Bartaman Patrika
রাজ্য
 

গঙ্গায় শোভাবাজার রাজবাড়ির প্রতিমা বিসর্জন। ছবি: অতূণ বন্দ্যোপাধ্যায়

খাদ্যদপ্তরের নিয়মের বিরোধিতায়
সরব রাইস মিল মালিকরা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ধান ভানতে এবার ‘ব্যাঙ্ক গ্যারান্টির গীত’! আর সেই ‘গীত’ শুনে এখন কপালে ভাঁজ পড়েছে রাজ্যের রাইস মিল মালিকদের। কেন? গত দু’বছর তিন হাজার টন ধান ভানতে হলে সরকারের ঘরে ‘পোস্ট ডেটেড চেক’ জমা করলেই হত। কিন্তু তাতে আর ভরসা পাচ্ছে না রাজ্য। এবার ওই পরিমাণ ধান ভাঙালে দিতে হবে ‘ব্যাঙ্ক গ্যারান্টি’। নতুবা চাল উৎপাদনে মিলবে না ধান। খাদ্যদপ্তরের এমন কড়া অবস্থানে বেঁকে বসেছেন রাইস মিল মালিকরা। দু’পক্ষের মধ্যে শুরু হয়েছে তীব্র টানাপোড়েন। আলোচনার পর আলোচনা। সমাধান সূত্র এখনও অধরা। সরকারি উদ্যোগে কেনা ধান থেকে চাল উৎপাদন করে রাইস মিলগুলি।
এর জন্য নভেম্বর মাসে তাদের সঙ্গে চুক্তি করে খাদ্যদপ্তর। হিসেব বলছে, চলতি খরিফ মরশুমেও তিন হাজার টন পর্যন্ত ধান নিলে রাইস মিলকে ২৫ লক্ষ টাকার ‘পোস্ট ডেটেড চেক’ জমা রাখতে হয়েছে। তার থেকেও বেশি ধান নিলে সর্বাধিক তিন কোটি টাকা পর্যন্ত ‘ব্যাঙ্ক গ্যারান্টি’ দিতে হয়েছে মিল মালিকদের। আসন্ন মরশুমে আরও কড়া হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে খাদ্যদপ্তর। নয়া নিয়মে বলা হয়েছে, তিন হাজার টন পর্যন্ত ধান নিলেও ‘ব্যাঙ্ক গ্যারান্টি’ দিতে হবে। আর এতেই আপত্তি মিল মালিকদের সংগঠন ওয়েস্ট বেঙ্গল রাইস মিল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের। ইতিমধ্যে তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন খাদ্যদপ্তরের শীর্ষ আধিকারিকরা। কিন্তু দু’পক্ষই নিজেদের অবস্থানে অনড়। খাদ্যদপ্তর তাদের অবস্থান থেকে সরে না এলে সরকারি ধান নেওয়া হবে না—এমনই কড়া বার্তা দিয়েছে সংগঠন। পিছু হটতে রাজি নয় সরকারও।
সরকারি ধান নিয়ে পরিমাণমতো চাল না দেওয়া কিংবা কম দেওয়ার ঘটনা প্রায়শই ঘটে। অভিযুক্ত রাইস মিলগুলির বিরুদ্ধে এফআইআর করতে হয়েছে খাদ্যদপ্তরকে। পূর্ব বর্ধমান, বাঁকুডা, উত্তর ২৪ পরগনার বেশ কয়েকজন মিল মালিককে গ্রেপ্তারও করেছে পুলিস। জল গড়িয়েছে আদালত পর্যন্ত। কিন্তু খাদ্যদপ্তরের শীর্ষ কর্তাদের বক্তব্য, গ্রেপ্তারি কিংবা মামলা সরকারের আর্থিক ক্ষতি মেটাতে পারে না। তাই কয়েক মাস আগে মিল মালিকদের সঙ্গে আলোচনা করে বকেয়া চাল অথবা মূল্য অনুযায়ী টাকা আদায় করার উদ্যোগ নেওয়া হয়। তা সত্ত্বেও সব মিল থেকে চাল পাওয়া যায়নি। মেলেনি টাকাও। সরকারের ক্ষতি আটকাতে দু’বছর আগে ‘ব্যাঙ্ক গ্যারান্টি’ ও ‘পোস্ট ডেটেড চেক’ নেওয়া শুরু হয়। কিন্তু এখানেও বিপত্তি। দেখা যায়, ‘পোস্ট ডেটেড চেক’-এর মাধ্যমে সরকারকে ফাঁকি দেওয়ার সুযোগ নিচ্ছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। এবার এই ব্যবস্থা বন্ধ করতে চাইছে খাদ্যদপ্তর। ‘ব্যাঙ্ক গ্যারান্টি’ দিলে সরকারকে আর ফাঁকি দেওয়া যাবে না।
যদিও মিল মালিকদের সংগঠন এই যুক্তি মানতে নারাজ। সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি আব্দুল মালেক জানিয়েছেন, অসৎ মিল মালিকরা ব্যাঙ্ক গ্যারান্টি দিয়েও সরকারকে ফাঁকি দিতে পারেন। ধানের দামের তুলনায় অনেক কম ব্যাঙ্ক গ‌্যারান্টি দিতে হয়। ব্যাঙ্কে সমপরিমাণ টাকা জমা রেখে তবেই গ্যারান্টি পাওয়া যায়। সরকারের নয়া সিদ্ধান্তে সৎ মালিকরা চরম অসুবিধার মুখোমুখি হবেন। খুব শীঘ্রই লিখিতভাবে সরকারের সিদ্ধান্তে আপত্তি জানানো হবে বলে সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে।  
20th  September, 2020
আনলকে অর্থনৈতিক
কর্মকাণ্ডে শীর্ষে বাংলা

অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে ফেরার তাগিদ। আনলক পর্ব বা নিউ নর্মাল, যে নামেই অভিহিত করা হোক না কেন, স্বাভাবিক জীবন-জীবিকায় ফেরাটাই এই পর্বের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। আর সেই তাগিদে একেবারে শীর্ষেই স্থান করে নিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাংলা।  বিশদ

পুলিস অ্যাকাডেমি সহ ভারতের
বহু জায়গায় জয়েশ হামলার ছক

ভারতে ফের হামলার ছক কষছে জয়েশ-ই-মহম্মদ। ইন্ডিয়ান পুলিস অ্যাকাডেমি সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থান রয়েছে তাদের নিশানায়। আর পাকিস্তানে বসে এই নাশকতার ঘুঁটি সাজাচ্ছে স্বয়ং জয়েশ প্রধান মৌলানা মাসুদ আজহার। সম্প্রতি এই তথ্য হাতে এসেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের। বিশদ

কেন্দ্রের শ্রম কোড কীভাবে কার্যকর,
খতিয়ে দেখতে ৪ টাস্ক ফোর্স রাজ্যের 

হাজার বিতর্ক ও আপত্তি থাকা সত্ত্বেও সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠতার দৌলতে চারটি শ্রম কোডকেই আইনে পরিণত করেছে নরেন্দ্র মোদি সরকার। এব্যাপারে সরকারের গেজেট নোটিফিকেশনও প্রকাশিত হয়েছে রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষরের পর। আগামী বছর ১ এপ্রিল থেকে গোটা দেশে যাতে এক সাথে এই চারটি কোড বলবৎ করা যায়, সেজন্য পুরোদমে প্রস্তুতি শুরু করেছে শ্রমমন্ত্রক।  
বিশদ

বিজয়ার শুভেচ্ছার আড়ালে
লে কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠার চেষ্টা দিলীপের

বঙ্গ বিজেপির রাজনৈতিক উত্থান কার্যত তাঁর হাত ধরেই। বিজয়া শুভেচ্ছার মোড়কে কর্মীদের উদ্দেশে এমনই বার্তা দিলেন দিলীপ ঘোষ। মঙ্গলবার দশমীতে দলের কর্মী-নেতাদের জন্য লেখা রাজ্য সভাপতির এই খোলা চিঠি রাজনৈতিকভাবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিশদ

রোগক্লিষ্ট বুদ্ধদেবের ছবি প্রচার,
সিপিএমের নিশানায় রাজ্যপাল

নিন্দায় সরব পার্থ, প্রদীপও

কারণে-অকারণে নানা ইস্যুতে সরকারের সমালোচনা করে তিনি গত এক বছর ধরে শাসক তৃণমূলের চক্ষুশূল। এবার অসুস্থতার দরুণ শয্যাশায়ী প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার করায় সিপিএমের নিশানায় পড়লেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার। বিশদ

হোম আইসোলেশনে থাকা করোনা রোগীদের
চিকিৎসায় যুক্ত করা হচ্ছে পাড়ার ডাক্তারদের

হোম আইসোলেশনে বা বাড়িতে থাকা করোনা রোগীরা যাতে চিকিৎসকের অভাবে বিপদে না পড়েন, সেকারণে তাঁদের দেখভালের জন্য সেই পাড়ার ডাক্তারদের যুক্ত করার পরিকল্পনা নিল সরকার। রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর এবং রাজ্য আইএমএ’র কর্তারা মঙ্গলবার স্বাস্থ্যভবনে এক বৈঠকে এই কর্মসূচির প্রাথমিক রূপরেখা স্থির করেন। বিশদ

ফাঁকা মণ্ডপ দেখে বাঙালির প্রার্থনা,
মাস্ক-হীন হোক একুশের দুর্গাপুজো

অষ্টমীর রাত। সুশান্ত আর তনুশ্রী এসেছিলেন শ্রীভূমির ঠাকুর দেখতে। নভেম্বরে বিয়ে ঠিক হয়েছিল তাঁদের। কিন্তু করোনার জন্য অনুষ্ঠান পিছতে হয়েছে পরের বছর। ব্যারিকেড-বিধি মেনে ফাঁকা মণ্ডপ। তাই দূর থেকেই দেবী প্রণাম সেরে জানিয়ে গেলেন, ভক্তিটা মনের। তবুও মায়ের সামনে দাঁড়িয়ে জোড়হাত করে আশীর্বাদ চাওয়ার অনুভূতিটাই আলাদা।
বিশদ

বাঁকুড়ায় ১১ হাজার হেক্টর জমিতে
ডালশস্য চাষে বীজ দেবে কৃষিদপ্তর 

আমন ধান তোলার পর বিকল্প হিসেবে রবি মরশুমে ডালশস্য চাষের এলাকা বাড়ানোর উপর জোর দেবে কৃষিদপ্তর। চলতি মরশুমে বাঁকুড়া জেলায় ১০হাজার ২০০হেক্টর জমিতে ডালশস্য চাষের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। তাই এখন থেকেই কৃষি দপ্তরের তরফে চাষিদের সচেতন করার জন্য প্রচারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রায় ৪ হাজার হেক্টর জমিতে শুধু মসুর ডাল চাষের উদ্যোগ নিচ্ছে কৃষিদপ্তর।  
বিশদ

মানবপাচার রোধে
সাইকেলে প্রচার শিক্ষকের

সঙ্গী বলতে দু’ চাকার বাহন। নিশিযাপনের জন্য সঙ্গে রয়েছে তাঁবু খাটানোর সরঞ্জাম। এ নিয়েই অসাধ্য সাধন করতে বেরিয়ে পড়েছেন বারুইপুরের শিক্ষক পাপ্পু রায়। মানব পাচার নিয়ে রাজ্যের সাধারণ মানুষকে সচেতন করতেই তাঁর এই মহান উদ্যোগ। এই লক্ষ্যে মহাসপ্তমীর দিন সাইকেলের প্যাডেলে পা রেখেছেন তিনি। যাচ্ছেন দক্ষিণবঙ্গের সব জেলায়। 
বিশদ

কালীঘাটে গিয়ে নয়, এবছর দূর
থেকে শুভেচ্ছা মমতাকে

কোলাকুলি নয়, পা স্পর্শও নয়। ‌দূর থেকেই বিজয়ার শুভেচ্ছাজ্ঞাপন। করোনা সংক্রমণ রুখতে এটাই হোক এবারের মূল মন্ত্র। স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও এপথে হেঁটে নজির সৃষ্টি করেছেন। কালীঘাটে মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবন বা তৃণমূলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কর্মী-সমর্থক-শুভানুধ্যায়ীদের আসতে বারণ করা হয়েছে। সরকারের স্বাস্থ্যবিধি ও হাই কোর্টের নির্দেশ মেনে এবারের দুর্গাপুজো নির্বিঘ্নেই মিটেছে। ‌রাজ্যবাসীকে বিজয়ার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বিশদ

এবার ইন্ডেন গ্যাস
বুকিং নতুন নম্বরে

লাগবে ওটিপি

আগামী ১ নভেম্বর থেকে ইন্ডেন গ্যাসের গ্রাহকরা আর পুরনো নম্বরে গ্যাস বুকিং করতে পারবেন না। ইন্ডিয়ান অয়েল জানিয়েছে, এতদিন এরাজ্যের বাসিন্দারা ৯০৮৮৩ ২৪৩৬৫ নম্বরে ফোন করে গ্যাস বুকিং করতে পারতেন। কিন্তু এবার তার বদলে ৭৭১৮৯ ৫৫৫৫৫ নম্বরে বুকিং করতে হবে। বিশদ

পুজোর মাসে করোনার বলি
রাজ্যের ১৪ জন চিকিৎসক

পুজোর মাসে করোনায় মৃত্যু হল রাজ্যের ১৪ জন চিকিৎসকের। এর মধ্যে পুজোর ক’দিনেই মারা গিয়েছেন তিনজন। রাজ্যের অন্যতম চিকিৎসক সংগঠন ওয়েস্ট বেঙ্গল ডক্টর্স ফোরাম (ডব্লুবিডিএফ) সূত্রে এ খবর জানা গিয়েছে। ডব্লুবিডিএফ সূত্রের খবর, আরও একটি উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার পর বেশ কিছু মানুষের শারীরিক অবস্থার আকস্মিক অবনতি ও মৃত্যু ঘটছে। বিশদ

আলুর দামে রাশ টানতে খুচরো
বাজারে অভিযান চালাল ইবি

আলুর দাম কমানোর লক্ষ্যে কলকাতার খুচরো বাজারে পুলিসের এনফোর্সমেন্ট শাখা (ইবি) অভিযান শুরু করল। মোট ৪৮টি বাজারে আচমকা হানা দিয়েছিলেন ইবির অফিসাররা। তাঁরা আলুর দাম নিয়ে খোঁজখবর নেন। একইসঙ্গে ন্যায্য দামে তা বিক্রির অনুরোধ করেন বিক্রেতাদের। দোকানিদের নথিপত্রও পরীক্ষা করা হয়।
বিশদ

রেশনে রাজ্যের প্রাপ্য প্রায় ১ হাজার টন
খাদ্যসামগ্রী ছাঁটাই করতে চলেছে কেন্দ্র

প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার আওতায় রাজ্যের জন্য বরাদ্দ খাদ্যশস্যের কিছুটা ছাঁটাই করতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই যোজনার অধীনে জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা প্রকল্পের রেশন গ্রাহকদের বিনা পয়সায় পাঁচ কেজি করে অতিরিক্ত খাদ্যশস্য দেওয়া হচ্ছে। কেন্দ্রীয় সরকারের অন্ন বিতরণ পোর্টালে তথ্য ঠিকমতো আপলোড করা হয়নি, এই কারণ দেখিয়ে বরাদ্দ কমিয়েছে কেন্দ্র। বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
অবশেষে মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি নিয়োগে জয় হল ডোনাল্ড ট্রাম্পের। প্রেসিডেন্ট মনোনীত কনজারভেটিভ জুরি অ্যামি ব্যারেটই ওই পদে শপথ নিলেন। শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের ঘণ্টাখানেক আগে তাঁর ...

...

সংবাদদাতা, মালদহ: সরকারি আবাসনে এক প্রৌঢ় রেলকর্মীর রহস্যজনক মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল মালদহে। বিজয়া দশমীর সন্ধ্যায় ওই রেলকর্মীর রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার হয়। মৃতের শরীর কার্যত ...

শেষ পর্যন্ত কি প্লে-অফে জায়গা করে নিতে পারবে কলকাতা নাইট রাইডার্স? এই প্রশ্নটাই এখন ঘুরপাক কাছে কেকেআর সমর্থকদের মনে। গত ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের কাছে ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চপদস্থ ব্যক্তির সহায়তায় কর্মস্থলে জটিলতার সমাধান। বাতজবেদনায় কষ্ট পাবার সম্ভাবনা। প্রেম-প্রণয়ে সাফল্য। পরশ্রীকাতর ব্যক্তির দ্বারা ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৪২০: মিং সাম্রাজ্যে বেজিং প্রথম রাজধানী হিসেবে সরকারী স্বীকৃতি পেল
১৪৯২: ইতালিয়ান নাবিক অভিযাত্রী ক্রিস্টোফার কলম্বাস কিউবা আবিষ্কার করেন।
১৮৬৬: বিশিষ্ট শিশুসাহিত্যিক যোগীন্দ্রনাথ সরকারের জন্ম
১৮৬৭ - অ্যাংলো-আইরিশ বংশোদভূত সমাজকর্মী, লেখিকা,শিক্ষিকা তথা স্বামী বিবেকানন্দের শিষ্যা ভগিনী নিবেদিতার জন্ম
১৮৮৬: আজকের দিনে ফ্রান্স যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি বন্ধুত্বের নিদর্শন হিসাবে স্ট্যাচু অব লিবার্টি উৎসর্গ করে।
১৯২২: বেনিতো মুসোলিনির নেতৃত্বে ইতালির ফ্যাসিস্ত সরকার রোম দখল করে
১৯৫৫ - মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের জন্ম
২০০২ - বিশিষ্ট কবি ও অবিস্মরণীয় ছড়াকার, কথাসাহিত্যিক ও প্রাবন্ধিক অন্নদাশঙ্কর রায়ের মৃত্যু।
২০০৬: ঢাকায় বাংলাদেশের আওয়ামী লিগের একদল কর্মী বিরোধী দলের এক সভায় হামলা চালায়। খুন করে বিরোধী দলের ১৪ কর্মীকে
২০০৯: পেশোয়ারে বোমা বিস্ফোরণে ১১৭ জনের মৃত্যু হয়। জখম হয় ২১৩ জন



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.১১ টাকা ৭৪.৮২ টাকা
পাউন্ড ৯৪.৭৫ টাকা ৯৮.০৯ টাকা
ইউরো ৮৫.৯০ টাকা ৮৯.০৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫১, ৭৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৯, ১৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৯, ৮৭০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬২, ১৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬২, ২৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১১ কার্তিক, ১৪২৭, বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, দ্বাদশী ১৭/৫৯ দিবা ১২/৫৪। পূর্বভাদ্রপদ নক্ষত্র ৮/৪১ দিবা ৯/১১। সূর্যোদয় ৫/৪২/৪০, সূর্যাস্ত ৪/৫৮/১৪। অমৃতযোগ দিবা ৬/২৬ মধ্যে পুনঃ ৭/১২ গতে ৭/৫৭ মধ্যে পুনঃ ১০/১৩ গতে ১২/২৮ মধ্যে। রাত্রি ৫/৫১ গতে ৬/৪২ মধ্যে পুনঃ ৮/২৩ গতে ৩/১০ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৬/২৬ গতে ৭/১২ মধ্যে পুনঃ ১/১৪ গতে ৩/২৯ মধ্যে। বারবেলা ৮/৩১ গতে ৯/৫৬ মধ্যে পুনঃ ১১/২০ গতে ১২/৪৫ মধ্যে। কালরাত্রি ২/৩২ গতে ৪/৭ মধ্যে।
১১ কার্তিক, ১৪২৭, বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, দ্বাদশী দিবা ১/৪০। পূর্বভাদ্রপদ নক্ষত্র দিবা ১১/১। সূর্যোদয় ৫/৪৪, সূর্যাস্ত ৪/৫৯। অমৃতযোগ দিবা ৬/৩৮ মধ্যে ও ৭/২১ গতে ৮/৫ মধ্যে ও ১০/১৬ গতে ১২/২৭ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪১ গতে ৬/৩৩
মধ্যে ও ৮/১৮ গতে ৩/১৭ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৬/৩৮ গতে ৭/২১ মধ্যে ও ১/১০ গতে ৩/২১ মধ্যে। কালবেলা ৮/৩৩ গতে ৯/৫৭ মধ্যে ও ১১/২১ গতে ১২/৪৬ মধ্যে। কালরাত্রি ২/৩৩ গতে ৪/৮ মধ্যে।
১০ রবিয়ল আউয়ল।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আইপিএল: ৮৮ রানে জিতল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ 

27-10-2020 - 11:00:00 PM

আইপিএল: দিল্লি ৯৬/৬ (১৫ ওভার) 

27-10-2020 - 10:40:09 PM

আইপিএল: দিল্লি ৭৬/৪ (১১ ওভার) 

27-10-2020 - 10:18:29 PM

আইপিএল: দিল্লি ৩৪/২ (৫ ওভার) 

27-10-2020 - 09:48:54 PM

দিল্লিকে ২২০ রানের টার্গেট দিল হায়দরাবাদ 

27-10-2020 - 09:09:36 PM

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ১৭৫/২ (১৫ ওভার) 

27-10-2020 - 08:46:00 PM