Bartaman Patrika
শিল্প -বাণিজ্য
 

লক্ষ কোটির ব্যবসা ছাড়াবে কি পুজো?
সংশয় নিয়েই মা আসছেন বাংলায়

বাপ্পাদিত্য রায়চৌধুরী, কলকাতা: শুধু আমজনতার কাছ থেকে চাঁদা তুলে দুর্গাপুজোর খরচ কুলিয়ে ওঠার বাসনা এখন অতীত। জমকালো পুজোর সুনাম অটুট রাখতে ভরসা কর্পোরেট চাঁদা। এবার কি তাতে টান পড়বে? সেই আশঙ্কা অবশ্য উড়িয়ে দিচ্ছেন না অর্থনীতির বিশেষজ্ঞরা। বলছেন, যেখানে শিল্পেরই ভাঁড়ে মা ভবানী দশা, সেখানে দুর্গাপুজোর চাঁদা জোগানো চাট্টিখানি কথা নয়। শুধু রাজ্য নয়, গোটা দেশেই থরহরিকম্প অবস্থা অর্থনীতির। সেখানে নিজেদের অস্তিত্ব বাঁচাতেই ব্যস্ত সংস্থাগুলি। পুজোয় টাকা ঢালার পরিস্থিতি আদৌ আছে কি না, সেই প্রশ্নই তুলছেন তাঁরা। এসবে অবশ্য মুচকি হাসছেন পুজো কমিটির উদ্যোক্তারা। বাজেটের খরচ জোগাড় নিয়ে মুখে কিছু বলতে চাইছেন না। কিন্তু বুঝিয়ে দিচ্ছেন, সুনাম অটুট রাখতে টাকার ব্যবস্থা যে করে হোক হবেই। তবে শিল্পমহলের পূর্বাভাস অনুযায়ী এবার কলকাতা সহ বাংলার পুজোকে কেন্দ্র করে ব্যবসা হতে চলেছে এক লক্ষ কোটি টাকারও বেশি। সত্যিই কি সেই ব্যবসা হবে? উঠছে প্রশ্ন।
এরাজ্যে পুজোকে কেন্দ্র করে কত টাকা খরচ হয়, তার কোনও সংগঠিত হিসেব পাওয়া মুশকিল। কারণ, পুজো মানে শুধু প্যান্ডেল, প্রতিমা, লাইট বা তারকাখচিত উদ্বোধন ও রংদার বিসর্জন নয়। পুজোর সঙ্গে জড়িয়ে আছে লাগাতার প্রচার, ব্র্যান্ডিং। আছে হরেক প্রতিযোগিতায় নিজেদের সেরা প্রমাণ করার চেষ্টা। সেসবে খরচা আছে। আর আছে আপামর বাঙালি, যাঁরা পুজোকে কেন্দ্র করে খরচ করেন দু’হাত ভরে। বোনাস জুটুক না জুটুক, পুজোয় জামাকাপড় কেনা, উপহার দেওয়া বা খাওয়াদাওয়া আর ঘুরে বেড়ানোর খরচ মোটেই কম নয়। তাই সেসবকে কেন্দ্র করে জীবন-জীবিকার বহরও বিরাট। কিন্তু এসবের সামগ্রিক হিসেব কষবে কে? সর্বভারতীয় বণিকসভা অ্যাসোচেম পাঁচ বছর আগে একটি সমীক্ষা চালিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গে দুর্গাপুজোকেন্দ্রিক ব্যবসা নিয়ে। তাদের হিসেব ছিল, ২০১৩ সালে পুজোকে কেন্দ্র করে ব্যবসা হয়েছে ২৫ হাজার কোটি টাকার। ঠিক দু’বছরের মাথায় তা ৪০ হাজার কোটি টাকা ছোঁয়ার কথা ছিল। বণিকসভাটির হিসেব ছিল, প্রতি বছর গড়ে ৩৫ শতাংশ বহর বাড়ছে পুজোকেন্দ্রিক ব্যবসার। সেই হিসেবে এবার তা এক লক্ষ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাওয়ার কথা। যে গণেশ পুজোকে কেন্দ্র করে গোটা মহারাষ্ট্রে এত ধুমধাম, সেখানকার পুজো বাজেট যে বাংলার পুজোর ধারে কাছে থাকে না, তাও জানিয়েছিল ওই সমীক্ষা। বলা হয়েছিল, ২০ হাজার কোটি টাকার ব্যবসা করা গণেশ পুজোর বহর বছরে ২০ শতাংশের বেশি বাড়ে না। বিশ্বে যে ক’টি রাস্তাকেন্দ্রিক উৎসব হয়, তার মধ্যে দুর্গাপুজো যে খরচ ও জনপ্রিয়তায় সবার শীর্ষে, তার ইঙ্গিত দিয়েছিল ওই বণিকসভা।
একটা সময় ছিল, যখন পুজো বাজেটের অনেকটাই আসত এরাজ্যে রমরম করে চলা চিট ফান্ডগুলি থেকে। সেই সুযোগ এখন নেই। তবে রাজ্য সরকার গত বছর থেকে যেভাবে পুজো পিছু ১০ হাজার টাকা দিচ্ছে, তা কিছুটা হলেও টাকার খামতি মেটাচ্ছে, দাবি করেছেন পুজো উদ্যোক্তারা। তবে গত তিন থেকে চার বছরে সেই কর্পোরেট সংস্থাগুলিই কিন্তু গৌরী সেন হয়ে টাকা বিলিয়েছে কমিটিগুলিকে। সোনার শোরুম থেকে শুরু করে ব্যাটারি, গুঁড়ো মশলা, অন্তর্বাস, মোবাইল ফোন বা গাড়ি সংস্থা— স্পনসরশিপে কার্পণ্য করেনি এমন অনেক সংস্থা। পাশাপাশি ক্রেতাসুরক্ষা বা পর্যটনের মতো রাজ্য সরকারের বিভিন্ন দপ্তরও বহু পুজো কমিটিকে জুগিয়ে গিয়েছে বিজ্ঞাপনের টাকা। পুজো কমিটিগুলির আশা, এবারও সেই ব্যবস্থার নড়চড় হবে না।
তাহলে চিন্তা কিসের? অর্থনীতিবিদরা বলছেন, গোটা পুজোর ব্যবসা এবার মার খেতে পারে শুধু আর্থ-সামাজিক পরিস্থিতির কারণে। বাজারে নগদ টাকার জোগানের যে অভাব রয়েছে, তা নিয়ে সরব হয়েছে একাধিক শিল্প। ব্যাঙ্কগুলিতে টাকা আছে। অথচ ঋণ নেওয়ার লোক নেই। উৎপাদন মুখ থুবড়ে পড়েছে। কর্মী ছাঁটাইয়ের চিন্তাভাবনা চলছে নানামহলে। আর্থিক ত্রাণের জন্য সরকারের দিকে তাকিয়ে আছে শিল্পসংস্থাগুলি। এই পরিস্থিতিতে মানুষের খরচের বহর যে বিরাট মাত্রায় বাড়বে, তা আশা করা যায় না। ফলে ছোট ও মাঝারি শিল্পগুলি বাংলায় পুজোকে কেন্দ্র করে যতটা ব্যবসা করে, তা এবার টাল খেতে পারে। যদি ব্যবসাই না হয়, তাহলে স্পনসরশিপ বাবদ কর্পোরেট সংস্থাগুলি কতটা হাত খুলে খরচ করবে, সেই বিষয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়, বলছেন অর্থনীতিবিদরা। এসবের পরে আয়কর দপ্তর পুজোয় নাক গলিয়ে যেভাবে জল ঘোলা করেছে, তার প্রভাব এবার বারোয়ারি পুজোগুলিতে কতটা পড়বে, সেই প্রশ্নও এড়িয়ে যাচ্ছেন না তাঁরা।

28th  August, 2019
মুনাফা অনেকটা বাড়াল বন্ধন ব্যাঙ্ক 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নিট মুনাফা এক লাফে ১২০.৮৫ শতাংশ বাড়াল বন্ধন ব্যাঙ্ক। চলতি আর্থিক বছরের তৃতীয় ত্রৈমাসিকে তাদের নিট মুনাফা হয় ৭৩১ কোটি টাকা। গত অর্থবর্ষের ওই সময়ে তা ছিল ৩৩১ কোটি টাকা।
বিশদ

15th  January, 2020
শেয়ার-বাজার দর: ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ 

ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে শুধু সেগুলির বাজার বন্ধকালীন দরই নীচে দেওয়া হল।  বিশদ

15th  January, 2020
সোদপুরের বন্ধ বিস্কুট কারখানা চালু হল 

বিএনএ, বারাকপুর: সোদপুরের বন্ধ হয়ে যাওয়া বিস্কুট কারখানা চালু হল। মঙ্গলবার সকাল থেকেই শ্রমিকরা কাজে যোগ দিলেন। কারখানা ফের চালু হওয়ায় শ্রমিকদের মধ্যে খুশির হাওয়া। এদিন স্থায়ী কর্মীদের ১০০ শতাংশ উপস্থিতি ছিল। কারখানা সূত্রে জানা গিয়েছে, দুটি ইউনিট চালু হয়ে গিয়েছে। ধীরে ধীরে সবকটি ইউনিট সচল হয়ে যাবে।  
বিশদ

15th  January, 2020
পাম তেলের আমদানি কমাতে চাইছে ভারত, উদ্বিগ্ন মালয়েশিয়া 

কুয়ালালামপুর, ১৪ জানুয়ারি: কূটনৈতিক উত্তাপ বাড়তেই মালয়েশিয়া থেকে পাম তেল আমদানিতে রাশ টানার ঘোষণা করেছে ভারত। এ নিয়ে নিজেদের উদ্বেগ চাপতে পারলেন না মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মহাথির মহম্মদ। মঙ্গলবার তিনি জানান, ভারতের এই সিদ্ধান্তে মালয়েশিয়া উদ্বিগ্ন।
বিশদ

15th  January, 2020
  টাটাদের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা প্রত্যাহার করে নিলেন ওয়াদিয়া

 নয়াদিল্লি, ১৩ জানুয়ারি (পিটিআই): টাটাদের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা প্রত্যাহার করে নিলেন নুসলি ওয়াদিয়া। সোমবার সুপ্রিম কোর্টে বোম্বে ডাইয়িংয়ের চেয়ারম্যান ওয়াদিয়া মামলা প্রত্যাহার সংক্রান্ত আবেদন করেন। বিশদ

14th  January, 2020
পরিষেবায় প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াবে স্টেট ব্যাঙ্ক 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: গ্রাহক পরিষেবাই একমাত্র পাখির চোখ স্টেট ব্যাঙ্ক ইন্ডিয়ার। আর সেই পরিষেবার বহর বাড়াতে আরও বেশি প্রযুক্তিগত সুবিধা আনবে তারব। স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের বেঙ্গল সার্কেলের ৫৪তম বার্ষিক সাধারণ সভায় এসে এমনটাই জানালেন ব্যাঙ্কের বেঙ্গল সার্কেলের চিফ জেনারেল ম্যানেজার রঞ্জন মিশ্র।
বিশদ

13th  January, 2020
বলতে নয়, শুনতে এসেছি, শিল্পপতিদের বললেন মোদি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ব্যস্ত কর্মসূচির মধ্যেও রাজ্যের শিল্পপতিদের সঙ্গে বৈঠক করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এদিন দু’টি বণিকসভার প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলাদা করে দেখা করেন তিনি। ইন্ডিয়ান চেম্বার অব কমার্সের তরফে এদিন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন সঞ্জীব গোয়েঙ্কা, হর্ষ নেওটিয়া, মায়াঙ্ক জালান প্রমুখ। বিশদ

12th  January, 2020
মৎস্য উৎসব শুরু নলবনে 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: খাদ্য রসিক বাঙালির অত্যন্ত প্রিয় মাছ। সেই কথাকে মাথায় রেখেই রাজ্যে মাছের উৎপাদন বৃদ্ধিতে সর্বাধিক জোর দেওয়া হচ্ছে সরকারের পক্ষ থেকে। সেই সঙ্গে বাঙালিকে আরও ভালো মাছ খাওয়াতে গত কয়েকবছর ধরে ফিশ ফেস্টিভ্যাল আয়োজন করা হচ্ছে ইন্ডিয়ান চেম্বার অব কমার্স এবং রাজ্য মৎস্য দপ্তরের পক্ষ থেকে।  
বিশদ

11th  January, 2020
মন্ত্রীর ঘোষণা সত্ত্বেও ট্রেনের খাবারের প্যাকেটে কিউআর
কোড লাগাতে ব্যর্থ রেল, গুণমান নিয়ে উঠছে প্রশ্ন

দিব্যেন্দু বিশ্বাস, নয়াদিল্লি, ১০ জানুয়ারি: মন্ত্রীর ঘোষণা সত্ত্বেও দেশের সব ট্রেনের খাবারের প্যাকেটে কিউআর (কুইক রেসপন্স) কোড লাগাতে কার্যত ব্যর্থ রেলমন্ত্রক। যার ফলে চলন্ত ট্রেনের খাবারের গুণগত মান নিয়েই বড়সড় প্রশ্নচিহ্ন উঠতে শুরু করেছে। সেই সঙ্গে সংশয় তৈরি হয়েছে রেলমন্ত্রক আদৌ গুণমান সম্পন্ন খাবার যাত্রীদের মধ্যে পরিবেশন করতে কতটা উদ্যোগী, তা নিয়েও।
বিশদ

11th  January, 2020
চাল ও ভুট্টার অবশিষ্ট দিয়ে বিস্কুট, তাক লাগাল যাদবপুরের খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগ 

সৌম্যজিৎ সাহা  কলকাতা: বিস্কুট তৈরির অন্যতম কাঁচামাল হল ময়দা। তার সঙ্গে তো চিনি, মাখন ইত্যাদি লাগেই। কিন্তু অন্য কিছু দিয়েও যে বিস্কুট তৈরি করা যায়, তা দেখিয়ে দিল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগ। চাল ভাঙা এবং ভুট্টার অবশিষ্ট অংশ, এক কথায় যা ফেলে দেওয়া হয়, সেসব দিয়েই এটি তৈরি করা হয়েছে। 
বিশদ

11th  January, 2020
প্রায় ৪ কোটি বরাদ্দ করল জেলা পরিষদ
হুগলিতে আপাতত ২টি বাংলোকে বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহারের উদ্যোগ 

বিএনএ, চুঁচুড়া: এবার হুগলিতে জেলা পরিষদের বাংলোগুলিকে বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করা হবে। জেলা পরিষদের পূর্ত স্থায়ী সমিতি প্রাথমিকভাবে দু’টি বাংলোকে নিয়ে ওই পরিকল্পনা তৈরি করছে। এই আধুনিকীকরণ ও বাণিজ্যিকীকরণের জন্য পরিকাঠামো গড়তে প্রায় চার কোটি টাকা জেলা পরিষদ বরাদ্দ করেছে। 
বিশদ

11th  January, 2020
টাটা গোষ্ঠীর এগজিকিউটিভ চেয়ারম্যান পদে সাইরাস মিস্ত্রির পুনর্নিয়োগের রায়ে স্থগিতাদেশ 

নয়াদিল্লি, ১০ জানুয়ারি (পিটিআই): টাটা গোষ্ঠীর এগজিকিউটিভ চেয়ারম্যান পদে এখনই ফেরা হচ্ছে না সাইরাস মিস্ত্রির। গত বছরের শেষদিকে তাঁকে ওই পদে ফেরানোর নির্দেশ দিয়েছিল ন্যাশনাল কোম্পানি ল অ্যাপেলেট ট্রাইব্যুনাল (এনসিএলএটি)। সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল টাটা সন্স প্রাইভেট লিমিটেড। 
বিশদ

11th  January, 2020
ডিসেম্বরেও পড়ল যাত্রীবাহী গাড়ি বিক্রি, ব্যক্তিগত গাড়ি বিক্রি কমল ৮.৪ শতাংশ  

নয়াদিল্লি, ১০ জানুয়ারি: পড়েই চলেছে যাত্রীবাহী গাড়ির বিক্রির সংখ্যা। ১.২৪ শতাংশ পড়ে ডিসেম্বরে গাড়ি বিক্রির পরিমাণ দাঁড়াল ২ লক্ষ ৩৫ হাজার ৭৮৬টি। গত বছরের ডিসেম্বরে এই সংখ্যা ছিল ২ লক্ষ ৩৮ হাজার ৭৫৩টি। অন্যদিকে, ডিসেম্বরে ব্যক্তিগত গাড়ি বিক্রি কমেছে ৮.৪ শতাংশ। সংখ্যার নিরিখে তা দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৪২ হাজার ১২৬টি।
বিশদ

11th  January, 2020
চাকরির জায়গায় অভিনবত্ব আনতে ‘সোশ্যাল অফিস’ গোদরেজ ইন্টিরিও’র 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সময়ের দাবি মেনে নয়া প্রজন্মের কাছে আকর্ষণীয় কাজের পরিবেশ পৌঁছে দিতে গোদরেজ ইন্টিরিও’র নয়া উপহার ‘সোশ্যাল অফিস’। সংস্থা ব্যবসায়িক কৌশল হিসেবে গৃহস্থ আসবাবপত্রের পাশাপাশি অফিস আসবাবপত্রের ক্ষেত্রেও এবার অভিনব প্রয়াস নিচ্ছে। 
বিশদ

11th  January, 2020

Pages: 12345

একনজরে
 নয়াদিল্লি, ২৫ জানুয়ারি (পিটিআই): জাতীয় ভোটার দিবস উপলক্ষে শনিবার দেশের মানুষকে শুভেচ্ছা জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পাশাপাশি কৃতজ্ঞতা জানালেন নির্বাচন কমিশনের প্রতি। নির্বাচনের প্রক্রিয়াকে আরও প্রাণোচ্ছ্বল করে তোলা ও আরও বেশি মানুষের অংশগ্রহণে কমিশনের ভূমিকার জন্য। ...

সংবাদদাতা, ইংলিশবাজার: সারা দেশের সঙ্গে আজ শনিবার মালদহ জেলায় পালিত হল জাতীয় ভোটার দিবস। নতুন ভোটারদের ভোটদানে উৎসাহিত করার জন্য ২৫ জানুয়ারি জাতীয় ...

 সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: যেসব শর্তে জলজীবন মিশন শুরু করতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার, তাতে আপত্তি রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের। এদিকে, কেন জলজীবন মিশন, তা বোঝাতে কেন্দ্রীয় সরকারের জলশক্তি মন্ত্রকের একটি বড় টিম রাজ্যে আসতে চাইছে। ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি সিনিয়র অফিসারদের ওই টিম ...

 অর্পণ সেনগুপ্ত, কলকাতা: খোদ গাইডই জালিয়াতির অভিযোগ এনেছেন। তাই এ বছর কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে এম ফিলের শংসাপত্র পাওয়া হচ্ছে না গবেষক কার্তিক নস্করের। দু’বছর ধরে এই অভিযোগের কোনও মীমাংসাও হয়নি। বাংলা বিভাগের গবেষক কার্তিকের দাবি, বোর্ড অব ডিসিপ্লিন বিষয়টি দেখছে। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কোনও কিছুতে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ভাববেন। শত্রুতার অবসান হবে। গুরুজনদের কথা মানা দরকার। প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় সুফল ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

সাধারণতন্ত্র দিবস
১৮৪১: আনুষ্ঠানিকভাবে হংকং দখল করল ব্রিটিশরা
১৯৩০: পরাধীন ভারতে এই দিনটিকে ‘পূর্ণ স্বরাজ দিবস’ বা ‘স্বাধীনতা দিবস’ হিসাবে ঘোষণা করল জাতীয় কংগ্রেস
১৯৫০: লাগু হল ভারতের সংবিধান। রাষ্ট্রপতি পদে রাজেন্দ্র প্রসাদ দায়িত্ব গ্রহণ করে সূচনা করলেন গণতন্ত্রের।
১৯৫৪: রাজনীতিবিদ মানবেন্দ্রনাথ রায়ের মৃত্যু
১৯৬৫- হিন্দিকে সরকারি ভাষা হিসেবে স্বীকৃতি দিল কেন্দ্র
১৯৯২: পরমাণু অস্ত্রের মাধ্যমে আমেরিকার বিভিন্ন শহরকে নিশানা করা থেকে রাশিয়া বিরত হবে বলে জানালেন বরিস ইয়েলৎসেন
২০০১: গুজরাতের ভুজে বিধ্বংসী ভূমিকম্পে মৃত্যু হল প্রায় ২০ হাজার মানুষের
২০০৪: আফগানিস্তানের নয়া সংবিধানে স্বাক্ষর করলেন প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৫১ টাকা ৭২.২১ টাকা
পাউন্ড ৯১.৯৮ টাকা ৯৫.৩২ টাকা
ইউরো ৭৭.৩৮ টাকা ৮০.৩৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
25th  January, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪০,৯৮৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৮,৮৮৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৯,৪৭০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৭,১০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৭,২০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১১ মাঘ ১৪২৬, ২৬ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, (মাঘ শুক্লপক্ষ) দ্বিতীয়া ৫৯/৪৫ শেষ রাত্রি ৬/১৬। ধনিষ্ঠা অহোরাত্র। সূ উ ৬/২১/৫৩, অ ৫/১৬/১৩, অমৃতযোগ দিবা ৭/৫ গতে ১০/০ মধ্যে। রাত্রি ৭/১ গতে ৮/৪৬ মধ্যে। বারবেলা ১০/২৭ গতে ১/১০ মধ্যে। কালরাত্রি ১/২৭ গতে ৩/৬ মধ্যে। 
১১ মাঘ ১৪২৬, ২৬ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, দ্বিতীয়া ৫৬/১৭/৫২ শেষরাত্রি ৪/৫৬/৫। ধনিষ্ঠা ৫৮/৫৪/২৯ শেষরাত্রি ৫/৫৮/৪৪। সূ উ ৬/২৪/৫৬, অ ৫/১৪/৫৬, অমৃতযোগ দিবা ৭/১ গতে ৯/৫৯ মধ্যে ও রাত্রি ৭/৮ গতে ৮/৫১ মধ্যে। কালবেলা ১১/৪৯/৫৬ গতে ১/১১/১১ মধ্যে। কালরাত্রি ১/২৮/৪১ গতে ৩/৭/২৬ মধ্যে।
৩০ জমাদিয়ল আউয়ল 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
শুভেচ্ছা ও ছুটি

আজ রবিবার দেশের ৭১তম সাধারণতন্ত্র দিবস। এই উপলক্ষে বর্তমান পত্রিকার ...বিশদ

08:00:00 AM

পদ্মভূষণ পাচ্ছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মনহর পারিক্কর, ব্যবসায়ী আনন্দ মহিন্দ্রা ও ভেনু শ্রীনিবাসন, ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় পিভি সিন্ধু, নাগাল্যান্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এস সি জমির এবং জম্মু ও কাশ্মীরের রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব মুজাফ্ফর হোসেন বেগ 

25-01-2020 - 09:18:00 PM

পদ্মবিভূষণ পাচ্ছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরুণ জেটলি, স্বরাজ, জর্জ ফার্ণান্ডেজ, বক্সার মেরি কম, মরিশাসের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অনিরুদ্ধ জগন্নাথ 

25-01-2020 - 09:13:00 PM

 পদ্মশ্রী পাচ্ছেন কঙ্গনা রানউত, একতা কাপুর, আদনান সামি এবং করণ জোহর

25-01-2020 - 09:07:04 PM

ম্যাচ চলাকালীন অশ্লীল ভাষা ব্যবহার, ম্যাচ ফি কাটা হল বেন স্টোকসের
জোহানেসবার্গ টেস্ট চলাকালীন অশ্লীল ভাষা ব্যবহারের অপরাধে ইংল্যান্ডের খেলোয়ার বেন ...বিশদ

25-01-2020 - 08:05:00 PM

ম্যাচ চলাকালীন অশ্লীল ভাষা ব্যবহার, ম্যাচ ফি কাটা হল বেন স্টোকসের
আজ সিএএ, এনআরসি ইস্যু নিয়ে দলীয় বৈঠক করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ...বিশদ

25-01-2020 - 06:32:00 PM