Bartaman Patrika
বিশেষ নিবন্ধ
 

ঘরে ঘরে হানাদার 
শান্তনু দত্তগুপ্ত

উওটার স্লটবুম আমস্টারডামের একটি কাফেতে ঢুকলেন। সঙ্গে একজন ডাচ সাংবাদিক। কাফেতে ওয়াই-ফাই চলছে। স্লটবুম একটি চেয়ার টেনে বসে তাঁর ল্যাপটপটা খুললেন। পাশে ছোট কালো রঙের একটা ডিভাইস। সবকিছু সেট করে নিয়ে কাফের ওয়াই-ফাইয়ের সঙ্গে নিজের ল্যাপটপটাকে কানেক্ট করলেন। কিছুক্ষণ পর দেখা গেল, ল্যাপটপে অন্য বহু ডিভাইসের আলাদা আলাদা উইন্ডো খুলে ফেলেছেন তিনি। কোন ডিভাইস? ওই কাফের ওয়াই-ফাই ব্যবহার করে যাঁরা কাজ করছিলেন, তাঁদেরই মোবাইল ফোন বা ল্যাপটপ... কেউ হয়তো গুগলে ঢুকে কিছু সার্চ করছেন, কেউ আবার ই-মেল করছেন... সবটাই দেখা যাচ্ছে স্লটবুমের ল্যাপটপে। আপনার ফোনে কোন কোন অ্যাপ ইনস্টল করা রয়েছে, আপনার ই-মেলের ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড, গুগলে কী কী সার্চ করা হয়েছে এবং আরও অনেক কিছু। স্লটবুম একজন এথিক্যাল হ্যাকার। শুনতে ভালো না লাগলে গালভরা অন্য নামও আছে—তথ্য প্রযুক্তির নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ। পাবলিক ওয়াই-ফাইয়ের নিরাপত্তার অভাব নিয়ে তাঁর কাজ। স্লটবুমের দাবি, ৮০-৯০ ডলার খরচ করে একটা সফ্‌টওয়্যার লাগিয়ে নিলেই হবে। কয়েক মিনিটের মধ্যে ডজন ডজন ব্যক্তিগত তথ্য হাতের নাগালে। এমনকী, ই-মেলের সঙ্গে যে যে অ্যাকাউন্টের সংযোগ রয়েছে, সেই সবও হাতিয়ে নেওয়া সম্ভব। ওই একটি কালো ডিভাইস দিয়ে। অনায়াসে তথ্যপাচার।
হ্যাকিং বিষয়টা এখন এমনই জলভাত। কিছু বিদ্যাবুদ্ধি যদি থাকে, তার সঙ্গে ঠিকঠাক সফ্‌টওয়্যার লাগিয়ে নিলেই হল। সাধারণ মানুষও অন্যের মোবাইল ফোন বা ল্যাপটপের আইপি হ্যাক করে নিতে পারে। সামান্য সামর্থ্য নিয়েই। আর যদি এটাই কোনও রাষ্ট্র করতে চায়? তার কিন্তু ক্ষমতা, প্রযুক্তি এবং দক্ষ কর্মী... সবই বেশি। ইচ্ছেমতো।
সোশ্যাল মিডিয়ায় সবচেয়ে নিরাপদ মাধ্যম ধরা হয় হোয়াটসঅ্যাপকে। কারণ, এই মিডিয়াম দিয়ে কোনও মেসেজ বা কল করলে সেটা ‘এন্ড টু এন্ড এনক্রিপটেড’ হয়। অর্থাৎ যে মেসেজ পাঠাচ্ছে, আর যার কাছে পৌঁছচ্ছে, এই দু’জন ছাড়া আর কেউ তা দেখতে বা বুঝতে পারবে না। শুধু একটি উপায়ে সেই লোহার সিন্দুকে ফুটো করা সম্ভব। যদি ডিভাইসে বিশেষ একটা ম্যালওয়্যার ঢুকিয়ে দেওয়া যায়। তার নাম পেগাসাস। কী হয় এতে? পেগাসাসের অপারেটর আপনাকে একটা লিঙ্ক পাঠাবে, যাকে বলা হয় ‘এক্সপ্লয়েট লিঙ্ক’। তাতে ক্লিক করা মাত্রই চিচিং ফাঁকের মতো আপনার ফোন বা কম্পিউটারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা সেই হ্যাকারের কাছে উন্মুক্ত হয়ে যাবে। কারণ ততক্ষণে আপনার অজান্তেই ওই ডিভাইসে পেগাসাস ইনস্টল হয়ে গিয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে ঢুকে পড়েছে ‘ক্রাইসাওর’ ম্যালওয়্যার। কোনও অ্যাপ ইনস্টল করার সময় ডিভাইস ব্যবহারকারীর থেকে যে অনুমতি চাওয়া হয়, সেটাও কিন্তু এই পেগাসাস চাইবে না। আপনার ফোন বা ল্যাপটপটি সরাসরি চলে যাবে সেই অপারেটরের নিয়ন্ত্রণে। আর তার নির্দেশ মতো আপনার ডিভাইসের কনট্যাক্ট, ই-মেল, পাসওয়ার্ড, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সহ যাবতীয় তথ্য চুরি করে নেবে পেগাসাস। শুধু তাই নয়, আপনার মেসেজ দেখা এবং ভয়েস কল শোনার কাজটাও সেই অপারেটর বিনা বাধায় করতে পারবে। ধরুন আপনি কোনও গুরুত্বপূর্ণ মিটিংয়ে আছেন, সেই অপারেটর তখন আপনার ফোনের ক্যামেরা এবং মাইক্রোফোন অন করে সব কিছু রেকর্ড করে নিতে পারে। আপনি জানতেও পারবেন না। আর এর নবতম সংযোজন? ‘এক্সপ্লয়েট লিঙ্ক’-এও দরকার নেই। হোয়াটসঅ্যাপে একটা মিসড ভিডিও কলই এখন যথেষ্ট। ২০১৬ সালের জুলাই-আগস্ট মাসে মেক্সিকোর এক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞের উপর পেগাসাস ‘হামলা’ হয়। একের পর এক মেসেজ... কোথাও লেখা, আপনার মেয়ের ভয়াবহ অ্যাক্সিডেন্ট হয়েছে। নীচের লিঙ্কে ক্লিক করুন, তাহলে বিস্তারিত জানতে পারবেন। কয়েকদিন পরই আরও একটা মেসেজ... আপনার স্ত্রী অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়েছে। লিঙ্কে ক্লিক করলেই ছবি দেখতে পাবেন। মেক্সিকোর সেই ব্যক্তি অবশ্য একটি ফাঁদেও পা দেননি। বুঝেছিলেন, সবই এক্সপ্লয়েট লিঙ্ক। যদি একটিতেও তিনি ক্লিক করতেন, সঙ্গে সঙ্গে তাঁর মোবাইলে পেগাসাস ইনস্টল হয়ে যেত। আর তাহলেই... খেল খতম।
এই ‘পেগাসাস’-এর প্রস্তুতকারক ইজরায়েলের এনএসও গ্রুপ। হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যেই সান ফ্রান্সিসকোর মার্কিন ফেডেরাল আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছে। তারা জানিয়েছে, বিশ্বজুড়ে ১ হাজার ৪০০ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীকে টার্গেট করেছে এনএসও। যার মধ্যে বেশ কিছু নম্বর ভারতেরও। সঠিক সংখ্যা? জানায়নি হোয়াটসঅ্যাপ। তবে নেহাৎ কম নয়! শোনা যাচ্ছে ১২১ জন। আক্রান্তদের নাম কিন্তু সংস্থা জানাতে চায়নি। তবে হ্যাঁ, হোয়াটসঅ্যাপ স্বীকার করেছে, ভারতে যাদের নিশানা করা হয়েছে তাঁদের মধ্যে রয়েছেন, আইনজীবী, সাংবাদিক, মানবাধিকার কর্মী। হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষের দাবি, সেই প্রত্যেক ব্যক্তির সঙ্গে তারা যোগাযোগ করেছে এবং পেগাসাস থেকে বাঁচতে কী করতে হবে, সেটাও জানিয়েছে। এনএসও গ্রুপের একটি চুক্তি হয়েছিল সৌদি আরবের সঙ্গে... সাংবাদিক জামাল খাসোগি খুনের আগে। খাসোগি কোথায় আছেন, কী করছেন সব জানার জন্য ‘এক্সপ্লয়েট লিঙ্ক’-এর মাধ্যমে একটি স্পাইওয়্যার ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছিল তাঁর ডিভাইসে। ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক ছিলেন জামাল খাসোগি। সৌদি রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ... তারপর সেই রাজতন্ত্রেরই সমালোচক। ইস্তানবুলে সৌদির দূতাবাসে খুন হতে হয় তাঁকে। বাকিটা ইতিহাস এবং বর্তমানও বটে। কারণ, খাসোগি খুনের ঝাপটা এখনও খেতে হচ্ছে সৌদি আরবকে। যুবরাজ মহম্মদ বিন সলমনও স্বীকার করে নিয়েছেন, দায় তিনি এড়িয়ে যেতে পারেন না।
এ পর্যন্ত ৪৫টি দেশে পেগাসাস আঘাত হেনেছে বলে খবর। যার মধ্যে ভারতও আছে। পাঁচটি অপারেটর কাজ করছে এশিয়ায়। বিভিন্ন সূত্র মারফত পাওয়া খবর, একটি রাজনৈতিক ডোমেনের নামে পর্যন্ত এদেশে পেগাসাস অপারেটর কাজ চালাচ্ছে। তাহলে কি এর নেপথ্যে কোনও সরকার বা রাজনৈতিক দল আছে? বিরোধীরা ইতিমধ্যেই এই প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছে। সরব হয়েছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কংগ্রেস আবার দাবি করেছে, স্বয়ং প্রিয়াঙ্কার ফোনও নাকি হ্যাক হয়েছে। তিনি হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষের থেকে মেসেজ পাচ্ছেন। হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ বলছে, আগেই কেন্দ্রীয় সরকারকে তারা সতর্ক করেছিল। একবার মে মাসে, আর একবার সেপ্টেম্বরে। আর কেন্দ্র বলছে, সে সময় এমন একটা আপাদমস্তক টেকনিক্যাল আর তালগোল পাকানো বার্তা তারা পাঠিয়েছিল, যার কিছুই বোঝা যায়নি। খুব স্বাভাবিক। এমনটা হতেই পারে। বুঝতে না পারার পর নতুন করে তার বিস্তারিত কি হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল? তাহলে এখন বিষয়টার ব্যাখ্যা চেয়ে হম্বিতম্বি করে কী লাভ?
এনএসও গ্রুপের দাবি আরও মারাত্মক... পেগাসাস শুধু সরকার এবং সরকারি গোয়েন্দা সংস্থাগুলিকে বিক্রির জন্য। ব্যক্তিবিশেষকে নয়! সেটাও সন্ত্রাসবাদ এবং ভয়াবহ অপরাধ ঠেকানোর জন্য। এই দাবি সত্যিই নড়েচড়ে বসার মতো। জানা যাচ্ছে, পেগাসাসের জন্য ২০১৫ সালে ঘানার ন্যাশনাল সিকিউরিটি এজেন্সির সঙ্গে এনএসও এবং স্থানীয় এক মধ্যস্থতাকারীর চুক্তি হয়েছিল ৮০ লক্ষ মার্কিন ডলারের। একইভাবে মেক্সিকোর ফেডেরাল এজেন্সিগুলি ২০১১ থেকে ২০১৭ সালের জন্য এনএসও থেকে এই স্পাইওয়্যার কিনেছিল ৮ কোটি মার্কিন ডলারে। কোনও সাধারণ মানুষের কি এত দাম দিয়ে পেগাসাস কেনার ক্ষমতা আছে? তাহলে কি সরকারের এখনই বিষয়টা নিয়ে একটু সিরিয়াস হওয়া উচিত নয়? ভারতে এমন কে আছে, যে এত টাকা দিয়ে পেগাসাস কিনতে পারে? অবশ্যই এর তদন্ত দরকার? সরকার এই নজরদারি না চালিয়ে থাকলে এটা পরিষ্কার, যেই একাজ করে থাকুক না কেন, মুখ পুড়ছে রাষ্ট্রের। কেন্দ্রীয় সরকারের। এই প্রবণতা ভয়ঙ্কর। রাজনৈতিক দিক থেকে সরকার বিরোধিতা এক, আর সেটাই যদি জাতীয় নিরাপত্তার উপর আঘাত হানে, তার থেকে খারাপ কিছু হতে পারে না। সরকার যদি এর যথাযথ তদন্ত না করে, মানুষের মনেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করবে... রাষ্ট্রই এর নেপথ্যে নেই তো? তাই সত্যিটা সামনে আসা খুব জরুরি। এক সময় বাজারে গুজব ছড়িয়েছিল, একজন আইপিএস অফিসারের হাতে নাকি ইজরায়েলে তৈরি এমনই একটা সফ্‌টওয়্যার আছে। যার মাধ্যমে ফোনে আড়ি পাতা যায়। রাষ্ট্র যদি শুধু সন্ত্রাসবাদ বা অন্যান্য বড় অপরাধ দমনে এর ব্যবহার করে, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলাটা অর্বাচীনের কাজ। কিন্তু সাধারণ মানুষকে অসহায় করে তাঁর সর্বস্ব কেড়ে নেওয়াটা গণতান্ত্রিক দেশের শাসকের কাজ হতে পারে না। কারণ এ শুধু আড়ি পাতা নয়, পেগাসাস ব্যবহার মানে ঘরের ভিতর ঢুকে পড়া। হানা দেওয়া গোপনীয়তার অধিকার রক্ষায়। রাষ্ট্র ছাড়া এই পরিমাণ অর্থ জোগাতে পারে জঙ্গি সংগঠন। তাও শত্রু কোনও দেশের সাহায্যে। সেটা হলে সাধারণ হ্যাকারদের কাছেও খুব তাড়াতাড়ি পৌঁছে যাবে পেগাসাস। ডিজিটাল ইন্ডিয়ার সাইবার সিস্টেম ধ্বংস হতে তখন কিন্তু বেশি সময় লাগবে না! এ হবে আর এক ধরনের সন্ত্রাসবাদী হামলা।
সাধারণ মানুষ কী করতে পারেন? খুব বেশি হলে তাঁর ফোনের সিস্টেম এবং যাবতীয় অ্যাপ সবসময় আপডেট রাখা। ডেস্কটপ বা ল্যাপটপ হলে অপারেটিং সিস্টেম। ব্যাস।
বাকিটা রাম ভরোসে।  
05th  November, 2019
লকডাউনেই থামবে করোনার অশ্বমেধের ঘোড়া
সন্দীপন বিশ্বাস

 এ এক অন্য পৃথিবী। এই পৃথিবী দেখার জন্য আমরা কেউই প্রস্তুত ছিলাম না। কিন্তু হঠাৎই বিনা মেঘে বজ্রপাতের মতো অতি দ্রুত আমরা মুখোমুখি হলাম এই অন্য পৃথিবীর। যেখানে গাছের পাতা ঝরার মতোই ঝরে পড়ছে মানুষের প্রাণ। বিশদ

ঘরে থাকতে অক্ষম যে ভারত
শান্তনু দত্তগুপ্ত

 রণবীর সিং। বয়স ৩৮ বছর। ডেলিভারি এজেন্টের কাজ করতেন দিল্লিতে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণার পর হাঁটতে শুরু করেছিলেন তিনি। জাতীয় সড়ক ধরে। যেভাবে হোক গ্রামে পৌঁছতে হবে। গ্রাম মানে মধ্যপ্রদেশের কোথাও একটা... দিল্লি থেকে বহুদূর।
বিশদ

31st  March, 2020
ভীরু এবং আধখেঁচড়া
ব্যবস্থা, তবু স্বাগত
পি চিদম্বরম

গত ১৯ মার্চ, শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করলেন যে ২২ মার্চ, রবিবার দেশজুড়ে ‘জনতা কার্ফু’ পালন করা হবে। আমি ভেবেছিলাম প্রধানমন্ত্রী জল মাপছেন, জনতা কার্ফুর শেষে তিনি নানা ধরনের লকডাউন ঘোষণা করবেন। কিন্তু রবিবার কোনও ঘোষণা শোনা গেল না। বিশদ

30th  March, 2020
 করোনা যুদ্ধের অক্লান্ত সৈনিক ডাক্তারবাবুরা,
দোহাই ওদের গায়ে আর কেউ হাত তুলবেন না
হিমাংশু সিংহ

পৃথিবীব্যাপী এক ভয়ঙ্কর যুদ্ধ চলছে। অদৃশ্য জৈবযুদ্ধ। এলওসিতে দাঁড়িয়ে মেশিনগান হাতে কোনও সেনা নয়, রাফাল নিয়ে শত্রু ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলাও নয়। হাসপাতালের আইসিইউতে নিরস্ত্র ডাক্তারবাবুরা বুক চিতিয়ে এই নির্ণায়ক যুদ্ধ লড়ছেন রাতের পর রাত ক্লান্তিহীন। বিশদ

29th  March, 2020
এ লড়াই বাঁচার লড়াই,
এ লড়াই জিততে হবে
তন্ময় মল্লিক

 এখন দোষারোপের সময় নয়। এখন আঙুল তোলার সময় নয়। এখন সমালোচনার সময় নয়। এখন লড়াইয়ের সময়। এ এক কঠিন লড়াই। এ লড়াই বাঁচার লড়াই। এ লড়াই জিততে হবে।
বিশদ

28th  March, 2020
মিসাইল বানানোর চেয়ে ডাক্তার
তৈরি অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ
মৃণালকান্তি দাস

লিউয়েনহুক যখন সাড়ে তিনশো বছর আগে আতশ কাঁচের নীচে কিলবিল করা প্রাণগুলোকে দেখতে পেয়েছিলেন, তখনও তিনি জানতেন না যে তিনি এক নতুন দুনিয়ার সন্ধান পেয়ে গিয়েছেন। তিনিই প্রথম আণুবীক্ষণিক প্রাণের দুনিয়াকে মানুষের সামনে উন্মোচিত করেন। ওই ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র প্রাণগুলোর নাম দেন ‘অ্যানিম্যালকুলস’। বিশদ

27th  March, 2020
করোনা ছুটছে গণিতের অঙ্ক মেনে,
থামাতে হবে ‘হাতুড়ি’র ঘা দিয়েই
ডাঃ সৌমিত্র ঘোষ

 জানেন কি, গণিতের নিয়ম মেনেই ভারত সহ গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ছে নোভেল করোনা ভাইরাস? একজন আক্রান্ত থেকে গুণিতক হারে অন্যদের মধ্যে ছড়াচ্ছে এই মারণ ভাইরাস! আর অসতর্কতার কারণে মাত্র এক-দু’সপ্তাহে আক্রান্তের সংখ্যা এক ঝটকায় অনেকটা বাড়ছে। ঠিক যেমন হয়েছে চীন, ইতালি, স্পেনের মতো দেশগুলিতে।
বিশদ

27th  March, 2020
পাহাড়প্রমাণ চ্যালেঞ্জ, অস্ত্র নাগরিক সচেতনতা
শান্তনু দত্তগুপ্ত

ডাঃ সুশীলা কাটারিয়া। জাতির উদ্দেশে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যাঁদের জন্য পাঁচটা মিনিট সময় বের করার আর্জি জানিয়েছিলেন, ডাঃ কাটারিয়া তাঁদেরই মধ্যে একজন। গুরুগ্রামে একটি হাসপাতালের ইন্টারনাল মেডিসিনের ডিরেক্টর তিনি। বয়স ৪২ বছর। গত ৪ মার্চ যখন তাঁকে বলা হয়েছিল, আপনার দায়িত্বে ১৪ জন ইতালীয় পর্যটককে ভর্তি করা হচ্ছে, তখনও তিনি রোগের নাড়িনক্ষত্র ভালোভাবে জানেন না। 
বিশদ

24th  March, 2020
মন্বন্তরে মরিনি আমরা, মারী নিয়ে ঘর করি
 সন্দীপন বিশ্বাস

পৃথিবীর গভীর গভীরতর অসুখ এখন। আর এই ‘অসুখ’ থেকে বারবার মানুষ লড়াই করে ফিরে এসেছে। প্রতিবার অস্তিত্বের সঙ্কটের মুখে দাঁড়িয়ে একযোগে লড়াই করে মানুষ এগিয়ে গিয়েছে উত্তরণের পথে। প্রকৃতির কোনও মারণ আক্রমণেই সে পিছিয়ে পড়েনি। তাই মানুষ বারবার ঋণী মানুষেরই কাছে।  
বিশদ

23rd  March, 2020
কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে লড়াই এবং তারপর
পি চিদম্বরম

আপনি এই লেখা যখন পড়ছেন, ততক্ষণে পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) মোকাবিলায় ভারত এগতে পারল না কি পিছনে পড়ে গেল। সরকার ব্যস্ত ভিডিও কনফারেন্সে, আক্রান্ত দেশগুলি থেকে ভারতীয়দের দেশে ফিরিয়ে আনতে এবং করোনা থেকে বাঁচার জন্য নির্দেশিকা (হাত জীবাণুমুক্ত করা, নাক-মুখ ঢেকে রাখা এবং মাস্ক পরা) জারিতে।  
বিশদ

23rd  March, 2020
ভয় পাবেন না, গুজব ছড়াবেন না, জনতা কার্ফুতে ঘরে থাকুন, বিশ্বযুদ্ধে ভাইরাস পরাজিত হবেই
হিমাংশু সিংহ

 এক মারণ ভাইরাসের ভয়ঙ্কর সংক্রমণের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী মহাযুদ্ধ চলছে। এই যুদ্ধের একদিকে করোনা আর অন্যদিকে গোটা মানবজাতির অস্তিত্ব। প্রবীণ মানুষরা বহু স্মৃতি ঘেঁটেও এমন নজির মনে করতে পারছেন না যেখানে দ্রুত ছড়িয়ে পড়া একটা রোগ ঘিরে এমন ত্রাস, আতঙ্ক দানা বেঁধেছে মানুষের মনে।
বিশদ

22nd  March, 2020
লড়াই
তন্ময় মল্লিক

 করোনা ভাইরাস। এই দু’টি শব্দই গোটা বিশ্বকে কাঁপিয়ে দিচ্ছে। করোনা আতঙ্কে থরহরি কম্প গোটা পৃথিবী। চীন, জার্মানি, ইতালি, আমেরিকা, ইংল্যান্ড, ফ্রান্স সহ বিশ্বের প্রথম সারির দেশগুলিকে ক্ষতবিক্ষত করে করোনা এবার থাবা বসাতে শুরু করেছে তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলিতে।
বিশদ

21st  March, 2020
একনজরে
জীবানন্দ বসু, কলকাতা: করোনা ভাইরাসের দাপটে এবার ঐতিহ্যবাহী সরকারি ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা বেঙ্গল কেমিক্যালস পড়েছে সঙ্কটে। কাঁচামালের অভাবে তাদের জনপ্রিয় ক্লোরোকুইন এবং অ্যাজিথ্রোমাইসিন গোষ্ঠীর ট্যাবলেট ...

নারা, ৩১ মার্চ (এপি): জাপানের একটি বিখ্যাত শহর নারা। বসন্ত এলেই চেরি ফুলে সেজে ওঠে এই ঐতিহ্যবাহী শহরটি। কিন্তু বিগত বছরগুলির মতো এবছর সেখানে পর্যটকদের কোলাহল শোনা যাচ্ছে না।   ...

মেলবোর্ন, ৩১ মার্চ: গাড়ি থেকে চুরি গেল অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট দলের অধিনায়ক টিম পেইনের ওয়ালেট। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার হোবার্টে। করোনার জেরে গোটা অস্ট্রেলিয়া জুড়ে চলছে লকডাউন। ...

নয়াদিল্লি, ৩১ মার্চ (পিটিআই): করোনার বিস্তার রুখতে জীবাণুনাশক স্প্রে করতে হবে। আর তা করবে স্বয়ংক্রিয় ড্রোন। এই প্রযুক্তি বানিয়ে ফেললেন গুয়াহাটি আইআইটির পড়ুয়ারা।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বাড়তি অর্থ পাওয়ার যোগ রয়েছে। পদোন্নতির পাশাপাশি কর্মস্থান পরিবর্তন হতে পারে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ পক্ষে থাকবে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

এপ্রিল ফুলস ডে
১৬২১- শিখ ধর্মের নবম গুরু তেগ বাহাদুরের জন্ম,
১৮৮৯- রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘের প্রতিষ্ঠাতা কে বি হেডগেওয়ারের জন্ম,
১৯৩৭- মহম্মদ হামিদ আনসারির জন্ম,
১৯৪১- ক্রিকেটার অজিত ওয়াদেকারের জন্ম,
১৯৮৪- ক্রিকেটার মুরলী বিজয়ের জন্ম 





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৬৪ টাকা ৭৬.৩৬ টাকা
পাউন্ড ৭৬.৩৬ টাকা ৯৪.৮৪ টাকা
ইউরো ৮১.৭৩ টাকা ৮৪.৭৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

১৮ চৈত্র ১৪২৬, ১ এপ্রিল ২০২০, বুধবার, (চৈত্র শুক্লপক্ষ) অষ্টমী ৫৫/১৯ রাত্রি ৩/৪১। আর্দ্রা ৩৪/৫০ রাত্রি ৭/২৯। সূ উ ৫/৩৩/১, অ ৫/৪৮/১১, অমৃতযোগ দিবা ৭/১২ মধ্যে পুনঃ ৯/৩৮ গতে ১১/১৬ মধ্যে পুনঃ ৩/২১ গতে ৪/২৯ মধ্যে। রাত্রি ৬/৩৫ গতে ৮/৫৬ মধ্যে ১০/৩০ মধ্যে। বারবেলা ৮/৩৬ গতে ১০/৮ মধ্যে পুনঃ ১১/৪১ গতে ১/১৩ মধ্যে। কালরাত্রি ২/৩৬ গতে ৪/৪ মধ্যে।
১৮ চৈত্র ১৪২৬, ১ এপ্রিল ২০২০, বুধবার, অষ্টমী ৪১/১৫/৩৫ রাত্রি ১০/৪/৫৮। আর্দ্রা ২২/৩০/৫২ দিবা ২/৩৫/৫। সূ উ ৫/৩৪/৪৪, অ ৫/৪৮/৩১। অমৃতযোগ দিবা ৭/১২ মধ্যে ও ৯/৩২ গতে ১১/১২ মধ্যে ও ৩/২১ গতে ৫/১ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/২৭ গতে ৮/৫৫ মধ্যে ও ১/৩২ গতে ৫/৩৪ মধ্যে। কালবেলা ৮/৩৮/১১ গতে ১০/৯/৫৪ মধ্যে।
 ৭ শাবান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
কালিম্পংয়ে কোভিড-১৯-এ মৃত মহিলার ৪ আত্মীয়ও করোনা আক্রান্ত 
করোনা আক্রান্ত হলেন কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়ে মৃত কালিম্পংয়ের মহিলার চার ...বিশদ

08:08:08 PM

রাজ্যে আরও ১ করোনা আক্রান্তের মৃত্যু 
কয়েকদিনের যমে মানুষে টানাটানির ইতি। মৃত্যু হল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ...বিশদ

07:46:00 PM

স্থানীয়দের প্রতিরোধ, ধাপায় হল না করোনায় মৃতের শেষকৃত্য 
স্থানীয় বাসিন্দাদের প্রতিরোধের জেরে ধাপা শ্মশানে হল না করোনা আক্রান্ত ...বিশদ

07:24:05 PM

করোনা: ব্রিটেনে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫০০-র বেশি মানুষের মৃত্যু হল 

07:22:24 PM

দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৮৬২, মৃত ৫৪: পিটিআই 

06:54:52 PM

দিল্লির ধর্মীয় সভায় অংশ নেওয়া তামিলনাড়ুর ১১০ জনের শরীরে মিলল করোনা ভাইরাস 

06:45:34 PM