Bartaman Patrika
বিশেষ নিবন্ধ
 

ফজলুর রহমানের উত্থান, ইমরানের মাথাব্যথা
মৃণালকান্তি দাস

ক্ষমতা টলমল পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের! সরকারের অপদার্থতা, ভোটে রিগিং এবং আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ তুলে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরানের খানের পদত্যাগের দাবি তুলেছেন জমিয়াত উলেমা-এ-ইসলামের প্রধান মৌলানা ফজলুর রহমান। একই দাবিতে পাকিস্তানের বিরোধী দলনেতাদের নিয়ে গত ২৭ অক্টোবর দক্ষিণ সিন্ধ প্রদেশে ‘আজাদি মার্চ’ নামে একটি বিক্ষোভ র‌্যালি করেন। সেই শুরু। মিছিল যত রাজধানীর দিকে পৌঁছেছে, ততই তার দৈর্ঘ্য এবং প্রস্থ বেড়েছে।
এরপর পাকিস্তান দেখেছে, দাড়িওয়ালা বিক্ষোভকারীদের গাড়ির বিশাল বিশাল কনভয়। হাতে উঁচু করে ধরা কালো ও সাদা পতাকা। সুক্কুর, মুলতান, লাহোর এবং গুজরানওয়ালা হয়ে সর্ষে হলুদ রঙের পোশাক পরা প্রতিবাদকারীরা শুক্রবার পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে জড়ো হয়েছে। তাদের দাবি, ‘অদক্ষ প্রশাসক’ প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে পদত্যাগ করতে হবে। বিক্ষোভকারীদের গাড়ির বহর যতই চোখ ধাঁধানো হোক না কেন সেখানে আরও একটি বিষয় নজর কাড়ছে সকলের, এই বিক্ষোভে নেই কোনও মহিলার অংশগ্রহণ। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, আজাদি মার্চ শুরু হওয়ার আগে যে লিফলেট প্রকাশ করা হয়েছে তাতে মহিলাদের ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়ে বলা হয়েছে, ‘রোজা ও নামাজ পড়তে’।
পাকিস্তানের বিরোধী দল জমিয়াত উলেমা-এ-ইসলামের প্রধান মৌলানা ফজলুর রহমানের দাবি, ‘আমরা যাতে সফল হই, সে জন্য তাঁরা রোজা রেখে আল্লার কাছে দোয়া করছেন।’ একইসঙ্গে তাঁর ঘোষণা, ‘এখন দেশ আমাদের নিয়ন্ত্রণে। আমরা ভেঙে পড়া অর্থনীতিকে মাথা তুলে দাঁড় করাব। অর্থনীতিকে একটি স্থিতিশীল অবস্থায় নিয়ে আসাই আমাদের লক্ষ্য।’ সেই সঙ্গে দেশের ‘শক্তিশালী’ প্রতিষ্ঠানগুলিকে নিরপেক্ষ থাকতে অনুরোধ করেন ফজলুর। ‘শক্তিশালী’ প্রতিষ্ঠান বলতে তিনি যে সেনাকে বুঝিয়েছেন, তা নিয়ে পাক রাজনীতিকদের সন্দেহ ছিল না। বিক্ষোভ সমাবেশে বারবার বলেছেন, ইমরান খান সেনাদের পুতুল।
ইমরান খানকে পদত্যাগের জন্য রবিবার পর্যন্ত সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। ফজলুর রহমান ইঙ্গিত দিয়েছেন, রবিবারের মধ্যে ইমরান পদত্যাগ না করলে বিক্ষোভকারীদের নিয়ে তিনি রেড জোনে প্রবেশ করবেন। কোনও চাপেই তিনি নতি স্বীকার করবেন না। পাল্টা জবাবে ইমরান খানও জানিয়ে দিয়েছেন, কোনও অগণতান্ত্রিক দাবি মানা হবে না। বিক্ষোভকারীরা যেন সরকারকে ব্ল্যাকমেল করতে না পারে সে বিষয়েও সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। পরিস্থিতি যে একটা ভয়াবহ আকার ধারণ করতে চলেছে, তা আঁচ করেই পাক পুলিস-প্রশাসন প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে। ইসলামাবাদের গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।
হিংসা রুখতে রাজধানীর সর্বত্র সেনা এবং আধাসামরিক বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে প্রশাসনকে সতর্ক থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী ইজাজ শাহ। পার্লামেন্টের সামনে সাঁজোয়া যান মোতায়েন করা হয়েছে। স্পর্শকাতর জায়গাগুলোতে নিরাপত্তা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্যও আনা হয়েছে। জমিয়াত উলেমা-এ ইসলামের প্রধানের হুমকির পর প্রধানমন্ত্রীর বানি গালা বাসভবনের দিকের সড়কগুলোতে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে।
প্রশ্ন হল, ইমরান খানকে উৎখাতের ডাক দেওয়া কে এই ফজলুর রহমান? বাবা মুফতি মাহমুদের হাত ধরেই ফজলুর রহমানের রাজনীতিতে আসা। ১৯৭৯ সালের ৯ নভেম্বর করাচির খালিকে দুনিয়া হলে মৌলানা প্রথম রাজনৈতিক বক্তব্য রাখেন। এই বক্তব্যে তিনি তৎকালীন সেনাশাসক জেনারেল জিয়াউল হকের রাষ্ট্রপ্রধান পদে বসার সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করেন। এরপর থেকে তাঁর জেলে যাওয়া আসা শুরু। ১৯৮১ সালে তিনি যখন জেনারেল জিয়াউল হকের বিরুদ্ধে আন্দোলন করে কারাবন্দি হন। তখন তাঁকে জমিয়াতে উলেমা-এ ইসলামের জেনারেল সেক্রেটারি নির্বাচন করা হয়। ১৯৯৫ সালের ২৮ মার্চ জামেয়া মাদানিয়া করিমপার্কে ৩২৫ সদস্যের অধিকাংশের মতামতের ভিত্তিতে ফজলুর রহমান সভাপতি নির্বাচিত হন। ফজলুর রহমান রাজনৈতিক মামলায় মোট ১০ বার কারাবরণ করেছেন।
১৯৯৩ সনে বেনজির ভুট্টো দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হলে ফজলুর রহমান জাতীয় সংসদের বিদেশ বিষয়ক কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হন। ১৯৯৬ সালে যখন বেনজির ক্ষমতাচ্যুত হন, তখন নওয়াজ শরিফের তদন্ত ব্যুরো সর্বশক্তি নিয়োগ করেও ফজলুর রহমানের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ আনতে পারেনি। আগেও পাকিস্তানে ইসলামি অনেক দল ছিল, কিন্তু তা কোনও জাতীয় শক্তির রূপ ধারণ করতে পারেনি। ফজলুর রহমান ২০০২ সালে সব ইসলামি দল নিয়ে ‘মুত্তাহিদা মজলিসে আমল’ (এমএমএ) নামে একটি জোট গঠন করেন। যার সভাপতি ছিলেন বেরেলভিপন্থি মৌলানা শাহ আহমদ নুরানি এবং মুখপাত্র ছিলেন তিনি নিজে। এতে জামাত, শিয়াসহ সব মত ও পথের লোকেরা তাঁর নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয় এবং এমএমএ কেন্দ্রীয় ও প্রাদেশিক পরিষদে ৭২টি আসনে জয়লাভ করে।
পাকিস্তানের সাংবাদিক হামিদ মীর একবার তাঁর এক সম্পাদকীয় কলামে লেখেন, ‘অনেক যুবক আমাকে জিজ্ঞেস করেন যে, পাকিস্তানে সবচেয়ে উঠতি রাজনীতিবিদ কে? আমি সাধারণত এমন প্রশ্ন এড়িয়ে চলি। কিন্তু কিছু নাছোড়বান্দা যখন আমাকে চেপে ধরে, তখন অনায়াসে তাদের জবাবে মুখ থেকে বেরিয়ে আসে, মৌলানা ফজলুর রহমান। মজার কথা হল, কেউ কেউ এই জবাব শুনে খুশিতে আত্মহারা হয়ে যান, আবার কেউ কেউ অগ্নির্শমা হয়ে বলেন যে, তাহলে তাঁকে ‘ডিজেল মৌলানা’ বলা হয় কেন? আমি সাধারণত এ কথার জবাব এভাবে দিই যে, তাঁকে ডিজেল মৌলানা খেতাবদাতা জনাব আতাউল হক কাসেমিও একথা অকপটে স্বীকার করতে বাধ্য যে, ফজলুর রহমান পাকিস্তানের উঠতি রাজনীতিবিদের প্রথম সারির একজন।’
এহেন ফজলুর রহমান ডাক দিয়েছেন, ‘পাকিস্তানের গর্বাচেভকে পদত্যাগ করতে হবে।’ বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশ্যে দেওয়া বক্তৃতায় বলেন, ‘২৫ জুলাইয়ের নির্বাচন ছিল জালিয়াতিতে ভরা। ওই নির্বাচনের পর ক্ষমতায় আসা সরকার কিংবা সরকারকে স্বীকৃতি দিচ্ছি না আমরা। সরকারকে আমরা এক বছর সময় দিয়েছি। কিন্তু এখন আর বেশি সময় দেওয়া যাবে না। ইসলাম ও পাকিস্তান কখনও আলাদা হতে পারে না। ইসলামি সাংবিধানিক ধারাগুলো বাস্তবায়নের দাবিগুলো থেকে দূরে রাখতে পিটিআই সরকারের কোনও কর্তৃত্ব নেই।’ পিটিআই সরকারের চাপিয়ে দেওয়া দাসত্বের অর্থনীতি বিরোধী দল মেনে নেবে না বলে দাবি করেন এই রাজনীতিবিদ। আর এই দাবিতেই জমিয়াত উলেমা-এ ইসলামের আজাদি মার্চ জনসমুদ্রের রূপ নিয়েছে।
পাকিস্তানি ও দলীয় পতাকা উড়িয়ে কয়েক হাজার গাড়ি নিয়ে এই পদযাত্রায় অংশ নিয়েছে আন্দোলনকারীরা। ইমরানবিরোধী ‘গো নিয়াজি গো’ স্লোগানসহ সরকারবিরোধী প্রচারে গোটা দেশ উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। ইমরান বিরোধী হাওয়াকে আরও উস্কে দিতে সরকারবিরোধী এই পদযাত্রায় পাকিস্তান পিপল’স পার্টি, পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ, আওয়ামি ন্যাশনাল পার্টিসহ বিভিন্ন দলের প্রতিনিধিরাও সমর্থন দিয়ে অংশ নিয়েছেন। ইসলামাবাদে ফজলুরের বাড়িতে তাঁর সঙ্গে আলোচনায় বসেন পাকিস্তান পিপলস পার্টির বিলাবল ভুট্টো জারদারি, পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের আহসান ইকবাল, খাজা আসিফ, পাখতুনখোয়া মিল্লি আওয়ামি পার্টির মেহমুদ খান আছাকজাইয়ের মতো বিরোধী নেতারা।
বিশাল এই জনরোষ সত্ত্বেও নির্বাচিত সরকারের প্রধান ইমরান খানের উপরই আস্থা প্রকাশ করেছে পাক সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর জানিয়ে দিয়েছেন, আমরা আইন ও সংবিধানে বিশ্বাসী। আমাদের সমর্থন নির্বাচিত সরকারের উপরই থাকবে, কোনও নির্দিষ্ট দলের পক্ষে নয়। সেনাবাহিনীর দিকে ইঙ্গিত করে ফজলুর রহমান জানিয়ে দিয়েছেন, যদি ইমরান খান পদত্যাগ না করেন এবং তাঁর ‘প্রতিষ্ঠানটি’-র সুরক্ষা দেওয়ার চেষ্টা করেন, তাহলে ওই ‘প্রতিষ্ঠানের’ বিরুদ্ধেও জনমত গঠন করা হবে। বিরোধীরা অবাধে এই জনমত গঠন করবে। সেনাবাহিনী যাই বলুক না কেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পদত্যাগ এবং পুনরায় নির্বাচনের দাবিতে অনড় বিরোধীরা। কী হতে চলেছে পাকিস্তানে? কেউ জানে না।
পাকিস্তানে অনেকে ঠাট্টা করে বলছেন, ফজলুর রহমানের উত্থানে ইমরানের ফের পিঙ্কি পীরনির দ্বারস্থ হওয়া ছাড়া উপায় নেই! পিঙ্কি পীরনি কে জানেন? পাকিস্তানের ফার্স্ট লেডি। তিনি একজন মহিলা পীর। স্বপ্ন আর ভবিষ্যৎ নিয়েই বুশরা মানেকার কারবার। ভক্তরা তাঁকে পিঙ্কি পীরনি বলেই চেনেন। নিজের শহর লাহোরের বাইরেও তাঁর অনেক অনুসারী। সেই পিঙ্কি পীরনি এক রাতে স্বপ্ন দেখলেন। ২০১৫ সালে মানেকা যাঁকে স্বপ্নে দেখেছিলেন তিনিও একসময় তাঁর ভক্তদের দলে শামিল হলেন।
সেই ভক্তের নাম ইমরান খান। ইমরান খান তাঁর আত্মজীবনীতে লিখেছেন, ‘পাকিস্তানে বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলে লাখ লাখ মানুষ তাঁদের অনুসরণ করে, ধর্মীয় থেকে নিত্যদিনের জীবনের সমস্যা নিয়ে তাঁদের কাছে পরামর্শ চায়।’ ১৯৯০–এর মাঝামাঝি ইমরানের সৌভাগ্যে মেঘের চিহ্ন ছিল না। বিশ্বকাপ জিতেছেন। ধনী সুন্দরীকে বিয়ে করেছেন। মায়ের স্মরণে ক্যান্সার হাসপাতাল গড়েছেন। এত সব অর্জনের মধ্যে পাকিস্তানের এক ছোট শহরের এক মহিলা পীরের ভবিষ্যদ্বাণী তাঁকে আর কী দিয়েছে জানেন? রাজনীতি।
অনেক প্রতিষ্ঠিত রাজনীতিবিদ, সামরিক বাহিনীর বড় কর্তারা ইমরানকে নিজের কাছে টানার চেষ্টা করছিলেন। শেষ পর্যন্ত ইমরান খান ১৯৯৬ সালে নিজের দল বানালেন। নাম দিলেন তেহরিক ই ইনসাফ। মানে ন্যায়ের জন্য আন্দোলন, যা পিটিআই নামে পরিচিত। প্রথম নির্বাচনে পার্টি কোনও আসন পেল না। পরের নির্বাচনে জিতলেন শুধু নিজের আসনে। ২০১৩ সালে তাঁর ব্যক্তিগত জনপ্রিয়তা যখন তুঙ্গে, তখনও পিটিআই জিতল মাত্র ৩৫ আসন। ২০ বছর ধরে তিনি বিদেশে থাকা বন্ধুদের বলতেন, ‘পরের বার দেশে এলে দেখবে আমি প্রধানমন্ত্রী।’ চারটা নির্বাচন গেল, দুটো বিয়ে ভাঙল কিন্তু প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আশা অধরাই রয়ে গেল। ঠিক এই সময়ই বুশরা মানেকা তাঁর স্বপ্ন দেখলেন।
এর পরের অংশ এক আরব্য রজনীর গল্প হয়ে পাকিস্তানিদের মুখে মুখে ফেরে। মানেকার স্বপ্নে নাকি এক কণ্ঠস্বর বলেছিল, ইমরান খান যদি প্রধানমন্ত্রী হতে চান তাহলে তাঁকে সঠিক মহিলাকে বিয়ে করতে হবে। সঠিক মহিলা মানে মানেকার পরিবারের কেউ। এই গল্পের অন্য সংস্করণ বলছে যে বিয়ের জন্য মানেকা প্রথমে তাঁর ছোট বোনের কথা বলেন। আরেক গল্প বলছে, তাঁর আপন মেয়ের কথা। ইমরান দুই প্রস্তাবই নাকচ করেন। মানেকা আবার স্বপ্ন দেখলেন।
এবার আর কোনও ইশারা নয়। স্বপ্নে জানতে পারলেন ইমরানের যে স্ত্রী দরকার, সেটা তিনি নিজেই। পাঁচ সন্তানের মা মানেকা প্রস্তুত হলেন। তাঁর কাস্টমস অফিসার স্বামী আপসে বিবাহ বিচ্ছেদে রাজিও হয়ে গেলেন। ২০১৮–এর ফেব্রুয়ারিতে ক্রিকেটার আর ভবিষ্যৎ–দ্রষ্টার বিয়ে হল ঘনিষ্ঠজনদের নিয়ে ছোট পারিবারিক অনুষ্ঠানে। এর ছয় মাস পর ইমরান খান হলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। পিঙ্কি পীরনি হলেন পাকিস্তানের ফার্স্ট লেডি। পিঙ্কি পীরনি কি পারবেন, এ যাত্রায় ইমরানকে বাঁচাতে? 
08th  November, 2019
শীর্ষ সম্মেলন কূটনীতির পরাজয়

দুই নেতার সিদ্ধান্ত ছিল যে ‘২০২০ সালটাকে ভারত-চীন সংস্কৃতি এবং মানুষে মানুষে ভাব বিনিময়ের বর্ষ হিসেবে চিহ্নিত করা হবে’। আইডিয়াটা স্মরণীয় হবে ভেবে মোদিজি নিশ্চয় আহ্লাদিতই হয়েছিলেন!
বিশদ

ভ্যাকসিন বের করা আর
সার্জিকাল স্ট্রাইক এক নয়
হিমাংশু সিংহ

ধামাকা দিয়ে সব যুদ্ধ জয় করা যায় না। বিশেষ করে ভ্যাকসিন আবিষ্কারের যুদ্ধ, আর সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানের জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস করা মোটেই এক নয়। বিজ্ঞানের কোনও কালজয়ী আবিষ্কারই ১৫ আগস্ট, ২৬ জানুয়ারি কিম্বা পূর্ণিমা-অমাবস্যার তিথি নক্ষত্র দেখে আসে না।
বিশদ

12th  July, 2020
প্রতিপক্ষ যখন পঞ্চায়েত
তন্ময় মল্লিক

উদ্দেশ্য এবং উপায় সৎ হলে তার ফল ভালো হয়। এমন কথাই যুগ যুগ ধরে চলে আসছে। কিন্তু সব ক্ষেত্রে সেটা খাটে না। জ্বলন্ত উদাহরণ পঞ্চায়েত ব্যবস্থা। লক্ষ্য ছিল ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ। তৈরি হয়েছিল জেলা পরিষদ। জেলার রাইটার্স বিল্ডিং।
বিশদ

11th  July, 2020
নিত্য নতুন ইভেন্টের
আড়ালে যত খেলা
সমৃদ্ধ দত্ত

বয়কটের আগে বুঝতে হবে যে, এখন এসব বয়কট করার অর্থ আমাদের দেশেরই ব্যবসায়ী, দোকানিদের চরম আর্থিক ক্ষতি। বিগত তিনমাসের লকডাউনে এমনিতেই জীবিকা সঙ্কটে ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ীরা। আমাদের এলাকার চাইনিজ প্রোডাক্ট এখন আমরা না কিনলে চীনের ক্ষতি নেই।
বিশদ

10th  July, 2020
করোনা যুদ্ধে জাপানকে জেতাচ্ছে সুস্থ সংস্কৃতি 
হারাধন চৌধুরী

সারা পৃথিবীর হিসেব বলছে, করোনা ভাইরাসে বা কোভিড-১৯ রোগে মৃতদের মধ্যে বয়স্কদের সংখ্যাই বেশি। সেই প্রশ্নে জাপানিদের প্রচণ্ড ভয় পাওয়ার কথা। কারণ, প্রতি একশো জনের মধ্যে বয়স্ক মানুষের সংখ্যা জাপানেই সর্বাধিক।   বিশদ

09th  July, 2020
 একাদশ অবতার
সন্দীপন বিশ্বাস

কতদিন হয়ে গেল ওইসব দামি দামি স্যুট পরা হয়নি, কতদিন বিদেশ যাওয়া হয়নি, কত বিদেশি রাজার সঙ্গে জড়াজড়ি করে হাগ করা হয়নি। সেসব নিয়ে খুবই মন খারাপ হবু রাজার।
বিশদ

08th  July, 2020
সীমান্ত বিতর্ক অছিলা, বাণিজ্য যুদ্ধ
জিততেই চীনের গলওয়ান কাণ্ড
সঞ্জয় মুখোপাধ্যায়

সীমান্ত উত্তেজনা কমাতে ভারতের নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালের সঙ্গে চীনের বিদেশ মন্ত্রীর বৈঠক আপাতত স্বস্তি দিয়েছে। কিন্তু, স্থায়ী সমাধান সূত্র মেলেনি। বরং বৈঠকের পর চীনের সরকারের বক্তব্য, দুই দেশের সম্পর্ক এক জটিল পরিস্থিতির মুখোমুখি। কী সেই পরিস্থিতি?
বিশদ

08th  July, 2020
সীমান্তেও মোদির
চমকদার রাজনীতি
শান্তনু দত্তগুপ্ত

তারিখটা ৭ নভেম্বর, ১৯৫৯। কংকা পাসের ঘটনার পর প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুকে চিঠি দিয়েছেন চৌ-এন-লাই। লিখেছেন, দু’দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মধ্যে যা হয়েছে, তা দুর্ভাগ্যজনক এবং মোটেও কাঙ্ক্ষিত নয়।
বিশদ

07th  July, 2020
আইনের হাত থেকে
স্বাধীনতাকে উদ্ধার করো
পি চিদম্বরম

যদি কোনও ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়, তবে সে অবশ্যই কোনও ভুল করেছে। যদি কারও জামিন নামঞ্জুর হয়ে যায়, তবে সে নিশ্চয় অপরাধী। যদি কোনও ব্যক্তিকে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠানো হয়, তবে জেলসহ শাস্তিই তার প্রাপ্য।  বিশদ

06th  July, 2020
গুরু কে, কেনই বা গুরুপূর্ণিমা?
জয়ন্ত কুশারী

কে দেখাবেন আলোর পথ? পথ অন্ধকারাচ্ছন্নই বা কেন? এই অন্ধকার, মনের। মানসিকতারও। চিন্তার। আবার চেতনারও। এই অন্ধকার কুসংস্কারের। আবার অশিক্ষারও। অথচ আমরা প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত এক একজন।   বিশদ

05th  July, 2020
জাতির উদ্দেশে ভাষণের চরম অবমূল্যায়ন
হিমাংশু সিংহ

অনেক প্রত্যাশা জাগিয়েও মাত্র ১৬ মিনিট ৯ সেকেন্ডেই শেষ। দেশবাসীর প্রাপ্তি বলতে আরও পাঁচ মাস বিনামূল্যে রেশন। শুধু ওইটুকুই। ছাপ্পান্ন ইঞ্চি বুক ফুলিয়ে চীনকে কোনও রণহুঙ্কার নয়, নিহত বীর জওয়ানদের মৃত্যুর বদলা নয় কিম্বা শূন্যে নেমে যাওয়া অর্থনীতিকে টেনে তোলার সামান্যতম অঙ্গীকারও নয়। ১৬ মিনিটের মধ্যে ১৩ মিনিটই উচ্চকিত আত্মপ্রচার।   বিশদ

05th  July, 2020
মধ্যবিত্তের লড়াই শুরু হল
শুভময় মৈত্র 

কোভিড পরিস্থিতি চীনে শুরু হয়েছে গত বছরের শেষে। মার্চ থেকেই আমাদের দেশে হইচই। শুরুতেই ভীষণ বিপদে পড়েছেন নিম্নবিত্ত মানুষ। পরিযায়ী শ্রমিকদের অবর্ণনীয় দুর্দশার কথা এখন সকলেই জানেন।  বিশদ

04th  July, 2020
একনজরে
মাদ্রিদ: রিয়াল মাদ্রিদের লিগ জয় কার্যত নিশ্চিত। অঘটন না ঘটলে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই খেতাব জিতবে জিনেদিন জিদান-ব্রিগেড। লিগ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা বার্সেলোনার চেয়ে ...

সংবাদদাতা, মালদহ: প্রাকৃতিক বিপর্যয় ও লকডাউনের জেরে ক্ষতিগ্রস্ত মালদহের আম ব্যবসাকে চাঙ্গা করতে ইতিমধ্যেই উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্যের খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ ও উদ্যানপালন দপ্তর। দিল্লিতে নিযুক্ত ...

  নয়াদিল্লি: ফের বাড়ল ডিজেলের দাম। দু’সপ্তাহ আগে দিল্লিতে প্রথমবার ডিজেলের মূল্য লিটার প্রতি ৮০ টাকা ছাড়িয়েছিল। রবিবার তা প্রতি লিটারে ১৬ পয়সা বেড়ে ৮১ ...

সুমন তেওয়ারি  আসানসোল: করোনার দাপটের মধ্যেই এবার ডেঙ্গু হানা দিল পশ্চিম বর্ধমান জেলায়। স্বাস্থ্যদপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, আসানসোল, দুর্গাপুর সহ জেলার বিভিন্ন প্রান্তে এখনও ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীরা বেশ কিছু সুযোগের সংবাদে আনন্দিত হবেন। বিদ্যার্থীরা পরিশ্রমের সুফল নিশ্চয় পাবে। ভুল সিদ্ধান্ত থেকে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৩০: কলকাতায় দ্য জেনারেল অ্যাসেম্বলিজ ইনস্টিটিউশন, অধুনা স্কটিশ চার্চ কলেজ প্রতিষ্ঠা করলেন আলেকজান্ডার ডাফ এবং রাজা রামমোহন রায়
১৯০০: অভিনেতা ছবি বিশ্বাসের জন্ম
১৯৪২: মার্কিন অভিনেতা হ্যারিসন ফোর্ডের জন্ম
১৯৫৫: সাহিত্যিক আশাপূর্ণা দেবীর মৃত্যু
২০১১: মুম্বইয়ে ধারাবাহিক তিনটি বিস্ফোরণে হত ২৬, জখম ১৩০
২০১৩: বোফর্স কান্ডে অভিযুক্ত ইতালীয় ব্যবসায়ী অত্তাভিও কাত্রোচ্চির মৃত্যু।



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৩১ টাকা ৭৬.০৩ টাকা
পাউন্ড ৯৩.০০ টাকা ৯৬.২৯ টাকা
ইউরো ৮৩.২৩ টাকা ৮৬.২৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
11th  July, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৯,৭৭০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৭,২২০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭,৯৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৫১,২২০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৫১,৩৩০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
12th  July, 2020

দিন পঞ্জিকা

২৯ আষাঢ় ১৪২৭, ১৩ জুলাই ২০২০, সোমবার, অষ্টমী ৩২/৪৫ অপঃ ৬/১০। রেবতী ১৫/২৫ দিবা ১১/১৪। সূর্যোদয় ৫/৩/৫২, সূর্যাস্ত ৬/২০/৩৮। অমৃতযোগ দিবা ৮/৩৬ গতে ১০/২২ মধ্যে। রাত্রি ৯/১২ গতে ১২/৪ মধ্যে পুনঃ ১/৩০ গতে ২/৫৫ মধ্যে। বারবেলা ৬/৪৩ গতে ৮/২২ মধ্যে পুনঃ ৩/১ গতে ৪/৪১ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/২১ গতে ১১/৪২ মধ্যে।
২৮ আষাঢ় ১৪২৭, ১৩ জুলাই ২০২০, সোমবার, অষ্টমী অপরাহ্ন ৫/০। রেবতী নক্ষত্র দিবা ১১/৮। সূযোদয় ৫/৩, সূর্যাস্ত ৬/২৩। অমৃতযোগ দিবা ৮/৩৬ গতে ১০/২৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/১৩ গতে ১২/৪ মধ্যে ও ১/২৯ গতে ২/৫৫ মধ্যে। কালবেলা ৬/৪৩ গতে ৮/২৩ মধ্যে ও ৩/৩ গতে ৪/৪৩ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/২৩ গতে ১১/৪৩ মধ্যে।
২১ জেল্কদ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
কর্ণাটকে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ২,৬২৭
কর্ণাটকে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২,৬২৭ জনের শরীরে ...বিশদ

12-07-2020 - 08:57:56 PM

রাজ্যে করোনা আক্রান্ত ৩০ হাজার ছাড়াল
রাজ্যে করোনা আক্রান্ত ৩০ হাজার ছাড়াল। পাশাপাশি গত ২৪ ঘণ্টায় ...বিশদ

12-07-2020 - 07:28:42 PM

কেরালায় একদিনে করোনা আক্রান্ত ৪৩৫ 
কেরালায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৩৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ৪ ...বিশদ

12-07-2020 - 06:54:11 PM

২৪ ঘণ্টায় নয়াদিল্লিতে করোনায় আক্রান্ত ১,৫৭৩
২৪ ঘণ্টায় নয়াদিল্লিতে নতুন করে আরও ১,৫৭৩ জনের শরীরে মিলল ...বিশদ

12-07-2020 - 06:47:29 PM

তামিলনাড়ুতে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৪,২৪৪ 
তামিলনাড়ুতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ২৪৪ জন করোনায় আক্রান্ত ...বিশদ

12-07-2020 - 06:41:48 PM

বিহারে একদিনে করোনা আক্রান্ত ১,২৬৬ 
বিহারে গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ২৬৬ জন করোনায় আক্রান্ত ...বিশদ

12-07-2020 - 04:47:18 PM