Bartaman Patrika
রাজ্য
 

 বাংলাজুড়ে রসগোল্লার স্বাদ ফেরাতে কোমর বাঁধছে রাজ্য

বাপ্পাদিত্য রায়চৌধুরী, কলকাতা: এবার রসগোল্লার স্বাদ ফেরাতে জেলায় জেলায় কোমর বাঁধছে খোদ রাজ্য সরকার। যে রসগোল্লার জন্য বাংলার এত নামডাক, তার স্বাদে টাল খাওয়াতে রাজি নয় প্রশাসন। চলতি মাসের মধ্যে অন্তত ৭০০ দোকানে রসগোল্লার মান বাড়াতে চায় তারা। মোট আড়াই হাজার দোকানে সেই কাজ শেষ করার দায়িত্ব নিচ্ছে প্রশাসন।
যাঁরা খাদ্যরসিক, তাঁরা বোঝেন, রসগোল্লার যে ডেলিকেসি, তা যেমন তেমন করে তৈরি হওয়ার নয়। চিনির মোটা রসে চোবানো হাল্কা হলদেটে রঙের গোলাকার মিষ্টি হলেই রসগোল্লা হল না। তাতে যদি কোনওভাবে স্টার্চ বা সুজি মিশে ওজনদার হয়ে যায়, তাহলে তো স্বাদের বারোটা বেজে গেল। রসগোল্লা হবে শুধুই ছানার। সেখানে কোনও ভেজাল চলবে না। হাল্কা রসে ডুবে থাকা তুলতুলে নরম রসগোল্লা হবে একেবারে মেদহীন, নিটোল, স্মার্ট। জিভে পড়লে ‘স্বর্গীয়’ অনুভূতি হবে। কিন্তু স্বাদ ও বাহারে ভরা এমন রসগোল্লা চাইলেই কি মিলবে?
প্রায় দু’বছর হতে চলল জিওগ্রাফিক্যাল ইন্ডিকেশন বা ‘জিআই’ তকমা পেয়েছে ‘বাংলার রসগোল্লা’। কিন্তু এখনও পর্যন্ত জিআই তকমা নিতে রাজি হয়নি প্রায় কোনও সংস্থা। সেই অনুমতি দেওয়া হয়েছে একমাত্র কে সি দাশকে। রসগোল্লাই যে বাংলা থেকে একমাত্র জিআই পেয়েছে, তা নয়। পশ্চিমবঙ্গের বহু পণ্যেই জিআই আছে। কিন্তু সে সবের থেকে রসগোল্লার লড়াই ছিল একেবারে আলাদা। রসগোল্লা তাদের, এমন দাবিদার হয়ে উঠেছিল প্রতিবেশী রাজ্য ওড়িশা। তাদের দাবি ছিল, যে মিষ্টি স্বয়ং জগন্নাথদেবকে নিবেদন করার প্রথা চলে আসছে বছরের পর বছর ধরে, সেখানে পশ্চিমবঙ্গ কী করে দাবি করে, রসগোল্লার উৎপত্তি বাংলায়? বিষয়টি গড়ায় আইনি লড়াই পর্যন্ত। বিস্তর টালবাহানার পর অবশেষে রসগোল্লা নিয়ে জয় হয় এরাজ্যের। কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়ে দেয়, রসগোল্লার জন্ম বাংলাতেই। নবীনচন্দ্র দাশের আবিষ্কারকেই স্বীকৃতি দেয় তারা। ওড়িশা অবশ্য হাল ছাড়েনি। তাদের যে মিষ্টি নিয়ে এত গরিমা ছিল, তাকেও স্বীকৃতি দিয়েছে কেন্দ্র। অবশ্য তাকে রসগোল্লা বলা হয়নি। সেই মিষ্টির নাম ‘ওড়িশার রসগোলা’।
রাজ্য সরকারের ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট ফুড প্রসেসিং অ্যান্ড হর্টিকালচার ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন ওই জিআই বিতরণ করার দাবিদার। তাদের বক্তব্য, চাইলেই তারা যাকে তাকে সেই জিআই লোগো বিলোতে পারে না। সেক্ষেত্রে রসগোল্লার সংজ্ঞা মেনে মিষ্টি প্রস্তুত করতে হবে সংশ্লিষ্ট দোকানকে। কী কী উপকরণে এবং কী শর্তে সেই রসগোল্লা তৈরি হবে, তার মাপকাঠি আছে। যারা তা করবে, তাদের রসগোল্লা পরীক্ষা করা হবে স্টেট ফুড সেফটি ল্যাবরেটরিতে। সংশ্লিষ্ট মিষ্টান্ন বিক্রেতাকে আবেদন করতে হবে রেজিস্ট্রেশনের জন্য। রাজ্য সরকার কেন্দ্রের কাছে সেই টেস্ট রিপোর্ট সহ আবেদন পাঠানোর প্রশাসনিক কাজটি করবে। গোটা প্রক্রিয়াটি শেষ করতে পাঁচ থেকে ছ’মাস লাগে বলে জানিয়েছেন রাজ্য খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ দপ্তরের কর্তারা।
এবার রাজ্য সরকারের ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট ফুড প্রসেসিং অ্যান্ড হর্টিকালচার ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশনের কর্তারা কোমর বেঁধেছেন জেলায় জেলায় রসগোল্লাকে জিআই তকমা দিতে। ইতিমধ্যেই তাঁরা মিষ্টান্ন ব্যবসায়ী সমিতির সঙ্গে বৈঠক করেছেন। তাঁরা নিজেরাই বিভিন্ন জেলায় ক্যাম্প করে মিষ্টান্ন ব্যবসায়ীদের থেকে আবেদনপত্র নিচ্ছেন এবং জিআই তকমা পাওয়ার কাজটিতে সাহায্য করছেন। কর্পোরেশনের এক শীর্ষকর্তা বলেন, তাঁরা একাধিক জেলায় ক্যাম্প শুরু করেছেন চলতি সপ্তাহে। এখনও পর্যন্ত ৭৪টি মিষ্টান্ন সংস্থার আবেদন গ্রহণ করা হয়েছে। প্রতিটি জেলায় তাঁরা পৌঁছবেন এবং রসগোল্লার মান বাড়িয়ে জিআই পেতে কাউন্সেলিং করবেন। চলতি মাসে টার্গেট রয়েছে সাতশো দোকান। মোট আড়াই হাজার দোকানের লক্ষ্যমাত্রা রেখেছেন তাঁরা। ওই কর্তার কথায়, জিআই বড় কথা নয়। সেটি একটি প্রশাসনিক লোগো মাত্র। কিন্তু তার মাধ্যমে স্বাদ ফিরবে রসগোল্লায়, সেটাই আমাদের লক্ষ্য।

11th  September, 2019
পরাগবাহক কীটপতঙ্গদের বাঁচাতে যৌথ গবেষণা দরকার
সেমিনারে বার্তা গবেষকদের, মাস্ক পরে থাই প্রতিনিধিরা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পরাগবাহক কীটপতঙ্গের সংখ্যা কমছে। এদের বাঁচিয়ে না রাখলে আগামীদিনে খাদ্যশস্য সঙ্কট তৈরি হতে পারে। তাই এখন থেকেই এনিয়ে গবেষকদের যৌথভাবে কাজ করতে হবে।   বিশদ

ধুলো থেকে অ্যালার্জির ‘খলনায়ক’ অতি ক্ষুদ্র জীব, সন্ধান পেলেন জুলজি অধ্যাপক
কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় 

সৌম্যজিৎ সাহা  কলকাতা: ডাস্ট অ্যালার্জির কারণ হিসেবে সবার আগে উঠে আসে ধুলোবালির কথা। সামান্য ধুলো নাকে গেলেই কারও হাঁচি শুরু হয়ে যায়, আবার কারও সর্দি লেগে যায়। কিন্তু শুধু ধুলোবালির জন্যই কি এই অ্যালার্জি?   বিশদ

পুরভোটে পঞ্চায়েত নির্বাচনের হিংসার পুনরাবৃত্তি যেন না হয়, কমিশনারকে সতর্ক করলেন ধনকার

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনের সময় রাজ্যের নানা প্রান্তে যে হিংসার নজির তৈরি হয়েছিল আসন্ন পুরভোটে যেন তার পুনরাবৃত্তি না হয়। 
বিশদ

সিলেবাস শেষ হচ্ছে না
কলেজ শিক্ষকদের সাপ্তাহিক বাড়তি
ছুটিই তুলে দিতে চান পার্থ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সিবিসিএস চালু হওয়ার পর সময়ের অভাবে সিলেবাস শেষ করতে হিমশিম খাচ্ছে কলেজগুলি। এই অবস্থায় অধ্যক্ষদের আবেদনের ভিত্তিতে কলেজ শিক্ষকদের প্রিপারেটরি ডে (পিডি) বা প্রস্তুতির ছুটি তুলে দিতে চান শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।   বিশদ

মেঘলা আকাশ, বৃষ্টি, ধসা রোগে ফলন কম হওয়ার আশঙ্কা আলু চাষিদের 

অমিত চৌধুরী  তারকেশ্বর: মেঘলা আবহাওয়া, হালকা বৃষ্টিতে ধসা রোগের আক্রমণে ফলন কম হওয়ার আশঙ্কায় ভুগছেন হুগলির আলু চাষিরা। তবে বাজারে আলুর দাম থাকায় নির্দিষ্ট সময়ের আগেই মাঠ থেকে আলু বিক্রি করে লাভের মুখ দেখতে চাইছেন চাষিরা।  
বিশদ

চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ, রাজ্যে নতুন ভোটার প্রায় ২১ লক্ষ 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ২০২০ সালের চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশিত হল বৃহস্পতিবার। তাতে দেখা যাচ্ছে, এ বছর রেকর্ড প্রায় ২১ লক্ষ নতুন ভোটারের নাম অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। সেই সংখ্যা হল ২০ লক্ষ ৬৯ হাজার ১৬২। যা গত কয়েকটি বছরের তুলনায় বেশি। বিশদ

অনলাইনে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর শিল্পকর্ম বিক্রি করবে রাজ্য 

সংবাদদাতা, বিষ্ণুপুর: স্বনির্ভর গোষ্ঠীর উৎপাদিত শিল্প কর্ম এবার অনলাইনে বিক্রি করবে সরকার। তার জন্য ‘গভর্নমেন্ট ই-মার্কেট’ চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, আগামী ৭মার্চ দিল্লিতে তার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হবে। 
বিশদ

লক্ষ্য এসএফআই-এবিভিপিকে চাপে রাখা
রাজ্যজুড়ে সব মেডিক্যাল কলেজে এবার ইউনিট খুলতে চলেছে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ 

বিশ্বজিৎ দাস  কলকাতা: এক ঢিলে দুই পাখি মারা। তথাকথিত ‘এলিট’ প্রতিষ্ঠানগুলির মধ্যে প্রভাব বাড়ানো এবং এবিভিপি এবং এসএফআইকে ‘চাপে রাখা’। এই দুই লক্ষ্যপূরণে এবার রাজ্যের প্রতিটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিজেদের ইউনিট চালু করতে চলেছে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ।   বিশদ

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়
ধুলো থেকে অ্যালার্জির ‘খলনায়ক’ অতি ক্ষুদ্র
জীব, গবেষণায় সন্ধান জুলজি অধ্যাপকের

সৌম্যজিৎ সাহা  কলকাতা: ডাস্ট অ্যালার্জির কারণ হিসেবে সবার আগে উঠে আসে ধুলোবালির কথা। সামান্য ধুলো নাকে গেলেই কারও হাঁচি শুরু হয়ে যায়, আবার কারও সর্দি লেগে যায়। কিন্তু শুধু ধুলোবালির জন্যই কি এই অ্যালার্জি? 
বিশদ

বঙ্গ বিজেপি’র নয়া রাজ্য কমিটি ঘিরে চূড়ান্ত মতানৈক্য, বাড়ছে দলের সঙ্গে আরএসএস’র সমন্বয়ের অভাব 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বঙ্গ বিজেপি’র নয়া রাজ্য কমিটি গঠন ঘিরে দলীয় স্তরে চূড়ান্ত মতানৈক্য সামনে আসছে। দিলীপ ঘোষের নতুন ‘টিম’-এ কারা জায়গা পাবেন, তা নিয়ে চলছে লবিবাজি।  বিশদ

রাজ্যে খেই হারাচ্ছে মোদির সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা,
লক্ষ্যমাত্রা পূরণে চাপ ডাক বিভাগের কর্মীদের উপর

বাপ্পাদিত্য রায়চৌধুরী, কলকাতা: শিশুকন্যাদের শিক্ষা এবং জীবনে প্রতিষ্ঠা পেতে আর্থিক সহায়তার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার চালু করে সুকন্যা সমৃদ্ধি অ্যাকাউন্ট। স্বল্প সঞ্চয় হিসেবে এই প্রকল্পকে জনপ্রিয় করতে উদ্যোগী হন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি স্বয়ং।  বিশদ

নিচুতলায় কাজের গতি বৃদ্ধিতে কিছু দপ্তর, সব ডিএমকে নিয়ে ‘সিনার্জি’ বৈঠক মুখ্যসচিবের 

সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়  কলকাতা: একেবারে নিচুতলায় কাজের গতি বৃদ্ধিতে ‘সিএস সিনার্জি’ নামে একটি নতুন উদ্যোগ নিলেন মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা। এর মাধ্যমে ভিডিও কনফারেন্সে আট-ন’টি দপ্তরের প্রধান সচিব ও সব জেলাশাসকের সঙ্গে বিভিন্ন প্রকল্প নিয়ে পুঙ্খানুপুঙ্খ বিচার-বিশ্লেষণ করছেন তিনি। 
বিশদ

রবিবার অমিত শাহকেও গো ব্যাক স্লোগানে বিক্ষোভ দেখাবে বাম-কংগ্রেস-সিদ্দিকুল্লারা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: গত ১১-১২ জানুয়ারি বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির প্রতিবাদের আঁচ টের পেয়েছিলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এবার তাঁর সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে একই কায়দায় বিক্ষোভ দেখানোর পরিকল্পনা করেছে বিভিন্ন দল ও সংগঠন।   বিশদ

তৃণমূল কর্মীদের কাছে ভিডিও বার্তায় মমতার মিটিংয়ের প্রস্ততি সারছেন অভিষেক 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সকাল দশটার মধ্যে নিজের আসনে বসে পড়তে হবে। আগামী ২ মার্চ নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভা। তা নিয়ে প্রতিনিধিদের উদ্দেশে এভাবেই বার্তা দিলেন তৃণমূলের যুব নেতা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।   বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নেটে ব্যাট করতে ঢোকার আগে বাংলার ক্যাপ্টেন অভিমন্যু ঈশ্বরণ একটা কাগজ ভিডিও অ্যানালিস্টের হাতে তুলে দিয়ে বললেন, ‘চোখ বুলিয়ে নাও। পরে এই ...

ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে সেগুলির মধ্যে কয়েকটির বাজার বন্ধকালীন দর।  ...

সংবাদদাতা, দিনহাটা: দিনহাটার পুরসভা এলাকায় লোকসভা ভোটে ভালো ফল করেছিল বিজেপি। পুরসভার ১৬টি ওয়ার্ডের মধ্যে একটি বাদ দিয়ে বাকি সমস্ত ওয়ার্ডেই শাসক দল তৃণমূলের থেকে এগিয়ে ছিল বিজেপি।  ...

স্বার্ণিক দাস  কলকাতা: ‘ভাই তোকে আমি বিয়ের কার্ডটা হোয়াটসঅ্যাপ করে দিয়েছি। খরচ করে আর কার্ড বানাইনি। ঠিক সময়ে চলে আসিস।’- এইভাবেই নিজের বিয়ের নিমন্ত্রণ ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীদের কর্মযোগে বিলম্ব ঘটবে। বেসরকারি ক্ষেত্রে কর্মযোগ আছে। ব্যবসায় যোগ দেওয়া যেতে পারে। কোনও বন্ধুর ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

জাতীয় বিজ্ঞান দিবস
১৮২৭: আমেরিকায় প্রথম বাণিজ্যিক রেলপথ চালু হয়
১৮৪৪: বিখ্যাত নাট্যব্যক্তিত্ব গিরিশচন্দ্র ঘোষের জন্ম
১৮৮৩: ভারতে প্রথম টেলিগ্রাফ চালু হয়
১৯২৮: ভারতীয় পদার্থ বিজ্ঞানী চন্দ্রশেখর ভেঙ্কট রামন-এর ‘রামন এফেক্ট’ আবিষ্কার
১৯৩৬: জওহরলাল-পত্নী কমলা নেহরুর মৃত্যু
১৯৪৪: সঙ্গীতকার রবীন্দ্র জৈনের জন্ম
১৯৪৮ - ব্রিটিশ সৈন্যদের শেষ দল ভারত ত্যাগ করে
১৯৫১: ক্রিকেটার কারসন ঘাউড়ির জন্ম
১৯৬৩: ভারতের প্রথম রাষ্ট্রপতি ডঃ রাজেন্দ্রপ্রসাদের মৃত্যু  





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৮১ টাকা ৭২.৫১ টাকা
পাউন্ড ৯০.৯৬ টাকা ৯৪.২৩ টাকা
ইউরো ৭৬.৬৯ টাকা ৭৯.৬২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৩,১৪০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪০,৯৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪১,৫৪০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৭,২০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৭,৩০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১৫ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শুক্রবার, (ফাল্গুন শুক্লপক্ষ) চতুর্থী। অশ্বিনী ৫৪/৫৮ রাত্রি ৪/৩। সূ উ ৬/৩/২৭, অ ৫/৩৫/১৯, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৭ মধ্যে পুনঃ ৮/২২ গতে ১০/৪২ মধ্যে পুনঃ ১২/৫৮ গতে ২/২৯ মধ্যে পুনঃ ৪/১ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৭/১৩ গতে ৮/৪৫ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৫ গতে ৪/২৪ মধ্যে পুনঃ ৪/১ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৭/১৩ গতে ৮/৫৪ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৫ গতে ৪/২৪ মধ্যে বারবেলা ৮/৫৬ গতে ১১/৪৯ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৪২ গতে ১০/১৫ মধ্যে। 
১৪ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শুক্রবার, পঞ্চমী, অশ্বিনী ৪৮/১৯/৪৪ রাত্রি ১/২৬/১৫। সূ উ ৬/৬/২১, অ ৫/৩৪/৪০। অমৃতযোগ দিবা ৭/২৯ মধ্যে ও ৮/১৬ গতে ১০/৩৭ মধ্যে ও ১২/৫৮ গতে ২/৩১ মধ্যে ৪/৫ গতে ৫/৩৫ মধ্যে
এবং রাত্রি ৭/১৭ গতে ৮/৫৫ মধ্যে ও ৩/২৮ গতে ৪/১৭ মধ্যে। কালবেলা ১০/২৪/২৮ গতে ১১/৫০/৩০
মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৪২/৩৫ গতে ১০/১৬/৩৩ মধ্যে। 
মোসলেম: ৩ রজব 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
মধ্যাহ্নভোজে নবীন পট্টনায়কের বাড়িতে অমিত-মমতা-নীতিশরা 
ইস্টার্ন জোনাল কাউন্সিলের বৈঠক শেষে মধ্যাহ্নভোজে ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়কের ...বিশদ

03:51:00 PM

১৫০২ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স 

03:13:22 PM

দিল্লি হিংসায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪২ 

03:09:23 PM

১৪৫৩ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স

03:04:02 PM

হলদিয়ায় এসপি অফিস ঘেরাও বিজেপির 
হলদিয়ায় মা ও মেয়েকে পুড়িয়ে মারার প্রতিবাদে লকেট চট্টোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে ...বিশদ

03:04:00 PM

নবি মুম্বইতে নাবালিকা ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেপ্তার শিক্ষক 

02:19:40 PM