Bartaman Patrika
রাজ্য
 

উপাচার্যরা সংগঠন গড়ে জানিয়ে
দিলেন, আমরা নিরপেক্ষ, স্বাধীন

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যের সব সরকারপোষিত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যরা নিজেদের একটি সংগঠন তৈরি করলেন। যাদবপুরের উপাচার্য সুরঞ্জন দাসকে সভাপতি করে সংগঠনটির নাম দেওয়া হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ উপাচার্য পরিষদ। রাজ্য সরকারের অঙ্গুলিহেলনেই উপাচার্যরা চলেন, রাজ্যপাল জগদীপ ধনকারের এই অভিযোগ মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠক ডেকে নস্যাৎ করলেন পরিষদের সদস্য উপাচার্যরা। মোট ছ’জন উপাচার্য বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। সংগঠনের মনোনীত সম্পাদক, উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুবীরেশ ভট্টাচার্য সাংবাদিক বৈঠকে জানান, আমরা উপাচার্যরা নিরপেক্ষভাবে কাজ করছি। সম্পূর্ণ স্বাধীনতা পাচ্ছি। রাজ্য সরকারও বারবার বলেছে, আমাদের কাজে হস্তক্ষেপ করা হবে না। আমরা কারও অঙ্গুলিহেলনে কাজ করি না। এ কথায় তাঁকে সমর্থন জানান অন্য উপাচার্যরা। তবে, রাজ্যপাল প্রসঙ্গে সুবীরেশবাবু বলেন, উনি কী বলেছেন, তা নিয়ে মন্তব্য করা উচিত নয়। উনি কেন তা বলেছেন, তার ব্যাখ্যা তিনিই দিতে পারবেন। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের সল্টলেক ক্যাম্পাসেই এই বৈঠক হয়। সেই বৈঠক সেরে তিন উপাচার্য সুবীরেশ ভট্টাচার্য, দেবকুমার মুখোপাধ্যায় এবং দীপক কর ধর্মতলায় তৃণমূলের ধর্নামঞ্চে গিয়ে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করেন। এই ঘটনাকে ভালো চোখে দেখছে না বিরোধীরা।
১৩ জানুয়ারি, সোমবার উপাচার্যদের রাজভবনে একটি বৈঠক ডেকেছিলেন আচার্য তথা রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার। কিন্তু উচ্চশিক্ষা দপ্তরের অনুমতি না মেলায় সেই বৈঠকে তাঁরা যাননি। তাৎপর্যপূর্ণভাবে, তার ঠিক একদিন আগে, ১২ জানুয়ারি অর্থাৎ রবিবার এই পরিষদ গঠনের বৈঠক হয়। পরদিন রাজভবনে কেন যাওয়া হল না? এ প্রশ্নের উত্তরে উপাচার্যদের দাবি, নতুন বিধি অনুযায়ী আচার্যের সঙ্গে উপাচার্যদের সরাসরি যোগাযোগের কোনও উপায় নেই। দু’পক্ষকেই উচ্চশিক্ষা দপ্তরের মাধ্যমে একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। সেই পথেই হাঁটা হয়েছে।
সুবীরেশবাবু বলেন, পরবর্তী বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রীকেও আমরা ডাকব। তাহলে কি আচার্য হিসেবে রাজ্যপালকেও ডাকা হতে পারে? এ প্রশ্নে অন্যান্য উপাচার্যরা বলার চেষ্টা করেন, আচার্যকে জানানো যেতেই পারে। কোনও বিরোধ তো নেই। তাঁদের থামিয়ে দিয়ে সুবীরেশবাবু বলেন, মাথায় রাখতে হবে, আমরা সরকারপোষিত বিশ্ববিদ্যালয়ে রয়েছি। এর ৯৫ শতাংশ ব্যয়ভারই বহন করে রাজ্য সরকার। ইউজিসির অনুদান প্রায় শূন্য হয়ে গিয়েছে। রাজ্য সরকার আর্থিক সংকটের মধ্যেও এই পরিস্থিতিতে পাশে দাঁড়ানোয় গবেষণা থেকে অন্যান্য ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়গুলির কোনও অসুবিধা হচ্ছে না। তাই শিক্ষামন্ত্রীর কাছে আমাদের যেতেই হবে।
রবিবারের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ১৮ জন উপাচার্য। দু’জন উপস্থিত না থাকতে পারলেও এসএমএস বার্তায় সমর্থন জানিয়েছেন। তাতে সভাপতি মনোনীত হয়েছেন যাদবপুরের উপাচার্য সুরঞ্জন দাস। দুই সহ-সভাপতি হয়েছেন রবীন্দ্রভারতীর উপাচার্য সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী এবং নেতাজি সুভাষ মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য শুভশঙ্কর সরকার। যুগ্ম সম্পাদক সিধো কানহু বিরসা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দীপক কর এবং কোষাধ্যক্ষ হয়েছেন ডায়মন্ডহারবার মহিলা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অনুরাধা মুখোপাধ্যায়। তাঁদের দাবি, বিভিন্ন নতুন বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে পুরনো এবং প্রতিষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়গুলির পঠনপাঠন এবং পরিকাঠামোগত সমন্বয় সাধনই এই পরিষদ গঠনের প্রধান উদ্দেশ্য। অধ্যাপক বিনিময় চলতে পারে। সব বিশ্ববিদ্যালয়ে একক বিধি প্রণয়নের দাবিও রয়েছে। পরিষদ গঠন করে রাজ্য সরকারের কাছে এসব দাবি নিয়ে গেলে গুরুত্ব মিলবে বলেই সদস্যদের আশা।
প্রসঙ্গত, ব্রাত্য বসু শিক্ষামন্ত্রী থাকাকালীন বিশ্ববিদ্যালয়গুলির মধ্যে সমন্বয় সাধনের উদ্দেশে স্টেটওয়াইড ইউনিভার্সিটি নেটওয়ার্ক (সান) প্রকল্প নিয়েছিল উচ্চশিক্ষা সংসদ। কিন্তু তা আর এগয়নি। এই পরিষদে যাঁরা রয়েছেন, তাঁদের মধ্যে অনেকেই নিখিলবঙ্গ অধ্যক্ষ পরিষদের শীর্ষনেতা। যেমন সুবীরেশবাবু সভাপতি। দীপক কর সম্পাদক। তাহলে সেই পদগুলির কী হবে? অধ্যক্ষ পরিষদের হয়ে উত্তরবঙ্গের দায়িত্ব সামলানো দেবকুমারবাবু জানান, নিশ্চয়ই অধ্যক্ষ পরিষদের পরবর্তী বৈঠকে নতুনদের আনা হবে। অধ্যক্ষ পরিষদ করতে গিয়েই আমরা বুঝতে পেরেছি, উপাচার্য পরিষদ গঠনের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। তবে, বাম আমলে বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য স্বপন প্রামাণিককে মাথায় রেখে এই পরিষদ আগে থাকলেও পরে তা ভেঙে যায়।
 

15th  January, 2020
পদে থাকতে নাড্ডার অভিষেকেই কেন্দ্রীয় নেতাদের ধরাধরি বহু বঙ্গ বিজেপি নেতার 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সর্বভারতীয় বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডার অভিষেকে সাক্ষী থাকতে রাজ্য পার্টির প্রায় সব নেতাই সোমবার দিল্লিতে ছিলেন। রাজ্য বিজেপির পরবর্তী কমিটি এবং গুরুপূর্ণ পদাধিকারীদের নাম নিয়ে এদিন পার্টির হেড কোয়ার্টারেই জোর চর্চা শুরু হয়ে গিয়েছে। 
বিশদ

এনপিআর থেকে বাদ দিতে হবে বাবা
মায়ের জন্মস্থান-তারিখ, দাবি মমতার

দেবাঞ্জন দাস, শিলিগুড়ি: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) এবং এনআরসি’র কেন তিনি বিরোধিতা করছেন, সে ব্যাখ্যা আগেই দিয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার এখানে উত্তরবঙ্গ উৎসবের মঞ্চ থেকে স্পষ্ট করে দিলেন, কেন ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টার (এনপিআর) নিয়ে কেন্দ্রের অবস্থানের পাল্টা মেরুতে রয়েছেন তিনি।
বিশদ

শহিদ মিনারের সমাবেশ থেকে নির্বাচনী প্রচারের ঢাকে কাঠি সিপিএমের
এনআরসি-সিএএ, মানুষের ক্ষোভকে পুরভোটের প্রস্তুতিতে কাজে লাগানোর নিদান দিলেন সূর্যকান্ত 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এনআরসি-সিএএ ইস্যুকে সামনে রেখে নিজেদের ভেঙে পড়া সংগঠনকে খানিকটা হলেও ফের চাঙা করা সম্ভব হয়েছে বলে মনে করছে সিপিএম নেতৃত্ব। সেই ইতিবাচক ছবিকে কাজে লাগিয়ে এবার পুরভোটের প্রস্তুতিও তারা সেরে ফেলতে চাইছে।  
বিশদ

১৫০ বিঘা থেকে ১৫ হাজার বিঘা
রোগ সারাতে চাহিদা বাড়ছে বাংলার ব্রাহ্মী, তুলসী, অশ্বগন্ধার, তিন বছরে চাষ বাড়ল ১০০ গুণ

বিশ্বজিৎ দাস, কলকাতা: প্রেসক্রিপশনে লেখা মডার্ন মেডিসিনের দামি দামি অ্যান্টিবায়োটিক আর কাঁড়ি কাঁড়ি ওষুধের বহরে বিরক্ত অনেকেই। তাই যত দিন যাচ্ছে, বিকল্প চিকিৎসার দিকে ঝোঁকও বাড়ছে। কতটা বাড়ছে সেই ঝোঁক?  
বিশদ

নরেন্দ্র মোদির নামেই ভোট চাইবে বিজেপি
পশ্চিমবঙ্গের ভোটে কাউকেই মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে তুলে ধরা হবে না: দিলীপ ঘোষ 

দিব্যেন্দু বিশ্বাস, নয়াদিল্লি, ২০ জানুয়ারি: আগামী ২০২১ সালের পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিজেপির মুখ হচ্ছেন না কেউই। দলের মুখ হবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিই। আজ বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি হিসেবে জগৎপ্রকাশ নাড্ডার নির্বাচন উপলক্ষে দিল্লিতে এসে এ কথা জানিয়েছেন দলের পশ্চিমবঙ্গ সভাপতি দিলীপ ঘোষ। 
বিশদ

কেরল ও পাঞ্জাবের পর বাংলায়
সিএএ নিয়ে রাজ্যের আপত্তি: বিধানসভায় সর্বদলীয় প্রস্তাব গ্রহণে উদ্যোগী মমতা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) প্রত্যাহারের দাবিতে এবার রাজ্য বিধানসভায় প্রস্তাব পাশ করানোর সিদ্ধান্ত নিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার উত্তরবঙ্গে যাওয়ার পথে এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেন তিনি।  
বিশদ

শিক্ষাদপ্তরের রিপোর্ট
পরিকাঠামোয় খামতি, প্রায় তিন হাজার প্রাথমিক স্কুলে চালু হল না পঞ্চম শ্রেণী 

সৌম্যজিৎ সাহা, কলকাতা: পঞ্চম শ্রেণীকে প্রাথমিকে অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল শিক্ষাদপ্তর। সেই মতো প্রায় ১৮ হাজার স্কুলকে চিহ্নিত করা হয়। কিন্তু পরিকাঠানোর অভাবে প্রায় তিন হাজার স্কুলে প্রাথমিকে পঞ্চম শ্রেণী চালু করা গেল না। শিক্ষাদপ্তর সূত্রে এমনটাই জানা গিয়েছে।  
বিশদ

অন্তর্ভুক্ত ২১ লক্ষ হেক্টর কৃষিজমি
খরিফ মরশুমে ৪৬ লক্ষ কৃষককে
শস্যবিমার আওতায় আনল রাজ্য

রাজু চক্রবর্তী, কলকাতা: চলতি কৃষি ক্যালেন্ডারের খরিফ মরশুমে ‘বাংলা শস্যবিমা’য় ৪৬ লক্ষ কৃষককে অন্তর্ভুক্ত করল পরিবর্তনের সরকার। যার সৌজন্যে ইতিমধ্যেই রাজ্যের প্রায় ২১ লক্ষ হেক্টর কৃষিজমি বিমার অধীনে চলে এসেছে। 
বিশদ

সংশোধিত বেতনক্রমের বিজ্ঞপ্তি ত্রুটিপূর্ণ, শিক্ষামন্ত্রীকে চিঠি সরকারি কলেজ শিক্ষকদের 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কলেজ অধ্যাপকদের সংশোধিত বেতনক্রম নিয়ে বিজ্ঞপ্তি ঘিরে অসন্তোষ ক্রমশই বাড়ছে। পশ্চিমবঙ্গ সরকারি কলেজ শিক্ষক সমিতির তরফে এবার শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে এ নিয়ে চিঠি দেওয়া হল। তাতে বলা হয়েছে, বিজ্ঞপ্তিতে কোথায় কোথায় ক্রটি রয়েছে। 
বিশদ

উত্তুরে হাওয়ার হাত ধরে আজ
থেকে নামবে রাতের তাপমাত্রা
জানাল আবহাওয়া দপ্তর

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উত্তুরে হাওয়া ফের ফিরল বাংলায়। আর তার জেরেই ফের শীত অনুভূত হল। চলতি সপ্তাহে কমবেশি এই পরিস্থিতি চলবে, জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। দিনের বেলা গরম ভাব বজায় থাকলেও, রাতের দিকে তাপমাত্রা নামবে। শহরে তা ১৩ ডিগ্রিতে নামতে পারে। জেলায় কোথাও কোথাও পারদ আরও নামার পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস।  
বিশদ

ওয়ার্ড হারানো ৩১ জন পুরপ্রধান
মেয়রকে পুনর্বাসন দেবে তৃণমূল

সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: ওয়ার্ড সংরক্ষণের গেরোয় রাজ্যের ৩১টি পুরসভার চেয়ারম্যান ও মেয়র আসন হারিয়েছেন। ওয়ার্ড সংরিক্ষত হয়েছে ১৯ জন ভাইস চেয়ারম্যান এবং একজন ডেপুটি মেয়রের। আর ৮ জন মেয়র পরিষদ সদস্য এবং বেশ কয়েকজন চেয়ারম্যান পরিষদ সদস্যের ওয়ার্ডও সংরক্ষণের গেরোয় পড়েছে। 
বিশদ

টেন্ডার প্রক্রিয়ায় আরও স্বচ্ছতা আনার উদ্যোগ রাজ্য সরকারের 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সরকারি দপ্তরগুলিতে টেন্ডার প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা আনতে উদ্যোগী হল অর্থদপ্তর। কোনও প্রকল্প রূপায়ণ বা কেনাকাটার ব্যাপারে ভেঙে (স্প্লিট) টেন্ডার ডাকা যাবে না বলে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এটা করলে কোনও টাকা ছাড়া হবে না। 
বিশদ

কোথাও কোথাও বাড়তি ক্লাস নিতে চাপ পার্শ্বশিক্ষকদের 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী পার্শ্বশিক্ষকদের সপ্তাহের হিসেবে নির্ধারিত পাঁচ দিনে ২০টি ক্লাস করার কথা। অবশিষ্ট একদিন স্কুলছুটদের শনাক্তকরণের কাজ করবেন এই শিক্ষকরা, এমনই বলা ছিল নির্দেশে। কিন্তু বেশ কিছু জেলা এবং সার্কেল তাঁদের ছ’দিন কাজ করতে বাধ্য করছে বলে অভিযোগ। 
বিশদ

সংখ্যালঘু বৃত্তি ‘ঐক্যশ্রী’তে
রাজ্যজুড়ে আবেদন ৪৬ লক্ষ
মোদি সরকারের বঞ্চনার যোগ্য জবাব মমতার

রাজু চক্রবর্তী, কলকাতা: রাজ্যজুড়ে সংখ্যালঘু পড়ুয়াদের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রকল্প ‘ঐক্যশ্রী’তে প্রায় সাড়ে ৪৬ লক্ষ আবেদন জমা পড়েছে। মুখ্যমন্ত্রী তথা রাজ্যের সংখ্যালঘু উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মস্তিষ্কপ্রসূত এই প্রকল্প চলতি আর্থিক বছর থেকে শুরু হয়েছে। 
বিশদ

20th  January, 2020

Pages: 12345

একনজরে
নয়াদিল্লি, ২০ জানুয়ারি: এই নিয়ে টানা পাঁচদিন। সোমবার ফের কমল পেট্রল ও ডিজেলের দাম। এদিন পেট্রলে লিটার পিছু ১১ পয়সা এবং ডিজেলে প্রতি লিটারে ১৯ পয়সা দাম কমেছে। ...

বিজাপুর, ২০ জানুয়ারি (পিটিআই): ছত্তিশগড়ে নিরাপত্তারক্ষীদের গুলিতে মৃত্যু হল এক মহিলা মাওবাদীর। সোমবার সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ বিজাপুর জেলার বাসাগৌড়া থানার নাসরাপুর গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে।   ...

সংবাদদাতা, তারকেশ্বর: তারকেশ্বর পুরসভা এলাকায় প্রোমোটারদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে একাধিক বেআইনি নির্মাণের অনুমতি দিয়েছে চেয়ারম্যান, এমনই অভিযোগ তুলেছেন পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান উত্তম কুণ্ডু। ...

সংবাদদাতা, ঘাটাল: সোমবার রাস্তা সংস্কারের দাবিতে পথ অবরোধ করলেন ব্যবসায়ীরা। এদিন সকালে দাসপুরের সোনাখালি বাজার সংলগ্ন এলাকায় সুলতাননগর-গোপীগঞ্জ সড়ক অবরোধ করা হয়।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে মতান্তরে না যাওয়াই শ্রেয়। কর্মক্ষেত্রে স্থান পরিবর্তন হতে পারে। ব্যবসায় উপার্জন বাড়বে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৪৫- স্বাধীনতা সংগ্রামী রাসবিহারী বসুর মৃত্যু
১৯৫০- ইংরেজ সাহিত্যিক জর্জ অরওয়েলের মৃত্যু
১৯৬৮- চারটি হাইড্রোজেন বোমা সহ গ্রিনল্যান্ডে ভেঙে পড়ল আমেরিকার বি-৫২ যুদ্ধবিমান
১৯৮৬- অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের জন্ম  





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৪৯ টাকা ৭২.৬২ টাকা
পাউন্ড ৯০.২৮ টাকা ৯৪.৬২ টাকা
ইউরো ৭৭.০৪ টাকা ৮০.৭৫ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪০, ৬০০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৮, ৫২০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৯, ১০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৬, ৭৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৬, ৮৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৬ মাঘ ১৪২৬, ২১ জানুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার, দ্বাদশী ৪৮/২৬ রাত্রি ১/৪৫। জ্যেষ্ঠা ৪৩/২১ রাত্রি ১১/৪৩। সূ উ ৬/২২/৪৯, অ ৫/১২/৪৩, অমৃতযোগ দিবা ৮/৩২ গতে ১০/৪৩ মধ্যে পুনঃ ১২/৫২ গতে ১২/৫২ মধ্যে. রাত্রি ৬/৫ গতে ৮/৪৩ মধ্যে পুনঃ ১১/২১ গতে ২/৫২ মধ্যে। বারবেলা ৭/৪৪ গতে ৯/৫ মধ্যে পুনঃ ২/২৯ গতে ৩/৫০ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/৯ গতে ১১/৪৮ মধ্যে। 
৬ মাঘ ১৪২৬, ২১ জানুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার, দ্বাদশী ৫০/৫৪/৪৮ রাত্রি ২/৪৭/৫৬। জ্যেষ্ঠা ৪৬/৪১/৪৮ রাত্রি ১/৬/৪৪। সূ উ ৬/২৬/১, অ ১/১৬/৪৯, অমৃতযোগ দিবা ৮/৩১ গতে১০/৪৩ মধ্যে ও ১২/৫৬ গতে ২/২৫ মধ্যে ও ৩/৯ গতে ৪/৩৭ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/১৩ মধ্যে ও ৮/৪৯ গতে ১১/২৪ মধ্যে ও ১/৫৯ গতে ৩/৪৩ মধ্যে। কালবেলা ১/৯/১৩ গতে ২/২৯/৫৩ মধ্যে, কালরাত্রি ৬/৫০/৩২ গতে ৮/২৯/৫২ মধ্যে। 
২৫ জমাদিয়ল আউয়ল 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
সোনারপুরে অটো-পুলকারের সংঘর্ষ, মৃত ১ 

20-01-2020 - 07:02:00 PM

দিনহাটা কলেজে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে গোলমাল, জখম বেশ কয়েকজন 
তৃণমূলের ছাত্র পরিষদের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল দিনহাটা ...বিশদ

20-01-2020 - 05:58:00 PM

ইসলামপুরের দাঁড়িভিটে সড়ক অবরোধ
 

ইসলামপুরে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন দাঁড়িভিট কাণ্ডে নিহতদের পরিবার। ...বিশদ

20-01-2020 - 04:47:00 PM

৪১৬ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স 

20-01-2020 - 04:43:44 PM

বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি পদে নির্বাচিত হলেন  জগৎপ্রকাশ নাড্ডা
বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি পদে নির্বাচিত হলেন জগৎপ্রকাশ ...বিশদ

20-01-2020 - 03:37:00 PM

সততার নজির হোমগার্ডের 
সততার নজির ময়নাগুড়ি থানার এক হোমগার্ডের। কুড়িয়ে পাওয়া একটি মোবাইল ...বিশদ

20-01-2020 - 03:28:00 PM