Bartaman Patrika
অমৃতকথা
 

মহাপূজার উপচার  

ঈশ্বরের সহিত সম্বন্ধ পাতাইবার যত প্রকার উপায় মানুষ আবিষ্কার করিয়াছে, তন্মধ্যে পূজা সর্ব্বশ্রেষ্ঠ। পূজা তন্ত্রশাস্ত্রের এক অভিনব দান। পৃথিবীর অন্য কোন ধর্মে এই অনুষ্ঠানের অনুরূপ অনুষ্ঠান নাই। পূজা কথাটির ঠিক অনুবাদ অন্য ভাষায় চলে না। পুষ্পচন্দনাদি কতিপয় বিশিষ্ট উপচার লইয়া দেবতার সঙ্গে যে এক অভিনব প্রকারের ব্যবহার, তাহাই আমাদের পূজা। শ্রীভগবানের সান্নিধ্য-লাভের ইহা এক শ্রেষ্ঠ পন্থা।
পূর্ব্বেও বলা হইয়াছে, ঈশ্বর ও মানবের মধ্যে সম্বন্ধ স্থাপনের বৈদিক উপায় হল যজ্ঞ। পূজানুষ্ঠান তন্ত্রশাস্ত্রের নিজস্ব সম্পদ্‌। যুগ-যুগ ধরিয়া এই অনুষ্ঠানটিকে ভারতীয় ধর্ম্মের প্রায় সকল সম্প্রদায়ই গ্রহণ করিয়াছেন। পূজায় দুইটি বস্তুর প্রাধান্য, মন্ত্র ও উপচার। এই নিবন্ধে কেবলমাত্র উপচারের কথাই বলিব। যে সকল উপচার দ্বারা যেভাবে ঐ কার্য্যটি অনুষ্ঠিত হয় তারা সংক্ষেপে আলোচনা করিব। মন্ত্র-রহস্য বা প্রয়োগবিধি বলা সম্ভব নহে।
পূজার বাহ্য ও আন্তর দুইটি দিক্‌। উভয়েরই মূল্য সমান। কাহারও কাহারও ধারণা, বাহ্য-পূজা হইতে মানস-পূজা শ্রেষ্ঠ এবং নিম্নাধিকারীই বাহ্যপূজা করিবে। এই ধারণা ঠিক নহে। মূলতঃ বাহ্য-পূজাই পূজাপদবাচ্য। বাহ্য-পূজায় অসমর্থ ব্যক্তিকেই মানসপূজা করিতে বলা হইয়াছে। বাহিরে পূজা ত্যাগ করিয়া অন্তরের পূজা বিধি নহে। বস্তুতঃ অন্তর বাহির দুই মিলিয়াই সমগ্র পূজা। মানবদেহের যেমন হস্ত-পদাদি অঙ্গ, প্রাণশক্তি অঙ্গী। পূজারূপিণী দেবী-দেহেরও সেইরূপ মন্ত্রোচারণ-পূর্বক উপচার সমর্পণ হইল অঙ্গ, অন্তরে অনুরাগ হইল অঙ্গী। এই নিবন্ধে প্রধানতঃ অঙ্গের কথাই বলিব।
বহুদিন যাহার আশাপথ চাহিয়া আছি, এইরূপ কোন অতীব প্রীতির পাত্র, অথচ মর্য্যাদাসম্পন্ন নিতান্ত নিজজন যদি আমাদের গৃহে আসিয়া উপনীত হন, তাহা হইলে আমরা তাঁহাকে যেভাবে গ্রহণ করি, সেই ভাবটি লইয়াই দেবতার পূজা। উপচার সকলও সেই ভাব লইয়াই নির্ণীত হইয়াছে। ঈশ্বর আমাদের কত আপন জন, কত প্রেমের পাত্র, অথচ তিনি কত বিরাট বস্তু। আজ তিনি আমাদের দুয়ারে নামিয়া আসিয়াছেন, তাঁহার দিব্যধাম হইতে। তাঁহাকে সম্মান করিতে হইবে, সংবর্ধনা করিতে হইবে, পরম যত্নে সেবা করিতে হইবে। আমাদের নিজের যেরূপ স্নান, আহার, বিশ্রাম প্রয়োজন তাঁহারও সেই রকমই দরকার—এই বোধে আত্মবৎ পরিচর্য্যা তাহাই পূজার প্রধান দিক।
সকল দেবতার পূজার অঙ্গই মূলতঃ একপ্রকার। পূজায় যদি মহাস্নান থাকে, বলি-হোম থাকে, তাহা হইলে সেই পূজাকে মহাপূজা কহে। আমাদের শারদীয়া দুর্গোৎসব একটি মহাপূজা। পূজার সময় আমরা অনেকেই পুরোহিতের উপর পূজার ভার ন্যস্ত করিয়া নিজেরা অন্য কার্য্যে ব্যাপৃত থাকি, পূজামণ্ডপে বসিয়া মহাস্নান হোমাদি দর্শন করি না। দর্শন করিলে অনুভব করিতে পারা যায়, ঐ সকল অনুষ্ঠান কত বিচিত্রতাময় গম্ভীরার্থদ্যোতক। মায়ের মহাপূজার কথাই বলিব।
পূজার উপচার সামর্থ্যানুসারে পঞ্চবিধ, দশবিধ ও ষোড়শবিধ হইতে পারে। মহাপূজায় ষোড়শোপচারই বিধি। বিভিন্ন গ্রন্থোক্ত নির্ঘণ্টা উপচারগুলির নামে অল্পবিস্তর পার্থক্য দৃষ্ট হয়। মহানির্বাণতন্ত্রে ষোড়শ উপচারের নাম নিম্নরূপ—
‘‘আসনং স্বাগতং পাদ্যমর্ঘ্যমাচমনীয়কম্‌।
মধুপর্কং তথাচম্যং স্নানীয়ং বস্ত্রভূষণৈঃ।।
গন্ধপূষ্পে ধূপদীপে নৈবেদ্যং চন্দনং তথা।
দেবার্চ্চনাসু নির্দ্দিষ্টা উপচারশ্চ ষোড়শ।।’’
আসন, স্বাগত, পাদ্য, অর্ঘ্য, আচমনী, মধুপর্ক, পুনরাচমনীয়, স্নানীয় জল, বস্ত্র, ভূষণ, গন্ধ, পুষ্প, ধূপ, দীপ, নৈবেদ্য ও চন্দন এই ষোলটি পূজার উপচার। সর্ব্বাগ্রে আসন প্রদান। স্বর্ণাসন, কাষ্ঠাসন ও কুশাসন—যেইটি সামর্থ্যে কুলায় তেমনি আসন দেওয়া যাইতে পারে। এই সকলের অভাবে কুশাসন অর্পণ করা চলে।
মহানামব্রত ব্রহ্মচারীর ‘চণ্ডী চিন্তা’ থেকে  
29th  September, 2019
মূর্তি 

জৈনধর্মে শক্তিবাদ প্রবেশ করিয়াছিল। রাজপুতানার আবু পাহাড়ে যে বিখ্যাত শ্বেতপ্রস্তর নির্মিত সুবৃহৎ জৈন মন্দির বিরাজিত, তাহার চূড়াতে ষোলটি জৈন দেবীর বিভিন্ন মূর্তি খোদিত আছে।  
বিশদ

সুর 

আপন হ’তে বাহির হয়ে বাহিরে দাঁড়া
বুকের মাঝে বিশ্ব-লোকের পাবি সাড়া।
তাই বাউল-কবির গানটি শুধু কণ্ঠে নিয়ে বেরিয়ে পড়লেম। ঝরঝরে হাল্‌কা মনে বাইরের সকল রূপই ঝলকে ওঠে। তার বেঁধে নিলেন মনের বেহালাখানাতে উঁচু নিখাদে—একটু বাতাসেই ঝংকার লেগে সে বেজে ওঠে নানান্‌ সু঩রে।  
বিশদ

19th  September, 2020
অমৃতকথা 

ধর্মের সহিত সংস্কৃতির সম্পর্ক অচ্ছেদ্য। ভারতীয় সংস্কৃতিরও বিস্ময়কর বিকাশ ঘটেছে ধর্মকে ভিত্তি করে। ধর্মচিন্তার অফুরন্ত সঞ্জীবনী সুধা থেকে প্রাণশক্তি সংগ্রহ করে যুগে যুগে নানা বিচিত্র রূপে ভারতীয় সংস্কৃতির প্রোজ্বল আত্মপ্রকাশ ঘটেছে।  বিশদ

18th  September, 2020
 মন

 ভগবানই হচ্ছেন সবচেয়ে আপনজন। তাঁর চেয়ে আপন আর কেউ নেই। যারা ভগবানকে ভালবাসে, তারাই ঠিক ঠিক মানুষকে ভালবাসে। বিশদ

16th  September, 2020
কর্মের রহস্য

 মানুষ শরীর বাক্য ও মন দ্বারা যাহা কিছু করে তাহাই কর্ম। জীবমাত্রই সকল অবস্থায় সর্বদা কোন-না-কোন কর্ম করে। ‘‘কর্মহীন হইলে শরীরযাত্রাও নির্বাহিত হয় না।’’ শারীরিক ও মানসিক ক্রিয়াই জীবনের লক্ষণ। বিশদ

15th  September, 2020
শ্রীরামকৃষ্ণের শক্তি সাধনার নবমাত্রা

 সাধারণের সামর্থ্য সীমার গন্ডি পেরিয়ে যাঁরা অসাধারণ বলয়ে প্রবেশাধিকার লাভ করেন এবং যাঁদের শক্তি সামর্থ্যের নূতন দিক-সীমা স্থাপন করে নিজেদের চিহ্নিত করে স্বমহিমায় সুদীর্ঘকাল মানব সমাজে ভাস্বর হয়ে থাকেন, এমন মহাপুরুষ ভারতীয় আধ্যাত্মিক সাধন সাম্রাজ্যে একাধিক। বিশদ

10th  September, 2020
ভূত-চতুর্দ্দশী

নরকাসুর নামে একজন অসুর রাজধানী দ্বারকার ওপর আক্রমণ করেছিল। কৃষ্ণ দ্বারকায় ছিলেন না, তখন তাঁর স্ত্রী সত্যভামা সেই অসুরের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করেন ও অসুরকে বধ করেন। যেদিন অসুরকে বধ করা হয় সেটা ছিল কৃষ্ণা চতুর্দ্দশী তিথি। বিশদ

09th  September, 2020
বহুত্বের মধ্যে একত্বই প্রকৃতির নিয়ম

বহুত্বের মধ্যে একত্বই প্রকৃতির নিয়ম, হিন্দুগণ ইহা উপলব্ধি করিয়াছেন। অন্যান্য ধর্ম কতগুলি নির্দিষ্ট মতবাদ বিধিবদ্ধ করিয়া সমগ্র সমাজকে বলপূর্বক সেগুলি মানাইবার চেষ্টা করে। সমাজের সম্মুখে তাহারা একমাপের জামা রাখিয়া দেয়; জ্যাক, জন, হেনরি প্রভৃতি সকলেই ঐ একমাপের জামা পরিতে হইবে। বিশদ

08th  September, 2020
‘নারায়ণ’

ভীষ্ম বলেছিলেন—কোন মানব আচারহীন, ভক্তিবিহীন, লোকের কাছে অতি নিন্দনীয় হ’লেও তাতে তার কোন ক্ষতি নাই। ‘নারায়ণ’ এই শব্দমাত্র উচ্চারণ দ্বারা পাপ হ’তে বিশেষ রূপে মুক্তি লাভ ক’রে অমৃত প্রাপ্ত হন। বিশদ

07th  September, 2020
সত্যকাম 

 জবালার পুত্র সত্যকাম হারিদ্রুমত গৌতমের নিকট নিয়ে ব্রহ্মচর্য্যবাস প্রার্থনা কর্‌লে, গৌতম সত্যবাদী সেই সত্যকামকে উপনীত করে ক্ষীণ ও দুর্ব্বল চারিশত গো দিয়ে তাদের অনুগমন করতে বল্‌লেন। বিশদ

05th  September, 2020
“নারায়ণ” শব্দের আর
কোন অর্থ আছে?

“নারায়ণ” শব্দের আর কোন অর্থ আছে? আছে বৈকি।
সারূপ্যমুক্তিবচনো নারেতি চ বিদর্বুধাঃ।
যো দেবোহপ্যয়নং তস্য স চ নারায়ণঃ স্মৃতঃ।।  বিশদ

04th  September, 2020
প্রলাপ না সত্য 

একটি গল্প আছে যে, পঞ্চাশ বৎসর পূর্বে ভূকৈলাসের রাজারা আবাদের নিমিত্ত মাটি খনন করিতে-করিতে, মাটির নীচে সমাধিস্থ একজন মহাপুরুষকে পান। মহাপুরুষকে ভূকৈলাসে আনিয়া, সমাধিভঙ্গের নানাবিধ চেষ্টা হয়, কিন্তু কিছুদিন কোনোরূপে সমাধিভঙ্গ হইল না।  বিশদ

03rd  September, 2020
গুরুকৃপা

 “আমি শতাধিক বৎসর পাহাড়-পর্বত পরিভ্রমণ করে বড়ো রকমের একটা ধন কামাই করেছি। তোরা তো ব’সে ব’সে খাবি।” ঈশ্বরতুল্য ব্রহ্মবেত্তা পরম গুরু লোকনাথ বাবার কঠোর কর্ম-যোগলব্ধ ফল ভক্তদের অক্ষয় পৈতৃক সম্পত্তি। ভক্তমাত্রেরই ইহাতে সমান অধিকার বা হিস্যা রহিয়াছে! অটল বিশ্বাস, অচলা ভক্তি ও পূর্ণ নির্ভর যাঁহার সম্বল, তিনিই এ সম্পত্তির (গুরুকৃপার) চির উত্তরাধিকারী।
বিশদ

02nd  September, 2020
প্লাবন

 ভগবানের কথা অনুসারে জলপ্লাবন হইল এবং মনু নিজ পরিবার এবং সর্বপ্রকার জন্তুর এক এক জোড়া এবং সর্বপ্রকার উদ্ভিদের বীজ জলপ্লাবন হইতে রক্ষা করিলেন এবং প্লাবনের অবসানে তিনি ঐ নৌকা হইতে অবতরণ করিয়া জগতে প্রজা উৎপন্ন করিতে লাগিলেন—আর আমরা মনুর বংশধর বলিয়া ‘মানব’ নামে অভিহিত। বিশদ

01st  September, 2020
 শক্তি

শরীরের ভিতর এই যে শক্তির বিকাশ দেখা যাইতেছে, ইহা কি? আমরা সকলেই ইহা সহজে বুঝিতে পারি, ঐ শক্তি যাহা হউক, উহা জড়-পরমাণুগুলি লইয়া তাহা হইতে আকৃতি-বিশেষ—মনুষ্য-দেহ গঠন করিতেছে। অন্য কেহ আসিয়া তোমার আমার জন্য শরীর গঠন করে না।
বিশদ

31st  August, 2020
একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সিইএসসির অফিসার বলে পরিচয় দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করল জোড়াসাঁকো থানার পুলিস। ধৃতের নাম মোহাম্মদ সুলেমান। বাড়ি তিলজলা এলাকায়। তার কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে সিইএসসির জাল রসিদ।   ...

নয়াদিল্লি: রবিবার ডিজেলের দাম ফের কমল দেশজুড়ে। এই নিয়ে গত চার দিনে ডিজেলের দাম লিটার প্রতি প্রায় ১ টাকা হ্রাস পেল। এদিন দিল্লিতে ডিজেলের দাম ২৪ পয়সা কমে হয়েছে ৭১ টাকা ৫৮ পয়সা।  ...

লন্ডন: করোনা রুখতে কঠোর জরিমানার পথে হাঁটতে চলেছে ব্রিটেন। সেল্ফ আইসোলেশনে না থাকলে করোনা আক্রান্তকে ১০ হাজার পাউন্ড জরিমানা করা হবে বলে শনিবার ঘোষণা করেছে বরিস জনসন সরকার।  ...

সংবাদদাতা, বালুরঘাট: দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় দলীয় সংগঠনকে শক্তিশালী করতে সঙ্গে নিতে হবে বিপ্লব মিত্রকে। কলকাতায় বৈঠকে রাজ্য নেতৃত্বের তরফ থেকে জেলা নেতৃত্বকে এমন নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

সম্পত্তিজনিত মামলা-মোকদ্দমায় জটিলতা বৃদ্ধি। শরীর-স্বাস্থ্য দুর্বল হতে পারে। বিদ্যাশিক্ষায় বাধাবিঘ্ন। হঠাকারী সিদ্ধান্তের জন্য আপশোস বাড়তে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

আন্তর্জাতিক শান্তি দিবস
১৮৬৬: ব্রিটিশ সাংবাদিক, ঐতিহাসিক ও লেখক এইচ জি ওয়েলসের জন্ম
১৯৩৪: জাপানের হনসুতে টাইফুনের তাণ্ডব, মৃত ৩ হাজার ৩৬ জন
১৯৪৭: মার্কিন লেখক স্টিফেন কিংয়ের জন্ম
১৯৭৯: ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটার ক্রিস গেইলের জন্ম
১৯৮০: অভিনেত্রী করিনা কাপুর খানের জন্ম
১৯৮১: অভিনেত্রী রিমি সেনের জন্ম
১৯৯৩: সংবিধানকে অস্বীকার করে রাশিয়ায় সাংবিধানিক সংকট তৈরি করলেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বরিস ইয়েলৎসিন
২০০৭: রিজওয়ানুর রহমানের মৃত্যু
২০১৩: কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবিতে ওয়েস্ট গেট শপিং মলে জঙ্গি হামলা, নিহত কমপক্ষে ৬৭



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৮৯ টাকা ৭৪.৬০ টাকা
পাউন্ড ৯৩.৫৫ টাকা ৯৬.৯১ টাকা
ইউরো ৮৫.১০ টাকা ৮৮.২১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
19th  September, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫২,৩৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৯,৭০০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৫০,৪৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৬,৭৪০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৬,৮৪০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
20th  September, 2020

দিন পঞ্জিকা

৫ আশ্বিন ১৪২৭, সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, পঞ্চমী ৪৫/৩৬ রাত্রি ১১/৪৩। বিশাখানক্ষত্র ৩৮/২১ রাত্রি ৮/৪৯। সূর্যোদয় ৫/২৮/৩৬, সূর্যাস্ত ৫/৩০/৫৪। অমৃতযোগ দিবা
৭/৪ মধ্যে পুনঃ ৮/৪১ গতে ১১/৬ মধ্যে। রাত্রি ৭/৫৫ গতে ১১/৬ মধ্যে পুনঃ ২/১৭ গতে ৩/৫ মধ্যে। বারবেলা ৬/৫৯ গতে ৮/২৯ মধ্যে পুনঃ ২/৩০ গতে ৪/০ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/০ গতে ১১/৩০ মধ্যে।  
৪ আশ্বিন ১৪২৭, সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, চতুর্থী দিবা ৭/৩৭ পরে পঞ্চমী শেষরাত্রি ৫/১৭। বিশাখানক্ষত্র রাত্রি ৩/১। সূর্যোদয় ৫/২৮, সূর্যাস্ত ৫/৩৩। অমৃতযোগ দিবা ৭/৭ মধ্যে ও ৮/৪১ গতে ১১/১ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪২ গতে ১০/৫৯ মধ্যে ও ২/১৭ গতে ৩/৬ মধ্যে। কালবেলা ৬/৫৯ গতে ৮/২৯ মধ্যে ও ২/৩২ গতে ৪/২ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/১ গতে ১১/৩১ মধ্যে।  
মোসলেম: ৩ শফর। 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আপনার আজকের দিনটি  
মেষ: হঠাকারী সিদ্ধান্তের জন্য আপশোস বাড়তে পারে। বৃষ: ব্যবসায় অতিরিক্ত বিনিয়োগে ...বিশদ

08:00:00 AM

ইতিহাসে আজকের দিনে 
আন্তর্জাতিক শান্তি দিবস১৮৬৬: ব্রিটিশ সাংবাদিক, ঐতিহাসিক ও লেখক এইচ জি ...বিশদ

07:55:00 AM

আইপিএল: সুপার ওভারে জিতল দিল্লি ক্যাপিটালস

20-09-2020 - 11:49:07 PM

আইপিএল: দিল্লি ক্যাপিটালস ও কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারণ হবে সুপার ওভারের মাধ্যমে

20-09-2020 - 11:35:52 PM

আইপিএল: দিল্লি ক্যাপিটালস ও কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের ম্যাচ টাই 

20-09-2020 - 11:32:44 PM

আইপিএল: কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ১৫ ওভারে ৯৮/৫ 

20-09-2020 - 11:00:16 PM