Bartaman Patrika
আমরা মেয়েরা
 

মহাষ্টমী পুজো

মহাষ্টমী পুজোর দিন সকালে পুরোহিত আচমন করে মায়ের পুজো শুরু করেন। আসনশুদ্ধি, ভূতশুদ্ধি, মাতৃকান্যাস, প্রাণায়াম, পীঠন্যাস সমাপ্ত করে মাকে দন্তকাষ্ঠ নিবেদন করেন। তারপর শুরু হয় মায়ের মহাস্নান। সপ্তমী তিথির মতো নানা মৃত্তিকা, সুগন্ধি তেল, নানা ধরনের জল প্রভৃতি দ্বারা দর্পণে মায়ের প্রতিবিম্বতে মহাস্নান সমাপ্ত করে গণেশ, শিব, দুর্গা, নারায়ণ, লক্ষ্মী, সরস্বতী, ব্রহ্মা, কার্তিক, সূর্য, নবগ্রহ, জয়া, বিজয়া, পীঠদেবতা, সিংহ, অসুর, পেঁচা, হাঁস, ময়ূর, ইঁদুর প্রভৃতিদের পুজো করে দেবী দুর্গার ধ্যান, ষড়ঙ্গ বিন্যাস করে ষোড়শোপচারে দেবীর পুজো ও নবপত্রিকার পুজো ও আবরণ পুজো করা হয়। মহাষ্টমীর দিন মহাস্নান ও সমস্ত আচার সমাপ্ত করে মায়ের ঘটের সামনে ‘সর্ব্বতোভদ্র মণ্ডল’ নির্মাণ করা হয়। তারপর দেবীর ধ্যানের পর শুরু হয় ‘পীঠপুজো’। দেবীর মঙ্গলঘটের সামনে অষ্টদল পদ্ম এঁকে সেই পদ্মের প্রত্যেক দল বা পাঁপড়িতে মন্ত্র পড়ে (প্রত্যেক পাঁপড়িতে আলাদা মন্ত্র ও ধ্যান আছে) ধ্যান করতে হয়। এইভাবে মণ্ডলের আট দিকে ও মধ্যস্থলে ‘নবঘট’ স্থাপন করে নবশক্তির যথোপযুক্ত পুজো ও প্রণাম করা হয়।
এখানে উল্লেখ করা প্রয়োজন যে অষ্টদল পদ্মের প্রতিটি দল বা পাঁপড়িতে আটজন করে যোগিনীর অর্থাৎ আটটি দলে মোট চতুঃষষ্ঠী যোগিনীর পুজো ও প্রণাম করে মন্ত্রদ্বারা কোটিযোগিনীর পুজো করে মণ্ডলের নবঘটে নবদুর্গার আহ্বান করে পুজো ও প্রণাম করা হয়।
তারপর হয় দিক্‌পা঩লের পুজো। মণ্ডলমধ্যে দশদিকে দশরংয়ের ধ্বজ বা পতাকা রোপণ করে দিক্‌পা঩লের পুজো করা হয়ে থাকে। পূর্বদ্বারে শুক্লধ্বজ পতাকা রোপণ, অগ্নিকোণে রক্তধ্বজ পতাকা, দক্ষিণে কৃষ্ণধ্বজ পতাকা, নৈঋতে রক্তধ্বজ পতাকা, পশ্চিমে নীলধ্বজ পতাকা, বায়ুকোণে পীতধ্বজ পতাকা, উত্তরে কৃষ্ণধ্বজ পতাকা, ঈশানে শ্বেতধ্বজ পতাকা, মধ্যে রক্তধ্বজ পতাকা, পূর্ব ও ঈশান কোণে বিচিত্রধ্বজ পতাকা রোপণ করে মন্ত্র দ্বারা পুজো ও প্রণাম করতে হয়।
দুর্গাপুজোর প্রত্যেক দিনই মা দুর্গাকে পুষ্পাঞ্জলি প্রদান করে মায়ের আশীর্বাদ প্রার্থনা করা হয়। তবে অষ্টমীতে অঞ্জলির জনপ্রিয়তা আমাদের সমাজে বিশেষভাবে লক্ষণীয়।
মা দুর্গার প্রিয় ফুল অতসী আর অপরাজিতা। তাই এই দুটি ফুল ও শিউলি ও অন্যান্য ফুল চন্দনের ছিঁটে দিয়ে সেই ফুল ও ত্রিপত্র বেলপাতা হাতে নিয়ে শুদ্ধাচারে তিনবার অঞ্জলির মন্ত্র বলে মাকে পুষ্পাঞ্জলি প্রদান করে প্রণাম মন্ত্র উচ্চারণ করে মায়ের আশীর্বাদ কামনা করা হয়।
এরপর দেবীর অস্ত্রসমূহের পুজো করা হয়। দুর্গাপুজোর অন্য দিনগুলোর মতো মহাষ্টমীতেও চণ্ডীপাঠ করা হয়।
অনেক পুজোতে মহাষ্টমীতে হোম করা হয়। গৃহস্বামীর বেদ অনুসারে হোম করা হয়। বেদ জানা না থাকলে যজুঃর্বেদ অনুসারে হোম অনুষ্ঠিত হয়।
অনেক স্থানে অষ্টমীতে কুমারী পুজো করা হয়। যাদের পুজোয় বলিদান প্রচলিত আছে সেখানে বলিদান করা হয়। মায়ের ভোগও বৈচিত্র্যপূর্ণ। কেউ কেউ মা সহ তার সন্তানদের সবাইকে নিরামিষ ভোগ দেন। কেউ বা মাকে মাছ, মাংস সহ আমিষ ভোগ দান করেন। মা ও তার সন্তানেরা আমিষ ভোগ খেলেও শিব ও নারায়ণকে সব সময়ই নিরামিষ ভোগ দিতে হয়। এছাড়া ফল, মিষ্টি, খই-মুড়কি, নাড়ু-তক্তি প্রভৃতি দিয়ে নৈবেদ্য প্রদান করা হয়।
পাঁচফল খই, মুড়কি, নাড়ু-তক্তি দিয়ে রচনা দেওয়া হয়। ভোগ প্রদানের পর আরতি করে অষ্টমী পুজো সমাপ্ত হয়।
অষ্টমী ও নবমী তিথির সন্ধিক্ষণে হয় মা দুর্গার সন্ধিপুজো।
(সন্ধিপুজো সম্বন্ধে পরের পাতায় লেখা আছে)
যদি সন্ধিপুজোর সময় সকালে বা রাতে হয় তাহলে সন্ধেবেলা মা দুর্গাকে বৈকালি ভোগ দিয়ে যথানিয়মে ঢাক-ঢোল-কাঁসর-ঘণ্টা-শঙ্খ ও উলুধ্বনির মধ্য দিয়ে মায়ের আরতি হয়।
 সন্ধিপুজো
অষ্টমী-নবমীর সন্ধিক্ষণে পুরোহিত সামান্যার্ঘ্যাদি স্থাপন পূর্বক মা দুর্গাকে চামুণ্ডারূপে চিন্তা করে ধ্যান করে ষোড়শোপচারে মায়ের পুজো করেন। এই সময় মন্ত্র উচ্চারণ করতে করতে মা দুর্গাকে একশো আটটি পদ্ম নিবেদন করা হয়। জ্বালানো হয় একশো আটটি মঙ্গলদীপ। তৈজসাধারাদি উৎসর্গ করে চতুঃষষ্ঠী-যোগিনী এবং মা চামুণ্ডার পুজো করা হয়। মা চামুণ্ডাকে শয্যা দেওয়া হয়। রক্তবস্ত্র মাকে দেওয়া হয়। ভোগ প্রদান করা হয়। বলিদান করা হয় (যাদের বলিপ্রথা আছে) দীপমালা উৎসর্গ করে যথানিয়মে সন্ধিপুজো করা হয়। মা চামুণ্ডার ধ্যানমন্ত্র হল— ‘ওঁ কালী করালবদনা বিনিষ্ক্রান্তাসিপাশিনী। বিচিত্র খট্টাঙ্গধরা নরমালাবিভূষণা। দীপিচর্মপরীধানা শুষ্কমাংসাতিভৈরবা। অতিবিস্তারবদনা জিহ্বাললনা ভীষণা। নিমগ্নারক্তনয়না নাদাপুরিতদিঙ্মুখা।’
দূর্বা বাগচী
21st  September, 2019
কঠোর মায়েদের সন্তানের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল হয় 

বেড়ে ওঠার বয়সে আপনার মা কি খুব কঠোর ছিলেন? তিনি কি আপনাকে ঘর পরিষ্কার করতে, বাড়ির কাজ করতে এবং প্রতিনিয়ত ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাবতে বলতেন? আমাদের মধ্যে বেশিরভাগ সন্তানই এমন পরিবারে বড় হয়েছি যেখানে মায়েরা ছিলেন আমাদের চিরশত্রু! 
বিশদ

12th  October, 2019
এসো মা লক্ষ্মী বসো ঘরে 

ননীবালার কথা: আশ্বিনে মা আসেন। তার রেশ মিটতে না মিটতেই দু-দিন পরেই তো মেয়ে আসবে। তাঁকে আবাহনেরও কম আয়োজন নাকি! বর্ষা শেষ হয়ে ভাদ্র পড়তেই ভাঁড়ার ঘরের ঝাড়া-বাছা রোদে দেওয়ার ধুম।  
বিশদ

12th  October, 2019
লক্ষ্মীর পাঁচালি গৃহিণীদের
সুখী সংসারের উপদেশ দেয় 

আমাদের বাড়ির হোম মিনিস্টার বলা যায় বাড়ির গৃহবধূ বা গৃহিণীদের। প্রতি বৃহস্পতিবার আমাদের বাংলার ঘরে ঘরে গৃহলক্ষ্মীর পুজো ও পাঁচালি পাঠ সেই পুরানো দিন থেকে আজ পর্যন্ত চলে আসছে। বলা যায় আমাদের সমাজের অন্দরমহলের সবচেয়ে জনপ্রিয় দেবী হলেন লক্ষ্মী। 
বিশদ

12th  October, 2019
বিজয়া দশমী 

দশমী তিথিতে সকাল বেলায় নির্ঘণ্ট অনুযায়ী পুরোহিত আচমন ভূতাপসারণ প্রভৃতি করে পঞ্চোপচারে দেবীর পুজো করেন। ওই দিন দেবীকে পান্তাভাত, কচুর শাক (নুন ছাড়া) ভোগ দেওয়া হয়। যাঁরা অন্নভোগ দেন না তাঁরা চিঁড়ে, মুড়কি, খই, বাতাসা, দই প্রভৃতি ভোগ দেন।  
বিশদ

05th  October, 2019
চণ্ডীতে দেবী দুর্গার প্রকাশময়ী মূর্তি 

দেবী বন্দনার সামগ্রিক বিকাশটি নিহিত আছে শ্রীশ্রীচণ্ডীতে। প্রথম, মধ্যম ও উত্তর ভেদে আদ্যাশক্তি মহামায়া চণ্ডিকা তিন রূপে প্রকাশিতা। গুণ ও কর্ম ভেদে তিনি কখনও মহাকালী, কখনও মহালক্ষ্মী, কখনও বা মহাসরস্বতী রূপে প্রকাশিতা।
বিশদ

05th  October, 2019
সেকালের পুজো 

সে ছিল এক অন্য কলকাতা— সেখানে কলুপাড়া, ডোমপাড়া, হাঁড়িপাড়া, গয়লাপাড়া, হাতিবাগান, বাদুড়বাগান, চালতাবাগান, হালসীর বাগান— ছিল অঞ্চলের নাম। সেই সাবেক কলকাতাতেও ছিল দুর্গাপুজো। সমাজের ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে প্রতিটি মানুষকে না শামিল করলে সেকালের দুর্গাপুজো পূর্ণতা পেত না। 
বিশদ

05th  October, 2019
মহিলা মৃৎশিল্পী
মনের টানে ঠাকুর গড়েন মালা পাল 

কুমোরটুলির এক জায়গায় বসে সবাই যখন ঠাকুর গড়ত, মুগ্ধ হয়ে দেখত মেয়েটি। আর মনে মনে ভাবত সেও একদিন ঠাকুর গড়বে। সেই মতো মেয়েটির যখন চোদ্দো বছর বয়েস, তখন সে বাবার স্টুডিওতে এসে বাবার সঙ্গে ঠাকুর গড়া শুরু করে।  বিশদ

28th  September, 2019
ম হা ল য়া র মধুর সুর 

মহালয়া মানে পিতৃপক্ষের সমাপ্তি আর দেবীপক্ষের সূচনা। শারদীয়া দুর্গোৎসবের পুণ্যলগ্ন হল মহালয়া। মহালয়ার ভোর মানেই দূরত্ব ছাপিয়ে আসা আলো। প্রত্যেক বাঙালিরই মহালয়া নিয়ে নানা স্মৃতি। আজ এই প্রযুক্তি অধ্যুষিত সময়ে দাঁড়িয়েও এই একটা দিনেই আমবাঙালি রেডিওতে মাতে। আগের রাতে ধুলো ঝেড়ে বের হয় বাবা বা ঠাকুরদার পুরনো রেডিও সেটটি।   বিশদ

28th  September, 2019
পার্লারে পার্লারে পুজোর প্যাকেজ 

পুজোর আগে লাস্ট মিনিটে সাজ-সাজেশনে রয়েছে বিভিন্ন পার্লারের আকর্ষণীয় অফার। পুজোর পাঁচটা দিন তাক লাগিয়ে দিন বন্ধুদের। হয়ে উঠুন পুজোর সেরা সুন্দরী। আর যাঁরা এখনও পার্লারমুখো হননি তাঁরাও করে নিন মেকওভার।  বিশদ

28th  September, 2019
মহাপূজার আঙিনায় হোম 

যজ্ঞানুষ্ঠান বৈদিক কর্মের অঙ্গ। অগ্নিকে প্রতীকরূপে উপাসনার প্রথা আদিকাল থেকে। এর উৎপত্তিস্থল ঋগ্বেদ। দেবতার অভিলাষে হব্যাদি যে কোনও অর্ঘ্যদান করতে গেলে অগ্নিতেই তা উৎসর্গ করতে হয়।   বিশদ

28th  September, 2019
আবাসনের পুজোয় মেয়েরাই সর্বেসর্বা 

শহর আর শহরতলি জুড়ে গড়ে উঠছে অসংখ্য আবাসন। সেখানে পুজোর ব্যবস্থাপনায় অগ্রণী ভূমিকা মেয়েদেরই। কয়েকটি আবাসনের মহিলা মহলের সঙ্গে কথা বলে লিখেছেন সোমা লাহিড়ী।  বিশদ

28th  September, 2019
মহাপূজার আঙিনায়
বলিদান

 মহাপূজার অন্যতম অঙ্গ বলিদান। বলি শব্দের অর্থ উপহার। দেবীভাগবতের মতে, একমাত্র দেবী পূজাতেই বলিদান সম্মত। অন্যত্র নয়। কারণ ব্রহ্মবিদ্যাস্বরূপিণী দেবী আমাদের স্বরূপনিরোধক এই ঘোর জীববুদ্ধি নাশ করে ব্রহ্মকারা বৃত্তিতে প্রকাশমান হন। তাই মহাদেবী বলিপ্রিয়া।
বিশদ

21st  September, 2019
সেকাল একালের
আগমনী আড্ডা

দুর্গা পুজো মানেই নতুন পোশাক, খাওয়া-দাওয়া, রাত জেগে ঠাকুর দেখা আর নির্ভেজাল আড্ডা। আড্ডা পরিকল্পনাও থাকে নানারকম। আড্ডাবাজ বাঙালির আড্ডার আসর বসে পাড়ার পুজো, বাড়ির পুজো, বা আবাসনের পুজোমণ্ডপে। নব্য প্রজন্মের কেউ বা পছন্দ করে ঘুরে বেড়িয়ে আড্ডা দিতে। বিশদ

21st  September, 2019
মহিলা মৃৎশিল্পী
ঠাকুর গড়েন চায়না পাল

 ছোটবেলায় আঁকতে ভীষণ ভালোবাসতেন চায়না। পেন বা পেন্সিল দিয়ে পাতার পর পাতা ঠাকুর দেবতার ছবি আঁকতেন তিনি। টানা টানা চোখওয়ালা সাবেকি ঠাকুরের মুখ ভরে যেত তাঁর খাতার পাতায়। বাবা যখন ঠাকুর গড়তেন সেটাও হাঁ করে দেখতেন চায়না। বিশদ

21st  September, 2019
একনজরে
সংবাদদাতা, রামপুরহাট: অতিবৃষ্টি ও বন্যা পরবর্তী পরিস্থিতিতে চাষে ক্ষতি সামাল দিতে রাজ্যের ক্ষতিগ্রস্ত ব্লকগুলিতে বিকল্প চাষের জন্য বীজ বিলি করার সিদ্ধান্ত নিল কৃষি দপ্তর।  ...

 নয়াদিল্লি, ১৭ অক্টোবর: সরকার অর্থনীতির আসল রোগটাই ধরতে পারেনি। শুধু কারও উপর দোষ চাপাতে চাইছে। বৃহস্পতিবার মহারাষ্ট্রে ভোট প্রচারে এসে মোদি সরকার এবং তাঁর অর্থমন্ত্রীকে ...

 রিয়াধ, ১৭ অক্টোবর (পিটিআই): পুণ্যতীর্থ মদিনা থেকে মক্কায় যাওয়ার পথে বাস দুর্ঘটনায় মারা গেলেন ৩৫ জন তীর্থযাত্রী। সৌদি আরবের সরকারি সংবাদমাধ্যম সূত্রে বৃহস্পতিবার জানানো হয়েছে, বুধবার সন্ধ্যায় ওই দুর্ঘটনা ঘটে। তীর্থযাত্রীবাহী ওই বাসটি আরও কোনও বড় গাড়িতে ধাক্কা মারে। ...

সংবাদদাতা, রায়গঞ্জ: দুর্গাপুজোর আগে রায়গঞ্জ শহরের বিভিন্ন এলাকায় গজিয়ে ওঠা মদের ঠেকগুলিতে বিশেষ দল নিয়ে অভিযান চালিয়েছিল পুলিস। তাতে সাফল্যও মিলেছিল। এবার কালীপুজোর সময়েও সেই একই মডেল অনুসরণ করতে চাইছে জেলা পুলিস।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চতর ও গবেষণামূলক বিদ্যার ক্ষেত্রে সাফল্য আসবে, ব্যবসায় যুক্ত হলে শুভ যোগাযোগ ঘটবে। ভ্রমণ যোগ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৭১: কম্পিউটারের জনক চার্লস ব্যাবেজের মৃত্যু
১৯১৮: চিত্রশিল্পী পরিতোষ সেনের জন্ম
১৯৩১: গ্রামাফোনের আবিষ্কারক টমাস আলভা এডিসনের মৃত্যু
১৯৪০: টলিউড অভিনেতা পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৫০: অভিনেতা ওমপুরীর জন্ম





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৬১ টাকা ৭২.৩১ টাকা
পাউন্ড ৮৯.৯৯ টাকা ৯৩.২৪ টাকা
ইউরো ৭৭.৬৭ টাকা ৮০.৬৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,৮৪৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,৮৫৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭,৪১০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৫,২৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৫,৩৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার, চতুর্থী ৪/৩৮ দিবা ৭/২৯। রোহিণী ২৮/৪১ অপঃ ৪/৫৯। সূ উ ৫/৩৭/৪৪, অ ৫/৬/১৬, অমৃতযোগ দিবা ৬/২৪ মধ্যে পুনঃ ৭/১০ গতে ৯/২৭ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৫ গতে ২/৪৭ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৩ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৫/৫৭ গতে ৯/১৬ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৭ গতে ৩/৭ মধ্যে পুনঃ ৩/৫৮ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৮/৩০ গতে ১১/২১ মধ্যে, কালরাত্রি ৮/১৩ গতে ৯/৪৭ মধ্যে।
৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার, পঞ্চমী ৫৮/২৯/৫১ শেষরাত্রি ৫/২/১০। রোহিণী ২৫/৩৩/৪৮ দিবা ৩/৫১/৪৫, সূ উ ৫/৩৮/১৪, অ ৫/৭/৩৪, অমৃতযোগ দিবা ৬/৩১ মধ্যে ও ৭/১৫ গতে ৯/২৯ মধ্যে ও ১১/৪২ গতে ২/৪১ মধ্যে ও ২/২৫ গতে ৫/৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪৬ গতে ৯/১১ মধ্যে ও ১১/৪৬ গতে ৩/১২ মধ্যে ও ৪/৩ গতে ৫/৩৯ মধ্যে, বারবেলা ৮/৩০/৩৪ গতে ৯/৫৬/৪৪ মধ্যে, কালবেলা ৯/৫৬/৪৪ গতে ১১/২২/৫৪ মধ্যে, কালরাত্রি ৮/১৫/১৪ গতে ৯/৪৯/৪ মধ্যে।
 ১৮ শফর

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
পূর্ব মেদিনীপুরে তৃণমূল নেতা খুনের ঘটনায় ধৃত বিজেপি নেতা, অশান্তি
পূর্ব মেদিনীপুরের ময়না থানার বাকচায় তৃণমূল নেতা বসুদেব মণ্ডল খুনের ...বিশদ

09:44:40 AM

চারটি একক বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র ভোটের অনুমতি রাজ্যের
রাজ্যের চারটি একক (ইউনিটারি) বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র নির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি দিল রাজ্য ...বিশদ

09:30:00 AM

প্রাচীন গ্রিক পদ্ধতি মেনে বিশ্ব সুন্দরী বেলা
সুপার মডেল বেলা হাদিদই বিশ্বের সবথেকে সুন্দর মহিলা। গ্রিক গণিত ...বিশদ

09:27:09 AM

নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই স্বাস্থ্য পরীক্ষা হবে বিজন সেতুর, বন্ধ হবে যান চলাচল
আগামী শুক্রবার থেকে বালিগঞ্জের বিজন সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষার অনুমতি দিল ...বিশদ

09:08:19 AM

হকি বিশ্বকাপের দাবিদার ভারত
২০২৩ হকি বিশ্বকাপ আয়োজনের দাবিদার ভারত। তারা ২০২৩ সালের উইনডোতে ...বিশদ

08:57:16 AM

 টালা ব্রিজ: আজ বৈঠকে শুভেন্দু
টালা ব্রিজে বাস চলাচল বন্ধের জেরে তৈরি হওয়া সমস্যা নিয়ে ...বিশদ

08:39:38 AM