্ডার সকলকে নিয়েই আমার ডান্স ট্রুপ। সবকিছুতেই সকলের অধিকার রয়েছে।

‘গ্রামের মেয়েদের অধিকার নিয়ে সচেতন করে তুলতে হবে’
রচিতা দে
(ডিরেক্টর, শ্রীলেদার্স )
 এই বছরের আন্তর্জাতিক নারীদিবসের থিম ‘ইচ ফর ইক্যুয়াল’ অর্থাৎ সকলের জন্য সমানাধিকার। আমার মতে, অবশ্যই এরকম একটি দিনের প্রয়োজনীয়তা আছে বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলে। শহুরে মেয়েরা ইতিমধ্যেই নিজেদের ক্ষমতা প্রতিষ্ঠা করতে শুরু করেছে। এখানে নারীর ক্ষমতায়নের যতটা না দরকার তার থেকে গ্রামে অনেক বেশি জরুরি। কারণ শহরাঞ্চলে দিনবদল শুরু হয়েছে। মহিলা আর পুরষের মধ্যে এখানে অতটা প্রতিদ্বন্দ্বিতা নেই। তারা হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করছে। বাড়িতেও সেটা দেখেছি। আমার বাবা যেমন খুব গাম্ভীর্যপূর্ণ একজন মানুষ, তেমনই মা ঘর সামলানোর পাশাপাশি কর্মক্ষেত্রে নিজের একটা জায়গা তৈরি করে নিয়েছেন। মানে আমি বলতে চাইছি অন্তত এখানে একটা ব্যালান্স আছে। ফলে এবারের থিমকে বাস্তবায়িত করতে গেলে গ্রামাঞ্চলের মহিলাদের আরও বেশি সাহায্য করতে হবে, নিজের অধিকার সম্বন্ধে আরও সচেতন করে তুলতে হবে।

‘পরিবার থেকেই শুরু হোক নারী দিবস’
ইন্দ্রাণী রায়
(জয়েন্ট ম্যানেজিং ডিরেক্টর, মিত্র ও ঘোষ পাবলিশার্স প্রাইভেট লিমিটেড)
 একজন মহিলা হিসাবে আমার ব্যক্তিগতভাবে মনে হয়, এ সমাজে নারীরা ‘সংখ্যালঘু’। এ পৃথিবীতে সবচেয়ে নিপীড়িত-বঞ্চিত এই নারীই। প্রত্যেক বছরই ৮ মার্চ আমরা খুব ঘটা করে নারীদিবস পালন করি। কিন্তু যেই ৮ থেকে ৯-এ পা দিই, অমনি সব আলোচনা, সব শপথ নিমেষে ভুলে যাই। কর্মক্ষেত্রে আমার এক সিনিয়র একবার আমাকে প্রশ্ন করেছিলেন, কী দেখে বোঝা যায় একটা দেশ উন্নত না অবনত? কোন কোন পয়েন্টগুলো বলব ভাবছি। উনি বললেন, ‘মেয়েদের দেখে। যে দেশে মেয়েরা উন্নত, সেই দেশ ততটা উন্নত।’ আমাদের দেশে তো ভ্রণ অবস্থা থেকেই নারীরা অত্যাচারিত। তাই নারী দিবস সাড়ম্বরে পালন না করে প্রতিটি ঘরে ঘরে যে নারীরা রয়েছেন, তাঁদের প্রতি সম্মান এবং সম্ভ্রম প্রদর্শন করতে হবে এবং তা ব্যক্তিগতস্তরেই করতে হবে। আর সেটাই হবে নারী দিবসের প্রকৃত সার্থকতা। কোনও গ্রুপ বা ফোরাম দিনবদল ঘটাতে পারবে না, যতক্ষণ না পর্যন্ত ব্যক্তি সচেতনতা বাড়ছে। তাই বলব, পরিবার থেকেই শুরু হোক নারী দিবস।

‘সাম্যের সূচনা ঘটছে’
প্রিয়াঙ্কা এম
( মাস্টারশেফ)
 আমি এই দিনটা নিয়ে খুব আনন্দিত। কারণ এটা এমন একটা দিন যেদিন আমরা ভাবতে পারি – হ্যাঁ, কোথাও না কোথাও সাম্যের সূচনা হচ্ছে। এটা অবশ্যই ঠিক যে, সব দিন এই একই সমানাধিকার কাম্য। কিন্তু তার মধ্যেও এই দিনটা যেন পিছন ফিরে তাকাতে সাহায্য করে। ভাবতে সাহায্য করে সারা বছরে এই সাম্য আমরা ধরে রাখতে পারছি তো? এইজন্যই এই দিনটা আমাদের নারীদের কাছে বিশেষ দিন এবং খুব দরকারি দিনও বটে। আমি একজন মাস্টার শেফ এবং আমি হলফ করে বলতে পারি রান্নার দিক দিয়ে মেয়েরা এগিয়ে আছে এবং এগিয়ে থাকবেও। ওই জায়গাটি আমাদের থেকে কেউ কেড়ে নিতে পারবে না। সঙ্গে আমরা অন্যান্য বিভাগেও পুরুষদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাব।

‘পুরুষকে পাশে নিয়েই এগতে হবে’
পরমা বন্দ্যোপাধ্যায়
(সঙ্গীতশিল্পী এবং অভিনেত্রী)
 পশ্চিমের দেশগুলিতে প্রথম এই দিনটি সেলিব্রেট করা শুরু হয়। কিন্তু সেখানে এখন সাম্য অনেকটাই, তাই আলাদা করে হয়তো সেই সব দেশে নারীদিবস পালনের প্রয়োজন নেই। কিন্তু প্রাচ্যের দেশগুলিতে মানে আমাদের ভারতের মতো দেশগুলিতে নারীদিবস পালনের দরকার আছে। দিনটা কোথাও গিয়ে একটা চেতনা জাগিয়ে তোলে মানুষের মধ্যে এবং ব্যাক্তিগত ভাবে আমি মনে করি, প্রতিটা পরিবারে এই চেতনা জেগে ওঠা খুবই দরকারি। পরিবার আমাদের সমাজের ‘স্মল ইউনিট’, সেখান থেকেই মানুষের শিক্ষার শুরু। তাই সেই পরিবারেই নারী পুরুষের সাম্যের চেতনা জাগিয়ে তুলতে হবে। শুধু মেয়েরা নয়, মেয়েদের জেগে উঠতে গেলে পাশে পুরুষদের স্তম্ভের মতো দাঁড়াতে হবে। পুরুষকে পাশে নিয়েই এগতে হবে। কারণ একা কোনও গোষ্ঠীর পক্ষে এগিয়ে চলা সম্ভব নয়, মিলিত ভাবেই সেটা করতে হবে। সিনেমার জগতে ‘থাপ্পড়’-এর মতো ছবিগুলি কিছু ক্ষেত্রে চেতনা জাগাতে সাহায্য করছে।

‘রোজকার দিনে লুকিয়ে থাকা লড়াই’
ঈলীনা
(চিত্রশিল্পী)
 একজন চিত্রশিল্পী আমার একমাত্র পরিচয় নয়। আমি একজন সিঙ্গল মাদারও। তাই নানা কাজের মাঝে আমার সন্তানের বড় হয়ে ওঠায় আমি প্রধান সঙ্গী। সন্তান জন্মানোর পর প্রাক্তন স্বামীর সঙ্গে আমার মিউচ্যুয়াল ডিভোর্স হয়। আমি সেই বন্ধন থেকে বেরিয়ে আসি এবং একা সবটা সামলাতে শুরু করি। আমার মা বাড়িতে ভীষণ অসুস্থ। আমি আজ জানি না কাল ওঁর কী হবে। প্রতিটা দিন কাটে অনিশ্চয়তায়। মা খুব অসুস্থ হয়ে পড়লে মেয়ের স্কুলে যাওয়া হয় না, আমি কাজ করতে পারি না। অন্য দিনগুলিতে মেয়েকে আমি স্কুলে ছেড়ে দিয়ে আসি। তারপর ফেরার সময় স্কুলের কাছের পলাশ গাছটির দিকে তাকাই। সেখানে লাল পলাশের ঝাঁক আমায় মনে করায় বিশ্বভারতীর দিনগুলির কথা। মনে করায় আমার পরিবার চায়নি আমাকে আর্ট কলেজে পাঠাতে। কিন্তু সাফল্যের পরে সেই পরিবারকেই আমি পাশে পেয়েছি। আমার কাছে নারীদিবস আমার রোজকার দিনে লুকিয়ে থাকা লড়াই। মেয়েকে মানুষ করে তোলা, মাকে সুস্থ রাখা আর সারাদিনের মাঝে আমার আঁকার জন্য একটু সময় বার করে নেওয়া।

‘আমার গানে রাধা ফেরে না আয়ান ঘোষের কাছে’
দীপান্বিতা আচার্য
(লোকসঙ্গীত শিল্পী)
 আলাদা করে একটা দিন সেলিব্রেট করা যেতেই পারে। কিন্তু আমার সেলিব্রেশনটা প্রতি মূহূর্তে। ছোটবেলায় আমার লড়াই ছিল বাড়ির সঙ্গে। আমার বাবা চায়নি আমি সঙ্গীতজগতে থাকি। কিন্তু আজ খুব ভালো লাগে যখন বাবাকে পাশে পাই। লোকসঙ্গীতের জন্য নানা গ্রামে যেতে হয়, সেখানে গিয়ে অবাক হয়ে দেখি মেয়েরা গানের জগতে এগিয়ে আসছে। পুরুষদের পাশে বা পুরুষদের থেকেও এগিয়ে থাকছে। মনে হয় নারী ক্ষমতায়নকে এর থেকে অন্য আর কী দিয়ে ব্যাখ্যা করা যায়! এটাই তো কাম্য। আমার গানেও তাই রাধা ফিরে যায় না আয়ান ঘোষের কাছে। রাধা তার চার দেওয়ালের বাইরে গিয়ে স্বপ্ন দেখতে শুরু করে। রাধার হাত ধরে গোটা নারী সমাজ মাথা তুলে দাঁড়ায়।
ছবি: দীপেশ মুখোপাধ্যায় 
08th  March, 2020
নারী-উন্নয়নই আমার লক্ষ্য: সুনীরা চামারিয়া 

ফিকি (এফএলও)-র চেয়ারপার্সন সুনীরা চামারিয়া জানালেন সমাজে মেয়েদের অবস্থার পরিবর্তন করাই তাঁর অন্যতম উদ্দেশ্য। কিন্তু কীভাবে? তাঁর সঙ্গে এই বিষয়ে আলোচনায় কমলিনী চক্রবর্তী।   বিশদ

19th  September, 2020
ব্যাঘ্রবাহিনীর কন্যা তিনি 

সিংহের ওপরে মা দুর্গাকে দেখেছেন তো অনেকেই। কিন্তু বাঘের ওপরে আসীন মা? উত্তর কলকাতার কুণ্ডুবাড়িতে গেলে দর্শন পাবেন ব্যাঘ্রবাহিনী দুর্গার। করোনা সংকটে এই বছর জাঁকজমক কিছুটা কম হলেও পুজো হচ্ছে। এবার তাঁদের শারদোৎসব ১২ বছরে পা দিচ্ছে। বাঘের সঙ্গে মা দুর্গার মেলবন্ধনের গল্পটা শোনালেন বাড়ির গিন্নি সুচন্দ্রা কুণ্ডু। লিখেছেন অন্বেষা দত্ত।  বিশদ

19th  September, 2020
 রন্ধনে লক্ষ্মীলাভ

ঘরে রেঁধে বেড়েই ক্ষান্ত দেননি তাঁরা। বরং নিজেদের হেঁশেল থেকেই শুরু করেছেন ব্যবসা। তেমনই কিছু ঘরোয়া রন্ধন ব্যবসায়ীর কথা শোনালেন কমলিনী চক্রবর্তী। বিশদ

12th  September, 2020
 বাঙালির ঘরের মেয়ে দুর্গা

মহালয়ার শুভক্ষণ সমাগত। সপ্তাহ পার হলেই পিতৃপক্ষের শেষ, দেবীপক্ষের শুরু। লোকবিশ্বাসে দেবী আরাধনার সূচনা হয়ে যায় মহালয়ার দিন থেকেই । লিখেছেন পূর্বা সেনগুপ্ত। বিশদ

12th  September, 2020
 এখন মেয়েরা

 জনপ্রিয় ব্রিটিশ গায়িকা এলি গোল্ডিং সম্প্রতি তাঁর উপবাসের কথা প্রকাশ করেছেন। তিনি উপবাসের রুটিন শুরু করেছিলেন ১২ ঘণ্টা দিয়ে, সেটা বাড়াতে বাড়াতে এখন ৪০ ঘণ্টায় পৌঁছে গিয়েছে। ২ দিনের কাছাকাছি সময় তিনি কিচ্ছুটি খান না! কেবল জল আর অন্য কোনও পানীয় এই ৪০ ঘণ্টার উপবাসে তাঁর সঙ্গী। বিশদ

12th  September, 2020
মায়েদের ভালো রাখতে 

অন্তঃসত্ত্বা মায়েদের পুষ্টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। মায়ের যথাযথ পুষ্টি না হলে সন্তানের বৃদ্ধিও ঠিকমতো হবে না। তাই এই অবস্থায় কী কী বিষয় খেয়াল রাখবেন, তা নিয়ে বিশদ জানালেন গাইনোকলজিস্ট অভিনিবেশ চট্টোপাধ্যায়।  বিশদ

05th  September, 2020
ছোটবেলা থেকেই গড়ে দিতে হবে মেয়েদের স্বাস্থ্য 

শৈশব থেকেই কন্যাসন্তানের ডায়েটে গুরুত্ব দিতে হবে। কারণ সে-ই পরবর্তীতে সংসারের কর্ত্রী, ভাবী মা। তার স্বাস্থ্যের ভিত মজবুত হওয়া দরকার। লাইফস্টাইল ও ডায়েট কনসালট্যান্ট রূপশ্রী চক্রবর্তীর পরামর্শ শোনাচ্ছেন সোমা লাহিড়ী।  বিশদ

05th  September, 2020
বয়স বাড়ুক তবু ছন্দ আনুন জীবনে 

মধ্যবয়সে পৌঁছে মহিলাদের অধিকাংশই অবসাদ আর অপুষ্টির শিকার হয়ে পড়েন। কীভাবে সুস্থ জীবন কাটাবেন পঞ্চাশোর্ধ্বরা? পরামর্শে গাইনোকলজিস্ট ডাঃ সুভাষ বিশ্বাস ও ডায়েটিশিয়ান সুদেষ্ণা মৈত্র নাগ।  বিশদ

05th  September, 2020
এখন মেয়েরা 

ফের সংসারের লড়াইয়ে নামতে চান জারকা
কয়েক মাস ধরেই ভীষণ কষ্টে ভুগেছেন জারকা। কাটা নাকের ক্ষত যেন আরও দগদগে হয়ে উঠেছিল মনের তীব্র কষ্টে। বুঝেই উঠতে পারছিলেন না, কোন দোষে জীবন এমন শাস্তি দিল তাঁকে।  
বিশদ

29th  August, 2020
প্রথা-ভাঙা কাজে মেয়েরা নেই কেন?

জুলির (নাম পরিবর্তিত) কথা দিয়েই শুরু করা যাক। জুলির বাড়ি দমদম বিমানবন্দরের কাছে। ছোটবেলায় যখন ওদের টালির চালের কান ঘেঁষে আকাশে এরোপ্লেন উড়ে যেত, তখন জুলি ভাবত, ‘ইস আমি যদি প্লেন চালাতে পারতাম, আমিও পাখির মতো আকাশে উড়তাম’।  
বিশদ

29th  August, 2020
দুর্গম পাহাড়ে নারীর বিপ্লব 

গোটা দেশের গড় আয়ু প্রায় ৬৭। কিন্তু সে দেশেই ছড়িয়ে রয়েছে এমন এক প্রদেশ, যেখানকার মানুষের গড় আয়ু ১২০ বছর! শুধু তা-ই নয়, এই প্রদেশের মেয়েরা তলে তলে ঘটিয়ে ফেলছেন এক বিরাট বদল। কেমন তার রূপরেখা? জানালেন মনীষা মুখোপাধ্যায়। 
বিশদ

29th  August, 2020
অনলাইন বক্সিংয়ে কাশ্মীরের তরুণীর সোনা জয় 

‘খেলো ইন্ডিয়া’ অনলাইন বক্সিং প্রতিযোগিতায় সোনা জয় করেছেন কাশ্মীরের শ্রীনগরের মার্শাল আর্ট খেলোয়াড় রুবা শাবির। জম্মুর লুডিয়ানায় অনুষ্ঠিত জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছিলেন রুবা। 
বিশদ

22nd  August, 2020
ভারতীয় উপমহাদেশে বন্যার্তদের
জন্য সহায়তা গ্রেটা থুনবার্গের 

ভারত সহ আশপাশের দেশে বন্যার্তদের জন্য ১ লক্ষ ইউরো অর্থ সাহায্য করেছে জলবায়ু পরিবর্তনকর্মী, সুইডিশ কিশোরী গ্রেটা থুনবার্গ। ২০ জুলাই গ্রেটা ‘প্রাইজ ফর হিউম্যানিটি’ পুরস্কারে ভূষিত হয়। এই পুরস্কারের অর্থমূল্য এক মিলিয়ন বা ১০ লক্ষ ইউরো।
বিশদ

22nd  August, 2020
কমলা রঙের দিনগুলি 

সম্ভাব্য মহিলা ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে কমলা হ্যারিস তিন নম্বরে হলেও অশ্বেতাঙ্গ এবং ভারতীয় বংশোদ্ভূত মহিলা হিসেবে তিনিই প্রথম। পেশায় আইনজীবী এবং সুবক্তা কমলা আদালতের চোখা সওয়ালের মতোই রিপাবলিকান পার্টির নেতাদের সঙ্গে সমান তালে তর্ক করেন। তবু আমেরিকার সুশীল সমাজ কমলাকে স্রেফ একজন ‘ভাইস প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী’ হিসেবে দেখছে না। বরং আমেরিকা তাঁকে দেখে প্রশ্ন করছে ‘আর ইউ ফ্রম ইন্ডিয়া’? কমলা কি ‘অতিথিবৎসল’ আমেরিকাকে, ‘বহুজাতিবাদ’-এর আমেরিকাকে চিরস্থায়ী করতে পারবেন? প্রশ্ন তুললেন শুভঙ্কর মুখোপাধ্যায়। 
বিশদ

22nd  August, 2020
একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সিইএসসির অফিসার বলে পরিচয় দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করল জোড়াসাঁকো থানার পুলিস। ধৃতের নাম মোহাম্মদ সুলেমান। বাড়ি তিলজলা এলাকায়। তার কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে সিইএসসির জাল রসিদ।   ...

জীবানন্দ বসু, কলকাতা: রাজ্যের চটকল শ্রমিকদের নানাবিধ সমস্যা সমাধানের প্রতি এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার বিশেষ নজর দিতে চলেছে। শ্রমিকদের চাকরির স্থায়িত্ব এই শিল্পের অন্যতম এবং বহু পুরনো সমস্যা হওয়ায় আপাতত তার সমাধানকেই পাখির চোখ করেছে শ্রমদপ্তর।   ...

সংবাদদাতা, বালুরঘাট: দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় দলীয় সংগঠনকে শক্তিশালী করতে সঙ্গে নিতে হবে বিপ্লব মিত্রকে। কলকাতায় বৈঠকে রাজ্য নেতৃত্বের তরফ থেকে জেলা নেতৃত্বকে এমন নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।  ...

রোম: ইতালিয়ান ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নিলেন রাফায়েল নাদাল। তবে ফাইনালে উঠেছেন নোভাক জকোভিচ। এর আগে রোমের এই টুর্নামেন্টে ন’বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন স্প্যানিশ তারকা নাদাল।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

সম্পত্তিজনিত মামলা-মোকদ্দমায় জটিলতা বৃদ্ধি। শরীর-স্বাস্থ্য দুর্বল হতে পারে। বিদ্যাশিক্ষায় বাধাবিঘ্ন। হঠাকারী সিদ্ধান্তের জন্য আপশোস বাড়তে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

আন্তর্জাতিক শান্তি দিবস
১৮৬৬: ব্রিটিশ সাংবাদিক, ঐতিহাসিক ও লেখক এইচ জি ওয়েলসের জন্ম
১৯৩৪: জাপানের হনসুতে টাইফুনের তাণ্ডব, মৃত ৩ হাজার ৩৬ জন
১৯৪৭: মার্কিন লেখক স্টিফেন কিংয়ের জন্ম
১৯৭৯: ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটার ক্রিস গেইলের জন্ম
১৯৮০: অভিনেত্রী করিনা কাপুর খানের জন্ম
১৯৮১: অভিনেত্রী রিমি সেনের জন্ম
১৯৯৩: সংবিধানকে অস্বীকার করে রাশিয়ায় সাংবিধানিক সংকট তৈরি করলেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বরিস ইয়েলৎসিন
২০০৭: রিজওয়ানুর রহমানের মৃত্যু
২০১৩: কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবিতে ওয়েস্ট গেট শপিং মলে জঙ্গি হামলা, নিহত কমপক্ষে ৬৭



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৮৯ টাকা ৭৪.৬০ টাকা
পাউন্ড ৯৩.৫৫ টাকা ৯৬.৯১ টাকা
ইউরো ৮৫.১০ টাকা ৮৮.২১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
19th  September, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫২,৩৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৯,৭০০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৫০,৪৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৬,৭৪০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৬,৮৪০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
20th  September, 2020

দিন পঞ্জিকা

৫ আশ্বিন ১৪২৭, সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, পঞ্চমী ৪৫/৩৬ রাত্রি ১১/৪৩। বিশাখানক্ষত্র ৩৮/২১ রাত্রি ৮/৪৯। সূর্যোদয় ৫/২৮/৩৬, সূর্যাস্ত ৫/৩০/৫৪। অমৃতযোগ দিবা
৭/৪ মধ্যে পুনঃ ৮/৪১ গতে ১১/৬ মধ্যে। রাত্রি ৭/৫৫ গতে ১১/৬ মধ্যে পুনঃ ২/১৭ গতে ৩/৫ মধ্যে। বারবেলা ৬/৫৯ গতে ৮/২৯ মধ্যে পুনঃ ২/৩০ গতে ৪/০ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/০ গতে ১১/৩০ মধ্যে।  
৪ আশ্বিন ১৪২৭, সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, চতুর্থী দিবা ৭/৩৭ পরে পঞ্চমী শেষরাত্রি ৫/১৭। বিশাখানক্ষত্র রাত্রি ৩/১। সূর্যোদয় ৫/২৮, সূর্যাস্ত ৫/৩৩। অমৃতযোগ দিবা ৭/৭ মধ্যে ও ৮/৪১ গতে ১১/১ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪২ গতে ১০/৫৯ মধ্যে ও ২/১৭ গতে ৩/৬ মধ্যে। কালবেলা ৬/৫৯ গতে ৮/২৯ মধ্যে ও ২/৩২ গতে ৪/২ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/১ গতে ১১/৩১ মধ্যে।  
মোসলেম: ৩ শফর। 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
কলেজে ভর্তির সময়সীমা বৃদ্ধি পেয়ে ৩০ অক্টোবর 
কলেজগুলিতে স্নাতকস্তরে ভর্তির সময়সীমা বৃদ্ধি করল রাজ্য সরকার। রবিবার শিক্ষামন্ত্রী ...বিশদ

09:08:05 AM

মহারাষ্ট্রে বহুতল ভেঙে মৃত ১০ 
মহারাষ্ট্রের থানেতে বহুতল ভেঙে কমপক্ষে ১০ জনের মৃত্যু হল। এখনও ...বিশদ

09:08:00 AM

আজ আইপিএল-এ
 

আইপিএল-এ আজ মুখোমুখি হবে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। ...বিশদ

09:06:59 AM

কলকাতায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস 
ঘনীভূত হয়েছে গভীর নিম্নচাপ। সর্তকতা জারি হয়েছে রাজ্যজুড়ে। কলকাতাতেও মঙ্গলবার ...বিশদ

08:58:46 AM

ইতিহাসে আজকের দিনে 
আন্তর্জাতিক শান্তি দিবস১৮৬৬: ব্রিটিশ সাংবাদিক, ঐতিহাসিক ও লেখক এইচ জি ...বিশদ

08:47:39 AM

গর্ভের সন্তান ছেলে কি না জানতে স্ত্রীর পেট কাটল যুবক, গ্রেপ্তার 
পুরুষতান্ত্রিক মানসিকতার আরও এক ঘৃণ্য নজির সৃষ্টি করল উত্তরপ্রদেশের বুদানের ...বিশদ

08:45:00 AM