Bartaman Patrika
রাজ্য
 

 বাংলা আবাস যোজনায় উপভোক্তার
থেকে কোনও টাকা না চাওয়ার নির্দেশ
কাটমানির অভিযোগ,কড়া পঞ্চায়েত দপ্তর

 সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: কাটমানির অভিযোগ ঠেকাতে ১০০ দিনের কাজের মতোই বাংলার আবাস যোজনা নিয়েও কড়াকড়ি করা হচ্ছে। ঠিক হয়েছে, অনিয়ম ঠেকাতে কোনও উপভোক্তার কাছ থেকে কোনও রকমে টাকা নেওয়া যাবে না। সেই সঙ্গে বাড়ি কেমন হবে, তৈরির আগে তা উপভোক্তাকে গ্রাম পঞ্চায়েত ভবন বা ব্লক অফিসে ডেকে বিস্তারিতভাবে বোঝাতে হবে। উপভোক্তাদের এভাবে বোঝানোর নির্দেশ এই প্রথম। উপভোক্তা সহ নির্মীয়মাণ বাড়ির ছবি চারবার তুলে জিআই ট্যাগিং করে দিল্লিতে পাঠাতে হবে। আগে ছবি পাঠানো হলেও এবার চারবার ছবি পাঠানোটা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বাংলার আবাস যোজনা নিয়েই সব থেকে বেশি কাটমানির অভিযোগ উঠেছিল। সেই অভিযোগের জন্য কড়া নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে প্রতি জেলাশাসককে।
পঞ্চায়েত দপ্তর থেকে জেলায় জেলায় পাঠানো নির্দেশিকার [নং-৭১০৮ (২৩)/আরডি/আইএওয়াই/১৭এম-০৩/২০১৩] ছ’নম্বর পয়েন্টে পরিষ্কার বলা হয়েছে, সব রকম অনিয়ম এড়িয়ে চলতে হবে। কোনও স্তরেই উপভোক্তার কাছে টাকা চাওয়া যাবে না। যদি কোনও অভিযোগ ওঠে, তাহলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এই ভাবে নির্দেশিকা পাঠিয়ে টাকা না নেওয়ার ফরমান আগে কখনও জারি হয়নি। উল্লেখ্য, গ্রামাঞ্চলে এই প্রকল্পে কাটমানির অভিযোগ সব থেকে বেশি উঠেছে। গ্রামীণ এলাকায় একটি বাড়ি করার জন্য ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা দেওয়া হয়। জঙ্গলমহলে সেই টাকা বেড়ে হয় ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা। অভিযোগ ছিল, বাড়ি পেতে ২০ হাজার টাকা করে দিতে হচ্ছে গ্রাম পঞ্চায়েত কর্তাদের। এমন অভিযোগ ভবিষ্যতে যাতে আর না ওঠে, তার জন্যই কড়া ব্যবস্থা নিতে লিখিত নির্দেশ পাঠানো হল। এই প্রকল্পে কেন্দ্র দেয় ৬০ শতাংশ ও রাজ্য দেয় ৪০ শতাংশ টাকা।
গত লোকসভা নির্বাচনের সময় থেকেই এই প্রকল্পের কাজ থমকে ছিল। এখন ফের শুরু হল। ১৩টি জেলায় ৬ লক্ষ ১৭ হাজার ৪৮২টি বাড়ি তৈরির পরিকল্পনা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪ লক্ষ ৩২ হাজার বাড়ি রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। তার মধ্যে অনুমোদিত হয়েছে ১ লক্ষ ৩২ হাজার ৮৪৭টি বাড়ি। অনুমোদনের পর উপভোক্তাকে ডেকে এই প্রকল্প সম্পর্কে সচেতন করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিডিওরা এই ধরনের উপভোক্তা সচেতনতা শিবির করবেন। সেখানে তাঁদের বোঝানো হবে, কী ধরনের বাড়ি হবে। ঘর কত বড় হবে, রান্না ঘর কেমন হবে, ইত্যাদি। তিনটি কিস্তিতে টাকা দেওয়া হবে। জঙ্গলমহলে প্রথম কিস্তিতে ৬০ হাজার টাকা, দ্বিতীয় কিস্তিতে ৬০ হাজার টাকা এবং তৃতীয় কিস্তিতে ১০ হাজার টাকা। আর অন্যত্র প্রথম কিস্তিতে ৬০ হাজার টাকা, দ্বিতীয় কিস্তিতে ৫০ হাজার টাকা এবং তৃতীয় কিস্তিতে ১০ হাজার টাকা দেওয়া হবে।
প্রথম কিস্তির টাকা খুব শীঘ্রই পাঠিয়ে দেওয়া হবে বলে জেলাশাসকদের জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। ১২০ দিনের মধ্যে সমস্ত বাড়ি তৈরির কাজ শেষ করতে হবে বলে নির্দেশিকায় বলা হয়েছে। প্রতিটি স্তরে উপভোক্তা সহ বাড়ির ছবি অনলাইনে জিও ট্যাগিং করে পাঠাতে হবে। দিল্লিতে বসেই তা দেখতে পারবেন কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের অফিসাররা।
গত আর্থিক বছরে এই প্রকল্পে রাজ্যে ৫ লক্ষ ৮৬ হাজার বাড়ি তৈরি হয়েছে। সেই সব বাড়ি নিয়ে কাটমানির বেশ কিছু অভিযোগ উঠেছে। এবার ৮ লক্ষ ৩০ হাজার বাড়ি তৈরির লক্ষ্যমাত্রা দেওয়া হয়। তবে এখনও সব জেলায় বাড়ি তৈরির নির্দেশ দেওয়া হয়নি। সোশিও ইকোনমিক কাস্ট সেনসাস অনুযায়ী, রাজ্যে ৩৮ লক্ষ বাড়ি তৈরির লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করেছে কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক। তার মধ্যে ১৪ লক্ষ বাড়ি তৈরি হয়ে গিয়েছে। ২০২২ সালের মধ্যে বাকি ২৪ লক্ষ বাড়ি তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে।

10th  September, 2019
ব্যাঙ্ক-ডাকঘরে স্বল্প সঞ্চয়ে দেশের সেরা বাংলা 

বাপ্পাদিত্য রায়চৌধুরী, কলকাতা: স্বল্প সঞ্চয়ে ফের দেশের সেরা পশ্চিমবঙ্গ। এই নিয়ে টানা পাঁচবার। গত ২০১৯-’২০ আর্থিক বছরে দেশজুড়ে সরকারি প্রকল্পে সাধারণ মানুষের সঞ্চয়ের যে ছবি সামনে এসেছে, তাতে সেরার শিরোপা পেয়েছে বাংলা। দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে রয়েছে যথাক্রমে উত্তরপ্রদেশ এবং মহারাষ্ট্র।
সরকারি ক্ষেত্রে সরাসরি টাকা রাখার জন্য আগে সাধারণ মানুষের একমাত্র ভরসা ছিল পোস্ট অফিস। সেখানে রেকারিং ডিপোজিট, মান্থলি ইনকাম স্কিম, এক থেকে পাঁচ বছর পর্যন্ত ফিক্সড ডিপোজিট, পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড, সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা, সিনিয়র সিটিজেন স্কিম প্রভৃতি প্রকল্পে টাকা রাখতে পারতেন সাধারণ মানুষ। পরে অর্থমন্ত্রক ঠিক করে, ব্যাঙ্কের মাধ্যমেও সরকারিভাবে এই সঞ্চয় প্রকল্পগুলিতে টাকা রাখা যাবে। সরকারি স্কিমে টাকা রাখলে ডাকঘর এবং ব্যাঙ্ক, দুই প্রতিষ্ঠানেই একই সুদ মিলবে। এর সঙ্গে অবশ্য ব্যাঙ্কের নিজস্ব স্কিমের কোনও সম্পর্ক নেই। মন্ত্রকের অধীনস্থ ন্যাশনাল সেভিংস ইনস্টিটিউটের একটি সূত্র কিন্তু বলছে, ব্যাঙ্কের তুলনায় পোস্ট অফিসের সেভিংস স্কিম এখনও অনেক বেশি জনপ্রিয়। দেশের স্বল্প সঞ্চয় সংক্রান্ত হিসেব রাখা ও নির্দেশিকা জারির অধিকাংশ দায়িত্ব পালন করে এই সংস্থা। 
বিশদ

ক্লার্কশিপ সহ থমকে যাওয়া ৩৬টি
পিএসসির পরীক্ষা আগস্ট থেকেই 

কৌশিক ঘোষ, কলকাতা: প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হয়েছে। কিন্তু মেইন হয়নি। কবে হবে, সে নিয়েও দুশ্চিন্তায় রাতের ঘুম উড়েছে রাজ্যের হাজার হাজার পরীক্ষার্থীর। ক্লার্কশিপ, ডব্লুবিসিএস, মিসলেনিয়াস—তালিকায় একের পর এক ভারী নাম। সব পরীক্ষার্থীরই এক প্রশ্ন, কবে হবে বাকি থাকা পরীক্ষাগুলি?   বিশদ

আজও বাস-যন্ত্রণা থেকে মুক্তির
আশা কম, হতাশ পরিবহণ কর্তারা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: একদিকে রাস্তা থেকে বাস উধাও। অন্যদিকে, বেসরকারি বাসে বেআইনিভাবে লাগামছাড়া ভাড়া নেওয়ার অত্যাচারে জেরবার সাধারণ যাত্রী। যার জেরে রবিবার ছুটির দিনে কলকাতা সহ জেলায় জেলায় রীতিমতো নাকাল হলেন পথে নামা মানুষ। আজ, সোমবার সপ্তাহের প্রথম কাজের দিনের চিত্র কিছুটা হলেও বদলাবে বলে আশাবাদী পরিবহণ কর্তা থেকে বেসরকারি বাস মালিকরা।  বিশদ

রাজ্যে একদিনে আক্রান্ত ৮৯৫,
মৃত ২১, নয়া রেকর্ড 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যে ২৪ ঘণ্টায় ৮৯৫ জন আক্রান্ত হলেন করোনায়। মারা গেলেন ২১ জন। রবিবার সন্ধ্যার বুলেটিনে এ খবর জানিয়েছে স্বাস্থ্যদপ্তর। প্রসঙ্গত, দুটি সংখ্যাই এখনও পর্যন্ত রাজ্যে সর্বোচ্চ। এদিকে, করোনা রোগীদের মুড়ি-মুড়কির মতো অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া বন্ধ করতে বলল স্বাস্থ্যদপ্তর। এনিয়ে রাজ্যের বেসরকারি হাসপাতালগুলিকেও সতর্ক করেছে তারা ।   বিশদ

কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি
নিয়ে বেশ চিন্তায় শিক্ষামহল 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উচ্চ মাধ্যমিক এবং সিবিএসই’র পর আইএসসি’র মূল্যায়ন পদ্ধতিও ঘোষিত হয়েছে। এবার ফল প্রকাশের পালা। তার মধ্যেই ভর্তি প্রক্রিয়া নিয়ে যে জটিলতা হতে পারে, সেটাই ভাবাচ্ছে শিক্ষামহলকে।  বিশদ

করোনা যুদ্ধে হাইটেক ‘অস্ত্র’
সরকারি হাসপাতালগুলিকে 

বিশ্বজিৎ দাস, কলকাতা: শত্রু যখন প্রবল পরাক্রমী, অস্ত্রও দরকার তেমনি আধুনিক। করোনার সঙ্গে যুদ্ধে সরকারি হাসপাতালগুলির হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে হাইটেক সব ‘অস্ত্র’। ভয়ঙ্কর সংক্রামক করোনা ছড়ায় ড্রপলেটের মাধ্যমে।   বিশদ

বেকারত্ব কমল জুনে, সঙ্কটেও উজ্জ্বল রাজ্য
কর্মহীনতা কমেছে ১১ শতাংশ, বলছে রিপোর্ট 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সঠিক পরিকল্পনা এবং তার বাস্তবায়ন। এই দুই মন্ত্রেই এসেছে সাফল্য। দেশজুড়ে কর্মসংস্থানের এই আকালেও তাই উজ্জ্বল পশ্চিমবঙ্গ। করোনার প্রাদুর্ভাব এবং বিধ্বংসী ঘূর্ণিঝড় সামলে গত জুন মাসে বাংলায় বেকারত্বের হার কমেছে প্রায় ১১ শতাংশ। বেকারত্বের জাতীয় হার যেখানে ১১ শতাংশে দাঁড়িয়ে, সেখানে রাজ্যের কর্মহীনতা তার প্রায় অর্ধেক। শুক্রবার সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকনমির প্রকাশিত রিপোর্টে উঠে এসেছে এই তথ্য। রাজ্যের সাফল্যে উচ্ছ্বসিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার সকালেই তিনি ট্যুইটারে দেশের সঙ্গে তুলনা টেনে এই খুশির খবর সকলের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন। বিশদ

05th  July, 2020
করোনার ভয়ে দাঁতের
চিকিৎসায় ভোগান্তি অব্যাহত 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা ও বারাসত: করোনার ভয়ে দাঁতের চিকিৎসায় সাধারণ মানুষের ভোগান্তি অব্যাহত। দাঁত, চোখ এবং নাক, কান, গলার চিকিৎসায় করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা বেশি। এই তথ্য এখন বহু সাধারণ মানুষও জানেন। ফলে কষ্ট হলেও রোগ পুষে রাখছেন অনেকে।  বিশদ

05th  July, 2020
রাজ্যের সব থানায় নিয়মিত
করোনা পরীক্ষা পুলিসকর্মীদের 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যের সমস্ত থানায় এবার পুলিস কর্মীদের নিয়মিত করোনা পরীক্ষা করা হবে। এর লক্ষ্য একটাই যাতে কেউ আক্রান্ত হয়ে থাকলে সঙ্গে সঙ্গে তা ধরা যায় এবং পুলিসের মধ্যে করোনা সংক্রমণ আটকানো যায়। এতদিন পর্যন্ত রাজ্য পুলিসের থানা বা ফাঁড়িতে কর্মরতদের করোনা পরীক্ষার কোনও ব্যবস্থা ছিল না। জীবনের ঝুঁকি নিয়েই ডিউটি করে আসছিলেন পুলিস কর্মীরা। বিশদ

05th  July, 2020
গোষ্ঠী সংক্রমণ রুখতে এবার বাড়িতেই
হোম আইসোলেশন ইউনিটের সিদ্ধান্ত  

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: লাগাম পরানো গেলেও গতি রোধ হচ্ছে না সংক্রমণের। গ্রামাঞ্চলের তুলনায় শহরের আনাচে কানাচেই আঘাত বেশি। আতঙ্কের চাদরে বেশি করে ঢাকা পড়েছে কলকাতা ও আশপাশের চার জেলা। নবান্নের আরও মাথাব্যথা বাড়িয়েছে করোনা ছোঁয়াচ মাত্র একঘরে করে দেওয়ার প্রবণতা। রোগের থেকেও দ্রুত ছড়াচ্ছে এই সামাজিক সমস্যা। বিশদ

05th  July, 2020
আয়ুর্বেদ পরীক্ষা স্থগিত
ঘোষণা করল হাইকোর্ট 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যের স্বাস্থ্য বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ জুলাই থেকে শুরু হতে চলা ‘প্রফেশনাল আয়ুর্বেদাচার্য’ বা বিএএমএস পরীক্ষা ৩১ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত ঘোষণা করল কলকাতা হাইকোর্ট।   বিশদ

05th  July, 2020
ক্ষতিপূরণের টাকা চুরি
করলে তাড়িয়ে দিন: মমতা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ঘূর্ণিঝড় বিধ্বস্ত মানুষকে ঠকানোর শাস্তি একটাই! সরাসরি দল থেকে বহিষ্কার। ত্রিস্তর পঞ্চায়েতের জনপ্রতিনিধিরা সরকারি ক্ষতিপূরণের টাকা ‘চুরি’ করলে তাড়িয়ে দিন। তিনি যে স্তরেই থাকুন, দেখার দরকার নেই।   বিশদ

04th  July, 2020
মেডিক্যালে সব পরিষেবা চালুর দাবিতে বিক্ষোভ
করোনায় আক্রান্ত লকেট চট্টোপাধ্যায় 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনায় আক্রান্ত হলেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। শুক্রবার দুপুরে তিনি নিজেই জানিয়েছেন একথা। এক ট্যুইটবার্তায় বলেছেন, এদিন সকালে করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।  বিশদ

04th  July, 2020
গ্যাস বুকিংয়ে ওটিপি চালু
হচ্ছে, বাড়তে পারে সমস্যা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এবার গ্যাস বুকিংয়ের ক্ষেত্রে নতুন নিয়ম আসতে চলেছে। যাঁরা ইন্ডিয়ান অয়েলের আওতায় থাকা ইন্ডেন গ্যাসের গ্রাহক, তাঁদের জন্য নতুন নিয়মটি পাইলট প্রজেক্ট হিসেবে কিছু জায়গায় কার্যকর হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।   বিশদ

04th  July, 2020

Pages: 12345

একনজরে
নয়াদিল্লি (পিটিআই): একদিকে পাকিস্তান, অন্যদিকে চীন। জোড়া শত্রুর ষড়যন্ত্র সামলাতে হচ্ছে ভারতকে। এই অবস্থায় সীমান্তের পরিকাঠামো মজবুত করতে একসঙ্গে অনেকগুলি হাইওয়ে প্রকল্পের কাজ চলছে।  ...

সংবাদদাতা, গুসকরা: শনিবার রাতে আউশগ্রামের বড়াচৌমাথার কাছে জাতীয় সড়কে ডাকাত সন্দেহে দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিস। একটি মারুতি গাড়িও আটক করা হয়েছে। পুলিস জানিয়েছে, ধৃতদের নাম খোকন মাল ও অনিমেষ সমাদ্দার।   ...

জোহানেসবার্গ: দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ষসেরা ক্রিকেটারের সম্মান পেলেন কুইন্টন ডি’কক। করোনা ভাইরাসের জেরে এবছর এই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনলাইনে অনুষ্ঠিত হয়।   ...

ওয়াশিংটন: ভারতকে ভালোবাসে আমেরিকা— প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির শুভেচ্ছার জবাবে ট্যুইটে এই বার্তাই দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মোদি লিখেছিলেন, ‘আমেরিকার ২৪৪তম স্বাধীনতা দিবসে আমেরিকার সবাইকে ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চবিদ্যার ক্ষেত্রে বাধার মধ্য দিয়ে অগ্রসর হতে হবে। কর্মপ্রার্থীদের ক্ষেত্রে শুভ যোগ। ব্যবসায় যুক্ত হলে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৮৫- জোসেফ মেইস্টারের উপর জলাতঙ্ক রোগের টিকা সফলভাবে পরীক্ষা করলেন লুই পাস্তুর
১৮৯২- ব্রিটেন পার্লামেন্টে প্রথম ভারতীয় হিসাবে নির্বাচিত হলেন দাদাভাই নওরোজি
১৯০১- শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৪৬- আমেরিকার ৪৩তম প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লু বুশের জন্ম
১৯৪৬- মার্কিন অভিনেতা সিলভেস্টার স্ট্যালোনের জন্ম
১৯৮৫- অভিনেতা রণবীর সিংয়ের জন্ম
১৯৮৬- রাজনীতিবিদ জগজীবন রামের মৃত্যু
২০০২- রিলায়েন্সের প্রতিষ্ঠাতা ধীরুভাই আম্বানির মৃত্যু 



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.৮৯ টাকা ৭৫.৬১ টাকা
পাউন্ড ৯১.৭০ টাকা ৯৪.৯৭ টাকা
ইউরো ৮২.৫৭ টাকা ৮৫.৬৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
05th  July, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৮, ৯৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৬, ৪৭০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭, ১৭০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৯, ২৭০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৯, ৩৭০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
05th  July, 2020

দিন পঞ্জিকা

২২ আষাঢ় ১৪২৭, ৬ জুলাই ২০২০, সোমবার, প্রতিপদ ১০/৫৩ দিবা ৯/২৩। উত্তরাষাঢ়া ৪৫/২৭ রাত্রি ১১/১২৷ সূর্যোদয় ৫/১/১২, সূর্যাস্ত ৬/২১/২০৷ অমৃতযোগ দিবা ৮/৩৪ গতে ১০/২০ মধ্যে। রাত্রি ৯/৪২ গতে ১২/২ মধ্যে পুনঃ ১/২৭ গতে ২/৫৩ মধ্যে। বারবেলা ৬/৪১ গতে ৮/২১ মধ্যে পুনঃ ৩/১ গতে ৪/৪১ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/২১ গতে ১১/৪১ মধ্যে।  
২১ আষাঢ় ১৪২৭, ৬ জুলাই ২০২০, সোমবার, প্রতিপদ দিবা ৯/২২। উত্তরাষাঢ়া নক্ষত্র রাত্রি ১২/০। সূযোদয় ৫/১, সূর্যাস্ত ৬/২৩। অমৃতযোগ দিবা ৮/৩৫ গতে ১০/২২ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/১৩ গতে ১২/৩ মধ্যে ও ১/২৮ গতে ২/৫৪ মধ্যে। কালবেলা ৬/৪১ গতে ৮/২২ মধ্যে ও ৩/৩ গতে ৪/৪৩ মধ্যে। কালরাত্রি ১০/২২ গতে ১১/৪২ মধ্যে।  
১৪ জেল্কদ 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
করোনা: রাশিয়াকে টপকে তৃতীয় স্থানে ভারত 
বিশ্বে করোনা আক্রান্ত হওয়ার নিরিখে রাশিয়াকে টপকে তৃতীয় স্থানে উঠে ...বিশদ

05-07-2020 - 09:32:25 PM

হালিশহরে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ 
তৃণমূল ও বিজেপির সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল উত্তর ২৪ পরগনার ...বিশদ

05-07-2020 - 09:28:41 PM

কর্ণাটকে করোনা পজিটিভ আরও ১,৯২৫, মোট আক্রান্ত ২৩,৪৭৪ 

05-07-2020 - 09:06:12 PM

জম্মু ও কাশ্মীরের পুঞ্চ সীমান্তে পাক সেনার গোলাগুলি 

05-07-2020 - 08:37:27 PM

করোনা: মহারাষ্ট্রে নতুন করে আক্রান্ত হলেন ৬৫৫৫, মোট আক্রান্ত ২ লক্ষ ৬ হাজার ৬১৯ 

05-07-2020 - 08:04:07 PM

করোনা: ফের একদিনে রাজ্যে রেকর্ড সংক্রমণ 
পর পর দু’দিন। নতুন সংক্রমণের নিরিখে ফের রেকর্ড রাজ্যে। গত ...বিশদ

05-07-2020 - 08:02:02 PM