Bartaman Patrika
রাজ্য
 

অপর্যাপ্ত ক্লাসরুম, প্রাথমিকে পঞ্চম
শ্রেণী এখনই আসা নিয়ে সংশয়

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী শিক্ষাবর্ষে প্রাথমিকে পঞ্চম শ্রেণীর আসা বড়সড় প্রশ্নচিহ্নের মুখে। সরকারের এই পরিকল্পনা কার্যকর করতে স্কুলগুলিতে যে অতিরিক্ত ক্লাসরুমের বন্দোবস্ত করতে হবে, তার সংখ্যা এখনও প্রায় ৬৫ হাজার। সরকারের কর্তাব্যক্তিরাই বলছেন, আগে থেকে নিশ্চিত মন্তব্য করে দেওয়া ঠিক হবে না। তবে, বাস্তব চিত্র বলছে, এটা রূপায়ণ করা আপাতত বেশ কঠিন। কারণ কোনওভাবেই অতিরিক্ত ক্লাসরুম তৈরির কাজ এত কম সময়ে শেষ হবে না। আর কিছু ক্লাসরুমের কাজ শেষ করে তা ধাপে ধাপে চালু করে দেওয়ার ইচ্ছেও সরকারের নেই।
পঞ্চম শ্রেণীকে মাধ্যমিকে নিয়ে আসার পরিকল্পনা বেশ কয়েক বছরের। এত বিপুল সংখ্যক প্রাথমিক স্কুলে একটি বাড়তি ক্লাস নিয়ে আসার প্রক্রিয়াটা সহজ নয়। এর জন্য বাড়তি পরিকাঠামো প্রয়োজন। ক্লাসরুম তো বটেই, সমান অনুপাতে অন্যান্য পরিকাঠামো বৃদ্ধিরও প্রয়োজনীয়তা ছিল। এই লক্ষ্যে বাজেটে প্রাথমিক শিক্ষায় বাড়তি অর্থও বরাদ্দ করে সরকার। বহু স্কুলকে অতিরিক্ত ক্লাসরুম (এসিআর) তৈরির অর্থ দেওয়া হয়। অন্যান্য পরিকাঠামো উন্নয়নের জন্যও বিভিন্ন সময় ধাপে ধাপে টাকা দেওয়া হয়েছে। তারপর পঞ্চম শ্রেণীকে প্রাথমিকে আনার জন্য সরকার গত বছর একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করে দিয়েছিল। তারা রাজ্যের বিভিন্ন স্কুলের হাল-হকিকৎ খতিয়ে দেখে। এখন দেখা যাচ্ছে, সিংহভাগ কাজই বাকি রয়ে গিয়েছে।
শিক্ষামন্ত্রী ঘনিষ্ঠমহলে জানিয়েছেন, প্রায় ২০০ স্কুলে এখনও প্রাথমিকেই পঞ্চম শ্রেণী রয়েছে। কিন্তু বাকিগুলিতে চালুর ক্ষেত্রে এখনও চূড়ান্ত ঘোষণার সময় আসেনি। বহু স্কুল এসিআর গ্রান্টের টাকা অন্য প্রকল্পেও ব্যয় করে দিয়েছে বলে ঊষ্মাপ্রকাশ করেন তিনি। শিক্ষা দপ্তরের কর্তারা বলছেন, পঞ্চম শ্রেণী প্রাথমিকে আনার অনেক ইতিবাচক দিক রয়েছে। কিন্তু সেটা ধাপে ধাপে চালু করে কোনও লাভ হবে না। তৃণমূল শিক্ষা সেলের নেতা জয়দেব গিরি বলেন, শিক্ষাবিদ রুশোও বলেছেন, যে কোনও প্রতিষ্ঠানে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে বয়সের বিভাজন পাঁচ বছরের কম হওয়া উচিত। জাতীয় শিক্ষানীতিতেও তাই বলা রয়েছে। বিএড পাঠ্যক্রমেও এটা পড়ানো হচ্ছে। কিন্তু সেই বিএড ডিগ্রি নিয়ে আসা প্রার্থীরা শিক্ষক হয়ে দেখছেন, বাস্তব ছবিটা অন্য। একটি উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে পঞ্চম এবং একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রদের মধ্যে বয়সের ফারাকটা অনেকটাই বেশি হয়ে যায়। এর ফলে, একই প্রতিষ্ঠানে থাকার জন্য বয়ঃসন্ধিকালের যাবতীয় নেতিবাচক দিকগুলি উঁচু ক্লাসের পড়ুয়াদের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে ছোট ছেলেমেয়েদের মধ্যেও। এটা একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক। আবার এটাও ঠিক, পঞ্চম শ্রেণী হাইস্কুলে পড়ানোর জন্য ১৫,০০০ বাড়তি শিক্ষককে নিয়োগ করতে হচ্ছে। এঁদের বেতন কাঠামো প্রাথমিক শিক্ষকদের থেকে অনেকটাই বেশি। এর জন্য বাড়তি ৫০ কোটি টাকা খরচ করতে হচ্ছে রাজ্য সরকারকে, দাবি জয়দেববাবুর।
যদিও প্রথমে ব্যাপারটা ধাপে ধাপে করারই পরিকল্পনা ছিল। প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছিল, ১৫০০ বা তার বেশি সংখ্যক ছাত্রছাত্রী রয়েছে, এমন স্কুলগুলিকে এর আওতায় আনা হবে। একটি বড় হাইস্কুলের ফিডার প্রাথমিক স্কুলগুলিতে এই বাড়তি ছাত্রছাত্রী ভাগ করে দেওয়া হবে। তার জন্য পরিকাঠামো গড়ে তোলা হবে সেগুলিতে। এর পরের ধাপে আসবে ১০০০ বা তার বেশি সংখ্যক ছাত্রছাত্রী থাকা স্কুলগুলি। তারপর আসবে ১০০০-এর কম পড়ুয়ার স্কুলগুলি। এভাবে পাঁচ বছরে গোটা ব্যাপারটি রেগুলারাইজড (নিয়মিত) হয়ে যাবে বলে আশা করেছিলেন আধিকারিকরা। যদিও সরকার বা শাসক-ঘনিষ্ঠ শিক্ষকদের একাংশ চাইছিল, ২০২০ সালের মধ্যেই গোটা প্রক্রিয়া শেষ করা হোক।

08th  November, 2019
আমার রাজনৈতিক ক্ষতি করতে গিয়ে
বাংলার সর্বনাশ করছে বিজেপি: মমতা

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: তাঁকে রাজনৈতিকভাবে বিড়ম্বনায় ফেলতে গিয়ে, আসলে বাংলার সর্বনাশই ডেকে আনা হচ্ছে বলে অভিযোগ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর এই আক্রমণের তির যে গেরুয়া শিবিরের দিকেই, তাও স্পষ্ট রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধানের কথায়। বুধবার নবান্নে এক সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আমাকে ‘পলিটিক্যালি ডিস্টার্ব’ করতে গিয়ে বাংলার সর্বনাশ করতে চাইছেন কেউ কেউ। দেশের মধ্যে করোনা আক্রান্তের নিরিখে শীর্ষে থাকা মহারাষ্ট্র থেকে তড়িঘড়ি ট্রেনে চাপিয়ে পরিযায়ী শ্রমিকদের এ রাজ্যে ফেরানো নিয়েই যে তাঁর এই অভিযোগ, সে ব্যাখ্যাও দেন মমতা। বলেন, রাজ্যের সঙ্গে কথা না বলেই, করোনায় জর্জরিত মহারাষ্ট্র থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের ট্রেনে চাপিয়ে দেওয়া হল। আজ রাতের মধ্যে আসছে ১১টা ট্রেন, কাল আসবে আরও ১৭টা। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, পরিযায়ী শ্রমিকরা আমাদের ঘরের লোক। কিন্তু সংক্রমণ যাতে না ছড়ায়, তাই পরিকল্পনা করে মোট ২৩৫টি ট্রেনের তালিকা রেলমন্ত্রকে দেওয়া হয়েছিল।
বিশদ

 প্রবল ঝড়-বৃষ্টি দক্ষিণবঙ্গে

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ঠিক এক সপ্তাহে ফের ঝড়-বৃষ্টির কবলে পড়ল কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের বিস্তীর্ণ এলাকা। ২০ মে উম-পুনের দাপটে বিধ্বস্ত হয়ে গিয়েছিল এইসব অঞ্চল। এখনও সেই ক্ষত পুরোপুরি সারেনি। তারই মধ্যে ফের বুধবার সন্ধ্যায় বিপর্যস্ত হল জনজীবন। বৃষ্টিতে জলমগ্নও হল কলকাতার বেশ কয়েকটি রাস্তা। বিশদ

 ৩০ জুন পর্যন্ত রাজ্যে স্কুল বন্ধ,
উচ্চ মাধ্যমিক নির্ধারিত সময়েই

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ১০ জুন নয়, রাজ্যে সব স্কুল খুলবে ৩০ জুন। বুধবার সাংবাদিক বৈঠকে একথা জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, যে স্কুল জীবাণুমুক্ত করে খুলে দিলেই চলত, সাইক্লোনে সেগুলি ভেঙেচুরে গিয়েছে। সেখানে মেরামতের কাজ করতে হবে। বিশদ

হাবড়ার সেই করোনাজয়ী তরুণী
রাজ্যে প্রথম প্লাজমা দান করলেন
মৃত আরও ৬

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যে নতুন করে ১৮৩ জন আক্রান্ত হলেন নোভেল করোনায়। মৃত্যু হল আরও ছ’জনের। এঁদের পাঁচজন কলকাতা ও একজন উত্তর ২৪ পরগনার বাসিন্দা। মোট এবং সক্রিয় আক্রান্ত বেড়ে হল যথাক্রমে ৪১৯২ ও ২৩২৫ জন।
বিশদ

পশ্চিমবঙ্গে পঙ্গপাল হানার সতর্কতা জারি
করেনি কেন্দ্র, নজরদারি গতিবিধির উপর

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গে পঙ্গপালের হামলার কোনও সতর্কবার্তা এখনও জারি করেনি কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রক। কিন্তু, রাজ্য কৃষিদপ্তরের আধিকারিকরা বলছেন, উত্তর ও পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলির তুলনায় অনেক কম হলেও এখানেও হামলার আশঙ্কা একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যায় না।
বিশদ

খোলা মাত্র তিনটি কাউন্টার, বিধি
মানতে ঝগড়া জিপিওর লাইনেই 

  রাহুল দত্ত, কলকাতা: ‘ও দাদা, আপনি দেখি একেবারে ঘাড়ের উপর উঠে এলেন। পিছনে যান।’‘কোথায় ঘাড়ের উপর? একদম বাজে কথা বলবেন না, আমি সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং মেনেই লাইনে দাঁড়িয়ে আছি।’‘আরে মশাই, একে দেড়শো লোকের পিছনে দঁাড়িয়ে আছি, তার উপর ঝগড়া করছেন! পারেন বটে আপনারা।’
বিশদ

দক্ষিণবঙ্গে একদিনে
আক্রান্ত আরও ৮২
সিংহভাগ পরিযায়ী শ্রমিক

গোপাল মিস্ত্রি, বর্ধমান: করোনা সংক্রমণে এবার রেকর্ড করল দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলি। একদিনে দক্ষিণবঙ্গের আট জেলায় মোট ৮২জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তারমধ্যে শুধু বীরভূমের রামপুরহাট মহকুমাতেই ২৩ এবং পূর্ব বর্ধমান জেলায় ১৮জন আক্রান্ত হয়েছেন।
বিশদ

কোটালের আগে বাঁধ মেরামতির
নির্দেশ দিলেন শুভেন্দু অধিকারী

নিজস্ব প্রতিনিধি, তমলুক: পূর্ণিমার কোটালের আগে উম-পুন বিধ্বস্ত উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং পূর্ব মেদিনীপুর জেলার বিভিন্ন বাঁধ দ্রুত মেরামত করার নির্দেশ দিলেন সেচমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।
বিশদ

 বাড়ি পুনর্নির্মাণে ২০ হাজার টাকা

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ঘূর্ণিঝড়ে বিধ্বস্ত মানুষের জন্য দরাজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত দশ লক্ষ বাড়ি মেরামতের জন্য এককালীন ২০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে বলে বুধবার নবান্নে জানান মুখ্যমন্ত্রী। ওই টাকা বিলিবণ্টনের জন্য রাজ্য ও জেলা স্তরে টাস্ক ফোর্স গঠনের কথাও জানান তিনি। বিশদ

 ঝড়ে বিপুল ক্ষতি মৎস্য নিগমের

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: অতীতে বুলবুল, এবার উম-পুন। দু’বার দুর্যোগে ব্যাপক ক্ষতির মুখে মৎস্য দপ্তর। বুলবুলের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল স্টেট ফিশারিজ ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশনের অধীন একাধিক গেস্ট হাউস। সেগুলি মেরামতির কাজ চলছিল। বিশদ

ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত চাষিদের শস্যবিমার টাকা
একশো শতাংশ নিশ্চিত করা হবে
মন্তব্য জেলাশাসকের

  নিজস্ব প্রতিনিধি, চুঁচুড়া: উম-পুনে ক্ষতিগ্রস্ত চাষিদের শস্যবিমার টাকা পেতে কোনও সমস্যা হবে না। তার জন্য সমস্ত রকম উদ্যোগ নেওয়া হবে। মঙ্গলবার জেলা প্রশাসনিক ভবন থেকে প্রায় ৩০০ বিভাগীয় কর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে ভিডিও কনফারেন্সে ওই বিষয়ে আশ্বাস দিয়েছেন জেলাশাসক ওয়াই রত্নাকর রাও।
বিশদ

 হিমঘরে মজুত আলুতেও প্রভাব
ফেলেছে উম-পুন, শ্রমিক অমিল

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ঘূর্ণিঝড়ের ধাক্কায় বাজারে সব্জির জোগান কমেছে। সেইসঙ্গে দাম বেড়েছে অনেকটাই। ফলে ভরসা সেই আলু। হিমঘরে মজুত আলুতেও পরোক্ষ প্রভাব পড়েছে ঘূর্ণিঝড়ের। হিমঘর মালিকদের সংগঠন জানিয়েছে, যে শ্রমিকরা হিমঘরে কাজ করেন, তাঁদের অনেকেই আসেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন এলাকা থেকে।
বিশদ

 এসবিএসটিসির ১৫টি ডিপো থেকে চালু হল বাস পরিষেবা

  নিজস্ব প্রতিনিধি, চুঁচুড়া: হুগলিতে নতুন রুট সহ দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণের সব ডিপো থেকেই বুধবার সরকারি বাস পরিষেবা চালু হল। এদিন বিভিন্ন জেলার ১৫টি ডিপো থেকে ১৬৩টি বাস সরকারি ওই পরিবহণ সংস্থা ছেড়েছে। আজ, বৃহস্পতিবার বাসের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে এসবিএসটিসি কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে। বিশদ

 উম-পুনে ২২ মৃতের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ

  নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত: উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় উম-পুন ঝড়ে মৃতদের পরিবারের হাতে বুধবার ক্ষতিপূরণের চেক তুলে দেওয়া হয়। এদিন বারাসতে জেলাশাসকের অফিস ও বসিরহাট মহকুমা শাসকের অফিসে মোট ২২জন মৃতের পরিবার উপস্থিত ছিল। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বসিরহাট মহকুমায় মোট ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
  নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: গত এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে ভিনরাজ্যে আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিক, তীর্থ যাত্রী বা চিকিৎসার কাজে বাইরে যাওয়া মানুষজনকে নিয়ে একের পর এক ট্রেন আসছে হাওড়া স্টেশনে। প্রায় প্রতিদিনই কমপক্ষে একটি ট্রেন তো ঢুকছেই হাওড়ায়। ...

সংবাদদাতা, গাজোল, রতুয়া ও পতিরাম: জামাইষষ্ঠীতে মালদহের বাজারগুলিতে পোল্ট্রির মাংসের দাম বাড়ল প্রায় দ্বিগুণ। দু’এক সপ্তাহ আগেও ইংলিশবাজার ও পুরাতন মালদহ শহরের বাজারগুলিতে পোল্ট্রির মুরগীর ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, তমলুক: লকডাউনে কাজ হারানো পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সাড়ে আট হাজার মানুষকে প্রচেষ্টা প্রকল্পে মাথাপিছু ১০০০ টাকা দিল রাজ্য সরকার। লকডাউনে পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য ‘স্নেহের পরশ’ এবং কাজ হারানো দুঃস্থ মানুষদের জন্য ‘প্রচেষ্টা’ প্রকল্প ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।   ...

 নিউ ইয়র্ক, ২৭ মে: আবার মুখোমুখি মাইক টাইসন ও ইভান্ডার হোলিফিল্ড। চ্যারিটি লড়াইয়ে অংশ নেওয়ার জন্য প্রাক্তন দুই হেভিওয়েট বক্সিং চ্যাম্পিয়ন অবসর ভেঙে রিংয়ে ফিরছেন। এই লড়াইয়ের দিন ঠিক হয়েছে ২৬ জুন। উল্লেখ্য, হোলিফিল্ডের বয়স এখন ৫৮ বছর। তাঁর থেকে ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

অত্যাধিক পরিশ্রমে শারীরিক দুর্বলতা। বাহন বিষয়ে সতর্কতা প্রয়োজন। সন্তানের বিদ্যা শিক্ষায় অগ্রগতি বিষয়ে সংশয় বৃদ্ধি। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭৪২ - লন্ডনে প্রথম ইনডোর সুইমিংপুল চালু
১৮৮৩- স্বাধীনতা সংগ্রামী বিনায়ক দামোদর সাভারকারের জন্ম
১৯২৩- রাজনীতিক ও তেলুগু দেশম পার্টির প্রতিষ্ঠাতা এনটি রামা রাওয়ের জন্ম
২০১০- পশ্চিমবঙ্গে জ্ঞানশ্বেরী এক্সপ্রেস দুর্ঘটনায় অন্তত ১৪১জনের মৃত্যু



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৮৯ টাকা ৭৬.৬১ টাকা
পাউন্ড ৯০.৮৮ টাকা ৯৪.১২ টাকা
ইউরো ৮১.২৯ টাকা ৮৪.৩৫ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৮ মে ২০২০, বৃহস্পতিবার, ষষ্ঠী ৪৬/১৯ রাত্রি ১১/২৮। পুষ্যা নক্ষত্র ৬/১৬ দিবা ৭/২৭। সূর্যোদয় ৪/৫৬/১৭, সূর্যাস্ত ৬/১১/২০। অমৃতযোগ দিবা ৩/৩১ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৬/৫৩ গতে ৯/২ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৫ গতে ২/৪ মধ্যে পুনঃ ৩/৩০ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ২/৫২ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ১১/৩৪ গতে ১২/৫৪ মধ্যে।
১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৮ মে ২০২০, বৃহস্পতিবার, ষষ্ঠী রাত্রি ৮/৫৩। পুষ্যানক্ষত্র প্রাতঃ ৫/৩৫ পরে অশ্লেষানক্ষত্র শেষরাত্রি ৪/৪৫। সূর্যোদয় ৪/৫৬, সূর্যাস্ত ৬/১৩। অমৃতযোগ দিবা ৩/৪০ গতে ৬/১৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/২ গতে ৯/১০ মধ্যে ও ১১/৫৮ গতে ২/৬ মধ্যে ও ৩/৩০ গতে ৪/৫৬ মধ্যে। কালবেলা ২/৫৪ গতে ৬/১৩ মধ্যে। কালরাত্রি ১১/৩৫ গতে ১২/৫৫ মধ্যে।
৪ শওয়াল

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
রাজস্থানে করোনায় আক্রান্ত আরও ১৩১ জন, রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭,৯৪৭ 

11:33:06 AM

আইইডি বিস্ফোরক সহ গাড়ি আটক পুলওয়ামায়
নিরাপত্তা বাহিনীর তৎপরতাতেই বড়সড় বিস্ফোরণ থেকে রক্ষা পেল কাশ্মীরের পুলওয়ামা। ...বিশদ

11:32:46 AM

নিম্নচাপের জেরে চলতি সপ্তাহজুড়েই চলবে বৃষ্টি
দক্ষিণবঙ্গে একটি নিম্নচাপ অক্ষরেখা অবস্থান করছে। এরই প্রভাবে চলতি সপ্তাহজুড়েই ...বিশদ

11:19:43 AM

রাজ্যের মুখ্যসচিবের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করবেন কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট সচিব
আজ বেলা সাড়ে এগারোটায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহার সঙ্গে ভিডিও ...বিশদ

11:12:36 AM

  আপনার জেলায় কতজন করোনায় আক্রান্ত, জানুন
রাজ্যে নতুন করে আরও ১৮৩ জনের শরীরে মিলল করোনা ভাইরাস। ...বিশদ

10:21:45 AM

আরামবাগের লন্ডভন্ড বৈদ্যুতিক খুঁটি, যুদ্ধকালীন তৎপরতায় শহরকে স্বাভাবিক করার চেষ্টা চালাচ্ছে বিদ্যুৎ পুরসভার কর্মীরা, বন্ধ পুরসভার পানীয় জল পরিষেবা 

09:48:00 AM