Bartaman Patrika
সম্পাদকীয়
 

বন্দুকবাজদের এই উগ্রপন্থা আমেরিকা আটকাবে কীভাবে

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আজ যেন বন্দুকবাজদের এক আখড়া। প্রায়ই সেখানে বন্দুকবাজদের এলোপাথাড়ি গুলি চলছে আর মৃত্যু হচ্ছে অসংখ্য নিরীহ মানুষের। যার মধ্যে রয়েছে বহু নিষ্পাপ শিশুও। কোনও দোষ ছিল না তাদের। আজ বন্দুকবাজদের নিয়ে মহা সঙ্কট মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। মানসিক ক্লেদ এবং হিংসার বিষ অনুভূতি বয়ে নিয়ে চলেছে এই ঘাতকরা। কেন এমন হচ্ছে? কোন গভীরে লুকিয়ে আছে এই সামাজিক সঙ্কট! তার দিশা পেতে আজ সেখানকার বুদ্ধিজীবীরা উদ্বিগ্ন। মাত্র ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দু’ দুটো ভয়াবহ ঘটনা ঘটল। প্রাণ গেল কমপক্ষে ৩০ জন মানুষের। এর দায় কে নেবে? দায় কি শুধুই ব্যক্তির! রাষ্ট্রের কোনও দায় নেই। শাসকশ্রেণীর কোনও দায় নেই! যে জীবনযাত্রায় তারা নিমজ্জিত, তার কোনও দায় নেই! অসংখ্য প্রশ্নের সামনে আজ থমকে গিয়েছে উত্তর।
টেক্সাসে সপ্তাহান্তের ওয়ালমার্টে থিকথিকে ভিড়। সেখানে হঠাৎই ঢুকে পড়ল এক বন্দুকবাজ। তার এলোপাথাড়ি গুলি প্রাণ কেড়ে নিল ২০ জনের। এর কয়েক ঘণ্টা আগেই ঘটে গিয়েছে এমনই এক মর্মান্তিক ঘটনা। টেক্সাস থেকে প্রায় বারোশো কিলোমিটার দূরে ওহায়োতে। সেখানেও অপর এক বন্দুকবাজের গুলিতে প্রাণ গিয়েছে অন্তত ৯ জনের। চলতি বছরে এই ধরনের ঘটনা ঘটেছে মোট এগারোটি। এবং এতে প্রাণ গিয়েছে অন্তত আড়াইশো জনের। ক্যালিফোর্নিয়া, ভার্জিনিয়া, কলোরাডো, ক্যারোলিনা, ইলিনয়, ফ্লোরিডা, লুসিয়ানিয়া সর্বত্রই সজাগ বন্দুকবাজরা। গত বছরে এই ধরনের ঘটনায় মোট ৩৮৭ জনের মৃত্যু হয়েছিল। ২০১৭ সালে এই ধরনের ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল আড়াইশো জনেরও বেশি। দেখা যাচ্ছে এই হিংসা ক্রমেই প্রসারিত।
অনেকেই বলছেন, এই হিংসার উদ্গাতা নাকি স্বয়ং ট্রাম্প। তাঁকে অনেকেই বলেন ‘শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদী’। তিনিই আজকের সমাজের মধ্যে উগ্র জাতীয়তাবাদের বীজ বপন করছেন বলে অভিযোগ তুলে সোচ্চার সেদেশের অনেকেই। যার ফলেই নাকি মার্কিন নাগরিকদের তরুণ প্রজন্মের মনে আজ এত অসূয়া, হিংসা, অভিমান। বর্ণবিদ্বেষের ঘৃণা আবার তাঁদের মধ্যে নতুন করে জেগে উঠেছে। বর্ণবিদ্বেষের যে হিংসা বহু বছর আগে মার্কিন দেশ বহন করত, বহু আন্দোলনের মধ্য দিয়ে যার বিনাশ হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছিল, দেখা যাচ্ছে, তা এখনও মরেনি। সেই অভিশাপ আজ আবার নতুন করে ফিরে এসেছে।
জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। তার রয়েছে অত্যাধুনিক অস্ত্র। রয়েছে উগ্রপন্থা আটকানোর অনেক নিরাপত্তা ব্যবস্থা। বাইরের জঙ্গিদের তারা অনেকটাই আটকাতে পেরেছে। কিন্তু তাদের সমাজের ভিতরেই প্রভূত হিংসা বুকে নিয়ে ফুঁসছে যেসব ‘দেশীয় জঙ্গি’, যে হিংসা তাদের নির্বিচারে মানুষ মারতে উৎসাহিত করছে, সেই মৌলবাদ, সেই উগ্রপন্থাকে আজ তারা কীভাবে দূর করবে! রক্তের ভিতরে জেগে থাকা এই কীটদের সে দূর করবে কী পন্থায়! সেটা আজ তাদের নতুন করে ভেবে দেখার সময় এসেছে।
একটা সময় ছিল যখন মার্কিন সভ্যতার মধ্যে একটা অবসাদ জমত। তাদের সম্পর্কের ভিতগুলো ছিল খুবই নড়বড়ে। আমাদের মতো বাবা, মা, কাকা, ভাইবোনেদের সঙ্গে সম্পর্কের মতো ওদের সম্পর্কের ভিতটা ততটা নিবিড় নয়। তাছাড়া মুক্ত যৌনতার অবসাদ তাদের বারবার ক্লান্তির দিকে ঠেলে দিয়েছে। একটু স্নেহ বা ভালোবাসার পরশ তাদের সেই ক্লান্তি দূর করতে সক্ষম। কিন্তু আজকের এই হিংসা তাদের যে উন্মার্গগামিতার পথে ঠেলে দিচ্ছে, সেখান থেকে তাদের ফেরাতেই হবে। এই উগ্র জাতীয়তাবাদ থেকে যে হিংসার জন্ম, তা কিন্তু সমগ্র জাতিকেই এক বিপন্ন সময়ের দিকে ঠেলে দেবে। এটা রবীন্দ্রনাথ কিংবা গান্ধীজি থেকে শুরু করে সারা বিশ্বের বহু মনীষীই বলে গিয়েছেন। মনে রাখা দরকার, আমরাও কিন্তু ক্রমেই ঝুঁকে পড়ছি এক উগ্র জাতীয়তাবাদের দিকে। চারিদিকে যে অসহিষ্ণুতা এবং পিটিয়ে মারার ঘটনা ঘটছে তা নিয়ে আমাদেরও উদ্বেগের যথেষ্ট কারণ আছে। উগ্র জাতীয়তাবাদ অন্ধত্বের জন্ম দেয় এবং তা ক্রমেই একটা প্রজন্মকে ঠেলে দেয় গভীর খাদের দিকে। তাই অচিরেই সতর্কতা প্রয়োজন।
06th  August, 2019
রিজার্ভ ব্যাঙ্কের
ভালো পদক্ষেপ

আধুনিক অর্থনীতির বড় আবিষ্কার হল টাকা। বিনিময় প্রথার সীমবদ্ধতা মানুষকে টাকার শরণ নিতে উদ্বুব্ধ করেছিল। প্রথমে টাকা ছিল ধাতব মুদ্রায় তৈরি। সোনা, রুপো এবং কোনও কোনও ক্ষেত্রে সঙ্কর ধাতুর।
বিশদ

মূল্যবৃদ্ধি ঠেকাবে কে?

 আর কোনও রাখঢাক গুড়গুড় নেই। করোনাকালে সাধারণ মানুষকে আর্থিক সুবিধা দেওয়ার নামে কেন্দ্রীয় সরকার ও রিজার্ভ ব্যাঙ্ক গুচ্ছ গুচ্ছ ঘোষণা করলেও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রীর দাম যে ক্রমশ ধরাছোঁয়ার বাইরে চলে যাচ্ছে তা প্রকারান্তরে মেনে নিল দেশের শীর্ষ ব্যাঙ্ক। বিশদ

08th  August, 2020
সুশাসন ফিরবে তো?

 পার হল ২৯ বছর! অযোধ্যায় মন্দির-রাজনীতির দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করার মাহেন্দ্রক্ষণে উপস্থিত থাকতে সরযূ নদীর তীরে তিনি গেলেন প্রায় তিন দশক পর। বহু প্রতীক্ষিত রাম মন্দিরের শিলান্যাস হল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাত ধরে। বিশদ

07th  August, 2020
লকডাউনের বিকল্প ভাবনা জরুরি

কয়েকটি পকেট বাদ দিলে গত জুনে ভারতজুড়ে ভালো বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টিপাতের পরিমাণ স্বাভাবিকের চেয়ে ১৫ শতাংশ বেশি। বর্ষার কৃপা সারা দেশই মোটামুটি একইরকম পেয়েছে। আবহাওয়া বিশারদরা মনে করছেন, ২০১৩ সালের পর এই প্রথম একটি পছন্দের জুন মাস পেয়েছি আমরা।
বিশদ

06th  August, 2020
রাস্তা যখন সঙ্কটমুক্তির হাতিয়ার

 সারা দেশে বেকারত্বের হার বাড়তে বাড়তে গত মার্চে ৮.৭৫ শতাংশে পৌঁছেছিল। তাতেই প্রমাদ গুনতে শুরু করেছিল শ্রমের বাজার এবং অর্থনৈতিক মহল। উঠতে শুরু করেছিল সমালোচনার ঝড়। সরকার সংবেদনশীল হলে সাধারণত নড়েচড়ে বসে। বিশদ

05th  August, 2020
বেচারাম সরকার

 কোমরের জোর কমে গেলে সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারে না মানুষ। সামনের দিকে ঝুঁকে পড়ে। কেন্দ্রীয় সরকারের অবস্থা অনেকটা সেরকম। এক চরম নিয়মহীনতা দেশটাকে ক্রমশ সঙ্কটের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। দল ও সরকারের নীতি মেনে আগেই নামী-দামি কিছু রাষ্ট্রয়ত্ত সংস্থা বেচে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল মোদি সরকার।
বিশদ

04th  August, 2020
এবার করোনা টেস্ট জালিয়াতি  

চিকিৎসা ক্ষেত্রে ভারতের সর্বোচ্চ সংস্থা হল ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর)। ব্রিটিশ আমল থেকে এই সংস্থা চিকিৎসা সংক্রান্ত গবেষণার ব্যাপারে দেশকে নেতৃত্ব দিয়ে চলেছে। তবে, করোনার বিপর্যয় আসার আগে সংস্থাটি সম্পর্কে সাধারণ মানুষের বিশেষ কিছু জানা ছিল না। 
বিশদ

03rd  August, 2020
যুদ্ধটা শুধু রোগের বিরুদ্ধে 

সবার উপরে মানুষ সত্য। তাঁর এত বড় উপলব্ধির কথা কবি চণ্ডীদাস আমাদের সকলের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছিলেন প্রায় ছ’শো বছর আগে। পৃথিবী তারপর বহু বহু দূর এগিয়ে গিয়েছে।   বিশদ

02nd  August, 2020
বলে কয়ে বঞ্চনা! 

আশঙ্কাই সত্যি হল। কেন্দ্র জানিয়ে দিল, রাজ্যগুলিকে জিএসটি-র বকেয়া মেটানো সম্ভব নয়। সিঁদুরে মেঘ আগেই দেখেছিলেন দূরদর্শী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্যের ন্যায্য পাওনা বকেয়া হয়েছে ৫৩ হাজার কোটি টাকা।  বিশদ

01st  August, 2020
কেন্দ্রীকরণের বিপজ্জনক প্রবণতা 

দেশে একটা সংবিধান আছে, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে সংসদ আছে, অথচ ভারতীয় গণতন্ত্রের এই শক্তিশালী দুই স্তম্ভকে কার্যত বুড়ো আঙুল দেখিয়ে জাতীয় শিক্ষানীতি ঘোষণা করে দিল মোদি সরকার।   বিশদ

31st  July, 2020
ডিজিটাল ইন্ডিয়া: মস্ত মশকরা 

আমাদের মৌলিক অধিকারগুলোর মধ্যে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হল শিক্ষার অধিকার। ২০০২ সালে ভারতীয় সংবিধানের ৮৬তম সংশোধনের মাধ্যমে ‘অনুচ্ছেদ ২১-এ’ যোগ করা হয়। তাতে ৬-১৪ বছর বয়সি সমস্ত ছেলেমেয়ের জন্য নিখরচায় এবং বাধ্যতামূলক স্কুলশিক্ষার অধিকার স্বীকার করা হয়।  বিশদ

30th  July, 2020
অক্সিজেনে কালো হাত 

মঙ্গলবার দুপুরের হিসেব, দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ লাখের দিকে এগচ্ছে। শুধু ২৭ জুলাই একদিনে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৫০ হাজার মানুষ! মৃতের সংখ্যা ছুটছে সাড়ে ৩৩ হাজারের দিকে।   বিশদ

29th  July, 2020
চীনের নাম নিতে কীসের কুণ্ঠা? 

একটা নয়, একই দিনে দু’টো অনুষ্ঠান। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সাধারণত বলার সুযোগ পেলে তার পূর্ণ সদ্ব্যবহার করেন। রবিবাসরীয় ‘মন কি বাত’ এবং ‘কার্গিল দিবস’ অনুষ্ঠানেও তার ব্যতিক্রম হয়নি।  বিশদ

28th  July, 2020
সব গরিবকে উচ্চশিক্ষার সুযোগ

কল্যাণকামী সরকারকে পিছিয়ে পড়া শ্রেণীর মানুষের জন্য নানা ধরনের কর্মসূচি ও প্রকল্প নিতে হয়। তার মধ্যে প্রথম কর্মসূচিটা হল খাদ্য সরবরাহ সংক্রান্ত। খাদ্যের নিরাপত্তা কর্মসূচিটা চালু হয়েছে এই ভাবনা মাথায় রেখে।
বিশদ

27th  July, 2020
কেন্দ্র কি রাজ্যের উন্নয়ন চায় না?

ভারত একটি যুক্তরাষ্ট্র। একটি শক্তিশালী কেন্দ্রকে ঘিরে রয়েছে রাজ্যগুলি। রয়েছে কয়েকটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলও। এই যে শক্তিশালী কেন্দ্রের কথা বলা হল, তা আসলে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির অর্থ ও সম্পদে পুষ্ট। বিশদ

26th  July, 2020
কামাল করল পুলিস

 ভোরের আলো ফোটার আগে কে জানতো গোটা দিনের জন্য এক অপার বিস্ময় অপেক্ষা করে আছে! কাটোয়া থেকে কোচবিহার, পাহাড় থেকে সাগর, টালা থেকে টালিগঞ্জ—পথে শুধু পুলিস আর পুলিস! কোথাও খাকি, কোথাও সাদা পোশাকের উর্দিধারীদের দৃপ্ত পদচারণায় কার্যত রাজ্যবাসী ঘরে সেঁধিয়ে গিয়েছে।
বিশদ

25th  July, 2020
একনজরে
 আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার লক্ষ্যে আবার অনুশীলনে ফিরতে চলেছেন বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার শাকিব আল হাসান। আগামী ২৯ অক্টোবর শেষ হতে চলেছে এই অলরাউন্ডারের নির্বাসন। ...

এক দশকের ‘টার্গেট’। ২০২০ থেকে ২০৩০। রাজ্যের প্রতিটি পুর শহরের চালচিত্র বদলে ফেলতে দশম-বার্ষিকী পরিকল্পনা নিল রাজ্য সরকার। উম-পুনের ক্ষত মেরামত ও কোভিডের মোকাবিলা থাকছে অগ্রাধিকারের তালিকায়। ...

 কয়লার গুণগত মান বজায় রাখতে আন্তর্জাতিক স্তরের উপদেষ্টা সংস্থা নিয়োগ করতে চলেছে কোল ইন্ডিয়া লিমিটেড। ...

 কেরলের ইদুক্কিতে ভূমিধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ২৪। শুক্রবার সকালে প্রবল বর্ষণের জেরে ইদুক্কি জেলায় একটি চা বাগানে ধস নামে, যার ধ্বংসস্তূপে চাপা পড়ে যায় ২০টি বাড়ি। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

ছোটখাট আঘাত লাগার সম্ভাবনা। নিকট আত্মীয় থেকে মানসিক কষ্ট পাওয়ার সম্ভাবনা। বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রছাত্রীরা বেশি ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

নাগাসাকি দিবস
বিশ্ব আদিবাসী দিবস

১৭৭৬: ইতালির রসায়নবিদ আমাদিও অ্যাভোগাদ্রোর জন্ম
১৯৩১: ব্রাজিলের ফুটবলার তথা কোচ মারিও জাগালোর জন্ম
১৯৪৫: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে জাপানের নাগাসাকি শহরে আমেরিকার ফেলা পরমাণু ৩৯ হাজার মানুষের মৃত্যু
১৯৭০ – বিপ্লবী ত্রৈলোক্যনাথ চক্রবর্তীর মৃত্যু
১৯৭৪: ওয়াটার গেট কেলেঙ্কারির কারণে মার্কিন প্রেসিডেন্ট রিচার্ড নিকসনের পদত্যাগ
২০০৮: গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে পুরুষদের ৪০০ মিটার ফ্রিস্টাইল সাঁতার প্রতিযোগিতা শুরু হয়।



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.১৬ টাকা ৭৬.৮৮ টাকা
পাউন্ড ৯৫.৮৩ টাকা ১০০.৯৯ টাকা
ইউরো ৮৬.৪৮ টাকা ৯১.১৫ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
08th  August, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫৬,৯৬০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৫৪,০৪০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৫৪,৮৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৭৫,০৩০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৭৫,১৩০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
08th  August, 2020

দিন পঞ্জিকা

২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, রবিবার, ৯ আগস্ট ২০২০, যষ্ঠী অহোরাত্র। রেবতীনক্ষত্র ৩৪/৩৮ রাত্রি ৭/৬। সূর্যোদয় ৫/১৪/৫৮, সূর্যাস্ত ৬/৯/১২। অমৃতযোগ প্রাতঃ ৬/৬ গতে ৯/৩২ মধ্যে। রাত্রি ৭/৩৮ গতে ৯/৬ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ ৬/৬ মধ্যে পুনঃ ১২/৫৮ গতে ১/৫০ মধ্যে। রাত্রি ৬/৫৪ গতে ৭/৩৮ মধ্যে পুনঃ ১২/৪ গতে ৩/২ মধ্যে। অমৃতযোগ প্রাতঃ ৬/৬ গতে ৯/৩২ মধ্যে। রাত্রি ৭/৩৮ গতে ৯/৬ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ প্রাতঃ ৬/৬ মধ্যে পুনঃ ১২/৫৮ গতে ১/৫০ মধ্যে। রাত্রি ৬/৫৪ গতে ৭/৩৮ মধ্যে পুনঃ ১২/৪ গতে ৩/২ মধ্যে। বারবেলা ১০/৫ গতে ১/১৯ মধ্যে। কালরাত্রি ১/৫ গতে ২/২৮ মধ্যে।
২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, রবিবার, ৯ আগস্ট ২০২০, যষ্ঠী শেষরাত্রি ৪/৩৩। রেবতীনক্ষত্র সন্ধ্যা ৬/২৪। সূর্যোদয় ৫/১৪, সূর্যাস্ত ৬/১২। অমৃতযোগ দিবা ৬/১০ গতে ৯/৩২ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/২৮ গতে ৮/৫৯ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৬/১০ মধ্যে ও ১২/৫৪ গতে ১/৪৪ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৪২ গতে ৭/২৮ মধ্যে ও ১১/১ গতে ৩/৩ মধ্যে। বারবেলা ১০/৬ গতে ১/২০ মধ্যে। কালরাত্রি ১/৬ গতে ২/২৯ মধ্যে।
 ১৮ জেলহজ্জ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
রাজ্যে করোনায় মৃত্যু ২ হাজার ছাড়াল
রাজ্যে করোনায় মৃত্যু ২ হাজার ছাড়াল। এ পর্যন্ত মোট ২০০৫ ...বিশদ

08-08-2020 - 09:06:41 PM

কাজিরাঙ্গায় শিকারির গুলিতে মৃত গণ্ডার 
অসমের কাজিরাঙ্গা অভয়ারণ্যে আজ সকালে একটি মৃত গণ্ডার উদ্ধার করা ...বিশদ

08-08-2020 - 04:35:00 PM

গুজরাতে রাসায়নিক কারখানায় ভয়াবহ আগুন 
 গুজরাতের একটি রাসায়নিক কারখানায় ভয়াবহ আগুন লাগল। আজ শনিবার ঘটনাটি ...বিশদ

08-08-2020 - 03:59:00 PM

কেরলে দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমানের ২৩ জন যাত্রী হাসপাতাল থেকে মুক্ত 
কেরলে দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমানের ২৩ জন যাত্রীকে সুস্থ অবস্থায় হাসপাতাল থেকে ...বিশদ

08-08-2020 - 03:45:00 PM

কেরলের বিমান দুর্ঘটনায় নিহত ও আহতদের আর্থিক সাহায্য ঘোষণা কেন্দ্রের
কেরলের কোঝিকোড়ে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত ও আহতদের আর্থিক সাহায্য ঘোষণা ...বিশদ

08-08-2020 - 02:09:37 PM

করোনা: কোন কোন দেশ বেশি আক্রান্ত? 
করোনায় আক্রান্তের বিচারে তালিকায় শীর্ষে রয়েছে আমেরিকা। এদেশে করোনায় আক্রান্ত ...বিশদ

08-08-2020 - 01:33:00 PM