Bartaman Patrika
সম্পাদকীয়
 

পাকিস্তানের স্বভাব যায় না ম’লে 

বাংলায় একটা প্রবাদ আছে, স্বভাব যায় না ম’লে। যার যা স্বভাব সেটা সে পালন করে যাবেই। সে ভালোই হোক আর মন্দই হোক। মন্দ হলে সে কাজের সমালোচনা বা নিন্দা হবেই। কিন্তু অসম্মান আর বেইজ্জতই যাদের ভূষণ তারা এসব অসম্মানকে থোড়াই কেয়ার করে। পাকিস্তানেরও এখন সেই অবস্থা। সারা বিশ্বের নিন্দা সমালোচনা সত্ত্বেও সে এক নির্বিকার। নির্লজ্জতাই সেই রাষ্ট্রের ভূষণ। তাই ভারতে বারবার নাশকতার ছক কষে, কাশ্মীরকে অশান্ত করার পরিকল্পনা নিয়ে সে সর্বত্রই নিন্দার পাত্র হয়ে উঠেছে। নিজের দেশের মাটিকে জঙ্গি কার্যকলাপের জন্য ভাড়া দিয়ে তারা নিজেই একটি জঙ্গিরাষ্ট্রের মতো আচরণ করছে। বকলমে তারাই জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে এবং অস্ত্র সরবরাহ করছে। উদ্দেশ্য একটাই, যেভাবে হোক ভারতের মাটিতে নাশকতামূলক কাজ করে হিংসা ছড়িয়ে দাও । সাম্প্রদায়িক স্থিতিশীলতাকে ভেঙে দাও। ভারতের শান্তি বিঘ্নিত কর। জাল নোট ঢুকিয়ে ভারতের অর্থনৈতিক বনিয়াদকে ভেঙে দাও।
একটা দেশ শুধু এমনই একটা নেগেটিভ দৃষ্টি নিয়েই এগিয়ে চলার চেষ্টা করছে। তার নিজেরই কোনও সুস্থিতি নেই। পুরো দেশের প্রশাসন জঙ্গি কব্জায় বন্দি। ইমরান খান যতই ভাষণ দিন, তিনি সেনাদের হাতের পুতুল ছাড়া আর কিছুই নন। আর দেশের জঙ্গি সংগঠনগুলিকে গোপনে মদত দিচ্ছে এই সেনাবাহিনীই। তাদের পরিকল্পনা মতোই চলে এইসব জঙ্গিসংগঠন। প্রতি বছরের মতো এবার শীতেও ভারতের মাটিতে জঙ্গি ঢোকানোর ছক কষেছে পাকিস্তান। কাশ্মীরে বরফ পড়লেই সীমান্ত দিয়ে জঙ্গি ঢোকানোর ব্যবস্থা করে পাকিস্তান। সেইসব জঙ্গি এদেশের মানুষের মধ্যে মিশে গিয়ে নাশকতার প্রস্তুতি নেয়। এজন্য সীমান্তের ওপারে বিভিন্ন লঞ্চপ্যাডে তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। এবারও সেই পরিকল্পনা করেছে পাকিস্তান। একটা মেল উদ্ধার করা হয়েছে। তার থেকে দেখা যাচ্ছে ভাওয়ালপুরে উসমান-ও-আলি হেডকোয়ার্টারে প্রশিক্ষক এবং প্রশিক্ষিত জঙ্গিদের অবিলম্বে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আর এক জঙ্গি সংগঠনের নেতা আবু উজেইল ভারতে নাশকতামূলক কার্যকলাপের হুমকি দিয়েছে। এছাড়া এই পুরো কাজে যে পাকসেনার সবুজ সঙ্কেত আছে, সেটাও জানা গিয়েছে। উল্লেখ্য ভাওয়ালপুরেই রয়েছে জয়েশ-ই-মহম্মদের সদর দপ্তর। সেখানে রয়েছে জয়েশ প্রধান মাসুদ আজহার। কিন্তু মাসুদ অসুস্থ হওয়ায় তার হয়ে সংগঠন পরিচালনা করছে আব্দুল রউফ আসগর। সেই এখন অঘোষিত প্রধান। দুজনের আলোচনায় সিদ্ধান্ত হয়েছে, ভারতে বড় ধরনের নাশকতা চালাতে হবে। পাশাপাশি লস্করও আসন্ন শীতে ভারতের মাটিতে এমনই নাশকতার পরিকল্পনা নিয়েছে। লস্করের মধ্যে হাফিজ সইদের পরিবর্তে এখন দলের দেখভাল করছে আব্দুল রহমান মাক্কি।
সেই পুলওয়ামা হামলার পর থেকে দেশে বিদেশে পাকিস্তানকে নানা গঞ্জনার মুখোমুখি হতে হচ্ছে। তার উপরে বালাকোটে ভারতের সার্জিকাল স্ট্রাইকে নাক কেটেছে পাকিস্তানের। পাশাপাশি জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা উঠে যাওয়ায় রাগে ফুঁসছে পাক প্রশাসন এবং জঙ্গিরা। সীমান্তে কড়া নজরদারি থাকায় এই মুহূর্তে জঙ্গি সংগঠনগুলি দিশাহারা। ধীরে ধীরে ফান্ডিং কমছে। তাই এই অবস্থা থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা নিয়েছে জয়েশ এবং লস্কর। তারা জানে একটা বড় আঘাত হানতে পারলে ভারতকে যেমন বিপর্যস্ত করা যাবে, তেমনই তাদের সংগঠনকেও বাঁচানো যাবে। তহবিলে টান পড়লে ভেঙে যাবে সংগঠন। টাকার অভাব হলে নতুন পরিকল্পনা নেওয়া যাবে না। নতুন রিক্রুটমেন্ট হবে না। তাই তাদের এখন মরিয়া অবস্থা। আর ওপাশে ঠুঁটো অবস্থায় বসে আছেন ইমরান খান। তাঁর কিছুই করার নেই। তিনি যে নিজেই বাঘের পিঠে বসে। পিঠ থেকে পড়লেই যে বাঘে তাঁকে খেয়ে নেবে। দেশটাই এখন লস্কর আর জয়েশের হাতে। তাদের পরিচালনা করছে সেনা।
কিন্তু ভারতও চুপ করে বসে নেই। ভারতের সেনাকর্মীরা সীমান্তে অতন্দ্র প্রহরায় রয়েছে। বরফ পড়লেও তাঁদের চোখে ঘুম নেই। একটা মাছিও সীমান্ত দিয়ে তাঁরা গলতে দেবেন না। আর অতীতে তো দেখাই গিয়েছে, পাকিস্তান আঘাত হানলে যথার্থ প্রত্যুত্তর ভারত দিয়েছে। যেমন কুকুর তেমন মুগুর ভারতের হাতে আছে। প্রয়োজনে সেই আঘাত হেনে
ভারত যোগ্য জবাব দেবে। 
05th  November, 2019
শ্রীলঙ্কায় ‘চীনবন্ধু’র জয় ভারতের পক্ষে অনুকূল হবে না 

ভোটে জিতে শ্রীলঙ্কায় প্রেসিডেন্ট পদে আসীন হলেন গোতাবায়া রাজাপাকসে। আমরা শ্রীলঙ্কার মহিন্দা রাজাপাকসেকে জানি। ইনি হলেন তাঁর দাদা। ভালো মার্জিনে জিতে গোতাবায়া ক্ষমতায় এলেও একমাত্র সিংহলী আর বৌদ্ধরা ছাড়া সেই দ্বীপভূমি রাজ্যে আর কেউ তেমন আনন্দে নেই। কেননা গোতাবায়ার অতীত ইতিহাস তেমন উজ্জ্বল নয়।  
বিশদ

বিমার অর্থের অবিবেচক লগ্নি

চিটফান্ডে টাকা রেখে বিপুল সংখ্যক সাধারণ মানুষ তাদের সঞ্চয় খুইয়েছেন। সেই পথে আর যেতে চান না কেউই। অগত্যা ভারতীয় জীবন বিমা নিগম (এলআইসি) ছিল সঞ্চিত অর্থ লগ্নি করার সহজ পথ। সবাই জানেন, সরকারি বিমা সংস্থায় অন্তত টাকা মার যাওয়ার ভয় নেই। তাই এলআইসিতে আম জনতা টাকা রাখেন নিরাপদ মনে করেই। 
বিশদ

18th  November, 2019
ভারতের নারীশক্তির যুক্তিতে আবার বেআব্রু পাকিস্তান

 মার্গারেট থ্যাচার বলেছিলেন, যদি কোনও কাজ নিয়ে কিছু বলতে হয়, একজন পুরুষকে বলুন। আর যদি কোনও কাজ সম্পূর্ণ করতে হয়, বলে দেখুন একজন মহিলাকে। শুক্রবার ভারতের নারীশক্তির যে দাপট আন্তর্জাতিক মঞ্চ দেখল, তা পৃথিবীর অন্তিম লগ্ন পর্যন্ত মনে রাখবে পাকিস্তান। বিশদ

17th  November, 2019
রেলের খাবারের দাম বাড়ছে সামঞ্জস্য রেখে বাড়ুক মানও

 ভারতের জীবনরেখার অন্যতম একটি নাম হল রেল। প্রতিদিন অহোরাত্র লক্ষ লক্ষ নারী-পুরুষ-বৃদ্ধ-শিশু থেকে ধনী-দরিদ্রদের যাতায়াতের সহজ ও সুলভ মাধ্যম রেল। সব থেকে কম খরচে, আরামে, তাড়াতাড়ি গন্তব্যে পৌঁছনোর জন্য রেলই আমআদমির প্রথম পছন্দ। বিশদ

16th  November, 2019
পণের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্ত রাজস্থানে!

 ভারতে পণপ্রথা নিষিদ্ধ ঘোষণা করে আইন বলবৎ হয়েছে ১৯৬১ সালে, অর্থাৎ ৫৮ বছর হয়ে গেল। তার পরেও পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি নারী পণপ্রথার বলি হয় যে দেশে তার নাম ভারত, আমাদের মহান দেশ! ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরোর (এনসিআরবি) তথ্য থেকে জানা যাচ্ছে, ভারতে প্রতি দেড় ঘণ্টায় একজন মহিলাকে পণলোভীদের রোষে পুড়ে মরতে হয়। বিশদ

15th  November, 2019
বেলাগাম গতি: চাই কড়া পদক্ষেপ

গতি। বলা ভালো উদ্দাম গতি। কখনও নেশার ঘোরে, কখনও রেষারেষি, কখনও আবার স্রেফ স্টান্টবাজি। শহরের বুকে ঝরে পড়ছে একের পর এক প্রাণ। বয়সে তরুণ বা সদ্য যৌবনে পা দেওয়া তরতাজা প্রাণ। 
বিশদ

14th  November, 2019
লক্ষ্য কর্মসংস্থান

 পুরনো ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিলের সিদ্ধান্তটি সঠিক ছিল বলে কেন্দ্রের সরকার যতই দাবি করুক না কেন তার বড় ধাক্কা যে দেশের কর্মসংস্থানের উপর পড়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। কাজের বাজারের ছবিটাই এখন বিবর্ণ, কাজ হারানো মানুষের সংখ্যা বেড়েছে। নোটবন্দির জেরে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প। বিশদ

13th  November, 2019
বুলবুল-পরবর্তী বাংলার প্রত্যাশা  

এক দশক আগের ‘আ‌ইলা’র স্মৃতি উসকে দিয়ে শনিবার দক্ষিণবঙ্গের একাংশে আছড়ে পড়ল ‘বুলবুল’। প্রাণহানির নিরিখে বুলবুলের দাপট আইলার চেয়ে কমই ছিল বলে মনে করা হচ্ছে। কিন্তু, এখনও পর্যন্ত অন্য ক্ষয়ক্ষতির যে খতিয়ান সরকারের হাতে এসেছে তাতে এই বিপর্যয়কে কোনোভাবেই ন্যূন মনে করার সুযোগ নেই।  
বিশদ

12th  November, 2019
বৈচিত্র্যের মধ্যে ঐক্যের দেশ

সময় লাগল অনেকটাই। তবে অবশেষে স্বস্তি এল। দীর্ঘদিনের জটও কাটল। নতুন করে সবকিছু শুরু হওয়ার অপেক্ষায় অযোধ্যা। আর বহু প্রতীক্ষিত এই সুদিন দেশের ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। এভাবেই অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণার পর জাতির উদ্দেশে ভাষণে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
বিশদ

11th  November, 2019
নিরাপত্তার নামে 

গোয়েন্দারা বারবার সতর্ক করেছিলেন। শোনেননি ইন্দিরা গান্ধী। অমৃতসরের স্বর্ণমন্দিরে অপারেশন ব্লু স্টারের পর ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো জানিয়েছিল, শিখ সম্প্রদায় আপনার শত্রু হয়ে গিয়েছে। আপনার নিরাপত্তা বলয় থেকে শিখদের সরিয়ে দিন। মানতে চাননি ইন্দিরা। বিয়ন্ত সিং এবং সতবন্ত সিং বহুদিনের সঙ্গী... তাঁদের সরাবেন না প্রধানমন্ত্রী। 
বিশদ

10th  November, 2019
পেঁয়াজের দামে নাভিশ্বাস

 প্রায় শেষ পুজোর মরশুম। গণেশ পুজো দিয়ে শুরু হয়ে জগদ্ধাত্রীতে এসেছে থেমেছে উৎসবের লগ্ন। এই সময় আমবাঙালির হাত প্রায়-শূন্য হয়ে পড়ে ফিবছরই। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। কিন্তু, তার উপর আছড়ে পড়েছে মূল্যবৃদ্ধির ভয়াবহ ‘বুলবুল’। বাজারে বেরলে নিমেষে উড়ে যাচ্ছে নোট। বিশদ

09th  November, 2019
গুজরাতি: বৈষম্যমূলক ও অবাঞ্ছিত 

গোটা এশিয়া মহাদেশে সাহিত্যে প্রথম নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন যিনি তিনি একজন বাঙালি কবি। বলা বাহুল্য তাঁর নাম রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। তারপর শতবর্ষ পেরিয়ে গিয়েছে। তবু ভারতের অন্যকোনও ভাষার সাহিত্যিকরা সেই গর্ব স্পর্শ করতে পারেননি। রবীন্দ্রনাথেরই লেখা দুটি গান ভারত এবং বাংলাদেশের জাতীয়সঙ্গীত। এও এক অনন্য নজির।  
বিশদ

08th  November, 2019
অগ্রগতির আসল চাবিকাঠি

 সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকার প্রকাশ করেছে স্বাস্থ্যবিষয়ক জাতীয় সমীক্ষা রিপোর্ট। ‘ন্যাশনাল হেলথ প্রোফাইল, ২০১৯’ নামের এই বিশাল রিপোর্টে দেশের শিশুদের যে স্বাস্থ্যচিত্র ধরা পড়েছে তাকে কোনোভাবেই আশাব্যঞ্জক বলা যাবে না। বিশদ

07th  November, 2019
নিরাপদ অবস্থান 

দেশের উন্নতি করতে হলে সাধারণ মানুষের, বিশেষত গরিব মানুষের জীবনযাত্রায় উন্নতি ঘটাতেই হবে। তাঁদের জীবনকে সুরক্ষিত রাখতে হবে। ভাবতে হবে তাঁদের স্বার্থরক্ষার কথা। কেন্দ্রের মোদি সরকারের বিরুদ্ধে বারবার অভিযোগ উঠেছে যে তারা ধনীদের স্বার্থরক্ষা করে, সিদ্ধান্ত নেয় বড়লোক শ্রেণীর স্বার্থে। তারা চাষি, খেতমজুর অর্থাৎ গরিব মানুষের কথা বিশেষ ভাবে না। 
বিশদ

06th  November, 2019
পেগাসাস থেকে সাবধান! 

ফের ফোনে আড়ি পাতার অভিযোগ! ভারতের সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মীদের উপর গোয়েন্দাগিরি করার জন্য হোয়াটসঅ্যাপকে কাজে লাগানো হয়েছিল এ বছরের গোড়ায়। নজরদারি চালাবার জন্য ‘পেগাসাস’ নামে একটি স্পাইওয়্যার ব্যবহার করা হয়েছিল, যা তৈরি করেছিল এনএসও গ্রুপ নামের এক ইজরায়েলি সংস্থা। 
বিশদ

04th  November, 2019
বিষবাষ্প 

দীপাবলির উৎসবেই ফিরল দিল্লির চেনা ছবি। মেরেকেটে মাসখানেক হল হরিয়ানা-পাঞ্জাবে ফসলের গোড়া পোড়ানো শুরু হয়েছে। এ ছবিও খুব চেনা... আতঙ্কের, উদ্বেগের। ধোঁয়াশায় ঢাকা আকাশ, দূষণের চাদর রাজপথে নেমে আসায় দৃশ্যমানতা কমে এসেছে। 
বিশদ

03rd  November, 2019
একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শয়নে স্বপনে এখন শুধুই গোলাপি টেস্ট। যার উন্মাদনা কেবল সমর্থকদের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যেও। দেশের মাটিতে প্রথমবার ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দু’টি পরীক্ষার মধ্যে দু-একদিন করে ছুটি থাকবে বলে আগেই ঘোষণা করেছিলেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালি চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায়। ...

সংবাদদাতা, কান্দি: সোমবার সকালে বড়ঞা থানার বিপ্রশেখর গ্রামে এক প্রৌঢ়ের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ায়। পুলিস জানিয়েছে, মৃতের নাম বাদল দত্ত(৫২)। তিনি ওই গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।   ...

সংবাদদাতা, ইসলামপুর: সোমবার সকালে উত্তর দিনাজপুর জেলার গোয়ালপোখর থানার বেলন গ্রাম পঞ্চায়েতের পটুয়া এলাকায় ধান খেতে এক অজ্ঞাতপরিচয়ের যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীদের কর্মলাভ কিছু বিলম্ব হবে। প্রেম-ভালোবাসায় সাফল্য লাভ ঘটবে। বিবাহযোগ আছে। উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় থেকে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৩৮: সমাজ সংস্কারক কেশবচন্দ্র সেনের জন্ম
১৮৭৭: কবি করুণানিধান বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯১৭: ভারতের তৃতীয় প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর জন্ম
১৯২২: সঙ্গীতকার সলিল চৌধুরির জন্ম
১৯২৮: কুস্তিগীর ও অভিনেতা দারা সিংয়ের জন্ম
১৯৫১: অভিনেত্রী জিনাত আমনের জন্ম 





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৮৪ টাকা ৭২.৫৪ টাকা
পাউন্ড ৯১.০৬ টাকা ৯৪.৩৪ টাকা
ইউরো ৭৭.৮৫ টাকা ৮০.৮১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,৫৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,৬০৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭,১৫৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৪,৪০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৪,৫০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, সপ্তমী ২৪/১১ দিবা ৩/৩৬। অশ্লেষা ৩৮/৩৮ রাত্রি ৯/২২। সূ উ ৫/৫৫/২২, অ ৪/৪৮/২৩, অমৃতযোগ দিবা ৬/৪০ মধ্যে পুনঃ ৭/২৩ গতে ১১/০ মধ্যে। রাত্রি ৭/২৬ গতে ৮/১৯ মধ্যে পুনঃ ৯/১১ গতে ১১/৪৯ মধ্যে পুনঃ ১/৩৪ গতে ৩/১৯ মধ্যে পুনঃ ৫/৫ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৭/১৬ গতে ৮/৩৮ মধ্যে পুনঃ ১২/৪৩ গতে ২/৫ মধ্যে, কালরাত্রি ৬/২৭ গতে ৮/৫ মধ্যে। 
২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, সপ্তমী ১৯/২৬/৫২ দিবা ১/৪৩/৫৬। অশ্লেষা ৩৬/১/৪১ রাত্রি ৮/২১/৫১, সূ উ ৫/৫৭/১১, অ ৪/৪৮/১৯, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫০ মধ্যে ও ৭/৩০ গতে ১১/৬ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/২৮ গতে ৮/২১ মধ্যে ও ৯/১৪ গতে ১১/৫৪ মধ্যে ও ১/৪১ গতে ৩/২৮ মধ্যে ও ৫/১৪ গতে ৫/৫৮ মধ্যে, বারবেলা ৭/১৮/৩৬ গতে ৮/৪০/১ মধ্যে, কালবেলা ১২/৪৩/১৫ গতে ২/৫/৪০ মধ্যে, কালরাত্রি ৬/২৭/৪ গতে ৮/৫/৪০ মধ্যে।
২১ রবিয়ল আউয়ল  

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
কোচবিহারে মদনমোহন মন্দিরে পুজো দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 

18-11-2019 - 05:36:00 PM

খড়্গপুরের এসডিপিও সুকমল দাসকে সরিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন 

18-11-2019 - 05:34:00 PM

হাসপাতালে ভর্তি নুসরত জাহান
অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী তথা সংসদ সদস্য ...বিশদ

18-11-2019 - 04:58:35 PM

কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে অপারেশন করা হয়েছে: মমতা 

18-11-2019 - 04:46:00 PM

মিথ্যে কথা বলা ছাড়া কোনও কাজ করছে না বিজেপি: মমতা 

18-11-2019 - 04:43:00 PM

৩ দলকেই বাংলা থেকে বিদায় নিতে হবে: মমতা 

18-11-2019 - 04:41:00 PM