Bartaman Patrika
চারুপমা
 

রাঙা মাটির ডাক

পরিবেশকে সুস্থ রাখতে শুধুমাত্র প্রাকৃতিক রং নিয়ে কাজ করে পোশাকের ব্র্যান্ড দর্জি শান্তিনিকেতন। তাদের সঙ্গে কথায় অন্বেষা দত্ত।

নাম কাহিনি
সুমন আর সেঁওতীর ব্র্যান্ড ‘দর্জি শান্তিনিকেতন’। তাঁরা সাস্টেনেবল ফ্যাশনে (অর্থাৎ যা টেকসই হবে) বিশ্বাসী। যে রং বা কাপড় তাঁরা ব্যবহার করেন এবং তাঁদের নকশা—সবই প্রকৃতির খুব কাছাকাছি। সুমন জানালেন, দর্জি পোশাক তৈরি করেন, তাই ব্র্যান্ডে রেখেছেন দর্জি শব্দটা। আর তাঁদের পোশাকের রং, ডিজাইন বা নান্দনিকতা, সবেতেই শান্তিনিকেতন আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে। তাই তাঁদের ব্র্যান্ডের নাম ‘দর্জি শান্তিনিকেতন’। 
বছর তিনেক আগে পোশাকে ন্যাচারাল ডাই নিয়ে কাজ করার কথা ভেবেছিলেন তাঁরা। বর্ণময় প্রকৃতির কাছ থেকে রং খুঁজে নেওয়ার চেষ্টা শুরু তখন থেকেই।  ফুল পাতা কিংবা মাঠেঘাটে ছড়িয়ে থাকা নানা সামগ্রী  থেকে রং বের করে সেই রং জামাকাপড়ে দেওয়া যায় এবং পোশাক ধুয়ে ফেললেও সেই রং যে ওঠে না, সেই কৌশল হাতেকলমে জেনে নেওয়ার জন্য উদ্যোগী হন তাঁরা। কেমিক্যাল রং আবিষ্কার হওয়ার বহু শতাব্দী আগে জামাকাপড়ে এই ধরনের রং ব্যবহার করা হতো। সেঁওতী বললেন, ‘শান্তিনিকেতনে ন্যাচারাল ডাই করার চল অনেক দিনই। অতীতে বসন্ত উৎসবের সময় পলাশের রঙে পাঞ্জাবি ও শাড়ি রাঙিয়ে তোলা হতো। পাঠভবনের ইউনিফর্মেও এই ধরনের ন্যাচারাল ডাই ব্যবহার হয়েছে এক সময়। ফলে এই প্রথাটা ছিলই।’

রঙে মেশা
‘রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর যখন ইন্দোনেশিয়ার বালি থেকে বাটিক নকশাটি শান্তিনিকেতনে নিয়ে আসেন, তখন থেকে এই নকশার প্রচলন শুরু হয়েছে আমাদের শান্তিনিকেতনে। সেটাও হতো সম্পূর্ণ ন্যাচারাল ডাইয়েই,’ বলেন সুমন। তাঁর দাবি, সারা বিশ্বে রাসায়নিক দূষণ ঘটানোর ক্ষেত্রে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ফ্যাশন দুনিয়া। অর্থাৎ আমরা নিয়মিত যে পোশাক পরি, তা তৈরি করতে যত রাসায়নিক রং বা উপাদান ব্যবহার হয়, তার সবটাই বিভিন্ন নদীতে মিশছে। দূষণের মাত্রা এভাবেই বাড়ছে। 
যমুনার তীরে ছট পুজোর একটা ছবি দেখে চমকে গিয়েছিলেন সুমন। জলের সাদা ফেনা অবাক করেছিল তাঁকে। খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন যমুনা তীরবর্তী রাসায়নিক তৈরির কারখানা থেকে বর্জ্য মিশে জলের ওই হাল হয়েছে। তখন থেকে সুমনরা ভাবতে থাকেন, পরিবেশকে স্বস্তি দিয়ে কীভাবে পোশাক বানানোর কাজটা করা যায়। সেই থেকেই ন্যাচারাল ডাইয়ে ফেরা। এখন পোশাকে কোনও কেমিক্যালই ব্যবহার করেন না তাঁরা। তবে এই ধরনের প্রাকৃতিক উপাদান নিয়ে কাজের একটা অসুবিধে হল এই ধরনের রং টেরিকট বা সিন্থেটিক কাপড় শুষে নিতে পারে না। সুতি, উল আর সিল্কেই শুধুমাত্র ন্যাচারাল ডাই করা সম্ভব। তাই হ্যান্ডলুমের কাপড় দিয়ে কাজ করা শুরু করেন তাঁরা। 
কিছু প্রাকৃতিক রং তাঁরা নিজেরাই তৈরি করে নেন। যেমন গাঁদা ফুল বাড়ির বাগানেই ফোটে। কম পড়লে বাজার থেকে আরও ফুল কিনে নেন। আবার কিছু প্রাকৃতিক রং যেমন ইন্ডিগো, তাঁদের কিনতে হয়। সেটা তামিলনাড়ু থেকে আসে অনলাইনে। এই রংটিও স্থানীয়ভাবে তৈরি করা যায় কি না, সে ব্যাপারে ভাবনাচিন্তা করছেন তাঁরা। পোশাক বানানোর প্রতিটি ধাপে স্থানীয়ভাবে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়ে ওঠার চেষ্টা করছেন তাঁরা। 

কাজের ধরন
কীভাবে কাজ হয় জিজ্ঞেস করতে সুমন-সেঁওতী জানালেন, শান্তিনিকেতনে চিরাচরিতভাবে চলে আসা খেস জাতীয় কাপড়, আশপাশে কাটোয়া ও শান্তিপুরের গ্রাম থেকে সুতির কাপড় এনে সেগুলো প্রাকৃতিক রং দিয়ে রাঙানো হয়। কখনও হরিতকী-গাঁদা ফুল-কাঁচা হলুদ, কখনও খয়ের-মোচা-গুড়, কখনও আবার ইন্ডিগো থেকে রং বের করে চুবিয়ে নেওয়া হয় কাপড়ে। বাটিকের জন্য কাপড়ে মোম দিয়ে ছবি এঁকে রঙে চুবিয়ে তুলে নিলে মোমের অংশটা বাদ দিয়ে রঙিন হয়ে একটা নকশা ফুটে ওঠে। মোমে রং ধরে না। তা থেকেই বাটিকে নকশা তোলা হয়। এখন মোমের বদলে অনেকে প্যারাফিন ব্যবহার করেন, কারণ খরচ বাঁচে তাতে। কিন্তু সুমন জানালেন, তাঁরা এখনও মধু এবং মোম দিয়ে বাটিকের কাজ করছেন। প্রকৃতির যত্ন নেওয়া এবং বাংলার ঐতিহ্য তাঁদের কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। ঐতিহ্যের কথা ভাবতে গিয়ে তাঁরা সাধারণ সুতির কাপড় থেকে নজর ফেরান তাঁতের দিকে। সাধারণ সুতিতে বেশি নকশা করা সম্ভব হচ্ছিল না। টাই অ্যান্ড ডাই, বাটিক এবং বাঁধনি কাজের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকতে হচ্ছিল। তাই নকশার জন্য তাঁতের কাপড় নিয়ে কাজ করা শুরু করেন। 

পুরনো থেকে নতুন 
সেঁওতী জানালেন, বর্ধমানের একটি জায়গা থেকে বিভিন্ন ধরনের কাউন্টের খাদি সুতো তাঁরা নিয়ে এসে সেগুলোকে বিভিন্ন রঙে, বিভিন্ন প্যাটার্ন তোলানোর কাজে ব্যবহার করা শুরু করেছিলেন। তাঁদের তাঁতি রাখহরি দাস সুতোগুলো নিয়ে বুঝে নেন তাঁদের ব্র্যান্ড কী ধরনের প্রোডাক্ট চাইছে। তারপর হ্যান্ডলুমে সেটা বুনে দেন। সেই কাপড়েই সুমনরা ডিজাইনিং করেন, তারপর আর একজন দর্জি সেই নকশা থেকে পোশাক বানান। সেটা বানানোর পরে যে ছাঁটের কাপড় পড়ে থাকে, সেগুলো জুড়েও তাঁরা একটা নকশা ফুটিয়ে তোলেন। এভাবে আপসাইকেল (ফের ব্যবহার করার জন্য) করার প্রক্রিয়ায় তৈরি হয় অন্য পোশাক। 
‘দর্জি শান্তিনিকেতন’-এর পাশাপাশি তাঁদের আর একটি শাখা ‘দর্জি আপসাইকেল’। এতে পুরো কাজটাই আপসাইকেল করা জিনিসপত্র দিয়ে করা হয়। তাঁদের কথায়, দর্জি শান্তিনিকেতন-এর বাতিল হওয়া সব কিছুই কাজে লাগানো হয় দর্জি আপসাইকেল-এ। সুমন বলেন, ‘কাপড়ের একটা সুতোও নষ্ট হোক, আমরা চাই না। যত্রতত্র সেসব ফেলে নোংরা হোক চারপাশ, সেটাও করি না কখনওই।’ সেঁওতীর মতে, ‘সুতোর পাক থেকে শুরু করে পোশাক তৈরির প্রক্রিয়া একটা জার্নির মতো। তাই এই যাত্রাপথের কোনও অংশ ফেলে দেওয়া যায় নাকি? তার জন্যই আপসাইকেল। পাশাপাশি রং ওঠা পুরনো জামাকাপড় সংগ্রহ করেও কাজ করছি।’ এ প্রসঙ্গে সুমনের সংযোজন, ‘বিদেশে এখন এটার চল হয়েছে খুবই। ধরুন আপনার নিজেরই কোনও পোশাক পুরনো ডিজাইনে আর পরতে ভালো লাগছে না। আপনি সেটা একটা আপসাইকেল স্টুডিওয় দিলেন, সেখানে আপনার মনমতো পরিবর্তন ঘটিয়ে পুরনোটি কাজে লাগিয়েই অন্য ধরনের পোশাক পেয়ে গেলেন।’ এই ধরনের পরিবশেবান্ধব পদক্ষেপে বিশ্বাসী দর্জি শান্তিনিকেতন-ও। 

সবার জন্য পোশাক
তাঁদের ব্র্যান্ডের পোশাক ধীরে ধীরে সাড়া পেয়েছে ভালোই, জানালেন সুমন। লিঙ্গ-সাম্যের কথা মাথায় রেখে কাজ করেন তাঁরা। ছেলেদের জন্য বিশেষ জামা বা মেয়েদের জন্য আর এক রকম জামা, বা কিছু বিশেষ রং   ছেলেদের জন্য আর কিছু রং মেয়েদের জন্য— ব্র্যান্ডে এমন বিভাজন রাখেননি তাঁরা। একই সমীকরণ আকৃতিগত দিকেও। সুমনের কথায়, ‘আমরা যা বানাই, সেই পোশাক ছেলে বা মেয়ে যে কেউ পরতে পারেন। ভারী চেহারা হোক বা পাতলা গড়ন, যিনি যেমনই হোন, পরুন আমাদের পোশাক।’ প্রথম দিকে অল্পবয়সিদের মধ্যে জনপ্রিয় হয় তাঁদের পোশাক। তারপর পরিধি বেড়েছে। দেশের বাইরে থেকেও এখন অর্ডার পাচ্ছেন। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই সবটা হয়। ইনস্টাগ্রামে ব্র্যান্ডের নামে পেজ রয়েছে তাঁদের। 
গ্রাফিক্স: সোমনাথ পাল 
 
31st  July, 2021
জাঁকিয়ে
জাঁকজমক

পুজো পুজো ভাব তো এখন মন জুড়ে। চারূপমার পাতায় প্রতি সপ্তাহে উৎসবের সাজের সুলুকসন্ধান করে আপনাদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছি আমরা। অষ্টমীর সন্ধের কথা ভেবে এবার রইল জমকালো সাজের বাহার। লিখেছেন অন্বেষা দত্ত।
বিশদ

18th  September, 2021
পুরুষও 
ফ্যাশনদুরস্ত

উৎসবের সাজ কি শুধু নারীর? মোটেই না। আভিজাত্যে এখন আর পিছিয়ে নেই পুরুষের পোশাক। লিখেছেন অন্বেষা দত্ত। বিশদ

11th  September, 2021
ব্যাগ বাহার

পুজোর সাজ সম্পূর্ণ করতে চাই মানানসই অ্যাক্সেসরিজ।  গয়নাগাটি, ঘড়ি বা চুলের সাজের পাশাপাশি ম্যাচিং ব্যাগও দরকার। এই করোনাকালে ব্যাগের গুরুত্ব যে বহুগুণ বেড়ে গিয়েছে তাতে সন্দেহ নেই। এক্সট্রা মাস্ক, স্যানিটাইজার, স্প্রে ইত্যাদি রাখার জন্য বেরতে গেলেই ব্যাগ মাস্ট। বিশদ

11th  September, 2021
পুজো ধরা 
থাক ড্রেসে

শাড়ি বা কুর্তা ছেড়ে এখন ড্রেসেই বেশি স্বচ্ছন্দ মেয়েরা। অনেকে আবার পুজোর পোশাক হিসেবেও বেছে নিচ্ছেন ড্রেস। এই পোশাকের নকশা কোথায় কেমন? বিভিন্ন ডিজাইনারের সঙ্গে কথা বলে জানালেন কমলিনী চক্রবর্তী।
বিশদ

04th  September, 2021
স্টাইল স্টেটমেন্ট
হালকা গয়নায়

শাড়ি হোক বা ড্রেস কিংবা ওয়েস্টার্ন আউটফিট, সঙ্গে একটু গয়না তো লাগেই। বিশেষ করে পুজো পুজো ভাব যখন বাতাসে, তখন তো আর চুপ করে বসে থাকা চলে না। কোন শাড়ির সঙ্গে কোন দুলটা মানাবে, বা কোন ড্রেসের সঙ্গে লাগবে মানানসই নেকপিস, এসব আগে থাকতে ঠিক করে না রাখলে জম্পেশ সেলফি উঠবে কী করে? বিশদ

04th  September, 2021
আসছে পুজো সাজছি তাই

পুজোর আর ৪৩ দিন বাকি। এখন থেকেই সৌন্দর্য চর্চায় মন দিন। রুক্ষ চুল, খসখসে ত্বক, ট্যান ইত্যাদি তাড়াবেন কীভাবে? পরামর্শে ল্যাকমে বিউটি ইনস্টিটিউটের একটি টিম। তাঁদের সঙ্গে কথা বললেন কমলিনী চক্রবর্তী। বিশদ

28th  August, 2021
সংগ্রহে রাখার মতো
আরামদায়ক তেলিয়া 

উৎসবের আমেজ আসি আসি করছে। অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার সাজলেন চারূপমার জন্য।  বিশদ

28th  August, 2021
ডায়েটে ত্বক তাজা ​​​​​

পুজোর আগে রূপরুটিনে খাওয়াদাওয়া কিন্তু নিয়মমাফিক হওয়া চাই। এমন খাবার চাই যা খেলে ত্বক কথা বলবে। জেল্লা বাড়বে মুখে। আর হাল্কা মেকআপেই আপনি হয়ে উঠবেন তিলোত্তমা। পুজোর বিশেষ খাওয়াদাওয়ার ধরন নিয়ে বিস্তারিত জানালেন কসমেটোলজিস্ট রশ্মি উইগে। তাঁর কথায়, উৎসবের মরশুমে খাওয়াদাওয়ায় অনিয়ম হয় প্রচণ্ড। তাই বিশেষ করে এই সময় ডায়েটে কয়েকটা সাধারণ নিয়ম মেনে চলা ভীষণ জরুরি।  বিশদ

28th  August, 2021
ঘিরে থাক
বাঙালিয়ানা 

সময় যতই খারাপ যাক, উৎসবের দিনগুলো কি ভুলে থাকা যায়? শ্যুটিংয়ের শত ব্যস্ততার মধ্যেও সময় বের করে চারুপমার জন্য নানা সাজে ধরা দিলেন অভিনেতা অর্জুন চক্রবর্তী। লিখেছেন অন্বেষা দত্ত। বিশদ

21st  August, 2021
কাঁথা বাটিকের
যুগলবন্দি

পুজো উপলক্ষে বাটিক আর নকশি কাঁথার উপরে কাজ করেছেন ডিজাইনার শান্তনু গুহঠাকুরতা। বাটিক বরাবরই বাংলার বিশেষত্ব, বললেন তিনি। কিন্তু বাটিকের চেনা মোটিফে বদল ঘটিয়ে কাজ করছেন এবার। আগে যেমন আলপনা জাতীয় নকশা ছিল বাটিকের চেনা ছবি। বিশদ

21st  August, 2021
সাজাব যতনে

সময় যতই খারাপ যাক, উৎসবের দিনগুলো তো ভুলে থাকা যায় না। কেমন হবে সজ্জা, কোন শাড়ি মন ভোলাবে এবার? খোঁজ দিতে আপনাদের জন্য এগিয়ে এলেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার। চতুষ্পর্ণীর পাতায় রইল তারই নানা মুহূর্ত। লিখেছেন অন্বেষা দত্ত।
বিশদ

14th  August, 2021
শাড়ি   রকমারি

ছোট থেকেই নানা ধরনের কম্বিনেশন মিলিয়ে মিলিয়ে দেখতে ভালোবাসতেন বেহালার বাসিন্দা সোমা ভট্টাচার্য। বোনের সঙ্গে মিলে স্কুলজীবনের শেষ দিকে পালাজো-কুর্তা বানানো দিয়ে পোশাক তৈরির কাজ শুরু। ওই সব পালাজো-কুর্তা দুই বোন একে অপরের জন্যই বানাতেন। তার আগে মেশিনে সেলাইটা শেখা হয়ে গিয়েছিল অবসরকে কাজে লাগিয়ে। বিশদ

07th  August, 2021
ফুল পাখি যখন বন্ধু 

দমদমের তরুণী প্রিয়তা বণিকের বাবার সোনার গয়নার দোকান রয়েছে। পারিবারিক ব্যবসা। ২০১৬ সালে কলেজ শেষ হওয়ার পর তাঁর বাবা বলেছিলেন, পরিবারের ব্যবসার কাজেই লেগে পড়তে।
বিশদ

24th  July, 2021
ফ্যাশনে জিম, জগিং 

ওয়ার্ক ফ্রম হোম এখন প্রায় সকলেরই বাস্তব। চলাফেরার অভাবে হাতে পায়ে খিল ধরছে তাই। শরীরচালনা করতে এক্সারসাইজই ভরসা। পাশাপাশি চলছে জগিংও। কেমন পোশাক আর জুতোকে সঙ্গী করবেন এক্ষেত্রে? জানালেন কমলিনী চক্রবর্তী।  
বিশদ

17th  July, 2021
একনজরে
দীপাবলির আগেও কি আদৌ মিলবে কর্মচারী প্রভিডেন্ট ফান্ডের (ইপিএফ) সুদ? জমা পড়বে গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টে। সংশয়ে ইপিএফ গ্রাহকদেরই একটি বড় অংশ। কবে নাগাদ গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টে ইপিএফ সুদ জমা পড়বে, তা নিয়ে কোনও উচ্চবাচ্যই করছে না শ্রমমন্ত্রকের আওতাধীন কর্মচারী ভবিষ্যনিধি সংগঠন (ইপিএফও)। ...

রাতের হাওড়ায় রুটি কিনতে গিয়ে দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত হল দুই যুবক। সোমবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ব্যাঁটরা থানা থেকে ছিৱ ছোড়া দূরে। এই ঘটনায় দুই দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করে ব্যাঁটরা থানার পুলিস।  ...

প্রতিশ্রুতিই সার। ছাত্রীদের স্কুলে যাওয়ার উপর ইতিমধ্যে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। এবার অন্তর্বর্তীকালীন মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণ করলেও কোনও মহিলাকে ঠাঁই দিল না তালিবান। মঙ্গলবার ডেপুটি মন্ত্রীদের নাম ঘোষণা করেছে তালিবান নেতৃত্ব। কিন্তু সব সদস্যই পুরুষ। ...

পুজোর আগে‌ই রামপুরহাট শহরের বাসিন্দাদের করোনা ভ্যাকসিন দেবে পুরসভা। ইতিমধ্যেই শহরের বেশিরভাগ বাসিন্দা‌ই ভ্যাকসিন পেয়ে গিয়েছেন বলে পুরসভার দাবি। অথচ বাস্তবে দেখা যাচ্ছে, শহরের বহু মানুষ এখনও ভ্যাকসিন পাননি।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মে শুভ অগ্রগতি। ব্যবসায়ে বিনিয়োগের পরিকল্পনা। পেট ও গলায় সংক্রমণে ভোগান্তি হতে পারে। গৃহের সংস্করণ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

 বিশ্ব গাড়িমুক্ত দিবস
১৫৩৯: পাঞ্জাবের শহর কর্তারপুরে প্রয়াত গুরু নানক
১৫৯৯: লন্ডনে ফাউন্ডার্স হলে ২৪ জন ব্যবসায়ী ভারতে ব্যবসা করার সিদ্ধান্ত নেন। এভাবেই ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি গড়ে উঠে
১৭৯১: ইংরেজ বিজ্ঞানী মাইকেল ফ্যারাডের জন্ম
১৮৮৮: ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক ম্যাগাজিন প্রথম প্রকাশিত
১৯১৫:  নদিয়া পৌরসভার নামকরণ বদল করে করা হয় নবদ্বীপ পৌরসভা
১৯৩৯: প্রথম এভারেস্ট জয়ী মহিলা জুনকো তাবেইয়ের জন্ম
১৯৬২:  নিউজিল্যাণ্ডের প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা ধারাভাষ্যকার মার্টিন ক্রোর জন্ম
১৯৬৫: শেষ হল ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ। রাষ্ট্রসংঘের আহ্বানে সাড়া দিয়ে দু’দেশ যুদ্ধ বিরতি ঘোষণা করল
১৯৭০: লেখক শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের মৃত্যু
১৯৮০: ইরান আক্রমণ করল ইরাক
১৯৯১: মারাঠি ও হিন্দি চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি অভিনেত্রী পদ্মশ্রী দুর্গা খোটের মৃত্যু
১৯৯৫: নাগারকোভিল স্কুলে বোমা ফেলল শ্রীলঙ্কার বায়ুসেনা। মৃত্যু হয় ৩৪টি শিশুর। যাদের মধ্যে বেশিরভাগই তামিল
২০১১: ক্রিকেটার মনসুর আলি খান পতৌদির মৃত্যু
২০১১: অভিনেতা বিভু ভট্টাচার্যের মৃত্যু



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৭৯ টাকা ৭৪.৫০ টাকা
পাউন্ড ৯৮.৯৬ টাকা ১০২.৪০ টাকা
ইউরো ৮৪.৮৪ টাকা ৮৭.৯৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৭,০৫০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৪,৬৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৫,৩৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬০,৪০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬০,৫০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৫ আশ্বিন ১৪২৮, বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১। প্রতিপদ ০/৫৯ প্রাতঃ ৫/৫২। রেবতী নক্ষত্র অহোরাত্র। সূর্যোদয় ৫/২৮/৫০, সূর্যাস্ত ৫/৩০/১০। অমৃতযোগ দিবা ৬/১৬ মধ্যে পুনঃ ৭/৪ গতে ৭/৫৩ মধ্যে পুনঃ ১০/১৮ গতে ১২/৪২ মধ্যে। রাত্রি ৬/১৯ গতে ৭/৭ মধ্যে পুনঃ ৮/৫৩ গতে ৩/৫ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৬/১৬ গতে ৭/৪ মধ্যে পুনঃ ১/৩০ গতে ৩/৫৫ মধ্যে। রাববেলা ৮/২৯ গতে ৯/৫৯ মধ্যে পুনঃ ১১/৩০ গতে ১/০ মধ্যে। কালরাত্রি ২/২৯ গতে ৩/৫৯ মধ্যে।
৫ আশ্বিন ১৪২৮, বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১। দ্বিতীয়া অহোরাত্র। উত্তরভাদ্রপদ নক্ষত্র প্রাতঃ ৫/৪৫। সূর্যোদয় ৫/২৮, সূর্যাস্ত ৫/৩২।  অমৃতযোগ দিবা ৬/২১ মধ্যে ও ৭/৮ গতে ৭/৫৪ মধ্যে ও ১০/১৪ গতে ১২/৩৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/১ গতে ৬/৫১ মধ্যে ও ৮/৩০ গতে ৩/৬ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ  দিবা ৬/২১ গতে ৭/৮ মধ্যে ও ১/১৯ গতে ৩/৩৯ মধ্যে। কালবেলা ৮/২৯ গতে ১০/০ মধ্যে ও ১১/৩০ গতে ১২/২ মধ্যে। কালরাত্রি ২/২৯ গতে  ৩/৫৯ মধ্যে।
১৪ শফর।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ইতিহাসে আজকের দিনে
বিশ্ব গাড়িমুক্ত দিবস ১৫৩৯: পাঞ্জাবের শহর কর্তারপুরে প্রয়াত গুরু নানক ১৫৯৯: লন্ডনে ...বিশদ

07:55:00 AM

আপনার আজকের দিনটি
মেষ: ব্যবসায়ে বিনিয়োগের পরিকল্পনা। বৃষ: অর্থলাভ হতে পারে একাধিক সূত্রে। মিথুন: শিল্পী ও বিদ্যার্থীদের শুভ ...বিশদ

07:50:00 AM

আইপিএল ২০২১: পাঞ্জাব ১০৬/০ (১০ ওভার)

21-09-2021 - 10:44:30 PM

আইপিএল ২০২১: পাঞ্জাবের জয়ের জন্য প্রয়োজন ১৮৬ রান

21-09-2021 - 09:34:27 PM

ভারতীয় বায়ুসেনার পরবর্তী প্রধান হচ্ছেন ভিআর চৌধুরি

21-09-2021 - 09:09:03 PM

আইপিএল ২০২১: রাজস্থান ১৬৪/৪ (১৬ ওভার)

21-09-2021 - 08:58:07 PM