Bartaman Patrika
রাজ্য
 

 বাংলা আবাস যোজনায় উপভোক্তার
থেকে কোনও টাকা না চাওয়ার নির্দেশ
কাটমানির অভিযোগ,কড়া পঞ্চায়েত দপ্তর

 সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: কাটমানির অভিযোগ ঠেকাতে ১০০ দিনের কাজের মতোই বাংলার আবাস যোজনা নিয়েও কড়াকড়ি করা হচ্ছে। ঠিক হয়েছে, অনিয়ম ঠেকাতে কোনও উপভোক্তার কাছ থেকে কোনও রকমে টাকা নেওয়া যাবে না। সেই সঙ্গে বাড়ি কেমন হবে, তৈরির আগে তা উপভোক্তাকে গ্রাম পঞ্চায়েত ভবন বা ব্লক অফিসে ডেকে বিস্তারিতভাবে বোঝাতে হবে। উপভোক্তাদের এভাবে বোঝানোর নির্দেশ এই প্রথম। উপভোক্তা সহ নির্মীয়মাণ বাড়ির ছবি চারবার তুলে জিআই ট্যাগিং করে দিল্লিতে পাঠাতে হবে। আগে ছবি পাঠানো হলেও এবার চারবার ছবি পাঠানোটা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বাংলার আবাস যোজনা নিয়েই সব থেকে বেশি কাটমানির অভিযোগ উঠেছিল। সেই অভিযোগের জন্য কড়া নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে প্রতি জেলাশাসককে।
পঞ্চায়েত দপ্তর থেকে জেলায় জেলায় পাঠানো নির্দেশিকার [নং-৭১০৮ (২৩)/আরডি/আইএওয়াই/১৭এম-০৩/২০১৩] ছ’নম্বর পয়েন্টে পরিষ্কার বলা হয়েছে, সব রকম অনিয়ম এড়িয়ে চলতে হবে। কোনও স্তরেই উপভোক্তার কাছে টাকা চাওয়া যাবে না। যদি কোনও অভিযোগ ওঠে, তাহলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এই ভাবে নির্দেশিকা পাঠিয়ে টাকা না নেওয়ার ফরমান আগে কখনও জারি হয়নি। উল্লেখ্য, গ্রামাঞ্চলে এই প্রকল্পে কাটমানির অভিযোগ সব থেকে বেশি উঠেছে। গ্রামীণ এলাকায় একটি বাড়ি করার জন্য ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা দেওয়া হয়। জঙ্গলমহলে সেই টাকা বেড়ে হয় ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা। অভিযোগ ছিল, বাড়ি পেতে ২০ হাজার টাকা করে দিতে হচ্ছে গ্রাম পঞ্চায়েত কর্তাদের। এমন অভিযোগ ভবিষ্যতে যাতে আর না ওঠে, তার জন্যই কড়া ব্যবস্থা নিতে লিখিত নির্দেশ পাঠানো হল। এই প্রকল্পে কেন্দ্র দেয় ৬০ শতাংশ ও রাজ্য দেয় ৪০ শতাংশ টাকা।
গত লোকসভা নির্বাচনের সময় থেকেই এই প্রকল্পের কাজ থমকে ছিল। এখন ফের শুরু হল। ১৩টি জেলায় ৬ লক্ষ ১৭ হাজার ৪৮২টি বাড়ি তৈরির পরিকল্পনা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪ লক্ষ ৩২ হাজার বাড়ি রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। তার মধ্যে অনুমোদিত হয়েছে ১ লক্ষ ৩২ হাজার ৮৪৭টি বাড়ি। অনুমোদনের পর উপভোক্তাকে ডেকে এই প্রকল্প সম্পর্কে সচেতন করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিডিওরা এই ধরনের উপভোক্তা সচেতনতা শিবির করবেন। সেখানে তাঁদের বোঝানো হবে, কী ধরনের বাড়ি হবে। ঘর কত বড় হবে, রান্না ঘর কেমন হবে, ইত্যাদি। তিনটি কিস্তিতে টাকা দেওয়া হবে। জঙ্গলমহলে প্রথম কিস্তিতে ৬০ হাজার টাকা, দ্বিতীয় কিস্তিতে ৬০ হাজার টাকা এবং তৃতীয় কিস্তিতে ১০ হাজার টাকা। আর অন্যত্র প্রথম কিস্তিতে ৬০ হাজার টাকা, দ্বিতীয় কিস্তিতে ৫০ হাজার টাকা এবং তৃতীয় কিস্তিতে ১০ হাজার টাকা দেওয়া হবে।
প্রথম কিস্তির টাকা খুব শীঘ্রই পাঠিয়ে দেওয়া হবে বলে জেলাশাসকদের জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। ১২০ দিনের মধ্যে সমস্ত বাড়ি তৈরির কাজ শেষ করতে হবে বলে নির্দেশিকায় বলা হয়েছে। প্রতিটি স্তরে উপভোক্তা সহ বাড়ির ছবি অনলাইনে জিও ট্যাগিং করে পাঠাতে হবে। দিল্লিতে বসেই তা দেখতে পারবেন কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের অফিসাররা।
গত আর্থিক বছরে এই প্রকল্পে রাজ্যে ৫ লক্ষ ৮৬ হাজার বাড়ি তৈরি হয়েছে। সেই সব বাড়ি নিয়ে কাটমানির বেশ কিছু অভিযোগ উঠেছে। এবার ৮ লক্ষ ৩০ হাজার বাড়ি তৈরির লক্ষ্যমাত্রা দেওয়া হয়। তবে এখনও সব জেলায় বাড়ি তৈরির নির্দেশ দেওয়া হয়নি। সোশিও ইকোনমিক কাস্ট সেনসাস অনুযায়ী, রাজ্যে ৩৮ লক্ষ বাড়ি তৈরির লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করেছে কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক। তার মধ্যে ১৪ লক্ষ বাড়ি তৈরি হয়ে গিয়েছে। ২০২২ সালের মধ্যে বাকি ২৪ লক্ষ বাড়ি তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে।

10th  September, 2019
সোমবার থেকে টানা
৩ দিন মিছিলে মমতা

দেবাঞ্জন দাস, দীঘা: নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (ক্যাব) সংসদে পাশ হওয়ার পর এখন তা নাগরিকত্ব আইন। এই আইন এবং জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) এ রাজ্যে কোনওভাবেই কার্যকর হবে না, কাউকে তাড়াতেও দেব না। ফের দ্ব্যর্থহীন ভাবে এই ঘোষণার সঙ্গেই বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন, তিনি নিজে এবার পথে নামছেন কেন্দ্রীয় সরকারের ওই দুই নীতির প্রতিবাদে।
বিশদ

নাগরিকত্ব ইস্যুতে
উত্তাল বাংলা
বেলডাঙা-উলুবেড়িয়ায় স্টেশন ভাঙচুর

নিজস্ব প্রতিনিধি এবং বিএনএ: নাগরিকত্ব আইন ইস্যুতে উত্তাল হয়ে উঠল বাংলা। এই আইন বিরোধী আন্দোলনের উত্তাপ যে এ রাজ্যেও ক্রমশ বাড়ছে, তা শুক্রবার প্রত্যক্ষ করল রাজ্য। এই আন্দোলনকে ঘিরে তেতে ওঠে মুর্শিদাবাদ জেলার বেলডাঙা ও হাওড়ার উলুবেড়িয়া। বিক্ষোভকারীরা কোথাও রেললাইনে, কোথাও জাতীয় সড়কে আগুন জ্বালিয়ে প্রতিবাদ জানায়। প্রায় প্রতিটি জেলায় অবরোধের ঘটনা ঘটে। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে বেলডাঙায় পুলিসকে কাঁদানে গ্যাস ছুঁড়তে হয়। নামাতে হয় র‌্যাফ ও কমব্যাট ফোর্স। বিডিও অফিসের সামনে ভাঙচুর হয় দু’টি গাড়ি। হাওড়ার উলুবেড়িয়ায় এনআরসি এবং নাগরিকত্ব আইন বিরোধীদের টার্গেট ছিল রেল। বিক্ষোভকারীরা ট্রেন ও রেলের কেবিন লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়ে। বিক্ষোভ ও অবরোধের জেরে ব্যাহত হয় রেল ও সড়ক যোগাযোগ। পার্ক সার্কাসে দু’ঘণ্টা অবরোধ চলায় অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে বিস্তীর্ণ এলাকা। মা উড়ালপুলে তীব্র যানজট হয়। নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে অগ্নিগর্ভ অসমের সঙ্গে উত্তরবঙ্গের সড়ক ও রেল যোগাযোগও কার্যত বিচ্ছিন্ন হয়েছে।
বিশদ

দুর্ভোগের দায় তাঁদের নয়, দাবি সিদ্দিকুল্লার
নাগরিকত্ব আইন বিরোধী বিক্ষোভে শহরে অবরোধ, মানুষের ভোগান্তি 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সরাসরি উল্লেখ না থাকলেও সদ্য সংশোধিত নাগরিকত্ব বিল যে দেশের মুসলমান সম্প্রদায়কে আতঙ্কিত করে তুলেছে, শুক্রবার সকাল থেকেই কলকাতা সহ রাজ্যের নানা জায়গায় বিক্ষোভে তারই প্রতিফলন ঘটল। এদিন মহানগরের বিভিন্ন জায়গায় অবরোধ ও বিক্ষোভে জেরবার শহরবাসী। 
বিশদ

নয়া নাগরিকত্ব আইনের ইস্যুতে রাজ্যজুড়ে টানা প্রতিবাদে কং, জোট ধর্ম পালনে ডাক বামেদেরও 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের ইস্যুতে দলের তরফে প্রতিবাদ জানাতে দেশের অন্যান্য রাজ্যের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গেও পথে নেমেছে কংগ্রেস। ইতিমধ্যেই যুব কংগ্রেস সহ দলের বিভিন্ন গণসংগঠন এই অস্ত্রকে হাতিয়ার করে বিজেপি ও কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদি সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাতে মিটিং-মিছিল করেছে। 
বিশদ

শিনজো আবে’র ভারত সফরের প্রাক্কালে চাপ বাড়াল বসু পরিবার
রেনকোজি মন্দিরের চিতাভস্মের ডিএনএ পরীক্ষা করান, প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি সুভাষ-কন্যা অনিতার 

জীবানন্দ বসু, কলকাতা: তাইহোকু (অধুনা তাইপে) বিমান দুর্ঘটনায় নেতাজির মৃত্যু নিয়ে দীর্ঘ ৭৫ বছর ধরে চলা বিতর্কের অবসানে এবার রেনকোজি মন্দিরে রক্ষিত তথাকথিত চিতাভস্মের ডিএনএ পরীক্ষার জন্য সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখলেন সুভাষচন্দ্রের কন্যা অনিতা বসু পাফ।  
বিশদ

এনআরসি, নাগরিকত্ব নিয়েই কি আশঙ্কা! জল্পনা
অকৃতকার্যদের বসতে দিন মাধ্যমিকে, স্কুলগুলিকে নির্দেশ মুর্শিদাবাদের ডিআইয়ের 

অর্পণ সেনগুপ্ত, কলকাতা: মুর্শিদাবাদ জেলায় মাধ্যমিক টেস্টে অকৃতকার্য কোনও ছাত্রছাত্রীকে আটকানো যাবে না। তাদের ২০২০ সালের মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসতে দিতে হবে। এমনই অবাক করা নির্দেশ জারি করেছেন মুর্শিদাবাদ জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শক (মাধ্যমিক) অর্থাৎ ডিআই অমরকুমার শীল। 
বিশদ

জানুয়ারিতে মোদি-শাহকে সংবর্ধনা
রাজ্যের পরিস্থিতির রিপোর্ট স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে দিতে দিল্লিতে থেকে গেলেন দিলীপ ঘোষ 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে শুক্রবার দিনভর কলকাতা সহ রাজ্যের বিভিন্ন অংশে বিক্ষোভের জেরে নিজের পূর্বনির্ধারিত উত্তরবঙ্গ সফল বাতিল করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। 
বিশদ

কানাকড়ি দেয়নি কেন্দ্র
এখনও পর্যন্ত বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্ত আড়াই লক্ষ কৃষককে ১০০ কোটি টাকা দিল রাজ্য 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার শুক্রবার পর্যন্ত একটি টাকা না দিলেও রাজ্য সরকার আড়াই লক্ষ ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের হাতে ১০০ কোটি টাকা তুলে দিল। এখনও পর্যন্ত ১১ লক্ষ ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক আবেদন করেছেন। যাঁরাই আবেদন করবেন, তাঁদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি টাকা চলে যাবে। 
বিশদ

রাজভবনের সঙ্গে সংঘাত নেই, দাবি অধ্যক্ষের
বিধানসভার পুষ্প প্রদর্শনীতে ডাক পেলেন না রাজ্যপাল 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্য বিধানসভার বার্ষিক পুষ্প প্রদর্শনীতে এবার ডাক পেলেন না রাজ্যপাল। আগামী ২৩ ডিসেম্বর থেকে বিধানসভা প্রাঙ্গণে বসতে চলেছে এই পুষ্প প্রদর্শনী। সাধারণত, প্রদর্শনীর উদ্বোধনে কিংবা সমাপ্তি অনুষ্ঠানে পুরস্কার দিতে রাজ্যপালকে ডাকা হয়। এবার প্রদর্শনী উদ্বোধন করবেন অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। 
বিশদ

৩-৪ এপ্রিল শিক্ষামেলা
নয়া বিধিতে উপাচার্যদের সমস্যা হবে না, বৈঠকে আশ্বাস শিক্ষামন্ত্রীর 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উপাচার্যরা যাতে ঠিকমতো কাজ করতে পারেন, তার জন্যই এই বিধি পেশ করা হয়েছে। উচ্চশিক্ষা সংসদের বৈঠকে এমনই মত প্রকাশ করেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বৈঠক সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন এই প্রসঙ্গ উঠতেই কয়েকজন উপাচার্য এই বিধি নিয়ে তাঁদের সমস্যার কথা তুলে ধরেন। 
বিশদ

ধান কেনার কাজে আরও বেশি সমবায় সংস্থা ও স্বনির্ভর গোষ্ঠীর অংশগ্রহণ চাইছে সরকার 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: চাষিদের কাছ থেকে ধান কেনার কাজে আরও বেশি সংখ্যায় গ্রামের কৃষি সমবায় সংস্থা ও স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলিকে নামাতে চাইছে রাজ্য সরকার। সমবায় সংস্থা ও স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলি গ্রামে ঢুকে চাষিদের কাছ থেকে ধান কেনে। এতে চাষিদের অনেক সুবিধা হয়। এই কারণেই তাদের অংশগ্রহণ বাড়াতে চাইছে সরকার।  
বিশদ

অভিযোগ হাইকোর্টে
ডেঙ্গু রোধে রাজ্য খরচ দেখালেও রোগীর সংখ্যা, মৃত্যুর তথ্য নেই 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ডেঙ্গু মোকাবিলায় রাজ্য সরকার শুধুমাত্র ২০১৯ সালেই ৪৫০ কোটি টাকা খরচ করেছে। শহর ও গ্রামাঞ্চলে এর মোকাবিলায় বিশেষজ্ঞ নিয়োগ করা থেকে পরিকাঠামোগত ব্যাপক পরিবর্তন ঘটানো হয়েছে। 
বিশদ

নাগরিকত্ব বিল পাশের সময় সংসদে মোদি অনুপস্থিত ছিলেন কেন? প্রশ্ন তৃণমূলের 

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ১৩ ডিসেম্বর: গুরুত্বপূর্ণ বিল পাশের সময় প্রধানমন্ত্রীর অনুপস্থিতির প্রসঙ্গ তুলে আজ সমালোচনা চড়াল তৃণমূল। মোদি সরকারকে অহংকারী, দাম্ভিক, উদ্ধত বলেও অভিযোগ করল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল। 
বিশদ

শিবির বন্ধ হলেও ভর্তুকিহীন ডিজিটাল রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করা যাবে 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিশেষ শিবির বন্ধ হওয়ার পরও ভর্তুকিহীন ডিজিটাল রেশন কার্ড করার জন্য আবেদন করা যাবে। অনলাইনে আবেদন করার সুযোগ তো থাকছেই। পাশপাশি খাদ্য দপ্তরের স্থানীয় অফিসে গিয়েও ১০ নম্বর ফর্ম পূরণ করে ওই কার্ডের জন্য আবেদন করা যাবে।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
সুজিত ভৌমিক, কলকাতা: নতুন বছরের গোড়াতেই দুটি নতুন থানা পেতে চলেছেন কলকাতাবাসী। এগুলি হল, কালীতলা ও গল্ফগ্রিন। কলকাতা পুলিস ইতিমধ্যেই এব্যাপারে স্বরাষ্ট্র দপ্তরের ছাড়পত্র পেয়ে গিয়েছে। এখন চালু করার জন্য সবুজ সঙ্কেতের অপেক্ষায় লালবাজার। কলকাতা পুলিস সূত্রেই এই খবর জানা ...

 কোচি, ১৩ ডিসেম্বর: শুক্রবার আইএসএলের অ্যাওয়ে ম্যাচে কেরল ব্লাস্টার্সের বিরুদ্ধে দু’গোলে এগিয়ে গিয়েও ২-২ গোলে ড্র করল জামশেদপুর এফসি। এদিন কোচির জওহরলাল নেহরু স্টেডিয়ামে ম্যাচের ৩৮ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে জামশেদপুরকে এগিয়ে দেন পিটি। ...

সংবাদদাতা, পূর্বস্থলী: পূর্বস্থলীর বাঁশদহ বিলেও এবার পরিযায়ী পাখিদের আগমন শুরু হয়েছে। ওই বিলের দক্ষিণ-পূর্ব দিকে কচুরিপানার উপর পরিযায়ী পাখিদের বিচরণ করতে দেখা যাচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, চার থেকে পাঁচটি প্রজাতির পরিযায়ী পাখি এখানে এসেছে।  ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নভেম্বর মাসে এলআইসি’র পলিসি বিক্রির হার বাড়ল। দেশে ১০০টি পলিসি বিক্রি পিছু ৮৪টিই এলআইসি’র। নভেম্বর মাসে এলআইসি’র মার্কেট শেয়ার বৃদ্ধি বোঝাতে গিয়ে এমনটাই জানালেন সংস্থার পূর্বাঞ্চলীয় জোনাল ম্যানেজার দীনেশ ভগত। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
aries

বিদ্যার্থীদের অধিক পরিশ্রম করতে হবে। অন্যথায় পরীক্ষার ফল ভালো হবে না। প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় ভালো ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯২৪: অভিনেতা ও পরিচালক রাজ কাপুরের জন্ম
১৯৩১: কুমিল্লায় বিপ্লবী শান্তি ঘোষ ও সুনীতি চৌধুরি ম্যাজিস্ট্রেট স্টিভেনসকে হত্যা করেন
১৯৩৪: পরিচালক শ্যাম বেনেগালের জন্ম
১৯৫৩: ভারতীয় টেনিস খেলোয়াড় বিজয় অমৃতরাজের জন্ম
১৯৫৭: হাওড়া এবং ব্যান্ডেলের মধ্যে প্রথম চালু হল বৈদ্যুতিক ট্রেন 





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৮০ টাকা ৭১.৪৯ টাকা
পাউন্ড ৯৩.৪৩ টাকা ৯৬.৮০ টাকা
ইউরো ৭৭.৪৪ টাকা ৮০.৪৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,২৮৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,৩২৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৬,৮৭০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৪,১০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৪,২০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার, দ্বিতীয়া ৬/২৯ দিবা ৮/৪৭। পুনর্বসু ৫৭/৮ শেষরাত্রি ৫/৩। সূ উ ৬/১১/৫৯, অ ৪/৪৯/৫৩, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৪ মধ্যে পুনঃ ৭/৩৬ গতে ৯/৪৪ মধ্যে পুনঃ ১১/৫২ গতে ২/৪২ মধ্যে পুনঃ ৩/২৫ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ১২/৫১ গতে ২/৩৮ মধ্যে, বারবেলা ৭/৩২ মধ্যে পুনঃ ১২/৫১ গতে ২/৩৮ মধ্যে, কালরাত্রি ৬/৩০ মধ্যে পুনঃ ৪/৩২ গতে উদয়াবধি। 
২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার, দ্বিতীয়া ৮/৪৯/১৯ দিবা ৯/৪৫/২৯। আর্দ্রা ২/৫১/২২ দিবা ৭/২২/১৮, সূ উ ৬/১৩/৪৫, অ ৪/৫০/১০, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩ মধ্যে ও ৭/৪৫ গতে ৯/৫২ মধ্যে ও ১২/২ গতে ২/৪৯ মধ্যে ও ৩/৩১ গতে ৪/৫০ মধ্যে এবং রাত্রি ১২/৫৯ গতে ২/৪৬ মধ্যে, কালবেলা ৭/৩৩/১৮ মধ্যে ও ৩/৩০/৩৭ গতে ৪/৫০/১০ মধ্যে, কালরাত্রি ৬/৩০/৩৭ মধ্যে ও ৪/৩৩/১৮ গতে ৬/১৪/২৯ মধ্যে। 
১৬ রবিয়স সানি  

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে মুর্শিদাবাদের রঘুনাথগঞ্জের একাধিক জায়গায় পথ অবরোধ  

11:58:00 AM

কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে বিক্ষোভকারীদের ইটের ঘায়ে জখম হাওড়া সিটি পুলিসের ডিসি সাউথ জোন 

11:38:53 AM

মুরারইতে রেল অবরোধের জেরে বাঁশলৈ স্টেশনে দাঁড়িয়ে পড়েছে ডাউন শতাব্দী এক্সপ্রেস 

11:26:10 AM

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে মুরারইতে রেল ও পথ অবরোধ

10:59:00 AM

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে অবরোধ

10:45:00 AM

সকাল থেকে রাজ্যের বিভিন্ন অংশে ট্রেন অবরোধ 
সকাল থেকে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে রাজ্যের বিভিন্ন অংশে চলছে ...বিশদ

10:35:00 AM