Bartaman Patrika
অমৃতকথা
 

ধন 

ভূগর্ভে রক্ষিত ধনরত্নাদি পাইতে হইলে প্রথমে যেমন যে ব্যক্তি উহার সন্ধান জানেন তাঁহার উপদেশপ্রাপ্তির এবং পরে ভূমিখননের, ধনের উপর স্থাপিত প্রস্তরাদির অপসারণের এবং ধনাদি স্বয়ং গ্রহণের প্রয়োজন হয়, কেবল শব্দ করিলে অর্থাৎ ‘ধন, তুমি এস’ বলিয়া ডাকিলে ধনলাভ হয় না, সেইরূপ মায়ানির্মুক্ত নিজের শুদ্ধ স্বরূপ অবগত হইতে হইলে ব্রহ্মজ্ঞ পুরুষের নিকট উপদেশপ্রাপ্তির পর মনন-ধ্যানাদির প্রয়োজন হয়। কেবল তর্কবিচারের দ্বারা আত্মানুভূতি হয় না।
রোগ হইতে আরোগ্য-লাভের জন্য যেমন নিজেকে ঔষধসেবনাদি করিতে হয়, সেই প্রকার ভববন্ধন হইতে মুক্তিলাভের জন্য উপযুক্ত সাধনসমূহ অবলম্বন করা বিচারশীল ব্যক্তিগণের কর্তব্য।
আজ তুমি যে প্রশ্ন করিয়াছ, তাহা অতি উত্তম। এইরূপ প্রশ্ন শাস্ত্রজ্ঞ ব্যক্তিগণের দ্বারা সমর্থিত, অতি সংক্ষিপ্ত অথচ গভীর ভাবপূর্ণ এবং মুমুক্ষু ব্যক্তিগণের জ্ঞাতব্য। হে প্রিয় শিষ্য, তোমাকে যাহা বলিতেছি, তাহা মনোযোগ-সহকারে শ্রবণ কর। ইহা শ্রবণের ফলে তুমি অচিরে সংসারবন্ধন হইতে মুক্তিলাভ করিবে। অনিত্য বস্তুসমূহে তীব্র বৈরাগ্য মোক্ষলাভের প্রধান কারণ বলিয়া কথিত হয়। ইহার পর মোক্ষলাভের অন্যান্য সহায়ক—শম, দম, তিতিক্ষা ও শ্রুতিবিহিত কর্মসমূহের নিঃশেষে ত্যাগ।
(সাধনচতুষ্টয়সম্পন্ন সাধকের সাধনক্রম এইরূপ) —প্রথমে গুরুমুখে আত্মার স্বরূপ এবং মহাকাব্য-শ্রবণ, তাহার পর শ্রুতিবাক্যের মনন, পরে সুদীর্ঘকাল ধরিয়া সর্বক্ষণ অব্যবহিতভাবে আত্মস্বরূপের ধ্যান। এই সকলের অনুষ্ঠানের ফলে বিচারশীল সাধক বিকল্পরহিত আত্মস্বরূপ উপলব্ধি করিয়া এই জীবনেই নির্বাণসুখ লাভ করেন।
আত্মা ও অনাত্মার মধ্যে যে পার্থক্য বিচার তোমার জন্য প্রয়োজন তাহা এখন তোমাকে বলিতেছি। উহা ভালভাবে শুনিয়া নিজের মনে বেশ করিয়া বুঝিয়া লও।মজ্জা, অস্থি, চর্বি, মাংস, রক্ত, চামড়া ও ত্বক্‌—এই সাতটি ধাতুর দ্বারা গঠিত এবং পা, ঊরু, বুক, হাত, পিঠ ও মাথা—এই সকল অঙ্গ ও উপাঙ্গসংযুক্ত এই শরীর।
‘আমি ও আমার’ এই প্রকার মোহের আশ্রয়রূপে প্রসিদ্ধ, এই দেহকে পণ্ডিতগণ স্থূলশরীর বলিয়া থাকেন। (এই স্থূলশরীরে) আকাশ, বায়ু, অগ্নি, জল ও মৃত্তিকা এই পাঁচ সূক্ষ্মভূত আছে।
[পঞ্চীকরণের নিয়মানুসারে] এই সূক্ষ্মভূতসমূহ পরস্পরের সহিত মিলিত হইয়া স্থূলশরীর—উৎপত্তির হেতু পাঁচটি স্থূলভূতরূপে পরিণত হয়। পঞ্চসূক্ষ্মভূতের গুণসমূহ ভোক্তা জীবের সুখ-উৎপাদনের জন্য শব্দ, স্পর্শ, রূপ, রস ও গন্ধ এই পাঁচটি বিষয়ের রূপগ্রহণ করে।
যে-সকল মূঢ়ব্যক্তি তীব্র আসক্তির বশে বিষয়ভোগে প্রমত্ত থাকে, তাহারা স্বস্ব কর্মফলের দ্বারা চালিত হইয়া কখনও বা পশু, তির্যক প্রভৃতি জীবযোনিতে জন্মগ্রহণ করে; আবার কখন স্বর্গাদি লোকের সুখভোগ করে। (এইভাবে তাহারা জন্মমৃত্যুরূপ সংসার দুঃখ ভোগ করিতে থাকে)।
শঙ্করাচার্যের ‘বিবেকচূড়ামণি’ থেকে 
03rd  September, 2019
লীলাতত্ত্ব

মা লীলাময়ী। লীলা করিতেই মায়ের নানাভাবে আত্মপ্রকাশ। লীলাতত্ত্ব দুর্জ্ঞেয়। সাধারণ মানব উহা অবধারণ করিতে পারে না। কিন্তু ব্রহ্মর্ষি, মহর্ষি ও সিদ্ধর্ষিবৃন্দ লীলাময়ীর ভোগ ও মোক্ষপ্রদ চাতুরী অবধারণ করিবার নিমিত্ত দৃঢ়ভাবে আত্মনিয়োগ করিয়াছিলেন। বিশদ

প্রার্থনা কেন করি

মানুষের জীবন নিত্য অভাব ও অভিযোগ ও প্রয়োজনে পরিপূর্ণ, সুতরাং তার কামনা থাকেই, কেবল দেহে প্রাণে নয়, কিন্তু মনে এবং আধ্যাত্মিক সত্তাতেও। যখন সে জানে যে জগৎ চলছে কোন উচ্চশক্তির নিয়ন্ত্রণে, তখন সে ঐ উচ্চশক্তির কাছে তার অভাব পূরণের জন্য প্রার্থনা জানায়, যাতে তার জীবনের বন্ধুর পথে ও কঠিন সংগ্রামে ভগবৎ সাহায্য ও আশ্রয় লাভ করতে পারে। বিশদ

29th  October, 2020
আনন্দ সংযমের মেলবন্ধন

প্রায় নির্বিঘ্নে কাটল পুজোর চারদিন। হতে পারত ভিড় আটকাতে পুজো মণ্ডপের বাইরে ব্যারিকেড দিয়ে ‘নো এন্ট্রি বোর্ড’ লাগিয়ে দেওয়ার যে নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট, বহু পুজো কমিটি তা ঠিকমতো পালন করতে পারল না। হতে পারত ব্যারিকেড থাকলেও ঠাকুর দেখার নেশায় উদ্বেল জনতা ‘নো এন্ট্রি বোর্ড’ সরিয়ে মণ্ডপে প্রবেশ করল দলে দলে।
বিশদ

28th  October, 2020
মা

শাক্তেরা জগতের সেই সর্বব্যাপিনী শক্তিকে মা ব’লে পূজা ক’রে থাকেন—কারণ মা-নামের চেয়ে মিষ্ট নাম আর কিছু নেই। ভারতে মাতাই নারী-চরিত্রের সর্বোচ্চ আদর্শ।
বিশদ

28th  October, 2020
দেবীর পূজায় চণ্ডীপাঠ 

দুর্গাপূজায় শ্রীশ্রীচণ্ডীপূজা ও পাঠ অবশ্যকর্তব্য। এই দেবী মাহাত্ম্য পাঠ কল্পারম্ভের দিন থেকেই আরম্ভ হয়। কল্পারম্ভ বিভিন্ন প্রকারের হতে পারে। নবম্যাদি কল্পারম্ভ হয় ভাদ্র পূর্ণিমার পর কৃষ্ণপক্ষের নবমীতে। প্রতিপদাদি কল্পারম্ভ হয় মহালয়া অমাবস্যার পরের তিথি শুক্লাপ্রতিপদ থেকে।   বিশদ

23rd  October, 2020
 

 মহাপূজার উপচার বিশদ

22nd  October, 2020
21st  October, 2020
পবিত্রতা

এই ঈশ্বরের অগ্রদূত, এই সুসমাচারবাহক যীশু সত্যলাভের পথ দেখাইতে আসিয়াছিলেন। তিনি দেখাইতে আসিয়াছিলেন যে, নানারূপ অনুষ্ঠান ক্রিয়াকলাপাদির দ্বারা সেই যথার্থ তত্ত্ব— আত্মতত্ত্ব লাভ হয় না; দেখাইতে আসিয়াছিলেন যে, নানাবিধ কূট, জটিল, দার্শনিক বিচারের দ্বারা সেই আত্মতত্ত্ব লাভ হয় না। বিশদ

20th  October, 2020
19th  October, 2020
ঈশ্বর 

যখন আমরা ভগবানকে ভালবাসি তখন যেন আমরা নিজেকে দু-ভাগ করে ফেলি—আমিই আমার অন্তরাত্মাকে ভালবাসি। ঈশ্বর আমাকে সৃষ্টি করেছেন আবার আমিও ঈশ্বরকে সৃষ্টি করেছি। আমরা ঈশ্বরকে আমাদের অনুরূপ ক’রে সৃষ্টি ক’রে থাকি। আমরাই ঈশ্বরকে আমাদের প্রভু হবার জন্য সৃষ্টি ক’রে থাকি, ঈশ্বর আমাদের তাঁর দাস করেননি। যখন আমরা জানতে পারি, আমরা ঈশ্বরের সঙ্গে এক, ঈশ্বর আমাদের সখা, তখনই প্রকৃত সাম্যবস্থা লাভ হয়, তখনই আমাদের মুক্তি হয়।  
বিশদ

18th  October, 2020
ধ্যান 

ধ্যানের অধিকারী কে? আচার্য শঙ্করের মতে গীতার ষষ্ঠাধ্যায় সন্ন্যাসীর জন্য অর্থাৎ সন্ন্যাসী না হলে ধ্যানের অধিকারী হওয়া যায় না। তাঁর প্রধান যুক্তি হচ্ছে এই যে, শ্রীকৃষ্ণ যে যুগে গীতা উপদেশ করেছিলেন, তখন বর্ণাশ্রম-ধর্ম সুপ্রতিষ্ঠিত; গৃহস্থরাই তখন কর্মযোগী, সন্ন্যাসীরা সর্বকর্ম ত্যাগ করে ধ্যানযোগী। 
বিশদ

17th  October, 2020
সাধক 

সাধন বহু প্রকার আছে এবং সাধকের অধিকার অনুসারে প্রত্যেকটি সাধনার সার্থকতা আছে। সাধকের যেমন যোগ্যতার তারতম্য আছে, তেমনি তদনুসারে সাধনের ফলগত তারতম্যও আছে। যাঁহারা সাধনার ইতিহাস আলোচনা করেন তাঁহারা তটস্থ দৃষ্টি গ্রহণ করিতে পারে না বলিয়া ইহা ধারণা করিতে পারে না।  
বিশদ

15th  October, 2020
জীবন-শৃঙ্খল 

সারা জগৎ মুক্তির জন্য উদ্‌গ্রীব, অথচ প্রত্যেক জীব তার শৃঙ্খলকেই ভালবাসে। এই হল আমাদের স্বভাবের প্রথম প্রহেলিকা ও দুর্ভেদ্য গ্রন্থি। জন্মের বন্ধন মানুষ ভালবাসে, তাই ত জন্মের দোসর মৃত্যুর বন্ধনে সে আবদ্ধ। এই যাবতীয় শৃঙ্খলের মধ্যে থেকেই সে তার সত্তার মুক্তি, তার আত্মপরিপূর্ণতার ঈশ্বরত্ব আকাঙ্ক্ষা করে। 
বিশদ

14th  October, 2020
ভাব ও মন্ত্র 

জগদ্‌ব্রহ্মাণ্ড এক মহাভাবে পরিপূর্ণ। মহাভাব মানে প্রেম। ঋষির স্বামী স্বরূপানন্দ বলছেন, ‘‘ধৃতং প্রেম্না জগৎ যেন’’— প্রেম দিয়েই পরমেশ্বর জগদ্‌ব্রহ্মাণ্ডকে ধরে রেখেছেন। তাই কেউ কেউ এই মহাভাবকেই পরমেশ্বর নামে অভিহিত করেন।
বিশদ

13th  October, 2020
পুঁথি 

শ্রীরামকৃষ্ণের পিতা একজন খুব নিষ্ঠাবান্‌ ব্রাহ্মণ ছিলেন—এমন কি, তিনি সকল প্রকার ব্রাহ্মণেরও দান গ্রহণ করতেন না। জীবিকার জন্য তাঁর সাধারণের মতো কোন কাজ করবার জো ছিল না। 
বিশদ

12th  October, 2020
ধর্ম

গীতায় ‘হৃষীকেশ’ অর্থাৎ ইন্দ্রিয় বা (ইন্দ্রিয়যুক্ত) জীবাত্মা-গণের ঈশ্বর কৃষ্ণ—‘গুড়াকেশ’কে অর্থাৎ নিদ্রার অধীশ্বর (অর্থাৎ নিদ্রাজয়ী) অর্জুনকে উপদেশ দিচ্ছেন। এই সংসারই ‘ধর্মক্ষেত্র’ কুরুক্ষেত্র। পঞ্চপাণ্ডব (অর্থাৎ ধর্ম) শত কৌরবের (আমরা যে-সকল বিষয়ে আসক্ত এবং যাদের সঙ্গে আমাদের সতত বিরোধ তাদের) সঙ্গে যুদ্ধ করছেন! 
বিশদ

11th  October, 2020
একনজরে
বিধাননগর কমিশনারেট এলাকা থেকে সাট্টার ঠেক নির্মূল করতে হবে। দিনমজুর থেকে শুরু করে স্কুল-কলেজের পড়ুয়া, সাধারণ মানুষ এই খেলায় আকৃষ্ট হচ্ছে। অনেকেই রাতারাতি বড়লোক হওয়ার লক্ষ্যে সাট্টায় জড়িয়ে পড়ছে। এই ব্যাধিকে খতম করতে হবে। একারণে বিধাননগরের পুলিস কমিশনারকেই উদ্যোগ নিতে ...

ভারতের জনপ্রিয়তম ক্লাব বাছাই করার উদ্যোগ নিয়েছে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি)। এর আগে ফ্যান বেস, ইতিহাস, সাম্প্রতিক সাফল্যের ভিত্তিতে সেরা পাঁচটি ক্লাবকে বাছাই করেছে এশিয়ান ...

করোনার জেরে ছেদ পড়ল প্রায় দেড়শো বছরের পুরনো ট্র্যাডিশনে। উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়ায় এবার জহরা মেলা হচ্ছে না। জেলার দীর্ঘদিনের পুরনো মেলাগুলির মধ্যে অন্যতম চোপড়ার এই মেলাটি।  ...

আমেরিকার সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ বেকা (বিইসিএ) চুক্তি সেরেছে ভারত। দু’বছর আগে ওয়াশিংটনের সঙ্গে কমকাসা চুক্তি সেরে রেখেছে দিল্লি। আর এই দুই চুক্তির দৌলতে রিপার্স বা প্রিডেটর্সের মতো দূরপাল্লার অত্যাধুনিক সশস্ত্র ড্রোন আমেরিকার থেকে কিনতে পারবে ভারত। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীদের কর্মপ্রাপ্তি বিলম্ব হবে। ব্যবসা সংক্রান্ত কাজে যুক্ত হলে ফল শুভ হবে। উপার্জন একই থাকবে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৮৭- শিশু সাহিত্যিক সুকুমার রায়ের জন্ম
১৯০১- কবি সুধীন্দ্রনাথ দত্তের জন্ম
১৯০৯- পরমাণু বিজ্ঞানী হোমি জাহাঙ্গির ভাবার জন্ম
১৯৬০- আর্জেন্তিনার ফুটবলার দিয়েগো মারাদোনার জন্ম
১৯৬২ - ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটার ও কোচ কোর্টনি ওয়ালশের জন্ম
১৯৯০- অভিনেতা বিনোদ মেহরার মৃত্যু



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.২৪ টাকা ৭৪.৯৫ টাকা
পাউন্ড ৯৪.৭০ টাকা ৯৮.০৩ টাকা
ইউরো ৮৫.৫৪ টাকা ৮৮.৬৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫১, ৪৯০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৮, ৮৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৯, ৫৮০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬০, ৪০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬০, ৫০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১৩ কার্তিক, ১৪২৭, শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, চতুর্দশী ৩০/৬ সন্ধ্যা ৫/৪৬। রেবতী নক্ষত্র ২৩/৩ দিবা ২/৫৭। সূর্যোদয় ৫/৪৩/৪৮, সূর্যাস্ত ৪/৫৬/৫৪। অমৃতযোগ দিবা ৬/২৮ মধ্যে পুনঃ ৭/১৩ গতে ৯/২৮ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৩ গতে ২/৪২ মধ্যে পুনঃ ৩/২৭ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৫/৪৮ গতে ৯/১৩ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৬ গতে ৩/১০ মধ্যে পুনঃ ৪/১ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৮/৩২ গতে ১১/২০ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৯ গতে ৯/৪৫ মধ্যে।
১৩ কার্তিক, ১৪২৭, শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, চতুর্দশী সন্ধ্যা ৫/২০। রেবতী নক্ষত্র দিবা ৩/৪০। সূর্যোদয় ৫/৪৫, সূর্যাস্ত ৪/৫৮। অমৃতযোগ দিবা ৬/৩৫ মধ্যে ও ৭/১৯ গতে ৯/৩১ মধ্যে ও ১১/৪৩ গতে ২/৩৮ মধ্যে ও ৩/২৩ গতে ৪/৫৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪৩ গতে ৯/১১ মধ্যে ও ১১/৪৭ গতে ৩/১৫ মধ্যে ও ৪/৭ গতে ৫/৪৫ মধ্যে। বারবেলা ৮/৩৩ গতে ১১/২১ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/১০ গতে ৯/৪৫ মধ্যে।
১২ রবিয়ল আউয়ল।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আইএসএল সেভনের ক্রীড়াসূচি ঘোষিত
ঢাকে কাঠি পড়ে গেল আইএসএল-এর। ইন্ডিয়ান সুপার লিগের (আইএসএল) ক্রীড়াসূচি ...বিশদ

05:41:18 PM

সুকুমার হাঁসদার দেহ সৎকারকে ঘিরে ঝাড়গ্রামে ব্যাপক গোলমাল
ঝাড়গ্রাম থানার জারালাটা গ্রামে নিজের জমিতে বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার তথা ...বিশদ

04:14:00 PM

লুধিয়ানায় গ্রেপ্তার ২ জন শ্যুটার 
বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লা খুনের ঘটনায় লুধিয়ানা থেকে গ্রেপ্তার করা ...বিশদ

03:57:27 PM

১৩৬ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স 

03:54:17 PM

ইসলামপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে জখম ২৩ জন 
মিছিল করার সময় বাঁশের ঝান্ডা বিদ্যুতের তারের সঙ্গে স্পর্শ হওয়ায় ...বিশদ

01:11:33 PM

নদীয়ার নাকাশিপাড়ায় ব্যবসায়ী খুন 
নদীয়ার নাকাশিপাড়ায় খুন হলেন এক ব্যবসায়ী। ঘটনার জেরে এলাকায় চাঞ্চল্য। ...বিশদ

01:06:12 PM