Bartaman Patrika
বিশেষ নিবন্ধ
 

সুদিনের আশায়
গ্রামীণ পর্যটন
দেবাশিস ভট্টাচার্য

ক’দিন আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আমাদের গ্লোবাল হওয়ার কথা বললেন। বললেন দেশীয় উৎপাদন ও সম্পদকে আন্তর্জাতিক রূপ দিতে হবে। মেড ইন ইন্ডিয়া, মেড ফর ওয়ার্ল্ড। ব্যাপারটাকে আমরা লোকাল টু গ্লোবাল হিসেবে দেখতে পারি। সহজ কথায়, আত্মমর্যাদায় ভর করে আত্মনির্ভর হবার স্বপ্ন দেখালেন। এ যেন সদ্য প্রয়াত পি কে ব্যানার্জির ভোকাল টনিক। যে টনিক সেবন করে মোহন-ইস্টের খেলোয়াড়রা নিজেদের উজাড় করে দিতেন। আর হাসি ফুটত অজস্র সমর্থকের মুখে। তেমন হাসি কি ফুটবে সমগ্র ভারতবাসীর মুখে? এখন সেটাই দেখার। স্থানীয় জনগোষ্ঠীর ক্ষমতায়নের সবচেয়ে বড় ক্ষেত্রটি হল গ্রামীণ পর্যটন। বহু মানুষের কর্মসংস্থান এখানে সম্ভব। ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম কাউন্সিলের হিসাব অনুযায়ী, সারা বিশ্বে পর্যটন শিল্পে এ বছর তিরিশ কোটি তিরিশ লক্ষ মানুষ কাজ পাবেন। আরও সহজ করে বললে প্রতি ১০.৯টি চাকরির মধ্যে একটির সঙ্গে যুক্ত হবেন পর্যটন কর্মী।
গ্রামীণ পর্যটন
‘ভারতের গ্রামই হল ভারতের প্রাণ। এই গ্রামই ভারতাত্মা বাস করেন’—গ্রামীণ ভারত সম্পর্কে মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধীর এই কথাটি মাইলস্টোন হয়ে আছে। বর্তমানে আমাদের জনসংখ্যার বাহাত্তর ভাগ মানুষই গ্রামে বাস করেন। স্বভাবতই গ্রামীণ পর্যটন এমনই এক সম্ভাবনাময় ক্ষেত্র যা রুটি-রজির সংস্থানের পাশাপাশি গ্রাম-শহর বৈষম্য দূর করার ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারে। আন্তর্জাতিক স্তরে গ্রামীণ পর্যটন বহুদিন ধরেই স্বীকৃত। আমাদের দেশে এর পথ চলা শুরু বেশি দিনের নয়। নব্বই দশকের মাঝামাঝি সময়ে এর যাত্রা শুরু। গত ২০১০ সালে আমাদের দেশের একশো ছেষট্টি গ্রামে গ্রামীণ পর্যটন শুরু হয়েছে। ইউরোপের দেশগুলোতে পঞ্চাশের দশকের শুরুতেই গ্রামীণ পর্যটনের সূচনা হয়। মূলত বৃহৎ কৃষিনির্ভর দেশ যেমন নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, জার্মানি, সুইজারল্যান্ড, ফ্রান্স, স্পেন, হল্যান্ড, ইংল্যান্ড, আমেরিকা, কানাডা, আর্জেন্টিনা, এবং দক্ষিণ আফ্রিকায় গ্রামীণ পর্যটন বিপুল জনপ্রিয়তা পায়। ফ্রান্সে চালু হয় কৃষি পর্যটন। বর্তমানে ফ্রান্সের কৃষকদের মধ্যে ২.৮ শতাংশ কৃষক গ্রামীণ পর্যটকদের কাছে পরিষেবা পৌঁছে দিচ্ছেন। আর আমাদের দেশের সর্বত্র কৃষকরা আত্মহননের পথ বেছে নিচ্ছেন। স্পেনে আশির দশকে কৃষি পর্যটন শুরু হয়। এখন সে দেশে গ্রামাঞ্চলে পর্যটকদের জন্য সাত হাজার গ্রামীণ রিসর্টে পঞ্চাশ হাজার পর্যটকের থাকার ব্যবস্থা হয়েছে। সমগ্র ইউরোপে দুই থেকে পাঁচ শতাংশ কৃষক প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে গ্রামীণ পর্যটনের সঙ্গে যুক্ত। লোকালের জয়গান গাওয়া নরেন্দ্র মোদি সত্যিই কি চান গ্রামীণ পর্যটনের হাত ধরে গ্রামীণ জীবনে উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নের জোয়ার আসুক এবং গ্রামীণ সংস্কৃতির উত্তরণ ঘটুক।
গ্রামীণ পর্যটনের উদ্দেশ্য
ভারতের আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বহু প্রাচীন হস্তশিল্পসহ নানান প্রথাগত শিল্পশৈলী ক্রমশ হারিয়ে যাচ্ছে। উপযুক্ত পরিকল্পনার মাধ্যমে সেগুলির পুনরুদ্ধার ও পুনরুজ্জীবন সম্ভব। এজন্য স্থানীয় শিল্পীদের দক্ষতা বৃদ্ধির এক নিরন্তর প্রবহমান ধারা চালু রাখতে হবে। হস্তশিল্পীদের উৎপাদিত পণ্যের চাহিদা ও বাজার তৈরির ব্যবস্থা করতে হবে। এইভাবে লক্ষ লক্ষ শিল্পীর আর্থিক সমৃদ্ধির দিশা দেখানো যাবে। নয়ের দশকে কয়েকটি এনজিও-র সদস্যরা স্থানীয় কিছু উদ্যমী মানুষকে সঙ্গে নিয়ে এর সূচনা করেন। প্রকৃত অর্থেই জনগোষ্ঠীভিত্তিক সংগঠনই (কমিউনিটি বেসড অর্গানাইজেশন) ছিল এর প্রধান চালিকাশক্তি। স্বাধীনোত্তর কাল থেকে আজ পর্যন্ত আমাদের দেশে সর্বত্র চালু থাকা ‘টপ ডাউন অ্যাপ্রোচ’-এর একেবারে বিপরীতধর্মী ‘ডাউন টু টপ’ ধারাকে ভিত্তি করেই এগতে থাকে। এম আর মুরারকা রুরাল রিসার্চ ফাউন্ডেশন রাজস্থানের শেখাবতই অঞ্চলের গ্রামের মানুষদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে জৈবচাষে উৎসাহিত করে। একই সঙ্গে আতিথেয়তা শিল্পের প্রাথমিক পাঠও শেখাতে থাকে। এরপর ওই অঞ্চলের শিল্প-সংঙ্কৃতির নানান পসরা বিদেশি পর্যটকদের আকর্ষণের জন্য বিদেশে পাঠানো হয়। ধীরে ধীরে ভারতে গ্রামীণ পর্যটনের বিকাশের ক্ষেত্রে শেখাবতই একটা মডেল হয়ে ওঠে।
গ্রামীণ পর্যটনে প্রধানত পাঁচটি বিষয়ের উপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়। সেগুলি হল কৃষি পর্যটন, ধর্মীয় পর্যটন, হেরিটেজ পর্যটন, প্রকৃতি পর্যটন এবং অ্যাডভেঞ্চার পর্যটন। বর্তমানে ভারতের বত্রিশটি বিখ্যাত গ্রামীণ পর্যটন ক্ষেত্রগুলির কয়েকটি হল রাজস্থানের জয়পুর জেলার সামোদ ও আলোয়ার জেলার নিমরানা, মেঘালয়ের মৌসিনরাম, তামিলনাডুর শিবগঙ্গা জেলার কারাইকুডি ও থুকুডি জেলার কাজঘুমালাই এবং ত্রিপুরার কমলানগর। আমাদের রাজ্যে সাতটি জায়গায় আমরা গ্রামীণ পর্যটন দেখতে পাই। বীরভূম জেলার শান্তিনিকেতন ও বল্লভপুরডাঙা এবং বাঁকুড়া জেলার মুকুটমণিপুর, সোনামুখী, পাঁচমুড়া, ছান্দার ও বিষ্ণুপুরের পোড়ামাটির হাট। এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক যে বাকি একুশটি জেলায় গ্রামীণ পর্যটনের তেমন প্রচার ও প্রসার ঘটেনি। মহারাষ্ট্র, কেরল ও মেঘালয় যেখানে গ্রামীণ পর্যটনে সফলকাম হয়ে সরকারি কোষাগারকে স্ফীত করছে তেমনটা কিন্তু আমাদের রাজ্যের ক্ষেত্রে চোখে পড়েনি।
গ্রামীণ পর্যটনের সমস্যা
গ্রামীণ পর্যটন শিল্পের সফল রূপদানের ক্ষেত্রে বেশ কিছু প্রতিবন্ধকতাও আমরা দেখতে পাই। মূলত গ্রামীণ পরিকাঠামোর অপ্রতুলতা এবং গ্রামীণ পর্যটনের সুষ্ঠু বিপণন। তবে, এক্ষেত্রে আমাদের রাজ্যের প্রশংসা করতেই হয়। সারা দেশের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনার বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে প্রথম স্থানে রয়েছে মুর্শিদাবাদ এবং দ্বিতীয় স্থানে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা। এই পরিকাঠামোকে হাতিয়ার করে গ্রামীণ ভারতের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য, শিল্পকলা ও হস্তশিল্পগুলির উৎসস্থলগুলিকে অতি সহজেই পর্যটন কেন্দ্রে পরিণত করা যেতে পারে। হরিয়ানা ও কেরল, গ্রামীণ পর্যটন শিল্পকে দেশের মধ্যে ও আন্তর্জাতিক বাজারে বিপণনের একটি সুপরিকল্পিত রূপরেখা তৈরির চেষ্টা করে যাচ্ছে।
গ্রামীণ পর্যটনের সম্ভাবনা
বণিকসভা ফিকি-র একটি সমীক্ষা থেকে জানা যাচ্ছে যে, ভারতে গ্রামীণ পর্যটনেই সর্বাধিক কর্মসংস্থান ও বিনিয়োগের সম্ভাবনা রয়েছে। গ্রামীণ পর্যটন শিল্পে যদি দশ কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হয় তাহলে একেবারে শুরুর দিকে আটচল্লিশ জনের কর্মসংস্থান হবে। পরবর্তী পর্যায়ে আরও অতিরিক্ত সাতাত্তর জন মানুষ নিযুক্ত হবেন। এইভাবে সংখ্যাটা ক্রমশ বাড়বে। এছাড়াও অপ্রত্যক্ষভাবে যারা চিরায়ত হস্তশিল্প, কারুশিল্প ও মৃত্তিকা শিল্পের সঙ্গে যুক্ত তারাও রুটিরুজির সংস্থান করতে পারবেন। ভারত সরকারের পর্যটন মন্ত্রকের হিসাব অনুযায়ী, গ্রামীণ পর্যটনে কাজের অনুপাত ১:৩৬। ইউপিএ সরকারের ‘পর্যটন রোজগার যোজনা’-র লক্ষ্য ছিল, স্থানীয় পঞ্চায়েতকে সঙ্গে নিয়ে গ্রামীণ পর্যটনের বিকাশ সাধন। বর্তমানে এনডিএ-টু সরকারের ছাপান্ন ইঞ্চি ছাতিধারী একনায়কের যদি সদিচ্ছা থাকে তাহলে এই প্রকল্পটিকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব। যেখান থেকে করোনার উৎপত্তি সেই চীনের দক্ষিণ পশ্চিম গুইঝোউ প্রদেশের ‘এথনিক ট্যুরিজম’ আশির দশকেই জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছয়। ভারত কি পারবে গ্রামীণ পর্যটনের ক্ষেত্রে অভিনব কোনও মডেলের জন্ম দিতে? স্বজন হারানো পরিবার কিংবা কাজ খুইয়ে কর্মহীন, ভাগ্যহীন নাগরিকদের জীবনে আবার সুখ-শান্তি-আনন্দ ফিরে আসবে কি? গ্রামীণ অর্থনীতির পুনুরুজ্জীবনের পাশাপাশি গ্রামীণ সংস্কৃতি নব নব রূপে পল্লবিত হবে। প্রায় সত্তর বছর ধরে অবহেলিত গ্রাম্য মানুষগুলো মাথা উঁচু করে প্রকৃত মানুষের মতো বাঁচার স্বাদ পাবেন। মানবেতর প্রাণীর মতো ধুঁকে ধুঁকে নিজেকে আর নিঃশেষ করা নয়, আমরা সবাই সেই সুদিনের আশায় রইলাম।
 লেখক  পেশায়  কেরিয়ার কাউন্সেলর
01st  July, 2020
গুরু কে, কেনই বা গুরুপূর্ণিমা?
জয়ন্ত কুশারী

কে দেখাবেন আলোর পথ? পথ অন্ধকারাচ্ছন্নই বা কেন? এই অন্ধকার, মনের। মানসিকতারও। চিন্তার। আবার চেতনারও। এই অন্ধকার কুসংস্কারের। আবার অশিক্ষারও। অথচ আমরা প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত এক একজন।   বিশদ

জাতির উদ্দেশে ভাষণের চরম অবমূল্যায়ন
হিমাংশু সিংহ

অনেক প্রত্যাশা জাগিয়েও মাত্র ১৬ মিনিট ৯ সেকেন্ডেই শেষ। দেশবাসীর প্রাপ্তি বলতে আরও পাঁচ মাস বিনামূল্যে রেশন। শুধু ওইটুকুই। ছাপ্পান্ন ইঞ্চি বুক ফুলিয়ে চীনকে কোনও রণহুঙ্কার নয়, নিহত বীর জওয়ানদের মৃত্যুর বদলা নয় কিম্বা শূন্যে নেমে যাওয়া অর্থনীতিকে টেনে তোলার সামান্যতম অঙ্গীকারও নয়। ১৬ মিনিটের মধ্যে ১৩ মিনিটই উচ্চকিত আত্মপ্রচার।   বিশদ

মধ্যবিত্তের লড়াই শুরু হল
শুভময় মৈত্র 

কোভিড পরিস্থিতি চীনে শুরু হয়েছে গত বছরের শেষে। মার্চ থেকেই আমাদের দেশে হইচই। শুরুতেই ভীষণ বিপদে পড়েছেন নিম্নবিত্ত মানুষ। পরিযায়ী শ্রমিকদের অবর্ণনীয় দুর্দশার কথা এখন সকলেই জানেন।  বিশদ

04th  July, 2020
রাজধর্ম
তন্ময় মল্লিক 

যেমন কথা তেমন কাজ। উম-পুন সুপার সাইক্লোনে ক্ষতিপূরণ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠতেই মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দিয়েছিলেন, টাঙিয়ে দেওয়া হবে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা। ফেরানো হবে অবাঞ্ছিতদের হাতে যাওয়া ক্ষতিপূরণ।   বিশদ

04th  July, 2020
উন্নয়ন  ও  চীনা  আগ্রাসনের  উত্তর  একসুতোয় গাঁথা
নীলাশিস  ঘোষদস্তিদার 

আমরা ভারতীয়রা চীনা পণ্য বয়কট করব কি না, এই প্রশ্নে অনেকেই বেশ দ্বিধায়। এই কারণে যে এত সস্তায় কেনা সাধের চীনা অ্যান্ড্রয়েড ফোনটি ছেড়ে কি দামি আই-ফোন বা অকাজের দেশি ফোন কিনতে হবে?   বিশদ

03rd  July, 2020
ভার্চুয়াল স্ট্রাইক নাকি ড্যামেজ কন্ট্রোল!
মৃণালকান্তি দাস

ভারতের কোনও রাষ্ট্রনেতা তাঁর মতো বিদেশ সফর করেননি। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগেও বিনিয়োগ টানতে চীনে গিয়েছেন অনেকবার। তখন তিনি গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী। দশ বছরে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং চীনে গিয়েছেন ২ বার।  বিশদ

03rd  July, 2020
চীনের নতুন পুতুলের নাম পাকিস্তান
হারাধন চৌধুরী 

পাকিস্তান ছিল আমেরিকার পুতুল। এবার সেটা হাত বদলে চীনের হয়েছে। চীনের কোনও কিছুর গ্যারান্টি নেই। যেমন তাদের কথা আর বিশ্বাসের মূল্য, তেমনি চীনা প্রোডাক্টের আয়ু। এ নিয়ে চালু রসিকতাও কম নয়।  বিশদ

02nd  July, 2020
‘শোলে’ ছবির পুনর্নির্মাণ
সন্দীপন বিশ্বাস

দৃশ্য ১
রামগড়ের পাহাড়ের কোলে নিজের ডেরায় রাগে ফুঁসছেন গব্বর সিং। হাতের লোহার বেল্টটা পাথুরে মাটিতে ঘষতে ঘষতে এদিক ওদিক করছেন। চোখ মুখ দিয়ে তাঁর রাগ উথলে পড়ছে। চারপাশে গব্বর সিংয়ের চ্যালা কালিয়া, সাম্ভারা মাথা নিচু করে দাঁড়িয়ে আছে। একটু পরে গব্বর সিং বললেন, ‘হুম, সীমান্তে ওরা কতজন ছিল?’ কালিয়া ভয়ে মুখ কাঁচুমাচু করে বলল, ‘ওরা অনেকেই ছিল সর্দার। হাতে ওদের অনেক অস্ত্রশস্ত্রও ছিল।’
বিশদ

01st  July, 2020
‘সাম্রাজ্যবাদী’ জিনপিং...
শেষের এটাই শুরু নয় তো?
শান্তনু দত্তগুপ্ত

তরুণ বয়সে মাও সে তুং লিখেছিলেন... চীনকে ধ্বংস করতে হবে, আর সেই ধ্বংসস্তূপের উপর গড়ে তুলতে হবে নতুন দেশ। বিপ্লব—এটাই ছিল তাঁর লক্ষ্য... এবং স্বপ্নও। ভেবেছিলেন, কমিউনিজমই পারবে এই বিপ্লব আনতে। শত শত আইডিয়া ঘোরাফেরা করত তাঁর মাথায়। কিন্তু গা করেনি কেউ। বিশদ

30th  June, 2020
আপনি কি আর্থিক পুনরুজ্জীবনের লক্ষণ দেখছেন?
পি চিদম্বরম

 কিছু মানুষের দূরদৃষ্টি নিখুঁত। কিছু মানুষ অন্যদের চেয়ে ভালো দেখেন। তাঁরা দ্রষ্টা। সাধারণ মরণশীল মানুষ দেখতে পায় না এমন জিনিসও তাঁরা দেখতে পান। কিছু মানুষের দৃষ্টিশক্তি আমাদের ভাবনার চেয়েও উন্নত। তাঁরা মহাজ্ঞানী। তাঁরা ভবিষ্যৎ বলে দিতে পারেন। গড়পড়তা মানুষের যা অসাধ্য।
বিশদ

29th  June, 2020
মোদির তেল রাজনীতি ও
মমতার মানবিক প্যাকেজ
হিমাংশু সিংহ

 ডাক নাম মধু। বেসরকারি বাসের কন্ডাকটর। রোজ চুঁচুড়া থেকে ধর্মতলা পর্যন্ত বাসের পাদানিতে দাঁড়িয়ে লোক নিয়ে যাওয়া নিয়ে আসাই তাঁর পেশা। গত এপ্রিল-মে মাসে বাস চলেনি বলে মালিকও বেতনের পুরো টাকা দেননি। অনুনয় বিনয়ের পর সামান্য কিছু ঠেকিয়েছেন।
বিশদ

28th  June, 2020
দুষ্টের দমনেই
জন্মায় আস্থা
তন্ময় মল্লিক

এক বালতি দুধ নষ্ট করার জন্য এক ফোঁটা গোচোনাই যথেষ্ট। কথাটা সকলেরই জানা। ব্যক্তিজীবন থেকে সমাজজীবন, এমনকী রাজনীতিতেও এর প্রমাণ মিলেছে বারবার। ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচন তার জ্বলন্ত দৃষ্টান্ত। বিশদ

27th  June, 2020
একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনা আতঙ্ক এবার সিএবি’তে। সংস্থার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এক অস্থায়ী কর্মীর কোভিড-১৯ টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। তাই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে আপাতত এক সপ্তাহ বন্ধ থাকবে সিএবি।   ...

সংবাদদাতা, গঙ্গারামপুর: শুক্রবার রাতে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার কুশমণ্ডি থানার বাগঢোল এলাকায় এক বৃদ্ধার অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। পুলিস জানিয়েছে, মৃত বৃদ্ধার নাম নালো সরকার(৬০)। তাঁর বাড়ি বাগঢোল গ্রামেই।  ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত: যত দিন গড়াচ্ছে অশোকনগর শহরে ততই দাপট বাড়াচ্ছে করোনা। শুক্রবার রাতে করোনা-আক্রান্ত এক শিক্ষিকার মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া নতুন করে আরও ৬ জন ...

নিউ ইয়র্ক: হাতে ‘বয়কট চীন’ প্ল্যাকার্ড। মুখে চীনের সঙ্গে বাণিজ্য বয়কটের ডাক। শনিবার নিউ ইয়র্কের টাইমস স্কোয়ারে জমায়েত হয়ে চীনা আগ্রাসনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হলেন ভারতীয় ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

শারীরিক কারণে কর্মে বাধা দেখা দেবে। সন্তানরা আপনার কথা মেনে না চলায় মন ভারাক্রান্ত হবে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৪৪: অভিনেতা দীপঙ্কর দের জন্ম
১৯৪৬: রাজনীতিক রামবিলাস পাসোয়ানের জন্ম
২০০৫: ক্রিকেটার বালু গুপ্তের মূত্যু
২০০৭: অভিনেতা শুভেন্দু চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যু 



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.৮৯ টাকা ৭৫.৬১ টাকা
পাউন্ড ৯১.৭০ টাকা ৯৪.৯৭ টাকা
ইউরো ৮২.৫৭ টাকা ৮৫.৬৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৮, ৯৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৬, ৪৭০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭, ১৭০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৯, ২৭০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৯, ৩৭০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১৯ আষাঢ় ১৪২৭, ৩ জুলাই ২০২০, শুক্রবার, ত্রয়োদশী ২০/৪২ দিবা ১/১৭। জ্যেষ্ঠা ৪৭/৫০ রাত্রি ১২/৮। সূর্যোদয় ৫/০/৬, সূর্যাস্ত ৬/২১/২২। অমৃতযোগ দিবা ১২/২৭ গতে ২/৪৭ মধ্যে। রাত্রি ৮/২৯ মধ্যে পুনঃ ১২/৪৪ গতে ২/৫২ মধ্যে পুনঃ ৩/৩/৩৫ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৮/২০ গতে ১১/৪১ মধ্যে। কালরাত্রি ৯/১ গতে ১০/২১ মধ্যে। 
১৮ আষাঢ় ১৪২৭, ৩ জুলাই ২০২০, শুক্রবার, ত্রয়োদশী দিবা ১২/৫০। জ্যেষ্ঠা নক্ষত্র রাত্রি ১২/২৭। সূযোদয় ৫/০, সূর্যাস্ত ৬/২৩। অমৃতযোগ দিবা ১২/৯ গতে ২/৪৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৮/৩০ মধ্যে ও ১২/৪৬ গতে ২/৫৫ মধ্যে ও ৩/৩৭ গতে ৫/০ মধ্যে। বারবেলা ৮/২১ গতে ১১/৪২ মধ্যে। কালরাত্রি ৯/২ গতে ১০/২২ মধ্যে। 
১১ জেল্কদ 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
এটিকে-এমবির বোর্ডে সৌরভ 
জল্পনা ছিলই। শেষ পর্যন্ত বিস্তর আলোচনার পর এটিকে-এমবি প্রাইভেট লিমিটেডের ...বিশদ

10:33:05 AM

আগামীকাল কুলতলিতে বনধ ডাকল এসইউসিআই 
দলের জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য সুধাংশু জানাকে খুন ও মৈপীঠ অঞ্চলে ...বিশদ

10:26:59 AM

বড়বাজারে একটি বাড়িতে আগুন, ঘটনাস্থলে দমকলের ২টি ইঞ্জিন 

10:15:04 AM

দেশে একদিনে করোনা আক্রান্ত প্রায় ২৫ হাজার 
প্রতিদিনই সংক্রমণের নিরিখে রেকর্ড গড়ছে দেশ। এবার প্রায় ২৫ হাজার ...বিশদ

10:12:55 AM

কলকাতা হাইকোর্ট: কাল থেকে নিজের ঝুঁকিতে সশরীরে শুনানি করা যাবে 
মামলাকারী বা তাঁর আইনজীবী নিজের ঝুঁকিতে আগামী ৬ জুলাই থেকে ...বিশদ

09:05:28 AM

করোনায় আক্রান্ত সিএবি কর্মী 
করোনা আতঙ্ক এবার সিএবি’তে। সংস্থার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এক অস্থায়ী কর্মীর ...বিশদ

08:45:00 AM