Bartaman Patrika
রাজ্য
 
দিনের সেরা

শিকার ধরার অপেক্ষায় গিরগিটি। বৃষ্টিভেজা অলস দুপুরে তোলা নিজস্ব চিত্র। 

 বাংলা আবাস যোজনায় উপভোক্তার
থেকে কোনও টাকা না চাওয়ার নির্দেশ
কাটমানির অভিযোগ,কড়া পঞ্চায়েত দপ্তর

 সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: কাটমানির অভিযোগ ঠেকাতে ১০০ দিনের কাজের মতোই বাংলার আবাস যোজনা নিয়েও কড়াকড়ি করা হচ্ছে। ঠিক হয়েছে, অনিয়ম ঠেকাতে কোনও উপভোক্তার কাছ থেকে কোনও রকমে টাকা নেওয়া যাবে না। সেই সঙ্গে বাড়ি কেমন হবে, তৈরির আগে তা উপভোক্তাকে গ্রাম পঞ্চায়েত ভবন বা ব্লক অফিসে ডেকে বিস্তারিতভাবে বোঝাতে হবে। উপভোক্তাদের এভাবে বোঝানোর নির্দেশ এই প্রথম। উপভোক্তা সহ নির্মীয়মাণ বাড়ির ছবি চারবার তুলে জিআই ট্যাগিং করে দিল্লিতে পাঠাতে হবে। আগে ছবি পাঠানো হলেও এবার চারবার ছবি পাঠানোটা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বাংলার আবাস যোজনা নিয়েই সব থেকে বেশি কাটমানির অভিযোগ উঠেছিল। সেই অভিযোগের জন্য কড়া নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে প্রতি জেলাশাসককে।
পঞ্চায়েত দপ্তর থেকে জেলায় জেলায় পাঠানো নির্দেশিকার [নং-৭১০৮ (২৩)/আরডি/আইএওয়াই/১৭এম-০৩/২০১৩] ছ’নম্বর পয়েন্টে পরিষ্কার বলা হয়েছে, সব রকম অনিয়ম এড়িয়ে চলতে হবে। কোনও স্তরেই উপভোক্তার কাছে টাকা চাওয়া যাবে না। যদি কোনও অভিযোগ ওঠে, তাহলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এই ভাবে নির্দেশিকা পাঠিয়ে টাকা না নেওয়ার ফরমান আগে কখনও জারি হয়নি। উল্লেখ্য, গ্রামাঞ্চলে এই প্রকল্পে কাটমানির অভিযোগ সব থেকে বেশি উঠেছে। গ্রামীণ এলাকায় একটি বাড়ি করার জন্য ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা দেওয়া হয়। জঙ্গলমহলে সেই টাকা বেড়ে হয় ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা। অভিযোগ ছিল, বাড়ি পেতে ২০ হাজার টাকা করে দিতে হচ্ছে গ্রাম পঞ্চায়েত কর্তাদের। এমন অভিযোগ ভবিষ্যতে যাতে আর না ওঠে, তার জন্যই কড়া ব্যবস্থা নিতে লিখিত নির্দেশ পাঠানো হল। এই প্রকল্পে কেন্দ্র দেয় ৬০ শতাংশ ও রাজ্য দেয় ৪০ শতাংশ টাকা।
গত লোকসভা নির্বাচনের সময় থেকেই এই প্রকল্পের কাজ থমকে ছিল। এখন ফের শুরু হল। ১৩টি জেলায় ৬ লক্ষ ১৭ হাজার ৪৮২টি বাড়ি তৈরির পরিকল্পনা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪ লক্ষ ৩২ হাজার বাড়ি রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। তার মধ্যে অনুমোদিত হয়েছে ১ লক্ষ ৩২ হাজার ৮৪৭টি বাড়ি। অনুমোদনের পর উপভোক্তাকে ডেকে এই প্রকল্প সম্পর্কে সচেতন করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিডিওরা এই ধরনের উপভোক্তা সচেতনতা শিবির করবেন। সেখানে তাঁদের বোঝানো হবে, কী ধরনের বাড়ি হবে। ঘর কত বড় হবে, রান্না ঘর কেমন হবে, ইত্যাদি। তিনটি কিস্তিতে টাকা দেওয়া হবে। জঙ্গলমহলে প্রথম কিস্তিতে ৬০ হাজার টাকা, দ্বিতীয় কিস্তিতে ৬০ হাজার টাকা এবং তৃতীয় কিস্তিতে ১০ হাজার টাকা। আর অন্যত্র প্রথম কিস্তিতে ৬০ হাজার টাকা, দ্বিতীয় কিস্তিতে ৫০ হাজার টাকা এবং তৃতীয় কিস্তিতে ১০ হাজার টাকা দেওয়া হবে।
প্রথম কিস্তির টাকা খুব শীঘ্রই পাঠিয়ে দেওয়া হবে বলে জেলাশাসকদের জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। ১২০ দিনের মধ্যে সমস্ত বাড়ি তৈরির কাজ শেষ করতে হবে বলে নির্দেশিকায় বলা হয়েছে। প্রতিটি স্তরে উপভোক্তা সহ বাড়ির ছবি অনলাইনে জিও ট্যাগিং করে পাঠাতে হবে। দিল্লিতে বসেই তা দেখতে পারবেন কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের অফিসাররা।
গত আর্থিক বছরে এই প্রকল্পে রাজ্যে ৫ লক্ষ ৮৬ হাজার বাড়ি তৈরি হয়েছে। সেই সব বাড়ি নিয়ে কাটমানির বেশ কিছু অভিযোগ উঠেছে। এবার ৮ লক্ষ ৩০ হাজার বাড়ি তৈরির লক্ষ্যমাত্রা দেওয়া হয়। তবে এখনও সব জেলায় বাড়ি তৈরির নির্দেশ দেওয়া হয়নি। সোশিও ইকোনমিক কাস্ট সেনসাস অনুযায়ী, রাজ্যে ৩৮ লক্ষ বাড়ি তৈরির লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করেছে কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক। তার মধ্যে ১৪ লক্ষ বাড়ি তৈরি হয়ে গিয়েছে। ২০২২ সালের মধ্যে বাকি ২৪ লক্ষ বাড়ি তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে।

10th  September, 2019
লকডাউনে রাজ্যে বিক্রি আর্সেনিক
অ্যালবামের কয়েক কোটি ডোজ
নিয়ম না মেনে খাওয়া বহু ক্ষেত্রে, শঙ্কিত চিকিৎসকরা 

বিশিষ্ট হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক, বহু হোমিও ওষুধ কোম্পানির কর্তারা জানাচ্ছেন, অবিলম্বে মানুষ সচেতন না হলে লাগাতার সেবনে আর্সেনিকের ক্রনিক কুপ্রভাবের আশঙ্কা রয়েছে। যেমন ডায়ারিয়া, হার্টের অসুখ, তীব্র শ্বাসকষ্ট, গায়ে র‌্যাশ, এমনকী ক্যান্সার পর্যন্ত হতে পারে।
বিশদ

বিরোধীদের অপপ্রচারকে ঘায়েল করতে নয়া অস্ত্র
শুরু তথ্য সংগ্রহ, মমতার উন্নয়ন
চিত্র এবার সোশ্যাল মিডিয়াতেও

মাঠে-ময়দানে দাঁড়িয়ে নয়। ‘ভার্চুয়াল’ অপপ্রচারের জবাব মিলবে ‘ভার্চুয়ালে’ই। লক্ষ্য একুশের ভোট-মহারণ। আর জবাবের হাতিয়ার এবার সোশ্যাল মিডিয়াও। বিরোধীদের বিভ্রান্তিমূলক প্রচারকে ভোঁতা করতে এবার প্রতিটি দপ্তরে ‘ফেসবুক’, ‘ট্যুইটার’ অ্যাকাউন্ট খোলার নির্দেশ দিল নবান্ন। 
বিশদ

ইউপিএসসি পরীক্ষায় প্রথম ২০-র
মধ্যে কলকাতার রৌনক এবং নেহা

এ রাজ্যের আমলা হিসেবেই দায়িত্ব পালন করতে চান রৌনক আগরওয়াল এবং নেহা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইউনিয়ন পাবলিক সার্ভিস কমিশন বা ইউপিএসসি পরীক্ষায় এ রাজ্য থেকে যথাক্রমে প্রথম এবং দ্বিতীয় হয়েছেন তাঁরা। রৌনকের সর্বভারতীয় র‌্যাঙ্ক ১৩। আর নেহা সারা ভারতে ২০তম স্থান পেয়েছেন। হরিয়ানার প্রদীপ সিং সারা ভারতের মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করেছেন।
বিশদ

আজ রাজ্যে আগস্টের প্রথম লকডাউন 

আজ, বুধবার কড়া শাসনে ফের সম্পূর্ণ লকডাউন। বন্ধ থাকবে সরকারি-বেসরকারি অফিস, দোকান-বাজার, পরিবহণ। লকডাউন ভাঙলে পুলিস ব্যবস্থা নিতে পিছপা হবে না বলে প্রশাসন সূত্রে খবর। আগস্ট মাসের প্রথম লকডাউন আজ। এছাড়াও এই মাসের ৮, ২০, ২১, ২৭, ২৮ ও ৩১ তারিখ রাজ্যজুড়ে সম্পূর্ণ লকডাউন থাকবে। সবকিছুই বন্ধ থাকবে অন্য সাপ্তাহিক লকডাউনের মতো।
বিশদ

কোভিড হাসপাতালে বেড বুক না করে রোগী স্থানান্তর নয়, নার্সিংহোমগুলিকে বার্তা রাজ্যের
সরকারের কন্ট্রোলরুমে ফোন করুন: স্বরাষ্ট্রসচিব

বেসরকারি নন-কোভিড হাসপাতাল থেকে কোভিড হাসপাতালে রোগী ভর্তির ক্ষেত্রে হয়রানি দূর করতে সচেষ্ট প্রশাসন। অ্যাম্বুলেন্স হোক কিংবা বেড, কোনও কিছুর ব্যবস্থা না করেই রোগী ‘রেফার’ করে দিচ্ছে বেসরকারি হাসপাতাল। যার ফল ভুগছে রোগী পরিবার। 
বিশদ

এবার তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসে সম্পূর্ণ লকডাউন
ভার্চুয়াল সভার সম্ভাবনা 

তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবস ২৮ আগস্ট পড়েছে লকডাউনের মধ্যে। ফলে ভার্চুয়াল সভা করা যায় কি না, সে নিয়ে শুরু হয়েছে আলোচনা।   বিশদ

ফসল নষ্ট হওয়া রুখতে অভিনব প্রযুক্তির ব্যবহার দুর্গাপুরের প্রতিষ্ঠানের 

পর্যাপ্ত জ্ঞানের অভাবে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে উৎপন্ন ফসল। কখনও আবার ফসল সংরক্ষণের জন্য অযথা বেড়ে যাচ্ছে খরচও। এই সমস্যার সমাধানে এবার এগিয়ে এল দুর্গাপুরের সিএসআইআর-সেন্ট্রাল মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ ইনস্টিটিউট (সিএমইআরআই)।  বিশদ

স্বাস্থ্যদপ্তর দেখভালের জন্য পৃথক পূর্ণমন্ত্রীর দাবিতে মমতাকে চিঠি 

করোনা পরিস্থিতির গুরুত্ব বিচার করে রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তরের কাজ নিয়মিত দেখভাল করার জন্য আলাদা করে একজন পূর্ণমন্ত্রীর দাবি করল বিরোধী বাম ও কংগ্রেসের জোট শিবির।   বিশদ

মাদকদ্রব্য চিহ্নিত করতে টেস্টিং কিট কেনা হচ্ছে প্রতি থানার জন্য 

মাদকদ্রব্য চিহ্নিতকরণের কোনও কিট নেই রাজ্য পুলিসের থানাগুলিতে। যে কারণে বাজেয়াপ্ত করা সামগ্রীর মধ্যে কোনটি মাদক আর কোনটি এই তালিকাভুক্ত নয়, তদন্তের শুরুতে তা জানা যাচ্ছে না। 
বিশদ

মানবদেহে অক্সফোর্ড টিকার
চূড়ান্ত পরীক্ষায় সায় কেন্দ্রের

সন্দীপ স্বর্ণকার, নয়াদিল্লি: সংক্রমণে বল্গাহীন কোভিড। দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুমিছিলও। যেনতেন প্রকারে এই মারণ ভাইরাসকে ঘায়েল করাই এখন একমাত্র লক্ষ্য মোদি সরকারের। ফলে আর সময় নষ্ট না করে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের তৈরি ভ্যাকসিন ‘কোভিশিল্ড’ মানবদেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের অনুমতি দিয়েই দিল কেন্দ্র। খুব শীঘ্র দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পরীক্ষা শুরু হবে। এর জন্য প্রাথমিক পর্যায়ে বেছে নেওয়া হয়েছে মোট ১৭টি স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানকে। ইতিমধ্যেই ইউরোপ, ব্রাজিল এবং দক্ষিণ আফ্রিকায় মানবদেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগ চলছে ‘কোভিশিল্ড’-এর। ব্রাজিলে চলছে ফেজ থ্রি’র হিউম্যান ট্রায়াল। প্রাথমিক পর্যায়ে ব্রাজিলে এই ভ্যাকসিনের কাজ অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক। তাই ভারতে প্রথম ধাপেই এই ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়ালের ফেজ টু এবং থ্রি’র একসঙ্গে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের অনুমোদন দিল ‘ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া’। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও কেমব্রিজে স্থাপিত সুইডেনের কোম্পানি অ্যাস্ট্রাজেনেকা যৌথ উদ্যোগে ‘কোভিশিল্ড’ তৈরি করেছে। ভারতে তাদের পার্টনার পুনের সংস্থা ‘সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়া’। অন্যান্য টিকা তৈরিতে এই সংস্থার পেশাদারিত্ব দেশ-বিদেশে উচ্চ প্রশংসিত। ডিপিটি, বিসিজি, সোয়াইন ফ্লুর টিকাও তৈরি করে সেরাম ইনস্টিটিউট।
বিশদ

04th  August, 2020
চাপিয়ে দেওয়া শিক্ষানীতি মানতে নারাজ
বহু রাজ্য, বিশেষজ্ঞ কমিটি ক্ষুব্ধ বাংলার

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি ও কলকাতা: আশঙ্কাই সত্যি হল। নয়া কেন্দ্রীয় শিক্ষানীতির ভাষা সংক্রান্ত নির্দেশিকা নিয়ে রাজ্যে রাজ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। প্রত্যাশিতভাবেই প্রতিবাদের প্রথম ঝড় উঠেছে দক্ষিণ ভারতে। সোমবার সরকারিভাবে তীব্র প্রতিক্রিয়া দিয়ে তামিলনাড়ু জানিয়ে দিয়েছে, তারা এই ‘তিন ভাষা ফর্মুলা’ রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থায় কার্যকর করবে না।
বিশদ

04th  August, 2020
লকডাউনেও সড়কের কর্মযজ্ঞ, বহু
রাজ্যের থেকে এগিয়ে বাংলা

সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: ‘লকডাউন পিরিয়ড’-এ কাজ সচল রেখে গ্রামীণ সড়ক নির্মাণে অসামান্য সাফল্য পেল পশ্চিমবঙ্গ। তুলনায় অনেকটাই পিছিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির গুজরাত সহ আরও বেশ কয়েকটি বিজেপি শাসিত রাজ্য। গত ২২ এপ্রিল ছিল লকডাউনের ২৯ তম দিন। ওই দিনই গ্রামীণ সড়ক নির্মাণের কাজে হাত দেয় রাজ্যের পঞ্চায়েত দপ্তর।
বিশদ

04th  August, 2020
রাজ্যে সম্পূর্ণ
লকডাউনের তারিখ বদল

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মনসা পুজো, পার্সি সম্প্রদায়ের নববর্ষ সহ নানা ধর্মীয় অনুষ্ঠানকে নির্বিঘ্ন করতে ফের সম্পূর্ণ লকডাউনের দিনগুলির ক্ষেত্রে সংশোধন আনল রাজ্য সরকার। সোমবার সন্ধ্যায় রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা সংশোধিত সেই তালিকা প্রকাশ করেছেন।
বিশদ

04th  August, 2020
বিনামূল্যে রেশনের ‘ধাক্কায়’ মাছি
তাড়াচ্ছে খোলা বাজার, কমছে দাম

নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্ধমান: চাহিদা বাড়লে জোগান বাড়ে। কিন্তু জোগান পর্যাপ্ত, অথচ চাহিদা নেই... এমন হলে? পণ্যের দাম কমতে বাধ্য। আর সেটাই হচ্ছে ‘চালের’ বাজারে। লকডাউনের ‘অজুহাতে’ কালোবাজারি দূরঅস্ত, খোলা বাজারে দাম পড়তে শুরু করেছে চালের। কেজিতে পাঁচ টাকা পর্যন্ত।
বিশদ

04th  August, 2020

Pages: 12345

একনজরে
ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে, সেগুলির কয়েকটির বাজার বন্ধকালীন দর।  ...

লকডাউনের জন্য প্রায় তিন মাস নিকাশিনালা থেকে পলি তোলার কাজ করা যায়নি। বৃষ্টির জন্য তা ফের বন্ধ হলে হাওড়াবাসীর সমস্যা বাড়তে পারে। ...

সংবাদদাতা, রায়গঞ্জ: এবছর স্বাধীনতা দিবসে রায়গঞ্জের ঘড়ি মোড় এলাকায় ১০৫ ফুট উঁচু স্তম্ভের সঙ্গে আকাশে উড়বে জাতীয় পতাকা। সেজন্য ইতিমধ্যেই প্রায় সমস্ত প্রস্তুতি শেষ করে ফেলা হয়েছে। মঙ্গলবার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে ঘড়ি মোড় এলাকায় পরিদর্শন করলেন রায়গঞ্জ পুরসভার ...

বরুসিয়া ডর্টমুন্ড থেকে পাঁচ বছরের চুক্তিতে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডে পা রাখতে চলেছেন জ্যাডন স্যাঞ্চো। ইংল্যান্ডের এই উইঙ্গারকে ১০৮ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে দলে নিতে চাইছে ম্যান ইউ।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীদের কোনও সুখবর আসতে পারে। কর্মক্ষেত্রে পদোন্নতির সূচনা। গুপ্তশত্রু থেকে সাবধান। নতুন কোনও প্রকল্পের জন্য ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭৭৫ - বৃটিশ ভারতে কর কর্মকর্তা মহারাজা নন্দকুমারের মৃত্যু
১৯৩০ -মার্কিন নভোচারী তথা প্রথম মানুষ, যিনি চাঁদে অবতরণ করেন নীল আর্মস্ট্রংয়ের জন্ম
১৯৩১: অভিনেত্রী গীতা দে’র জন্ম
১৯৬২: অভিনেত্রী মেরিলিন মনরোর মৃত্যু
১৯৬৯: প্রাক্তন ক্রিকেটার বেঙ্কটেশ প্রসাদের জন্ম
১৯৭৪: অভিনেত্রী কাজলের জন্ম
২০০০: ক্রিকেটার লালা অমরনাথের মৃত্যু



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৩৮ টাকা ৭৬.১০ টাকা
পাউন্ড ৯৬.৬৯ টাকা ১০০.০৭ টাকা
ইউরো ৮৬.৯৫ টাকা ৯০.১৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫৪,৬৭০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৫১,৮৭০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৫২,৬৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৫,০৮০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৫,১৮০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২০ শ্রাবণ ১৪২৭, বুধবার, ৫ আগস্ট ২০২০, দ্বিতীয়া ৪৪/৩ রাত্রি ১০/৫১। ধনিষ্ঠানক্ষত্র ১০/৪২ দিবা ৯/৩০। সূর্যোদয় ৫/১৩/২৬, সূর্যাস্ত ৬/১১/৪২। অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৭ মধ্যে পুনঃ ৯/৩২ গতে ১১/১৭ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৭ গতে ২/২১ মধ্যে। রাত্রি ৬/৫৭ গতে ৯/৯ মধ্যে পুনঃ ১/৩২ গতে উদয়াবধি। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ১/৫৩ গতে ৩/৩৭ মধ্যে, রাত্রি ৯/৯ গতে ১০/৩৬ মধ্যে। বারবেলা ৮/২৮ গতে ১০/৫ মধ্যে পুনঃ ১১/৪২ গতে ১/১৯ মধ্যে। কালরাত্রি ২/২৮ গতে ৩/৫১ মধ্যে।
২০ শ্রাবণ ১৪২৭, বুধবার, ৫ আগস্ট ২০২০, দ্বিতীয়া রাত্রি ৯/৪৮। ধনিষ্ঠানক্ষত্র দিবা ৯/৪০। সূর্যোদয় ৫/১২, সূর্যাস্ত ৬/১৪। অমৃতযোগ দিবা ৭/০ মধ্যে ও ৯/৩২ গতে ১১/১৪ মধ্যে ও ৩/২৮ গতে ৫/১০ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৪৬ গতে ৯/১ মধ্যে ও ১/৩২ গতে ৫/১৩ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ১/৪৬ গতে ৩/২৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/১ গতে ১০/৩১ মধ্যে। কালবেলা ৮/২৮ গতে ১০/৬ ও ১১/৪৩ গতে ১/২১ মধ্যে। কালরাত্রি ২/২৮ গতে ৩/৫০ মধ্যে।
১৪ জেলহজ্জ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
অযোধ্যায় ভূমিপুজো অনুষ্ঠান মঞ্চে কী বললেন মোদি
আজ গোটা দেশ রামময়। পাশাপাশি এখন গোটা বিশ্বে শোনা যাচ্ছে ...বিশদ

02:14:14 PM

রুপোর প্রধান শিলা সহ মোট ৯টি শিলার পুজো করলেন প্রধানমন্ত্রী 

01:13:04 PM

ভূমিপুজোর অনুষ্ঠান সমাপ্ত করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

01:07:44 PM

সুশান্ত মৃত্যুর সিবিআই তদন্তের সুপারিশ গ্রহণ করল কেন্দ্র 
বিহার সরকারের সুপারিশ মেনে অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রহস্য ...বিশদ

12:18:32 PM

অযোধ্যায় রাম জন্মভূমিতে শুরু হল ভূমিপুজোর অনুষ্ঠান
অযোধ্যায় রাম জন্মভূমিতে শুরু হল ভূমিপুজোর অনুষ্ঠান। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ...বিশদ

12:18:00 PM

অযোধ্যায় হনুমানগড়িতে পুজো দেওয়ার পর রামলালা দর্শন করলেন প্রধানমন্ত্রী 

12:08:00 PM