Bartaman Patrika
দেশ
 

গুরু নানকের জন্মদিন উপলক্ষে সেজে উঠেছে অমৃতসরের স্বর্ণমন্দির।-পিটিআই

অযোধ্যা মামলার শুনানি শেষ,
একমাসেই রায় সুপ্রিম কোর্টের

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ১৬ অক্টোবর: অযোধ্যায় রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদের বিতর্কিত জমি মামলার শুনানি অবশেষে সমাপ্ত হল। আগামী একমাসের মধ্যেই সুপ্রিম কোর্ট চূড়ান্ত রায় দেবে বলে স্থির হয়েছে। আজ সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ-এর নেতৃত্বে পাঁচজন বিচারপতিকে নিয়ে গঠিত সাংবিধানিক বেঞ্চের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, আগামী ১৭ নভেম্বরের মধ্যেই ঘোষিত হতে চলেছে চূড়ান্ত রায়। সুপ্রিম কোর্টের শুনানির পাশাপাশি যে তিন মধ্যস্থতাকারী অযোধ্যায় যুযুধান দু’পক্ষের সঙ্গে মীমাংসা সূত্রের সন্ধান করেছে, সেই কমিটির রিপোর্টে চূড়ান্ত কিছু জানানো হয়নি। কিন্তু ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে, সরকার যদি ওই জমি অধিগ্রহণ করেও নেয়, তাহলে আপত্তি করবে না ওয়াকফ বোর্ড।
গত ৬ আগস্ট থেকে সুপ্রিম কোর্টে অযোধ্যা মামলার দৈনিক শুনানি শুরু হয়েছিল। এই মামলার প্রতিাপাদ্য রামমন্দির অথবা বাবরি মসজিদ হওয়া বা না হওয়া নয়। এই মামলার বিষয় হল, ওই আড়াই একর জমির অধিকার কার হাতে যাবে। ৪০ দিনের শুনানিতে তিন পক্ষের আইনজীবীর বক্তব্য শোনার পর, আজ প্রধান বিচারপতি দুপুরেই জানিয়ে দেন, যথেষ্ট হয়েছে, আজ বিকেলে পাঁচটার মধ্যেই শুনানি সমাপ্ত করা হবে। আজ শুনানি সমাপ্ত হলেও রায়দান স্থগিত রেখেছে সুপ্রিম কোর্ট। বলা হয়েছে, ১৭ নভেম্বরের মধ্যেই রায় ঘোষণা হবে। ১৭ নভেম্বরই অবসর গ্রহণ করতে চলেছেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ। ২০১০ সালের এলাহাবাদ হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে অযোধ্যা মামলার সঙ্গে যুক্ত তিন পক্ষই সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেছিল। এলাহাবাদ হাইকোর্টের রায় ছিল অযোধ্যার বিতর্কিত আড়াই একর জমিকে তিন ভাগে বিভাজিত করা হবে তিন পক্ষের মধ্যে। তিন পক্ষ হল স্বয়ং রাম লালা, সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড এবং নির্মোহি আখড়া। তিন পক্ষই সেই রায় মানতে চায়নি। তাই সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করা হয় সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে।
গত ৬ আগস্ট থেকে শুরু হয় দৈনিক শুনানি। পাশাপাশি সুপ্রিম কোর্ট গঠন করেছিল বিশেষ মধ্যস্থতাকারী কমিটি। যে কমিটি অযোধ্যায় ঘুরে তিন পক্ষের সঙ্গেই কথা বলে একটি মীমাংসা সূত্র দেওয়ার চেষ্টা করবে। একাধিকবার কমিটির সময়সীমা সম্প্রসারণের পরও কোনও চূড়ান্ত মীমাংসা সূত্রে পৌঁছনো যায়নি। তবে সুপ্রিম কোর্টে জমা দেওয়া সেই রিপোর্টও পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট সাংবিধানিক বেঞ্চ খতিয়ে দেখেছে। আজ দুপুরে চরম নাটকীয় পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। আচমকা হিন্দু মহাসভার পক্ষ থেকে সুপ্রিম কোর্টে একটি ম্যাপ পেশ করে নির্দিষ্ট স্থান চিহ্নিত করে প্রদর্শন করা হয় ঠিক কোথায় ছিল রামচন্দ্রের জন্মস্থান। মুসলিমদের পক্ষ থেকে শুনানিরত আইনজীবী সেই ম্যাপ নিয়ে আপত্তি তোলেন তাই নয়, ছিঁড়েও ফেলে দেন। প্রধান বিচারপতি ক্ষুব্ধ হয়ে বলেন, এনাফ ইজ এনাফ। আজই সমাপ্ত হবে শুনানি।
দ্বিতীয় মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর একের পর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে যা ভারতীয় জনসঙ্ঘ ও পরবর্তীকালে বিজেপির একান্ত রাজনৈতিক অ্যাজেন্ডা। কাশ্মীরে ৩৭০ অনুচ্ছেদের বিলোপসাধন, অসমে এনআরসি হয়েছে। এ বার রামমন্দির ইস্যুও ফের মাথা চাড়া দিয়েছে এবং অবশেষে বিতর্কিত জমির অধিকার সংক্রান্ত মামলার শুনানি শেষ হয়ে এখন শুধু রায়ের দিকে অধীর আগ্রহে তাকিয়ে থাকা।

17th  October, 2019
কৃষকদের চাপে দিশাহারা কেন্দ্র
শাহিনবাগের সিঁদুরে মেঘ দেখছে মোদি সরকার

কৃষি আন্দোলন ইস্যুতে ক্রমশ উত্তাল হচ্ছে রাজধানীর সীমানা। উত্তাল হচ্ছে রাজনীতি। দিল্লিতে আসার পাঁচ পথ বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন আন্দোলরত কৃষকরা। আটকে দেওয়া হতে পারে জাতীয় সড়কও। স্রেফ দু’দিনের আন্দোলন কর্মসূচি। কিন্তু সবটাই নির্ভর করছে, সরকার তাঁদের দাবি মানবে কি না। কেন্দ্র মাথা নত না করলে? এই অবস্থান চলতে পারে ছ’মাসও। সাফ জানিয়ে দিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। বিশদ

পিএম কিষাণ সম্মান প্রকল্প কার্যকরই হয়নি,
নাম না করে বাংলার কড়া নিন্দা প্রধানমন্ত্রীর

বারাণসীর মাটিতে দাঁড়িয়েও টার্গেট মমতা

অনুষ্ঠানটি ছিল বারাণসী-প্রয়াগরাজ ছ’লেনের জাতীয় সড়ক উদ্বোধনের। সোমবার সেই মঞ্চ থেকেই নাম না করে পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে একহাত নিলেন প্রধানমন্ত্রী। বিরোধীদের সমালোচনা করে মোদি বলেন, ওরা প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি যোজনা নিয়ে মিথ্যা প্রচার চালাচ্ছে। এরপরেই নাম না করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের সমালোচনা করেন তিনি। বিশদ

শুক্রবার সর্বদলীয় বৈঠক,
ভ্যাকসিন নিয়ে ঘোষণা শীঘ্র

মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ‘দিশাহীন’ বৈঠকের পর শনিবার দেশের তিন প্রান্তে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। উদ্দেশ্য ছিল, ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক তিনটি সংস্থার কাজকর্ম নিজের চোখে দেখা। সোমবার প্রতিষেধক তৈরির সঙ্গে যুক্ত আরও তিনটি সংস্থার কর্ণধারদের সঙ্গে কথা বললেন তিনি— বায়োলজিক্যাল ই, জেনোভা এবং ডক্টর রেড্ডিস। বিশদ

ভুল লিঙ্কে ক্লিক, আইআইটিতে পড়ার
 স্বপ্ন চুরমার ২৭০ র‌্যাঙ্ক করা পড়ুয়ার

বিধি বাম। শুধুমাত্র বোঝার ভুলেই প্রশ্নের মুখে জেইই (অ্যাডভান্সড)-এ পাশ করা মেধাবী ছাত্রের ভবিষ্যৎ। আইআইটি বম্বেতে পড়ার সুযোগ পেয়েও হেলায় হারালেন সেই হাতছানি। প্রযুক্তিবিদ্যায় দেশের পীঠস্থানও ওই প্রার্থীকে দ্বিতীয় সুযোগ দেওয়া নিয়ে হাত তুলে নিয়েছে।  বিশদ

কৃষক আন্দোলন দমনে কেন্দ্রের ভূমিকায়
চোখে জল আসবে বল্লভভাইয়ের মূর্তিরও
সামনায় মন্তব্য শিবসেনার

ফের শিবসেনা মুখপত্র ‘সামনা’র নিশানায় বিজেপি। সামনায় লেখা হয়েছে, গুজরাতে সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের বিশাল মূর্তি বসিয়ে তাঁর আদর্শ মেনে চলার কথা বলে বিজেপি। অথচ তারা এটা ভুলে গিয়েছে যে, দেশের প্রথম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্যাটেল নিজে বেশ কয়েকটি কৃষক আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। বিশদ

কোভিড হাসপাতালগুলিতে অগ্নিকাণ্ডের
ঘটনায় উদ্বেগ, রাজ্যগুলিকে চিঠি কেন্দ্রের

কোভিড হাসপাতালগুলিতে বারবার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা সামনে আসছে। প্রাণ হারাচ্ছেন চিকিৎসাধীন করোনা রোগীরা। এবিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে রাজ্যগুলির মুখ্যসচিবদের চিঠি পাঠালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় ভাল্লা। এধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের নির্দেশিকাগুলি মেনে চলতে বললেন তিনি। বিশদ

শুক্রবারের বৈঠক, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক
সুদের হার একই রাখতে পারে

আবার নীতি নির্ধারণ কমিটির বৈঠকে বসছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। কিন্তু সুদের হার পরিবর্তন করার সম্ভাবনা ক্ষীণ। কারণ একটাই। ৯ মাস ধরে লাগাতার ঊর্ধমুখী মুদ্রাস্ফীতির হার তথা মূল্যবৃদ্ধি। ২০১৯ সালে ছিল সম্পূর্ণ বিপরীত প্রবণতা। বিশদ

বুলেট ট্রেন প্রকল্পে ভরসা চীনই,
প্রশ্নের মুখে ‘আত্মনির্ভর ভারত’

আত্মনির্ভর ভারতের ঢাক বাজিয়ে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী। আবার বুলেট ট্রেন নিয়েও তিনি সমান আগ্রহী। কিন্তু বুলেট ট্রেন প্রকল্প রূপায়ণে চীনের মুখাপেক্ষী থাকতে হবে রেলকে। সম্প্রতি এই প্রকল্প তৈরির কাজ হাতে নিয়েছে লার্সেন অ্যান্ড টুব্রো। কিন্তু প্রশ্ন অন্য জায়গায়। বিশদ

‘লোকদেখানো নাটক’, মোদির সর্বদল
বৈঠককে কটাক্ষ তৃণমূলের

 

আগামী শুক্রবার সর্বদলীয় বৈঠকে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হলেও সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের কোনও সম্ভাবনা নেই বলেই মনে করছে বিরোধীরা। প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে ওই বৈঠকে হবে। বৈঠকে যোগ দিতে সংসদ বিষয়ক মন্ত্রকের উদ্যোগে সংসদীয় দলের নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে। বিশদ

অসমের ‘টপার কেলেঙ্কারি’তে
অভিযুক্ত ভুয়ো পরীক্ষার্থী ধৃত

অসমের জয়েন্ট পরীক্ষায় ‘টপার কেলেঙ্কারি’তে অভিযুক্ত পরীক্ষার্থীকে দিল্লি থেকে গ্রেপ্তার করল পুলিস। নাম প্রদীপ কুমার। এই নিয়ে কেলেঙ্কারির সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে আটজনকে গ্রেপ্তার করা হল। বিশদ

তিব্বতে ব্রহ্মপুত্রের উপর
বাঁধ তৈরির সিদ্ধান্ত নিল চীন

ব্রহ্মপুত্র নদের উপর বাঁধ দিয়ে জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র গড়ার বিষয়ে পাকাপাকি সিদ্ধান্ত নিল চীন। ২০২১ থেকে চীনে শুরু হচ্ছে চতুর্দশ পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা। ২০২৫ সালে এই পরিকল্পনার মেয়াদ শেষের আগেই তিব্বতে ব্রহ্মপুত্র নদে বাঁধ দিয়ে জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাজ শেষ করতে চাইছে বেজিং। বিশদ

মেয়র নির্বাচিত হবে বিজেপি থেকেই,
নিজামের শহরে আত্মবিশ্বাসী অমিত শাহ
শুধু ট্রাম্পকে নামানো বাকি, কটাক্ষ ওয়াইসির

তারকা প্রার্থীদের প্রচারে গ্রেটার হায়দরাবাদ মিউনিসিপাল কর্পোরেশন (জিএইচএমসি) ভোটের উত্তাপ ক্রমেই চড়ছে। স্মৃতি ইরানি থেকে যোগী আদিত্যানাথ — প্রথম সারির একঝাঁক নেতা-নেত্রীদের ইতিমধ্যেই ভোট ময়দানে নামিয়েছে বিজেপি। বিশদ

30th  November, 2020
ফের সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন
করে হামলা চালাল পাক রেঞ্জার্স
সীমান্তে ড্রোন, দেখামাত্রই গুলি বিএসএফের

ফের সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর হামলা চালাল পাক রেঞ্জার্স। সেনা সূত্রে খবর, শনিবার রাত ১০টা নাগাদ সীমান্ত লাগোয়া হীরানগর সেক্টরের পানসার, মানয়ারি ও কারোল কৃষ্ণা এলাকায় গুলি বর্ষণ শুরু করে পাকিস্তান। বিএসএফও তাদের পাল্টা জবাব দিয়েছে। বিশদ

30th  November, 2020
অটলবিহারী বাজপেয়ি জমানার
এনডিএ জোট কি নীতিহীন ছিল
বিজেপিকে খোঁচা শিবসেনার

প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ির নেতৃত্বে কেন্দ্রে ৩৩ দলের জোট সরকার গঠিত হয়েছিল। সেই এনডিএ জোটকে কেউ ‘নীতিহীন, অস্বাভাবিক’ বলেনি। তাহলে মহারাষ্ট্রের জোট সরকারকে এই ভাষায় আক্রমণ করা হচ্ছে কেন? বিশদ

30th  November, 2020

Pages: 12345

একনজরে
ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানোয় খেলা হলেও বায়ার্ন মিউনিখের বিরুদ্ধে আতলেতিকো মাদ্রিদকে এগিয়ে রাখা সম্ভব হচ্ছে না। কারণ, উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের চলতি মরশুমে জার্মান ক্লাবটি অনবদ্য ছন্দে রয়েছে। ...

লক্ষ্মীবিলাস ব্যাঙ্কের (এলভিবি) গ্রাহকরা সম্পূর্ণ ব্যাঙ্কিং পরিষেবাই পাবেন। সোমবার ডিবিএস ব্যাঙ্কের পক্ষ থেকে একথা জানানো হয়েছে। সম্প্রতি ডিবিএস ব্যাঙ্কের সঙ্গে লক্ষ্মীবিলাস ব্যাঙ্কের সংযুক্তিকরণ ঘটানো হয়। এরপরেই আমানত নিয়ে এলভিবির গ্রাহকদের মধ্যে নানা সংশয় দেখা দেয়। ...

দুর্গাপুর এক্সপ্রেস ওয়ের উপর দিয়ে প্রতিদিন সরকারি, বেসরকারি শয়ে শয়ে বাস যাতায়াত করে। পুরুলিয়া থেকে কলকাতা যাওয়া বা দীঘা থেকে দুর্গাপুর আসা, ওই সড়কে এসবিএসটিসির ...

রবিবার রাতে গাজোলে এক পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল তিন বন্ধুর। পুজোর ভোগ খেয়ে বাড়ি ফিরছিলেন তাঁরা।  শাহাজাদপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের  জামতলা রাইস মিলের কাছে  ৫১২ নম্বর জাতীয় সড়কে ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব সমাগমে আনন্দ বৃদ্ধি। চারুকলা শিল্পে উপার্জনের শুভ সূচনা। উচ্চশিক্ষায় সুযোগ। কর্মক্ষেত্রে অযথা হয়রানি। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব এইডস দিবস
১৭৬১: মাদাম তুসো জাদুঘরের প্রতিষ্ঠাতা ম্যারি তুসোর জন্ম
১৯৩২:  ঔপন্যাসিক, কল্পবিজ্ঞান লেখক ও সম্পাদক অদ্রীশ বর্ধনের জন্ম
১৯৪১: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আক্রমণে চূড়ান্ত অনুমোদন দিলেন জাপানের সম্রাট হিরোহিতো
১৯৫৪: সমাজকর্মী মেধা পাটেকরের জন্ম
১৯৬৩: ভারতের ১৬তম রাজ্য হিসাবে ঘোষিত হল নাগাল্যাণ্ড
১৯৬৫: প্রতিষ্ঠিত হল বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ)
১৯৭৪: স্বাধীনতা সংগ্রামী সুচেতা কৃপালিনীর মৃত্যু
১৯৮০: ক্রিকেটার মহম্মদ কাইফের জন্ম
১৯৯৭: বিহারের লক্ষ্মণপুর-বাথে অঞ্চলে ৬৩জন নিম্নবর্গীয়কে খুন করল রণবীর সেনা
১৯৯৯: গায়ক শান্তিদেব ঘোষের মৃত্যু



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.০০ টাকা ৭৪.৭১ টাকা
পাউন্ড ৯৭.০৯ টাকা ১০০.৪৮ টাকা
ইউরো ৮৬.৫১ টাকা ৮৯.৬৫ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
28th  November, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৮,৯৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৬,৪৭০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭,১৭০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৫৯,৭০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৫৯,৮০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর ২০২০, প্রতিপদ ২৭/১ অপঃ ৪/৫২। রোহিণী নক্ষত্র ৬/৩১ দিবা ৮/৩১। সূর্যোদয় ৬/৪/২, সূর্যাস্ত ৪/৪৭/২০। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪৫ মধ্যে পুনঃ ৭/২৮ গতে ১১/৩ মধ্যে। রাত্রি ৭/২৬ গতে ৮/১৯ মধ্যে পুনঃ ৯/১২ গতে ১১/৫১ মধ্যে পুনঃ ১/৩৭ গতে ৩/২৪ মধ্যে পুনঃ ৫/৯ গতে উদয়াবধি। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ৭/২৬ মধ্যে। বারবেলা ৭/২৪ গতে ৮/৪৪ মধ্যে পুনঃ ১২/৪৬ গতে ২/৬ মধ্যে। কালরাত্রি ৬/২৭ গতে ৮/৬ মধ্যে। 
১৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর ২০২০, প্রতিপদ দিবা ৩/৫৭। রোহিণী নক্ষত্র দিবা ৮/৩৯। সূর্যোদয় ৬/৫, সূর্যাস্ত ৪/৪৮। অমৃতযোগ দিবা ৭/০ মধ্যে ও ৭/৪২ গতে ১১/১৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৩২ গতে ৮/২৬ মধ্যে ও ৯/২০ গতে ১২/১ মধ্যে ও ১/৪৯ গতে ৩/৩৬ মধ্যে ও ৫/২৪ গতে ৬/৬ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ৭/৩২ মধ্যে। বারবেলা ৭/২৬ গতে ৮/৪৬ মধ্যে ও ১২/৪৭ গতে ২/৭ মধ্যে। কালরাত্রি ৬/২৭ গতে ৮/৭ মধ্যে। 
১৫ রবিয়ল সানি।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আইএসএল: মুম্বই সিটি এফসি ৩ - ইস্ট বেঙ্গল ০ (৫৭ মিনিট) 

08:50:20 PM

আইএসএল: মুম্বই সিটি এফসি ১- ইস্ট বেঙ্গল ০ (হাফ টাইম)

08:29:47 PM

আইএসএল: মুম্বই সিটি এফসি ১- ইস্ট বেঙ্গল ০ (২০ মিনিট)

07:59:09 PM

যত এজেন্সি, ফোর্স আছে নিয়ে আসুন, তাও আমাদের সঙ্গে লড়তে পারবেন না: মমতা

04:16:11 PM

আগামী দিনে মানুষ ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে বুঝে নেবে: মমতা

04:13:33 PM

বাংলা গুজরাত, উত্তরপ্রদেশ নয়: মমতা

04:08:34 PM