Bartaman Patrika
দেশ
 
 

তুষারাবৃত ধর্মশালা। ছবি: এ এফ পি 

প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পরিসংখ্যান সম্পূর্ণ ভুল বলেছেন, বলে তোপ
বাজেট নিয়ে চিদম্বরমকে তীব্র আক্রমণ নির্মলার

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ১২ জুলাই: প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করলেন বর্তমান অর্থমন্ত্রী। রাজ্যসভায় বাজেট নিয়ে আলোচনায় গতকাল প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম বাজেটকে দিশাহীন আখ্যা দিয়ে বলেছিলেন, অর্থনীতি এতটাই দুর্বল এখন একটি সাহসী সংস্কার প্রয়োজন ছিল। কিন্তু সেরকম কোনও উদ্যোগের অভাসই নেই এই বাজেটে। বাজেটের আগে ও পরে মোদি সরকারের প্রধান প্রচার হল ৫ লক্ষ কোটি ডলারের অর্থনীতি হবে ভারত। চিদম্বরম গতকাল বলেছিলেন, যে কোনও অর্থনীতি গড়ে ১০ থেকে ১২ শতাংশের মধ্যে নমিনাল জিডিপি বৃদ্ধিহার দেখালে এমনিতেই অর্থনীতি প্রতি পাঁচ থেকে সাত বছরে দ্বিগুণ হয়ে যায়। তার জন্য কোনও প্রধানমন্ত্রী কিংবা অর্থমন্ত্রীর দরকার হয় না। আজ বাজেট আলোচনার পর সরকারের জবাবি ভাষণে রাজ্যসভায় নির্মলা সীতারামন বস্তুত সবথেকে বেশি সময় ব্যয় করেন চিদম্বরমকে জবাব দিতে। এবং তিনি তথ্য পেশ করে বলেন, প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অর্থনীতির পরিসংখ্যান সম্পূর্ণ ভুল বলেছেন। সংশোধন করা উচিত। নির্মলা বলেন, আমাদের সরকারের সঙ্গে আপনাদের সবথেকে বড় পার্থক্য হল আমরা মুদ্রাস্ফীতির হারকে সর্বনিম্ন রাখতে সক্ষম হয়েছিলাম। মূল্যবৃদ্ধিকে লাগাতার আটকে রেখেছি। এবারই ৩ শতাংশে নেমে এসেছে মুদ্রাস্ফীতির হার।
চিদম্বরমের অভিযোগের জবাব দিতে গিয়ে রীতিমতো উত্তেজিত হয়ে গিয়ে কখনও কাগজ উঁচিয়ে কখনও ডেস্ক চাপড়ে নির্মলা বলেন, প্রতি পাঁচ সাত বছর অন্তরই যদি অর্থনীতি দ্বিগুণ হয়ে যায় তাহলে স্বাধীনতার পর প্রথম ৬০ বছরে সেই প্রবণতা দেখা গেল না কেন? প্রসঙ্গত চিদম্বরম গতকাল ২০০৪ সাল থেকে লাগাতার উদাহরণ দেখিয়ে বলেছিলেন, স্বাভাবিক নিয়মেই পাঁচ থেকে সাত বছর পরপর অর্থনীতি দ্বিগুণ হয়ে যায়। সুতরাং এখন যেখানে অর্থনীতি ২.৭ লক্ষ কোটি ডলার, সেটি ১২ শতাংশ হারে নমিনাল জিডিপির বৃদ্ধিতে এমনিতেই পাঁচ সাত বছর পর ৫ লক্ষ কোটি ডলার হয়ে যাবে। এই নিয়মটি একজন মহাজনও জানে। কারণ হিসেবটি সহজ চক্রবৃদ্ধিহারের অঙ্ক। আজ নির্মলা চিদম্বরমের সমালোচনা করে বলেন, এত সহজ নয় ব্যাপারটা। অর্থনীতিকে দ্বিগুণ করতে হলে অনেক ফ্যাক্টর পূরণ করতে হয়। মুদ্রাস্ফীতি থেকে বাণিজ্য ঘাটতি সবকিছুই নিয়ন্ত্রণে রাখতে হয়। পি চিদম্বরম গতকাল বলেছিলেন, সরকার একটিও স্ট্রাকচারাল রিফর্ম করেনি। অথচ সবথেকে বেশি দরকার ছিল ওই সাহসী সংস্কার। আজ নির্মলা উত্তর দিয়ে বলেন, আমাদের আর্থিক সংস্কারের সবথেকে বড় নমুনা হল জিএসটি চালু করা। এই কথায় কংগ্রেস ও বিরোধীপক্ষ পাল্টা উঠে দাঁড়িয়ে বলে আপনারাই তো ২০০৮ সাল থেকে ইউপিএ সরকারকে জিএসটি চালু করতে দেননি। লাগাতার বাধা দিয়েছেন সংসদে। এখন আবার সেই জিএসটিকেই নিজেদের সাফল্য বলছেন?
এই ইস্যুতে নির্মলা ও কংগ্রেসের আনন্দ শর্মার মধ্যে বাগযুদ্ধ শুরু হয়ে যায় রাজ্যসভায়। আনন্দ শর্মা বলেন, আমরা তো জিএসটিকে একবাক্যে সমর্থন করে এই সভাতেই পাশ করিয়েছিলাম, মনে নেই? নির্মলা বলেন, সরকার তো আমাদেরই ছিল! আপনারা সমর্থন করেছেন ভালো কথা। কিন্তু আমাদের আমলে হয়েছে। ‘ইনসলভেন্সি অ্যান্ড ব্যাঙ্করাপটসি’ আইন। স্টার্ট আপ ইণ্ডিয়া আর স্ট্যাণ্ড আপ ইণ্ডিয়া। এফডিআই। এগুলো স্ট্রাকচারাল রিফর্ম। রিক্যাপিটাইলেজশন অফ ব্যাঙ্ক।
কোনও সামাজিক প্রকল্পেই সরকার প্রয়োজনীয় বরাদ্দ করেনি বলে বিরোধীদের অভিযোগ ছিল। আজ নির্মলা সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে বলেছেন, প্রতিটি প্রকল্পেই আমরা বরাদ্দ করেছি যথেষ্ট। মিড ডে মিল ১০ হাজার ৫০০ কোটি থেকে বাড়িয়ে ১১ হাজার কোটি টাকা বাড়ানো হয়েছে। আইসিডিএস ২৩০৮৮ কোটি টাকা থেকে বাড়িয়ে বরাদ্দ হয়েছে ২৭৫৮০ কোটি টাকা। স্কিল উন্নয়ন ৫০৭১ কোটি থেকে বেড়ে হয়েছে ৭২৬০ কোটি টাকা । ১০০ দিনের কাজের গ্যারান্টি প্রকল্পে ৫৫ হাজার কোটি টাকা ছিল বিগত বছরের বরাদ্দ। এবার দেওয়া হয়েছে ৬০ হাজার কোটি টাকা। তাঁর দাবি, আমরা আর্থিক ঘাটতি ৩.৩ শতাংশ করব। সামাজিক খাতে কোনও ছাঁটাই না করেই ওই লক্ষ্যমাত্র কর্জন করা সম্ভব।

13th  July, 2019
  রাহুল গান্ধীর জন্য উপযুক্ত নাম
‘রাহুল জিন্না’, তোপ বিজেপির

 নয়াদিল্লি, ১৪ ডিসেম্বর (পিটিআই): সাভারকরকে নিয়ে রাহুল গান্ধীর করা মন্তব্যকে ঘিরে এবার পাল্টা তোপ দাগল বিজেপি। শনিবার বিজেপির তরফে দাবি করা হয়, ‘রাহুল জিন্না’ নামটিই কংগ্রেস সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে যথাযথ খাপ খায়। কেন্দ্রের শাসক দলের মতে, রাহুলের ‘মুসলিম তোষণ’-এর রাজনীতিই তাঁকে এই নামের যোগ্য করে তুলেছে। বিশদ

ধর্ষণ নিয়ে রাহুলের মন্তব্যে কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারীর মহিলারা আঘাত পেয়েছেন: বিজেপি নেত্রী

 জম্মু, ১৪ ডিসেম্বর (পিটিআই): ধর্ষণ নিয়ে রাহুল গান্ধী যে মন্তব্য করেছেন, তাতে কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারীর মহিলারা আঘাত পেয়েছেন। শনিবার কংগ্রেস সাংসদের সমালোচনায় এমনটাই বললেন প্রবীণ বিজেপি নেত্রী তথা প্রাক্তন মন্ত্রী প্রিয়া শেঠি। শেঠি বর্তমানে বিজেপির মহিলা মোর্চার দায়িত্বে রয়েছেন। বিশদ

  মোদি সরকারের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে আন্দোলনে নামছে বিজেপি বিরোধী ছাত্র সংগঠনগুলির জোট

 নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ১৪ ডিসেম্বর: কাশ্মীর হোক বা জেএনইউ, প্রতিবাদ করলেই পুলিশি নিশানা করা হচ্ছে ছাত্রদের। কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তুলে এবার দেশজুড়ে আন্দোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছে বিজেপি বিরোধী দলের ছাত্র সংগঠনগুলি।
বিশদ

পেঁয়াজ, রসুনের তৈরি মালা বদল করে
বিয়ে সারলেন উত্তরপ্রদেশের নবদম্পতি

 বারাণসী, ১৪ ডিসেম্বর: পেঁয়াজের আকাশ ছোঁওয়া দামের জেরে দেশে যেন হেঁশেলে আগুন লেগেছে। আর সেই মহার্ঘ পেঁয়াজ দিয়ে মালা তৈরি করে বিয়ে সারলেন উত্তরপ্রদেশের বারাণসীর এক দম্পতি। ও হ্যাঁ, দর্শনীয় করতে সেই মালায় স্থান হয়েছিল আর এক মহার্ঘ বস্তু রসুনের।
বিশদ

  নতুন নাম হতে পারে ‘সংসদ টিভি’  গঠিত ৬ সদস্যের কমিটি
খরচে লাগাম টানতে লোকসভা ও রাজ্যসভা টিভি মিশিয়ে একটিমাত্র চ্যানেলের ভাবনায় মোদি সরকার

 নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ১৪ ডিসেম্বর: ঐতিহ্যশালী সংসদ ভবনকে সংগ্রহশালায় পরিণত করে নতুন সংসদ ভবন তৈরির জিগির আগেই তুলেছে মোদি সরকার। এবার কি সংসদের কার্যবিবরণীর সম্প্রচারও দেশবাসীর কাছে পৌঁছনোর উপর নিয়ন্ত্রণ আনার পরিকল্পনা হচ্ছে? লোকসভা এবং রাজ্যসভা টিভি চ্যানেল দু’টিকে মিশিয়ে সংসদের একটিই চ্যানেল করার পরিকল্পনা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বিশদ

নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদ
কাল কেরলে বাম-কং যৌথ ধর্নায় থাকছেন স্বয়ং বিজয়ন

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কেন্দ্র তথা বিজেপি-বিরোধী বিভিন্ন ইস্যুতে এক সুরে কথা বললেও বাংলায় শাসক তৃণমূলের সঙ্গে বিরোধী বাম বা কংগ্রেসের কোনও যৌথ রাজনৈতিক কর্মসূচি দেখা রাজ্যের মানুষের কাছে এখনও কল্পনাতীত। বিশদ

  এবার মাওবাদীদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ, ইঙ্গিত ভারতীয় সেনার পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ডারের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ৩৭০ ধারা রদ এবং নাগরিকত্ব বিলের মতো কড়া সিদ্ধান্ত ইতিমধ্যেই নিয়েছে নরেন্দ্র মোদীর সরকার। এবার সেই ধরনেরই কড়া পদক্ষেপ হয়তো নেওয়া হতে পারে মাওবাদীদের বিরুদ্ধে। দেশের অভ্যন্তরীণ সমস্যাগুলির মধ্যে অন্যতম এই মাওবাদী সমস্যা। বিশদ

  উত্তরপ্রদেশে ফের উন্নাওয়ের ছায়া, ধর্ষণের পর কিশোরীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা, তদন্তে পুলিস

 লখনউ, ১৪ ডিসেম্বর: ফের উত্তরপ্রদেশ। ফের উন্নাওকাণ্ডের ছায়া। এবার ফতেপুর জেলায় এক কিশোরীকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে মারার চেষ্টার অভিযোগ উঠল। চলতি মাসেই উন্নাও জেলায় ধর্ষিতা এক তরুণীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টার অভিযোগ ওঠে ধর্ষণে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে। বিশদ

 দেশ বাঁচাতে শেষ নিঃশ্বাস
পর্যন্ত লড়ে যাব: সোনিয়া

সন্দীপ স্বর্ণকার, নয়াদিল্লি, ১৪ ডিসেম্বর: মোদি শাহ সরকারের হাত থেকে দেশ বাঁচাতে শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত লড়ে যাব। গণতন্ত্র বাঁচাতে বলিদানেও প্রস্তুত। আজ দিল্লির রামলীলা ময়দান থেকে এমনই চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন সোনিয়া গান্ধী। আক্রমণ চড়াতে বললেন, মোদি-শাহ’র সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ভারতের আত্মাকে চুরমার করে দেবে।
বিশদ

  আমদানি-রপ্তানি কমেছে, বেড়ছে খাদ্যপণ্যের মুদ্রাস্ফীতি
বাজেটে ক্রয়ক্ষমতা বাড়াতে নয়া প্রকল্প গ্রহণ করা না হলে আর্থিক মন্দা চরম আকার নেবে, শঙ্কা সরকারি রিপোর্টেই

 নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ১৪ ডিসেম্বর: আসন্ন বাজেটে মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে নতুন প্রকল্প অথবা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা না হলে আর্থিক মন্দা চরম আকার নিতে পারে। এরকমই আশঙ্কা তৈরি হয়েছে সরকারের রিপোর্টে। একদিকে হঠাৎ করে চার মাসেই খাদ্য পণ্যের মুদ্রাস্ফীতির হার বিগত ৬ বছরে প্রথম বার ১০ শতাংশ ছাড়িয়ে গিয়েছে।
বিশদ

২৫ লক্ষ অথবা তার বেশি টাকার প্রতারণা হলেই সিবিআইকে তদন্তের দায়িত্ব
ইপিএফ প্রতারণা ঠেকাতে আরও কড়া আইন প্রয়োগ করতে চলেছে কেন্দ্র

 দিব্যেন্দু বিশ্বাস, নয়াদিল্লি, ১৪ ডিসেম্বর: দেশজুড়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে ইপিএফ প্রতারণা। আর তা ঠেকাতে আরও কড়া আইন প্রয়োগ করতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এবার থেকে কর্মচারী প্রভিডেন্ট ফান্ডে (ইপিএফ) ২৫ লক্ষ অথবা তার বেশি টাকার প্রতারণা হলেই সরাসরি সিবিআইয়ের কাছে সেই কেস হ্যান্ডওভার করবে কেন্দ্র। বিশদ

গুলিবিদ্ধ হয়ে খ্রিস্টান কিশোরের মৃত্যু ঘিরে শোকের ছায়া
‘শুধু জুবিন গর্গের গান শুনবে বলে ওখানে গিয়েছিল, ক্যাব ইস্যুর কিছুই বুঝত না’, আক্ষেপ শোকার্ত দিদির

 গুয়াহাটি, ১৪ ডিসেম্বর (পিটিআই): ‘স্যাম ছেলেমানুষ। ক্যাব ইস্যুর কিছুই বুঝত না ও। পরিস্থিতি ভালো নয় দেখে আমরা যেতে বারণ করেছিলাম। সঙ্গীত ছিল ওর ধ্যানজ্ঞান। শুধুমাত্র জুবিন গর্গের গান শুনবে বলে ও ওখানে গিয়েছিল।’ ধরা গলায় বলে চললেন মৌসুমি বেগম। ভাইটা আর নেই যেন বিশ্বাসই করতে পারছেন না। বিশদ

 বিক্ষোভে উত্তপ্ত অসমে তেলের ট্যাঙ্কারে
আগুন বিক্ষোভকারীদের, মৃত্যু চালকের
অসমজুড়ে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধই

 গুয়াহাটি, ১৪ ডিসেম্বর (পিটিআই): সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় শনিবারও উত্তাল রইল অসম। তবে, রেল অবরোধ, অবস্থান বিক্ষোভ, অনশনের মাঝেই এক তেলের ট্যাঙ্কারে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে। ঘটনায় ওই ট্যাঙ্কারের চালকেরও অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে বলে খবর।
বিশদ

  সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে হিংসা ছড়াচ্ছে কংগ্রেসই, ঝাড়খণ্ডে ভোটপ্রচারে গিয়ে বললেন অমিত শাহ

 গিরিডি (ঝাড়খণ্ড), ১৪ ডিসেম্বর: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের জেরে ওদের ‘পেট কামড়াচ্ছে’। দেশজুড়ে হিংসা ছাড়ানোর অভিযোগে কংগ্রেসকে এভাবেই আক্রমণ শানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল সংসদে পেশ হওয়ার পর থেকে তার প্রতিবাদে দেশজুড়ে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
সংবাদদাতা, কাঁথি: জমির রেকর্ড নিজের নামে না থাকায় চাষিদের অনেকেই বুলবুলের ক্ষতিপূরণ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এনিয়ে কৃষক মহলে তীব্র ক্ষোভ ছড়িয়েছে। এই পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়ে রাজ্যের কৃষিমন্ত্রীর কাছে চিঠি দিল পূর্ব মেদিনীপুর জেলা কৃষক সংগ্রাম পরিষদ।   ...

সংবাদদাতা, কুমারগ্রাম: আগামী ২৭-২৯ ডিসেম্বর তুফানগঞ্জ-১ ব্লক কৃষি দপ্তরের উদ্যোগে এবং ব্লক প্রশাসনের সহযোগিতায় একটি কৃষি মেলা আয়োজিত হবে। তুফানগঞ্জ-১ ব্লকের চিলাখানা ফুটবল মাঠে এই মেলা হবে।   ...

 ওয়াশিংটন, ১৪ ডিসেম্বর (পিটিআই): ‘আমার কোনও দোষ নেই। তবু আমাকে ইমপিচ করা হচ্ছে। এটা অন্যায়।’ শুক্রবার ট্যুইটারে এভাবেই ইমপিচমেন্ট বিতর্কে ক্ষোভ উগরে দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন কংগ্রেসের জুডিশিয়ারি কমিটি ট্রাম্পের ‘অপসারণ’ অনুমোদন করে দেওয়ায় তা এখন হাউস অব ...

 কল্যাণী থেকে নিজস্ব প্রতিনিধি: ট্রাউকে হারিয়ে ২২ ডিসেম্বর ডার্বি নিয়ে চিন্তাভাবনা শুরু করে দিলেন ইস্ট বেঙ্গল কোচ আলেজান্দ্রো। শনিবার কল্যাণী স্টেডিয়ামে ম্যাচের পর স্প্যানিশ কোচ বলেন, ‘এরপর আমরা সল্টলেক স্টেডিয়ামে খেলব। এই মাঠ আমার খুবই পছন্দের। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
aries

পিতার স্বাস্থ্যহানী হতে পারে। আর্থিক ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় অর্থের অভাব হবে না। পঠন-পাঠনে পরিশ্রমী হলে সফলতা ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

আন্তর্জাতিক চা দিবস
১৮৭৭- টমাস এডিসন ফোনোগ্রাফের পেটেন্ট নিলেন,
১৯০৮- রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের স্বামী রঙ্গনাথানন্দের জন্ম,
১৯৫০- সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের মৃত্যু,
১৯৭৬- ফুটবলার বাইচুং ভুটিয়ার জন্ম





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৮০ টাকা ৭১.৪৯ টাকা
পাউন্ড ৯৩.৪৩ টাকা ৯৬.৮০ টাকা
ইউরো ৭৭.৪৪ টাকা ৮০.৪৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
14th  December, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮, ৪৫৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬, ৪৮৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭, ০৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৪, ০০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৪, ১০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, তৃতীয়া ২/৪৫ দিবা ৭/১৮ পরে চতুর্থী ৫৮/২৫ শেষরাত্রি ৫/৩৫। পুষ্যা ৫৪/৩০ রাত্রি ৪/১। সূ উ ৬/১২/৩৫, অ ৪/৫০/১৭, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৪ গতে ৯/১ মধ্যে পুনঃ ১১/৫২ গতে ২/৪২ মধ্যে। রাত্রি ৭/৩০ গতে ৯/১৭ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৮ গতে ১/৪৪ মধ্যে পুনঃ ২/৩৮ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ১০/১২ গতে ১২/৫১ মধ্যে, কালরাত্রি ১/১১ গতে ২/৫১ মধ্যে। 
২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, তৃতীয়া ৫/৩৫/৫৭ দিবা ৮/২৮/৫০। পুনর্বসু ১/১৯/৩২ প্রাতঃ ৬/৪৬/১৬ পরে পুষ্যা ৫৮/৫৩/৩৭ শেষরাত্রি ৫/৪৭/৫৪, সূ উ ৬/১৪/২৭, অ ৪/৫০/২৪, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪ গতে ৯/১১ মধ্যে ও ১২/১ গতে ২/৫১ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৩৯ গতে ৯/২৬ মধ্যে ও ১২/৭ গতে ১/৫৪ মধ্যে ও ২/৪৭ গতে ৬/১৫ মধ্যে, কালবেলা ১১/৩২/২৬ গতে ১২/৫১/৫৫ মধ্যে, কালরাত্রি ১/১১/৫৬ গতে ২/৫৩/২৬ মধ্যে। 
মোসলেম: ১৭ রবিয়স সানি 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
বজবজ শাখার আক্রার কাছে রেল অবরোধ, পুলিসকে লক্ষ্য করে ছোঁড়া হল পাথর 
সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় এবার শিয়ালদহের বজবজ শাখার আক্রা এবং ...বিশদ

02:30:38 PM

প্রথম ওয়ান ডে: ভারত ৩৩/২ (১০ ওভার) 

02:23:55 PM

রাজ্যের ৫টি জেলায় বন্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা 
গুজব আর উস্কানি ছড়ানো রুখতে পশ্চিমবঙ্গের পাঁচটি জেলায় ইন্টারনেট পরিষেবা ...বিশদ

02:22:25 PM

কোচবিহারের রানিরহাটে পথ দুর্ঘটনায় যুবকের মৃত্যু
 

রবিবার সকালে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল এক যুবকের। আহত হয়েছেন ...বিশদ

01:57:24 PM

এনআরসি প্রতিবাদে মেদিনীপুরে শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে শুরু হল মিছিল

01:48:00 PM

বারুইপুর, ডায়মন্ডহারবার, লক্ষ্মীকান্তপুর লাইনে বন্ধ ট্রেন চলাচল
দক্ষিণ ২৪ পরগনার মল্লিকপুরে এনআরসির প্রতিবাদে অবরোধ। রবিবার সকাল থেকেই ...বিশদ

01:47:00 PM