Bartaman Patrika
চারুপমা
 

তাপসী স্টাইলে বিশ্বাসী 

বলিউডের সাম্রাজ্যের বাইরে থেকে এসেও খুব কম সময়ে নিজের জায়গা তৈরি করে নিয়েছেন তাপসী পান্নু। মুক্তি পেতে চলেছে তাঁর অভিনীত ছবি ‘সান্ড কি আঁখ’। এক খোলামেলা আড্ডায় উঠে এল তাপসীর ফ্যাশন থেকে বাঙালি প্রীতির কথা।

আমার স্টাইল স্টেটমেন্ট
আমার সাজগোজের ধরনটা একটু ছেলেদের মতো ছিল। আমি আগে জিনস এবং একটা টিশার্ট গলিয়ে বেরিয়ে পড়তাম। বন্ধুরা আমাকে আমার স্টাইল বদলানোর কথা বলতো। মডেলিং-এ আসার পর নিজেকে সাজাতে শিখলাম। ফ্যাশনের অনেক কিছু শিখলাম। নায়িকা হওয়ার পর আমার সাজগোজে অনেক পরিবর্তন এসেছে। আমাকে এখন অনেক সেজেগুজে থাকতে হয়। যখন যে ছবি আসে তখন সেই ছবির চরিত্র অনুযায়ী পোশাক নির্বাচন করি। আমার এক বৌদি আমাকে ফ্যাশনের বিষয়ে গাইড করেন। আমি মনের দিক থেকে রঙিন এবং মজাদার এক মানুষ। তাই পোশাকের ক্ষেত্রেও রঙিন এবং মজাদার ডিজাইনের পোশাক পছন্দ করি। তবে অবশ্যই তা আরামদায়ক হওয়া চাই। খাদির, সুতির আরামদায়ক পোশাকে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। তবে টিশার্টের প্রতি প্রেম আজও একই রকম আছে। কালো, সাদা এক রঙা টিশার্টের উপর নানান কোটেশন আমার দারুণ লাগে। আর এয়ারপোর্টের জন্য আমি বেছে নিই পালাজো, স্টাইলিশ স্কার্ট। ভারতীয় ডিজাইনারদের ডিজাইন করা পোশাকই আমি বেশি পছন্দ করি। আমার স্টাইল স্টেটমেন্ট হল ভারতীয় এবং পাশ্চাত্যের ফিউশন। ওয়েস্টার্ন কার্টে দেশি রঙ এবং নকশার ছোঁয়া আমি বেশি পছন্দ করি। আমি সাধারণত দেওয়ালি দিল্লিতে পরিবারের সঙ্গে কাটাই। তবে এবার আমার ছবি ‘সান্ড কি আঁখ’ মুক্তি পাবে, তাই বাবা-মা আমার কাছে আসবেন। আমরা সবাই মিলে ছবিটা দেখব। দীপাবলির রাতে আমি ঘাঘরা-চোলি পরতে পছন্দ করি। এবারও তাই পরার ইচ্ছা। ফ্যাশনের ক্ষেত্রে আমি কারও স্টাইল স্টেটমেন্ট অনুসরণ করি না। আমি আমার নিজস্ব স্টাইলে বিশ্বাসী। তবে রেখাজি-র স্টাইল আমাকে মুগ্ধ করে। আর নায়কদের মধ্যে হৃতিকের স্টাইলের আমি ভক্ত।

আমার কাজ
আমি খুবই লাকি যে অমিতাভ বচ্চনের মত অভিনেতার সঙ্গে দুটো ছবি করেছি। সুজিত সরকার, সুজয় ঘোষ, অনুরাগ কাশপ্যের মতো পরিচালকের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। আমি অনেকের কাছেই কাজ চাইতে যাই। আর ব্যাপারে আমার কোনও লজ্জা নেই। সঞ্জয় (লীলা বনশালি) স্যরের সঙ্গে শাহরুখের দিওয়ালি পার্টিতে দেখা হয়েছিল। তখন ওঁর ছবিতে কাজ করার ইচ্ছা ব্যক্ত করি। আমার ‘মনমর্জিয়া’ ছবি দেখে রাজু (কুমার হিরানী) স্যর আমাকে মেসেজ করেছিলেন। পরে ওঁর অফিসে গিয়ে দেখা করি। ওঁর ছবিতেও অভিনয়ের করার কথা বলি। আমার খুব ইচ্ছে ছিল দুই নায়িকা প্রধান ছবিতে কাজ করার। তাই ‘সান্ড কি আঁখ’ ছবিটি করতে বিশেষ আগ্রহী হই। আর আমি ঝুঁকি নিতে দারুণ ভালবাসি। তাই ৩০ বছরে দাঁড়িয়ে ৬০ বছরের বৃদ্ধার চরিত্রে অভিনয় করতে পিছপা হইনি। এর আগে অনেক অভিনেত্রীকে আমার অভিনীত চরিত্রটি করতে প্রস্তাব দেওয়া হয়ে ছিল। কিন্তু কেউ এগিয়ে আসেননি ঝুঁকি নিতে। তবে আজ এনিয়ে অনেক বিতর্ক দানা বেঁধেছে। কেন কোনও বয়স্কা অভিনেত্রীকে চরিত্রটি করার প্রস্তাব দেওয়া হয়নি। কিন্তু এর আগে আমির খান, অনুপম স্যর একই কাজ করেছেন তখন তাঁদের বাহবা দেওয়া হয়েছে। আসলে চরিত্র নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করতে ভালবাসি। এই ছবির জন্য আমাকে ভাষা, উচ্চারণভঙ্গি, বডি ল্যাংগুয়েজ, আর অবশ্যই বন্দুক চালানো শিখতে হয়েছে। আমার নিশানা বরাবরই খারাপ। তাই বন্দুক চালানো শিখতে অনেক সময় লেগেছে। কিন্তু ভূমি (পেডনেকর) তাড়াতাড়ি শিখেছিল।

আমার মা
আমার কেরিয়ারের বয়স নয় বছর। এই প্রথম মা শুটিংয়ে আমার সঙ্গে ছিলেন। ‘সান্ড কি আঁখ’ ছবির শুটিং আসল লোকেশনে হয়েছিল। চান্দ্রু দাদির বাড়িতে আমরা শুটিং করেছি। আমার মা আমার সঙ্গে টানা এক মাস চান্দ্রু দাদির বাড়িতে ছিলেন। উনি ওঁদের পরিবারের একজন হয়ে উঠেছিলেন। ওঁদের রান্নাঘরে গিয়ে মা রান্নায় সাহায্য করতেন। আমার মা আমাকে সবসময় উৎসাহ দিয়ে এসেছেন। এই ছবিটার ক্ষেত্রে মা আমার রেফারেন্স ছিলেন। আমি ওঁর অভিব্যক্তিকে পর্দায় তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। আমি মাকে একবার জিঞ্জেস করেছিলাম যে বিয়ের আগে উনি কী হতে চেয়ে ছিলেন। মা উত্তরে বলেছিলেন যে তিনি জানতেনই না কী হতে চান। মা বি এ পাস করেছিলেন। ওয়াইডব্লুসিএ-তে একটা ডিপ্লোমা কোর্স করেছিলেন। এরপর বাবা-মায়ের পছন্দ করা ছেলেকে মা বিয়ে করেন। এখনও মা জানেন না অবসর সময়ে কী করবেন। আমার একটা বাজে দোষ আছে, সবকিছুতে যুক্তি খুঁজে বেড়াই। মা তাতে খুব রেগে যান। মা আমাকে আর বোনকে ছোট থেকে বলে এসেছেন যে কোনও বিষয়ে তর্ক যেন না করি। কিন্তু চুপ করে থাকতে পারি না। আমি আমার ছন্দে চলি।

আমার আমি
আমার আর্থিক দিক বাবা দেখভাল করেন। আমি বিজ্ঞানের ছাত্রী। তাই ব্যালেন্স শিট নিয়ে কোনও ধারণা আমার নেই। আমি শুধু টিকিট, খাবার এবং হোটেলের বিল মেটাতেই খরচ করি। আমি খুব একটা শপিং করি না। তবে নানান স্টাইলের জুতো এবং ব্যাগ কিনতে দারুণ লাগে। জুতো এবং ব্যাগের জন্য টাকা খরচ করি। তবে এক লাখ টাকা দিয়ে কি করে কেউ একটা ব্যাগ কেনেন তা বুঝে উঠতে পারি না। একবার বিদেশে ৮০ হাজার টাকার একটা ব্যাগ দারুণ পছন্দ হয়। আমি কিনতে পারিনি। পরে আমার বোনকে বলি ব্যাগটা কিনে আনতে। আজও আমার মনে হয় এই ব্যাগের পিছনে আমি বেশি অর্থ ব্যয় করেছি। আমি প্রচুর উপহার পাই। আর উপহার দিতেও দারুণ লাগে। বোনকে আমি একটা গাড়ি উপহার দিয়েছি। ওকে অর্ধেক বিশ্ব ঘুরিয়ে দিয়েছি। আমি আমার বাবা-মা-কেও বেড়াতে নিয়ে গিয়েছি। আমি সাদামাটা থাকতে ভালবাসি। বাড়িতে আমি আমার মতো থাকি। নিজের কিছু কাজ করি। নিজের জামাকাপড় কেচে শুকাই। জিনিসপত্র অর্ডার করি। বাড়িতে আমার কোনও সারা দিনের কাজের লোক নেই।

আমার কলকাতা
কলকাতা আমার দারুণ লাগে। তিনবার আমি কলকাতায় গিয়েছি। ‘পিঙ্ক’, ‘নাম শাবানা’ ছবি দুটি এবং একটা ইভেন্টের জন্য কলকাতাতে গিয়েছিলাম। ওখানে গেলে সবাই অস্থির হয়ে যান যে আমাকে কী কী খাওয়াবেন। কলকাতাতে মাটনের দারুণ সুস্বাদু পদ পাওয়া যায়। আর গুড়ের সন্দেশ আমার দুর্দান্ত লেগেছিল। আজ আমি যেটুকু সাফল্য পেয়েছি তাঁর পিছনে অনেক বাঙালির অবদান আছে। তাই মনে করি, বাঙালিরা আমার কাছে লাকি।
অনুলিখনঃ দেবারতি ভট্টাচার্য
12th  October, 2019
দোলাচলে পুজো ফ্যাশন

প্রতি বছর রথের সময় থেকেই পুজোর কাউন্টডাউন শুরু হয়ে যায় চারূপমায়। এ বছর পরিস্থিতি একেবারে আলাদা। এখনও পুরোপুরি প্রস্তুত নন ডিজাইনাররা। তবে কাজ শুরু করেছেন অনেকেই। পুজো ফ্যাশনের খোঁজে সোমা লাহিড়ী।
বিশদ

11th  July, 2020
বিক্রিতে টান,ছক ভাঙা
সাজে মন ডিজাইনারদের

 পোশাক-গয়না নকশার দুনিয়ায় এসেছে বদল। ডিজাইনার থেকে মডেল, কোভিড-সঙ্কট সকলকেই বাধ্য করেছে নতুন পন্থা খুঁজতে। সেইমতোই এগোচ্ছেন কয়েকজন নকশার কারবারি। তারই সুলুকসন্ধানে মনীষা মুখোপাধ্যায়।
বিশদ

11th  July, 2020
যত্নে রাখুন হাত পা

পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা রক্ষার প্রতি এখন আমাদের সজাগ দৃষ্টি। হাত পা সারাক্ষণ সাবানে ধুয়ে তা স্যানিটাইজ করে রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই পরিস্থিতিতে হাত ও পায়ের যত্ন নিতে পেডিকিওর ও ম্যানিকিওর কতটা জরুরি? পরামর্শ দিলেন বিউটিশিয়ান শেহনাজ হুসেন।
বিশদ

11th  July, 2020
ছোট্ট ঘরে স্বপ্ন উড়ান 

চার দেওয়ালের মধ্যেই আপনার সোনামণির স্বপ্নপূরণের যাত্রা শুরু। তাই তার ঘরটি যেন পজিটিভ এনার্জিতে ভরপুর হয়। আপনার সন্তানের ঘরের সাজ কেমন হওয়া উচিত, পরামর্শে এক্সটিরিয়র ইন্টিরিয়র অ্যাকাডেমির ডিরেক্টর অপর্ণা রায়। লিখেছেন সোমা লাহিড়ী। 
বিশদ

04th  July, 2020
বাড়ি হবে বাড়ির মতো 

পায়েল সরকার: লকডাউনে প্রত্যেকেই দেখছি কম বেশি ঘরের কাজ করছেন। ঘর বাড়ি সাজাচ্ছেন এবং সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করছেন। ব্যস্ত জীবনে অনেক সময় আমরা নিজের মাথার ছাদের যত্ন নিতে ভুলে যাই।  বিশদ

04th  July, 2020
ঘরে বসেই ঘর সাজান 

নিজের ঘর নিজেই সাজিয়ে তুলতে পারেন। কিন্তু কী ভাবে? এই বিষয়ে বিশিষ্ট ইন্টিরিয়র ডিজাইনার এবং শাহরুখ-পত্নী গৌরী খানের পরামর্শ শোনালেন কমলিনী চক্রবর্তী। 
বিশদ

04th  July, 2020
চুলে চাই  চেকনাই

একে তো ভ্যাপসা বর্ষা, তার ওপর লকডাউনে পার্লার যাওয়া হয়নি তিন মাস, সঙ্গে বাড়ির কাজের চাপ— তিনে মিলে চুলের দফারফা। কীভাবে যত্ন নিলে চুলের স্বাস্থ্য ফিরবে, জানাচ্ছেন মুম্বইয়ের পিডি হিন্দুজা হসপিটালের কনসালট্যান্ট, কায়া স্কিন ক্লিনিকের হেয়ার অ্যান্ড ওয়েলনেস এক্সপার্ট ডাঃ অপর্ণা সান্থানাম। কথা বলেছেন সোমা লাহিড়ী।
বিশদ

27th  June, 2020
 কেশ কথা

এখন করোনা ভাইরাসের জেরে যা অবস্থা দাঁড়িয়েছে, তাতে আর চুল খুলে বাইরে বেরনো খুব একটা বুদ্ধিমানের কাজ হবে না। তাহলে উপায়? পরামর্শ দিলেন সেলিব্রিটি হেয়ার এক্সপার্ট প্রিসিলা কর্নার। লিখেছেন অন্বেষা দত্ত। বিশদ

27th  June, 2020
 ত্বকের যত্ন নিন

লকডাউন শিথিল হতেই খুলে গিয়েছে স্যলঁ ও বিউটি পার্লার। কিন্তু বেশিরভাগ চাকরিজীবী মানুষ এখন ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন। ফলে ইচ্ছে থাকলেও অনেক সময় অফিসের কাজের চাপে বিউটি পার্লারে যেতে পারছেন না। এদিকে মাসের পর মাস ঘরে থাকতে গিয়ে নানা দুশ্চিন্তা, টেনশনে মুখের ত্বকের জেল্লা অনেকটাই ম্লান হয়ে গিয়েছে। বিশদ

27th  June, 2020
 চোখে চোখে কথা বলো

মুখ ঢাকা মুখোশে, তাই চোখে চোখেই হোক কথা বলা। বি বনি ফ্যামিলি স্যলঁর কর্ণধার রূপবিশেষজ্ঞ শাশ্বতী মিত্র জানালেন চোখের যত্ন ও সাজের কথা।
বিশদ

27th  June, 2020
ফি ট ফা ট ফিটনেস 

নিয়মিত শরীরচর্চা এখন আমাদের দৈনন্দিন লাইফস্টাইলের অঙ্গ। যোগব্যায়াম ট্রেনিং সেন্টারে হোক বা বাড়িতে, জিমে হোক বা পার্কে সবুজ ঘাসে রোজ শরীর নিয়ে কসরত করতেই হবে সুস্থ থাকার জন্য। বয়েস, স্বাস্থ্য ও শরীরের ফিটনেস দেখে যোগ-শিক্ষক বা জিম ইন্সট্রাক্টর ঠিক করে দেন শরীরচর্চার রুটিন। সঙ্গে অবশ্যই চাই ডায়েট চার্ট। আর কী চাই বলুন তো?
বিশদ

20th  June, 2020
বিশ্বসাথে যোগে যেথায়... 

যোগাসনের গুরুত্ব কেউ জানেন না, এমন নয়। তবুও নিজের দেশের এই ঐতিহ্য নিয়ে আমাদের খুব একটা মাথাব্যথা নেই। আগামিকাল বিশ্ব যোগদিবস। তার আগে এই সময়ে দাঁড়িয়ে জনপ্রিয় অভিনেতা টোটা রায়চৌধুরী মনে করিয়ে দিলেন কিছু জরুরি কথা।    
বিশদ

20th  June, 2020
মুখসজ্জায় এখন ইতি? 

মাস্ক পরে বিয়ে হয় নাকি! কেউ বর-কনেকে দেখবে না? এই সময়ে যাঁদের বিয়ে ছিল, তাঁরা মনেপ্রাণে চাইছেন সব কিছু দ্রুত ছন্দে ফিরে আসুক। কী বলছেন সেলিব্রিটি মেকআপ আর্টিস্ট অনিরুদ্ধ চাকলাদার? লিখেছেন অন্বেষা দত্ত। 
বিশদ

13th  June, 2020
নিয়মে অভ্যস্ত হতে হবে 

পরামর্শ দিলেন এস্থেটিশিয়ান ও মেকআপ ডিজাইনার গৌরী বোস।  বিশদ

06th  June, 2020
একনজরে
সঞ্জয় সরকার, কলকাতা: বাবা পেশায় দিনমজুর। আয় আছে, নেই সঞ্চয়। দিন আনা, দিন খাওয়া পরিবারে জন্ম গ্রহণ করলেও একদিন ভারতীয় দলের জার্সি গায়ে নিজেকে দেখতে ...

ওয়াশিংটন: চাপের মুখে অবশেষে বিদেশি পড়ুয়াদের দেশে ফেরানোর সিদ্ধান্ত থেকে পিছু হটল ট্রাম্প প্রশাসন। মঙ্গলবার ম্যাসাচুসেটসের ফেডারেল ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে সরকার জানিয়েছে, অনলাইনে ক্লাস করা বিদেশি পড়ুয়াদের ভিসা বাতিল করে দেশে ফেরানোর সিদ্ধান্ত রদ করা হয়েছে। হার্ভার্ড ও এমআইটির দায়ের করা ...

সংবাদদাতা, মালদহ: মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আধুনিক ট্রমা কেয়ার সেন্টারটি নভেম্বর মাস নাগাদ চালু হতে পারে। করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসার পরেই এই বিশেষ চিকিৎসা কেন্দ্রটি চালু করার কথা ভাবনাচিন্তা করছে মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষ।   ...

লখনউ: গ্যাংস্টার বিকাশ দুবের ঘনিষ্ঠ এক সহযোগী তথা আত্মীয়কে গ্রেপ্তার করল উত্তরপ্রদেশ পুলিস। ধৃতের নাম শশীকান্ত ওরফে সোনু পাণ্ডে। তাকে জেরা করে এনকাউন্টারের দিন পুলিসের ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

পড়শির ঈর্ষায় অযথা হয়রানি। সন্তানের বিদ্যা নিয়ে চিন্তা। মামলা-মোকদ্দমা এড়িয়ে চলা প্রয়োজন। প্রেমে বাধা।প্রতিকার: একটি ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮২০: সাহিত্যিক অক্ষয়কুমার দত্তের জন্ম
১৯০৩: রাজনীতিক কে কামরাজের জন্ম
১৯০৪: রুশ লেখক আস্তন চেকভের মৃত্যু
১৯৫৪: আর্জেন্তিনার ফুটবলার মারিও কেম্পেসের জন্ম  



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৪৬ টাকা ৭৬.১৭ টাকা
পাউন্ড ৯২.৯৩ টাকা ৯৬.২০ টাকা
ইউরো ৮৩.৮৮ টাকা ৮৬.৯৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৯, ৭৭০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৭, ২২০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭, ৯৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৫১, ৯০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৫২, ০০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ জুলাই ২০২০, বুধবার, দশমী ৪৩/৯ রাত্রি ১০/২০। ভরণী ২৯/৭ অপঃ ৪/৪৩। সূর্যোদয় ৫/৪/৪২, সূর্যাস্ত ৬/২০/১৪। অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৩ গতে ১১/১৫ মধ্যে পুনঃ ১/৫৫ গতে ৫/২৭ মধ্যে। রাত্রি ৯/৫৫ মধ্যে পুনঃ ১২/৪ গতে ১/৩০ মধ্যে। বারবেলা ৮/২৩ গতে ১০/৩ মধ্যে পুনঃ ১১/৪২ গতে ১/২১ মধ্যে। কালরাত্রি ২/২৩ গতে ৩/৪৪ মধ্যে।  
৩০ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ জুলাই ২০২০, বুধবার, দশমী রাত্রি ৮/৪৩। ভরণী নক্ষত্র অপরাহ্ন ৪/৭। সূযোদয় ৫/৪, সূর্যাস্ত ৬/২৩। অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৩ গতে ১১/১৬ মধ্যে ও ১/৫৬ গতে ৫/২৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৫৬ মধ্যে ও ১২/৪ গতে ১/৩০ মধ্যে। কালবেলা ৮/২৪ গতে ১০/৪ মধ্যে ও ১১/৪৩ গতে ১/২৩ মধ্যে। কালরাত্রি ২/২৪ গতে ৩/৪৪ মধ্যে।
২৩ জেল্কদ  

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
মাধ্যমিকে ষষ্ঠ অশোকনগরের অস্মি চৌধুরি চিকিৎসক হতে চায় 
মাধ্যমিকে রাজ্যে ষষ্ঠ স্থান অধিকার করেছে অশোকনগর বাণীপিঠ ...বিশদ

01:46:07 PM

বিহারে রাজভবনের ২০ জন কর্মী করোনায় আক্রান্ত 

01:36:04 PM

মাধ্যমিকে সপ্তম চন্দননগরের সুহা ঘোষ ভবিষ্যতে বিজ্ঞানের শিক্ষক হতে চায় 

01:35:35 PM

৭০১ পয়েন্ট উঠল সেনসেক্স

01:32:50 PM

মাধ্যমিকে দশম জুনায়েদ হাসান চিকিৎসক হতে চায় 

01:29:42 PM

ময়নাগুড়িতে  ব্যারিকেড করে বিজেপির মিছিল আটকাল পুলিস 

01:27:50 PM