Bartaman Patrika
রাজ্য
 
 

 নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে কম-বেশি অগ্নিগর্ভ গোটা রাজ্যই। শনিবার রামপুরহাটে তোলা বলরাম দত্তবণিকের ছবি

খাগড়াগড় কাণ্ডে অভিযুক্ত জহিরুল গ্রেপ্তার মধ্যপ্রদেশে 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দক্ষিণ ভারতে একের পর এক পুলিসি অভিযানে ধরা পড়েছে বেশ কয়েকজন জেএমবি জঙ্গি। তাই জায়গা পরিবর্তন করে মধ্য ভারতে ঘাঁটি বানাতে শুরু করেছিল এই জঙ্গি সংগঠনের সদস্যরা। খাগড়গড় কাণ্ডে অভিযুক্ত জেএমবি জঙ্গি জহিরুলকে মধ্যপ্রদেশ থেকে ধরার পর এই তথ্য হাতে পেয়েছে ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এনআইএ)। কওসর গ্রেপ্তার হওয়ার পর বাংলাদেশ থেকে নির্দেশ এসেছিল ঘাঁটি বদলের। যাতে তাদের মডিউল পুরোপুরি ভেঙে না যায়। জহিরুলকে রবিবার গভীর রাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ট্রানজিট রিমান্ডে তাকে কলকাতায় নিয়ে আসা হচ্ছে।
খাগড়াগড় কাণ্ডে অভিযুক্ত জহিরুল কওসরের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত। তার হাত ধরেই জহিরুল জেএমবি সংগঠনে নাম লেখায়। তার অস্ত্রচালনা ও বিস্ফোরক তৈরির প্রশিক্ষণ হয়েছিল বর্ধমানের শিমুলিয়া মাদ্রাসায়। এরপর সে নিজে জেহাদি নিয়োগ করতে শুরু করে। শিমুলিয়া মাদ্রাসাতেই সে অন্যান্যদের বিভিন্ন ধরনের বিস্ফোরক তৈরির প্রশিক্ষণ দেয়। বর্ধমানের যে সব এলাকায় গ্রেনেড তৈরির কারখানা খুলেছিল জেএমবি, সেগুলি দেখভালের দায়িত্বে ছিল এই জহিরুল। সে নিজেও বাংলাদেশে বিস্ফোরক পৌঁছে দিয়ে আসত বলে জানা যাচ্ছে। খাগড়াগড় থেকে একটি ন্যানো গাড়ি বাজেয়াপ্ত করেছিল এনআইএ। জানা গিয়েছে, সেই গাড়ির চালক ছিল এই জহিরুল। কওসর, হাবিবুর সহ শীর্ষ স্থানীয় জেএমবি নেতাদের এই গাড়িতে করেই সে বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে যেত।
খাগড়াগড়ে বিস্ফোরণের পর জহিরুল বাংলাদেশে পালিয়ে যায়। সেখানে তার সঙ্গে দেখা হয় কওসরের। পরে দু’জনেই ভারতে আসে। দক্ষিণ ভারতে ঘাঁটি তৈরি করে। তারা বিস্ফোরক তৈরির কারখানাও খুলেছিল সেখানে। কওসর যে বাড়িটি ভাড়া নিয়েছিল, সেখানে বিস্ফোরক তৈরির পরীক্ষাগার খোলা হয়েছিল। এরাজ্য থেকে যে সব যুবকরা দক্ষিণ ভারতে কাজ করতে যায়, তাদের মধ্যে থেকেই নতুন জেহাদি নিয়োগের কাজ শুরু করে জহিরুল। ধৃতকে জেরা করে এনআইএ’র অফিসাররা জানতে পেরেছেন, সদ্য নিযুক্ত জেহাদিদের বিস্ফোরক ও অস্ত্র চালানোর প্রশিক্ষণ দিয়েছে সে। পরে কওসরের কাছে তাদের পাঠানো হতো নতুন ধরনের আইইডি তৈরির প্রশিক্ষণ নেওয়ার জন্য। এর মধ্যেই জহিরুল একাধিকবার এরাজ্যে এসেছে বলে জানা যাচ্ছে। মালদহ ও মুর্শিদাবাদ থেকে নতুন ছেলে জোগাড় করে সেখানে বিস্ফোরক তৈরির কারখানা গড়ে তোলাই ছিল তার উদ্দেশ্য।
দক্ষিণ ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে জেএমবি ঘাঁটি গেড়েছে এবং একাধিক মডিউল খোলা হয়েছে, এই তথ্য এনআইএ’র হাতে আসার পরই সেখানে লাগাতার অভিযান শুরু করেছে তদন্তকারী সংস্থা। ইতিমধ্যেই সেখান থেকে ধরা পড়েছে হাবিবুর ও কওসর। পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট রাজ্যের পুলিসও হানাদারি চালাচ্ছে। যাতে জেএমবি’র ঘাঁটি ভেঙে দেওয়া যায়। এরপরই বাংলাদেশ থেকে নির্দেশ আসে, জায়গা বদলের। সেইমতো মধ্যপ্রদেশ সহ মধ্য ভারতের কয়েকটি রাজ্যকে টার্গেট করেছে এই জঙ্গি সংগঠন। সেখানে আস্তে আস্তে ঘাঁটি বানাতে শুরু করেছে জঙ্গিরা। চলছে স্লিপার সেল তৈরির কাজ। কোথায় কোথায় তা খোলা হয়েছে, জহিরুলকে জেরা করে তা জানার চেষ্টা করছেন তদন্তকারী অফিসাররা। 
14th  August, 2019
বিধায়কের দাঁতের রুট ক্যানেল চিকিৎসার
খরচ ১ লক্ষ ৫৬ হাজার! স্তম্ভিত স্পিকার

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যের এক বিধায়ক বিধানসভায় দাঁতের চিকিৎসার জন্য ১ লক্ষ ৫৬ হাজার টাকার বিল পেশ করেছেন। কয়েকটি দাঁতের রুট ক্যানেল ট্রিটমেন্ট করতে নাকি এত খরচ পড়েছে! শুক্রবার শিয়ালদহের আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজে ছিল সেই কলেজ তথা ভারতে দন্ত চিকিৎসার শতবর্ষ উদ্‌যাপন সমারোহ এবং ইন্ডিয়ান ডেন্টাল অ্যাসোসিয়েশনের (আইডিএ) বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।
বিশদ

  অ্যাসিড হামলায় আক্রান্ত গৃহবধূ ও সন্তানরা ক্ষতিপূরণ পেলেও প্রহর গুনছেন বিচারের

 সুকান্ত বসু, কলকাতা: অ্যাসিড হামলায় জ্বলে গিয়েছিল শরীর। শুধু মা’ই অ্যাসিডে দগ্ধ হননি, পুড়ে গিয়েছিল তাঁর দুই শিশুকন্যাও। চলতি বছরের জানুয়ারিতে পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরিতে স্বামীর নেতৃত্বেই আরও দুই অভিযুক্ত অ্যাসিড ছুঁড়ে দিয়েছিল তাঁদের গায়ে, অভিযোগ এমনটাই। এনিয়ে বর্তমানে কাঁথি জেলা আদালতে মামলা চলছে।
বিশদ

  অশান্তি মোকাবিলায় রাজ্যকে
কড়া হতে বললেন রাজ্যপাল

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় অশান্তির পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্য সরকারকে শক্ত হাতে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে বললেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার। শনিবার সায়েন্স সিটিতে এক অনুষ্ঠানের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাজ্যপাল বলেন, রাজ্য সরকারের কাছে আমার অনুরোধ, আপনারা সক্রিয় হন। পুরো শক্তি নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন।
বিশদ

  নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদ মিছিল ঘিরে আমডাঙায় উত্তেজনা

 বিএনএ, বারাসত: আমডাঙায় নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে মিছিলকে কেন্দ্র করে শুক্রবার সন্ধ্যায় তীব্র উত্তেজনা ছড়ায়। রাস্তার ধারের চপের দোকানে জল খাওয়াকে কেন্দ্র করে মিছিলে হাঁটা যুবকেদের সঙ্গে দোকানদারের বচসা শুরু হয়। বিশদ

  প্রধানমন্ত্রীকে বাংলার অশান্ত পরিস্থিতির রিপোর্ট দিতে আজ অন্ডালে বিজেপি নেতারা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় শুক্রবার থেকে কলকাতা সহ রাজ্যের বিভিন্ন জেলার উত্তপ্ত পরিস্থিতি সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে রিপোর্ট দেবে বঙ্গ বিজেপি। আজ, রবিবারই খনিকের জন্য বাংলায় পা রাখছেন প্রধানমন্ত্রী।
বিশদ

১০০ দিনের কাজে
ফের শীর্ষে বাংলা
টানা চারবার মিলল সাফল্য

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ১০০ দিনের কাজে পশ্চিমবঙ্গ ফের এক নম্বর স্থানে। কেন্দ্রীয় সরকারের গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক এই ঘোষণা করেছে। এ নিয়ে পরপর চারবার এই সাফল্য পেল বাংলা। ফেসবুকে এই তথ্য জানিয়ে এই কাজের সঙ্গে যুক্ত সকলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
বিশদ

 ট্রেনে, বাসে আগুন, তাণ্ডব অব্যাহত

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা এবং বিএনএ: নাগরিকত্ব আইন এবং এনআরসি ইস্যুতে হিংসা অব্যাহত। শনিবার অগ্নিগর্ভ হল দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, নদীয়া, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম সহ দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলা। গণ্ডগোল ছড়ায় উত্তরবঙ্গের একাধিক প্রান্তেও। রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে, গাছের গুঁড়ি ফেলে অবরোধ, বাস ও গাড়িতে ব্যাপক ভাঙচুর, ট্রেনলাইন এমনকী স্টেশনে আগুন দেওয়ার মতো ভয়ানক ঘটনাও ঘটেছে। এদিন সকালে কর্মস্থলের উদ্দেশে বেরিয়ে সময়ে পৌঁছতে না পেরে যেমন চরম নাকাল হন নিত্যযাত্রীরা, তেমনই গণ্ডগোলের খবর পেয়ে স্কুল-কলেজে ছেলেমেয়েদের পাঠাননি অনেকে।
বিশদ

হিংসা বরদাস্ত করব না: মমতা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নাগরিকত্ব আইন ইস্যুকে সামনে রেখে রাজ্যের বিভিন্ন অংশে যেভাবে হিংসা ছড়ানো হচ্ছে, তা কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না বলে স্পষ্ট বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাস-ট্রেনে আগুন লাগিয়ে, পাথর ছুঁড়ে যে বা যারা সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করছে, তাদের বিরুদ্ধে কড়া আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য পুলিস-প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। 
বিশদ

পেঙ্গুইনদের মস্তিষ্ক নিয়েও গবেষণা আরেক প্রবাসীর
মাইক্রোপ্লাস্টিকের দূষণের খোঁজে আজ কুমেরু পাড়ি দিচ্ছেন বাঙালি অধ্যাপক

অর্পণ সেনগুপ্ত, কলকাতা: তুষারশুভ্র মেরু প্রান্তর। গুটি গুটি পায়ে হেঁটে চলেছে পেঙ্গুইনের দল। আম বাঙালির এই দৃশ্য ডিসকভারি চ্যানেলেই দেখা। কিন্তু সেখানে গিয়ে গুরুত্বপূর্ণ গবেষণা? হ্যাঁ, তাতেও বাঙালি পিছিয়ে নেই। কুমেরুতে মাইক্রোপ্লাস্টিকের কু-প্রভাব কতটা পড়েছে? বিশদ

রাজ্যের বহু কোর্টে এখনও জমে পুরনো
পাঁচশো ও হাজার টাকার নোট
হাইকোর্টকে জানাল রাজ্য

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নোটবন্দির ফাঁদে রাজ্যের বহু আদালত। নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে আদালতে জমা থাকা পুরনো ৫০০ বা ১০০০ টাকার নোট ব্যাঙ্কে জমা না করায় এমনই জটিল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এই সমস্যার সমাধানে কলকাতা হাইকোর্ট প্রশাসন এবং রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ার মধ্যে আলাপ আলোচনা চলছে।
বিশদ

সোমবার থেকে টানা
৩ দিন মিছিলে মমতা

দেবাঞ্জন দাস, দীঘা: নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (ক্যাব) সংসদে পাশ হওয়ার পর এখন তা নাগরিকত্ব আইন। এই আইন এবং জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) এ রাজ্যে কোনওভাবেই কার্যকর হবে না, কাউকে তাড়াতেও দেব না। ফের দ্ব্যর্থহীন ভাবে এই ঘোষণার সঙ্গেই বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন, তিনি নিজে এবার পথে নামছেন কেন্দ্রীয় সরকারের ওই দুই নীতির প্রতিবাদে।
বিশদ

14th  December, 2019
নাগরিকত্ব ইস্যুতে
উত্তাল বাংলা
বেলডাঙা-উলুবেড়িয়ায় স্টেশন ভাঙচুর

নিজস্ব প্রতিনিধি এবং বিএনএ: নাগরিকত্ব আইন ইস্যুতে উত্তাল হয়ে উঠল বাংলা। এই আইন বিরোধী আন্দোলনের উত্তাপ যে এ রাজ্যেও ক্রমশ বাড়ছে, তা শুক্রবার প্রত্যক্ষ করল রাজ্য। এই আন্দোলনকে ঘিরে তেতে ওঠে মুর্শিদাবাদ জেলার বেলডাঙা ও হাওড়ার উলুবেড়িয়া। বিক্ষোভকারীরা কোথাও রেললাইনে, কোথাও জাতীয় সড়কে আগুন জ্বালিয়ে প্রতিবাদ জানায়। প্রায় প্রতিটি জেলায় অবরোধের ঘটনা ঘটে। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে বেলডাঙায় পুলিসকে কাঁদানে গ্যাস ছুঁড়তে হয়। নামাতে হয় র‌্যাফ ও কমব্যাট ফোর্স। বিডিও অফিসের সামনে ভাঙচুর হয় দু’টি গাড়ি। হাওড়ার উলুবেড়িয়ায় এনআরসি এবং নাগরিকত্ব আইন বিরোধীদের টার্গেট ছিল রেল। বিক্ষোভকারীরা ট্রেন ও রেলের কেবিন লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়ে। বিক্ষোভ ও অবরোধের জেরে ব্যাহত হয় রেল ও সড়ক যোগাযোগ। পার্ক সার্কাসে দু’ঘণ্টা অবরোধ চলায় অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে বিস্তীর্ণ এলাকা। মা উড়ালপুলে তীব্র যানজট হয়। নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে অগ্নিগর্ভ অসমের সঙ্গে উত্তরবঙ্গের সড়ক ও রেল যোগাযোগও কার্যত বিচ্ছিন্ন হয়েছে।
বিশদ

14th  December, 2019
দুর্ভোগের দায় তাঁদের নয়, দাবি সিদ্দিকুল্লার
নাগরিকত্ব আইন বিরোধী বিক্ষোভে শহরে অবরোধ, মানুষের ভোগান্তি 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সরাসরি উল্লেখ না থাকলেও সদ্য সংশোধিত নাগরিকত্ব বিল যে দেশের মুসলমান সম্প্রদায়কে আতঙ্কিত করে তুলেছে, শুক্রবার সকাল থেকেই কলকাতা সহ রাজ্যের নানা জায়গায় বিক্ষোভে তারই প্রতিফলন ঘটল। এদিন মহানগরের বিভিন্ন জায়গায় অবরোধ ও বিক্ষোভে জেরবার শহরবাসী। 
বিশদ

14th  December, 2019
নয়া নাগরিকত্ব আইনের ইস্যুতে রাজ্যজুড়ে টানা প্রতিবাদে কং, জোট ধর্ম পালনে ডাক বামেদেরও 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের ইস্যুতে দলের তরফে প্রতিবাদ জানাতে দেশের অন্যান্য রাজ্যের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গেও পথে নেমেছে কংগ্রেস। ইতিমধ্যেই যুব কংগ্রেস সহ দলের বিভিন্ন গণসংগঠন এই অস্ত্রকে হাতিয়ার করে বিজেপি ও কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদি সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাতে মিটিং-মিছিল করেছে। 
বিশদ

14th  December, 2019

Pages: 12345

একনজরে
 শিলং, ১৪ ডিসেম্বর: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে উত্তাল উত্তর-পূর্ব ভারত। আন্দোলন চলছে পশ্চিমবঙ্গ সহ বেশ কয়েকটি রাজ্যেও। এরমধ্যে নতুন বিতর্ক তৈরি করলেন মেঘালয়ের রাজ্যপাল তথাগত রায়। শুক্রবার ট্যুইটারে তাঁর বার্তা, আপনি যদি বিভেদকামী গণতন্ত্র না চান, তাহলে আপনার উত্তর কোরিয়া ...

 ওয়াশিংটন, ১৪ ডিসেম্বর (পিটিআই): ‘আমার কোনও দোষ নেই। তবু আমাকে ইমপিচ করা হচ্ছে। এটা অন্যায়।’ শুক্রবার ট্যুইটারে এভাবেই ইমপিচমেন্ট বিতর্কে ক্ষোভ উগরে দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন কংগ্রেসের জুডিশিয়ারি কমিটি ট্রাম্পের ‘অপসারণ’ অনুমোদন করে দেওয়ায় তা এখন হাউস অব ...

 কল্যাণী থেকে নিজস্ব প্রতিনিধি: ট্রাউকে হারিয়ে ২২ ডিসেম্বর ডার্বি নিয়ে চিন্তাভাবনা শুরু করে দিলেন ইস্ট বেঙ্গল কোচ আলেজান্দ্রো। শনিবার কল্যাণী স্টেডিয়ামে ম্যাচের পর স্প্যানিশ কোচ বলেন, ‘এরপর আমরা সল্টলেক স্টেডিয়ামে খেলব। এই মাঠ আমার খুবই পছন্দের। ...

সংবাদদাতা, কাঁথি: জমির রেকর্ড নিজের নামে না থাকায় চাষিদের অনেকেই বুলবুলের ক্ষতিপূরণ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এনিয়ে কৃষক মহলে তীব্র ক্ষোভ ছড়িয়েছে। এই পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়ে রাজ্যের কৃষিমন্ত্রীর কাছে চিঠি দিল পূর্ব মেদিনীপুর জেলা কৃষক সংগ্রাম পরিষদ।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
aries

পিতার স্বাস্থ্যহানী হতে পারে। আর্থিক ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় অর্থের অভাব হবে না। পঠন-পাঠনে পরিশ্রমী হলে সফলতা ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

আন্তর্জাতিক চা দিবস
১৮৭৭- টমাস এডিসন ফোনোগ্রাফের পেটেন্ট নিলেন,
১৯০৮- রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের স্বামী রঙ্গনাথানন্দের জন্ম,
১৯৫০- সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের মৃত্যু,
১৯৭৬- ফুটবলার বাইচুং ভুটিয়ার জন্ম





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৮০ টাকা ৭১.৪৯ টাকা
পাউন্ড ৯৩.৪৩ টাকা ৯৬.৮০ টাকা
ইউরো ৭৭.৪৪ টাকা ৮০.৪৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
14th  December, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮, ৪৫৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬, ৪৮৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭, ০৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৪, ০০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৪, ১০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, তৃতীয়া ২/৪৫ দিবা ৭/১৮ পরে চতুর্থী ৫৮/২৫ শেষরাত্রি ৫/৩৫। পুষ্যা ৫৪/৩০ রাত্রি ৪/১। সূ উ ৬/১২/৩৫, অ ৪/৫০/১৭, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৪ গতে ৯/১ মধ্যে পুনঃ ১১/৫২ গতে ২/৪২ মধ্যে। রাত্রি ৭/৩০ গতে ৯/১৭ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৮ গতে ১/৪৪ মধ্যে পুনঃ ২/৩৮ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ১০/১২ গতে ১২/৫১ মধ্যে, কালরাত্রি ১/১১ গতে ২/৫১ মধ্যে। 
২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, তৃতীয়া ৫/৩৫/৫৭ দিবা ৮/২৮/৫০। পুনর্বসু ১/১৯/৩২ প্রাতঃ ৬/৪৬/১৬ পরে পুষ্যা ৫৮/৫৩/৩৭ শেষরাত্রি ৫/৪৭/৫৪, সূ উ ৬/১৪/২৭, অ ৪/৫০/২৪, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪ গতে ৯/১১ মধ্যে ও ১২/১ গতে ২/৫১ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৩৯ গতে ৯/২৬ মধ্যে ও ১২/৭ গতে ১/৫৪ মধ্যে ও ২/৪৭ গতে ৬/১৫ মধ্যে, কালবেলা ১১/৩২/২৬ গতে ১২/৫১/৫৫ মধ্যে, কালরাত্রি ১/১১/৫৬ গতে ২/৫৩/২৬ মধ্যে। 
মোসলেম: ১৭ রবিয়স সানি 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
প্রথম একদিনের ম্যাচ: ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৮ উইকেটে জিতল 

09:55:39 PM

প্রথম একদিনের ম্যাচ: ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২৩২/২ (৪০ ওভার) 

09:12:17 PM

প্রথম একদিনের ম্যাচ: ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১৬১/১ (৩০ ওভার) 

08:23:30 PM

মাথাভাঙায় জলাশয় থেকে পচাগলা দেহ উদ্ধার 

08:10:00 PM

প্রথম একদিনের ম্যাচ: ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৯৩/১ (২০ ওভার) 

07:37:24 PM

প্রথম একদিনের ম্যাচ: ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪৫/১ (১১ ওভার) 

07:02:38 PM