Bartaman Patrika
আমরা মেয়েরা
 

 স্বামী ও স্ত্রী একই পেশায় থাকলে...

 এক পেশাতে কাজ করছেন স্বামী স্ত্রী। পেশাদারিত্ব বজায় রেখেই ঠিক রাখুন সম্পর্ক। পরামর্শ দিলেন সাইকিয়াট্রিস্ট ডঃ রীমা মুখোপাধ্যায়

বর্তমানে মেয়েরা এগিয়ে গিয়েছি অনেকটাই। ছেলেদের সঙ্গে সমান তালে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে চলেছি এ বিষযে সন্দেহ নেই। একই পেশায় সমানতালে কাজ করছেন নারী ও পুরুষ। তৈরি হচ্ছে বন্ধুত্বের সম্পর্ক। আবার বন্ধুত্বের বিনি সুতোর মালাতেই  গাঁথা হয়ে যাচ্ছে  দুটি জীবন। তাঁরা বাঁধা পড়ছেন নতুন বন্ধনে। পেশাগত বন্ধুত্ব থেকেই তৈরি হচ্ছে পারিবারিক বন্ধন। এক পেশাতে কাজ করছেন স্বামী-স্ত্রী। বিয়ের পরেও একজোট হয়ে  তাঁরা এগিয়ে চলেছেন কয়েক কদম।
এই যেমন তরী আর ঋষভের কথাই ধরি। দুজনেই কাজ করেন একটি চার্টার্ড ফার্মে। অ্যাকাউন্টেন্সি পড়ার সময় আলাপ গড়ায় বন্ধুত্বে। আর বন্ধুত্ব থেকে ভালোবাসা, প্রেম, বিয়ে। সময়  যত গড়িয়েছে ততই গাঢ় হয়েছে দুজনের সম্পর্ক। চাকরি, কেরিযার পাকা হতেই আর দেরি করেনি ওরা। চার হাত এক করে নিয়েছে। তরীর বাবার নিজের চার্টার্ড ফার্মেই কাজ শুরু দুজনের। কিন্তু গোল বাধল বিয়ের পর। ঋষভ কিছুতেই সেখানে যুক্ত থাকতে চাইল না। ঋষভের ইচ্ছে বিদেশি কোম্পানিতে হাই প্রোফাইল জব। তরীও বাইরে যাক তার সঙ্গে। বিদেশে সেটল করার ইচ্ছে তরীর থাকলেও বৃদ্ধ বাবা-মাকে ছাড়তেও পারছিল না। কেরিয়ার নিযে দ্বন্দ্ব আর সম্পর্কের টানাপোড়েনে জেরবার দুজন। অথচ একমাত্র মেয়ে আর জামাইয়ের ভবিষ্যতের কথা ভেবেই তরীর বাবা চার্টার্ড ফার্মটি নতুন করে সাজান। 
সাইকিয়াট্রিস্ট ডঃ রীমা মুখোপাধ্যায় বললেন, এক পেশায় থাকা দম্পতির সমস্যা এড়িযে যাওয়া যায় সহজেই। সম্পর্কের জটিলতার আরও কিছু প্রশ্ন রেখেছিলাম তাঁর কাছে। সমাধান দিলেন সহজ কথায়।
 এক পেশায় স্বামী স্ত্রী থাকলে তাদের সম্পর্ক কেমন হয়?
 অনেক দিক থেকেই সুবিধা আছে। এক পেশায থাকলে দুজনেই পেশাগত সমস্যার দিকটা বুঝতে পারেন। যেটা অন্য পেশার মানুষ চট করে বুঝতে পারেন না। দুজনের মধ্যে একটা আলাদা বোঝাপড়া কাজ করে। কাজের জগতে নাইট শিফট থাকলে দুজনেই এক ফিল্ডের হলে বুঝতে পারেন সেটা কতটা জরুরি। স্বামীও যেমন স্ত্রী কেন করছেন বুঝতে পারেন, তেমন স্ত্রীও তখন স্বামীর পেশাগত প্রেশারটা বুঝে শপিং বা বেড়াতে নিয়ে যাওযার আবদার করে বসেন না, ফলে আমরা বলতে পারি এতে ভুল বোঝাবুঝির সম্ভবনা অনেকটাই কম। একটা উদাহরণ দিই। অভিনয় জগতে স্বামী স্ত্রী উভয়েই থাকলে বহু অভিনেতা-অভিনেত্রীর সঙ্গে কাজ করার যে পরিস্থিতি সেটা সহজে বুঝে নিতে পারবেন। প্রথম থেকেই এই আন্ডারস্ট্যান্ডিংটা থাকে। তবেই তো সম্পর্ক গড়ে ওঠে।
 এক পেশায় থাকলে বয়সজনিত কারণে সমস্যা তৈরি হতে পারে কি?
 হতে পারে। এর সামাজিক দিক রয়েছে। যদিও আমাদের সমাজের হিসেবে ছেলেরা সাধারণত চাকরি পেয়ে তবেই বিয়ে করে। তবে বয়সের ফারাক থেকে সমস্যা হতেই পারে।
 রেষারেষি হওযার সম্ভবনা কতটা? কেন এই রেষারেষি হয?
 এক পেশায় থাকলে এই রেষারেষিটা অনেক সময়েই দেখা যায়। কারণ সামাজিক তুলনার সামনে পড়ে দুজনের মধ্যের বোঝাপড়াটা নষ্ট হয়ে যায়। একই নেটওয়ার্কের মধ্যে পড়ে একজন সম্মান পায় এবং অন্যজন পায় না, এই ঘটনা তো সারাক্ষণই ঘটে। সেক্ষেত্রে স্বামী-স্ত্রী হলে সমস্যা গম্ভীর হয়ে যায়। বলিউডি সিনেমা অভিমান থেকে শুরু করে হালফিলের আশিকি সর্বত্রই আমরা দেখেছি পেশাগত দ্বন্দ্ব কীভাবে একটা সম্পর্ক নষ্ট করে দেয়। 
 একই কাজ যদি দুজনে করে তাহলে শেয়ারিংয়ের মনোভাব কতটা থাকে?
 এক পেশায় দুজনে থাকলে অবশ্যই একটা শেয়ারিংয়ের মনোভাব থাকে। সেটাই স্বাভাবিক। আর এটাই বিরাট অ্যাডভানটেজ। বন্ধুত্বের দিকটা প্রকাশ পায় বইকি এর মাধ্যমে। তেমনি সব পেশাতেই অনেক সমস্যা থাকে। পেশাগত সমস্যাগুলো কীভাবে ডিল করা যায়, এমনকী সমস্যাটা বলতে পারা, প্রকাশ করতে পারার একটা জায়গাও থাকে। সম্পর্ক যতটা ম্যাচিওরড হয় ততটাই সঙ্গীরা খোলামেলা হয়ে ওঠে। 
 শেয়ারিং থেকে কি অন্যরকম একটা বন্ধুত্ব জন্মাতে পারে যেটা স্বামী স্ত্রীর সম্পর্ককে অন্যরকম করে তুলতে সক্ষম হয়?
 সব সম্পর্কেই কিছু না কিছু সমস্যা থাকে। তার সুবিধার দিকগুলোই তো দেখতে হবে। অসুবিধার দিকগুলো মেনে নিয়ে বা সামলে নিয়ে সুবিধার দিকটা ফোকাস করতে হবে। তবেই তো সম্পর্ক এগিয়ে যাবে। আমরা জানি প্রত্যেক পেশাতেই একটা ফ্রাস্ট্রেশন থাকে। দিনের শেষে বাড়িতে সেটা বলতে পারার অন্তত একজন আছে যার কাছ থেকে আপনি একটা পথ পাবেন। কিছু না হোক অন্তত তিনি বুঝবেন আপনার সমস্যাটা। সঙ্গীর কাছে এই বলতে পারাটাই অনেক সময় খুব দরকারি হযে ওঠে।
 অনেক সময় এমন হয় যে খোলাখুলি কোনও ঝগড়া হল না, কিন্তু হিংসে বা রেষারেষির জন্য বিবাহিত সম্পর্ক ক্রমশ নষ্ট হয়ে গেল। এক পেশায় থাকলে এটা কি হয়?  
 সামাজিক পরিবেশ এক্ষেত্রে অনেকটাই বড় ভূমিকা নেয়। সমস্যাটা বাড়িয়ে দেয় বা তৈরি করে। মেয়েরা এখনও সমাজে সেকেন্ড ক্লাস সিটিজেন। পুরুষশাসিত সমাজে একটি মেয়ে কাজ করছেন, টাকা রোজগার করছেন, দিনের শেষে সেটাই বড় কথা। কিন্তু তার খুব নাম ডাক হল এটা এখনও অনেকেই নিতে পারেন না। কিছু লোক আছেন যারা এইসব নিয়ে অন্যের সংসারে নাক গলায়। সমস্যা তৈরি করতে চেষ্টা করে। আবার অনেকক্ষেত্রে ছেলের বাড়ির লোকেরা বাড়ির বউয়ের পেশার তাগিদে ডেডিকেশনের মূল্য কম দেন। বউটি বেশি নামডাক করে ফেললেই গেল গেল রব ওঠে। বিবাহিত মেয়েরা অবশ্যই কাজ করছেন। কিন্তু ছেলেকে ছাপিয়ে গেলেই সমস্যা। এইসব বাড়ির লোকের আচরণ থেকেও স্বামী স্ত্রীর সম্পর্ক বিষিয়ে যেতে পারে। বরং  দেখেছি চাকরিরত দম্পতিরা যাঁরা বাইরে থাকেন, তাঁরা এই পরিস্থিতিতে দুজনেই বেশ মানিয়ে নেন। 
 রেষারেষি থেকে যদি সম্পর্কে দ্বন্দ্ব আসে তাহলে তা সামলানোর উপায় কি?
 পেশাগত ও ব্যক্তিগত জীবনের মধ্যে ভারসাম্য রক্ষা করা সুস্থ সম্পর্কের জন্য খুব জরুরি। দূরত্ব তৈরি হলে তখন দুজনেই যদি নিজের ইগো নিয়ে থাকেন তাহলে তো সমস্যা বাড়বেই। তবে এটা বললে পুরুষ পাঠকরা ভুল বুঝবেন তবুও বলছি মেয়েদের ইগো তুলনায় অনেক কম। তাই তারা স্বামীর সাফল্যে, এগিয়ে থাকায় গর্বিত হয়। অবশ্য অনেক স্বামীও স্ত্রী-র সাফল্যে গর্ববোধ করেন। আসলে  সত্যি ভালো বন্ডিং আন্ডারস্ট্যান্ডিং থাকলে এই সাফল্য বা পিছিয়ে পড়া কোনওটাই বড় ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায় না। তবে একজনের অফিস পার্টিতে অন্যজন যেতে অপছন্দ করলে সেটা মেনে নেওয়া উচিত। একে অন্যের ভালো খারাপ পছন্দ অপছন্দটা বুঝতে হবে। স্ত্রী যদি বোঝেন কোনটা তাঁর স্বামীর অপছন্দ সেটা তিনি নাই বা করলেন। অপরদিকটাও সত্যি। আমার মনে হয় কোনও মহিলাই তাঁর বিবাহিত জীবনটা চট করে নষ্ট করতে চান না। আজকের যুগে দাঁড়িয়েও বলছি, কেরিয়ার সামলেও মেয়েদের কাছে পরিবার যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ । তাই দুজনকেই বুঝে চলতে হবে। কিছু বিষয় এড়িয়ে যেতে হবে, কিছু সামলে নিতে হবে। তাহলে এক পেশা বা অন্য পেশা কোনওটা‌ই সমস্যা তৈরি করবে না। স্বামীকেও ইগো ঝেড়ে স্ত্রীয়ের মন বুঝতে হবে। অ্যাটিটিউডটা ঠিক রেখে যদি চলা যায়, সেটাই কাম্য। স্বামী যদি বলেন কাজটাই ছেড়ে দাও, সেটা অযৌক্তিক কথা। কারণ আজকের যুগে উভয়ের কাজ করাটাই প্রয়োজনীয়।
 রেষারেষি হলে, পেশা বদল না করেও ভালো থাকার উপায় কি?
 কোন পরিস্থিতিতে কি হচ্ছে সেটা খোলা মনে আলোচনা করে নেওয়াই ভালো। তিক্ততা না বাড়িযে মিটিয়ে নিন। সব জায়গায় দুজনে গেলে যদি সমস্যা হয় তাহলে ক্ষেত্র বিশেষে একজনের যাওয়াই ভালো। মনে রাখুন  দুজনেরই আইডেন্টিটি আছে। কিছু লোককে অ্যাভয়েড করতে হবে যারা সমস্যা তৈরি করছে। একে অপরের কাছে নিজেদের গুরুত্বটা বুঝুন। সম্পর্কের দাম দিন। কিছু জিনিস পেতে গেলে কিছু ছাড়তেই হবে। সব একসঙ্গে পাওয়া যায় না। তাই দেখতে হবে কোনটা করলে সম্পর্কটা ভালো থাকবে। অ্যাডজাস্টমেন্ট আর কম্প্রোমাইজ উভয়কেই করতে হবে। জীবনে চলতে গেলে এই দুটোই সমানভাবে দরকার। পেশাদারিত্বকে গুরুত্ব দিয়েও সম্পর্কের দাম দিতে জানতে হয়। 
সব শেষে বলি, এক অফিসে স্বামী স্ত্রী, প্রেমিক প্রেমিকা কাজ করলে যেমন পজিটিভ দিক আছে, তেমন কিছু সমস্যাও তৈরি হতে পারে। তাই মেনে চলা উচিত অফিস ডেকোরাম। ব্যক্তিগত সম্পর্ক যাই হোক, অফিসে দুজন সহকর্মী। ফলে উভয়কেই পেশাদার আচরণ করতে হবে। একান্তে সময় কাটাতে ইচ্ছে হলেও দৃষ্টিকটু কাজ করা উচিত নয় অফিস চত্বরে। অন্য সহকর্মীদের মতোই মিশুন, বন্ডিং ঠিক থাকলে সম্পর্ক ভালো থাকবেই। স্বাভাবিক আচরণেই নিজেদের সীমাবদ্ধ রাখুন। 
সাক্ষাৎকার শেরী ঘোষ
04th  May, 2019
ভয়টা নিয়ে তো বাঁচা যায় না

এখন সবাইকে নিরাপত্তার জন্য বাড়িতেই থাকতে হবে। খুব প্রয়োজন ছাড়া বেরনো যাবে না। এটা মেনে-বুঝে চলা ছাড়া গতি নেই। আর সবচেয়ে বড় কথা, বাচ্চাদেরও সেটা ভালো করে বোঝানোটা খুব জরুরি। হঠাৎ এসে বললাম, লকডাউন হয়েছে, সবাই বাড়িতে থাকো। 
বিশদ

30th  May, 2020
 রান্নাবান্নাটা শিখিয়ে দিল লকডাউন

সাত ছুঁই-ছুঁই ছেলে উপমন্যুকে নিয়ে অভিনেত্রী অপরাজিতা ঘোষই বা কেমন আছেন?
বিশদ

30th  May, 2020
মুক্তির হাত 

কিছু দিন আগে একই ভাবে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন ক্যাপ্টেন স্বাতী রাভাল, এয়ার ইন্ডিয়া বোয়িং ৭৭৭-এর পাইলট। করোনা-সঙ্কটের মধ্যে ইতালির রাজধানী রোমে আটকে থাকা ২৬৩ জন ভারতীয়কে এয়ারলিফ্ট করে দিল্লি ফিরিয়ে এনেছেন তিনি।  বিশদ

23rd  May, 2020
মানুষের পাশে 

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার চালাননি। নিজে নিজের মতো করে চেয়েছেন এই দুঃসময়ে মানুষের পাশে দাঁড়াতে। নয়ডার ২২-এর তরুণী আরুষি বৈষ্ণব। অর্থনীতির এই ছাত্রীর বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি রয়েছে।   বিশদ

23rd  May, 2020
দেশের জন্য 

তরুণী গবেষক মিনাল দাখাভে ভোঁসলে— দু’মাস আগেই সংবাদপত্রের শিরোনামে জায়গা করে নিয়েছিলেন পুনে শহরের এই ভাইরোলজিস্ট। শিল্পপতি আনন্দ মাহিন্দ্রা থেকে অভিনেত্রী সোনি রাজদান, মিনালের প্রশংসায় পঞ্চমুখ এখন সবাই।  বিশদ

23rd  May, 2020
নব আনন্দে জাগো  

বিশ্ব জুড়ে এক অন্য পরিবেশ। তবু তারই মধ্যে ভালো থাকবেন কীভাবে? নিজেদের অভিজ্ঞতার কথা শোনালেন তিন বিশিষ্টনারী। তাঁদের সঙ্গে কথা বললেন কমলিনী চক্রবর্তী।  
বিশদ

11th  April, 2020
শতাধিক পুত্র কন্যার মা
নৃত্যশিল্পী অলকানন্দা 

মাতৃরূপী একজন প্রখ্যাত নৃত্যশিল্পী, যিনি ছয় দশকের বেশি সময় ধরে নৃত্য পরিবেশন করে চলেছেন। যাঁর বহু সন্তান পথভ্রষ্ট হওয়ার পরেও তঁার সাহচর্যে এসে নতুন জীবন পেয়েছে। বিভিন্ন বয়সের এই সন্তানদের ‘মা’ অলকানন্দা রায়ের ক্ষেত্রে সমাজসেবিকা খুবই ছোট একটা খেতাব।   বিশদ

28th  March, 2020
এগারো রেস্তোরাঁর মালিক জয়ন্তী 

বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা জয়ন্তী কাঠালে পেশায় একজন সফট্ওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার। ৪০ বছর বয়সি এই মহিলা চাকরি করে নিজের সন্তানকে সময় দিতে পারতেন না। তাই মানসিকভাবে খুবই ভেঙে পড়ছিলেন। তারপরই একদিন সিদ্ধান্ত নেন, খাবার হোম ডেলিভারি শুরু করবেন। 
বিশদ

28th  March, 2020
রাতে নারীদের নিরাপত্তায় বেশি
আলোকিত রাস্তা চেনাবে গুগল ম্যাপ 

এবার গুগল ম্যাপে যুক্ত হতে চলেছে নতুন ফিচার। গুগলের তরফে জানানো হয়েছে, রাতে অন্ধকার রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করতে গিয়ে অনেক মহিলাই সমস্যায় পড়েন। তাদের সাহায্য করতে নতুন ফিচার আনছে গুগল ম্যাপ। 
বিশদ

28th  March, 2020
নারীর স্বভাব 

একটা প্রচলিত ধারণা আছে যে, মেয়েদের মনে নাকি জিলিপির প্যাঁচ। মেয়ে মানেই কূট-কচালিতে সিদ্ধহস্ত। সুযোগ পেলেই কমবয়েসি বিবাহিত মেয়েরা স্বামী-শ্বশুরবাড়ির নিেন্দ করে। আর বয়স্ক শাশুড়িরা সময় পেলেই বাড়ির বউয়ের নিন্দে-মন্দ করে।  
বিশদ

28th  March, 2020
একটি স্কুলে সারা বছরের খাবার পাঠালেন লোপেজ 

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডধারী পপ গায়িকা জেনিফার লোপেজের দরদি মানুষ হিসেবে পরিচিতি রয়েছে। সুযোগ পেলেই মানুষের সেবায় এগিয়ে আসেন তিনি। এবার আমেরিকার টেনেসির একটি স্কুলে এক বছরের খাবার অনুদান দিয়েছেন ৫০ বছর বয়সি এই তারকা। এই উদ্যোগে তাঁকে সহায়তা করেছেন তাঁর বন্ধু অ্যালেক্স রড্রিগেজ।  
বিশদ

21st  March, 2020
‘সুপার মম’-এর প্রেরণায় দিকে দিকে খুলছে মাতৃদুগ্ধের ব্যাঙ্ক 

মাতৃদুগ্ধ প্রয়োজন। অথচ শিশুর আসল মা শরীর অসুস্থ থাকায় শিশুকে দুগ্ধ পান করাতে অপারগ। অথবা অন্য কোনও কারণেই হোক, কোনও শিশুর মাতৃদুগ্ধ প্রয়োজন অথচ তা জোগাড় করা সম্ভব হচ্ছে না। তাহলে উপায়? 
বিশদ

21st  March, 2020
ছয় নারী নভোচারীকে মঙ্গলগ্রহে পাঠাচ্ছে নাসা 

মঙ্গলগ্রহে যাচ্ছে মানুষ। আর সেই যাত্রার জন্য মোট ১৩ নভোচারীকে বাছাই করেছে মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ‘নাসা’। প্রতিষ্ঠানটি সম্প্রতি টেক্সাসে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই নভোচারীদের নাম ঘোষণা করে। ‘নাসা’ জানিয়েছে, ২০৩০ সালে ১৩ নভোচারীকে নিয়ে মঙ্গলগ্রহের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করবে নাসা’র মহাকাশযান। 
বিশদ

21st  March, 2020
নারী জাগরণে আদিবাসী মেয়েদের অংশগ্রহণ 

শান্তিনিকেতনে সুব্রত বসু ও সুনীপা বসুর তত্ত্বাবধানে প্রতিষ্ঠিত প্রকৃতি ভবনের নাম সত্যিই উল্লেখযোগ্য। তবু তাঁদের গড়া প্রকৃতি ভবনের এই জাদুঘরের বর্ণনা ও ব্যাখ্যা এই প্রতিবেদনের মূল উদ্দেশ্য নয়। এই পুণ্যভূমিতে লোকচক্ষুর অন্তরালে যে কাজ প্রায়শই হয় তাই নিয়ে কথা বলাই এই প্রতিবেদনের আলোচ্য বিষয়। 
বিশদ

21st  March, 2020
একনজরে
  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনার দাপটে বিভিন্ন দেশ থেকে ফেরা পেশাদার ব্যক্তিদের জীবিকার সংস্থান করে দিতে উদ্যোগ নিল কেন্দ্রীয় সরকার। এঁদের জন্য তথ্যভাণ্ডার তৈরি করে নিয়োগকারী সংস্থা, রাজ্য সরকার এবং বণিকসভাগুলিকে পাঠানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে। ...

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মাসখানেক হল চালু হয়েছে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ কোভিড হাসপাতাল। চালু হয়েছে করোনা রোগীদের সুপার স্পেশালিটি ব্লক বা এসএসবি বাড়ি। কিন্তু, এরই মধ্যে কোভিডে মৃত ব্যক্তির মোবাইল উধাও হয়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ জমা পড়েছে মেডিক্যালের সিকিউরিটি অফিসারের ...

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী ১ আগস্ট ভারতে খুলছে ফিফার ট্রান্সফার উইন্ডো। আন্তঃরাজ্য ছাড়পত্রও শুরু হবে একই দিনে। বৃহস্পতিবার অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনের সচিব কুশল দাস এই কথা জানিয়ে বলেছেন, ‘৯ জুন ভারতে ফিফার আন্তর্জাতিক উইন্ডো খোলার কথা ছিল। ...

সংবাদদাতা, হরিশ্চন্দ্রপুর: বৃহস্পতিবার মালদহে তিনজনের মৃত্যু হল বজ্রপাতে। তাঁরা হরিশ্চন্দ্রপুর-১ ব্লকের বাসিন্দা। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতরা হলেন বিনু ওঁরাও (৫৫), সুলতান আহমেদ (২৩) ও মিঠু কর্মকার (৩৩)। বিনুর বাড়ি বাইশা গ্রামে। সুলতানের বাড়ি নারায়ণপুর গ্রামে ও মিঠুর বাড়ি দক্ষিণ ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

সঠিক বন্ধু নির্বাচন আবশ্যক, কর্মরতদের ক্ষেত্রে শুভ। বদলির কোনও সম্ভাবনা এই মুহূর্তে নেই। শেয়ার বা ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৩২: শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃতের রচনাকার মহেন্দ্রনাথ গুপ্তের (শ্রীম) মৃত্যু
১৯৩৬: অভিনেত্রী নূতনের জন্ম
১৯৫৯: শিল্পপতি অনিল আম্বানির জন্ম
১৯৭৪: অভিনেতা অহীন্দ্র চৌধুরির মৃত্যু
১৯৭৫ - মার্কিন অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলির জন্ম
১৯৮৫: জার্মান ফুটবলার লুকাস পোডোলোস্কির জন্ম

04th  June, 2020


ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৭৪ টাকা ৭৬.৪৫ টাকা
পাউন্ড ৯৩.১৩ টাকা ৯৬.৪৪ টাকা
ইউরো ৮৩.২২ টাকা ৮৬.৩১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

দৃকসিদ্ধ: ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৫ জুন ২০২০, শুক্রবার, পূর্ণিমা ৪৯/২৮ রাত্রি ১২/৪২। অনুরাধা নক্ষত্র ২৯/৩১ অপঃ ৪/৪৪। সূর্যোদয় ৪/৫৫/১২, সূর্যাস্ত ৬/১৪/৩২। অমৃতযোগ দিবা ১২/১ গতে ২/১৪ মধ্যে। রাত্রি ৮/২২ মধ্যে পুনক্ষ ১২/৩৮ গতে ২/৪৭ মধ্যে পুনঃ ৩/২৯ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৮/১৫ গতে ১১/৩৫ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৫৫ গতে ১০/১৫ মধ্যে।
২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৫ জুন ২০২০, শুক্রবার, পূর্ণিমা ১/১। অনুরাধা নক্ষত্র অপরাহ্ন ৫/১২। সূর্যোদয় ৪/৫৬, সূর্যাস্ত ৬/১৬। অমৃতযোগ দিবা ১২/৬ গতে ২/৪৭ মধ্যে এবং রাত্রি ৮/২৯ মধ্যে ও ১২/৪২ গতে ২/৪৮ মধ্যে ও ৩/৩০ গতে ৪/৫৬ মধ্যে। বারবেলা ৮/১৬ গতে ১১/৩৬ মধ্যে কালরাত্রি ৮/৫৬ গতে ১০/১৬ মধ্যে।
১২ শওয়াল

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
রাজ্যে করোনায় মৃত্যু ২৮৩
রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৬৮ জনের শরীরে মিলল করোনা ...বিশদ

04-06-2020 - 07:02:37 PM

তামিলনাড়ুতে একদিনে করোনা আক্রান্ত ১,৩৭৩, মৃত ১২ 
তামিলনাড়ুতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১,৩৭৩ জন। মৃত্যু ...বিশদ

04-06-2020 - 07:01:52 PM

কর্ণাটকে একদিনে করোনা আক্রান্ত ২৫৭, মৃত ৪ 
কর্ণাটকে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু ...বিশদ

04-06-2020 - 06:51:26 PM

বাংলাদেশে একদিনে করোনা আক্রান্ত ২,৪২৩, মৃত ৩৫
গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ২,৪২৩ জন। ফলে ...বিশদ

04-06-2020 - 06:04:57 PM

নেপালে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৩৩৪ 
গত ২৪ ঘণ্টায় নেপালে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৩৩৪ জন। এখন ...বিশদ

04-06-2020 - 05:53:17 PM

তবলিগি যোগ: ৩১৬০ জন বিদেশির ভারতে প্রবেশ নিষিদ্ধ
৩১৬০ জন বিদেশি নাগরিককে ভারতে প্রবেশ নিষিদ্ধ করল কেন্দ্র। তবলিগি ...বিশদ

04-06-2020 - 05:29:00 PM