Bartaman Patrika
সম্পাদকীয়
 

ব্যালট বনাম প্রযুক্তি

ভারতের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, ব্যালটে ফিরে যাওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই। কলকাতায় একটি অনুষ্ঠানে এসে তিনি এই কথা জানিয়েছেন। এই প্রসঙ্গে সুপ্রিম কোর্টের রায় উল্লেখ করার পাশাপাশি মুখ্য নির্বাচন কমিশনার বুঝিয়ে দিয়েছেন, ভারত আর অতীতের দিকে ফিরে তাকাতে চায় না। বক্তব্যের সারাংশটা জলের মতো পরিষ্কার—মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ দেশের বিরোধী দলনেতা বা নেত্রীরা যতই ইভিএম পরিত্যাগ করে ব্যালটের পক্ষে সওয়াল করুন না কেন, নির্বাচন কমিশন তাতে কান দিতে নারাজ। ইভিএমই ভারতের নির্বাচনী বর্তমান এবং ভবিষ্যৎ।
গত ২১ জুলাই মহাসমাবেশে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আহ্বানই ছিল, ইভিএম নয় ব্যালট চাই। কারণ হিসেবে তিনি দাবি করেছিলেন, প্রযুক্তিতে গলদ থাকতে পারে। এমনও হতে পারে, অন্য বোতাম টিপলেও ভোট গিয়ে একটিই দলের ঝুলিতে পড়বে। তাই ইভিএম আর নয়, ফিরতে হবে ব্যালটে। ইভিএমে এই কারচুপির অভিযোগ অবশ্য তিনি একা নন, তেলুগু দেশম পার্টির প্রধান চন্দ্রবাবু নাইডু, মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা সুপ্রিমো রাজ থ্যাকারে কিংবা ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা ফারুক আবদুল্লাও এই একই দাবি তুলে এসেছেন। আগে কংগ্রেস তথা তাদের সদ্য পদত্যাগী সভাপতি রাহুল গান্ধীও অবশ্য দাবি তুলেছিলেন, ইভিএমে কারচুপি করে বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার। বছরখানেক আগে বিজেপির গড়েই বিজেপিকে হারানোর পর অবশ্য রাহুল গান্ধী সেই অভিযোগ আর খুব একটা তোলেননি। এমনকী নির্বাচন কমিশন যখন খোলাখুলি সব রাজনৈতিক দল এবং মানুষকে ইভিএমে কারচুপি ধরিয়ে দেওয়ার জন্য চ্যালেঞ্জ ছুঁড়েছিল, তখনও কেউ এসে ইভিএমের গলদ প্রমাণ করতে পারেনি। বিরোধীরা যে অভিযোগ তুলবে, তা যদি প্রমাণ না করা যায়, তাহলে নির্বাচন কমিশনের মতো একটি স্বশাসিত সংস্থা যে কখনই এমন একটা গুরুতর সিদ্ধান্ত নেবে না, তা দিনের আলোর মতো পরিষ্কার। তার উপর ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন গোটা দেশে চালু করা এবং তার পাশাপাশি নবতম সংযোজন সর্বত্র ভিভিপ্যাট—এতে কেন্দ্রীয় সরকার যে পরিমাণ অর্থ খরচ করেছে, তার থেকে যদি আচমকা একটা অভিযোগের ভিত্তিতে ‘আদিম’ যুগে ফিরে যায়, তাহলে জনগণ কেনই বা মেনে নেবে! গোটা প্রক্রিয়াটাই তো হয়েছে বা হচ্ছে সাধারণ ভারতীয়ের কষ্টার্জিত করের টাকায়। এছাড়া ওয়াকিবহাল মহল আরও একটা প্রশ্ন তুলছে। কারচুপি যদি কোনও একটি মেশিনে করা হয়, তাহলে সেখানে সব ভোটই তো একটি দলের ঝুলিতে যাবে। মেশিন তো আর এমন বুঝবে না যে, তিনটি ভোট বিরোধী পক্ষ আর সাতটি শাসককে দিতে হবে! পাশাপাশি লক্ষ লক্ষ ইভিএমে কারচুপি করতে গেলে অন্তত কয়েক হাজার লোককে তো নিয়োগ করতেই হবে! সেক্ষেত্রে কি কারচুপির গোপনীয়তা বজায় থাকবে?
এমন বহু প্রশ্নের উত্তর নেই বলেই নির্বাচন কমিশন বুক ঠুকে বলতে পারছে, ব্যালটে ফিরব না। বিরোধীরা অবশ্য যুক্তি দেখাচ্ছে, প্রথম বিশ্বের বহু দেশ, অর্থাৎ আমেরিকা বা ইউরোপে অনেকেই প্রযুক্তি ছেড়ে ব্যালটে ফিরেছে। প্রথম কারণ যদি বিপুল পরিমাণ অর্থ ব্যয় হয়, তাহলে দ্বিতীয়টি অবশ্যই মেশিনে ভরসা রাখতে না পারা। তাহলে ভারতে কেন হবে না। প্রথম যুক্তিটি সত্যিই ভেবে দেখার মতো। ১৩০ কোটি নাগরিকের এবং প্রায় ১০০ কোটি ভোটারের দেশে ব্যালটের ক্ষেত্রে যে পরিমাণ অর্থ খরচ হবে, তা ইভিএম এবং প্রযুক্তির তুলনায় কম। কিন্তু ব্যালট ফিরলে যে দুর্নীতি হবে না, সে গ্যারান্টি কে দিচ্ছে? গত ২০১৮ সালের পঞ্চায়েত ভোটেও রায়গঞ্জের সোনাডাঙিতে পুকুর থেকে ব্যালট বাক্স উদ্ধারের ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল। কিংবা বাম জমানায় ব্যালট লুটের ইতিহাস আজও স্মৃতি থেকে ফিকে হয়ে যায়নি। তুমুল ছাপ্পা, বুথ ক্যাপচারে ভোট-দুষ্কৃতীরা কিন্তু ব্যালটেই হাত পাকিয়েছিল।
আসল কথাটা হল, যে রাজনৈতিক দলই হোক, মানুষের জন্য কাজ করলে ইভিএমে কারচুপি বা ব্যালট-ছাপ্পার প্রয়োজন হবে না। সে ক্ষেত্রে কিন্তু পদ্ধতিটাই গৌণ হয়ে যাবে। মানুষ বেছে নেবে তাঁর আস্থাভাজন দল বা প্রতিনিধিকেই। সেটাই গণতন্ত্র।
11th  August, 2019
যোদ্ধা রাজ্যের ন্যায্য দাবি

মঙ্গলবার বিশ্বের মধ্যে প্রথম করোনা ভ্যাকসিন মানবদেহে প্রয়োগের সরকারি ছাড়পত্র দিল রাশিয়া। হাজারো বিতর্কের অবকাশ থাকলেও এটাই ছিল ওইদিনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খবর। কারণ, সারা পৃথিবী আট মাস যাবৎ এই জিয়নকাঠির প্রতীক্ষায় রয়েছে।
বিশদ

বাংলায় উন্নয়নের নয়া নজির

 বাম জমানা তখন মাঝপথে। দৈনিক এবং সাময়িক কাগজ খুললেই চোখে পড়ত অসম্পূর্ণ সরকারি প্রকল্পের খবর। ভূরি ভূরি। বেশিরভাগই সচিত্র প্রতিবেদন। কোথাও ব্রিজের শিলান্যাস হয়ে পড়ে আছে দশ বছর। বিশদ

12th  August, 2020
এই ভাষা বিতর্ক অনাবশ্যক

 পণ্ডিতদের ভাষা সংস্কৃতকে কবির তুলনা করেছিলেন কুয়োর জলের সঙ্গে। অন্যদিকে, ভাষাকে বলেছিলেন ‘বহতা জলধারা’। সত্যিই তো—ভাষা হল মানুষের ভাব প্রকাশের একটি হাতিয়ার। যে-মানুষ যে-ভাষায় স্বচ্ছন্দ তিনি সেই ভাষাতেই কথা বলবেন, লিখবেন, পড়বেন। বিশদ

11th  August, 2020
কৃষিকে ধরে অর্থনীতি রক্ষার চেষ্টা 

 রবিবার দুপুরের খবর, ভারতে করোনা আক্রান্তের মোট সংখ্যা ২১ লক্ষ ৫৬ হাজার ৭৫৬। শনিবারের পর নতুন যোগ হয়েছে ৬৮ হাজার ১৪৫। শুক্রবারের পর শনিবার ২৪ ঘণ্টায় যোগ হয়েছিল ৬১ হাজার ৫৩৭। বিশদ

10th  August, 2020
রিজার্ভ ব্যাঙ্কের
ভালো পদক্ষেপ

আধুনিক অর্থনীতির বড় আবিষ্কার হল টাকা। বিনিময় প্রথার সীমবদ্ধতা মানুষকে টাকার শরণ নিতে উদ্বুব্ধ করেছিল। প্রথমে টাকা ছিল ধাতব মুদ্রায় তৈরি। সোনা, রুপো এবং কোনও কোনও ক্ষেত্রে সঙ্কর ধাতুর।
বিশদ

09th  August, 2020
মূল্যবৃদ্ধি ঠেকাবে কে?

 আর কোনও রাখঢাক গুড়গুড় নেই। করোনাকালে সাধারণ মানুষকে আর্থিক সুবিধা দেওয়ার নামে কেন্দ্রীয় সরকার ও রিজার্ভ ব্যাঙ্ক গুচ্ছ গুচ্ছ ঘোষণা করলেও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রীর দাম যে ক্রমশ ধরাছোঁয়ার বাইরে চলে যাচ্ছে তা প্রকারান্তরে মেনে নিল দেশের শীর্ষ ব্যাঙ্ক। বিশদ

08th  August, 2020
সুশাসন ফিরবে তো?

 পার হল ২৯ বছর! অযোধ্যায় মন্দির-রাজনীতির দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করার মাহেন্দ্রক্ষণে উপস্থিত থাকতে সরযূ নদীর তীরে তিনি গেলেন প্রায় তিন দশক পর। বহু প্রতীক্ষিত রাম মন্দিরের শিলান্যাস হল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাত ধরে। বিশদ

07th  August, 2020
লকডাউনের বিকল্প ভাবনা জরুরি

কয়েকটি পকেট বাদ দিলে গত জুনে ভারতজুড়ে ভালো বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টিপাতের পরিমাণ স্বাভাবিকের চেয়ে ১৫ শতাংশ বেশি। বর্ষার কৃপা সারা দেশই মোটামুটি একইরকম পেয়েছে। আবহাওয়া বিশারদরা মনে করছেন, ২০১৩ সালের পর এই প্রথম একটি পছন্দের জুন মাস পেয়েছি আমরা।
বিশদ

06th  August, 2020
রাস্তা যখন সঙ্কটমুক্তির হাতিয়ার

 সারা দেশে বেকারত্বের হার বাড়তে বাড়তে গত মার্চে ৮.৭৫ শতাংশে পৌঁছেছিল। তাতেই প্রমাদ গুনতে শুরু করেছিল শ্রমের বাজার এবং অর্থনৈতিক মহল। উঠতে শুরু করেছিল সমালোচনার ঝড়। সরকার সংবেদনশীল হলে সাধারণত নড়েচড়ে বসে। বিশদ

05th  August, 2020
বেচারাম সরকার

 কোমরের জোর কমে গেলে সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারে না মানুষ। সামনের দিকে ঝুঁকে পড়ে। কেন্দ্রীয় সরকারের অবস্থা অনেকটা সেরকম। এক চরম নিয়মহীনতা দেশটাকে ক্রমশ সঙ্কটের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। দল ও সরকারের নীতি মেনে আগেই নামী-দামি কিছু রাষ্ট্রয়ত্ত সংস্থা বেচে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল মোদি সরকার।
বিশদ

04th  August, 2020
এবার করোনা টেস্ট জালিয়াতি  

চিকিৎসা ক্ষেত্রে ভারতের সর্বোচ্চ সংস্থা হল ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর)। ব্রিটিশ আমল থেকে এই সংস্থা চিকিৎসা সংক্রান্ত গবেষণার ব্যাপারে দেশকে নেতৃত্ব দিয়ে চলেছে। তবে, করোনার বিপর্যয় আসার আগে সংস্থাটি সম্পর্কে সাধারণ মানুষের বিশেষ কিছু জানা ছিল না। 
বিশদ

03rd  August, 2020
যুদ্ধটা শুধু রোগের বিরুদ্ধে 

সবার উপরে মানুষ সত্য। তাঁর এত বড় উপলব্ধির কথা কবি চণ্ডীদাস আমাদের সকলের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছিলেন প্রায় ছ’শো বছর আগে। পৃথিবী তারপর বহু বহু দূর এগিয়ে গিয়েছে।   বিশদ

02nd  August, 2020
বলে কয়ে বঞ্চনা! 

আশঙ্কাই সত্যি হল। কেন্দ্র জানিয়ে দিল, রাজ্যগুলিকে জিএসটি-র বকেয়া মেটানো সম্ভব নয়। সিঁদুরে মেঘ আগেই দেখেছিলেন দূরদর্শী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্যের ন্যায্য পাওনা বকেয়া হয়েছে ৫৩ হাজার কোটি টাকা।  বিশদ

01st  August, 2020
কেন্দ্রীকরণের বিপজ্জনক প্রবণতা 

দেশে একটা সংবিধান আছে, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে সংসদ আছে, অথচ ভারতীয় গণতন্ত্রের এই শক্তিশালী দুই স্তম্ভকে কার্যত বুড়ো আঙুল দেখিয়ে জাতীয় শিক্ষানীতি ঘোষণা করে দিল মোদি সরকার।   বিশদ

31st  July, 2020
ডিজিটাল ইন্ডিয়া: মস্ত মশকরা 

আমাদের মৌলিক অধিকারগুলোর মধ্যে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হল শিক্ষার অধিকার। ২০০২ সালে ভারতীয় সংবিধানের ৮৬তম সংশোধনের মাধ্যমে ‘অনুচ্ছেদ ২১-এ’ যোগ করা হয়। তাতে ৬-১৪ বছর বয়সি সমস্ত ছেলেমেয়ের জন্য নিখরচায় এবং বাধ্যতামূলক স্কুলশিক্ষার অধিকার স্বীকার করা হয়।  বিশদ

30th  July, 2020
অক্সিজেনে কালো হাত 

মঙ্গলবার দুপুরের হিসেব, দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ লাখের দিকে এগচ্ছে। শুধু ২৭ জুলাই একদিনে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৫০ হাজার মানুষ! মৃতের সংখ্যা ছুটছে সাড়ে ৩৩ হাজারের দিকে।   বিশদ

29th  July, 2020
একনজরে
 পেটে দানাপানি নেই। সঙ্গে দোসর টানা হাঁটার নিদারুণ ক্লান্তি। প্রবল গরমে ফলস্বরূপ রাস্তায় ঘটেছে একাধিক মৃত্যুর ঘটনা। কিন্তু ঠিক কত পরিযায়ী শ্রমিক এভাবে শয়ে শয়ে ...

 চেন্নাইয়ে জন্মেছিলেন দুই বোন। নিজেদের সংস্কৃতি এবং পরিচয়ের যোগ রাখতে কমলা এবং তাঁর বোন মায়ার ‘সংস্কৃত’ নাম রেখেছিলেন তাঁদের মা। ছোটবেলায় কমলার জীবনের অনেকটা অংশ ...

 পুজোর আগে কাজের চাপে স্নান-খাওয়ার সময় থাকত না জাঙ্গিপাড়া, রাজবলহাট সহ বিস্তীর্ণ অঞ্চলের তাঁতশিল্পীদের। করোনার কোপে তাঁরা আজ কাজ হারিয়ে কেউ রাজমিস্ত্রির জোগাড়ে, কেউবা ফেরিওয়ালা। ...

 করোনায় আক্রান্ত রাজস্থান রয়্যালসের ফিল্ডিং কোচ দিশান্ত ইয়াগ্নিক। আপাতত তিনি উদয়পুরে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মরতদের উপার্জন বৃদ্ধি পাবে। শরীর-স্বাস্থ্য ভালোই যাবে। পেশাগত পরিবর্তন ঘটতে পারে। শিল্পী কলাকুশলীদের ক্ষেত্রে শুভ। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব হাতি দিবস
১৮৪৮: সাহিত্যিক তথা ঐতিহাসিক রমেশচন্দ্র দত্তর জন্ম
১৮৮৮: টেলিভিশনের আবিস্কারক জন বেয়ার্ডের জন্ম
১৮৯৯: ইংরেজ পরিচালক স্যার আলফ্রেড হিচককের জন্ম
১৯১০: আধুনিক নার্সিং সেবার অগ্রদূত ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেলের মৃত্যু
১৯১১: সমাজসেবিকা ও রাজনীতিবিদ ড.ফুলরেণু গুহর জন্ম
১৯২৬: কিউবার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ফিদেল কাস্ত্রোর জন্ম
১৯৩২: পণ্ডিত, সাহিত্যিক ও শিক্ষাবিদ কৃষ্ণকমল ভট্টাচার্যর মৃত্যু
১৯৩৩: অভিনেত্রী বৈজয়ন্তীমালার জন্ম
১৯৩৬: স্বাধীনতা সংগ্রামী ভারতের বিপ্লববাদের জননী হিসাবে পরিচিতা মাদাম কামার মৃত্যু ।
১৯৪৬: ইংরেজ সাহিত্যিক এইচ জি ওয়েলেসের মৃত্যু
১৯৬৩: অভিনেত্রী শ্রীদেবীর জন্ম
১৯৭৫: পাক ক্রিকেটার শোয়েব আখতারের জন্ম
১৯৮৭: অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম
২০১৮: রাজনীতিবিদ তথা প্রাক্তন লোকসভার অধ্যক্ষ সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যু।



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.৯৪ টাকা ৭৫.৬৫ টাকা
পাউন্ড ৯৫.৭৫ টাকা ৯৯.১৪ টাকা
ইউরো ৮৬.১০ টাকা ৮৯.২৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫৩,৩১০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৫০,৫৮০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৫১,৩৪০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৬,০৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৬,১৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, নবমী ১৯/১৬ দিবা ১২/৫৯। রোহিণীনক্ষত্র অহোরাত্র। সূর্যোদয় ৫/১৬/২৬, সূর্যাস্ত ৬/৬/২৩। অমৃতযোগ রাত্রি ১২/৪৯ গতে ৩/৩ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৬/৫৮ মধ্যে পুনঃ ১০/২৪ গতে ১২/৫৮ মধ্যে। বারবেলা ২/৫৪ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ১১/৪২ গতে ১/৫ মধ্যে।
২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, নবমী দিবা ৯/৪৫। রোহিণীনক্ষত্র রাত্রি ৩/২৫। সূর্যোদয় ৫/১৫, সূর্যাস্ত ৬/৯। অমৃতযোগ রাত্রি ১২/৪৩ গতে ৩/৩ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৭/১ মধ্যে ও ১০/২২ গতে ১২/৫২ মধ্যে। কালবেলা ২/৫৬ গতে ৬/৫৯ মধ্যে। কালরাত্রি ১১/৪২ গতে ১/৬ মধ্যে।
 ২২ জেলহজ্জ।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত ২,৯৩৬
গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২,৯৩৬ জনের শরীরে মিলল করোনা ভাইরাসের ...বিশদ

12-08-2020 - 08:58:00 PM

উত্তরপ্রদেশে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৪,৫৮৩ 
উত্তরপ্রদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪,৫৮৩ জন । ...বিশদ

12-08-2020 - 07:55:50 PM

৪৫ হাজারে দু মাসের সন্তানকেই বিক্রি করে দিল মা
৪৫ হাজারে নিজের দু’মাসের ছেলেকেই বিক্রি করে দিল মা। ঘটনাটি ...বিশদ

12-08-2020 - 07:32:03 PM

কর্ণাটকে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৭,৮৮৩ 
কর্ণাটকে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭,৮৮৩ জন । ...বিশদ

12-08-2020 - 07:31:00 PM

অন্ধ্রপ্রদেশে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৯,৫৯৭ 
অন্ধ্রপ্রদেশে খুব দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। গত ...বিশদ

12-08-2020 - 07:02:02 PM

ফের মা হচ্ছেন করিনা কাপুর
ফের মা হচ্ছেন করিনা কাপুর খান। অর্থাৎ সইফ-করিনার পরিবারে আসতে ...বিশদ

12-08-2020 - 06:43:00 PM