Bartaman Patrika
অমৃতকথা
 

 গৃহী

 গৃহী সন্তানদের প্রতি—বিবাহিত পুরুষদের বলতেন, মানসিক শান্তিই শ্রেষ্ঠ ধর্ম। নিজের সাধনায় তা অর্জন করে নিতে হয়। এক নারী সদাব্রতী, একাহারী সদা যতি। অপর সকল নারী মাতৃবৎ। বিবাহ Royal Road অর্থাৎ সমাজ অনুমোদিত পথ। বিবাহিত জীবনই বল, ব্রহ্মচর্যের জীবনই বল, ভগবান হাত বাড়িয়েই আছেন। তাঁর শুধু আকাঙ্ক্ষা—ভক্তের ষোলো আনা মন। নাম স্মরণ মনন করতে করতে ঈশ্বরের সঙ্গে একটা বিশেষ সম্পর্ক স্থাপন হয়ে যায়। এই সম্পর্কই আনে মনের বিশ্বাস। ঈশ্বরের ওপর বিশ্বাস এসে গেলে মনের অজ্ঞানের আবরণ সরে যায়।
আত্মবিশ্বাসী মানুষ কখনও অন্য কারুর কাছে সাহায্য প্রত্যাশা করেন না, আত্মবিশ্বাসী মানুষই নিঃসঙ্গ অথবা অনাসক্ত ভাবে, প্রজ্ঞাভাবে প্রতিষ্ঠিত থেকে স্বচ্ছন্দ আনন্দে জীবন কাটিয়ে যেতে পারেন। ঈশ্বরের সঙ্গে তখন তাঁর যেন প্রতিদিনের দেখা শোনার এক নিবিড় সম্পর্ক এসে যায়।
এই অবস্থা এলে জীবনের শোক দুঃখ অথবা আনন্দ উচ্ছ্বাস সর্ব অবস্থাকেই মেনে নেবার মত ধৈর্য আসে। শ্রীমদ্‌ভগবদ গীতার ‘শীতোষ্ণ সুখ দুঃখেষু সমঃ সঙ্গ বিবর্জিতঃ’, এই অবস্থায় আত্মচৈতন্যে স্থিত হয়ে জীবন অতিবাহন করেন তাঁরা।
মাঠাক্‌রুণ বলতেন, যেমন ঝড়ে মেঘ উড়িয়ে নেয় তেমনই তাঁর নামে বিষয় মেঘ কেটে যায়। যা-ই করবে তাঁর নাম নিয়ে কর। কর্ম করতে করতে কর্মের বন্ধন কেটে যায়। সব কাজের মধ্যেই ইষ্টচিন্তা যদি প্রচ্ছন্নভাবে অন্তরে জাগরুক থাকে তাহ’লে অনিষ্ঠ আসবে কোথা দিয়ে? তাঁর শ্রীমুখের বাণী—এখানে যারা এসেছে, যারা তাঁর নাম নিয়ে আছে, তাদের মুক্তি হয়ে গেছে।
ব্রহ্মচর্য ব্রতধারী সন্তানদের প্রতি—ব্রহ্মচর্য-পথকে কঠিন মনে করে প্রায় কেউই সে পথ ধরতে চায় না। কিন্তু এ পথের আনন্দ একবার অন্তরে অনুভব করতে পারলে তখন জগতের মায়িক আনন্দ আলোনা লাগবে।
তবে কি জান? বাবারা? নিজের ওপর দৃঢ় বিশ্বাস না থাকলে পৃথিবীর সঙ্কীর্ণ গণ্ডী থেকে বার হতে পারবে না। এ পথ অনুসরণ করতে তেজীয়ান শ্রীগুরু চরণকে নিরন্তর ধেয়ানে রাখতে হবে। তাঁর বলীয়ান আদর্শকে নিজের শিরোভূষণ করতে হবে। আর মনকে করতে হবে সরল, পবিত্র। শরীরের স্নায়ুতন্ত্রীদের করতে হবে বজ্রসম বলিষ্ঠ। ন অয়ং বলহীলেন লভ্য।
বিশ্বাস-বিশ্বাস-বিশ্বাস। ঈশ্বরে বিশ্বাস, নিজের ওপর বিশ্বাস। বিশ্বাসই জীবনের বিষয় ঝড়কে উড়িয়ে তোমাকে তোমার নির্দ্দিষ্টস্থানে দাঁড় করাবে। অকপটতা এ পথের বড় হাতিয়ার। কাপুরুষতা সর্বতোভাবে বর্জ্জনীয়। মৃত্যুকেও যেন জয় করতে পার হাসিমুখে। নিজের গণ্ডী ছেড়ো না। আদর্শ ভুলোনা। ব্রতকে জলাঞ্জলি দিও না।
যে ব্রতকে জীবনের আদর্শ বলে একবার ধরেছ তাকে যেন ধরে থাকতে পার মৃত্যু পর্য্যন্ত। মৃত্যুর সময় শ্রীগুরু স্বয়ং এসে দাঁড়াবেন তাঁর বরাভয়কর হস্ত প্রসারণ করে। তাঁর শ্রীচরণে তখন পূর্ণাহুতি দান।
শ্রীগৌরাঙ্গদেব বলতেন, সন্ন্যাসী নারীর চিত্র পটটিও কখনও দেখবে না। সমগ্র বিশ্বের নারী তার মা। চরিত্রের কঠিনতাকে সহায় রেখে আধ্যাত্মিকতাকে অর্জন কর। হয়ে যাও, হয়ে যাও—সমুদ্রের জলের সঙ্গে নদীর জলের মত একাকার হয়ে মিশে যাও। সাধন-ভজন সম্বন্ধে উপদেশ—মনকে ভগবৎচরণে একান্ত শরণাগত করে তবে তাঁকে অন্তরে স্থাপন করতে হয়। তবে বহুরকম কামনা করেই মানুষ প্রথমে ঈশ্বরকে ধরে। প্রথম প্রথম জপ সকামই চ঩লে। এই কামনাই জপের প্রভাবে একদিন এমন অবস্থায় আসে তখন আপনা থেকেই আর কোন কামনা আসে না। ঈশ্বরই একমাত্র কামনীয় মহাবস্তু হয়ে দাঁড়ান তখন। তবে সাধকের পক্ষে সে অবস্থা আসতে দীর্ঘ সময় নেয়। আবার কোন কোন ক্ষেত্রে কৃপার ঝলক যেন দীর্ঘ পথকে কমিয়ে ছোট করে আনে। কৃপা কৃপা—সবই তাঁর কৃপা।
শ্রীশ্রীদুর্গামাতার ‘বাণী সংহতি’ থেকে
স্বপ্নের কথা

প্রশ্ন: কেন আমরা স্বপ্নের কথা ভুলে যাই? 
কেননা তুমি সর্বদা একই জায়গাতে স্বপ্ন দেখ না। আর তোমার সত্তার একই অংশ সর্বদা স্বপ্ন দেখ না ও স্বপ্নে একই স্থানে থাক না। যদি তুমি তোমার সত্তার সকল অংশের সঙ্গে সংযোগ রাখতে পারতে—সচেতনভাবে, সোজাসুজি, অবিরাম তাহলে তোমার স্বপ্নের সব বৃত্তান্ত তোমার মনে থাকত।
বিশদ

15th  May, 2019
মন ও মন্ত্র 

মনকে যা ত্রাণ করে তার নাম মন্ত্র। মনকে ত্রাণ করতে হলে এমন একটা-কিছুর আশ্রয় নিতে হয় যা মন থেকে পৃথক, যা মনের অতীত, যা মন নয়। সাধক ও তাঁর মনের মধ্যে মন্ত্র হ’ল, প্রথম আবির্ভাবে, এক তৃতীয় শক্তি-স্বরূপ। পরিশেষে অবশ্য, মন্ত্রই একমাত্র শক্তি হিসেবে বিরাজ করেন; সাধক ও তাঁর মনের শক্তি— এ দুটি ক্রমশ মন্ত্র-শক্তিতেই বিলীন হয়। 
বিশদ

14th  May, 2019
‘বাউল’

 ‘বাউল’ শব্দটি ‘বাতুল’ শব্দের অপভ্রংশ। ‘বাতুল’ শব্দ ত্রূমশঃ রূপান্তরিত হয়ে ‘বাউল’শব্দে পরিণতি প্রাপ্ত হয়েছে। ‘বাউল’ শব্দের প্রকৃত মর্মার্থ হল-বাহ্যজ্ঞান রহিত উন্মাদ। অর্থাৎ যিনি বাহ্য ইন্দ্রিয়ের চেতনাশূন্য, বিষয়বুদ্ধি রহিত ভগবৎ প্রেমে পাগল। আর এই ভাবমুখী প্রেমোন্মাদ মানুষকেই ‘বাউল’ বলা হয়।
বিশদ

13th  May, 2019
সমস্ত জীবনই এক শিক্ষা

সমস্ত জীবনই এক শিক্ষা—কম-বেশি সজ্ঞানভাবে, কম-বেশি স্বেচ্ছায় অনুসৃত। তবে কারও কারও ক্ষেত্রে এই শিক্ষা আলোর দিকটি প্রকাশ করবার সহায় হয়, কারও ক্ষেত্রে বিপরীত, অর্থাৎ অন্ধকারের দিক। অবস্থা ও পারিপার্শ্বিকী যদি অনুকূল হয় তাহলে অন্ধকার সরে যায়, হয় আলোরই বৃদ্ধি। অন্য পক্ষে ঘটে বিপরীত।
বিশদ

12th  May, 2019
অমৃতকথা 

দেহ ও মন এই দুইটী যন্ত্র-সহায়ে তোমার আভ্যন্তরীণ শক্তিপুঞ্জ প্রয়োজিত এবং অভিব্যঞ্জিত হইতেছে। দেহ যদি একটী দশ-মর্দ্দা হইয়া থাকে, মন তাহা হইলে একটি বিশ-মর্দ্দা। “মারো ধাক্কা হেইয়োঁ”—বলিয়া দশ-মর্দ্দা দিয়া ধাক্কা দাও, গায়ে তৎক্ষণাৎ জোর আসিবে, কার্য্য-সিদ্ধি ত’ হইবেই।   বিশদ

11th  May, 2019
কার্য

জানার বিষয় হল তিনটি: গ্রহীতা, গ্রহণ ও গ্রাহ্য, অন্য পরিভাষায় পুরুষ, ইন্দ্রিয় এবং ভূত। অর্থাৎ যে গ্রহণ করছে অর্থাৎ জানছে বা দেখছে সেই হল কর্তা বা গ্রহীতা, যা দিয়ে দেখছে তাকেই বলে করণ বা ইন্দ্রিয় এবং যা দেখছে অর্থাৎ বিষয় বা ভূতবর্গ তাকে বলে কার্য। বিশদ

10th  May, 2019
ধর্ম

 বিশ্বের সকল ধর্মবেত্তারা নিজ নিজ ধর্মানুশাসনে নিবিষ্ট ও বোধিদীপ্ত হয়ে জগতের অনেক কল্যাণ সাধন করেছেন।আজ জগতে যা কিছু শুভকর, তা এঁদেরই অনুপ্রেরণা ও সাধনার ফল। জগৎ একই স্রষ্টার করুণাধারায় প্রবাহিত। এই প্রবহমান জগতে বিভিন্ন ধর্মাবলম্বীর আনুগত্য সেই একই স্রষ্টার প্রতি বিভিন্ন নামে ও ধ্যানে। বিশদ

09th  May, 2019
  গুরু

ধর্মরাজ্যে এগোতে হলে পথটাকে ভালবাসার চেষ্টা কর। ভালবাসা না এলে এগোনা যাবে না। পথটা ভালো না লাগলে সবই বৃথা। কারণ, একটা পথ ধরে তো এগোতে হবে। যে রূপ ভাল লাগে, যাঁর প্রতি একটা আকর্ষণ বোধ ক’রছো, তাঁকেই ভালবাসতে চেষ্টা কর। গুরুকে ধর। বিশদ

08th  May, 2019
মোড় ঘুরিয়ে দাও

 ‘মোড় ঘুরান’—দু’টি শব্দ, একটি অর্থবহ কথা। অর্থের বৈচিত্র্যে কথাটি অনুধাবনযোগ্য। রাস্তায় চলতে চলতে মোড় ঘুরি। জীবনযুদ্ধে জয়ী হ’তে জীবনের কত মোড় ঘুরাই। কখনো মোড় ঘুরতে গিয়ে দুর্ঘটনায় পড়ি। কত অনিশ্চয়তা, কত ব্যর্থতা এই জীবনকে ঘিরে।
বিশদ

07th  May, 2019
  ভাব

যে মহানাম লাভ করিয়াছ, তাহাকেই ভেলাস্বরূপ জ্ঞান। তাহা অবলম্বনেই সংশয়-সাগরের পরপারে পৌঁছিবে। দৃঢ় চিত্তে ভেলাবলম্বন কর। তরঙ্গ-বিক্ষোভে টলিয়া পড়িও না। নামের বলে তোমাদের মধ্যে মহাশক্তি ও মহাভাব জাগিয়া উঠিবে।
বিশদ

06th  May, 2019
ক্ষুধা 

ক্ষুধিত আতুর যেমন করিয়া ধনীর দুয়ারে তাকাইয়া থাকে, আমি তোমাদের মুখপানে তেমনি সতৃষ্ণ নয়নে চাহিয়া আছি, তোমাদের জীবন পরার্থে উৎসর্গীকৃত হইয়া যেদিন তপঃশুদ্ধ হইবে, হে সন্তান, সেইদিনই তোমরা আমার ক্ষুধা তৃষ্ণা যথার্থ মিটাইতে পারিবে। স্বার্থের প্রতি দৃষ্টিহীন, সুখের প্রতি লক্ষ্যহীন, বিঘ্নের প্রতি ভ্রূক্ষেপহীন জীবন লইয়া যে দিন তোমরা মায়ের ক্রোড় জুড়িয়া বসিবে, প্রকৃতই সেদিন আমার সর্ব্বাঙ্গ শীতল হইবে।  
বিশদ

05th  May, 2019
 হিন্দুধর্ম

হিন্দুধর্ম সম্বন্ধে কিছু ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে। অনেকে মনে করে থাকেন এ ধর্ম দুর্বোধ্য ও অযৌক্তিক। এরূপ মনে করার কারণ এর বিশালত্ব, যা অনায়াসলভ্য নয়। কতগুলি বিশ্বজনীন মৌলিক সত্য রয়েছে এবং বিভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গিতে নিরূপিত সে সত্যের উপর হিন্দুধর্ম প্রতিষ্ঠিত। এ যেন বিশাল এক অশ্বত্থ বৃক্ষ।
বিশদ

04th  May, 2019
 কর্ম

কতকগুলি কার্য আছে, সেগুলি যেন অনেক ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র কর্মের সমষ্টি। যদি আমরা সমুদ্রতটে দণ্ডায়মান হইয়া শৈলখণ্ডের উপর তরঙ্গভঙ্গের ধ্বনি শুনিতে থাকি, তখন উহাকে কি ভয়ানক শব্দ বলিয়া বোধ হয়! কিন্তু তবু আমরা জানি, একটি তরঙ্গ প্রকৃতপক্ষে লক্ষ লক্ষ অতি ক্ষুদ্র তরঙ্গের সমষ্টি। বিশদ

03rd  May, 2019
আবরণশক্তির বশীভূত পুরুষ

আবরণশক্তির বশীভূত পুরুষকে অভাবনা অর্থাৎ বিচারের অভাব ত্যাগ করে না; সে সর্বদা বিচারহীন হইয়া অবস্থান করে। যদি কখনও বিচার করে তো সে বিপরীত ভাবনার বশীভূত হয়—অর্থাৎ দেহ প্রভৃতি যে সকল অনিত্য বস্তু আত্মা নয়, সে সকলকে আত্মা বলিয়া ভাবিতে থাকে।
বিশদ

01st  May, 2019
শিক্ষা 

চোখ-বাঁধা বলদকে যেমন কলুর ঘানীতে জুড়িয়া দিলে তার গত্যন্তর নাই; ইচ্ছায় হউক, অনিচ্ছায় হউক, টানিতেই হইবে। এই কথা কেবল তোমার পক্ষেই খাটিবে, তাহা নহে; বস্তুতঃ সমগ্র দেশ জুড়িয়া খুঁজিলেও ইহার ব্যতিক্রমস্থল পাওয়া শক্ত।  
বিশদ

30th  April, 2019
অধ্যাত্ম-বিজ্ঞানী শ্রীরামকৃষ্ণ

একটা কথা প্রায়ই শোনা যায়—জড় বিজ্ঞানের মতো কোন কিছু প্রমাণিত না হলে গ্রহণ করা চলে না। অর্থাৎ সবকিছু ইন্দ্রিয় প্রত্যক্ষ হওয়া চাই। ধর্ম বা ঈশ্বর ভাবনায় এরূপ প্রমাণের দাবী বেশ জোরদার। এই পরিদৃশ্যমান জগতে খালি চোখে বা যন্ত্রের সাহায্যে স্থূল বা সূক্ষতর বস্তু দেখা যায়।
বিশদ

29th  April, 2019
একনজরে
 নয়াদিল্লি, ১৫ মে (পিটিআই): ষষ্ঠ দফা ভোটের মধ্যেই বিজেপি কেন্দ্রে সরকার গড়ার মতো সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে ফেলেছে। সপ্তম দফার ভোট সম্পন্ন হলে বিজেপির আসন ৩০০ অতিক্রম করে যাবে। বুধবার দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠকে এই মন্তব্য করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। ...

বীরেশ্বর বেরা, কলকাতা: বালিগঞ্জ ফার্ন রোডের অভিজাত এলাকায় সাদা রঙের দোতলা বাড়ির বাসিন্দা মিতা চক্রবর্তী। এবার তিনি কলকাতা দক্ষিণ কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী। প্রথমবার নির্বাচনে দাঁড়ালেও ...

 ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে শুধু সেগুলির বাজার বন্ধকালীন দরই নীচে দেওয়া হল। ...

 ব্রিস্টল, ১৫ মে: জাতীয় দলের জার্সিতেও আইপিএলের দুরন্ত ফর্ম বজায় রেখেছেন জনি বেয়ারস্টো। ব্রিস্টলে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ান ডে’তে তাঁর অনবদ্য সেঞ্চুরিতে ভর করে ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উপস্থিত বুদ্ধি ও সময়োচিত সিদ্ধান্তে শত্রুদমন ও কর্মে সাফল্য। ব্যবসায় গোলযোগ। প্রিয়জনের শরীর-স্বাস্থ্যে অবনতি। উচ্চশিক্ষায় ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৩১: বঙ্গ নাট্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা যতীন্দ্রমোহন ঠাকুরের জন্ম
১৯৭০: টেনিস খেলোয়াড় গ্যাব্রিয়েলা সাবাতিনির জন্ম
১৯৭৫: প্রথম মহিলা হিসেবে এভারেস্ট জয় করলেন জুঙ্কো তাবেই
১৯৭৮: অ্যাথলিট সোমা বিশ্বাসের জন্ম





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৪৯ টাকা ৭১.১৮ টাকা
পাউন্ড ৮৯.১৯ টাকা ৯২.৪৬ টাকা
ইউরো ৭৭.৩৪ টাকা ৮০.৩৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৮১৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩১,১৩৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,৬০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৭,৩৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৭,৪৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৬ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার, দ্বাদশী ৮/৮ দিবা ৮/১৬। চিত্রা ৫৮/১০ রাত্রি ৪/১৬। সূ উ ৫/০/৮, অ ৬/৫/৪৪, অমৃতযোগ দিবা ৩/২৮ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৬/৪৯ গতে ৯/০ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৫ গতে ২/৬ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৪ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ২/৪৯ গতে অস্তাবধি, কালরাত্রি ১১/৩৩ গতে ১২/৫৫ মধ্যে।
১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৬ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার, দ্বাদশী ৫/৩২/৪৭ দিবা ৭/১৩/২৬। চিত্রানক্ষত্র ৫৭/১১/১৩ রাত্রি ৩/৫২/৪৮, সূ উ ৫/০/১৯, অ ৬/৭/১৫, অমৃতযোগ দিবা ৩/৩৪ গতে ৬/৭ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৫৮ গতে ৯/৪ মধ্যে ও ১১/৫৬ গতে ২/৪ মধ্যে ও ৩/৩০ গতে ৫/০ মধ্যে, বারবেলা ৪/২৮/৫৩ গতে ৬/৭/১৫ মধ্যে, কালবেলা ২/৫০/৩১ গতে ৪/২৮/৫৩ মধ্যে, কালরাত্রি ১১/৩৩/৪৭ গতে ১২/৫৫/২৫ মধ্যে।
১০ রমজান
এই মুহূর্তে
ঝড়-বৃষ্টিতে তার ছিঁড়ে অন্ধকারে ডুবল জলপাইগুড়ি
জলপাইগুড়ি শহরের বিস্তীর্ন অংশ ডুবে রয়েছে অন্ধকারে। সন্ধ্যা থেকে ঝড়-বৃষ্টির ...বিশদ

08:10:08 PM

ডায়মন্ডহারবারের এসডিপিও এবং আমহার্স্ট স্ট্রিট থানার ওসিকে সরিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন

07:27:00 PM

বিমান সংস্থার উপর চটলেন শ্রেয়া
বিমানে বাদ্যযন্ত্র নিয়ে যেতে বাধা দেওয়া হয় সঙ্গীতশিল্পী শ্রেয়া ঘোষালকে। ...বিশদ

06:21:47 PM

ভোটের দিন গরম বাড়বে
উত্তর বঙ্গের পাঁচ জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকলেও ভোটের দিন কিন্তু ...বিশদ

06:10:39 PM

এবার কমিশনের তোপের মুখে খোদ সিইও দপ্তরের আধিকারিকরাই
রাজনৈতিক দল ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব নয়। এবার নির্বাচন কমিশনের তোপের ...বিশদ

05:49:03 PM

সল্টলেকে ৪০ লক্ষ টাকা সহ ধৃত ১
রবিবার ভোট। ঠিক তার মুখে আজ বৃহস্পতিবার সল্টলেকের এফ ই ...বিশদ

05:39:55 PM