Bartaman Patrika
রাজ্য
 
 

 চলছে লকডাউন। ঘরে থেকেই বহির্জগৎ দর্শন বৃদ্ধার। রবিবার কলকাতায় তোলা নিজস্ব চিত্র।

নিয়মনিষ্ঠা মেনেই হোক দুর্গাপুজো, নিজেদের যোগ্যতাও যাচাই হোক, চান পুরোহিতরা

বীরেশ্বর বেরা, কলকাতা: দুর্গাপুজোর প্যান্ডেল থেকে শুরু করে আলো, সাউন্ড, এমনকী ঢাকিদের পর্যন্ত যাচাই করে নেন উদ্যোক্তারা। কিন্তু যে পুরোহিত ছাড়া পুজো সম্ভব নয়, তাঁদের যোগ্যতা, শিক্ষা ও পুজোর পদ্ধতি যাচাই করেন না কেউ। পুজোয় বসার আগে তা অবশ্যই করা উচিত। আদতে ইছাপুরের বাসিন্দা, দেরাদুনের প্রবাসী বাঙালি, কেন্দ্রীয় সরকারি স্কুলের প্রাক্তন শিক্ষক আশিসকুমার বন্দ্যোপাধ্যায় অন্তত এমনটাই মনে করেন। পুজোর বাহ্যিক আড়ম্বরের কারণে উৎসবে নানা রং লেগেছে—এ কথা সত্যি। কিন্তু মূল লক্ষ্য যে পুজো, সেক্ষেত্রে নিষ্ঠা, নিয়মকানুনে খামতি দেখা যাচ্ছে। যতদিন যাচ্ছে, তা আরও প্রকট হচ্ছে। আশিসবাবু সহ একাধিক পুরোহিতের সাফ কথা, সঠিক সময় ধরে সঠিক মন্ত্রোচ্চারণে পুজো করতে হবে। পুজোর যে পদ্ধতি নির্ধারিত হয়ে আছে, সেভাবে করতে না পারলে এর আসল উদ্দেশ্যই মাটি হবে। তাই তাঁদের দাবি, দুর্গাপুজোর পুরোহিত যেন পুজো করার বিষয়ে যথাযথ শিক্ষিত হন। সেই বিষয়ে যত্নশীল হওয়া উচিত পুজোর উদ্যোক্তাদেরও।
দুর্গাপুজোকে কেন্দ্র করে আবর্তিত হয় শারদোৎসব। সেই পুজোর মূল ঋত্বিক পুরোহিতরা। দিনে দিনে পুজোর বাজেট বেড়েছে হু হু করে। থিমের চল আসার পর পুজো প্যান্ডেল কখনও কখনও হয়ে উঠেছে আস্ত আর্ট গ্যালারি। ধর্ম-ভক্তির বেড়া ডিঙিয়ে পুজোর উত্তরণ ঘটেছে উৎসবে। তাতে কোনও আপত্তি নেই পুরোহিতদের। তবে উৎসবের জৌলুস বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পুজোর সঠিক পদ্ধতির সঙ্গে কেন আপস করা হবে, সেই বিষয়ে প্রশ্ন তুলছেন তাঁরা। বছরের পর বছর ধরে শারদোৎসবের আগে এই সময়টায় টানা কয়েকদিন কর্মশালা করে দুর্গাপুজোর সঠিক পদ্ধতি ও কৃৎকৌশলের প্রশিক্ষণ দেয় সর্বভারতীয় প্রাচ্য বিদ্যা অ্যাকাডেমি। এই প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ জয়ন্ত কুশারীর পরিচালনায় এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে গিয়ে বেশ কয়েকজন পুরোহিতের সঙ্গে কথা বলে এ বিষয়ে তাঁদের মতামত জানা গেল।
নিজে পুজো না করলেও পুজোর আচার-বিচার-পদ্ধতিতে খুব আগ্রহ বোধ করেন হাওড়ার কদমতলার বাসিন্দা, পেশায় সেলস ট্যাক্সের পদস্থ কর্মী রুমা দেবনাথ। তাঁর বাড়িতে বাসন্তী পুজো হয়। তিনি বলেন, পুজো করতে গেলে নিষ্ঠা খুব জরুরি। আসলে আমরা বেশিরভাগই সংস্কৃত মন্ত্রগুলির অর্থ বুঝি না, কোনও কাজ কেন করা হয়, সেটা মানুষ যত বেশি জানবেন, ততই পুজোয় নিষ্ঠা, নিয়মকানুন মেনে চলার প্রবণতা বাড়বে। কিন্তু এখন এসবে মানুষের আগ্রহ কম। তাই গুরুত্ব হারিয়েছে। কিন্তু এমনটা হওয়া উচিত নয়। পুজো করতে হলে তার নিয়মকানুন, আচার-বিচার মেনেই করা ভালো।
এবারই প্রথম বাড়ির পুজো করবেন তরুণ সম্ব্রত কুশারী। ডাক্তারির ছাত্র সম্ব্রত বলেন, পড়াশোনার ক্ষেত্রে যেমন নিয়মকানুন জরুরি, তেমনই পুজোর ক্ষেত্রেও। আমরা রসায়নের পরীক্ষাগারে না জেনে যদি একটি পদার্থের সঙ্গে যে কোনও পদার্থ মিশিয়ে ফেলি, তাহলে কাঙ্খিত ফলাফল তো আসবেই না, উল্টে নানা বিপত্তি হতে পারে। ঠিক তেমন পুজোর নিয়মকানুন না জেনে পুজো করলে তার কোনও অর্থ থাকে না। হাওড়ার শিবপুরের সমরকুমার চক্রবর্তী, মধ্যমগ্রামের ত্রিদিব ভট্টাচার্যরা কেউ ২৫ বছর, কেউ ৩০ বছর ধরে দুর্গাপুজো করে আসছেন। তাঁরা বলেন, পুজো কমিটিগুলির উচিত পুরোহিতদের যোগ্যতা খতিয়ে দেখে নেওয়া। পরিপাটি করে পুজো হচ্ছে, কিন্তু অদক্ষ পুরোহিত—এরকম ঘটনা দিন দিন বেড়েই চলেছে। পুজোতে যত আড়ম্বর যোগ হচ্ছে, ততই গুরুত্ব হারাচ্ছে পুজোর মূল বিষয়টি। এটা একেবারেই কাঙ্খিত নয়।
কথা হচ্ছিল এই প্রতিষ্ঠানের প্রধান জয়ন্তবাবুর সঙ্গে। তিনি বলেন, কলকাতার কথা ধরলে, বারোয়ারি পুজোগুলিতে নিয়মকানুন, নিষ্ঠা একটু কম। তবে বাড়ির পুজোগুলিতে সব কিছু মেনে চলা হয়। বারোয়ারি পুজোতেও নিষ্ঠা মানার একটা চেষ্টা থাকে। আসলে অনেক পুরোহিত সঠিকভাবে জানেন না দুর্গাপুজোর পদ্ধতি। এটা রপ্ত করতে হয়। কেউ এসব তো শিখে আসে না। ফলে প্রশিক্ষণের প্রয়োজন রয়েছে। পাশাপাশি পুজোর উদ্যোক্তাদের অনুরোধ করব, আপনারা পুজোর দিকেও খেয়াল রাখুন। তাঁর কর্মশালায় গিয়ে দেখা গেল, জনা পঞ্চাশেক নবীন-প্রবীণ মানুষ জড়ো হয়ে শিখে নিচ্ছেন মহাস্নান বা হোমের পদ্ধতি, কীভাবে কলাবউ সাজাতে হবে, কীভাবে সন্ধিপুজো করতে হবে ইত্যাদি নানা কৃৎকৌশল। তাঁরা অনেকেই বলছেন, পুজোর মন্ত্রের মধ্যে যে অর্থ, যে ভাব রয়েছে, তা বোধগম্য না হলে পুজো বিফলে যাবে। পুজোয় বিশ্বাসী সবার এ বিষয়ে সচেতন হওয়া উচিত।

12th  September, 2019
বিনা চিকিৎসায় রেফার করলে কঠোর
শাস্তি, বাতিল হতে পারে লাইসেন্সও

মেডিক্যালের ঘটনায় ক্ষুব্ধ মমতা

বিশ্বজিৎ দাস, কলকাতা: মেডিক্যালের পুনরাবৃত্তি আর নয়। চিকিৎসার অভাবে দ্বিতীয় কোনও ‘শুভ্রজিৎ’-এর মৃত্যুও চায় না রাজ্য। রোগীর রেফার প্রশ্নে এবার আরও কঠোর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিযোগ উঠলেই কড়া দাওয়াই। কী সেই দাওয়াই? শো-কজ, সাসপেন্ড। এমনকী অভিযুক্ত হাসপাতালের লাইসেন্স বাতিলের মতো কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে পারে স্বাস্থ্য দপ্তর।
বিশদ

জোর ডিজিটাল পঠনপাঠনে
নেট-নিরাপত্তার পাঠ দিতে শিক্ষকদের
‘সাইবার হাইজিন’ প্রশিক্ষণ দেবে রাজ্য

রাজু চক্রবর্তী, কলকাতা: করোনা মোকাবিলায় ব্যক্তিগত হাইজিনের উপর সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। কিন্তু বিপদ লুকিয়ে আছে অন্যত্রও। করোনা পরিস্থিতিতে সর্বত্র ভিড় কমাতে জোর দেওয়া হয়েছে অনলাইনে। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সাইবার অপরাধ।
বিশদ

আশার আলো দেখছে ইমিটেশন গয়না
শিল্পে যুক্ত হুগলির অনেক পরিবার
ভারত-চীন সংঘাত

 অভিজিৎ চৌধুরী, চুঁচুড়া: ইমিটেশন গয়না শিল্পের অন্য‌তম কাঁচামাল কিউবিক জারকনিয়া বা নকল হীরের মূল জোগানদার ছিল চীন। নকল হীরে এদেশে পাওয়া গেলেও চীনের দাম সস্তা হওয়ায় হুগলির ইমিটেশন শিল্পীদের কাছে তা দ্রুত জনপ্রিয় হয়েছিল।
বিশদ

‘সোনার বাংলা’ যেন মুর্শিদাবাদের বিকাশ দুবে,
নাম শুনলেই আঁতকে ওঠেন প্রভাবশালীরা

 সুখেন্দু পাল, বহরমপুর: তার নাম মুখে নেওয়ার দরকার নেই। মুর্শিদাবাদের যে কোনও প্রান্তে গিয়ে স্রেফ ‘সোনার বাংলা’ বললেই যথেষ্ট। তাতেই অনেকের হাড়ে কম্পন ধরে যাবে। দিল্লি পর্যন্ত লম্বা হাত থাকায় তাবড় পুলিস কর্তা থেকে দাপুটে নেতা সকলেই তাকে এড়িয়ে চলার চেষ্টা করে।
বিশদ

ন্যাটমোর তৈরি কোভিড-১৯ ড্যাশবোর্ডে পাওয়া
যাচ্ছে যে কোনও জেলার শেষতম তথ্য

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিভিন্ন সংস্থা কোভিড আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা আলাদা আলাদা করে দেখাচ্ছে। ফলে সাধারণ মানুষের মধ্যেও একটা বিভ্রান্তি তৈরি হচ্ছে। তাই দেশ এবং রাজ্যগুলির কোভিড আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যার তথ্যের সমতা আনতে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে ন্যাশনাল অ্যাটলাস অ্যান্ড থিম্যাটিক ম্যাপিং অর্গানাইজেশন বা ন্যাটমো। বিশদ

৪০০’র বেশি স্বাস্থ্যকর্মীকে
বদলি বাড়ির কাছেই
কথা রাখলেন মমতা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কথা রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বদলির পর বাড়ির কাছেই কাজের সুযোগ পেলেন চারশোর বেশি স্বাস্থ্যকর্মী। শুক্রবার ৪১৫ জন মেডিক্যাল টেকনোলজিস্টকে রাজ্যের বিভিন্ন স্বাস্থ্যকেন্দ্র, হাসপাতাল ও মেডিক্যাল কলেজে বদলি করা হয়েছে।
বিশদ

শীঘ্রই বেশ কিছু চাকরির পরীক্ষার
ফল প্রকাশের ঘোষণা পিএসসির

 কৌশিক ঘোষ, কলকাতা: লকডাউন এখনও পুরোপুরি শেষ হয়নি। এর মধ্যে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে নতুন কর্মী নিয়োগ শুরু হয়ে গেল। করোনা সংক্রমণের আপদকালীন পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য স্বাস্থ্যদপ্তরে শূন্যপদ পূরণ হচ্ছে। অন্যান্য দপ্তরও রাজ্য পাবলিক সার্ভিস কমিশনের (পিএসসি) সুপারিশ অনুযায়ী প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় সফল প্রার্থীদের নিয়োগ শুরু করেছে।
বিশদ

করোনা পরিস্থিতিতেও খরিফ
মরশুমে বেশি জমিতে চাষ হচ্ছে

  নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি: করোনা পরিস্থিতিতে সব কিছুই একপ্রকার থমকে থাকলেও কৃষিতে তেমন প্রভাব পড়েনি। খরিফের চাষ শুরু হয়েছে যথাসময়ে। এমনকী গতবারের চেয়ে অধিক জমিতে ফসল বোনা হচ্ছে বলেই জানিয়েছে কৃষিমন্ত্রক। চাষের এলাকা বাড়ার পাশাপাশি বর্ষার পূর্বাভাসও সন্তোষজনক।
বিশদ

উঁচু ক্লাসের শিক্ষক বদলি নিয়ে
সমস্যা মিটছে না, হয়রানি

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রী এবং রাজ্য সরকারের সদিচ্ছা থাকলেও, শিক্ষক বদলি প্রক্রিয়া ধাক্কা খাচ্ছে বিভিন্ন কারণে। কোথাও বদলির অর্ডার নিয়ে হন্যে হয়ে ডিআই অফিসে জুতোর শুকতলা ক্ষইয়ে ফেলছেন মাধ্যমিক-উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষকরা।
বিশদ

‘অনাহারের’ আমলাশোল
হয়ে উঠছে মডেল গ্রাম

রঞ্জন পাল, ঝাড়গ্রাম: ঝাড়খণ্ড সীমান্তবর্তী বেলপাহাড়ির আমলাশোল গ্রামকে একসময় অনাহারের গ্রাম হিসেবেই রাজ্যের মানুষ চিনতেন। এখন সেই আমলাশোলকেই ‘মডেল গ্রাম’ তৈরি করছে জেলা প্রশাসন। দেড় কোটি টাকা খরচে গ্রামের সার্বিক উন্নয়নের কাজ জোরকদমে চলছে। অধিকাংশ কাজই শেষের মুখে।
বিশদ

রাজ্যে ১৮৬ কিষান মান্ডি
তৈরির লক্ষ্যমাত্রা সম্পূর্ণ

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রথমবার রাজ্যে ক্ষমতার আসার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের স্বপ্নের প্রকল্পগুলির মধ্যে অন্যতম ছিল গ্ৰামীণ এলাকায় ব্লক ভিত্তিক কৃষক বাজার বা কিষান মান্ডি তৈরি করা। মোট ১৮৬টি কৃষক বাজার তৈরির লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়েছে। বিশদ

স্থানীয় সামগ্রী, শিল্পকে জাতীয় পণ্যের তকমা দিয়ে ‘আত্মনির্ভর ভারত’ গড়ুন
রাজ্যের ১৮ জন সাংসদ ও নেতাদের নির্দেশ বিজেপির 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বুথস্তরে সংগঠন মজবুত করতে কেবল বৈঠক করলেই চলবে না। স্থানীয় এলাকার বিখ্যাত দ্রব্য, শিল্পকলা সহ পরিচিত সামগ্রী তথা উদ্যোগ সম্পর্কে খোঁজখবর নিতে হবে। স্থানীয় পণ্যকে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডিং দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর আত্মনির্ভর ভারতের স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে হবে।  
বিশদ

 উম-পুনে ক্ষতিগ্রস্ত পাঠাগার সংস্কারের
শুভারম্ভ করলেন বিধানসভার অধ্যক্ষ

  সংবাদদাতা, বারুইপুর: রবিবার সকালে বারুইপুরের মদারাট বান্ধব পাঠাগারের সংস্কার কাজের উদ্বোধন এবং ওই এলাকাতেই প্রস্তাবিত শিশু উদ্যানের শিলান্যাস করলেন বিধানসভার অধ্যক্ষ তথা বিধায়ক বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। উম-পুনের দাপটে ক্ষতি হয়েছিল এই পুরাতন পাঠাগারের। বিশদ

চুক্তিভিত্তিক শিক্ষকদের পিএফ’এর কাজ
কতদূর, জানতে চাইল বিকাশ ভবন

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: অর্ডার হয়েছিল গত বছরের জুলাইয়ে। কিন্তু এখনও প্রভিডেন্ট ফান্ড চালু হয়নি উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের চুক্তিভিত্তিক শিক্ষকদের। এবার বিষয়টি নিয়ে ডিআইদের তাগাদা দিল বিকাশ ভবন।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত: উম-পুনে ক্ষতিগ্রস্ত প্রান্তিক মানুষ ও স্বসহায়ক দলগুলিকে নিজের পায়ে দাঁড়াতে হাঁস ও মুরগির বাচ্চা দেওয়ার পাশাপাশি তাদের এক মাসের খাবারও কিনে দেবে ...

  নয়াদিল্লি: ফের বাড়ল ডিজেলের দাম। দু’সপ্তাহ আগে দিল্লিতে প্রথমবার ডিজেলের মূল্য লিটার প্রতি ৮০ টাকা ছাড়িয়েছিল। রবিবার তা প্রতি লিটারে ১৬ পয়সা বেড়ে ৮১ ...

সুমন তেওয়ারি  আসানসোল: করোনার দাপটের মধ্যেই এবার ডেঙ্গু হানা দিল পশ্চিম বর্ধমান জেলায়। স্বাস্থ্যদপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, আসানসোল, দুর্গাপুর সহ জেলার বিভিন্ন প্রান্তে এখনও ...

  ওয়াশিংটন: ভুয়ো লাইসেন্সধারী পাইলটদের উপর বিশ্বাস নেই। ইউরোপের পর এবার আমেরিকাতেও নিষিদ্ধ হল পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্স (পিআইএ)। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীরা বেশ কিছু সুযোগের সংবাদে আনন্দিত হবেন। বিদ্যার্থীরা পরিশ্রমের সুফল নিশ্চয় পাবে। ভুল সিদ্ধান্ত থেকে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৩০: কলকাতায় দ্য জেনারেল অ্যাসেম্বলিজ ইনস্টিটিউশন, অধুনা স্কটিশ চার্চ কলেজ প্রতিষ্ঠা করলেন আলেকজান্ডার ডাফ এবং রাজা রামমোহন রায়
১৯০০: অভিনেতা ছবি বিশ্বাসের জন্ম
১৯৪২: মার্কিন অভিনেতা হ্যারিসন ফোর্ডের জন্ম
১৯৫৫: সাহিত্যিক আশাপূর্ণা দেবীর মৃত্যু
২০১১: মুম্বইয়ে ধারাবাহিক তিনটি বিস্ফোরণে হত ২৬, জখম ১৩০
২০১৩: বোফর্স কান্ডে অভিযুক্ত ইতালীয় ব্যবসায়ী অত্তাভিও কাত্রোচ্চির মৃত্যু।



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৩১ টাকা ৭৬.০৩ টাকা
পাউন্ড ৯৩.০০ টাকা ৯৬.২৯ টাকা
ইউরো ৮৩.২৩ টাকা ৮৬.২৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
11th  July, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৯,৭৭০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৭,২২০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭,৯৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৫১,২২০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৫১,৩৩০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
12th  July, 2020

দিন পঞ্জিকা

২৯ আষাঢ় ১৪২৭, ১৩ জুলাই ২০২০, সোমবার, অষ্টমী ৩২/৪৫ অপঃ ৬/১০। রেবতী ১৫/২৫ দিবা ১১/১৪। সূর্যোদয় ৫/৩/৫২, সূর্যাস্ত ৬/২০/৩৮। অমৃতযোগ দিবা ৮/৩৬ গতে ১০/২২ মধ্যে। রাত্রি ৯/১২ গতে ১২/৪ মধ্যে পুনঃ ১/৩০ গতে ২/৫৫ মধ্যে। বারবেলা ৬/৪৩ গতে ৮/২২ মধ্যে পুনঃ ৩/১ গতে ৪/৪১ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/২১ গতে ১১/৪২ মধ্যে।
২৮ আষাঢ় ১৪২৭, ১৩ জুলাই ২০২০, সোমবার, অষ্টমী অপরাহ্ন ৫/০। রেবতী নক্ষত্র দিবা ১১/৮। সূযোদয় ৫/৩, সূর্যাস্ত ৬/২৩। অমৃতযোগ দিবা ৮/৩৬ গতে ১০/২৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/১৩ গতে ১২/৪ মধ্যে ও ১/২৯ গতে ২/৫৫ মধ্যে। কালবেলা ৬/৪৩ গতে ৮/২৩ মধ্যে ও ৩/৩ গতে ৪/৪৩ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/২৩ গতে ১১/৪৩ মধ্যে।
২১ জেল্কদ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
কর্ণাটকে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ২,৬২৭
কর্ণাটকে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২,৬২৭ জনের শরীরে ...বিশদ

12-07-2020 - 08:57:56 PM

রাজ্যে করোনা আক্রান্ত ৩০ হাজার ছাড়াল
রাজ্যে করোনা আক্রান্ত ৩০ হাজার ছাড়াল। পাশাপাশি গত ২৪ ঘণ্টায় ...বিশদ

12-07-2020 - 07:28:42 PM

কেরালায় একদিনে করোনা আক্রান্ত ৪৩৫ 
কেরালায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৩৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ৪ ...বিশদ

12-07-2020 - 06:54:11 PM

২৪ ঘণ্টায় নয়াদিল্লিতে করোনায় আক্রান্ত ১,৫৭৩
২৪ ঘণ্টায় নয়াদিল্লিতে নতুন করে আরও ১,৫৭৩ জনের শরীরে মিলল ...বিশদ

12-07-2020 - 06:47:29 PM

তামিলনাড়ুতে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৪,২৪৪ 
তামিলনাড়ুতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ২৪৪ জন করোনায় আক্রান্ত ...বিশদ

12-07-2020 - 06:41:48 PM

বিহারে একদিনে করোনা আক্রান্ত ১,২৬৬ 
বিহারে গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ২৬৬ জন করোনায় আক্রান্ত ...বিশদ

12-07-2020 - 04:47:18 PM