Bartaman Patrika
উত্তরবঙ্গ
 

জলপাইগুড়িতে  জাতীয় সড়কে উড়ছে ধুলো, রাস্তার ধারের পুজো উদ্যোক্তাদের মাথায় হাত

 বিএনএ, জলপাইগুড়ি: জলপাইগুড়িতে ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কে ধুলোর জেরে চিন্তিত হয়ে পড়েছেন পুজো উদ্যোক্তারা। রাস্তার কাজ হওয়ায় ধুলোয় জাতীয় সড়কের দু’ধারে পুজো দেখতে যাওয়া দর্শনার্থীদের সমস্যা মুখে পড়তে হবে। জেলার সদর ব্লক, ময়নাগুড়ি, ধূপগুড়ি সহ বিস্তীর্ণ এলাকায় জাতীয় সড়কের দু’পাশে প্রচুর দুর্গাপুজো হয়। তাই ওসব ক্লাবের কর্মকর্তাদের মাথায় হাত পড়েছে। বিপুল টাকা খরচ করে পুজোর আয়োজনের পর ধুলোর কারণে দর্শনার্থীদের অসুবিধা হলে পুজোর আনন্দই মাটি হয়ে যেতে পারে। সমস্যা নিরসনের জন্য জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনায় বসার প্রস্তুতি নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস সহ জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষকে এই বিষয়ে সম্প্রতি চিঠি দিয়েছেন ধূপগুড়ির বিধায়ক তৃণমূল কংগ্রেসের মিতালি রায়। পুজোর আগে রাস্তার কাজ শেষ করতে কেন কেন্দ্রীয় সরকার উদ্যোগী হচ্ছে না সেনিয়ে বিধায়ক প্রশ্ন তুলেছেন। পাল্টা রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে অসহযোগিতার অভিযোগ তুলেছে গেরুয়া শিবির। যদিও জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বরাতপ্রাপ্ত নির্মাণ সংস্থার সঙ্গে এব্যপারে কথা বলা হবে। পাতকাটা কালচারাল ক্লাবের দুর্গাপুজো কমিটির সহ সম্পাদক মিন্টু ধর বলেন, জাতীয় সড়কের কাজের জন্য রাস্তায় ধুলোর আস্তরণ জমেছে। বালি আর ধুলোতে পুজোর সময় সমস্যায় পড়বেন দর্শনার্থীরা। নতুন জামা কাপড় পরে পুজো দেখার আনন্দ ধুলোর কারণে নষ্ট হয়ে যেতে পারে। ধুলোর জন্য পুজার আনন্দ যাতে নষ্ট না হয় সেজন্য প্রশাসনকে এখনই উদ্যোগ নিতে হবে।
জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের প্রজেক্ট ডিরেক্টর প্রদ্যুৎ দাশগুপ্ত বলেন, ধুলোর বিষয়ে নির্মাণকারী সংস্থার সঙ্গে আমি কথা বলেছি। পুজোর সময় যাতে সমস্যা না হয় সেব্যাপারে আমরা সজাগ আছি। প্রয়োজনে রাস্তায় আরও বেশি করে জল দেওয়া হবে।
জলপাইগুড়ির ডেপুটি পুলিস সুপার (ট্রাফিক) দিবাকর দাস বলেন, ধুলোর কারণে আমাদের কর্মীরা রাস্তায় যানজট নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে সমস্যা পড়ছেন। আমরা এনিয়ে জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছি। আশা করি, তারা দ্রুত কোনও পদক্ষেপ করবে।
ধূপগুড়ির বিধায়ক মিতালীদেবী বলেন, পুজো উদ্যোক্তারা লক্ষ লক্ষ টাকা ব্যয় করে পুজো করছেন কিন্তু এমন পরিস্থিতি থাকলেও লোকে মণ্ডপের দিকেই যাবে না। আমি এসব নিয়ে পূর্তমন্ত্রীকে কিছু দিন আগে চিঠি দিয়ে জানিয়েছি। কেন্দ্রীয় সরকার উদ্যোগী না হলে এর সমাধান সহজে সম্ভব নয়।
বিজেপির জলপাইগুড়ি জেলার সাধারণ সম্পাদক বাপি গোস্বামী বলেন, রাজ্য সরকারের অসহযোগিতা আর তৃণমূলের সিন্ডিকেট রাজের জন্য রাস্তার কাজ বিলম্বিত হচ্ছে। আমাদের সংসদ সদস্য জয়ন্ত রায় রাস্তার কাজ ত্বরান্বিত করতে উদ্যোগী হয়েছেন। পুজোর সময় যাতে সাধারণ মানুষ সমস্যা না হয় সেজন্য আমরাও ওপর মহলে কথা বলব।
জলপাইগুড়ির মোহিতনগর থেকে ময়নাগুড়ি পর্যন্ত জাতীয় সড়কে বিভিন্ন অংশ সম্প্রসারণের জন্য খানাখন্দে ভর্তি হয় আছে। এই জাতীয় সড়কের ধরেই পাতকাটা, টোকাটুলি, ঝুমুর সেতু, ময়নাগুড়ি রেল লাইন, তিস্তা সেতু সহ বিস্তীর্ণ এলাকা এতটাই খানাখন্দ যে সাধারণ মানুষকে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। ওসব গর্ত পিচ দিয়ে না বন্ধ করে বালি আর ছোট পাথর দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। সেই বালি শুকিয়ে ধুলো উড়ছে। ওসব এলাকায় প্রচুর পুজো হয়। সেই ধুলোর জন্য রাস্তার পাশের পুজো উদ্যোক্তারা আতঙ্কে রয়েছেন। ধুলো আটকাতে জল দেওয়া হলেও তা পর্যাপ্ত নয়।

12th  September, 2019
একইদিনে উত্তর মালদহে
মমতা ও মোদির সভা

উত্তর মালদহে একইদিনে নরেন্দ্র মোদি ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভাকে কেন্দ্র করে বিজেপি ও তৃণমূল উভয় শিবিরে সাজো সাজো রব। আগামী বৃহস্পতিবার ওই দুই হেভিওয়েট সভা করতে চলেছেন। এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমোর জনসভা ঘিরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে জেলা পুলিস ও প্রশাসনের কর্তাদের রাতের ঘুম উধাও।  বিশদ

তৃণমূল ও বিজেপি প্রার্থীর ভোট
এলাকায়, কং প্রার্থীর শিলিগুড়িতে

মাটিগাড়া-নকশালবাড়ি কেন্দ্রের সংযুক্ত মোর্চার কং প্রার্থী শঙ্কর মালাকার এবারও লাইনে দাঁড়িয়ে নিজের নাম-প্রতীকে ভোট দিতে পারবেন না। তবে তিনি জানিয়েছেন, শিলিগুড়ি কেন্দ্রে তাঁদের জোটের প্রার্থী বামফ্রন্টের অশোক ভট্টাচার্যকে ভোট দেবেন। শঙ্করবাবুর বাড়ি শিলিগুড়ি শহরে। বিশদ

দক্ষিণ দিনাজপুরে ভোট প্রচারে নজর
কাড়ছে সব দলেরই প্রমীলা বাহিনী

তৃণমূল, বিজেপি ও বাম— তিন দলেরই প্রচারে মুখ্য ভূমিকা নিচ্ছে প্রমীলা বাহিনী। বাড়ির কাজকর্ম সেরে সকাল-সন্ধ্যা তারা এলাকায় লিফলেট নিয়ে বেরিয়ে পড়ছেন। একপাড়া  থেকে অন্যপাড়ায় বাড়ি বাড়ি প্রচারে রীতিমতো দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন বিভিন্ন দলের মহিলা সদস্যরা।  বিশদ

বিধানসভা এলাকায় পানীয় জলের সমস্যা
সমাধানই আমার প্রথম লক্ষ্য

একুশের ভোটে প্রথম দাবি তপন বিধানসভা এলাকায় পানীয় জলের সমস্যা মেটানো। গত ১০ বছর ধরে তপনে তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় ছিল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় আসার পর থেকে তপন বিধানসভা এলাকায় কোনও উন্নয়ন হয়নি। তপন ব্লক ও বিধানসভা এলাকা জুড়ে সব থেকে বড় সমস্যা জলের। বিশদ

ছোট থেকেই রাজনৈতিক আঙিনায়
বড় হয়েছি, মানুষের মনের কথা বুঝি

লোকসভা নির্বাচনের সময় প্রবল মোদি হাওয়াতেও গোয়ালপোখর থেকে ৫০ হাজার ভোটে তৃণমূল প্রার্থীকে লিড দিয়েছে এখানকার মানুষ। সাম্প্রদায়িক দল বিজেপিকে মানুষ ভোট দেবে না। আমার বাবা প্রয়াত ইমাজ উদ্দিন ১৯৫৭ সাল থেকে গোয়ালপোখরে ব্লক কংগ্রেসের সভাপতি ছিলেন। বিশদ

এনআরসি আতঙ্কে কাঁপছেন
রাজগঞ্জের বাসিন্দারা

রাজগঞ্জে আতঙ্কের আরএক নাম এনআরসি। এই বিধানসভা কেন্দ্রের ভোটের ময়দান ঘুরে এমনই সংলাপ শোনা গিয়েছে। ভরদুপুরে রাজগঞ্জ বাজারের পাশে সুভাষপল্লিতে কাঠের দোকানের সামনে বসে থাকা তিন ব্যবসায়ীর সঙ্গে আলাপচারিতায় সেই আতঙ্কের আঁচ মিলল। বিশদ

‘এবার আমাকে দেখবেন’
আবেদন প্রার্থী রেখা রায়ের

সকাল আটটা থেকেই কুশমণ্ডির দেহবন্ধ মোড়ে তৃণমূল প্রার্থীর অপেক্ষায় ছিলেন তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা। কুশমণ্ডি সদর থেকে প্রায় ৩০ কিমি পথ পেরিয়ে প্রচারের গাড়ি নিয়ে পৌঁছলেন প্রার্থী রেখা রায়। গাড়ি থেকে নেমেই দেহবন্ধ হনুমান মন্দিরে প্রণাম করে কর্মীদের বললেন ‘দাদা কোথায় যাবো’ ? পরে তাঁদের বলেন, আমাকে বেশ কয়েকটি গ্রাম পঞ্চায়েত ঘুরতে হবে। বিশদ

মালদহের সভায় মহিলাদের মন
পেতে ঢালাও প্রতিশ্রুতি স্মৃতির

ইংলিশবাজার কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরির সমর্থনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে দলের ইস্তাহারে উল্লিখিত বিষয়গুলিরই পুনরাবৃত্তি করলেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি। বাংলা নববর্ষে মালদহের ফোয়ারা মোড়ে পথসভার পাশাপাশি ইংলিশবাজারে রোড শো করেন স্মৃতি। বিশদ

জলপাইগুড়ি শহরে এল 
৩০ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী

কাল, শনিবার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জলপাইগুড়ি সদরে মোতায়েন হচ্ছে ৩০০০ কেন্দ্রীয় বাহিনী ও ৭০০ রাজ্য পুলিস। ইতিমধ্যেই এই বাহিনী শহরে ঢুকেছে। শহরে আসা ৩০ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী অর্থাৎ প্রায় ৩০০০ জনের মধ্যে রয়েছেন সিআরপিএফ, সিআইএসএফ, বিএসএফ, উত্তরপ্রদেশের সশস্ত্র বাহিনীর জওয়ানরা। বিশদ

৩টি নদী, জঙ্গল পেরিয়ে আসতে 
হয় বুথে, গাড়ির দাবি ভোটারদের

ময়নাগুড়ি ব্লকের পূর্ব ডোববাড়ির ভোটাররা ভোট গ্রহণের দিন বুথে আসার জন্য সরকারি গাড়ি দেওয়ার দাবি তুলেছেন। কারণ ডোববাড়ি গ্রামের বাসিন্দারা ভোট দিতে আসেন সাড়ে তিনকিমি দূরে রামশাই বাজারে। তাঁদের তিনটি নদী ও জঙ্গল পেরিয়ে ভোট দিতে আসতে হয়। জঙ্গলে হাতি, চিতাবাঘের হামলার ভয় থাকে। বিশদ

রায়বাড়ির বাসন্তীপুজো
৩০০ বছরে

আলিপুরদুয়ার শহরের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের ইটখোলায় রায়বাড়ির তিনপুরুষের পারিবারিক বাসন্তীপুজোর প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে। রায়বাড়ির এই পুজো এবার ৩০০ বছরে পড়ল। বাংলাদেশের ঢাকা শহরের ধামরাইলে রায়বাড়ির এই পারিবারিক বাসন্তীপুজোর সূচনা হয়েছিল। বিশদ

ভোট শেষ হতেই প্রচারে ব্যবহৃত
ঝান্ডা খোলা শুরু, খুশি বাসিন্দারা

গত শনিবার, ১০ এপ্রিল ভোট শেষ হওয়ার পর দিন রবিবার থেকেই বিজেপি, তৃণমূল কংগ্রেস, সংযুক্ত মোর্চা তাদের দলীয় ঝাণ্ডা খুলতে শুরু করেছে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে ব্যানার, ফ্লেক্সগুলিও খুলে রাখা হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে বিজেপির বেশি তৎপরতা দেখা যাচ্ছে। বিজেপি কর্মীদের দাবি, এবার চাহিদা অনুযায়ী পতাকা কম এসেছে। বিশদ

পাহাড়ের ভোটে স্বস্তিতে নেই বিজেপি,
রাজনৈতিক সমীকরণেই চোখ সকলের  

বুধবারই পাহাড়ে ভোটের প্রচার শেষ হয়েছে। কাল, শনিবার পঞ্চম দফায় পাহাড়ের তিনটি বিধানসভা কেন্দ্র দার্জিলিং, কার্শিয়াং ও কালিম্পংয়ে ভোটগ্রহণ। কিন্তু, নানা কারণে গত বিধানসভা ভোটের থেকে এবার পাহাড়ের ভোট সবদিক থেকেই গুরুত্বপূর্ণ। তাই পাহাড়ের ভেটের দিকে তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল।  বিশদ

নজর কাড়তে হরিরামপুরে
রণপায় প্রচার তৃণমূলের

বৃহস্পতিবার দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হরিরামপুরে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রচারে সাধারণ মানুষের নজর কাড়ল রণপা। এদিন হরিরামপুর সদর এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতীক ঘাস ফুলের টি শার্ট ও বুকে একটি মাইক নিয়ে রণপা হরিরামপুর এলাকা জুড়ে প্রচার করল। বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
এবার হাই ভোল্টেজ নির্বাচন। বাংলা কার দখলে থাকবে, তা নিয়ে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। একুশের ভোট প্রতি মুহূর্তে ‘নাটকীয় মোড়’ নিচ্ছে। ৮০ বছরের ঊর্ধ্বে যাঁদের বয়স ...

প্রখর রোদ মাথায় দু’দিকের সবুজ ধানখেতের বুক চিরে মঙ্গলকোটের ন’পাড়া, ভাটপাড়ার দিকে এগতেই একটা বাঁশের মাচা নজরে এল। সেখানেই বটগাছের শান্ত ছায়ায় কয়েকজন যুবক আড্ডা ...

প্রত্যাশা মতোই উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালে জায়গা করে নিল রিয়াল মাদ্রিদ। বুধবার অ্যানফিল্ডে কোয়ার্টার-ফাইনালের ফিরতি পর্বে লিভারপুলের বিরুদ্ধে তাদের ম্যাচ শেষ হল গোলশূন্যভাবে। চোট-আঘাতের কারণে ...

চলতি মাসে একদিনের জন্য ভারত সফরে যাচ্ছেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। প্রাথমিকভাবে চারদিনের জন্য ভারতে আসার কথা থাকলেও, করোনার জন্য সফর কাটছাঁট করে একদিন হচ্ছে। ব্রেক্সিট পরবর্তী সময়ে ভারতের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের উন্নতিতে জোর দিয়েছে জনসন প্রশাসন। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

প্রেম-প্রণয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্ব থাকবে। কারও কথায় মর্মাহত হতে হবে। ব্যবসায় যুক্ত হওয়া যেতে পারে। কর্মে সুনাম ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব কণ্ঠ দিবস
১৮৫০:  মাদাম তুসো জাদুঘরের প্রতিষ্ঠাতা ম্যারি তুসোর মৃত্যু
১৮৫৩: প্রথম ট্রেন চলল সাবেক বোম্বাইয়ের ভিক্টোরিয়া থেকে থানে পর্যন্ত
১৮৬৭: উড়োজাহাজের আবিষ্কারক উইলবার রাইটের জন্ম
১৮৮৯: অভিনেতা চার্লি চ্যাপলিনের জন্ম
১৯১৬ - রবীন্দ্রনাথ শান্তিনিকেতনের বিশ্বভারতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন
১৯৫১: লেখক অদ্বৈত মল্লবর্মণের মৃত্যু
১৯৬৬: শিল্পী নন্দলাল বসুর মৃত্যু
১৯৭৮: অভিনেত্রী লারা দত্তর জন্ম  



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৪৪ টাকা ৭৬.১৬ টাকা
পাউন্ড ১০১.৯৫ টাকা ১০৫.৪৪ টাকা
ইউরো ৮৮.৫৮ টাকা ৯১.৭৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৭,৫০০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৫,০৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৫,৭৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৮,৫০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৮,৬০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২ বৈশাখ ১৪২৮, শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১। চতুর্থী ৩১/৫৬ সন্ধ্যা ৬/৬। রোহিণী নক্ষত্র ৪৫/৪৮ রাত্রি ১১/৪০। সূর্যোদয় ৫/১৯/৩৮, সূর্যাস্ত ৫/৫৩/২৬। অমৃতযোগ দিবা ৭/১ মধ্যে পুনঃ ৭/৫১ গতে ১০/২২ মধ্যে পুনঃ ১২/৫২ গতে ২/৩২ মধ্যে পুনঃ ৪/১৩ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৭/২৪ গতে ৮/৫৬ মধ্যে পুনঃ ৩/৩ গতে ৩/৪৯ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ১০/২৮ গতে ১১/১৩ মধ্যে। পুনঃ ৩/৪৯ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৮/২৮ গতে ১১/৩৭ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৪৫ গতে ১০/১০ মধ্যে। 
২ বৈশাখ ১৪২৮, শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১। চতুর্থী দিবা ৩/২। রোহিণী নক্ষত্র রাত্রি ৮/৫৫। সূর্যোদয় ৫/২০, সূর্যাস্ত ৫/৫৫। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪৮ মধ্যে ও ৭/৪০ গতে ১০/১৬ মধ্যে ও ১২/৫২ গতে ২/৩৪ মধ্যে ও ৪/১৮ গতে ৫/৫৫ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৩০ মধ্যে ৮/৫৮ মধ্যে ও ২/৫৩ গতে ৩/৩৭ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ১০/২৭ গতে ১১/১১ মধ্যে ও ৩/৩৭ গতে ৫/১৯ মধ্যে। বারবেলা ৮/২৯ গতে ১১/৩৭ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৪৬ গতে ১০/১২ মধ্যে। 
৩ রমজান।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
বাংলায় মেরুদণ্ড ভাঙার ক্ষমতা বিজেপির নেই : মমতা

01:53:23 PM

বিনামূল্যে টিকার অনুমতি দেয়নি কেন্দ্র : মমতা

01:52:59 PM

তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় এলে দুয়ারে রেশন : মমতা

01:52:36 PM

বাংলায় কারও নাগরিকত্ব যাবে না : মমতা
 

01:45:43 PM

বাংলায় সবাই নাগরিক : মমতা

01:42:11 PM

লড়াইয়ে না পেরে করোনা ছড়াচ্ছে বিজেপি : মমতা

01:41:44 PM