Bartaman Patrika
বিদেশ
 

প্রেসিডেন্ট কলিন্ডাই অনুপ্রেরণা, বলছেন মডরিচ, র‌্যাকিতিচরা

মৃণালকান্তি দাস, কলকাতা, ৮ জুলাই: আকর্ষণীয় রূপের সুবাদে আলোকচিত্রীদের লেন্স সব সময় তাঁকে খুঁজে বেড়ায়। নানা রঙের রঙিন সাজে সেজে ওঠা সোচির স্টেডিয়ামেও তিনি ছিলেন মধ্যমণি। কখনও উল্লাসে নেচে উঠেছেন, কখনও রুশ প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভের সঙ্গে আলিঙ্গন করেছেন। দুনিয়ার সবচেয়ে ‘হট’ প্রেসিডেন্ট। এর আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিকবার ভাইরাল হয়েছে এই রাষ্ট্রনেতার ছবি। তাঁর দেহ-বিভঙ্গে শুধু দেশবাসীই নন, মজেছে আপামর দুনিয়া। তিনি ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট কলিন্ডা গ্রাবার-কিতারোভিচ। ক্রোয়েশিয়ার প্রথম মহিলা প্রেসিডেন্টের গায়ে দেশের জার্সি, গলায় ঝুলছে বিশ্বকাপের ফ্যান আইডি। দেখে আর পাঁচটা সাধারণ ফুটবল সমর্থক বলে ভুল হতেই পারে।
সোচিতে আরও একটি মহাকাব্যিক ম্যাচ দেখতে এসেছিলেন রাশিয়ান সমর্থকরা। কিন্তু নতুন কাব্য লিখতে পারেনি রুশরা। মুখে আলপনা আঁকা দর্শকদের চোখের জল মিলেমিশে একাকার। রঙিন গ্যালারিতে শুধুই আর্তনাদ। স্বপ্নের এত কাছে গিয়েও স্বপ্নভঙ্গের কান্না। ৫২ বছর আগের রূপকথা ধরা দিয়েও দিল না। লেভ ইয়াসিন হতে পারলেন না ইগর আকিনফিভ। প্রাক্তন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন স্পেনকে নকআউট করে বিশ্বকাপে যে রুশ বিপ্লব ঘটিয়েছেন ডেনিশ চেরিশভ-আর্তেম জুবারা, তা এক রাতেই থেমে গিয়েছে লুকা মডরিচ-ইভান র্যা কিতিচদের ক্রোয়েশিয়ার কাছে পরাজয়ে।
দলের প্রায় প্রতিটি মুভে শিহরিত হচ্ছিলেন কলিন্ডা। জয়ের আনন্দে শিশুর মতো লাফিয়ে উঠছিলেন। ভিভিআইপি বক্সে রুশ ও ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্টের মাঝে বসে ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ানি ইনফান্তিনো। কিছুটা দূরে বসে ডাভর সুকের। ৯৮ বিশ্বকাপে গোল্ডেন বুট পাওয়া ক্রোয়েশিয়া দলের নক্ষত্র। ম্যাচ শেষে ফিফা প্রেসিডেন্টকে জড়িয়েও ধরেছেন ক্রোয়েশিয়ার মহিলা প্রেসিডেন্ট।
ডেনমার্কের বিরুদ্ধে ক্রোয়েশিয়ার ম্যাচেও মাঠে ছিলেন কলিন্ডা। ম্যাচের একদিন আগেই রাশিয়ায় হাজির হওয়ার ইচ্ছে ছিল তাঁর। কিন্তু প্রশাসনিক কাজ ফেলে তা আর হয়ে ওঠেনি। তবে, ম্যাচের দিন যথাসময়ে হাজির হন স্টেডিয়ামে। ক্রোয়েশিয়া থেকে আর পাঁচজন সাধারণ নাগরিকের মতো তিনি ইকোনমি ক্লাসের টিকিট কাটেন। সাধারণ যাত্রীদের সঙ্গেই উড়ে আসেন রাশিয়ায়। আর পাঁচজন ফুটবল সমর্থকের মতোই লাইনে দাঁড়িয়ে সংগ্রহ করেন বিশ্বকাপের ফ্যান আইডি। তারপর সটান স্টেডিয়ামে। প্রিয় দলের জয়ে উচ্ছ্বাসও তাঁর ছিল আর পাঁচজন সাধারণ সমর্থকের মতোই। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেইসব ছবি শেয়ার করেছেন কলিন্ডা নিজেই। কলিন্ডা গ্রাবার-কিতরোভিচ একাধারে ক্রোয়েশিয়ার প্রশাসনিক প্রধান, সেনা প্রধান আবার ফুটবল ভক্তও। তবে, আর পাঁচজন রাষ্ট্রনায়কের মতো ভিভিআইপি বক্সে বসে খেলা দেখতে পছন্দ করেন না কলিন্ডা। বিশ্বকাপে ডেনমার্কের বিরুদ্ধে দলের খেলা দেখেছেন খোলা স্টেডিয়ামে বসেই।

শুধু দলকে সমর্থন করাই নয়, ফুটবলারদের তাতাতে ড্রেসিংরুমেও হাজির ছিলেন প্রেসিডেন্ট। এমনকী জয়ের পর প্রত্যেক ফুটবলারকে নাকি জড়িয়েও ধরেছিলেন তিনি। কলিন্ডা বলেন, ‘আসলে ভিভিআইপি বক্সে বসে খেলা দেখলে প্রথাগত পোশাক পরতে হয়। দলের হয়ে গলা ফাটাতেও সমস্যা হয়, তাই স্টেডিয়ামে বসেই খেলাটা উপভোগ করতে চাই আমি।’
২০১৫-র ১৫ ফেব্রুয়ারি, ক্রোয়েশিয়া প্রজাতন্ত্রের প্রথম মহিলা তথা দেশের চতুর্থ প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন কলিন্ডা গ্রাবার-কিতারোভিচ। ১৯৯৬ সালে জ্যাকভ কিতারোভিচের সঙ্গে বিয়ে হয় কলিন্ডা গ্রাবারের। তাঁদের দুই সন্তান, মেয়ে ক্যাটারিনা এবং ছেলে ল্যুকা। কলিন্ডা ক্রোয়েশিয়ান ছাড়াও ইংরেজি, স্প্যানিশ ও পর্তুগীজ ভাষায় দুরন্ত। এছাড়া জার্মান, ফ্রেঞ্চ ও ইতালিয়ান ভাষাও তিনি বুঝতে পারেন। এক সময় তাঁর বিকিনি শোভিতা ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় তুফান তুলেছে। অনেকের মতে, বিশ্বে এমন রূপসী এবং যৌন আবেদনময়ী রাষ্ট্রনেতা এ যাবৎ দেখা যায়নি। তবে সৈকতাবাসে অবসর যাপনের সময় প্রেসিডেন্টের লাস্যময়ী রূপ ঠিক কবে ক্যামেরাবন্দি হয়েছিল, সেই ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত সঠিক তথ্য মেলেনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় যৌন আবেদনপূর্ণ রূপসী প্রেসিডেন্টের ছবি প্রকাশিত হতেই অভিনন্দন ও প্রশংসার ঝড় বয়ে গিয়েছিল। কারও কারও অভিমত, দেশের সর্বোচ্চ পদে বসার আগেই এই ছবিগুলি তোলা হয়েছিল। তাঁর সম্পর্কে ট্যুইটারে নানা মজাদার মন্তব্য চলে বছরভর। সেই সব মন্তব্য পড়লে প্রেসিডেন্ট গ্রাবার-কিতারোভিচ হয়তো হেসে গড়িয়ে পড়বেন। তবে সরকারি ভাবে এসব সম্পর্কে তিনি নির্লিপ্ত। যেন পাত্তাই দেন না কোনও সমালোচনায়। এহেন প্রেসিডেন্টকে নিয়ে উচ্ছ্বসিত র্যা কিতিচ, মডরিচরা বলছেন, তাঁদের অনুপ্রেরণা কিন্তু কলিন্ডাই।

09th  July, 2018
নাগরিকত্ব আইন মোদি সরকারের ব্যর্থতা, প্রতিবাদের ঝড় ব্রিটেনেও 

লন্ডন, ১৫ ডিসেম্বর (পিটিআই): সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে বিক্ষোভের আঁচ ছড়িয়ে পড়ল সাগরপারেও। শনিবার ব্রিটেনের রাজধানী লন্ডনে ভারতীয় হাই কমিশনের সামনে এই ইস্যুতে বিক্ষোভ দেখালেন বহু মানুষ। সাফ জানালেন, এটা আসলে মোদি সরকারের ব্যর্থতা। ব্রিটেনে বসবাসকারী অসমিয়ারা বিক্ষোভের সামনের সারিতে ছিলেন। 
বিশদ

ফিলিপিন্সে ৬.৮ মাত্রার ভূমিকম্প, মৃত ১ 

ম্যানিলা, ১৫ ডিসেম্বর (এএফপি): রবিবার জোরালো ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল দক্ষিণ ফিলিপিন্সের মিন্ডানাও দ্বীপ। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৬.৮। অক্টোবর মাসে ওই অঞ্চলেই ভূমিকম্পের জেরে প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছিল। এদিনের ভূমিকম্পে বাড়ি ভেঙে একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে।
বিশদ

নেপালে খাদে বাস, মৃত ১৪ 

কাঠমাণ্ডু, ১৫ ডিসেম্বর (পিটিআই): হাইওয়েতে যাত্রীবোঝাই বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ১০০ মিটার গভীর খাদে পড়ল। মৃত্যু হল ১৪ জনের। মৃতদের মধ্যে তিন শিশু রয়েছে। রবিবার ঘটনাটি ঘটেছে নেপালের সিন্ধুপালচকে। পুলিস জানিয়েছে, দুর্ঘটনার জেরে আরও ১৮ জন জখম হয়েছেন। 
বিশদ

‘বুধবার হবে টু-প্লাস-টু বৈঠক’
চীনকে দমিয়ে রাখতে ভারত সহ তিন দেশের সঙ্গে গোয়েন্দা তথ্য বিনিময় করতে চায় আমেরিকা

ওয়াশিংটন, ১৪ ডিসেম্বর (পিটিআই): লক্ষ্য ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে চীনের আগ্রাসন মোকাবিলা। আর সেই উদ্দেশেই গোয়েন্দা তথ্য আদানপ্রদানের জন্য ভারতকে পাশে চাইছে আমেরিকা।
বিশদ

15th  December, 2019
নিষেধাজ্ঞার মাঝেই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা সারল উত্তর কোরিয়া

সিওল, ১৪ ডিসেম্বর (পিটিআই): আমেরিকার সঙ্গে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে উত্তর কোরিয়ার আলোচনার দিনক্ষণ এগিয়ে আসছে। তার আগেই গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা সারল উত্তর কোরিয়া। সে দেশের প্রতিরক্ষা দপ্তর (এনএনএডিএস) সূত্রে জানানো হয়েছে, ‘সোহে কৃত্রিম উপগ্রহ উৎক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে ১৩ ডিসেম্বর গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে।’
বিশদ

15th  December, 2019
‘আমাকে ইমপিচ করাটা অন্যায়’, ট্যুইটারে ট্রাম্প

 ওয়াশিংটন, ১৪ ডিসেম্বর (পিটিআই): ‘আমার কোনও দোষ নেই। তবু আমাকে ইমপিচ করা হচ্ছে। এটা অন্যায়।’ শুক্রবার ট্যুইটারে এভাবেই ইমপিচমেন্ট বিতর্কে ক্ষোভ উগরে দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন কংগ্রেসের জুডিশিয়ারি কমিটি ট্রাম্পের ‘অপসারণ’ অনুমোদন করে দেওয়ায় তা এখন হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের হাতে চলে গিয়েছে।
বিশদ

15th  December, 2019
পাকিস্তানে পথ দুর্ঘটনায় মৃত ১৫ 

করাচি, ১৩ ডিসেম্বর (পিটিআই): মুখোমুখি দু’টি গাড়ির সংঘর্ষে মৃত্যু হল অন্তত ১৫ জনের। শুক্রবার মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ-পশ্চিম পাকিস্তানের বালুচিস্তান প্রদেশের কিল্লা সইফুল্লা জেলায়।
বিশদ

14th  December, 2019
প্যারিসে পুলিসের গুলিতে খতম হামলাকারী 

প্যারিস, ১৩ ডিসেম্বর (এপি): প্রথমে হুমকি। তারপরেই ছুরি নিয়ে পুলিসের টহলদারি দলের উপর হামলা চালায় এক ব্যক্তি। তাকে গুলি করে নিকেশ করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ফ্রান্সের প্যারিসে।
বিশদ

14th  December, 2019
ব্রিটিশ সংসদে আরও চার ভারতীয় বংশোদ্ভূত, মোট ১৫
৩১ জানুয়ারির মধ্যে ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ
করব, ক্ষমতায় ফিরে ঘোষণা বরিস জনসনের 

রূপাঞ্জনা দত্ত, লন্ডন, ১৩ ডিসেম্বর: ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ফিরে আসলেন বরিস জনসন। তাঁর দল কনজারভেটিভ পার্টি একাই পেয়েছে ৩৬৪টি আসন। ফল ঘোষণার পরেই বরিস ব্রিটেনের রানি এলিজাবেথের সঙ্গে দেখা করে সরকার গঠনের অনুমতি চেয়েছেন।  
বিশদ

14th  December, 2019
সন্ত্রাসবাদের প্রতিটা ঘটনায় পাকিস্তানের হাত রয়েছে, রাষ্ট্রসঙ্ঘে তুলোধোনা ভারতের

রাষ্ট্রসঙ্ঘ, ১৩ ডিসেম্বর (পিটিআই): সন্ত্রাস নিয়ে রাষ্ট্রসঙ্ঘে পাকিস্তানকে তুলোধোনা করল ভারত। সাফ জানিয়ে দিল, আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের প্রতিটা বড় ঘটনায় ছাপ রয়েছে পাকিস্তানের। পাশাপাশি, সে দেশের নিরাপদ আশ্রয়ে প্রশিক্ষিত জঙ্গিদের হাতে নিরীহ মানুষ খুন হচ্ছেন বলেও ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছে নয়াদিল্লি। 
বিশদ

14th  December, 2019
ট্রাম্পের ইমপিচমেন্টের ভোটাভুটি পিছনোয় অসন্তুষ্ট রিপাবলিকানরা 

ওয়াশিংটন, ১৩ ডিসেম্বর (এএফপি): টানা ১৪ ঘণ্টা ম্যারাথন বিতর্ক শেষে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ইমপিচমেন্ট প্রক্রিয়ায় শুক্রবার ভোটাভুটি করতে সম্মত হলেন ডেমোক্র্যাটরা। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ‘অসদাচরণ’-এর অভিযোগ তুলে তাঁর ইমপিচমেন্ট বা অপসারণ দাবি করেছেন বিরোধীরা। 
বিশদ

14th  December, 2019
ফোর্বসের প্রভাবশালী মহিলাদের তালিকায় ঠাঁই সীতারামনের

নিউইয়র্ক, ১৩ ডিসেম্বর (পিটিআই): বিশ্বের প্রভাবশালী ১০০ জন মহিলার তালিকায় ঠাঁই পেলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। ২০১৯ সালের রাজনীতি, ব্যবসা-বাণিজ্য, মানবপ্রেম এবং সংবাদিকতার ক্ষেত্রে প্রভাবশালী মহিলাদের তালিকা প্রকাশ করেছে ‘দ্য ফোর্বস’। সেখানে সীতারামন ছাড়াও অপর দুই ভারতীয় মহিলা স্থান পেয়েছেন। 
বিশদ

14th  December, 2019
সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অধিকার রক্ষার জন্য ভারতের কাছে আর্জি আমেরিকার 

ওয়াশিংটন, ১৩ ডিসেম্বর (পিটিআই): ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে ইতিমধ্যেই অসমে তিনজনের প্রাণ গিয়েছে। অসম ছাড়াও দেশের নানা রাজ্যে সাধারণ মানুষ ওই আইনের বিরোধিতায় রাস্তায় নেমে পড়েছে। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় সরকারের উপর ফের চাপ বাড়াল আমেরিকা।  
বিশদ

14th  December, 2019
কনকনে ঠান্ডাতেও উৎসবের মেজাজে ভোট ব্রিটেনে

 রূপাঞ্জনা দত্ত, লন্ডন, ১২ ডিসেম্বর: কনকনে ঠান্ডা। তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে হিমাঙ্কের নীচে। তারসঙ্গে ঝিরঝির বৃষ্টি। ডিসেম্বরের এই তাপমাত্রায় ব্রিটেনে ভোট সাধারণত হয় না। সেই ১৯২৩ সালের পর আবার ডিসেম্বরে ভোট। কিন্তু প্রকৃতিদেবী যতই বিরূপ হন, সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এই নির্বাচনে ভোটদানের উৎসাহে কোনও খামতি ছিল না ব্রিটিশদের।
বিশদ

13th  December, 2019

Pages: 12345

একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মধ্যবিত্তের ‘নিজের বাড়ির’ স্বপ্ন পূরণে গৃহঋণ মেলার আয়োজন করেছিল ইডেন রিয়েলটি গ্রুপ। সংস্থার সোলারিস সিটি শ্রীরামপুর এবং জোকা প্রকল্পে গত ১৩ থেকে ১৫ ডিসেম্বর এই ‘ফ্লেক্সি হোম লোন মেলা’ অনুষ্ঠিত হয়। ...

বদাউন, ১৫ ডিসেম্বর: ধুমধাম করে গত সোমবার বিয়ের পর্ব সম্পন্ন হয়েছিল। আর শুক্রবার ভোররাতে টাকা, গয়না নিয়ে শ্বশুরবাড়ি থেকে চম্পট দিল নববধূ। তাঁর সঙ্গে পলাতক বিয়ের মধ্যস্থতাকারী ব্যক্তিও। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি উত্তরপ্রদেশের।   ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: চলন্ত বাসের মধ্যে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ল দুই স্কুল ছাত্রী। এমনকী দু’জনেই দু’জনকে ধারালো কিছু দিয়ে আঘাত করে বলে অভিযোগ। শনিবার বিকেলে ঘটনাটি ঘটেছে এন্টালি থানা এলাকার বরফকলের কাছে। দুই ছাত্রীর পরিবারই একে অন্যের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছে ...

সংবাদদাতা, ইসলামপুর: নাগরিক সংশোধনী আইন ও জাতীয় নাগরিক পঞ্জির বিরোধিতা নিয়ে কর্মসূচিতেও ইসলামপুর তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠী কোন্দল প্রকাশ্যে এল ইসলামপুরে।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
aries

বাড়তি অর্থ পাওয়ার যোগ আছে। পদোন্নতির পাশাপাশি কর্মস্থান পরিবর্তন হতে পারে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ পক্ষে থাকবে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭৭০: জার্মান সুরকার লুদভিগ ভ্যান বেটোভেনের জন্ম
১৯১৭: কল্পবিজ্ঞান লেখক আর্থার সি ক্লার্কের জন্ম
১৯২১: হুগলি নদীর নীচ দিয়ে টানেল তৈরির কাজ শুরু করল সিইএসসি
১৯৭১: বাংলাদেশে ভারতীয় বাহিনীর কাছে পাক সেনার আত্মসমর্পণ। জন্ম স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের
২০১২: দিল্লির গণধর্ষণের ঘটনায় উত্তাল দেশ 





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৮০ টাকা ৭১.৪৯ টাকা
পাউন্ড ৯৩.৪৩ টাকা ৯৬.৮০ টাকা
ইউরো ৭৭.৪৪ টাকা ৮০.৪৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
14th  December, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮, ৪৫৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬, ৪৮৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭, ০৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৪, ০০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৪, ১০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
15th  December, 2019

দিন পঞ্জিকা

২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার, পঞ্চমী ৫৩/৩৭ দিবা ৩/৪০। অশ্লেষা ৫১/২৫ রাত্রি ২/৪৭। সূ উ ৬/১৩/১০, অ ৪/৫০/৪০, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৮ মধ্যে পুনঃ ৯/৩ গতে ১১/১১ মধ্যে। রাত্রি ৭/৩১ গতে ১১/৫ মধ্যে পুনঃ ২/৪০ গতে ৩/৩৩ মধ্যে, বারবেলা ৭/৩২ গতে ৮/৫২ মধ্যে পুনঃ ২/১১ গতে ৩/৩১ মধ্যে, কালরাত্রি ৯/৫১ গতে ১১/৩১ মধ্যে। 
২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার, চতুর্থী ১/২৭/৫৩ প্রাতঃ ৬/৫০/১৯ পরে পঞ্চমী ৫৬/৩৮/৫ শেষরাত্রি ৪/৫৪/২৪। অশ্লেষা ৫৫/৪৫/৩৮ শেষরাত্রি ৪/৩৩/২৫, সূ উ ৬/১৫/১০, অ ৪/৫০/৪০, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৬ মধ্যে ৯/১১ গতে ১১/১৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৩৮ গতে ১১/১২ মধ্যে ও ২/৪৭ গতে ৩/৪০ মধ্যে, কালবেলা ৭/৩৪/৩৬ গতে ৮/৫৪/২ মধ্যে, কালরাত্রি ৯/৫২/২১ গতে ১১/৩২/৫৫ মধ্যে। 
১৮ রবিয়স সানি 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
নদীয়ায় নাকাশিপাড়ার নাগাদি বাজারে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ 

12:02:35 PM

১২৮৪১ হাওড়া-চেন্নাই করমণ্ডল এক্সপ্রেস আজ বাতিল থাকবে 

11:55:27 AM

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন: বীরভূমের চাতরা স্টেশনে রেল অবরোধ 

11:46:53 AM

১২৩৪৫ আপ হাওড়া-গুয়াহাটি সরাইঘাট এক্সপ্রেস আজ বাতিল থাকবে 

11:42:27 AM

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন: প্রতিবাদে সামিল লখনউয়ের নাড়োয়া কলেজের পড়ুয়ারা, পাথর ছোঁড়ার অভিযোগ 

11:31:37 AM

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন: বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরে ৬০ নম্বর জাতীয় অবরুদ্ধ 

11:17:00 AM