Bartaman Patrika
দক্ষিণবঙ্গ
 

করোনা-আতঙ্কে পশ্চিম মেদিনীপুরে
হোমিওপ্যাথি ওষুধের চাহিদা তুঙ্গে 

নিজস্ব প্রতিনিধি, মেদিনীপুর: করোনা-আতঙ্কে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাজুড়ে আর্সেনিক অ্যালবাম-৩০ ওষুধের চাহিদা তুঙ্গে উঠেছে। চাহিদার জেরে মেদিনীপুর হোমিওপ্যাথি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের কর্মীরা ওষুধের জোগান দিতে হিমশিম খাচ্ছেন। হাসপাতালের সাতজন কর্মী প্রতিদিন ওষুধ তৈরি করে চলেছেন। কিন্তু, তাতেও চাহিদা পূরণ করা যাচ্ছে না। জেলা পুলিস প্রশাসন, পুরসভা থেকে ব্লক প্রশাসন, সর্বস্তর থেকেই এই ওষুধ চেয়ে হাসপাতালের কর্মকর্তাদের কাছে আবেদন করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই চাহিদা অনুযায়ী হাসপাতাল থেকে ওষুধ সরবরাহ করার চেষ্টা চলছে। কিন্তু, এখন ভিনজেলা থেকেও মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের কর্মকর্তাদের কাছে এই ওষুধ চেয়ে আবেদন আসছে।
কলেজের অধ্যক্ষ শ্রীমন্ত সাহা বলেন, এই ওষুধের চাহিদা এখন খুবই বেশি। চাহিদা অনুযায়ী আমরা ওষুধের জোগান দিতে পারছি না। জেলা পুলিস প্রশাসনের পক্ষ থেকে যা ওষুধ চাওয়া হয়েছিল, আমরা এখনও তা দিতে পারিনি। ভিনজেলা থেকেও অনেকে এই ওষুধ চেয়ে আবেদন জানাচ্ছেন। আপাতত বাইরের জেলার আবেদন ফিরিয়ে দিচ্ছি। কারণ জেলার চাহিদা পূরণ করতেই আমরা হিমশিম খাচ্ছি। গত এক সপ্তাহে হাসপাতালের আউটডোর থেকেই প্রায় ১০ হাজার মানুষকে ওষুধ বিলি করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে পুরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে ওষুধ বিলি করা হচ্ছে। প্রতিদিন চাহিদা বেড়েই চলেছে।
হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, সেন্ট্রাল কাউন্সিল অব হোমিওপ্যাথির পক্ষ থেকে এই ওষুধ সাধারণ মানুষকে দেওয়ার জন্য বলা হয়। সেন্ট্রাল কাউন্সিলের নির্দেশিকা আসার পরপরই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওষুধ তৈরির উদ্যোগ নেয়। গত ১১মে হাসপাতালের আউটডোরে দু’টি কাউন্টার থেকে ওষুধ বিলি শুরু হয়। পাশাপাশি হাসপাতালের কর্মীরা ১২ নম্বর ওয়ার্ডে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ওষুধ বিলি করেছিলেন। এছাড়া ৯ এবং ১১ নম্বর ওয়ার্ডের কিছু বাড়িতে এই ওষুধ বিলি করা হয়।
হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, পুলিস প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাড়ে ১১হাজার প্যাকেট ওষুধ চেয়ে আবেদন করা হয়েছিল। হাসপাতালের পক্ষ থেকে তিন হাজার প্যাকেট ওষুধ সরবরাহ করা হয়েছে। বাকি ওষুধ এখনও সরবরাহ করতে পারেনি। মেদিনীপুর পুরসভার কর্মী ও সাফাইকর্মীদের জন্য ১০০০ প্যাকেট ওষুধ সরবরাহ করা হয়েছে। মেদিনীপুর সদর ব্লক ও পঞ্চায়েতের কর্মীদের জন্য ৫০০ প্যাকেট ওষুধ সরবরাহ করা হয়েছে। সালুয়া পুলিস ট্রেনিং স্কুলের জন্য ৮০০ প্যাকেট ওষুধ সরবরাহ করা হয়েছে। জেলা স্কুলদপ্তরের পক্ষ থেকে তাদের কর্মীদের জন্য ওষুধ চেয়ে আবেদন জানানো হয়েছে। এখনও সেই ওষুধ সরবরাহ করা হয়নি। ইতিমধ্যেই শহরের পালবাড়ি এলাকায় একটি ক্লাবের মাধ্যমে প্রায় তিন হাজার প্যাকেট ওষুধ বিলি করা হয়েছে। মহাতাবপুর এলাকাতেও একটি সংগঠনের মাধ্যমে সাড়ে তিন হাজার মানুষকে এই ওষুধ বিলি করা হয়েছে। নজরগঞ্জ এলাকায় এক হাজার জনকে ওষুধ বিলি করার কথা রয়েছে। জেলার অন্যান্য ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকেও এই ওষুধ চেয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন আসছে। যদিও জেলার অন্যান্য ব্লকে এখন এই ওষুধ সরবরাহ করা হয়নি।  
১ বছরের শিশু সহ দুই বর্ধমানে করোনা আক্রান্ত ৩ 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্ধমান ও দুর্গাপুর: দুই বর্ধমানে নতুন করে ৩ জন করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলল। এর মধ্যে বর্ধমান শহরের উদয়পল্লি এলাকায় ১ বছরের একটি শিশু করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। শুক্রবার তার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।   বিশদ

মুর্শিদাবাদে একদিনে ১৪জন পরিযায়ী
শ্রমিক করোনা আক্রান্ত, আতঙ্ক 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বহরমপুর: মুর্শিদাবাদে একদিনে ১৪জন পরিযায়ী শ্রমিক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ১২জন মহারাষ্ট্র থেকে ফিরেছেন। বাকি দু’জন গুজরাতের সুরাত থেকে কয়েকদিন আগেই ফিরে এসেছেন।  বিশদ

একইদিনে আটজন আক্রান্ত হওয়ার খবর জানাজানি হতেই
নবগ্রামে করোনা আতঙ্ক, গ্রামে বাঁশের ব্যারিকেড 

সংবাদদাতা, লালবাগ ও সংবাদদাতা, কান্দি: করোনা আক্রান্তের খোঁজ পাওয়ার পরই নবগ্রাম ব্লকের খাজুরিয়া ও নতুনগ্রামে বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে দেওয়া হল। শুক্রবার সকালেই দু’টি গ্রামে যান ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক জ্যোতির্ময় সরকার, নবগ্রাম থানার ওসি, স্থানীয় পঞ্চায়েতের প্রধান এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা।  বিশদ

রামপুরহাট স্বাস্থ্য জেলায় ফের করোনা আক্রান্তের সন্ধান  

সংবাদদাতা, রামপুরহাট: আরও একজন করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলল রামপুরহাট স্বাস্থ্য জেলায়। আক্রান্ত পরিযায়ী শ্রমিকের বাড়ি মল্লারপুরে। স্বাস্থ্যদপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই যুবক মুম্বইয়ে রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন।   বিশদ

উম-পুনে সাত জেলায় ক্ষতি প্রায় ৩৩০০ কোটি টাকা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্ধমান: উম-পুনের তাণ্ডবের দু’দিন পরে শুক্রবারও দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বহু এলাকার বাসিন্দারা স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে পারেননি। ঘরবাড়ি নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়ায় ত্রাণ শিবিরে আশ্রয় নিয়েছেন বহু মানুষ।  বিশদ

রানাঘাটে আম ও ফুল চাষে ব্যাপক ক্ষতি 

সংবাদদাতা, রানাঘাট ও তেহট্ট: উম-পুনের দাপটে রানাঘাট মহকুমায় আম এবং ফুল চাষে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বহু গাছের কাঁচা আম ঝরে পড়েছে। বিঘার পর বিঘা জমির ফুল গাছও নষ্ট হয়ে গিয়েছে। শান্তিপুর ব্লকে আম চাষ এবং রানাঘাট-২ ব্লকে ফুল চাষে বেশি ক্ষতি হয়েছে।  বিশদ

কংসাবতীর জল বাড়তেই ঝাঁকে ঝাঁকে
রুই-কাতলা, দূরত্ববিধি উপেক্ষা করে ধরতে ভিড় 

হরিহর ঘোষাল, মেদিনীপুর: উম-পুনের জেরে কংসাবতী নদীর জল বাড়তেই ঝাঁকে ঝাঁকে উঠে এল রুই-কাতলা। সামাজিক দূরত্ববিধি উপেক্ষা করে মেদিনীপুর সদর ব্লকের কঙ্কাবতীতে মাছ ধরতে ভিড় উপচে পড়ল। শুক্রবার সকাল থেকে মাছ ধরতে ভিড় জমাচ্ছেন ঝাড়গ্রাম জেলার মানুষও।  বিশদ

দুর্যোগ কাটতেই ভিড় বীরভূমের বাজারে, আতঙ্ক 

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিউড়ি: দুর্যোগের মেঘ কাটতেই বীরভূমের বাজারগুলিতে ভিড় আছড়ে পড়ল। সিউড়ি, বোলপুর, রামপুরহাট, সাঁইথিয়া প্রভৃতি শহরেই বাসিন্দারা কেনাকাটায় ভিড় জমান। তবে, বাজারে করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে স্বাস্থ্যবিধিতে মানার দাবি জানিয়েছেন জেলার সচেতন নাগরিকরা।  বিশদ

উম-পুনে পশ্চিম মেদিনীপুরে কৃষি,
ফুল ও আমে ক্ষতি ৫৬ কোটি টাকা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, মেদিনীপুর: উম-পুনের তাণ্ডবে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় সব্জি, পান, ফল এবং ফুলচাষে প্রায় ৫৬ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। ইতিমধ্যেই জেলার বিভিন্ন ব্লকে উদ্যান পালন দপ্তরের পক্ষ থেকে প্রাথমিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির রিপোর্ট তৈরির কাজ শুরু হয়েছে।   বিশদ

উম-পুনে ক্ষতির পরিমাণ ৩১৪ কোটি
টাকা, ক্ষতিগ্রস্ত ১ লক্ষ ২৩ হাজার মানুষ 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্ধমান: উম-পুনের জেরে পূর্ব বর্ধমান জেলাতে ১ লক্ষ ২৩ হাজারের বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। সেই সঙ্গে বাড়ি ভাঙা, গোরুর মৃত্যু, পোলট্রি মুরগির মৃত্যু সহ বোরো ধান, তিল সব্জি মিলিয়ে জেলায় মোট ক্ষতির পরিমাণ ৩১৪ কোটি টাকা।   বিশদ

উম-পুনের তাণ্ডবে নদীয়া জেলায় ১৫
হাজার ৮৮৫টি বাড়ি সম্পূর্ণ ভেঙেছে 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কৃষ্ণনগর: উপ-পুনের জেরে নদীয়া জেলায় প্রায় ৫৫ হাজার বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে সম্পূর্ণ ভেঙে গিয়েছে ১৫হাজার ৮৮৫টি বাড়ি, ৩৯ হাজার ৪৭৯টি বাড়ির আংশিক ক্ষতি হয়েছে। জেলার ১৮টি ব্লকের সমস্ত পঞ্চায়েতে ঝড়ের প্রভাব পড়েছে।  বিশদ

উম-পুনের দাপটে ভেঙেছে ৪০হাজারের
বেশি খুঁটি, জেলায় ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিপর্যয় 

শ্রীকান্ত পড়্যা, তমলুক, নিজস্ব প্রতিনিধি: উম-পুনের দাপটে ৪০হাজারের বেশি খুঁটি ভেঙে যাওয়ায় পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। বিদ্যুৎ বণ্টন সংস্থার নিজস্ব কর্মী থেকে ইঞ্জিনিয়ার, ঠিকাদার সংস্থার অধীন কয়েকশো কর্মী যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে ময়দানে নেমেছেন।  বিশদ

উম-পুনের বিধ্বংসী তাণ্ডবের
দু’দিন পরেও বিপর্যস্ত কাঁথি মহকুমা 

সংবাদদাতা, কাঁথি: উম-পুনের বিধ্বংসী তাণ্ডবের পর দু’দিন কেটে গেলেও স্বাভাবিক হতে পারেনি কাঁথি ও এগরা মহকুমা। দুই মহকুমায় গ্রাম কিংবা শহর, সর্বত্র ধ্বংসের চিহ্ন ছড়িয়ে রয়েছে। গ্রামে গ্রামে বহু মানুষ ত্রাণ শিবিরে রয়েছেন।  বিশদ

উম-পুনের দাপটে সবংয়ের বিস্তীর্ণ
এলাকা বিপর্যস্ত, ব্যাহত যোগাযোগ 

সংবাদদাতা, খড়্গপুর: উম-পুনের দাপটে সবংয়ের বিস্তীর্ণ এলাকা বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে কেলেঘাই ও কপালেশ্বরী নদী সংলগ্ন এলাকায় বেশি ক্ষতি হয়েছে। গাছ ভেঙে পড়ায় বহু এলাকায় স্বাভাবিক যোগাযোগ ব্যবস্থা ব্যাহত হচ্ছে।  বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উম-পুন বিধ্বস্ত এলাকার থানাগুলিতে বিদ্যুৎ ও পানীয় জলের পরিষেবা মিলছে না। বিদ্যুৎ সংযোগ কবে ফের স্বাভাবিক হবে, তা কারওরই জানা নেই। আলো বলতে টর্চই ভরসা। কিন্তু তাও হাতেগোনা। এই অবস্থায় ইমার্জেন্সি লাইট ও টর্চ চেয়ে ঘন ঘন ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উম-পুনের আঘাতে রাজ্যে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির মোকাবিলায় এক হাজার কোটি টাকা অনুদান সংক্রান্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘোষণাকে স্বাগত জানাল বাম ও কংগ্রেস। ...

  মুম্বই, ২২ মে (পিটিআই): কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসার জন্য বেসরকারি এবং চ্যারিটেবল হাসপাতালের শয্যার ভাড়ার তিনটি ধাপে বেঁধে দিল মহারাষ্ট্র সরকার। একইসঙ্গে সরকার ঠিক করেছে, এই স্ল্যাবের মধ্যে কোভিড-১৯ রোগীদের জন্য মোট বেডের ৮০ শতাংশ ধরে রাখতে হবে। ...

 টোকিও, ২২ মে: আগামী বছর টোকিও ওলিম্পিকস আয়োজন নিয়ে প্রতিনিয়ত অনিশ্চয়তা তৈরি হচ্ছে। আন্তর্জাতিক ওলিম্পিক কমিটির (আইওসি) শীর্ষ কর্তা জন কোটস পরিষ্কার জানিয়েছেন, 'আগামী বছর ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মক্ষেত্রে সহকর্মীর ঈর্ষার কারণে সম্মানহানি হবে। ব্যবসায়ীদের আশানুরূপ লাভ না হলেও মন্দ হবে না। দীর্ঘ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯০৬-নাট্যকার হেনরিক ইবসেনের মৃত্যু
১৯১৮: ইংরেজ ক্রিকেটার ডেনিস কম্পটনের জন্ম
১৯১৯-জয়পুরের রাজমাতা গায়ত্রী দেবীর জন্ম
১৯৫১-বিশিষ্ট দাবাড়ু আনাতোলি কারাপোভের জন্ম



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৮৯ টাকা ৭৪.৮৯ টাকা
পাউন্ড ৯০.৮৮ টাকা ৯০.৮৮ টাকা
ইউরো ৯০.৮৮ টাকা ৮৪.৩৫ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৩ মে ২০২০, শনিবার, প্রতিপদ ৪৮/২০ রাত্রি ১২/১৮। রোহিণীনক্ষত্র ৫৯/৪৬ রাত্রি ৪/৫২। সূর্যোদয় ৪/৫৭/২৯, সূর্যাস্ত ৬/৯/৫। অমৃতযোগ দিবা ৩/৩১ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৬/৫২ গতে ৭/৩৫ মধ্যে পুনঃ ১১/১২ গতে ১/২১ মধ্যে পুনঃ ২/৪৭ গতে অস্তাবধি। বারবেলা ৬/৩৭ মধ্যে পুনঃ ১/১২ গতে ২/৫১ মধ্যে পুনঃ ৪/৩০ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ৭/৩০ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৭ গতে উদয়াবধি।
৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৩ মে ২০২০, শনিবার, প্রতিপদ রাত্রি ১১/৪২। সূর্যোদয় ৪/৫৭, সূর্যাস্ত ৬/১২। রোহিণীনক্ষত্র শেষরাত্রি ৪/৩৪। অমৃতযোগ দিবা ৩/৩৬ গতে ৬/১২ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/০ গতে ৭/৪২ মধ্যে ও ১১/১৬ গতে ১/২২ মধ্যে ও ২/৪৮ গতে ৪/৫৭ মধ্যে। কালবেলা ৬/৩৬ মধ্যে ও ১/১৩ গতে ২/৫৩ মধ্যে ও ৪/৩২ গতে ৬/১২ মধ্যে কালরাত্রি ৭/৩২ মধ্যে ও ৩/৩৬ গতে ৪/৫৭ মধ্যে।
 ২৯ রমজান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
গুজরাতে কোভিড-১৯ পজিটিভ আরও ৩৯৬ জন, মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৩,৬৬৯ 

08:26:36 PM

ইদ পালিত হবে ২৫ মে
আগামী ২৫ মে ইদ পালিত হবে। আজ চাঁদ দেখা যায়নি। ...বিশদ

08:05:14 PM

মহারাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হলেন ২,৬০৮ জন, মৃত ৬০ 

08:01:30 PM

সিকিমে প্রথম করোনা রোগীর সন্ধান মিলল 
প্রথম করোনা রোগীর সন্ধান মিলল সিকিমে। দিল্লি থেকে ফেরা এক ...বিশদ

07:54:38 PM

রাজ্যে করোনা আক্রান্ত আরও ১২৭ জন 
রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১২৭ জনের শরীরে মিলল করোনা ...বিশদ

07:43:40 PM

 উপসর্গ না থাকলে এবার ১০ দিনেই ছুটি করোনা রোগীর
এবার থেকে মৃদু উপসর্গ বা উপসর্গ না থাকা করোনা ...বিশদ

07:34:00 PM