Bartaman Patrika
অমৃতকথা
 

ভগবান অনেক নয়—এক

তুমি ভগবানকে ডাক, কিন্তু তোমার এত ভেদ-বুদ্ধি কেন? মুসলমানের ভগবান, খ্রিষ্টানের ভগবান কি আলাদা? ভগবান তো অনেক নয়—এক; তার মধ্যে আবার ছোট-বড়, এর ভগবান, তার ভগবান—এ-সব কি বুদ্ধি? ও-রকম হীন বুদ্ধি থাকলে ভগবানকে পাওয়া যায় না। তোমার ইষ্ট তোমার কাছে বড়; তাদের ইষ্ট তাদের কাছে বড়; ইষ্ট কিন্তু এক, কেবল নামের তফাত—ভাব নিয়ে কথা। যে ভগবান তোমার ইষ্ট, সেই ভগবানই তাদের ইষ্ট; তারা এক নামে ডাকছে, তুমি আর এক নামে ডাকছ—এই তফাত। তবে ভেদ-বুদ্ধি কেন? যে ভগবানকে চায়, সে ভেদবুদ্ধি ত্যাগ করবে। তুলসীদাস, রামপ্রসাদ—এঁরা সব ইষ্ট-লাভ করেছিলেন; রামপ্রসাদের কত বৈরাগ্য, কেমন প্রেম—মাকালীকে ঠিক ঠিক মায়ের মতো ভেবে গালি দিচ্ছে, আবদার কচ্ছে। লোকে মানুষের কাছেই আবদার-জুলুম করে, কিন্তু তিনি মানুষ নন—অশরীরী, তবুও তাঁর কাছে আবদার-জুলুম কচ্ছে। কতখানি ভক্তি-বিশ্বাস হলে এমন করে। ইষ্টকে আপন হতে আপন ভাবতে হয়; তিনি আত্মা—আত্মীয়ের চেয়ে বড়, আরো কত আপন।
কালী মহারাজ (স্বামী অভেদানন্দ) স্বামীজীর আদেশে বিলেতে গেল। যখন স্বামীজী লেকচার দিতে বললে, তখন ভয় পেয়ে বললে—‘‘আমি পারবো না; কি করে বলবো?’’ স্বামীজী বললে—‘‘আমি যাঁর মুখ দেখে বলেছিলাম, তুমিও তাঁর মুখ দেখে বল।’’ তখন আর ভয় রইল না—খুব ভাল বললে। সত্যভামার মহিষী হবার ইচ্ছা হয়, রুক্মিণীর মনে মনে হিংসা। ভগবান শ্রীকৃষ্ণ তা জানতে পারলেন। একদিন তিনি সভ্যভামার সঙ্গে বসে আছেন, এমন সময় দেখলেন হনুমান আসছেন। তখন সত্যভামাকে বললেন—‘‘তুমি শীঘ্র সীতারূপ ধর, আর আমি রামরূপ ধরি—হনুমান অন্যরূপ দেখবে না।’’ সত্যভামা সীতারূপ ধরতে পারলেন না। এমন সময় স্বয়ং লক্ষ্মী রুক্মিণী এসে সীতারূপ ধরলেন। হনুমান রামরূপ ছাড়া অন্যরূপ দেখতে ভালবাসতেন না। বলতেন—
শ্রীনাথে জানকীনাথে অভেদঃ পরমাত্মনি।
তথাপি মম সর্বস্বঃ রামঃ কমললোচনঃ ।।
গুরু-বাক্য ছাড়তে নেই। লোকে যাই বলুক না কেন, কখনও সংশয় করবে না। স্বচক্ষে না দেখে কোন কথা বিশ্বাস করা ঠিক নয়, আর কারো উপর সংশয় করা ভুল। সাধু-মহাপুরুষরা সকলেই বলেছেন—‘গুরুর হুকুম নিষ্ঠার সহিত পালন করলে কল্যাণ হবে। গুরুবাক্যে নিষ্ঠা হলে তবে ইষ্টে নিষ্ঠা হয়। যার গুরুতে নিষ্ঠা নেই, তার ইষ্টে কোনকালই নিষ্ঠা হবার আশা নেই, আর তাই কল্যাণেরও আশা নেই। এ জগতে একমাত্র গুরুই ভরসা।’ ‘গুরু-বাক্য মূলাধার, গুরু পদ ভরসা।’
গুরুর ছবি পূজা করা যেতে পারে, তাতে শিষ্যের কল্যাণই হয়।
সময় মত পূজা না করলে অকল্যাণ হয়। অসময়ে পূজো করার চেয়ে না করাই ভাল। আমার তো খুব ইচ্ছা পূজো করি, কিন্তু শরীর সুস্থ নয়, পারি না। তোর এটা মনে রাখা উচিত যে, ঠাকুর এখনও জল পর্যন্ত খাননি। এত বেলায় কি পূজো হয় রে? তুই ভোগ দিবি, তবে ঠাকুর খাবেন। তোর যেমন ক্ষুধা পায়, তাঁরও তেমনি পায়। প্রত্যক্ষ তিনি রয়েছেন—অন্নগ্রহণ করেন দেখেছি। তাঁকে কষ্ট দিলে ভুগতে হবে।
উপলক্ষ্য না মানলে ভগবানও সন্তুষ্ট হন না; দেখ না দ্রৌপদীকে শ্রীকৃষ্ণ সখী বলে কতই ভালবাসতেন। তাঁরই বিপদের সময়—সেই বস্ত্র-হরণের সময় কতই তিনি অনাথ-নাথ, দীন-বন্ধু, বিপদ-বারণ, লজ্জা-নিবারণ ব’লে ডাকলেন, তিনি এলেন না। কিন্তু যেই দ্রৌপদী পাণ্ডব-নাথ,
পাণ্ডব-সখা ব’লে ডাকলেন, তখনই তিনি এলেন। দৌপদী
যতক্ষণ ‘উপলক্ষ্য’ পাণ্ডবগণের নাম না করলেন, ততক্ষণ এলেন না। যেই পাণ্ডবগণের নাম করা, অমনি হাজির।
স্বামী অদ্ভুতানন্দের—সৎকথা (স্বামী সিদ্ধানন্দ সংগৃহীত) থেকে
গীতা 

‘‘শ্রীমদ্ভগবদ গীতা’’। শ্রীগীতাকে, ভগবানের সহিত প্রায় একাকার করে বলা হয়েছে এই মহানাম। ভগবান বাসুদেব শ্রীকৃষ্ণের শ্রীমুখ নিঃসৃত বাণী এই শ্রীগীতোপনিষদ।
মঙ্গল চরণে প্রথমেই বলা হয়েছে—‘‘পার্থায় প্রতিবোধিতাং’’ যা স্বয়ং ‘‘পদ্মনাভস্য মুখ পদ্মাৎ বিনি সৃতঃ।’’  বিশদ

04th  November, 2018
ধর্ম ও মানবতা

‘‘যদা যদা হি ধর্মস্য গ্লানির্ভবতি ভারত
অভ্যুত্থানমর্ধস্য তদাত্মানং সৃজাম্যহম্‌।
পরিত্রাণায় সাধুনাং বিনাশায় চ দুষ্কৃতাম্‌।
ধর্ম সংস্থাপনার্থায় সম্ভবামি যুগে যুগে।।’’
বিশদ

03rd  November, 2018
 নারী

‘‘ভারতবর্ষ এখনও মহীয়সী নারীর জন্মদান করতে পারছে না, তাই অন্য জাতি থেকে তাকে ধার করতে হবে। তোমার শিক্ষা, ঐকান্তিকতা, পবিত্রতা, অসীম প্রীতি, দৃঢ়তা এবং সর্বোপরি তোমার ধমনীতে প্রবাহিত কেল্টিক রক্তই তোমাকে সর্বথা সেই উপযুক্ত নারীরূপে গঠন করেছে’’—এই বলে স্বামী বিবেকানন্দ একজন বিদেশিনীকে ভারতীয় নারীদের উন্নতিকল্পে আহ্বান জানিয়েছিলেন। বিশদ

02nd  November, 2018
ব্যর্থ শিক্ষা

 যে শিক্ষা আত্ম-সম্ভ্রমকে জাগাইল না, সে শিক্ষা কুশিক্ষা। যে শিক্ষা স্বতন্ত্র বুদ্ধির বিকাশ দিল না, সে শিক্ষা অসম্পূর্ণ। যে শিক্ষা পরমুখ-প্রেক্ষিতা ঘুচাইল না, সে শিক্ষা ব্যর্থ।
বীর কে বিশদ

01st  November, 2018
জাতীয় শিক্ষা

স্বার্থ যখন বড় হয় তখন দেশ, জাতি, জগত্‌ বা মানুষের যথার্থ রূপটা ঐ স্বার্থের আড়ালে পড়িয়া অন্তর্হিত হইয়া যায়। এই স্বার্থ যখন আঘাতের পর আঘাতে চুরমার হইয়া ভাঙ্গিয়া পড়ে, তখনই আমরা ঠিক্‌ ঠিক্‌ দেখিতে পাই, দেশ কি, জাতি কি, জগত্‌ কি বা মানুষ কি। তখনই আমরা বুঝিতে পারি, ইহাদের পূর্ণতা রক্ষাই আমাদের আত্মরক্ষা।
বিশদ

30th  October, 2018
অন্তর্য্যামী

উষা আরতির পর ব্যায়ামাদি সমাপনান্তে চারণদলের সহিত কলিকাতার পল্লীতে পল্লীতে অর্থসংগ্রহে বাহির হইবার জন্য সকলে প্রস্তুত হইলেন। শ্রীশ্রীস্বামীজী মহারাজ স্বয়ং বসিয়া সন্তানগণকে খিচুড়ি খাওয়াইতেছেন। সামান্য খিচুড়ি এবং চা চামচের এক চামচ ঘৃত ইহাই অদ্যকার প্রাতঃরাশ।
বিশদ

29th  October, 2018
 নারী

প্রাচ্য নারীর আধ্যাত্মিকতা, সহিষ্ণুতা, নম্রতা, সেবাপরায়ণতার, সঙ্গে যুক্ত হবে পাশ্চাত্য নারীর তেজস্বিতা, স্বনির্ভরতা, কর্মকৌশল ও বিজ্ঞানমনস্কতা। বলাবাহুল্য, এইসব সদ্‌গুণ কোনও ব্যক্তিচরিত্রের মধ্যে রূপায়িত হলে, তাঁকেই আর্দশ করে পথ-চলা সহজ হয়।
বিশদ

28th  October, 2018
ললিত লাবণ্য কল্যাণশ্রী

যার জীবনে ধরা দেবে ললিত লাবণ্য কল্যাণশ্রী—অপরূপের দিব্য মহিমা—সে যে পথ দিয়ে চলবে সবাই সুখী হবে তার সেবায়। সবকিছু উজ্জ্বল হবে তার প্রাণের আলোয়—সেই অমর মন্ত্রে উজ্জীবিত হোক তোমার সত্তা—যেন সবাইকে দিতে পার আনন্দ-সংবাদ।
বিশদ

27th  October, 2018
নির্বিকল্প সমাধি 

 প্রশ্ন: যখন সমাধিতে চিত্ত থাকে তখন উহাতে কোন চমৎকার প্রকাশ হয় কি না? যদি হয় তবে ধ্যেয় বস্তু হইতে চ্যুত হওয়া হইল কি না? আর উহার মূল কারণ কি?
মা: সমাধি মানে সমাধান—
প্রশ্ন: সমাধান কোন প্রশ্নের হয়, সমাধি পৃথক্‌ বস্তুর। বিশদ

26th  October, 2018
শক্তির উপাসনা 

বাংলার বিশেষ সম্পৎ শক্তির উপাসনা। গৌড়ীয়া-বিদ্যা তন্ত্রের আর এক নাম। বর্ত্তমানে তন্ত্রবিষয়ে গবেষণা বা আলোচনা নাই বলিলেই হয়। আত্মভোলা বাঙালী জাতি নিজ সম্পদ্‌ সম্বন্ধে যদিও একেবারে উদাসীন, তাহা সত্ত্বেও তন্ত্রের সাধনার ধারা একেবারে মৃত নহে। আমাদের স্মরণকালের মধ্যেই রামপ্রসাদ, বামাক্ষেপা ও ঠাকুর রামকৃষ্ণ পরমহংসদেব তন্ত্রধারায় সিদ্ধিলাভ করিয়া এই সাধনাকে উজ্জ্বল করিয়াছেন। 
বিশদ

25th  October, 2018
মহালক্ষ্মীমূর্তি

 মা হুঙ্কার ছাড়িয়াছেন, অট্টহাসিতে দিগন্ত মুখরিত করিতেছেন, মা আমার চণ্ডীমূর্তিতে আবির্ভূতা হইয়াছেন। কে রে! পুত্রের প্রতি অত্যাচার! মা ভৈঃ! আমি মা তোমার। আমি আসিয়াছি। আর তোমাকে উৎপীড়িত হইতে হইবে না। সন্তান!
বিশদ

24th  October, 2018
শুদ্ধ-আত্মা

সৈন্যদলের মধ্যে রাজাই যেমন প্রধান (রাজার নির্দেশ ব্যতীত যেমন সৈন্যদলের কর্মে কোন স্বতন্ত্রতা নাই) সেইরূপ দেহ ও ইন্দ্রিয়াদির সমবায় জীবের নিত্যচৈতন্যস্বরূপ শুদ্ধ-আত্মাই এক অদ্বিতীয় নিয়ন্তা জানিয়া, সেই জ্ঞানের আশ্রয়ে শুদ্ধ-আত্মরূপে সর্বদা অবস্থিত থাকিয়া জড়পদার্থসমূহ আত্মাতে লয় করিয়া দাও।
বিশদ

23rd  October, 2018
দেহশুদ্ধি

নারদ বৈকুণ্ঠে গিয়েছিলেন। বসে ঠাকুরের সঙ্গে অনেক কথা কইলেন। নারদ যখন চলে গেলেন, ঠাকুর লক্ষ্মীকে বললেন, ‘ওখানে গোবর দাও। লক্ষ্মী জিজ্ঞাসা করলেন, ‘কেন, ঠাকুর? নারদ যে পরম ভক্ত, তবে কেন এরূপ বলছ?’ ঠাকুর বললেন, ‘নারদের এখনও মন্ত্র নেওয়া হয়নি। মন্ত্র না নিলে দেহ শুদ্ধ হয় না।’
বিশদ

22nd  October, 2018
ভাব জগৎ

 বস্তু জগতের, ভাব জগতের, আত্মিক জগতের বিভিন্ন সত্তাকে মানুষ আত্মসাৎ বা আত্মস্থীকরণ করতে চায়। এ চাওয়াটা সে জেনেও করে, না জেনেও করে। যখন সে আত্মিক জগতে কোন কিছুকে আত্মসাৎ বা আত্মস্থীকরণ করতে চায়, তখন সেই আত্মসাৎ বা আত্মস্থীকরণের প্রক্রিয়াতেই তার আত্মা, তার নিবৃত্ত্যাত্মক গতি ধীরে ধীরে নিজেকেই খুইয়ে ফেলে। আর যাকে সে আত্মস্থীকরণ করতে চেয়েছিল তাতেই সে আত্মহারা হয়ে যায়।
বিশদ

21st  October, 2018
মহামায়া কে?

 শ্রীশ্রীচণ্ডীর প্রথম অধ্যায়ে সুরথ রাজা মেধাঃ (মেধস্‌) ঋষির নিকট প্রশ্ন তুলিয়াছেন—
‘‘ভগবন্‌ কা হি সা দেবী মহামায়েতি যাং ভবান্‌।
ব্রবীতি কথমুত্‌পন্না সা কর্ম্মাস্যাশ্চ কিং দ্বিজ।।
যত্‌স্বভাবা চ সা দেবী যত্‌স্বরূপা যদুদ্ভবা।
তত্‌ সর্ব্বং শ্রোতুমিচ্ছামি ত্বত্তো ব্রহ্মবিদাং বর।।’’ বিশদ

16th  October, 2018
 শক্তি

প্রকৃতিরাজ্যের বিভিন্ন বিভাগে শক্তির যে সব বিচিত্র পরিণাম, বিচিত্র ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া, বিচিত্র গতিবিধি ও কার্য্যোৎপাদন আমরা সাধারণতঃ দেখতে পাই, তার মধ্যে প্রায়শঃ আমরা নিয়ম-শৃঙ্খলার পরিচয় পাই। সব ক্ষেত্রেই শক্তির যেন সুনির্দ্দিষ্ট কর্মপদ্ধতি আছে। বিশদ

14th  October, 2018
একনজরে
  সংবাদদাতা, কান্দি: বুধবার গভীর রাতে বড়ঞা থানার কুলি গ্রামে ভস্মীভূত হয় ছ’টি দোকান। খবর পেয়ে কান্দি থেকে দমকলের দু’টি ইঞ্জিন গিয়ে আগুন নেভায়। এই ...

 প্রসেনজিৎ কোলে, কলকাতা: একদিকে অতিরিক্ত রিচার্জ ভ্যালুর বাড়তি সুবিধা প্রদান, অন্যদিকে এই ব্যবস্থায় জোনের একেবারে প্রান্তিক জায়গাগুলিকেও যুক্ত করায় দক্ষিণ-পূর্ব রেলে অসংরক্ষিত টিকিট বিক্রির ক্ষেত্রে মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থার জনপ্রিয়তা ক্রমশ বাড়ছে। ...

 ওয়াশিংটন, ৮ নভেম্বর (পিটিআই): দীপাবলি উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানালেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেন, এই আলোর উৎসব ভারত-মার্কিন বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের বন্ধনকে প্রতিফলিত করতে এক বিশেষ সুযোগ এনে দেবে। ...

 নিজস্ব প্রতিবেদন: চ্যাম্পিয়ন্স লিগে টানা ৬টি ম্যাচ পরে তিনি গোল পেলেন। এই পর্বে মোট ২০টি শট বিপক্ষের গোল লক্ষ্য করে নিয়েও তিনি ছিলেন অভুক্ত। দীর্ঘ ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

অত্যধিক পরিশ্রমে শারীরিক দুর্বলতা। বাহন বিষয়ে সতর্কতা প্রয়োজন। সন্তানের বিদ্যা-শিক্ষায় অগ্রগতি বিষয়ে সংশয় বৃদ্ধি। আধ্যাত্মিক ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭৯৩: হুগলি নদীতে পৌঁছালেন ব্যাপ্তিস্ত মিশনারি মিশনের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা উইলিয়াম কেরি
১৮৬১: কানাডায় টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠে সরকারিভাবে নথিভুক্ত প্রথম ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়
১৮৭৭: ‘সারে জাহাঁ সে আচ্ছা’র রচয়িতা মহম্মদ ইকবালের জন্ম
১৯৬০: জার্মান ফুটবলার আন্দ্রে ব্রেহমের জন্ম
১৯৭৪: ইতালির ফুটবলার আলেকজান্দ্রো দেল পিয়েরোর জন্ম
১৯৮৯: বার্লিন দেওয়ালের পতন
২০০৫: ভারতের দশম রাষ্ট্রপতি কে আর নারায়ণনের মৃত্যু
২০১১: নোবেল পুরস্কার জয়ী হরগোবিন্দ খুরানার মৃত্যু





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.১৪ টাকা ৭৩.৮৫ টাকা
পাউন্ড ৯৩.৬০ টাকা ৯৬.৯৩ টাকা
ইউরো ৮১.৭০ টাকা ৮৪.৭৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
07th  November, 2018
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৩৩৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩০,৬৮০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,১৪০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৪৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৫৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
08th  November, 2018

দিন পঞ্জিকা

২৩ কার্তিক ১৪২৫, ৯ নভেম্বর ২০১৮, শুক্রবার, দ্বিতীয়া ৩৮/৪৮ রাত্রি ঘ ৯/২০। নক্ষত্র-অনুরাধা ৩৬/৫৩ রাত্রি ঘ ৮/৩৫, সূ উ ৫/৪৯/১২, অ ৪/৫১/৪৬, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/৩৩ মধ্যে পুনঃ ৭/১৭ গতে ৯/৩০ মধ্যে পুনঃ ১১/৪২ গতে ২/৩৯ মধ্যে পুনঃ ৩/২৩ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৫/৪৪ গতে ৯/১১ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৬ গতে ৩/১৩ মধ্যে পুনঃ ৪/৫ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ঘ ৮/৩৫ গতে ১১/২১ মধ্যে, কালরাত্রি ঘ ৮/৬ গতে ৯/৪৩ মধ্যে।
২২ কার্তিক ১৪২৫, ৯ নভেম্বর ২০১৮, শুক্রবার, দ্বিতীয়া রাত্রি ঘ ৯/১৩/৫৭। অনুরাধানক্ষত্র রাত্রি ঘ ৯/২২/৫৭। সূ উ ৫/৪৯/১১, অ ৪/৫১/১৯, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/৩৩/২০ মধ্যে ও ঘ ৭/১৭/২৮ থেকে ঘ ৯/২৯/৪৫ মধ্যে ও ১১/৪২/২৯ থেকে ২/৩৮/৫৩ মধ্যে ও ৩/২৩/২ থেকে ৪/৫১/১৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪৩/১০ থেকে ঘ ৯/১০/৩৬ মধ্যে ও ১১/৪৬/১১ থেকে ৩/১৩/৩৭ মধ্যে ও ৪/৫/২৮ থেকে ৫/৪৯/৫০ মধ্যে। বারবেলা ৮/৩৪/৪৩ থেকে ৯/৫৭/২৯ মধ্যে, কালবেলা ৯/৫৭/২৯ থেকে ঘ ১১/২০/১৫ মধ্যে, কালরাত্রি ৮/৫/৪৭ থেকে ঘ ৯/৪৩/১ মধ্যে। আজ ভ্রাতৃদ্বিতীয়া।
 
এই মুহূর্তে
গভীর রাতে জলসা থামাতে গিয়ে প্রহৃত পুলিস 
সল্টলেক করুণাময়ীতে গভীর রাতে জলসা থামাতে গিয়ে প্রহৃত হলেন দুই ...বিশদ

04:59:28 PM

৭৯ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স 

03:52:11 PM

চায়না ওপেনে হার কিদাম্বি শ্রীকান্তের 

03:34:00 PM

১৭ নভেম্বর মালদ্বীপের প্রেসিডেন্টের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যাবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি 

03:29:00 PM

মুর্শিদাবাদে প্রৌঢ়কে পিটিয়ে মারার ঘটনায় গ্রেপ্তার ২ 
বৃহস্পতিবার রাতে মুর্শিদাবাদের গোদাপাড়া গ্রামে এক প্রৌঢ়কে পিটিয়ে মারার অভিযোগে ...বিশদ

03:25:00 PM

মুর্শিদাবাদের শেরপুর মোড়ে দেড় কুইন্টাল গাঁজা সহ গ্রেপ্তার ৪ 
বৃহস্পতিবার রাতে খড়গ্রাম থানার শেরপুর মোড়ে প্রায় দেড় কুইন্টাল গাঁজা ...বিশদ

03:21:00 PM