Bartaman Patrika
সম্পাদকীয়
 

করোনা: মানুষই জিতবে 

গত ৮ মার্চ সকালের খবর, সারা বিশ্বের ৯৫টি দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঘটে গিয়েছে। বেসরকারি মতে, সংখ্যাটি আরও বেশি—১০৬। নর-নারী-শিশু মিলিয়ে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা লক্ষাধিক। সংক্রমণ থামার লক্ষণ নেই। মৃত্যুও অব্যাহত। ইরানসহ মধ্যপ্রাচ্য নাজেহাল। ইতালি, ফ্রান্সসহ ইউরোপ এবং আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রও রীতিমতো আতঙ্কিত। লাতিন আমেরিকা এবং সিঙ্গাপুরসহ দূর প্রাচ্যের দেশগুলিও প্রমাদ গুনছে। আমরা জানি, করোনা সংক্রমণ এবং তাতে মৃত্যুর খবর প্রথম চীন দেশ থেকে পাওয়া গিয়েছে। তারপর তা ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বময়। ব্যাপারটি বিশ্বত্রাসের রূপ নিয়েছে। শুধুমাত্র চীন দেশেই আক্রান্ত হাজারে হাজারে এবং মৃতের সংখ্যা হাজার তিনেকের বেশি। সে-দেশের নাগরিকদের উপর কমিউনিস্ট প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণ অত্যন্ত কঠোর। ইচ্ছে করলেই তাদের যে-কোনও সিদ্ধান্ত, তা আপাত অপ্রিয় হলেও, তারা কার্যকর করতে দ্বিধা করে না। বিজ্ঞান, প্রযুক্তি এবং অর্থবলের প্রশ্নেও এশীয় দেশগুলির মধ্যে চীন অগ্রণী। তবু সেখানেই এমন বিপর্যয়! আমাদের হতাশ করে।
অভিযোগ উঠেছে, গোড়ার দিকে বিপদটিকে যথাযথ গুরুত্ব দিয়ে মোকাবিলার কথা ভাবেনি চীন। তাই বিপর্যয়টি দ্রুত তাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছিল। সংবিৎ ফিরতেই তারা সাঁড়াশি আক্রমণের কায়দায় করোনা মোকাবিলায় নেমেছে। এখনও তেমনই তৎপর তারা। তার ফলে সংক্রমণ এবং মৃত্যুর হার উল্লেখযোগ্য হারে কমেছে। চীনে করোনা সংক্রমণে গত সপ্তাহেও যেখানে প্রতি ২৪ ঘণ্টায় গড়ে মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়ে গিয়েছিল, সংখ্যাটি গত রবিবার থেকে ৩০-এর নীচে নেমে এসেছে। এটি একটি সুখবর। শুধু চীনের জন্য নয়, সারা পৃথিবীর জন্যও। কারণ যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ভারত প্রভৃতি দেশ নিজেকে যতই শক্তিশালী মনে করুক না কেন, পাণ্ডববর্জিত হয়ে চলা কারও পক্ষেই সম্ভব নয়। বিস্ময়কর উন্নত এই যোগাযোগ ব্যবস্থার যুগে আমরা সকলেই এক ভুবনগ্রাম এবং বিশ্ব বাণিজ্য ও বিশ্ব অর্থনীতির অবিচ্ছেদ্য অংশ। প্রত্যেকের সীমাবদ্ধতা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। ছোট বড় প্রতিটি দেশ আজ পরস্পরের উপর বিশেষভাবে নির্ভরশীল। চীন ও ভারতের মধ্যে নানাভাবে ক্ষমতার দ্বন্দ্ব রয়েছে বলে চীনের কোনও বিপর্যয়ে ভারতের খুশি হওয়ার বিন্দুমাত্র সুযোগ নেই। তেমনি ভারতের আর্থিক মন্দার খবরে ম্রিয়মাণ হতে হয় চীনের বাজারকেও। ভারতের আর্থিক মন্দা বৃদ্ধির আশঙ্কায় বিশ্ব অর্থনীতির বৃদ্ধির অনুমিত হার কমিয়ে দেখাতে হয়েছে বিশ্বব্যাঙ্ককে। অতএব করোনার বিপদটিকে এক বা একাধিক দেশ বিশেষের বলে এড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ নেই। পৃথিবীর সব দেশকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই বিপদের মোকাবিলা করতে হবে। ভারতের মতো বিরাট দেশকেও অনুরূপ নীতি নিয়ে লড়াই করতে হবে। কোন রাজ্যে বা শহরে কতটা সংক্রমণ ঘটল, তার বিচার করার প্রয়োজন নেই। বরং চেষ্টা করতে হবে, সংক্রমণ যতটা ঘটে গিয়েছে সেখানেই পূর্ণচ্ছেদ টেনে দিতে। এই বিপদে মৃত্যুর মুখ যেন দেখতে না-হয় ভারতকে। তবেই সার্থক হবে ভারতের লড়াই। আর এই সাফল্যের জন্য সব রাজ্যের এবং সব মানুষের সমান সহযোগিতা প্রয়োজন।
আতঙ্ক নয়, দেশকে ঠিকমতো সচেতন করাই হল প্রথম পদক্ষেপ। তারপর দরকার আধুনিক চিকিৎসা পরিষেবার পর্যাপ্ত পরিকাঠামো গড়ে তোলা। মনে রাখতে হবে, এই পর্যন্ত ভারতে করোনা সংক্রমণের ফলে অসুস্থ মানুষের সংখ্যা ৫০ ছাড়িয়ে গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক সন্দেহভাজন রোগীদের রক্তের নমুনা পরীক্ষার জন্য শতাধিক কেন্দ্র চিহ্নিত করে যথার্থ পদক্ষেপই করেছে। তার ভিতরে বাংলার বেলেঘাটায় কেন্দ্রীয় গবেষণাগার নাইসেড এবং বিভিন্ন প্রান্তের ছ’টি মেডিকেল কলেজকে রাখা হয়েছে। সরকারের সহযোগী হয়েছে কয়েকটি বেসরকারি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানও। এই লড়াইতে বিদেশি দূতাবাসগুলিকেও যুক্ত করা হয়েছে। যেমন রবিবার কলকাতায় অবস্থিত ব্রিটিশ কাউন্সিল ভবনে কয়েকটি দূতাবাসের কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের অফিসাররা। সব মিলিয়ে করোনার বিরুদ্ধে ভারতের লড়াই এখনও পর্যন্ত আশাপ্রদ। তার ভিতরে ভরসা জোগাচ্ছে বিশেষ করে বাংলার নেতৃত্ব। আসুন, এই বিরাট লড়াইতে আমরা সবাই কাঁধে কাঁধ মেলাই এবং ভরসা রাখি যে জিতবই। বিস্মৃত হব না যে একের পর এক জয়ের ভিতর দিয়েই মানুষের ইতিহাস সমৃদ্ধ হয়েছে। সবার বাসযোগ্য সুন্দর এক পৃথিবী নির্মাণই মানুষের অঙ্গীকার। 
11th  March, 2020
ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি

মানুষের দ্বারা বিজেপিকে প্রত্যাখ্যানের পালা অব্যাহত। ত্রিস্তর পঞ্চায়েত, পুরসভা, পুর কর্পোরেশন, আদিবাসী অধ্যুষিত স্বশাসিত জেলা পরিষদ, বিধানসভা প্রভৃতি প্রায় সব ধরনের ভোটে। নরেন্দ্র মোদির পার্টি প্রত্যাখ্যাত হয়েছে দেশের পূর্ব, উত্তর-পূর্ব, পশ্চিম, দক্ষিণ, এমনকী উত্তরাঞ্চলের গেরুয়া গড়েও। বিশদ

বিজেপিকে প্রত্যাখ্যানের ধারা

ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি পাঞ্জাবের পুরভোটে গোহারা হয়েছে বিজেপি। এই ভোটে মোদি সরকারের নতুন কৃষি আইনগুলি বাতিলের দাবিতে কৃষক আন্দোলনের ছাপটা স্পষ্টভাবে ধরা পড়েছে। হিমাচল প্রদেশে ক্ষমতাসীন বিজেপি।
বিশদ

06th  May, 2021
ফাঁকা ভাষণের দিন শেষ

মঙ্গলবারের কাগজে প্রকাশিত খবর বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা সংক্রামিত হয়েছেন ৩ লক্ষ ৬৮ হাজার ১৪৭ জন এবং মারা গিয়েছেন ৩ হাজার ৪১৭ জন। সংক্রমণের হার সামান্য কমেছে বলেও সরকারি তথ্যের দাবি। কিন্তু এখানে একাধিক প্রশ্ন রয়ে যায়: (এক) প্রয়োজনীয় সংখ্যক নাগরিকের পরীক্ষা করা হচ্ছে কি? বিশদ

05th  May, 2021
‘সুনার’ নয়, সোনার বাংলা 

রবিবার কয়েক ঘণ্টার বৈশাখী ঝড়। তাতেই পদ্মের পাপড়ি খসে বেসামাল হয়ে পড়ল বিজেপি। আর ইতিহাস তৈরি করে কোমায় চলে গেল বাম-কংগ্রেস। লড়াইটা ছিল সোনার বাংলা বনাম ‘সুনার’ বাংলা তৈরির।  
বিশদ

04th  May, 2021
এবার অগ্রাধিকার

তেত্রিশ দিন। আট দফা। সব মিলিয়ে এক নজিরবিহীন অলস ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হয় ২৯ এপ্রিল। তার পর প্রতীক্ষা গিয়েছে আরও দু’দিনের। অবশেষে এল সেই বহু কাঙ্ক্ষিত ২ মে। রবিবার শেষ হল ভোটগণনা। জলের মতোই পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে কাদের দখলে যাচ্ছে নবান্ন। বিশদ

03rd  May, 2021
কাউন্টডাউন শুরু

ভোটগ্রহণ শেষ। অঙ্ক কষা শুরু। সহজ পাটিগণিতের নিয়মে এই অঙ্ক মিলিয়ে দিতে পারলেই ল্যাটা চুকে যেত। কিন্তু ভোট রাজনীতিতে অঙ্ক শাস্ত্রের জটিল নিয়ম চলে। সেই অঙ্ক মেলাতে বাঘা বাঘা বিশারদ ও পোড়খাওয়া রাজনীতিককে দিশেহারা হয়ে পড়তে দেখা গিয়েছে বারবার। বিশদ

01st  May, 2021
বৃদ্ধির পথের কাঁটা

করোনা সংক্রমণের গ্রাফ এখনও জেদি। এখনও ঊর্ধ্বমুখী। দেশজুড়ে বেড়ে চলছে সংক্রামিতের সংখ্যা। বেলাগাম মৃত্যুমিছিল গড়ে দিচ্ছে শোকের আবহ। দেশ এখন করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের সাক্ষী। রীতিমতো টলোমলো। বিশদ

30th  April, 2021
নেহাত রাজনৈতিক স্লোগান

এক ভারত শ্রেষ্ঠ ভারত। এই স্লোগান নরেন্দ্র মোদির। তিনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার কয়েক মাস পরেই এই মন্ত্রে বিচিত্র বৈশিষ্ট্যের ভারতকে একসূত্রে গাঁথার শপথ নিয়েছিলেন। সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের জন্মদিনকে ‘রাষ্ট্রীয় একতা দিবস’ হিসেবে উদযাপন করে তাঁর সরকার। বিশদ

29th  April, 2021
আত্মসমীক্ষা করুক কমিশন

কোভিডের এই ভয়াবহ পরিস্থিতির জন্য একমাত্র দায়ী ভারতের নির্বাচন কমিশন। এই মন্তব্য মাদ্রাজ হাইকোর্টের। এটাই সাধারণ মানুষের উপলব্ধি। তারা এই উপসংহারে উপনীত হয়েছে আগেই। দেশবাসী নানাভাবে তাদের মনোভাব ব্যক্তও করে চলেছে। বিশদ

28th  April, 2021
শুধুই ঢক্কানিনাদ

যন্ত্রণাক্লিষ্ট মানুষের ভাষণ শুনতে ভালো লাগে না। অথচ রাজধর্ম পালনে ব্যর্থ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বাণী বিতরণে তাঁর পারদর্শিতা দেখিয়েই চলেছেন! সারা দেশ যখন অক্সিজেনের সঙ্কটে ধুঁকছে তখন তিনি শীতঘুম থেকে উঠে বলছেন ‘গোটা দেশে অক্সিজেন উৎপাদক ৫৫১টি প্লান্ট গড়ে তোলা হবে’। বিশদ

27th  April, 2021
সবার করুণার পাত্র 

ভারতবাসীর সবচেয়ে বড় কষ্ট ছিল পরাধীনতা। ইংরেজের শোষণের যন্ত্রণা সয়েছে দু’শো বছর। ভারতবাসীর আক্ষেপ, বিপুল সম্পদের অধিকারী হয়েও ভারত এগতে পারেনি শুধু এই জন্যে। চার্চিলকে ভারতবাসী ক্ষমা করবে না কোনওদিন। বিশেষ করে বাংলার মানুষ। 
বিশদ

26th  April, 2021
আট দফা কাল হল?

একপক্ষ ভোটে দাঁড়িয়েছে, অন্য পক্ষ তার হাতে রাজ্যকে তুলে দিতে যেন ধর্নুভাঙা পণ করেছে। বিজেপি ও নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়ে অনেক আগেই এ ধরনের অভিযোগ উঠছিল। অভিযোগ ছিল পক্ষপাতিত্বের। বিশদ

25th  April, 2021
যুক্তিহীন বিলম্ব

করোনা সংক্রমণে বিশ্ব রেকর্ড গড়ল মোদির ভারত। একদিনে সংক্রমণ ৩ লক্ষ ছাড়াল। দৈনিক মৃত্যু টপকে গেল ২ হাজারের বেড়া। সর্বনাশের জেদি গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী। অতএব ক্ষান্ত দিলেন ‘আসল পরিবর্তন’-এর স্বঘোষিত ভগীরথ। আপাতত প্রধানমন্ত্রী আর বাংলায় আসছেন না ‘সোনার বাংলা’ নির্মাণের ঝাঁকা নিয়ে। বিশদ

24th  April, 2021
সঙ্কীর্ণ রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত

করোনা ভ্যাকসিনের বৃহত্তম প্রস্তুতকারক দেশের নাম ভারত। সেই হিসেবে ভারতে টিকাকরণের সামনে কোনও সঙ্কট থাকার কথা নয়। কিন্তু সেকেন্ড ওয়েভ দেশজুড়ে ভয়ঙ্করভাবে আছড়ে পড়তেই বেরিয়ে পড়েছে স্বাস্থ্যব্যবস্থার কঙ্কালসার চেহারা। বিশদ

23rd  April, 2021
কেন্দ্র-রাজ্য যথার্থ সমন্বয় জরুরি

ভারতে করোনার বিপর্যয়ের এক বছর পূর্ণ হয়ে গিয়েছে। এখন চলছে সেকেন্ড ওয়েভ। ফার্স্ট ওয়েভের মোকাবিলা করার সময়েই সারা পৃথিবী বুঝে গিয়েছিল এই আপদ সহজে বিদায় হওয়ার নয়। নির্দিষ্ট স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পাশাপাশি সবার জন্য কার্যকরী ভ্যাকসিনই আপাতত বাঁচার রাস্তা। বিশদ

22nd  April, 2021
টিকাকরণ নিশ্চিতও করতে হবে

অবশেষে সম্মতি দিলেন নরেন্দ্র মোদি। সিলমোহর দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চিন্তাভাবনায়। মেনে নিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর দাবির বাস্তবতা। দেরিতে যদিও এবং এখনও আংশিক। করোনা ভ্যাকসিনের দরজা সকলের জন্য খুলে দিল তাঁর সরকার। বিশদ

21st  April, 2021
একনজরে
২৭ বছরের দাম্পত্য জীবনে সম্প্রতি ইতি টেনেছেন বিল এবং মেলিন্ডা গেটস। তারপর থেকেই বিশ্বজুড়ে তাঁদের সাড়ে ১৪ হাজার কোটি টাকার যৌথ সম্পত্তি নিয়ে প্রবল চর্চা ...

মদের বদলে অ্যালকোহল মিশ্রিত হোমিওপ্যাথি ওষুধ খেয়ে মৃত্যু হল সাত জনের। গুরুতর অসুস্থ আরও পাঁচ। ঘটনাটি ঘটেছে ছত্তিশগড়ের বিলাসপুর জেলার একটি গ্রামে। অসুস্থ অবস্থায় মঙ্গলবার বাড়িতেই চারজনের মৃত্যু হয়। বুধবার বাকি তিনজনের মৃত্যু হয় হাসপাতালে। ...

মালদহের বিশিষ্ট সাহিত্যিক ও গবেষক পুষ্পজিৎ রায় প্রয়াত। বৃহস্পতিবার মালদহের একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর। সম্প্রতি ...

করোনা রোগীদের জন্য উদ্যোগী ডিসান হাসপাতাল। তারা চালু করল ডিসান স্যাটেলাইট সেন্টার। উপসর্গহীন ও মৃদু উপসর্গযুক্ত করোনা রোগীদের জন্য এটি একটি সমস্ত সুবিধাযুক্ত কোয়ারেন্টাইন সেন্টার। যেখানে ২৪ ঘণ্টা অভিজ্ঞ চিকিৎসকরা বিশেষভাবে পরিষেবা দেবেন। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

শরীর-স্বাস্থ্যের হঠাৎ অবনতি। উচ্চশিক্ষায় বাধা। সৃষ্টিশীল কাজে উন্নতি। পারিবারিক কলহ এড়িয়ে চলুন। জ্ঞাতি বিরোধ সম্পত্তি ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব হাঁপানি দিবস
ইঞ্জিনিয়ার্স ডে

১৭৭০ - ইংরেজ কবি উইলিয়াম ওয়ার্ডসওয়ার্থের জন্ম
১৮৪৯: স্ত্রী শিক্ষা প্রসারে কলকাতায় প্রতিষ্ঠিত হল বেথুন স্কুল
১৮৬১ - আইনজীবী ও জাতীয়তাবাদী নেতা মতিলাল নেহরুর জন্ম
১৯১০: সঙ্গীতশিল্পী শান্তিদেব ঘোষের জন্ম
১৯২৬: অভিনেত্রী মঞ্জু দে'র জন্ম
১৯৪৫: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে জার্মানির আত্মসমর্পণ



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.১৯ টাকা ৭৫.৪৮ টাকা
পাউন্ড ১০০.১৯ টাকা ১০৫.০৮ টাকা
ইউরো ৮৬.৫৩ টাকা ৯০.৭৫ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৭,৭০০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৫,২৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৫,৯৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৭০,৫৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৭০,৬৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
05th  May, 2021

দিন পঞ্জিকা

২৩ বৈশাখ ১৪২৮, শুক্রবার, ৭ মে ২০২১। একাদশী ২৬/১০ দিবা ৩/৩৩। পূর্বভাদ্রপদ নক্ষত্র ১৮/২৪ দিবা ১২/২৬। সূর্যোদয় ৫/৪/২৬, সূর্যাস্ত ৬/১/৫৪। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪৮ মধ্যে পুনঃ ৭/৪১ গতে ১০/১৭ মধ্যে পুনঃ ১২/৫২ গতে ২/৩৪ মধ্যে পুনক্ষ ৪/১৮ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৭/২৯ গতে ৮/৫৮ মধ্যে পুনঃ ২/৫৩ গতে ৩/৩৭ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ১০/২৭ গতে ১১/১১ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৭ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৮/১৯ গতে ১১/৩৩ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৪৭ গতে ১০/১০ মধ্যে।
২৩ বৈশাখ ১৪২৮, শুক্রবার, ৭ মে ২০২১। একাদশী অপরাহ্ন ৫/৩৪। পূর্বভাদ্রপদ নক্ষত্র দিবা ২/৪১। সূর্যোদয় ৫/৫, সূর্যাস্ত ৬/৩। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪৬ মধ্যে ও ৭/৩৮ গতে ১০/১৫ মধ্যে ও ১২/৫১ গতে ২/৩৫ মধ্যে ও ৪/২০ গতে ৬/৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৩২ গতে ৯/০ মধ্যে ও ২/৫০ গতে ৩/৩৪ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ১০/২৭ গতে ১১/১১ মধ্যে ও ৩/৩৪ গতে ৫/৪ মধ্যে। বারবেলা ৮/১৯ গতে ১১/৩৪ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৪৯ গতে ১০/১১ মধ্যে।
২৪ রমজান।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
সুতাহাটায় বেতন না দিয়ে কলেজ থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার হুমকি
সুতাহাটায় মাসের পর মাস বেতন না দিয়ে কলেজ থেকে তাড়িয়ে ...বিশদ

05:44:12 PM

ছোটা রাজনের মৃত্যুর খবর অস্বীকার করল এইমস
মৃত্যু হয়নি ছোটা রাজনের । করোনা আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ থাকলেও ...বিশদ

05:37:15 PM

এবার সল্টলেক স্টেডিয়ামে কোভিড হাসপাতাল
২৫০টি বেড নিয়ে এবার সল্টলেক স্টেডিয়ামে শুরু হল কোভিড হাসপাতাল। ...বিশদ

05:35:00 PM

পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামে উদ্ধার ২২ টি তাজা বোমা
 

পূর্ব বর্ধমান জেলার আউশগ্রামের উকতা পঞ্চায়েতের পিচকুড়ি গ্রাম থেকে উদ্ধার ...বিশদ

05:06:00 PM

ময়নাগুড়িতে কোভিড রোগী দাহ করা যাবে না, বিক্ষোভ মহিলাদের  
ময়নাগুড়ির বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় কোভিড রোগী দাহ করতে শ্মশান ...বিশদ

04:59:31 PM

সোমবার রাজভবনে সকাল ১১ টায় নতুন মন্ত্রীসভার শপথগ্রহণ

04:52:27 PM